নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

বাধা বিঘ্ন না পেরিয়ে বড় হয়েছে কে কবে?

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

সন্তান জন্ম দিয়ে দেশ বাঁচান

১৩ ই জুন, ২০১৮ বিকাল ৫:৪০

জাপানে প্রতি দশ জনে একজন একাকি মৃত্যু বরণ করে,
.
একটি রুমে মরে পচে গলে গন্ধ বের হলে লোকে জানতে পারে এই ঘরে একাকী বাস করা বৃদ্ধটি মারা গেছে!
.
পোকা মাকড় মশা মাছিতে ভরপুর এসব মৃত দেহ পরিষ্কারের জন্য জাপানে গড়ে উঠেছে সাফাই নামক অসংখ্য কোম্পানি,
.
মৃত্যুর আগে অনেক বৃদ্ধ এসব কোম্পানীর সাথে চুক্তি করে রাখেন যাতে তারা মৃত্যুর খবর পাওয়ার পর পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহণ এবং আত্মার শান্তির জন্য প্রার্থনা করবে
.
শান্তিতে মরা কত গুরুত্বপূর্ণ একটু খেয়াল করে দেখুন!
.
আধুনিক সমাজে সবচেয়ে বড় সমস্যা একাকীত্ব! বিয়ে করেও একা না করেও একা!
.
টাকা পয়সা বাড়ি গাড়ি সব আছে শুধু একাকীত্ব গোছানোর মানুষ নেই,
.
ছোট বেলায় আমাদের শোভাকলোণীতে দেখতাম মানুষ মানুষে কত একটা মেলামেশা ছিলো! এখন কিছু নেই! ঈদ কোরবানেও এখন আর সেই আমেজ নেই!
.
শহরের কথা কি আর বলবো! কাছে থেকেও যেনো অচেনা!
.
এক রিক্সা চালককে জনৈক লোক বলছে ভাই এখানে থেকে ওখানে কত কাছে চোখে দেখা যায় রাস্তা তুমি এতো ভাড়া বলছো কেনো!
.
রিক্সা চালক বললো, 'দেখা গেলে কি সবকিছুকে কাছে বলা যায়! চাঁদও তো দেখা যায় কিন্তু কত দূরে....!'
.
সত্যি ভাই মনে হচ্ছে খুব কাছাকাছি আছি কিন্তু সবাই কাছে থেকেও অনেক দূরে সরে গেছি আমরা!
.
ফেসবুকের চ্যাট খুললেই সব আপন বন্ধুরা নীল হয়ে জ্বলজ্বল করছে কিন্তু খবর নেওয়া হয় না কারণ এমন খবর নিয়ে কি হবে যে খবরে গায়ের গন্ধ পাওয়া যায় না!
.
পৃথিবী হাতে মুঠোয় চলে আসছে কিন্তু হাতের দৈর্ঘ্য এতো বেশী যে প্লেন দিয়েও এপাশ থেকে ওপাশ খুঁজে পাওয়া যাচ্ছে না!
.
আমি এখন সমাজে একাকী মরে যাওয়া বাবাগুলোকে দেখি যারা মরে যাওয়ার খবরে তার সন্তানরা দেশে আসতে পারে না,
.
ইউরোপ ল্যাটিন আমেরিকার কোন দেশ থেকে ভিডিও কলে বাবা শেষকৃত্য দেখে জন্মদাতার বিদায় অবলোকন করে!
.
জীবন এখন দেখা যায় কিন্তু ছোঁয়া যায় না!
.
কিছুদিন আগে অভিনেত্রী তাজিনের একাকী মৃত্যু ভাইরাল হয়েছিলো,
.
এক দিন মরে গিয়ে কঙ্কাল হয়ে থাকবো আমরাও..... কারণ পরিবার ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে!
.
চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে অর্থনীতির ক্লাশে শ্রদ্ধেয় মঈনুল ইসলাম স্যারের কথা মনে পড়ছে, পৃথিবীর সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ইন্ডাস্ট্রী হলো পরিবার!
.
যা ভেঙ্গে গেলে দেশও একদিন ভেঙ্গে যাবে!
.
পৃথিবীর উন্নত দেশগুলোতে এখন একটি সন্তান মানে একটি দেশ বাঁচার আশা,
.
আমাদের দেশে যেমন 'গাছ লাগান পরিবেশ বাঁচান' স্লোগান চলছে তেমনি ওদের দেশে 'সন্তান জন্ম দিয়ে দেশ বাঁচান' অবস্থা!

মন্তব্য ৯ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৯) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই জুন, ২০১৮ বিকাল ৫:৫৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিশ্বে প্রায় ৮ বিলিয়ন মানুষ, তারপরও শতে ২০ জন মানুষ একা; সন্দ্বীপের অবস্হা কি রকম?

১৩ ই জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:০৩

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: ভাইজান কেমন আছেন? সন্দ্বীপ তো গ্রাম তাই এখনো অনেকটা একতা আছে তবে তা ভিলেজ পলেটিক্সের কারণে ম্লান

২| ১৩ ই জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১০

রসায়ন বলেছেন: বাংলাদেশে মানুষের অভাব নেই। যা আছে তো ছিলোই এর সাথে যুক্ত হয়েছে দেড় মিলিয়ন রোহিঙ্গা !!!

এনিওয়ে, পশ্চিমাদের পরিবার ভাঙা নিয়ে ঢাবিতে আমাদের ক্লাসে একদিন স্যার একটি কথা বলেছিল। পশ্চিমারা তাদের অভ্যন্তরীন বাণিজ্য শক্তিশালী করতে ক্ষুদ্র পরিবারের কনসেপ্ট প্রচলন করে। যেমন , আট জনের একটি যৌথ পরিবারে জন্য একটি সাবান , একটি টুথপেস্ট , একটি একটি করে আইটেম কিনলেই হলো কিন্তু আটজনকে আলাদা করে দিতে পারলে আটটা করে জিনিস আটজনের কাছে আলাদা বিক্রি করা যাবে। এই কাজ করতে যেয়ে তাদের ইন্টারন্যাল ইকোনমি ভালো হয়েছে ঠিকই কিন্তু সামাজিকীকরণ একদমই হুমকির মুখে পড়ে গেছে।

৩| ১৩ ই জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১১

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: মানুষের একাকীত্ব সবচেয়ে কষ্টকর অভিজ্ঞতা।

৪| ১৩ ই জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:১৭

একাল-সেকাল বলেছেন: প্রত্যেকটি ক্রিয়ার একটি সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে- প্রমানিত সত্য

৫| ১৩ ই জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:২৮

লর্ড অফ দ্য ফ্লাইস বলেছেন: আমরাও জাপানিদের পথে হাটছি। অফিসে কাজের চাপ বাড়ছে। পরিবারকে সময় দেয়া যাচ্ছে না। ডিভোর্স বাড়ছে। যে গতিতে চলছে তাতে বিশ ত্রিশ বছর পরেই আমাদের সমাজ ব্যবস্থায় ধ্বস নামবে।

৬| ১৩ ই জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৩১

কাইকর বলেছেন: ভাল তথ্য জানতে পাড়লাম

৭| ১৩ ই জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩৭

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন: একাকীত্ব বোধে বাড়ে মৃত্যুঝুঁকি
গবেষণা বলছে, যেসব পুরুষ কিংবা নারী একাকীত্ব বোধ করে তাদের নানা ধরনের মানসিক সমস্যা, হৃদরোগ সম্পর্কিত জটিলতা সৃষ্টি হয়। গবেষণা বলছে, যারা একা থাকে তাদের চেয়ে যাদের মধ্যে একাকীত্ব বোধ বেশি তারা তুলনামুলকভাবে বেশি মৃত্যু ঝুঁকিতে রয়েছে। একাকীত্ব বোধ হলে তারা উদ্বেগ ও হতাশায় ভোগে। তারা জীবনকে উপভোগ করতে পারে না।

এ ব্যাপারে কোপেনহেগেন ইউনিভার্সিটি একজন গবেষক অ্যানি ভিনগার্ড বলেন, 'একাকীত্ব বোধ অকাল মৃত্যুর অন্যতম কারণ। এটা মানসিক স্বাস্থ্য একদম ভেঙ্গে দেয়। এ ধরনের মানুষ জীবন ঠিকমতো উপভোগ করতে পারে না। তাদের মধ্যে হৃদরোগের ঝুঁকিও বাড়ে।'

একাকীত্ব দূর করার কিছু সহজ নিয়ম
মেলামেশা
ঘর থেকে বাহিরে যান এবং কিছু বন্ধুদের সাথে দেখা করুন, বা কিছু নতুন বন্ধু করুন। বোরোডম প্রায়ই সামাজিক শক্তির অভাব ছড়িয়ে দিতে পারে এমনকি যদি আপনি নতুন ব্যক্তিদের সাথে দেখা করতে এবং আপনার বন্ধুদের ব্যস্ত না দেখতে পান, তবে আপনি অনলাইনে বিভিন্ন মার্কেট করতে পারেন।
আপনার একাকীত্ব বন্ধ রাখা
আপনার দৈনন্দিন কাজের তালিকাটা দেখুন ।আপনি প্রতিশ্রুতি নিন যেন আপনার দৈনন্দিন কাজের তালিকার মধ্যে একটি মজার কাজ পূরণ করবেন ।
নতুন কিছু শেখার চেষ্টা করুন
সম্ভবত আপনার জীবনে কিছু মানসিক উদ্দীপনার প্রয়োজন । এখানে কিছু পদ্ধতি রয়েছে যা আপনি দ্রুত শুরু করতে পারেন:
বই পড়া
অনলাইনের কোন আলোচিত বিষয় নিয়ে গবেষণা করা
গল্প লেখা
অথবা ফটোশপ এ পারদর্শী হলে তা করা
জার্নাল
একটি ওয়ার্ড ডকুমেন্ট ফাইল খুলুন এবং লেখা শুরু করুন। এটি ধ্যানের সাথে একইভাবে কাজ করে, যদিও এটি আরো সক্রিয় এবং কম কল্পনাপ্রবণ হয় ।
নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহন করুন
দৈনন্দিন নতুন চ্যালেঞ্জ গ্রহন করুন এবং সেই চ্যালেঞ্জ পুরনে নিজের সর্বাত্মক চেষ্টা চালিয়ে যান।

৮| ১৪ ই জুন, ২০১৮ সকাল ১০:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: একটা জায়গায় আর্জেন্টিনা সবসময় ব্রাজিল থেকে এক শূন্য গোলে আগায় থাকবে সেটা হলো উচ্চারণের দিক দিয়ে। আর্জেন্টিনা সাপোর্টাররা যেমনই হোক তারা আর্জেন্টিনা উচ্চারণটা ঠিকঠাক মতোই করে কিন্তু আমি বহুত ব্রাজিল সাপোর্টারকে দেখছি তারা ব্রাজিল কে বলে ব্রারজিল, বারজিল, বেরাজিল!

কি অদবোত!

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.