নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পদহীনদের জন্য শিক্ষাই সম্পদ

চাঁদগাজী

শিক্ষা, টেকনোলোজী, সামাজিক অর্থনীতি ও রাজনীতি জাতিকে এগিয়ে নেবে।

চাঁদগাজী › বিস্তারিত পোস্টঃ

ট্রাম্পের পায়ের নীচের মাটি কাঁপছে, স্পেশাল কাউন্সেল নিযুক্ত

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ১:৪৮



ট্রাম্প সৌদী যাচ্ছে ২ দিনের ভেতর; ট্রাম্প সৌদীদের সাথে, আগামী ১ বছরের ভেতর ১০৯,০০০,০০০,০০০/০০ (এক'শ নয় বিলিয়ন) ডলারের যুদ্ধ বিমান বিক্রয়ের কাগজপত্র সাইন করবেন; উনার যাত্রার ৪৮ ঘন্টা আগে, আমেরিকার ডেপুটি এটর্ণি জেনারেল রোজেনস্টাইন ট্রাম্পের "নির্বাচনী কমিটির সাথে রাশিয়ানদের যোগাযোগ নিয়ে গঠিত তদন্ত কমিটিকে" দেখাশোনা করার জন্য এক 'স্পেশাল কাউন্সেল' নিযুক্ত করেছে; কাউন্সেলে নিযুক্তি পেয়েছেন এক প্রাক্তন এফবিআই প্রধান, রবার্ট মুলার; রাশিয়ান কানেকশানের তদন্ত কমিটির প্রধান ছিল এফবিআই প্রধান জেইমস কোমি; ট্রাম্প গত সপ্তাহে কোমীকে চাকুরীচ্যুত করে; এই চাকুরীচ্যুতি ট্রাম্পের বিপক্ষে গিয়েছে।

ট্রাম্প আগামী ৪০ ঘন্টার মাঝে, কানেকটিকাট রাজ্যের সিনেটর জো লিবাম্যানকে, যথাসম্ভব এফবিআই'এর প্রধান হিসেবে মনোনয়ন দেবেন। কিন্তু নিযুক্তি পেলেও জো লিবারম্যান হয়তো তদন্ত কমিটির প্রধান হতে পারবেন না।

এই স্পেশাল কাউন্সেল নিযুক্তির সময় ডেপুটি এটর্ণি জেনারেল রোজেনস্টাইন প্রেসিডেন্টের সাথে আলোচনা করেননি, তবে প্রেসিডেন্টকে অবহিত করেছেন। ট্রাম্প এতে ভয়ানকভাবে বিরক্ত হয়ে বলেছেন যে, এটা হবে 'আমেরিকার সবচেয়ে বড় পেত্নী শিকার'।

এদিকে, গত ৩ দিন আগে ডিরেক্টর কোমীর লিখিত একটি মেমো বের হয়েছে, যেখানে কোমী লিখেছে যে, ট্রাম্প তাকে অনুরোধ করেছিল, সে যেন জেনারেল ফ্লিনের তদন্ত বন্ধ করেন; জেনারেল ফ্লিনের চাকুরী চলে গেছে ইতিমধ্যে। এই মেমো যদি সঠিভাবে প্রমাণিত হয়, ট্রাম্পের বিরিদ্ধে " বিচারে হস্তক্ষেপের অভিযোগে ক্রিমিনাল তদন্ত শুরু হবে", যা ইমপিচমেন্ট অবধি গড়াতে পারে।

ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে বের করার জন্য আমেরিকার সব রাজনীতিবিদরা খেয়ে না খেয়ে লেগে গেছে; এটা হয়তো তাদের জন্য একটা সুযোগ নিয়ে আসতে পারে; কারণ, আমেরিকার জনতাও রাশিয়ানদের ব্যাপারে জঘন্য কুসংস্কারে ভোগে। ট্রাম্প কিন্তু বারবার বলে আসছে যে, পুটিন ভালো মানুষ নয়, তার সাথে শত্রুতায় যাওয়া ভুল হবে; রাশিয়া ও আমেরিকার বন্ধুত্ব বিশ্বের সবার জন্য ও আমেরিকার জন্য ভালো।

ট্রাম্প মোটামুটি নিজের ডলার খরচ করে নির্বাচন করেছে; এতে আনুমানিক ৭০ মিলিয়ন ডলার খরচ হয়েছে; এখন আমেরিকান রাজনীতিবিদরা বুঝতে চাচ্ছে যে, এতে পুটিনের ডলার আছে কিনা।

মন্তব্য ৬৯ টি রেটিং +৪/-০

মন্তব্য (৬৯) মন্তব্য লিখুন

১| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:০৫

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: আমার কাছে তো ট্রাম্পকেই সঠিক মনে হল। শত্রুতা ভুলে বন্ধু থাকাই তো মঙ্গল।

এইভাবেই যাইবো দিন

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:২৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


ট্রাম্প সঠিক, পুটিন বাইবেলে বর্ণিত শয়তান থেকে ৭০০০ গুণ শক্তিশালী খারাপ চরিত্র; তাকে থামাতে হবে, সে যেন বিশ্বকে ছাইতে পরিণত না করে।

২| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:১১

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: ডলারের মুল্য হেলায় নয়।। যে প্রকারেই হোক।। মানুষের রক্ত/আর অস্ত্র B:-/ ।। আর একটি কথা, আমেরিকানরা কখনো দোষ দায়ে না পড়ে স্বীকার করেছে কি না??
ক্ষেত্রবিশেষে ওরাও কি আমাদের চেয়ে উন্নত??
/

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:৩১

চাঁদগাজী বলেছেন:


১ বছরে সৌদী কিনছে ১০৯ বিলিয়ন ডলারের জংগী বিমান; বাংলাদেশের ৩ বছরের বাজেট। আগামী ৭/১০ বছরের মাঝে কিনবে ৩৫০ বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র।

৩| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:১৪

মানবী বলেছেন: জেমস কোমী আমেরিকানদের রিয়াল লাইফ সুপার হিরো।

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:৩২

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপাতত তাই মনে হচ্ছে; সময়ের সাথে বুঝা যাবে।

৪| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:৩১

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: ট্রাম্প সত্যিই বুদ্ধিমান একথা মানতেই হবে, লাভ ক্ষতির হিসাবটা সে ভালোই বুঝে।

আপনার প্রতিউত্তরে সহমত।

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:৩৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিশ্বে এভাবে অস্ত্র ব্যবসা করা মানবতার বাহিরে; সৌদীর তেলের পয়সাগুলো আমেরিকা নিয়ে যাচ্ছে, কিছু অস্ত্র দিয়ে; কারণ, ইরানীরা শিয়া, তারা ওহাবী রাজতণ্ত্রকে ধ্বংস করতে চায়; ইসলামের জন্য ২ পক্ষ এই পরিমাণ তেলের পয়সা আমেরিকাকে দিচ্ছে!

৫| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:৩৭

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: তাহলে বলতে পারি ট্রাম্পের পায়ের তলার মাটি শক্তই থাকবে?!! কি বলেন??

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমেরিকান রাজনীতিবিদরা ট্রাম্পকে বাদ দিয়ে পেন্সকে দিয়ে আমেরিকা চালাতে চাচ্ছে।

৬| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ২:৪৪

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: কিন্তু ট্রাম্প!!
ইতিহাস কি বলে??

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৫৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


ট্রাম্প আমেরিকার ইতিহাসে প্রথম, ইতিহাসে নতুন কিছু যোগ হচ্ছে।

৭| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:১০

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: মজার বিষয় হলো, মানুষ মারার জন্য যত খরচ করা হয় তার তিন ভাগের এক ভাগ মানবতার জন্য খরচ করলে অন্তত সবাই এক বেলা পেট ভরে ভাত খেতে পারতো।

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৫৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


ক্যাপিটেলিজমে মানুষের থেকে টাকা ও অস্ত্র বেশী দরকারী; ইহাকে পরিত্যাগ করার দরকার।

৮| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:১৬

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: ১ বছরে সৌদী কিনছে ১০৯ বিলিয়ন ডলারের জংগী বিমান; বাংলাদেশের ৩ বছরের বাজেট। আগামী ৭/১০ বছরের মাঝে কিনবে ৩৫০ বিলিয়ন ডলারের অস্ত্র। এটা আপনারই কথা!!

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৫২

চাঁদগাজী বলেছেন:


টাকা আমি দিচ্ছি না, পরিমাণ সঠিক।

৯| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৩৬

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: কোমিগেট কে অনেকেই কিন্তু ওয়াটার গেটের সাথে তুলনা করলেও পার্থক্য অনেক!! আমার ভুল হলেও হতে পরে!!

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৫১

চাঁদগাজী বলেছেন:


রাশিয়ান কানেকশান "ক্রিমিনাল ইনভেস্টিগেশনে" পড়েছে; অনেকেই চাইবে উহাকে ওয়াটারগেইটে পরিণত করতে' পরাজিতরা লাফালাফি শুরু করেছে।

১০| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৪০

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: ২০১১ সালের কথা।

লন্ডনে কোন একটি বিশ্ববিদ্যালয়ে এক বাংলাদেশী আর একজন ভারতীয় ছাত্রের মধ্যে তর্ক বাঁধে। ক্লাসটি ছিলো Global Business-এর। কি কারণে যেন ক্ষেপে গিয়ে আমেরিকাকে গালাগাল করছিলো ভারতীয় ছাত্রটি।

বলছিলো- ''ওরা শুধু নিজ স্বার্থের কথাই ভাবে। খুব ন্যাশনালিস্ট। NAFTA থেকে তারা বড় বড় সুযোগ কাজে লাগাচ্ছে। ''

বাংলাদেশী ছাত্রটি তাকে থামিয়ে বললো- ''কোন দেশটি'র সরকার নিজ দেশের মানুষের কথা ভাবে না! সব দেশের সরকারেরই তো উচিৎ নিজ ন্যাশন তথা দেশের কথা চিন্তা করে কোন ডিশিসন নেওয়া। আমেরিকার সরকার যদি তার দেশের ভালোর কথা চিন্তা করে কোন সিদ্ধান্ত নেয়, সেটা তো দেশের মানুষেরই লাভ। আর, এটা তাঁদের দেশপ্রেমিক হিসেবে প্রমাণ করে।

তৃতীয় বিশ্বের সরকারগুলো যদি তার দেশের স্বার্থের অনুকূলে কোন সিদ্ধান্ত নিতে ব্যর্থ হয়, তা কেন আমেরিকার উপর বর্তাবে?''


১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৪৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


নাফতা নিয়ে ভারতীয় ও বাংলাদেশের বিজনেস ছাত্র তর্ক করছিলেন? সম্ভব, ভারতীয় ও বাংলাগালীরা তর্ক করতে পারে, কোন বিষয়ের দরকার হয় না।

১১| ১৯ শে মে, ২০১৭ ভোর ৪:০২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: International Business-এর মনোযোগী ছাত্রদের জন্যে NAFTA, SAFTA, TRIPS-এর মত agreement বুঝা খুব জরুরী।

১৯ শে মে, ২০১৭ ভোর ৪:১০

চাঁদগাজী বলেছেন:


অবশ্যই, এগুলো বিশ্বের ফ্যাইন্যান্স, অর্থনীতি, সাথে সাথে রাজনীতিকেও কন্ট্রোল করছে, গ্রুপিং সৃস্টি করছে, চাকুরী ও বেকারত্বের সৃস্টি করছে।

১২| ১৯ শে মে, ২০১৭ ভোর ৪:১৫

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: ভালো দিকগুলোও ভেবে দেখা দরকার। কিভাবে ASEAN আর BRICS তাঁদের নিজ মানুষদের জন্যে পরিবর্তন নিয়ে আসছে।

১৯ শে মে, ২০১৭ ভোর ৪:৩৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি ভালো দিকগুলোকে বুঝার চেস্টা করছি! BRICS ভালো করার সম্ভাবনা আছে; ও ASEAN ভালো করেছে

১৯ শে মে, ২০১৭ ভোর ৫:০৭

চাঁদগাজী বলেছেন:



আপনি কি অর্থনীতি/ফাইন্যান্সের ছাত্র, বা প্রফেশানেল?

১৩| ১৯ শে মে, ২০১৭ ভোর ৫:২২

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: ট্রাম্প-এর কিছু কাজকারবার গতানুগতিক রাজনীতিবিদদের মত হবে না সেটাই স্বাভাবিক। তবে আমেরিকার জনগণ কী এসবে বিরক্ত???

১৯ শে মে, ২০১৭ ভোর ৫:২৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমেরিকান লোকজন রাশান কিছু শুনলে মগজ ও কাপড় ফেলে দিয়ে লাফায়; তদন্ত হচ্ছে, ট্রাম্পের নির্বাচন কমিটি কিভাবে রাশিয়ানদের সাথে কি বলেছে ইত্যাদি নিয়ে।

১৪| ১৯ শে মে, ২০১৭ ভোর ৬:১২

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: প্রাক্তন এফবিআই কর্তা রবার্ট ম্যুলারকে নিয়োগের বিষয়ে সংক্ষিপ্ত প্রতিক্রিয়ায় প্রেসিডেন্ট বলেছিলেন, ‘‘আমার প্রচারের সঙ্গে কোনও বিদেশি শক্তি হাত মেলায়নি। তদন্তের পর এ কথা আরও স্পষ্ট হয়ে যাবে""। তবে বৃহস্পতিবার সকালেই ট্রাম্প টু্ইটারে পর পর দুটি তোপ দাগিয়ে প্রথমটিতে বলেন, ‘‘ক্লিন্টনের প্রচার ও ওবামা জমানায় তো অসংখ্য দুর্নীতি হয়েছে। কই, তখন তো কোনও বিশেষ তদন্তকারী অফিসার নিয়োগ করা হয়নি!’’ এর ১৩ মিনিট পরেই দ্বিতীয় টুইটে তাঁর বিস্ফোরক মন্তব্য— ‘‘আমেরিকার ইতিহাসে এ ভাবে কখনও ডাইনি-খোঁজ চলেনি।’’ ট্রাম্পের দাবি, ‘‘ইতিহাসে আর কোনও রাজনীতিবিদকে এতটা অন্যায্য ভাবে দেখা হয়নি।’’ ট্রাম্পতো এতে মনে হয় নীজকে পুরাপুরি রাজনীতিবিদের কাতারে এনে ফেলেছে ।

১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ৮:৫৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


কেহই তাকে চাচ্ছে না।

১৫| ১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ৭:১৩

তাতিয়ানা পোর্ট বলেছেন: Hola. Como estas?

১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ৮:৫৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


Bien, Bien, gracious, e usted? গ্রাজুয়েশন করার কথা?

১৬| ১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ৯:২১

আবু মুছা আল আজাদ বলেছেন: আমার ভাবনা মতে বিভিন্ ইস্যুর ফলে ট্রাম্প সম্ভবত টিকতে পারবেনা/বা টিকতে দেয়া হবেনা।

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:২৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


রাশান কানেকশান এনে, মিডিয়া ও রাজনীতিবিদরা মানুষের মনে সন্দেহের সৃস্টি করেছে, ও ক্রমেই তাকে 'ক্রিমিনাল' হিসেবে দাঁড় করানোর চেস্টা করছে; সেটা ইমপিচমেন্টের দিকে যেতে পারে; অথবা ইমোশানেল ট্রাম্প নিজেও সরে যেতে পারে একদিন; সে বলেছে যে, সে খুব বেশী কাজ করছে, এত কাজ করার কথা সে ভাবেনি আগে।

১৭| ১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ৯:৫৪

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: ট্রাম্প শেষ পর্যন্ত সব কিছু লেজে গোবরে করে ফেলেছে। আমেরিকার ইতিহাসে এত অপদার্থ প্রেসিডেন্ট আর কখনো এসেছেন বলে মনে হয় না।

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৩১

চাঁদগাজী বলেছেন:


সে ওবামা কেয়ারের বিপক্ষে গিয়ে সাধারণ মানুষের মনে কিছুটা আঘাত দিয়েছে; এবং রাশান কানেকশান সামনে এনে, তাকে মানুষ থেকে আলাদা করা হচ্ছে।

আগে যারা খুবই সুচারু প্রেসিডেন্ট ছিলেন, তারা অনেক ভাঁজ দিয়েছেন ও গলাবাজি করেছেন অনেক।

১৮| ১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ১০:০৬

ফরিদ আহমদ চৌধুরী বলেছেন: ছবিতে ট্রাম্প কি আজান দিতেছে?

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৩১

চাঁদগাজী বলেছেন:



মুসলমানের সংখ্যা বাড়ছে, মনে হয়!

১৯| ১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ১১:২৪

সৈয়দ তাজুল ইসলাম তাজ হাবিবী বলেছেন: "ট্রাম্পকে প্রেসিডেন্ট পদ থেকে বের করার জন্য আমেরিকার সব রাজনীতিবিদরা খেয়ে না খেয়ে লেগে গেছে; এটা হয়তো তাদের জন্য একটা সুযোগ নিয়ে আসতে পারে; কারণ, আমেরিকার জনতাও রাশিয়ানদের ব্যাপারে জঘন্য কুসংস্কারে ভোগে। ট্রাম্প কিন্তু বারবার বলে আসছে যে, পুটিন ভালো মানুষ নয়, তার সাথে শত্রুতায় যাওয়া ভুল হবে; রাশিয়া ও আমেরিকার বন্ধুত্ব বিশ্বের সবার জন্য ও আমেরিকার জন্য ভালো।

ট্রাম্প মোটামুটি নিজের ডলার খরচ করে নির্বাচন করেছে; এতে আনুমানিক ৭০ মিলিয়ন ডলার খরচ হয়েছে; এখন আমেরিকান রাজনীতিবিদরা বুঝতে চাচ্ছে যে, এতে পুটিনের ডলার আছে কিনা।"

সত্য কথাটাই বললেন।

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৩২

চাঁদগাজী বলেছেন:



আমি বুঝার চেস্টা করছি

২০| ১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ১১:২৭

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: সৌদি দের শিক্ষার অভাব আছে, তাই আমেরিকান জুজুর ভয়ে তারা তটস্থ।

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


সৌদী রাজ পরিবার ১০৪ ট্রিলিয়ন ডলারের (১০৪, ০০০, ০০০, ০০০, ০০০) সম্পদ দখল করে বসে আসে; তারা সেটা রক্ষা করে চলেছে আমেরিকা ও ইউরোপকে তার ভাগ দিয়ে।

২১| ১৯ শে মে, ২০১৭ সকাল ১১:৫৯

সাদা মনের মানুষ বলেছেন: বনের মোষ তাড়ানোর সময় কোথায়?

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


সময়ের অভাব আছে, এখন মহিষেরও অভাব দেখা দেবে।

২২| ১৯ শে মে, ২০১৭ দুপুর ১২:১১

ধ্রুবক আলো বলেছেন: দেখা যাক কি হয়!?
আমেরিকানদের একটা বড় নীতি, পররাষ্ট্র নীতি।

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিশ্বকে সমস্যার মাঝে ঠেলে দিয়েছে আমেরিকা, রাশিয়া, চীন, ইরান ও উ: কোরিয়া(সম্প্রতি); এখন আমেরিকা চাইলেও সরে যেতে পারবে না।

২৩| ১৯ শে মে, ২০১৭ দুপুর ১২:৫৬

রাজীব নুর বলেছেন: আপনার পোষ্ট এবং মন্তব্য গুলো পড়ে জানতে পারলাম এবং বুঝতে পারলাম-

আমেরিকান রাজনীতিবিদরা ট্রাম্পকে বাদ দিয়ে পেন্সকে দিয়ে আমেরিকা চালাতে চাচ্ছে। ট্রাম্পের কিছু কাজকারবার গতানুগতিক রাজনীতিবিদদের মত হবে না সেটাই স্বাভাবিক। সে মোটামুটি নিজের ডলার খরচ করে নির্বাচন করেছে- এতে আনুমানিক ৭০ মিলিয়ন ডলার খরচ হয়েছে।




ট্রাম্প টু্ইটারে পর-পর দুটি তোপ দাগিয়ে প্রথমটিতে বলেন, ‘‘ক্লিন্টনের প্রচার ও ওবামা জমানায় তো অসংখ্য দুর্নীতি হয়েছে।




আমার ভাবনা মতে বিভিন্ন ইস্যুর ফলে ট্রাম্প সম্ভবত টিকতে পারবে না/ বা টিকতে দেয়া হবে না। আমেরিকার ইতিহাসে এত অপদার্থ প্রেসিডেন্ট আর কখনো এসেছেন বলে মনে হয় না। আমেরিকার জনগন রাশিয়ানদের ব্যাপারে জঘন্য কুসংস্কারে ভোগে। রাশিয়া ও আমেরিকার বন্ধুত্ব বিশ্বের সবার জন্য ও আমেরিকার জন্য ভালো।



১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:২৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


ট্রাম্প প্রেসিডেন্ট হওয়ায়, আমেরিকা রাতারাতি বদলাবে না; কিন্তু সে রাজনীতিবিদদের গালে থাপ্পড় দিয়েছে; রাজনীতিবিদরা মানুষের ভোট নিয়ে কর্পোরেশনগুলোর চাকর হয়ে থাকে।

২৪| ১৯ শে মে, ২০১৭ দুপুর ১:৩২

ঢাকাবাসী বলেছেন: আমরা কত বিলিয়নের কিনছি!

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:১৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


বাংলাদেশের অস্ত্র কেনার কারণ নেই, এ ধরণের মিলিটারীর দরকার নেই; বাংলাদেশের প্রতিটি মানুষকে মিলিটারী ট্রেনিং দেয়ার দরকার; সেটা হবে 'পিপলস আর্মি'।

২৫| ১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৩:১৬

জীবন সাগর বলেছেন: আপনার চিন্তাকুল বিচিত্র

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:১৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমারও সন্দেহ হয়, আমি কিসব আবোল তাবোল ভাবি, আবোল তাবোল দেখি!

২৬| ১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৩:৪৯

iibrahimmasum বলেছেন: আমেরিকাকে ধ্বংসের জন্য ট্রাম্প একাই যথেষ্ট । । ।

১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:১৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


সমস্যা হলো, আমেরিকা না থাকলে চীন ও রাশিয়া বিশ্ব থেকে মানুষকে বিদায় করে দেবে; শুধু উত্তর কোরিয়া ও ইরান বিশ্বের অর্ধেক ধ্বংস করে ফেলবে।

২৭| ১৯ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৫:৫১

সত্যের ছায়া বলেছেন: আমেরিকানদের উচিৎ হবে ট্রাম্প কে আরো সময় দেয়া। আমার মনে হয় ট্রাম্প আগে থেকে পরিণত হওয়া শুরু করেছে। আকডুম বাকটুম কমিয়ে দিয়েছে।

১৯ শে মে, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:১০

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমেরিকানরা এখনো আশাবদী, রাজনীতিবিদরা সুযোগ খুঁজতেছে

২৮| ১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ৯:৪৩

প্রামানিক বলেছেন: দেখা যাক ট্রাম্প সৌদি এসে কি করে -- - -

১৯ শে মে, ২০১৭ রাত ১০:২৩

চাঁদগাজী বলেছেন:


তেলের পয়সা ১০৯ বিলিয়ন নিয়ে যাবার জন্য কাগজপত্র সাইন করা হবে।

২৯| ২০ শে মে, ২০১৭ রাত ১২:৪২

উম্মে সায়মা বলেছেন: যুদ্ধে যুদ্ধে দুনিয়াটা শেষ হয়ে গেল B:-)

২০ শে মে, ২০১৭ রাত ১২:৫৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


বর্তমানে সৌদী ও ইরান, তাদের তেলের বড় টাকা অস্ত্র ও জংগীবাদে দিচ্ছে।

৩০| ২০ শে মে, ২০১৭ সকাল ১১:১৩

মূর্ক্ষের পিতা হস্তী মূর্ক্ষ বলেছেন: Good

২০ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৩২

চাঁদগাজী বলেছেন:


সংবাদ ইত্যাদিকে এনালাইসিস করে পোস্ট দেন।

৩১| ২০ শে মে, ২০১৭ দুপুর ১২:৫১

নীলপরি বলেছেন: ট্রাম্প মোটামুটি নিজের ডলার খরচ করে নির্বাচন করেছে; এতে আনুমানিক ৭০ মিলিয়ন ডলার খরচ হয়েছে; এখন আমেরিকান রাজনীতিবিদরা বুঝতে চাচ্ছে যে, এতে পুটিনের ডলার আছে কিনা।

তেমনটাই মনে হয় ।

২০ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৩১

চাঁদগাজী বলেছেন:



সম্ভাবনা আছে, সেটা বের করার চেস্টা চালাচ্ছে আমেরিকান রাজনীতিবিদরা।

৩২| ২৪ শে মে, ২০১৭ রাত ৮:৪৫

তাতিয়ানা পোর্ট বলেছেন:
Graduated.

২৪ শে মে, ২০১৭ রাত ৯:০৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


অনেক অনেক অভিনন্দন; আশাকরি, আপনার পরবর্তী প্রচেষ্ঠা সফল হবে; অনেক শুভ-কামনা; সঠিকভাবে প্ল্যান করুন, সময় দেন।

৩৩| ২৪ শে মে, ২০১৭ রাত ৯:১০

তাতিয়ানা পোর্ট বলেছেন: I am a very serious student.

২৪ শে মে, ২০১৭ রাত ৯:৩৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি তাই বিশ্বাস করি।

ব্লগে লিখুন, কিছটা হালকা অনুভব করবেন।

৩৪| ২৫ শে মে, ২০১৭ সকাল ১০:২০

সমাজের থেকে আলাদা বলেছেন: ট্রাম্পের চরিত্র ফুলের মতো (কচু গাছেও ফুল হয়) পবিত্র
ট্রাম্পের চরিত্র ফুলের মতো (কচু গাছেও ফুল হয়) পবিত্র

২৫ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:৪০

চাঁদগাজী বলেছেন:


ট্রাম্প পরিবার সৌদী রাজ পরিবারারকে আগের মতো সন্মান করেনি; মেয়েরা খলি মাথায়, ইসরায়েল ও ভেটিকানে গিয়ে সন্মান দেখায়েছে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.