নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

.......

হাসান ইকবাল

.... ছেলেবেলার দুরন্ত শৈশব কেটেছে নেত্রকোনায়। আর সবচেয়ে মধুর সময় ছিল সিলেটের শাহজালাল বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে পড়ার দিনগুলি। আর এখন কাজ করছি সুবিধাবন্চিত শিশুদের জন্য একটি স্পানিশ আন্তর্জাতিক উন্নয়ন সংস্থায়।

হাসান ইকবাল › বিস্তারিত পোস্টঃ

কবি কাহ্নপা : নেত্রকোনার প্রথম ও আদি কবি

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:০৯

কবি কাহ্নপা, জন্ম-আটপাড়া, কৃষ্ঠপুর গ্রাম। জন্ম-আনুমানিক ১০ম শতকে। হাজার বছর আগের বৌদ্ধ সিদ্ধাচার্য ও চর্যাপদ কর্তা। প্রকৃত নাম কৃষ্ণাচার্য পাদ, অপভ্রংশে হয়েছে কাহ্নপা। ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ চর্যার কালকেই বাংলা সাহিত্যের উৎপত্তি কাল বলে বর্ণনা করেছেন। তাঁর মতে সিদ্ধাচার্য মীননাথ ওরফে মৎসেন্দ্র নাথই বাংলা সাহিত্যের প্রথম কবি। এবং তিনি প্রমাণ করেন যে মৎসেন্দ্রনাথ ৭ম শতকে জীবিত ছিলেন। কিন্তু মৎস্যেন্দনাথ চর্যাপদের প্রথম কবি হলেও কবি কাহ্নপাই চর্যা পদের প্রথম এবং শ্রেষ্ঠ কবি। কিন্তু বাংলা সাহিত্যের ইতিহাস গবেষক প্রখ্যাত বৌদ্ধ ধর্মীয় অধ্যক্ষ জিতেন্দ্র লাল বড়ুয়া “নেত্রকোণা: অতীতও বর্তমান” শীর্ষক এক গবেষণা মূলক রচনায় কাহ্নপাকে নেত্রকোণার আটপাড়া উপজেলার কৃষ্ঠপুর গ্রামের সন্তান বলে দাবী করেছেন।

কবি কাহ্নপা রচিত চর্যাপদে ব্যবহুত বিভিন্ন শব্দ এখনও নেত্রকোনার গ্রামাঞ্চলে ব্যাপক প্রচলন। জিতেন বড়ুয়ার দাবীকে যৌক্তিক বলে প্রাতিষ্ঠত করেছে। তবে কেউ তাঁকে তিব্বতি ঐতিহ্যমতে উড়িষ্যার অধিবাসী বলেছেন। বাংলা সাহিত্যের আদিনিদর্শন চর্যাপদের কবি গোষ্ঠীর মধ্যে তিনিই ছিলেন শ্রেষ্ঠ। পালরাজ দেব পালের রাজত্বকালে (আনুমানিক ৯০০-৯৫০) তিনি বর্তমান ছিলেন। কাহ্নপাই সম্প্রদায় গতভাবে ব্রাহ্মন ছিলেন, পরে সহজিয়া মতে দীক্ষা নিয়ে সিদ্ধাচার্য, মন্ডলাচার্য ইত্যাদি উপাধিতে ভূষিত হন। পরিণত বয়সে তিনি পাহাড় পুরের সোম বিহারে অবস্থান করতেন। তিনি ছিলেন সোম বিহারের অন্যতম বিখ্যাত আচার্য। তিনি বৌদ্ধ সহজিয়া মতের অনুসারী ছিলেন। নাথ পন্থী যোগী জলন্ধরী পা (বা হাড়িপা) ছিলেন তাঁর গুরু। চর্যাপদের ২৩ জন কবির মধ্যে কাহ্নপার পদ সংখ্যা সর্বাধিক, মোট ১৩টি। এ পর্যন্ত কাহ্নপার ভনিতায় ৭৪ খানি গ্রন্থের নাম জানা গেছে।

অন্যান্য পদ কর্তার মতে কাহ্নপাও সঙ্গীতজ্ঞ ছিলেন। তাঁর প্রত্যেক পদের শীর্ষে রাগ তালের উল্লেখ্য আছে। রূপক প্রতীক সংকেতের ভাষায় রচিত পদ গুলিতে তাঁর কবিত্ব শক্তির পরিচয় পাওয়া যায়। তাঁর কাহ্নপা গীতিকা, যোগরতœমালা, হেবজ্রসাধন, মন্ডল বিধি, হেবজ্রপদ্ধতি ইত্যাদি। এছাড়া অপভ্রংশ ভাষায় লেখা তাঁর একটি “দেহকোষ” আবিষ্কৃত হয়েছে। তাঁর রচিত “হেবজ্র পঞ্জিকা” নামক একখানা পুথি কেমব্রিজ বিশ্ব বিদ্যালয়ের গ্রন্থাগারে রক্ষিত আছে। আলোচনা সাপেক্ষে বলা যায় চর্যাপদ কবি কাহ্নপাই নেত্রকোনার প্রথম ও আদি কবি। তথ্য সূত্রঃ নেত্রকোণা মুখশ্রী, নেত্রকেণা জেলা সমন্বয় পরিষদ ঢাকা।

[হামিদুর রহমান-এর লেখা নতুন পাণ্ডুলিপি "নেত্রকোনার বাউল কবি" থেকে নেয়া।]

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +৪/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:২৭

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: তথ্য বহুল গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট।+

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:১৫

হাসান ইকবাল বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে সময় করে পড়বার জন্যে।

২| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ২:০২

শকুন দৃিষ্ট বলেছেন: দারুন তথ্য দিলেন ভাই। সিদ্ধাচার্য মীননাথ ওরফে মৎসেন্দ্র নাথই বাংলা সাহিত্যের প্রথম কবি - জানা ছিল না। এই নিয়ে কলকাতার ঠাকুরপুকুরে এক দাদার সাথে তর্ক লাগছিল আমার। বাংলা ভাষার উৎপত্তিও নাকি প্রাচীন ভারতে(বর্তমান ভারতে - তখনকার বাংলাদেশ অংশ ছাড়া) এবং বাংলা সাহিত্যের প্রথম কবিও নাকি তাদের ওখানকার জন্ম। আমি জানি - বাংলা ভাষার উৎপত্তি নেপালের রাজ দরবারে - মাগধী-অপভ্রংশ সন্স্কৃত হয়ে - বাংলা। এ বিষয়ে জানা থাকলে আরও বিস্তারিত জানান যদি সম্ভব হয়। দাদার বাংলা নিয়ে সে কি বড়াই - অথচ কিছু বাংলা আর কিছু হিন্দি মিলিয়ে কথা বলছিল। নিজেদের ইতিহাস যে কত কম জানি - খারাপ লাগে ভাই।

তথ্য বহুল পোস্টে +++

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:১৫

হাসান ইকবাল বলেছেন: ধন্যবাদ আপনাকে।

৩| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ ভোর ৬:৫৬

খায়রুল আহসান বলেছেন: অজানা তথ্য, জেনে সমৃদ্ধ হ'লাম। অনেক ধন্যবাদ।
পোস্টে ভাল লাগা + +

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:১৫

হাসান ইকবাল বলেছেন: ধন্যবাদ।

৪| ২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১০:০৫

রাজীব নুর বলেছেন: এই ব্যাপারে কিছুই জানতাম না!!

২৪ শে ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:১৬

হাসান ইকবাল বলেছেন: অল্প বিস্তর জানাতো হলো!

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.