নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

‘মানুষ তার স্বপ্নের চাইতেও বড়’

কাছের-মানুষ

মানুষ মরে গেলে পচে যায়, বেঁচে থাকলে বদলায়, কারণে বদলায়, অকারণেও বদলায় । তবে আমি মনে হয় আগের মতই আছি , কখনও বদলাবওনা মনে হয় ! !

কাছের-মানুষ › বিস্তারিত পোস্টঃ

বন্ধু এবং বন্ধুত্ব

২০ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৩৮

বন্ধুত্ব নিয়ে বিখ্যাত ফিলসোফার এরিস্টটল বলেছেন “ প্রত্যেক নতুন জিনিসকেই উৎকৃষ্ট মনে হয়। কিন্তু, বন্ধুত্ব যতই পুরাতন হয়,ততই উৎকৃষ্ট ও দৃঢ় হয়। ” বন্ধুত্ব নিয়ে এর চেয়ে খাটি নিখাত বাক্য আর হতে পারে না। বন্ধুত্ব নিয়ে জ্যাক দেলিল বলেছেন “নিয়তি তোমার আত্মীয় বেছে দেয়, আর তুমি বেছে নাও তোমার বন্ধু।” কথাটার মাঝে চরম মাত্রায় সত্য পদার্থ আছে । কথায় আছে মানুষ তার আপন প্রকৃতির মানুষকেই বেশী পছন্দ করে তাই এতটুকু বলা যায় আমরা বেশীর ভাগ ক্ষেত্রেই আমাদের মতাদর্শের সাথে মিলে এরকম কারো সাথেই আমরা বন্ধুত্ব করি।

এছাড়া এই মুহূত্যে মনে পড়ছে বন্ধুত্ব নিয়ে জীবনানন্দ দাশের বিখ্যাত উক্তি যা আমরা হরহামেশাই বলে থাকি “যদি থাকে বন্ধু মন গাং পার হইতে কতক্ষণ।” বন্ধু নিয়ে চার্লি চ্যাপলিন বলেছেন “ আমার সব থেকে ভালো বন্ধু হল আয়না, কারণ আমি যখন কাঁদি তখন সে হাঁসে না ”

আমার কাছে বন্ধুত্ব হল নির্মল এক সম্পর্কের নাম যার কাছে জীবনের অনেক কিছুই শেয়ারের করা যায়, যাকে বিশ্বাস করা যায়, যার সাথে সময় কাটালে ভাল লাগে। বন্ধু নিয়ে রবার্ট লুই স্টিভেন্স বলেছেন “ কোন মানুষই অপ্রয়োজনীয় নয় যতক্ষণ তার একটিও বন্ধু আছে ।” বন্ধুত্ব নিয়ে আমি এক আর্টিকেল পড়েছিলাম যেখানে লেখা ছিল সেই সফল যার জীবনে ৩-৪ জন সত্যিকারের ভাল বন্ধু আছে।

Childhood is magical. You only get to be a child once, so don't spend it worrying too much about the future ! মার্ক জুকারবার্গের মেয়ে হয়েছে আরেকটি এবছর, মেয়েকে লেখা খোলা চিঠিটার এক জায়গায় উপরুক্ত কথাগুলো বলেছেন জুকারবার্গ! এর চেয়ে নিখাদ খাটি কথা আর হতে পারে না! ছোটবেলার সেই রঙ্গিন সময়গুলোকে বন্ধুরা আরও বেশী রাঙ্গিয়ে তুলে।আজ শৈশব-কৈশোরের বন্ধুদের বিষয়ে আলোচনা করব না, সেটা অন্যকোন দিন বলব না হয়।

বেশীর ভাগ মানুষের সবচেয়ে ভাল বন্ধু নাকি হয় স্কুলের বন্ধুদের সাথে। আমার স্কুল জীবন থেকে কলেজের জীবনে বেশ কিছু ভাল বন্ধু পেয়েছিলাম। আমি পড়তাম পুরনো ঢাকার এক সরকারী কলেজে।কলেজে যখন ফাস্ট ইয়ারে পরি তখনই পরিচয় হল ইমতিয়াজ আর ইশতিয়াক এর সাথে। ওরা দুজন চাচাত ভাই ছিল, দুজনই ছিল অত্যন্ত শরীফ ও নরোম মেজাজের।কলেজের গেটে ওদের সাথে আমার পরিচয় হল। অল্প দিনেই আমরা বেশ ভাল বন্ধু হয়ে গেলাম, আমরা এক সাথেই ফিজিক্স, কেমিস্টি প্রাইভেট পড়তাম তাই দিনের বেশীর ভাগ সময়ই এক সাথে থাকা হত আমাদের। আমরা তিন জনেই এক সাথে বসতাম কলেজে, কেউ একজন আগে আসলে বাকিদের জন্য জায়গা রেখে দিতাম।

আহা কি সময় ছিল তখন। এই লেখাটা লেখার সময়ও বারবারই নস্টালজিক হয়ে যাচ্ছি! সকাল সকাল কলেজে চলে আসতাম আমরা, এসেই কলেজের সামনে একটা হোটেল ছিল, সেখানে গিয়ে একসাথে নাস্তা করতাম।

একবার আমরা বন্ধুরা মিলে সিদ্ধান্ত নিলাম সংসদভবন যাব ঘুরতে। খাদ্যের ব্যাপারি আমি হুসিয়ার আদম, যাবার সময় বেশী করে খানা-খাদ্য কিনে নিয়ে গেলাম। সংসদভবনে সারাদিন ঘুরাঘুরি করলাম, দুপুরে একসাথে ভোজন কর্ম সম্পাদান করলাম, ব্যাপক আড্ডা দিয়েছিলাম সেদিন।

ওদের বাসা ছিল বিক্রমপুর, ঢাকায় ভাড়া বাসায় থাকত ওরা। ঢাকায় ওদের গাড়ির টায়ারের দোকান ছিল , ওরাও সেই দোকানে মাঝে মাঝে বসত। আমার কলেজে যাবার পথে ওদের দোকান পরত। আমি সেই পথ দিয়ে গেলে ওরা আমার জন্য অপেক্ষা করত সেখানে , তার পর তিন বন্ধু এক রিক্সায় যেতাম কলেজে। সেই দিনগুলো কখনও ভুলার নয়!

দেখতে দেখতে কলেজ শেষ হয়ে গেল। ইন্টারমিডিয়েটের আমলনামা যেদিন হাতে পেলাম সেই দিনই ওদের সাথে কলেজে শেষ মোলাকাত হয়েছিল। এরপর কলেজ শেষ করে ওরা অনার্সে ভর্তি হল, আমি হলাম ইঞ্জিনিয়ারিং।মাঝে অবশ্য ওদের দোকানে গিয়ে কয়েকবার দেখা করেছিলাম। দেশে ইঞ্জিনিয়ারিং পড়ার সময়ই দেশের বাহির থেকে আন্ডারগ্রাজুয়েট স্কলারশিপ পেলাম। দেশের বাহিরে যাবার পর আর ওদের সাথে আমার যোগাযোগ হত না। ওদের ফোন নাম্বার হারিয়ে ফেলেছিলাম কিভাবে যেন।

আমি আন্ডারগ্র্যাজুয়েট শেষ করে মাঝখানে দেশে এসেছিলাম, ওদের সাথে দেখা করতে সেই দোকানে গিয়েছিলাম কিন্তু আফসোস ওদের আর খুঁজে পাইনি, ওই দোকানটা এখন অন্য কেউ চালায়। আমি ওদের কথা জিজ্ঞেস করেছিলাম কিন্তু কেউ কোন তথ্য দিতে পারেনি।

এখন দেশের বাহিরে পি,এইচ,ডি করছি। কিছুদিন আগে বউ বাচ্চা নিয়ে দেশ থেকে ঘুরে এলাম । দেশে আমার শৈশব-কৈশোরের সব বন্ধুদের সাথে প্রায় প্রতিদিনই মন খুলে আড্ডা দিতাম।ইমতিয়াজ আর ইশতিয়াকদের দোকানটা যেখানে ছিল, রাস্তা দিয়ে যাবার সময় তাকিয়ে ছিলাম দোকানটার দিকে,কেমন যেন বুক থেকে একটা দীর্ঘশ্বাস বেরিয়ে এলো।

আমার বউ বলে ফেইসবুকে খুঁজে দেখ পাবে হয়ত, আমি প্রায় খুঁজি ওদের কিন্তু পাই না! পৃথিবীটা গোল হয়ত কোন একসময় ওদের খুঁজে পাব। যেখানেই থাকুক ভাল থাকুক আমার বন্ধুরা।

মন্তব্য ৩২ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (৩২) মন্তব্য লিখুন

১| ২০ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:১৩

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: আপনার লেখা পড়ে আমার নিজের বন্ধুদের কথা মনে পড়ে গেল। ভাল লাগলো।

২০ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:৫৭

কাছের-মানুষ বলেছেন: হুম, নস্টালজিক পোষ্ট এটা!

ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।

২| ২০ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:২৯

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: এইজন্য আমি বেশী বন্ধু বানাইনি জীবনে। কম বন্ধু কম দুঃখ...

২০ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:৫৮

কাছের-মানুষ বলেছেন: হা হা! মাথাও নাই মাথা ব্যাথাও নাই ফর্মুলা মেনে চলেছেন আপনি!
পড়ার জন্য কৃতজ্ঞতা রইল।

৩| ২০ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:৫১

সুমন কর বলেছেন: ভালো লিখেছেন। প্রকৃত বন্ধু পাওয়াটা ভাগ্যের বিষয়।

২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:০০

কাছের-মানুষ বলেছেন: হুম সেটাই। বন্ধু অনেক হয় কিন্তু প্রকৃত বন্ধু খুব কম জোটে মানুষের জীবনে।
ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।

৪| ২০ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:০৯

ফেরদৌসা রুহী বলেছেন: মনের মত বন্ধু পাওয়াটা ভাগ্যের ব্যাপার।

আশা করি আপনার বন্ধুদের খুঁজে পাবেন।

২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:০৩

কাছের-মানুষ বলেছেন: হুম সত্যিই বলেছেন মনের মত বন্ধু পাওয়া ভাগ্যের ব্যাপার।
আমার প্রায় প্রতিটা লেভেলের বন্ধুদের সাথেই যোগাযোগ আছে একমাত্র সেই কলেজের বন্ধু দুজন ছাড়া। চেস্টা করেছি এবং করছি কিন্তু এখনো পেলাম না।

ধন্যবাদ আপু মন্তব্যের জন্য।

৫| ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:১৫

শামচুল হক বলেছেন: ভালো লাগল।

২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:১৯

কাছের-মানুষ বলেছেন: ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।

৬| ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:৪২

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: লিখাটি পড়ে বন্ধুদের কথা মনে পরে গেল।

২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:৫১

কাছের-মানুষ বলেছেন: বন্ধুদের কথা প্রায় মনে পড়ে বিশেষ করে কলেজ লাইফের।
লেখার সময় প্রায় নস্টালজিক হয়ে যাচ্ছিলাম।

পাঠ ও মন্তব্যের জন্য অসংখ্য ধন্যবাদ।

৭| ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ২:০৬

প্রামানিক বলেছেন: রুজি রোজগারের কারণে এক জায়গায় থাকা সম্ভব না হওয়ায় একটা সময় বন্ধুরা হারিয়ে যায়।

২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৩:৩৯

কাছের-মানুষ বলেছেন: হুম, ঠিক বলেছেন , অস্বীকার করার উপায় নেই জীবন-জীবিকার তাগিদে একটা সময়ে অনেক বন্ধুই হারিয়ে যায়, যে যার যার মত ব্যাস্ত হয়ে পরে ! আবার অনেকেই সময়ের সাথে কেমন যেন পাল্টে যায় , আগের উচ্ছ্বাস খুজে পাওয়া যায় না !

ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য ।

৮| ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ২:১২

ওমেরা বলেছেন: খারাপ বন্ধুর পাল্লায় পড়ে বেশীর ভাগ ছেলে মেয়ে নষ্ট হয় ! আবার ভাল বন্ধুদের সাথে মিশে অনেকেই ভাল পথের সন্ধান পায় । কাজেই বন্ধু নির্বাচনে সর্তক হতে হবে ।
বন্ধু কথন ভালই লাগল । ফেসবুকের কল্যানের দেশ বিদেশে অনেকেই স্কুল , কলেজ জীবনের বন্ধুকে খুঁজে পাচ্ছেন , আশা করি ভাইয়া আপনার বন্ধুদেরও খুঁজে পাবেন ।ইনশা আল্লাহ !
ধন্যবাদ ভাইয়া ।

কেমন আছেন ভাইয়া ? দেশে কেমন ছিলেন ভাইয়া ?


২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৩:৫৬

কাছের-মানুষ বলেছেন: ধন্যবাদ ওমেরা, ভাল আছেন আশা করি।

হুম একথা সত্যি অনেকে খারাপ বন্ধুদের পাল্লায় পরে নষ্ট হয় আবার অনেকে ভাল পথের সন্ধান পায় ! যারা নষ্ট হয় তারা বেশীর ভাগই অপরিনিত বয়সে নষ্ট হয় যেমন ১৩/১৪ বছর থেকে ১৭/১৮ বছর বয়স পর্যন্ত সময়টা অনেক সেনসেটিভ ! ১৮ বছরের আগ পর্যন্ত মানুষ যতটানা শিখে পড়াশুনা করে তার থেকে বেশী শিখে নিজের পরিবার, আশপাশ এবং বন্ধুদের থেকে। এই বয়সে মানুষের ব্যাক্তিত্বের, চিন্তাভাবনার একটা ভিত তৈরি হয় । এই বয়সে খারাপ বন্ধুদের পাল্লায় পরে অনেকে নিজের ভবিষ্যৎ নষ্ট করে।

দেশে লম্বাছুটি কাটিয়ে এলাম এবার !ভাল সময় কেটেছে। অনেক আত্বীয়-স্বজন, পাড়া প্রতিবেশীদের সাথে দেখা হল।

৯| ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ২:২১

অর্কিড। বলেছেন:
ভাল লাগলো

২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৩:৫৭

কাছের-মানুষ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ অর্কিড ।

১০| ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১০:২৬

রাজীব নুর বলেছেন: আমার নিজের বাড়িও বিক্রমপুর।

লেখা ভালো হয়েছে।

২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৩:৫৯

কাছের-মানুষ বলেছেন: লেখাটা আপনার ভাল লেগেছে জেনে আনন্দিত হলাম।

পাঠ ও মন্তব্যের জন্য কৃতজ্ঞতা রইল ।

১১| ২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:৩৯

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: বন্ধুত্বের চেয়ে আন্তরিকতার সম্পর্ক খুব কম হয়।

২১ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:০২

কাছের-মানুষ বলেছেন: আমাদের জীবনের একটা মূল্যবান সময় বন্ধুদের সাথে কাটে এর জন্যই হয়ত আন্ত্রিকতাটা বেশী হয়!

ধন্যবাদ হেনা ভাই মন্তব্যের জন্য।

১২| ২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫০

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনার কোন বন্ধু আছেন? আপনি কি কারো বন্ধু?

২২ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫৬

কাছের-মানুষ বলেছেন: আমার কলেজের কোন বন্ধুদের সাথে যোগাযোগ নেই তেমন। বাকি সব লেভেলের বন্ধুদের সাথেই মোটামুটি যোগাযোগ আছে। দেশের বাহিরে থাকলেও তাদের অনেকের সাথে সপ্তাহে অন্তত এক দিন ফোন দিয়ে যোগাযোগ করার চেষ্টা করি ।

১৩| ২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ দুপুর ১২:১৫

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন: বন্ধু ছাড়া লাইফ ইম্পসিবল ! :) খাও বিড়ি পেটো তাস তবে হবে ইঞ্জিনিয়ারিং পাস।আমারাও তিন ইডিয়ট। আমাদের গুনের কথা বলে আর শেষ করা যাবে না। যদিও এখন ব্যস্ততার কারণে, অনেকের সাথে সম্পকের উপরে ধূলা পরে গেছে।যেমনটা- আপনার ক্ষেত্রে ঘটেছে। যাহোক,আপনার বন্ধুদের খুঁজে পান।সবার জন্য শুভ কামনা রইল।

২৩ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১১:১৭

কাছের-মানুষ বলেছেন: হা হা যথার্থ বলেছেন । আপনাদের কথা শুনে ভাল লাগল ।
সময়ের সাথে অনেক কিছুরই পরিবর্তন হয়, সম্পর্কগুলো ভিন্ন রূপ নেয় অনেক সময়, যাদের সাথে
একসময় হইহুল্লোর করে সময় কাটত অনেক জীবনের তাগিদে তাদের অনেকের সাথেই আবার দুরুত্ব তৈরি হয়!
এরই নাম বোধহয় জীবন !

ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য।

১৪| ০৩ রা জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫২

মরুচারী বেদুঈন বলেছেন: অতীতে চলে গেলাম!

পোষ্ট নাম্বারিং:
১:বাঘ মামা
২:আপুনি
৩:ছেলেটা
৪:মাঝি কাক্কু!

০৪ ঠা জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৩:৪৩

কাছের-মানুষ বলেছেন: ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য !

নাম্বারিং মনে আমার আগের পোষ্টের গল্পটার জন্য করেছেন। উত্তর বিশ্লেষণ নিশ্চই দেখেছেন।

পোষ্টটা সরিয়ে নিয়েছি। পোষ্ট দেবার পর পরে নিজে সন্তুষ্ট না হলে সরিয়ে নেই।

নতুন বছরের শুভেচ্ছা রইল ।

১৫| ১১ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:০৬

আটলান্টিক বলেছেন: ভাইয়া Game of thrones দেখেন আপনি?

১২ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৪:১২

কাছের-মানুষ বলেছেন: না আমি Game of thrones দেখি না! তবে অনেক পপুলার নাকি,দেখার আগে আমি গল্পের প্লটটা নেটে দেখে নেই কেন জানি পড়ে তখন আমাকে টানেনি সেরকম । পড়ে হয়তবা দেখতে পারি !!
আপনি কি দেখেন ?

১৬| ১২ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৫:৩৭

আটলান্টিক বলেছেন: জ্বি আমি গেম অব থ্রোন্সের একদম ডাই হার্ড ফ্যান।গেম অব থ্রোন্সের রেটিং ৯.৫/১০ যার ধারেকাছে অন্য কোন সিরিজ নাই।আপনি বুঝতে পারছেন না কি অসাধারণ একটা শো আপনি মিস করছেন।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:১৮

কাছের-মানুষ বলেছেন: হা হা যাক দেখা শুরু করতে হবে দেখছি! ব্যাস্ততার মধ্যে সময় যাচ্ছে, ব্যাস্ততা কমলে দেখি দেখতে পারি!

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.