নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

যাযাবর রাজা রিটার্নস

যাযাবর রাজা রিটার্নস › বিস্তারিত পোস্টঃ

শুধু কি কতৃপক্ষের কচ্ছপ গতিই দায়ী? নগরবাসীর অসচেতনতা কি দায়ী নয়?

১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ সকাল ১০:০৬



চলার পথে এদিক ওদিক কিংবা উপরে নিচে আমরা কোনো কিছুতে কোনো অসংগিতে দেখলেই দোষ দিয়ে বসি কতৃপক্ষকে অথবা সরকারকে।
তেমনি একটি অসংগতি হলো রাজধানীতে পানি নিষ্কাশনের নিমিত্তে নির্মিতব্য ড্রেনগুলো নির্মান করতে করতেই তা পানি নিষ্কাশনের অনুপযোগী হয়ে যাওয়া।এ ব্যাপারে আমরা সর্বদা কতৃপক্ষের কাজের কচ্ছপ গতিকেই দায়ী করি।ভুলেও তার কিছুটা দোষ নিজের গায়ে মাখিনা।কিন্তু না মাখলেও যে,কতৃপক্ষের পাশাপাশি আমরা রাজধানীবাসীও এর জন্য দায়ী, এই কথাটা পূর্ব দিকে সূর্য় উঠার মতো সত্য।
চিত্রগুলো রামপুরা টিভি সেন্টার নিকটস্থ নির্মিতব্য একটি ড্রেনের চিত্র।ছবিতে দেখা যাচ্ছে ড্রেনটির ভিতর প্লাষ্টিক বোতল,পলিথিন সহ বিভিন্ন ধরনের আবর্জনা, যা পানি নিষ্কাশনে ব্যাপক ভাবে বাধা সৃষ্টি করবে আর ফলাফল হিসেবে একবছরের মধ্যেই ড্রেনটি আবার অকেজো হয়ে যাবে এবং নোংরা হয়ে যাবে ঢাকা শহর।
এখন আমার প্রশ্ন হচ্ছে এই বোতল,পলিথিন গুলো কি কতৃপক্ষ এসে ফেলেছে?সরকার এসে ফেলেছে?
না, এগুলো সরকারও ফেলেনি,কতৃপক্ষও ফেলেনি।এগুলো ফেলেছি আমরা রাজধানীবাসী।
অতএব বলা যায় কতৃপক্ষের কচ্ছপ গতি যেমন ড্রেনগুলোর অন্ধকার ভবিষ্যতের জন্য দায়ী, তেমনই আমজনতার অসচেতনতাও তার চেয়ে বেশি দায়ী।একথার উত্তরে কিছু ত্যাড়া লোক আছে, যারা বলে থাকে, 'কতৃপক্ষ এভাবে ফেলে রাখে কেনো?
তারা এভাবে রাখলে আমরাতো ফেলবোই'।
একটি প্রবাদ আছে, 'তুমি অধম,তাই বলিয়া কি আমি উত্তম হইবো না?'
হুম।মানলাম কতৃপক্ষের ড্রেনগুলো নির্মান কাজের কচ্ছপ গতি অধমের কার্য ভিন্ন কিছু নয়।কিন্তু তাই বলিয়া আমরা নগরবাসী উত্তম হইবোনা কেনো?আমরা নগরবাসীরা কি ড্রেনগুলোতে এই ময়লাগুলো না ফেলে নির্মিতব্য ড্রেনগুলোকে যত্ন করে উত্তম হইতে পারিনা?
এটা আমারা চাইলেই পারি।কিন্তু আমরা করিনা।কারণ কতৃপক্ষের চেয়ে আমরা আরও বড় অধম।
আসুন আমরা এই অধমিপনা বাদ দেই,আমাদের শহরকে আমাদের বাসযোগ্য রাখতে একটু সচেতন হয়ে কতৃপক্ষকে একাই অধম রাখি,আমরা নগরবাসীরা উত্তম হওয়ার চেষ্টা করি।জানি, হুট করেই তা সম্ভব না।অনেক দিনের বদভ্যাসতো।অসুবিধা কি?আমরা একটু একটু করে উত্তম হওয়ার চেষ্টা করি।
বিঃদ্রঃ ছবিগুলো শুধু রামপুরাতেই নয়,সমগ্র ঢাকা শহরেই এমন অবস্থা দেখা যায়।

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ সকাল ১১:২৪

একে৪৭ বলেছেন: "আসুন নিজেরা ভাল হই..."
এই ধরনের আহবান শ্রুতিমধুর শোনালেও এ পরিবেশে অত্যান্ত অকার্যকর, অদূরদর্শী এবং অবাস্তব।

আপনি নীতিকথা শুনিয়ে দুই-চারজনকে ঠিক পথে আনলেও বেশীরভাগই আপনার কথা শুনতে পাবেনা, শুনলেও মানবেনা, কেউ সাময়িক মানলেও অন্যদের দেখে আবার আগের মতোই হয়ে যাবে।

প্রশাশন যদি বলে ডাস্টবিনে ময়লা ফেলুন, তবে ডাস্টবিনটা যে ঠিক যায়গায় থাকাও নিশ্চিত করতে হবে প্রশাশনকেই! এবং তা ডাস্টবিনে ময়লা ফেলার আহবান জানানোর আগেই।
অন্যথায় আপনার ময়লা ফেলার সঠিক যায়গা এবং আমার সঠিক যায়গার নির্বাচনে একটা গ্যাপ তৈরী হবে, যা তৃতীয় একজন এসে চারদিকে কেবল ময়লাই দেখতে পাবে, যা আপনি, আমি, আমরা সবাই এখন দেখছি।

আমাদের দরকার বুদ্ধিমান জ্ঞানী প্রশাশন, যারা সঠিক ফাঁকফোকর বিহীন রুলস তৈরী করবে, তা প্রয়োগ করবে, মনিটর করবে, এবং প্রয়োজনে বলপ্রয়োগ করবে, এতে আস্তে আস্তে সাধারনের অভ্যাস পরিবর্তন হবে।
দুঃখজনকভাবে বাস্তবে প্রশাশনের কোয়ালিটি আমরা জানি, আর এতে হতাশা ছাড়া কিছু দেখতে পাচ্ছিনা। আশা করি সব ঠিক হবে একদিন।

নিজেরা ভাল হবার আহবানে কাজ হলে চোর, ডাকাত, ধর্ষক, দূর্নীতিবাজ থাকতো না, পুলিশ লাগতো না, কোন ধরনের কনফ্লিক্ট থাকতো না।

২| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ সকাল ১১:৩২

সুমন কর বলেছেন: বাঙালী কি কথা বললে, শুনবে !!

আত্ম-সচেতনা না থাকলে এসব বন্ধ হবে না।

৩| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৪:৫৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: জাতি হিসাবে আমরা অত্যন্ত স্বার্থপর, নোংরা এবং নীচু মানসিকতা সম্পন্ন! আমরা আমাদের বাসার মেঝেতে থুতু ফেলি না, কিন্তু সমস্ত শহরে যত্রতত্র কফ-থুতু ফেলি। আগে এইটা ঠিক করি! অন্যসব তো বহু দুরের কথা!

৪| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ৮:০৫

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: দারুণ কাজ করেছেন ভাই, হাতে কলমে স্বচক্ষে শিক্ষা দিয়ে দিলেন ।

আমরা নাগরিক অসচেতনতায় ভোগছি....

৫| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ৮:১৭

শখের লেখায় ২৩৪৩ বলেছেন: আমরা নগরবাসীরা উত্তম হওয়ার চেষ্টা করি +++

৬| ১২ ই অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:০৮

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: আইনের প্রয়োগ করলে সবাই লাইনে আসবে। একই লোক যখন দেশের বাইরে যাবে তখন কোন জাদুতে এত ভালো হয়ে যায়? সব হচ্ছে মানসিকতার ব্যপার। তবে জরিমানার ব্যবস্থা করলে সবাই লাইনে আসবে...

৭| ১৪ ই অক্টোবর, ২০১৭ সকাল ১১:৫৮

আব্দুল্যাহ বলেছেন: আমরা চিপায় ময়লা ফেলতে অভ্যস্ত, তাই এই দষা।
রাস্তার ডাস্টবিন যেহেতু চুরি হয়ে যায় তাই প্রতিটি দোকানের সামনে ময়লার বক্সই ভরসা। তাহলে কিছুটা উন্নতি হবে

৮| ১৫ ই অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৭

স্বপ্নবাজ অভি বলেছেন: নগরবাসীর দায়টাই বেশী!

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.