নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী –নামেই কবির পরিচয়। কবির বাড়ি পশ্চিমবঙ্গে বর্ধমান জেলার পাথরচুড় গ্রামে। প্রকৃতির সাথে পরিচয় ছোটবেলা থেকেই। বর্তমানে কবি বাংলা কবিতার আসর, বাংলার কবিতা ও কবিতা ক্লাবের সাথে যুক্ত। অবসর সময়ে কবি কবিতা লেখেন ও স্বরচিত কবিতা আবৃত্তি করেন

লক্ষণ ভান্ডারী

কবিতা

লক্ষণ ভান্ডারী › বিস্তারিত পোস্টঃ

অজয়ের নদীচরে

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ দুপুর ১:২০


অজয়ের নদীচরে
- লক্ষ্মণ ভাণ্ডারী



অজয়ের নদীচরে সোনা রোদ হাসে,
খেয়াঘাটে তরীখানি নদীজলে ভাসে।
এগাঁয়ের সোনামাঝি বৈঠা বেয়ে যায়,
শক্ত করে ধরে হাল ভাটিয়ালি গায়।

সোনারোদে চিকচিক করে বালিয়াড়ি,
দুই কূলে উঁচু গ্রাম নীচু তার পাড়ি।
নদীপাড়ে গাছেগাছে পাখি গীত গায়,
নীল আকাশের গায় চিল উড়ে যায়।

নদীঘাটে ছেলেমেয়ে কোলাহল করে,
বধূরা নাইতে আসে রাঙাশাড়ি পরে।
কলসীতে জল ভরি, কেহ ঘরে যায়,
সাদা বক নদী বাঁকে মাছ ধরে খায়।

বেলা বাড়ে ধীরে ধীরে সূর্য অস্তাচলে,
পশ্চিমেতে লাল হয়ে শেষে পড়ে ঢলে।
দিবসের শেষে হেরি আলোক লুকায়,
চাঁদ ওঠে তারা ফোটে আকাশের গায়।

মন্তব্য ৪ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৪) মন্তব্য লিখুন

১| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ দুপুর ১:৩৮

তারেক মাহমু৩২৮ বলেছেন: আরো একটি ভাল লাগার অজয় কাব্য

২| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ দুপুর ২:২৬

সৈয়দ ইসলাম বলেছেন: ভালোলাগা আপনার সাথে সর্বক্ষণ থাকে কেরে ভাউ?

৩| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৩:৩২

রাজীব নুর বলেছেন: আমি ইন্ডিয়া যাবো এবং অজয় নদীটা খুঁজে বের করবো।

৪| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৪:৪৭

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: কবিতাটি বেশ ভাল।অজয়ের তীরে কবি জয়দেবের জন্মভিটে ও অপর পাড়ে দেউল এসবের সম্গে লেখার যোগ পেয়ে ভাল লাগলো।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.