নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

বাধা বিঘ্ন না পেরিয়ে বড় হয়েছে কে কবে?

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

আরাম না ব্যারাম কিনবেন?

১০ ই জুন, ২০১৮ রাত ৯:০১

মিলওয়ার্ড ব্রাউন হলো পৃথিবীর শীর্ষ স্থানীয় ব্রান্ড গবেষণা সংস্থা,
.
যারা পৃথিবার বিভিন্ন ব্রান্ডের উপর ৫০টির ও বেশী দেশে প্রায় ২০০০ গবেষণা পরিচালনা করেছেন!
.
গুগুল, অ্যাপল, ইউটিয়ুব, ফেসবুক, অ্যামাজন থেকে শুরু করে হালের লাক্স, প্যারাসুট, ফেয়ার এন্ড লাভলী, ম্যাগী নুডুলস্, মিল্ক বিটা, হরলিক্স, ওয়ালটন কোন কিছু তাদের গবেষণা থেকে বাদ যায় না!
.
তাদের গবেষণা পৃথিবী ব্যাপী এতো গ্রহণযোগ্য যে ম্যাকডোনাল্ডকে যখন তারা এক নম্বর খাবারের ব্রান্ড ঘোষণা করে তখন ব্যাপক চাহিদার পাশাপাশি তার শেয়ারের বাজার এক পঞ্চমাংশ বৃদ্ধি পেয়েছিলো,
.
এখন তো ঈদের মৌসুম তাই আমার জানা মতে আড়ং, অঞ্জনস এবং ক্যাটস আই'কে মিলওয়ার্জ ব্রাউন সেরা দেশীয় ফ্যাশন হাউজ ঘোষণা করেছিলো
.
তাই বাংলাদেশ ব্যান্ড ফোরাম যা বিবিএফ নামে খ্যাত তারা ব্রান্ডগুলোকে গর্বের সহিত পুরষ্কৃতও করেছিলো!
.
তবে যা ই পড়েন না কেনো জুতোটা অবশ্যই ভালো ব্রান্ডের এবং আরামদায়ক পড়া উচিত,
.
এই প্রসঙ্গে ডা. বাজাজ বলেছিলেন, 'ভালো ব্রান্ডের জুতা ব্যবহার করা উচিত কেননা এরা নানা গবেষণার মাধ্যমে জুতা তৈরি করে থাকে।'
.
মেয়েদের নিয়ে বিশ্বনন্দিত অভিনেত্রী মেরিলিন মনরর বলেছিলেন, 'একজন মেয়েকে ঠিক জুতা দিলে, সে বিশ্ব জয় করতে পারবে!'
.
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় স্কুলে আমাদের শাস্তিস্বরূপ পা'য়ের আঙ্গুলের উপর ভর দিয়ে কান ধরে দাঁড়িয়ে থাকতে বলতো,
.
পূর্ব কষ্টের অভিজ্ঞতা থেকে মনে হয়, যে মেয়েরা হাই হিল পড়ে হাট বাজার ঘাট মাঠে সাবলীলভাবে চলাফেরা করতে পারে তাদের ঠিক জুতো দিলে এশিয়া কাপের ফাইনাল জেতা আমার মতে কোন ঘটনা না!
.
আমি সন্দ্বীপে দেখেছি কিভাবে একটি মেয়ে হাই হিল পড়ে বাঁশের সাঁকো পারাপার করেছিলো,
.
তবে ভেনিসে কাদার হাত থেকে সুন্দর জুতোগুলো রক্ষা করার জন্য হাই হিল ব্যবহার করা শুরু হয়েছিলো এমন কি তৎকালীন চপিন নামক জুতোর হিল ছিলো প্রায় ২৪ ইঞ্চি,
.
তারপর পতিতারা নিজেদের কে অন্যদের চেয়ে লম্বা কিংবা খদ্দেরকে আকৃষ্ট করতে বড় হিলের জুতো ব্যবহার করা শুরু করে
.
তবে ইতিহাস বলে হাই হিল পড়া মূলত পুরুষরা প্রথমে শুরু করেছিলো,
.
ফ্রান্সের চর্তুদশ লুইসের উচ্চতা ছিলো ৪ ফুট ৪ ইঞ্চি আর সেই জন্য তিনি ৪ ইঞ্চি হিলের জুতা পড়তেন!
.
বর্তমানে মূলতো ফ্যাশন এবং নিজেকে একটু লম্বা দেখানোর মানসে হাই হিলের জুতো পড়া হয় যার কারণে যে কেউ যে কোন সময় পঙ্গুত্ব বরণ করতে পারেন
.
ইউনিভার্সিটি অব ক্যালিফোর্নিয়া’র অস্থিরোগ বিশেষজ্ঞদের মতে গোড়ালি, হাঁটু ও কোমর ঠিক রাখতে মেয়েদের হাই হিলের জুতো পড়া থেকে বিরত থাকা উচিত!
.
চাহিদা এতো বেশী যে পেন্সিল হিল, ব্যালেন্স হিল, কাটেন হিল, প্লাটফর্ম হিল, টি-স্টেপ পিপটন, স্টিলেটো, কিটন, কৌনসহ এক ডজন হিলের উদ্ভব ঘটেছে!
.
ইংরেজীতে একটি প্রবাদ আছে, জীবন পরিবর্তনের সাথে সাথে জুতোও পরিবর্তন করো!
.
আরো একটি কথা আছে, ভালো জুতা আপনাকে ভাল জায়গায় নিয়ে যাবে!
.
আর ভালো জুতা বলতে বুঝায় আরামদায়ক জুতো এটা জুতো ক্রয়ের সময় আমাদের মাথায় থাকে না!
.
এক জোড়া নতুন জুতার আঘাতে গতবার আমার ঈদ নষ্ট হয়েছিলো এবার কিন্তু চান্দু সিরিয়াস......!

মন্তব্য ৪ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১০ ই জুন, ২০১৮ রাত ১০:৫২

রাজীব নুর বলেছেন: হুম।

২| ১০ ই জুন, ২০১৮ রাত ১১:১৩

কাইকর বলেছেন: ভালই

৩| ১১ ই জুন, ২০১৮ দুপুর ১২:৩৫

মোঃ ফখরুল ইসলাম ফখরুল বলেছেন: জুতা সমাচার ভাল লাগল, যা হোক আমি কিন্তু জুতা এবং চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় দুটোর সাথেই যুক্ত আছি ও ছিলাম B-)

৪| ২৪ শে জুন, ২০১৮ বিকাল ৫:৫৮

nahih09 বলেছেন: বিভিন্ন উক্তি তে আপনি জুতার কথা বলেছেন। আসলে উনার ভালো জুতা কথাটি রূপক অর্থে ব্যাবহার করেছিলেন।
যাই হউক, বরাবর আপনার লিখা ভালই লাগে, সাথে ফ্রী তে কিছু জ্ঞানার্জন ও হয়ে যায়।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.