নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সুদীপ কুমার

সকল পোস্টঃ

দীপাবলী

১৯ শে অক্টোবর, ২০১৭ রাত ৯:১৯



সারি সারি আলোর প্রদীপ, উজ্জলতা মিশিয়ে দেয় আঁধারের সাথে।ছায়াগুলি দিব্যি হাসিখুশি।খেলছে লুকোচুরী।এই আছে এই নেই।দিনের আলোর মত স্পষ্ট ছিল যে সত্ত্বা।আমার পিতা।তিনিও একদিন স্মৃতির আলো আঁধারিতে মিশে গেলেন।হারিয়ে গেলেন।চলে গেলেন।

আমার...

মন্তব্য০ টি রেটিং+০

চ্যুতি

১৮ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ৯:১৭



কোন এক সময় উদয়নের পাতায় আমদানী হত রাশিয়ার শোষণহীন সমাজের কথা।আর আমি দেখতাম একদল মানুষকে।যারা ঘর-সংসার ফেলে ছুটছে এক স্বপ্নের পিছে।শোষণ মুক্ত সমাজ গড়ার স্বপ্ন।কোন এক কালে একদল মানুষ ঘর...

মন্তব্য০ টি রেটিং+০

কমরেড

১৭ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:২৩




সবার পেটে ক্ষুধা ছিল।খাবার হিসাব আবেগ নয়,সত্যিকারের খাবারের চাহিদা ছিল,কিন্তু তারা খেতে দিল ফল।ক্ষুদা পেটে সবাই হাতে নিল মাকাল ফল।ধীরে ধীরে খাবার দাতার মুখায়ব বদলে যায় মাকাল ফলে।সাথে সাথে পৃথিবীও...

মন্তব্য২ টি রেটিং+০

অতল

১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১০:১৭



খুব সাধারণ একটি মুখ।তবে একটু যেন বেশীই মায়াবী।যেমন মায়া জড়িয়ে থাকে দীঘির শান্ত স্থির জলের মাঝে।আর ওই শেষ বিকেলের দিগন্তে।আর ওই মধ্য রাতের জ্যোস্নায় ভেজা ফসলের মাঠে।খুব দ্রুতই আমি নিজেকে...

মন্তব্য১ টি রেটিং+১

পেশা

১৪ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:৪০




তরতর করে এগিয়ে চলে রাস্তা।পীচ ঢালা ঝকঝকে।আলো ঠিকরে পড়ে।জ্বল জ্বল করে।আর ওই ঝৌলুস চুঁইয়ে টপ টপ করে পড়ে কমিশনের অর্থ।অর্থ যত ছিল কিম্বা আছে শুভংকরের ফাঁকির মাঝে।চিপায় চাপায় লুকিয়ে টপ...

মন্তব্য২ টি রেটিং+০

স্রোত

১৪ ই অক্টোবর, ২০১৭ সকাল ৯:৩০





প্রতিদিন সকালে আমি নিজেকে ছেড়ে দিই জনস্রোতে।ভাসতে ভাসতে চলে আসি বাজারে।মাছওয়ালার সাজিয়ে রাখা মাছ দেখি।খাঁচায় নির্জীব বসে থাকা মুরগী দেখি,যারা কিনা খুব ভাবলেশহীন চোখে চেয়ে দেখে সঙ্গীর মৃত্যু যন্ত্রণা।কিম্বা শরীর...

মন্তব্য৮ টি রেটিং+১

বেঁচে থাকা

১৩ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৩:৩৫




আমি,খুব ধীরে পান করি শরতের দুপুরের এই নিঃসঙ্গতা। খুব ধীরে।এলোমেলো বিছানার চাদর।পুরানো ফ্যানের ঘর ঘর শব্দ।ছড়িয়ে ছিটিয়ে থাকা কবিতার বই।উল্টে পড়ে থাকা অসহায় জলের গ্লাস।জানালার ফাঁক দিয়ে নেমে আসা আলো...

মন্তব্য০ টি রেটিং+০

স্মরণ-দুই

১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:৩৪



আমার পাশেই ছিল তারা।বাতাসের মত।কিম্বা বিছানার চাদরের মত।অথবা ইলিশ সরষের সরিষার মত।তারপর একদিন সরে গেলো।হারিয়ে গেলো।আবার ফিরেও এলো।ফিরেও এলো স্মৃতির পাহাড় নিয়ে।গল্প নিয়ে।ফিরে এলো চোখের জল বেয়ে।ফিরে এলো দিবস হয়ে।ফিরে...

মন্তব্য০ টি রেটিং+১

ক্ষেত

১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:৩১



সবজি ক্ষেতে কৃষকের যত্ন সবজি গাছকে আসস্ত্ব করেনা।বরং তাদের মনে করিয়ে দেয় তাদের বড় করা হচ্ছে তাদের হত্যা করার জন্যে।যেমন ভাবে নিশি রাতে রাতজাগা বাটপার সুশীলগণ রাজনীতির কথা বলেন রাজনীতির...

মন্তব্য১০ টি রেটিং+০

স্মরণ

১১ ই অক্টোবর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪৮




শেষ যাত্রা ছিল বুঝি,-আমাদের, একসাথে।তাই সাথী হয়েছিল অনেকেই।তুমি আমি:আমাদের দীর্ঘযাত্রা।শেষ হবার নয়।কি এক বোঝা টানছি,অথচ তার এতটুকু নেই ওজন।আঁধার ছিল পথে?মেঘ বুঝি কেঁদে ছিল।আর কেঁদে ছিল তারা যারা ছিল পিছে।–বুকফাটা...

মন্তব্য০ টি রেটিং+০

তাপমাত্রা

১০ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:০১



ইভটিজিং এর পর মধ্যবয়স্ক লোকটি সহবাসেরতৃপ্তি নিয়ে সিগারেটে আগুন জ্বালে।আর তরুনী মেয়েটি কোন কিছু ঘটেনি ভঙ্গিতে ঘামতে ঘামতে চলে যায়।আমরা যারা ছাপোষা,গরুর দৃষ্টিতে চেয়ে থাকি আর বেহায়ার মত হাসতে থাকি।অবশ্য...

মন্তব্য০ টি রেটিং+০

ধাঁধা

০৯ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:২৯




গতকাল
এক চাচী এসেছিল আমার স্বপ্নে হাতে তার উথ্থিত কাটা লিঙ্গ,-চাচার।তো আমাকে স্তম্ভিত করে চাচাও এলো সামনে।মুখে তার অনাবিল হাসি।হাসতে হাসতেই বলে-শোন নাতি,তোমার চাচীর বয়স হয়েছে।কিন্তু আমি জ্বালা মিটাই কেমনে?তাই...

মন্তব্য০ টি রেটিং+০

অপচয়

০৮ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:৫৩



যেমন হয় প্রতিদিন।অফিস শেষে হাঁটতে হাঁটতে চলে আসি বড় রাস্তায়।ভিড় ঠেলে পাবলিক বাসে উঠতে দক্ষতার প্রয়োজন।অবশ্য সেটুকু দক্ষতা অর্জন করেছি এতদিনে।খাঁচায় রাখা ব্রয়লার মুরগীর মত ঠেসে ঠুসে বসার ব্যবস্থা হয়ে...

মন্তব্য৪ টি রেটিং+০

ফসিল

০৮ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:১১



(এক)
যে কথা এখনও বলতে পারিনি তোমাকে।কথার বুদবুদ ক্রমে বাড়তে থাকে গাণিতিক হারে।আমি অনুভব করি কথার সেই বুদ বুদের নড়াচড়া।ফুলে উঠে আমার উদর।আর আমার মনে পড়ে গল্পের সেই অহংকারি ব্যাঙকে,যার গল্প...

মন্তব্য২ টি রেটিং+০

ভাড়াবাড়ি

০৭ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১২:৩২




অনেকদিন পর।তাকিয়ে আছি।কত পরিচিত ছিল,ছিল কত আপনার।কত সুখ-স্বপ্ন-দুঃখ ঘিরে আছে বাড়িটির প্রতিটি ইটকে ঘিরে।দূর হতে তাকিয়ে আছি।বাড়িটিও তাকিয়ে আছে আমারই দিকে।আমরা পরস্পরের পরিচিত।আবার অপরিচিতিও।কোন একদিন এই বাড়িটি আমাকে গ্রহণ করতো...

মন্তব্য১১ টি রেটিং+০

>> ›

full version

©somewhere in net ltd.