নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

পাঠক।

জুনায়েদ বি রাহমান

আমার ভিতর বাস করে এক অস্থির বেনামি বাউণ্ডুলে পাখি; যার কাঙ্ক্ষিত কোনো গন্তব্য নেই।

জুনায়েদ বি রাহমান › বিস্তারিত পোস্টঃ

বিএনপি ছাড়া আ.লীগের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার মতো দল বা জোট দেশে নেই!

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৩

সামনে নির্বাচন। নির্বাচনকে ঘিরে দেশের সাধারণ মানুষদের ভেতর কোনপ্রকার ফিলিং টিলিংস কাজ করছে বলে মনে হচ্ছে না। বিম্পি নিরপেক্ষ সরকারের দাবীতে এখনো অনড়। সাবেক এমপি মন্ত্রীদের প্রচার প্রচারণাও তেমন চোখে পড়ছে না। আমাদের মৌলভীবাজার-১ আসনের সাবেক সংসদ সদস্য, প্রাক্তন প্রতিমন্ত্রী এড. এবাদুর রাহমান চৌধুরীর ফেইসবুক পেইজে নির্বাচন নিয়ে কোনো বক্তব্য নেই। জা.পা'র আহমেদ রিয়াজ সাহেব অবশ্য একটু excited। যদিও মহাজোটের বর্তমান হুইপ যেখানে প্রার্থী সেখানে উনার সম্ভাবনা শূন্য।

সারাদেশের নির্বাচনী চিত্র প্রায় এমনই। বিএনপি ছাড়া আওয়ামীলীগের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার মতো কোনো দল কখনোই ছিলো না। এখনো নেই। যুক্তফ্রন্ট, নাগরিক ঐক্য সহ অন্যান্য দলগুলার রাজনীতি নির্দিষ্ট কিছু শহরে'ই বিদ্যমান। বাইরে এদের অস্তিত্ব নেই। সাধারণ মানুষ নিয়ে তারা কখনো কিছু বলেনি। সুতরাং মানুষও তাদের সম্পর্কে জানে না। বলা যায়, এখন পর্যন্ত ভোটের মাঠে আওয়ামীলীগ'ই একা। আর তাই খালি মাঠে গোল দেওয়ার স্বপ্নে আ.লীগ এমপি মন্ত্রীররা একটু বেশিই excited। কে কি বলছেন! কেনো বলছেন ঠিক বুঝা যাচ্ছে না। উনাদের প্রচার প্রচারণাতে নান্দনিকতা বা গতানুগতিকতা কোনটাই নেই। বিগত ১০ বছরের উন্নয়ন নিয়েও উনারা ঢালাও ভাবে মুখ খুলছেন না। 'হাতে মোবাইল' থিওরি নিয়ে পাব্লিক ট্রল করছে। তবুও লীগের অন্যতম থিংক ট্যাক এইচ টি ইমাম সহ অনেকের ধারণা, আওয়ামীলীগের জনপ্রিয়তা দিনদিন বাড়ছে। উনারা নেতাকর্মীদের নির্বাচন নিয়ে টেনশন না করে প্রয়োজনে আক্রমণাত্মক হওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন। ক্ষমতাসীন প্রধানমন্ত্রীর সমসাময়িক বক্তব্যগুলোও অনেকটা হযবরল টাইপের। নির্বাচন সামনে নিয়ে এমন বক্তব্য মোটেও স্বাভাবিক নয়। সব মিলিয়ে মনে হচ্ছে আমরা আরো একটি একতরফা ছেলেখেলা মার্কা অর্থহীন নির্বাচনের সাক্ষী হতে চলেছি!

মন্তব্য ২১ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (২১) মন্তব্য লিখুন

১| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩১

চাঁদগাজী বলেছেন:


শেখ হাসিনা এই জন্যই বিএনপি'কে লালন পালন করছেন; না হয়, উাকে অনেক আগেই বিলুপ্ত করার মতো যথেষ্ট কারণ ছিলো।

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৫২

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: শেখ হাসিনা ক্ষমতা ধরে রাখার জন্য আস্তে আস্তে তাদের নিশ্চিহ্ন করতে চাইছেন। তিনি বিরোধীদলহীন মাঠ চান।

২| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪১

সৈকত জোহা বলেছেন: শেখ হাসিনা একসাথে অনেক রাজনৈতিক দল চালাচ্ছেন।

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৫৫

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: বিম্পিকে পঙ্গু করার রোডম্যাপ শেখ হাসিনার ছিলো। বাস্তবায়ন হচ্ছে।

অন্যান্য দল নিয়ে উনার মাথা ঘামানোর প্রয়োজন নেই। দুচারটি সিট দিয়ে দিলেই অন্যান্যররা খুশি থাকবে।

৩| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:২৫

হাবিব স্যার বলেছেন:


কে কবে তার স্বার্থ ছাড়া কাজ করেছে বলুন?
সে কি বিএনপি কি লীগ।
একই মুদ্রার এপিঠ ওপিঠ।

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৫৬

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: কেউ কারো স্বার্থের বাইরে কিছু করছে না, করেনি।

বিম্পির মতো লীগও একটাসময় কমড় টানতে টানতে হাটবে। পাব্লিক কিছুই বলবে না, বরপং মজা নেবে।

৪| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৮:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: আর কিছুদিন পর আওয়ামীলীগের সাথে প্রতিদ্ধদ্ধিতা করার মতো কেউ থাকবে না।

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৫৭

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: ঠিক বলেছেন। লীগের গতিবিধি তাই বলছে।

৫| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:০৭

চোখেরে কাঁটা বলেছেন: জাতীয় ঐক্য, বাম রাম সবাইকে কিছু সিট ফ্রি ছেড়ে দিলে এমনিতেই লীগ জিতবে। শেষ পর্যন্ত এটাই হবে।

০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ৯:৫৮

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: সহমত।

৬| ০৬ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ১১:৫০

সনেট কবি বলেছেন: লীগ এখনো দারুণ অবস্থায় আছে।

০৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ২:৩৫

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: হুম। তাইতো দেখছি।

৭| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ১১:০৫

কে ত ন বলেছেন: বিএনপি কি আওয়ামী লীগের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার ক্ষমতা রাখে? আওয়ামী লীগ তো তাঁদের প্রধান শত্রু মনে করে জামায়াতকে। এ কারণেই জামায়াতের যেসব নেতা নির্বাচনে জিতে যাবার ক্ষমতা রাখে, বিনা কারণে ধরে ধরে তাদেরকে লাল দালানে পাঠাচ্ছে।

০৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ২:৩৯

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: বিএনপি'র জনসমর্থন আছে। তবে নেতৃত্ব দেওয়ার মতো যোগ্য নেতা তাদের দলে নেই। আগামীতে তৈরি হওয়ার সম্ভাবনা নেই।
জামাতের পিঠে রাজাকারের তকমা। তাদের নীতিও ঠিক নেই। জনসমর্থন বিএনপি-আওয়ামীর চাইতে অনেক অনেক অনেক.... কম।

বিএনপি ছাড়া আ.লীগের সাথে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার মতো দল দেশে নেই।

৮| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৪:৫০

ফারিহা হোসেন প্রভা বলেছেন: কথাগুলো সঠিক বলেছেন।

০৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ২:৪০

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: ধন্যবাদ

৯| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:০৪

সৈকত জোহা বলেছেন: বিএনপির যেটা প্রাপ্য সেটাই তিনি দিচ্ছেন

০৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ২:৪৩

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: বিএনপির শিক্ষা নেওয়া উচিত। প্রতিহিংসা, ষড়যন্ত্রের রাজনীতি থেকে বেরিয়ে সুস্থধারার রাজনীতির চর্চা শুরু না করলে তারা দল টিকবে না।

শেখ হাসিনা বিএনপিকে সংস্কারের সুযোগ করে দিয়েছেন। তাদের কাজে লাগানো উচিত।

১০| ০৭ ই অক্টোবর, ২০১৮ বিকাল ৫:৩২

ব্লু হোয়েল বলেছেন: শাহ মোয়াজ্জেমীয় বানীঃ ১৯৯৪ সালের ৩০ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশনের এক নির্বাচন উপলক্ষ্যে লালদিঘীর ময়দানে বিশাল জনসভায় বলেছিলেন অন্ডকোষ বৃদ্ধি পেলে সেটাকে পুরুষত্ব বৃদ্ধি পাওয়া মীন করে না সেটা হচ্ছে একশিরা রোগ ।

০৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ রাত ২:৪৬

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: মন্দ বলেন নি।

নির্বাচনের পূর্বে বাংলাদেশে বিএনপি আওয়ামীর জনসমর্থন বাড়া মানে জনপ্রিয়তা বাড়া নয়, ক্ষমতাসীনদের উপর জনগণের বিরক্তির বহিঃপ্রকাশ!

১১| ০৮ ই অক্টোবর, ২০১৮ সকাল ৭:০৮

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: প্রিয় জুনায়েদভাই,

আশাকরি কুশলে আছেন। আলোচনা ভালো লাগলেও বিষয়টি বেশ উদ্বেগের। একটা গনতান্ত্রীক রাষ্ট্রে এমনটি হওয়া মানে ভয়ংকর প্রবনতা।

শুভকামনা জানবেন ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.