নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

চাকুরী সংসার স্কুল বাচ্চা সব মিলিয়ে সময় আমাকে চিবিয়ে খায়। অনেকের পোস্টে তাই মন্তব্য করতে পারি না সরি। নিজের পোস্টের উত্তর দিতে দেরী হয় সেজন্যও সরি।

কাজী ফাতেমা ছবি

সর্বস্বত্ব সংরক্ষিত। লেখকের অনুমতি ব্যতীত যে কোন কবিতা, গল্প, ছড়া, রম্য ইত্যাদি সাহিত্যকর্ম যে কোন গনমাধ্যমে যেমনঃ-ম্যাগাজিন, ফেসবুক, ব্যক্তিগত ব্লগ, সামাজিক মাধ্যম, পত্রিকা ও ওয়েবসাইটে প্রকাশ নিষিদ্ধ। বাংলাদেশ কপিরাইট আইন, ২০০০ লংঘন একটি শাস্তিযোগ্য ও দণ্ডনীয় অপরাধ। কপি পেস্ট-ভ্রমরের ডানা”

কাজী ফাতেমা ছবি › বিস্তারিত পোস্টঃ

» একেকটি ছবিই আমার কবিতার শিরোনাম......(ছবি ব্লগ+কবিতা)

১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:৫৫

একটি ধৈর্য্যের পোস্ট পরিবেশনা করেছেন একজন অকবি কাজী ফাতেমা ছবি............... দু:খিত -কষ্ট করে পড়ার জন্য অগ্রিম ধন্যবাদ।

১।


©কাজী ফাতেমা ছবি
আচ্ছা তুমি কি সবুজ ভালবাসো? প্রকৃতি? পাহাড়-নদী?
যেথায় উছলায় সুন্দর-ছলাৎ ছলাৎ জল বয়ে যায় নিরবধি!
তুমি কি প্রজাপতি ভালবাসো-ফড়িং কিংবা উড়ন্ত পাখি
আহা রংধনু রং ছড়িয়ে ডানায়-ইচ্ছে সেথায় দিবানিশি দৃষ্টি রাখি।
আচ্ছা তুমি কি ফুল ভালবাসো? অর্কিড শিউলী বেলী কিংবা বকুল
ঝরে যেথায় মাতাল ঘ্রাণ, ছড়ানো আহা ভালবাসার মুকুল।
ঝরা পাতার কাব্য চিনো-বাজে যেথায় রুনুঝুনু নুপূর
আচ্ছা তুমি কি কখনো দেখেছিলে রোদ্দুর ভরা কোনো এক উদাস দুপুর?
তালপুকুরের জলের আয়নায় দেখেছিলে আকাশ ছবি?
আচ্ছা তুমি কখনো মুগ্ধতা ছুয়েঁ, ছন্দ সুরে হয়েছো কি কবি?
হেঁটেছিলে মেঠোপথে সবুজ ধারে আলে আলে
হেমন্তের শিশিরমাখা পথ হেঁটে
আঙ্গুলের ডগায় শিশির বিন্দু-মেখেছিলে গালে?
ফুল দেখেছো? রং দেখেছো-পেঁজাতুলো মেঘ দেখেছো
কখনো কি মনের মাঝে মুগ্ধতার স্বপ্ন একেঁছো?
বুকের বামে কখনো কি সুর উঠেছে-পাখির সুরে ফুলের সুরে ভ্রমর সুরে
কখনো কি স্রষ্টার সুন্দর গায়ে মেঘে-থেকেছিলো সুখের ঘোরে?
এসব কিছু তোমার ধাতে নেই কি? তুমি কি-গো পাথর মানুষ
কেবল তুমি উড়াও বুঝি, মন আকাশে কড়ির ফানুস।
একদিন এসো দিবো তোমায় মুগ্ধতা সব-বুক পকেটে-নিয়ে যেয়ো
ইচ্ছে হলে সেদিন তুমি এই আবেগীর মনটা চেয়ো (ক্যানন ৬০০ডি)
#একবার_মুগ্ধ-হও
===============================================
২।


©কাজী ফাতেমা ছবি
হৃদয়ের রাজপ্রাসাদের রাজা তুমি-সাজিয়েছি প্রেম ফুলে মহল
এখানে সুখ সুরের অনুরণন-ভ্রমর প্রজাপতিরা দিচ্ছে টহল
তুমি এসো- প্রধান ফটকে পাহারায় আছে, ময়না তোতা টিয়ে পাখি
সাদর সম্ভাষনের প্রস্তুতি নিয়েছে গোলাপেরা- মুগ্ধ হবেই তোমার আঁখি।
এক চিলতে হাসি মেখে নিয়ো ঠোঁটে
হাসির চমকে দেখবে-বেলী বকুল আছে ফোটে।
রানীর মুকুটে সেজে বসে আছি অপেক্ষায়-সিঁড়ি যেনো সিংহাসন
উন্মাদ বেশে দেখে আমায় তুমি করো না একটু্ও শাসন,
আবেগের মূল্য যে পারে দিতে-সে বুঝে অনুভূতির মূল্য
বাহিরের রূপে মুগ্ধ হয় যে-সে কাপুরুষের সমতূল্য।
তুমি এসো-আছি দেখো তোমার দিকে হাত বাড়িয়ে
এবার না হয় যেয়ো আমায় নিয়ে দূরে কোথাও হারিয়ে।
কি আছে জীবনে বলো-এই রাজপ্রাসাদ সিংহাসন-সুখ কোথায়?
হুররাম হয়ে বাঁধতে চাই-না ক্ষমতা লোভের সূতায়.....
হত্যাযজ্ঞ পেরিয়ে চলো ফিরে যাই-যেখানে আছে মমতায় ভরা স্বার্থহীন মানুষ
সেথায় গিয়ে উড়াই মোদের ভালবাসার রঙ ফানুস।
অনুভবের দেউড়ি খুলে তুলে নাও আমায় হৃদবাড়িতে
তোমার জন্য রাজপ্রাসাদ বিত্ত বৈভব সব পারি ছাড়িতে।
#চলো_হারাই
=====================================================
৩।


©কাজী ফাতেমা ছবি
একটি ছাতা দুটি মাথা-আরে কি-যে বলি যা-তা
যেয়ো-না, রোদ্দুর খুব জ্বলে যাবে পুড়ে যাবে
চেয়ে দেখো-চুপসে গেছে তরু লতা পাতা।
এই ভাদ্রের ঝাঁঝাঁ রোদ্দুর দুপুর-তুমি হাঁটছো পথে একা
আমি ঠিক তোমার পিছন-পাচ্ছো না কেনো আমার দেখা?
তাকাও ফিরে তাকাও-এক আবেগী রঙবাহারী রঙ ছাতা হাতে
তোমার ছায়া হয়ে হাঁটছে অবিরত-এই যে তোমার সাথে।
এইশুনো না, না হয় ফেলে দিলাম ছাতা-চলো হাঁটি
পাশটি ঘেঁষে হাঁটবে? নগ্ন পায়ে, হোক না ইট সুড়কির মাটি।
তুমি হিমু হয়ে যাও-আমি রূপা-হলুদ গাঁদা রঙ ফতোয়া শাড়ি
চলো এই শরতের দুপুর রোদ্দুর-ঝাঁঝাঁ জ্বলা পথ দেই পাড়ি।
অহহো-সেই আনমনাই থেকে গেলে-তাকালে না ফিরে পিছু
যাও হেঁটে যাও- একাকিত্ব ছাড়া তুমি তো চাওনি আর কিছু।
আমি না হয় রইলেম পড়ে- দূর্বাঘাসের রোদ্দুর দুপুর পথের বাঁকে
বুঝলে না-গো বুঝলে না-মনোহারী ক্ষণ যায় চয়ে যায় আঙ্গুলের ফাঁকে।
#রঙবাহারীপ্রেম
==============================================
৪।


©কাজী ফাতেমা ছবি
একটি ঝাঁঝাঁ রোদ্দুর দুপুর-বেলা, দিবে কি আমায় দিবে কি?
রোদ্দুরঝরা একটি দিনে-তোমার সাথে নিবে কি আমায় নিবে কি?
এই শুনো না তুমি হবে হিমু আমার রূপা আমি সাজতে পারি
হিমু অলকানন্দা রঙ পাঞ্জাবী - আর রূপা হলুদ শাড়ী রঙবাহারী,
ছাতা ছাড়া হাঁটব পথে-হিমু রূপা পাশাপাশি-হও না রাজী!
চেয়ে দেখো ঐ হলুদ রোদ্দুর-ও হিমু বদ চলো না আজই!
সবুজ পাড়ের হলুদ শাড়ি-পরে সাজবে তোমার রূপা
তুমি হিমু থাকলে পাশে-জীবন রূপার হবে তোফা।
হিমু রূপা পাশাপাশি-আনন্দেতে ভাসাভাসি
বলবে হেসে কানে কানে-ও রূপাগো ভালবাসি।
আর করো-না তেড়িবেড়ি-টেনেহিঁচড়ে যাবো নিয়ে
মনটা তোমার নিবো আমি-জোরে বলে আজ ছিনিয়ে।
#এই_হিমু_হবে?
=======================================================
৫।


©কাজী ফাতেমা ছবি
মেঠোপথ ধরে হাঁটতে চেয়ে এই যে মিনতি ছিলো তোমার প্রতি
একটি দিন উড়তে চেয়েছিলাম মুক্ত হাওয়ায় হয়ে প্রজাপতি
অথচ তুমি বার বার ফিরিয়ে দাও
কর্মের বুকে থাকতে কি যে মজা পাও?
মনের দেউড়িটা রাখো বন্ধ
উঠে না মনে আর সুখ ছন্দ।
ব্যস্ততার ওজুহাতে দূরে থেকে বহুদূর ভেসে যাও-আসো না হায়!
একবার উঁকি দিয়ে দেখো-কি সুখ ছড়িয়ে আছে
মেঠোপথ আর গাছের ছায়ায়!
এসো এখান'টাতে-দেখে যাও সুখের সুপানে স্বস্তি অপেক্ষায় তোমার
তুমি আমি পিঠে পিঠ রেখে বসি-
দেখবে সুখে ঘটে যাবে এক কান্ড ধুন্ধুমার।
যেখানে আছে লাল বসনে দাঁড়িয়ে সভ্যতার নির্দশন
যেথায় বর্ষে চারিদিকে মোহনীয় সবুজের বর্ষন।
ভিজবে এসো-সবুজ বৃষ্টিতে-আলোর পথ ছুঁবে এসো
মোহাবেশে আটকে যাবে বলে দিলাম-কেবল হও ঘরের বাহির
এখানে ফুল-পাখিরা দিনভর করে যায় মুগ্ধতার জাহির!
সভ্যতার বুকে কিছুটা ক্ষণ তুমি আমি-এসো দেই কাটিয়ে
ভালবাসি বলি জোরে-কোকিল সুরে-নীল আকাশটা ফাটিয়ে।
কি আসবে? যাবে আমার সাথে?
একদিন হলুদ আলো ফোটা প্রাতে!
সবুজের গালিচায় নগ্ন পায়ে হেঁটে-মুগ্ধতা শিখাবো তোমায়-যদি চাও
নিমন্ত্রণপত্র ছেড়ে দিলাম পাখির ঠোটেঁ-প্লিজ লাগে হাতে তুলো নাও।
#চলো_হেঁটে_আসি_সবুজের_বুকে
=======================================================
৬।


©কাজী ফাতেমা ছবি
ঝুমকো জবার কানের দোল-তুমি আমায় দাও এনে দাও
তোমার জন্য ভালবাসা-মনে উথলায় নাও জেনে নাও!
সবুজ শাড়ি দিবে আমায়-লাল পেড়ে সে চুমকির সজ্জা
সামনে তুমি এলে শুনো-ঘুমটা টানবো পেলে লজ্জা!
ফুলের মূল্যে প্রেম দিবো গো-মনটা আমার নাও বুঝে নাও
অনুভূবে আছো তুমি-ভালবাসা নাও খুজেঁ নাও ।
হলুদ গাঁদার শাড়ি পড়ে-এই দেখো-না আজি সেজে
দাঁড়িয়েছি পথের বাঁকে-দুপুর রোদ্দুর জ্বলছে তেজে!
ঝুমকো জবা মন যে আমার-যায় চুপসে যায় রোদের তাপে
যদি তুমি না আসো গো-মন যে আমার ভয়ে কাঁপে।
চিরসবুজ অবুঝ এই মন-দিয়ো না গো ভেঙ্গেচুঁড়ে
আমায় ছেড়ে আচম্বিতে-যেয়ো নাগো চলে দূরে।
ভালবাসি শুনো বাপু-ঝুমকো জবা রঙের মতন
নামটি মনের সবুজ পাতায়-রাখছি লিখে করে যতন।
দাও যদি দাও খোঁপায় গুঁজে-ঝুমকো জবা ফুলটি এনে
দেখবে তোমায় ভালবেসে-খুব করে নেই কাছে টেনে।
#দেবে_আমায়_ঝুমকো_জবা?
====================================================
৭।


©কাজী ফাতেমা ছবি
একটি উদাসী দুপুর হতে বিকেল অবধি চলো কাটিয়ে দেই দূর্বাঘাস গালিচায় গল্পের আসন পেতে। সারি সারি গাছের নিবিড় ছায়ার আলিঙ্গনে নিজেদের সঁপে দিই চলো-নরম হাওয়ার বুকে। চারিদিকে নিথর সময়-কেবল তুমি আমি গেয়ে যাবো কালের গান। সময় থেমে যাক এখানেই খানিকটা। আলো-ছায়ার চাদরে বসে চলো নিরিবিলি বুনি স্বপ্ন, আজ না হয় পাথর তুমি- শ্রাবণের নরোম হাওয়ায় গলে যাও।
আচ্ছা এত ব্যস্ত থেকে কিইবা পেলে শুনি
তুমি কেবল হলে আমার মুগ্ধতার খুনী।
আমি বৃষ্টি হই কখনোা হয়ে যাই তুমি শোকে কাতর
আর তুমি বাস্তবতার গা ঘেঁষে হও লোহা কিংবা পাথর।
গলে যাক না হয় আজ পাথর শ্রাবণের ধারায়-
সুর উঠেছে সুখের গো-কান পেতে শুনো মনের পাড়ায়
গলে যাও মাটি হও-নয় হয়ে যাও দূর্বাঘাস গালিচা-
স্বস্তি মনে না হয় আজ-আড্ডায় মাতি হাতে নিয়ে চা।
#একটি_দুপুর_দেবে_আমায়?

মন্তব্য ৬৮ টি রেটিং +১৫/-০

মন্তব্য (৬৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:২১

দিশেহারা রাজপুত্র বলেছেন: ছবিগুলান ভালো।

একটি উদাসী দুপুর হতে বিকেল অবধি চলো কাটিয়ে দেই দূর্বাঘাস গালিচায় গল্পের আসন পেতে।

লাইনটা ভালো লাগছে।

১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:২৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ ভাইয়া
ভাল থাকো
সুন্দর হোক জীবন

২| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:২২

শাহাদাৎ হোসাইন (সত্যের ছায়া) বলেছেন: আপনি ছবির সাথে কাব্য লিখেন। এই জন্য আপনি ছবি আপু।

ছবি সম্পর্কে আপনার বিশ্লেষণ অসাধারণ।

১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:২৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ ভাইয়া সুন্দর মন্তব্যের জন্য
ভাল থাকুন অনেক অনেক

৩| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:৩৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: কবিতার সাথে ছবি সুন্দর হয়েছে ।
শুভেচ্ছা রইল ।

১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:৩৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ আলী ভাইয়া
ভাল থাকুন অনেক অনেক

৪| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০০

ভ্রমরের ডানা বলেছেন: এত্ত গুলা ছবি সাথে আবার কবিতা... শোকেসে যাবেই আপু! খুব ভাল লিখেছে! সত্যি খুবই সুন্দর লাগল পড়তে। মনে সবুজরং একে দিলেন কবিতায়...

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ দুপুর ১২:৩৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ ডানা ভাই। উত্তর দিতে দেরী । ব্যস্ততার কারণে কিছুই পারি না আর
ব্লগিং করতে মন চায় কিন্তু হয়ে উঠে না

কারো লেখাই পড়তে পারি না :(

৫| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৪

মলাসইলমুইনা বলেছেন: আপনার পোস্টটা পড়তে গিয়ে দারুন সব ঝামেলা হলো | আহা ছবিটা চমৎকার ! কোথায় তোলা ফটোটা ? ফটোগুলো সুন্দর না কবিতাটা সুন্দর ? এতো ভাবনা মাথায় এলে কি আর কিছু পড়া যায় ভালো করে? এই ঝামেলাগুলোই সাংঘাতিক ঝামেলা করলো আপনার কবিতা পড়ার সময় | তবে বীরশ্রেষ্ঠের মতো এগিয়ে চলতেই মুগ্ধ | সবচেয়ে ভালো লেগেছে কবিতা #একবার_মুগ্ধ-হও (হ্যাশট্যাগ বাদ দিলে এটাই নিশ্চই কবিতার শিরোনাম ?)

"আচ্ছা তুমি কি কখনো দেখেছিলে রোদ্দুর ভরা কোনো এক উদাস দুপুর?
তালপুকুরের জলের আয়নায় দেখেছিলে আকাশ ছবি?
আচ্ছা তুমি কখনো মুগ্ধতা ছুয়েঁ, ছন্দ সুরে হয়েছো কি কবি?"

কত কিছু যে করা হলো না, হওয়া হলো না এই জীবনে ! আপনার প্রশ্নগুলোতেও না-ই রইলো উত্তর কিন্তু তবুও আপনার এই কবিতাটা প্রচন্ড কি ভালো লাগালো ? তার উত্তর বিরাট "হ্যা" হয়ে থাকলো | বিউটিফুল !

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:০২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি হ্যাশ ট্যাগে আছে কবিতার শিরোনাম -কবিতার নিচে
েএত সুন্দর মন্তব্য খুব ভাল লাগল

ভাল থাকুন অনেক অনেক শুভেচ্ছা সতত
উত্তর দেরীতে দেয়ায় দু:খিত

৬| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৯

সম্রাট ইজ বেস্ট বলেছেন: মন্তব্য নিষ্প্রয়োজন।

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: কিয়ো জি :(

আচ্ছা অনেক ধন্যবাদ পোস্টে আসার জন্য
ভাল থাকুন অনেক অনেক

৭| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


ছবিগুলো মনে আছে

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: জি
কার মনে আছে আমার নাকি আপনার
বুঝি নাই মন্তব্য
বুঝায় দেন গাজী ভাই

ধন্যবাদ পোস্টে আসার জন্য

৮| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫৬

নায়না নাসরিন বলেছেন: ছবি আপু আপনার ছবি আর কবিতা পরে মুগ্ধ ++++++++

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ নায়না আপি
ভাল থাকুন
সরি দেরীতে উত্তর
ব্যস্ততা খুব জীবনে

৯| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:০৮

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন:




ছবির সাথে কবিতা যেন গেছে লেপ্টে ! চমৎকার ।

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ কথা ভাইয়া
ভাল থাকুন
সরি লেট আনসার

১০| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২১

ফেরদৌসা রুহী বলেছেন: বাবারে বাবা এত কিছু একসাথে কিভাবে পারেন আপা।

ছবি সুন্দর, কবিতাও সুন্দর।

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:১০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: একটা একটা ছবি পোস্ট করি গ্রুপে তাই লেখা হয়ে যায় আপি

ধন্যবাদ আপি অনেক ধন্যবাদ ভাল থাকুন

১১| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫৪

ফয়েজ উল্লাহ রবি বলেছেন: :|
ছবির ছB ভালো হতেই হবে
কবিতা সেও ভালো সত্যি বলছে রB

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:১১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া
ভাল থাকুন অনেক অনেক

১২| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ৮:১৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: কাজী ফাতেমা ছবি ,




চারিদিকে নিথর সময়- কেবল আপনার সকল কবিতায় সব ছবিরা গেয়ে গেছে কালের গান। সময় থেমে গেছে যেন এখানেই খানিকটা।

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:১২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ জী ভাইয়া

সুন্দর মন্তব্য অনুপ্রেরণা হয়ে থাকে সঙ্গে। ভাল থাকুন
শুভেচ্ছা সতত
সরি লেট আনসার

১৩| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ৮:৩৬

আমার আব্বা বলেছেন: সুন্দর

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:১৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ আপনের আব্বা
ভাল থাকুন অনেক অনেক

১৪| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ৯:১৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: এইটা কেম্নে যে এত কবিতা লিখে!!!

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:১৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: গালি দেন কা ভাল হইতো নো কইলাম

ধন্যবাদ লিটন ভাইয়া
ভাল থাকুন
সরি লেট আনসার

১৫| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১০:০৭

সোহানী বলেছেন: আরে দারুনতো...++++

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:১৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ সোহানীপা
ভাল থাকুন অনেক অনেক
ভালবাসা রইল

১৬| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:০৮

মনিরা সুলতানা বলেছেন: সবুজ ছবি রংধনু কথামালা !!!
দারুন যুগলবন্দী !!!!

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ আপা ভাল থাকুন

১৭| ১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:৫১

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: আহ! মুগ্ধকর প্রতিটি কাব্য।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৫

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ নয়ন ভাইয়া

১৮| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:৩১

প্রামানিক বলেছেন: ছবি লেখা ভালো লাগল। ধন্যবাদ

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ ভাইয়া
ভাল থাকুন

১৯| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:৩৩

মো: নিজাম গাজী বলেছেন: তুমি কি প্রজাপতি ভালবাসো-ফড়িং কিংবা উড়ন্ত পাখি
আহা রংধনু রং ছড়িয়ে ডানায়-ইচ্ছে সেথায় দিবানিশি দৃষ্টি রাখি।

দারুন লেখনি+ছবি ব্লগ। চালিয়ে যান প্রিয় কবি। শুভকামনা আপনার তরে।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া সুন্দর মন্তব্যে অনুপ্রাণিত হলাম
ভাল থাকুন সাথেই থাকুন

২০| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:৪০

জীবন সাগর বলেছেন: সবগুলো কাব্যই খুব ভালো লাগলো পড়ে।
ছবিগুলোও চমৎকার

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ অনেক ভাল থাকুন

২১| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১:০০

ইসমাঈল আনিস বলেছেন: উষ্ণ আবেগগুলির তরে স্যালুট৷

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া ভাল থাকুন

২২| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ ভোর ৪:০৩

উম্মে সায়মা বলেছেন: ওয়াও আপু ছবিগুলো দেখে মুগ্ধ! কবিতাও সুন্দর হয়েছে :) আর ইউনিক শিরোনামে ভালো লাগা.......

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অসংখ্য ধন্যবাদ আপি

ভাল থাকুন সুন্দর থাকুন শুভেচ্ছা

২৩| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ ভোর ৫:৪৯

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: প্রত্যেক ছবিতার সাথে এতো কবিতা! কেম্নে পারেন আপু?

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৭

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হয়ে যায় ভাইয়া এমনি এমনি

ধন্যবাদ অনেক অনেক

২৪| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ দুপুর ২:০৭

নতুন নকিব বলেছেন:



ছবিগুলো চমকপ্রদ!

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ নকিব ভাইয়া
ভাল থাকুন অনেক অনেক

২৫| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ দুপুর ২:৫৭

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: কবিতাও ছবি উভয় বেশ চমৎকার।

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া ভাল থাকুন

২৬| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:৫৫

কামরুজ্জামান শুদ্ধ বলেছেন: ভালতো

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধন্যবাদ শুদ্ধ ভাইয়া
ভাল থাকুন

২৭| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৬

রুলীয়াশাইন বলেছেন: অবশ্যই সুন্দর

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ আপনাকে ভাল থাকুন

২৮| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৬

MirroredDoll বলেছেন: first one is the best one

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:২৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপনাকে
ভাল থাকুন অনেক অনেক

২৯| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪৬

তারেক ফাহিম বলেছেন: কাজি ফাতেমা ছবি আপুর নামের শেষাংশ “ছবি” মনে হয় এ জন্যই হয়েছে।

ছবির বিশ্লেষণ খুব ভালো করে দিতে পারেন আপুমনি।

ছবির সাথে বিশ্লেষনের জুড়ি নেই। অনেক সুন্দর হয়েছে।
এই ধরনের ভাবনা আপুমনি কোথা থেকে আসে??

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:১৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: মন থেকেই আসে- দীর্ঘশ্বাস েথকে আসে কষ্ট থেকে আসে
সর্বোপরী কল্পনা থেকে আসে হাহাহাহ

অনেক ধন্যবাদ সুন্দর করে উত্তর দেয়ার জন্য

৩০| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:০৯

ঈপ্সিতা চৌধুরী বলেছেন: বাব্বা!! দারুণ সব ছবি আর কবিতা!!

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:১৪

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ আপি ভাল থাকুন অনেক অনেক
ভালবাসা আর শুভেচ্ছা রইল

৩১| ১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ দুপুর ১২:১৯

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুন্দর ছবিতা +।

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ দুপুর ১২:২৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ ভাইয়া। ভাল থাকুন

৩২| ১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ দুপুর ১:২২

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: বেশির ভাগ কবিতাতেই সাবজেক্টিভিটি পেলাম, পেলাম পারসোনাল ইমোশন!!:)


এক নম্বর কবিতাটা বেশি ভালো লেগেছে! ওটা বেশি মনোযোগ দিয়ে পড়েছি কারনা এইটা কিনা জানিনা তবে অন্যগুলো অবশ্য ভালো হয়েছে!:)


পোস্টে ++

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:৫৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: হাহাহাহ হতে পারে
যাই হোক না কেনো এক ফুটা ভাল লাগলেই আমার কষ্ট স্বার্থক হয় ভাইয়া

অনেক ধন্যবাদ সুন্দর মন্তব্য প্রদান করার জন্য
ভাল থাকুন অনেক অনেক

৩৩| ১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:৩১

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন:

আপা, এ পোষ্টে আমার মন্তব্যটা কি চুরি হয়ে গেল !!! :)


১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:৪৮

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: তাই নাকি কোথায়কবে কেনো কিভাবে হাহাহাহাহ না মনে হয়

৩৪| ২৪ শে অক্টোবর, ২০১৭ সকাল ১০:২২

শাহানাজ সুলতানা বলেছেন:
মাননিকা-১১
-হ্যালো
-হ্যালো মানবিকা।
-বহুদিন পর তোমার ফোন
নিঝুম, আজ সকালটা সম্পূর্ণ অন্যরকম তাই না?
-হুম।
-হুম কি?
-হুম মানে হুম।
-ধ্যাৎ ভাললাগেনা হুম, হ্যাঁ ছাড়া আর কিছু বলার নেই!
-কালো মেঘ কেটে গেলে... এমন সুন্দর হয় আকাশ।
-কোথায় তুমি?
- তোমার ঘরের দ্বার গোড়ায়,
-সত্যি?
-দরজা খুলেই দেখো।
-বিশ্বাস হচ্ছে না।
-আচ্ছা, তুমি কি সবুজ ভালবাসো না নীল? প্রকৃতি? পাহাড়-নদী?
যেথায় পাহাড়ের বুক উছলায়
সুন্দর-ছলাৎ ছলাৎ জল বয়ে যায় নিরবধি!
-হ্যাঁ বাসিত।
-প্রজাপতি ভালবাসো-ফড়িং, উড়ন্ত পাখি কিংবা মাছেদের ট্রাপিজি?
-আহা রামধনু রং ছড়িয়ে ডানায়
ইচ্ছে সেথায় তোমার চোখে দিবানিশি দৃষ্টি রাখি।
আচ্ছা তুমি কি ফুল ভালবাসো?
-খুব ভালোবাসি
- কি ফুল তুমি ভালোবাস, শিউলী বেলী বকুল অর্কিড?
ঝরে যেথায় মাতাল ঘ্রাণ, ছড়ান ভালবাসার মুকুল।
ঝরা পাতার কাব্য চিনো-বাজে যেথায় রুমঝুম বেদনার নুপূর?
-চিনিতো। আর তাই তো ছুটে আসি তোমার সব ব্যথা মুছে দিতে।
-আচ্ছা তুমি কি কখনো সোনালী ভোর দেখেছ
কিংবা রোদ্দুর ভরা কোনো এক উদাস দুপুর?
-দেখেছি, দেখেছি পদ্ম দীঘির স্বচ্ছ জলের আয়নায় আকাশ ছবি আর...
-আর...!
-আর একটা মুখের অবয়ব,
মানবিকা, তুমি কখনো মুগ্ধতা ছুয়েঁ, ছন্দের নূপুর হয়েছো কি?
হেঁটেছিলে মেঠোপথে সবুজ ধারে আলে আলে
হেমন্তের শিশির সিক্ত পথে?
- হ্যাঁ, হেঁটেছি,
জানো নিঝুম, একটি হাতে হাত রেখে রোজ
আঙ্গুলের ডগায় তুলতুলে শিশির মাখি আর একটি চোখে রাখি চোখ।
-তাই বুঝি, তো সেই আঙ্গুকের মালিক কে জানতে পারি কি?
-তোমাকে বলবো কেন?
-আমি ছাড়া আর কে আছে তোমার?
- আছে ওই সুনীল আকাশ, মুক্ত বাতাস, সবুজ উদ্যান,
-আমার থেকে ওদের বুঝি বেশি ভালোবাসে?
-ধ্যাৎ কি যে বলো না,
-কি হলো লজ্জায় যে নীল হলো মুখ?
-নিঝুম, তুমি ফুল দেখেছো, রং দেখেছো-জামকালো মেঘ দেখেছো
কিন্তু কখনো কি কারো মনের ঝড় দেখেছো?
বুকের বামে কখনো কি সুর উঠেছে বেজে তোমার মানবিকার?
পাখির সুরে ফুলের সুরে ভ্রমর সুরে
কখনো স্রষ্টার সুন্দর গায়ে মেঘে- ছবি এঁকেছ সুখের ঘোরে?
-এসব কিছু আমার ধাতে নেই কি।
-তুমি কি-গো পাথর মানুষ?
-কেবল উড়াই মন আকাশে কড়ির ইচ্ছের ফানুস,
আজ বিদায় দাও। ফের একদিন এসে দেখাব তোমায় মুগ্ধতা
আর বুক পকেটে-নিয়ে যাব তোমার হৃদয় নিংড়ানো সব ভালোবাসা
যদি ইচ্ছে হয় সেদিন আমার আবেগীর মনটা বেঁধে রেখো মানবিকা।

বিঃদ্রোঃ মানবিকা শিরোনামে কবিতা আমি দীর্ঘ দিন ধরে লিখছি। নিঝুম আমার বন্ধুর নাম, ওকে ঘিরেই আমার "মানবিকা" কবিতা সব। দীর্ঘদিন মান অভিমানের পর মাত্র কয়েক দিন আগে ভোরে আমার ফোন বেজে ওঠে। নাম্বারটা ছিলো নিঝুমের। ও আমার দরজায় এসে আমাকে ফোন দিয়েছিলো। ওর আশা এবং চলে চাওয়াকে ঘিরে আমার মানবিকা-১১ শিরোনামে কবিতা। এই কবিতাটি কবি কাজী ফাতেমা ছবির কবিতার কোন কবিতার সাথে সাদৃশ্য মিথ থেকে থালে তবে আমি আন্ত্রিক ভাবে দুঃখীত। আমি কবি কাজী ফাতেমা ছবিকে চিনিনা। উনার কবিয়াও আমার চোখে পড়েনি কখনও। আজ কোন চামচার কমেন্টসের জের ধরে এখানে আমার পদার্পণ। ) ধন্যবাদ সবাই কে


মাননিকা-১১
-হ্যালো
-হ্যালো মানবিকা।
-বহুদিন পর তোমার ফোন
নিঝুম, আজ সকালটা সম্পূর্ণ অন্যরকম তাই না?
-হুম।
-হুম কি?
-হুম মানে হুম।
-ধ্যাৎ ভাললাগেনা হুম, হ্যাঁ ছাড়া আর কিছু বলার নেই!
-কালো মেঘ কেটে গেলে... এমন সুন্দর হয় আকাশ।
-কোথায় তুমি?
- তোমার ঘরের দ্বার গোড়ায়,
-সত্যি?
-দরজা খুলেই দেখো।
-বিশ্বাস হচ্ছে না।
-আচ্ছা, তুমি কি সবুজ ভালবাসো না নীল? প্রকৃতি? পাহাড়-নদী?
যেথায় পাহাড়ের বুক উছলায়
সুন্দর-ছলাৎ ছলাৎ জল বয়ে যায় নিরবধি!
-হ্যাঁ বাসিত।
-প্রজাপতি ভালবাসো-ফড়িং, উড়ন্ত পাখি কিংবা মাছেদের ট্রাপিজি?
-আহা রামধনু রং ছড়িয়ে ডানায়
ইচ্ছে সেথায় তোমার চোখে দিবানিশি দৃষ্টি রাখি।
আচ্ছা তুমি কি ফুল ভালবাসো?
-খুব ভালোবাসি
- কি ফুল তুমি ভালোবাস, শিউলী বেলী বকুল অর্কিড?
ঝরে যেথায় মাতাল ঘ্রাণ, ছড়ান ভালবাসার মুকুল।
ঝরা পাতার কাব্য চিনো-বাজে যেথায় রুমঝুম বেদনার নুপূর?
-চিনিতো। আর তাই তো ছুটে আসি তোমার সব ব্যথা মুছে দিতে।
-আচ্ছা তুমি কি কখনো সোনালী ভোর দেখেছ
কিংবা রোদ্দুর ভরা কোনো এক উদাস দুপুর?
-দেখেছি, দেখেছি পদ্ম দীঘির স্বচ্ছ জলের আয়নায় আকাশ ছবি আর...
-আর...!
-আর একটা মুখের অবয়ব,
মানবিকা, তুমি কখনো মুগ্ধতা ছুয়েঁ, ছন্দের নূপুর হয়েছো কি?
হেঁটেছিলে মেঠোপথে সবুজ ধারে আলে আলে
হেমন্তের শিশির সিক্ত পথে?
- হ্যাঁ, হেঁটেছি,
জানো নিঝুম, একটি হাতে হাত রেখে রোজ
আঙ্গুলের ডগায় তুলতুলে শিশির মাখি আর একটি চোখে রাখি চোখ।
-তাই বুঝি, তো সেই আঙ্গুকের মালিক কে জানতে পারি কি?
-তোমাকে বলবো কেন?
-আমি ছাড়া আর কে আছে তোমার?
- আছে ওই সুনীল আকাশ, মুক্ত বাতাস, সবুজ উদ্যান,
-আমার থেকে ওদের বুঝি বেশি ভালোবাসে?
-ধ্যাৎ কি যে বলো না,
-কি হলো লজ্জায় যে নীল হলো মুখ?
-নিঝুম, তুমি ফুল দেখেছো, রং দেখেছো-জামকালো মেঘ দেখেছো
কিন্তু কখনো কি কারো মনের ঝড় দেখেছো?
বুকের বামে কখনো কি সুর উঠেছে বেজে তোমার মানবিকার?
পাখির সুরে ফুলের সুরে ভ্রমর সুরে
কখনো স্রষ্টার সুন্দর গায়ে মেঘে- ছবি এঁকেছ সুখের ঘোরে?
-এসব কিছু আমার ধাতে নেই কি।
-তুমি কি-গো পাথর মানুষ?
-কেবল উড়াই মন আকাশে কড়ির ইচ্ছের ফানুস,
আজ বিদায় দাও। ফের একদিন এসে দেখাব তোমায় মুগ্ধতা
আর বুক পকেটে-নিয়ে যাব তোমার হৃদয় নিংড়ানো সব ভালোবাসা
যদি ইচ্ছে হয় সেদিন আমার আবেগীর মনটা বেঁধে রেখো মানবিকা।

বিঃদ্রোঃ মানবিকা শিরোনামে কবিতা আমি দীর্ঘ দিন ধরে লিখছি। নিঝুম আমার বন্ধুর নাম, ওকে ঘিরেই আমার "মানবিকা" কবিতা সব। দীর্ঘদিন মান অভিমানের পর মাত্র কয়েক দিন আগে ভোরে আমার ফোন বেজে ওঠে। নাম্বারটা ছিলো নিঝুমের। ও আমার দরজায় এসে আমাকে ফোন দিয়েছিলো। ওর আশা এবং চলে চাওয়াকে ঘিরে আমার মানবিকা-১১ শিরোনামে কবিতা। এই কবিতাটি কবি কাজী ফাতেমা ছবির কবিতার কোন কবিতার সাথে সাদৃশ্য মিথ থেকে থালে তবে আমি আন্ত্রিক ভাবে দুঃখীত। আমি কবি কাজী ফাতেমা ছবিকে চিনিনা। উনার কবিয়াও আমার চোখে পড়েনি কখনও। আজ কোন চামচার কমেন্টসের জের ধরে এখানে আমার পদার্পণ। ) ধন্যবাদ সবাই কে

৩৫| ২৭ শে অক্টোবর, ২০১৭ সকাল ১১:৫১

শাহানাজ সুলতানা বলেছেন: বলেছেন: বোন কবি কাজী ফাতেমা ছবি মানবিকা-১৩ আপনাকে উৎসর্গ করে গেলাম। বাঁধ ভাঙার আওয়াজে এক বুক ভাঙা কান্নার আওয়াজ আপনার কানে পৌছাবেনা। আপনার কবিতা আমি কপিরাইট করিনি তবু আপনি অনেক লাঞ্চিত করেছেন আমাকে। এতো অপমান সহ্য করেও আমি আপনার কাছে ক্ষমা চাইছি। দয়া করে চুপ করুন। আর আমার মানবিকা-১৩ কবিতাটি মনোযোগ দিয়ে পড়ুন। কবিতাটি আপনাকেই উৎসর্গ করে গেলাম ।


মানবিকা-১৩
:

নিঝুম, সব কিছুতে কি স্বাক্ষী প্রমান চলে না মেলে তুমি বলো।
উপযুক্ত স্বাক্ষী-প্রমানের কাছে
সত্য মিথ্যা হয়ে আঁধারে ঢেকে যায়,
আর মিথ্যা দিনের আলোর মত যেকে বসে
নিগুঢ় ভালোবাসা তাসের ঘর হয়ে যায়
তুমি কেমন জহুরী নিঝুম নিকষ পথরে
জাচাই করেও সোনা চিনলে না।
আমি তোমাকে প্রশ্ন করেছিলাম
কি ফুল তুমি ভালোবাস, শিউলী বকুল জুঁই চামেলী
মালতি মাধবী কিংবা অর্কিড?
তুমি মুখে কিছু না বললেও ঠিকই বুঝিয়ে দিলে
ফুলদানিতে জীবন সাজাতে অর্কিড বেছে নিয়েছ।
আমি ঝরা বকুল তাই আজ মূল্যহীন বলে হয় আমাকে তোমার।

নিঝুম, একদিন তুমি আমাকে বলেছিলে
-মানবিকা, পৃথিবী অনেক বিচিত্র, এখানে ফোটে হাজারো রঙিন ফুল
ভ্রমরকে আকর্ষণ করে ওই সব ফুল
বকুলের ঘ্রাণ তখন বেঁধে রাখতে পারেনা কালো ভ্রমরকে।
তুমি আরো বলেছিলে,
-মানবিকা জীবন চলতে অনেক বাধা অতিক্রম করতে হয়
উত্থান আসে, পতন আসে, ভেঙ্গে খানখান হয়ে যায় সব
তাই বলে ভেঙ্গে পড়তে নেই, তাতে মনোবল হারায়।
জীবন সংগ্রামে ন্যায়ের পথে থেকে এগিয়ে চলবে
আমি যেখানেই থাকি দেখবে আমি তোমার পাশেই আছি।

-নিঝুম, তোমার কথাগুলো যে মিথ্যা হয়েগেলো
তুমি আজ আমার পাশে নেই
ওই বাহারি অর্কিডের বুকে তুমি সুখ খুঁজে ফিরছ
আজ তোমার জন্যই জীবন আমার শূন্য বিরান মরুভূমি
তবু আমি ভেঙ্গে পড়িনি নিঝুম।
আমি মনে প্রাণে বিশ্বাস করি তুমি যেখানেই থাকো
মেঘ ছায়া হয়ে আছ আমার মাথার উপর
তাই তো নাইক্যডিয়া, যখন বলেছিল সত্যের মোকাবেলা না করে
নীরবতা পালন করে আপনি চুন্নির পরিচয় দিলেন
আমি সব অপবাদ মাথা পেতে নিয়েছি
কি হবে আর সত্যের মোকাবেলা করে
যে জীবনে তুমি নেই, সে জীবন যে আমার অর্থহীন।

তুমি বলেছিলে না-
মানবিকা , তুমি কি সবুজ ভালবাসো না নীলাকাশ ভালোবাস?
নিঝুম আমি আজ নীলাকাশ বড় বেশি ভালোবাসি,
তোমার উত্তরের অপেক্ষাতেই
প্রহর গুনছি, তুমি যদি নীরব থাকো তো মাত্র তিন মাস পর
আমি পাড়ি জমাব ওই দূর নীলাকাশে
সকল সত্য-মিথ্যার হবে অবশান।
নিঝুম, তোমার বুকে আকাশ আমার,
তোমার বুকেই মাটি,
তোমার জন্য হৃদয় আমার কোমল পরিপাটি।

উৎসর্গ নিতে এতো ভয় কেন ভিক্ষার দারন স্ব-হস্তে গ্রহন করতে হয়। আবারো উৎসর্গ করে গেলাম ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.