নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি একজন ছাত্র। পদার্থ বিজ্ঞান নিয়ে সম্মান শ্রেণিতে পড়ছি।

তাওহিদ হিমু

.

তাওহিদ হিমু › বিস্তারিত পোস্টঃ

মুভি রিভিউ: Lipstick Under My Burkha (বুরখার নিচে লিপস্টিক)

০৭ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ দুপুর ১:৫৮

চোর-হুজুর, গুরু-লঘু, সৎ-শয়তান সবাই ফ্যান্টাসি চায়; একেকজন একেক মুখোশে, একেক উপায়ে। এবং সেই ফ্যান্টাসি মানুষের জৈবিক ও মৌলিক অধিকারও বটে।
অনেকে নিজেরা বেশি ফ্যান্টাসি পেতে অন্যের ফ্যান্টাসিকে ব্যাহত করে, অন্যকে বেঁধে রাখে শত নিয়মের কারাগারে। যেমন মুসলিম পুরুষেরা বৈচিত্র্যপূর্ণ ফ্যান্টাসি পেতে চার-চারটি বউ রাখে, অন্যদিকে সেই নারীদের থেকে ফ্যান্টাসির বিন্দুমাত্র ভাগ অন্যদিকে না যেতে পারে মতো তাদেরকে বেঁধে রাখে সাত হিজাবের ভেতরে। কিন্তু সেসব নারীরাও তো তাদের পুরুষদের সমান ফ্যান্টাসি পেতে তৃষ্ণার্ত এবং সমান ফ্যান্টাসি পাওয়ার অধিকারও রাখে- তা কে স্বীকার করবে?
মীমাংসা অত সহজ নয়।

কাহিনীসংক্ষেপ: চারজন হতভাগা নারীর রোমান্টিক জীবন নিয়ে এই মুভি; যাদের প্রত্যেককেই 'রোজি' নামে বলা হয়েছে। একজন মধ্যবয়স্ক বিধবা নারী ঊষা, যিনি পরিচয় গোপন করে এক যুবকের সাথে ফোনসেক্স করেন, শারীরিক প্রয়োজন মেটান। একজন তরুণী বিউটিশিয়ান লীলা, যে কিনা তার ফটোগ্রাফার বয়ফ্রেন্ডের সাথে পাহাড়-পর্বতে ঘুরে বেড়ানোর স্বপ্ন দেখেন; কিন্তু পরিবার তাকে জোর করে বিয়ে দিয়ে দিতে চায়। আরেকজন হলেন এক কাঠমোল্লা টাইপ লোকের মেয়ে উঠতি তরুণী রেহানা, যে কিনা পরিবারের চাপে বুরখা পরলেও বুরখার নিচে ম্যাল থেকে চুরি করা ড্রেস লিপস্টিক কেডস জিন্স ইত্যাদি পরে ঘুরে বেড়ান আর সিঙ্গার হওয়ার স্বপ্ন দেখেন, অডিশন দেন। শেষজন হলেন এক পরকীয়াকারী সৌদিপ্রবাসী লোকের স্ত্রী রেহানা, যিনি স্বামীর কাছে যৌনউপকরণ ছাড়া আর কিছু নন; রেহানা নিজে গোপনে চাকুরী করেন, বড় কিছু করার স্বপ্ন দেখেন। তাদের নাটকীয় গল্প চলতে থাকে। শেষ দৃশ্য ছিল কিছুটা হৃদয়বিদারক।

♦বি.দ্র: আমার মনে হয় নি যে, এখানে কোনো ধর্ম বা বুরখাকে কোনোভাবে অপমান করা হয়েছে। বরং বুরখাওয়ালী দুজনকেই বিবাহবহির্ভূত যৌনতা থেকে দূরে রাখা হয়েছে। যদিও অন্য দুই রোলকে খারাপ বলা যায় না।

তিক্ত সত্য তোলে ধরে অনেক পুরস্কার জেতা ভলিউডের এই মুভিটি দেখতে পারেন। সবার অভিনয় বেশ ভাল হয়েছে। বার্তাবহ কিন্তু উপভোগ করার মতো মুভি। তবে লজ্জার সম্পর্কের কাউকে পাশে নিয়ে দেখতে বসবেন না। এখানে বেশ কিছু ইরোটিক দৃশ্য আছে।

মন্তব্য ২ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (২) মন্তব্য লিখুন

১| ০৮ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৩:১৫

মেঘনা পাড়ের ছেলে বলেছেন: সিনেমাটির নাম জানি, তবে দেখার আগ্রহ জাগেনি এতদিন। আপনার পোস্টের পর দেখার আগ্রহ হচ্ছে.......

১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সকাল ১০:০৭

তাওহিদ হিমু বলেছেন: দেখতে পারেন, তবে আবারও বলছি, ছবিটি কিন্তু ইরোটিক। :p
ধন্যবাদ

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.