নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি মানুষ, এটাই আমার সবচেয়ে বড় পরিচয় ।

মাহমুদ পিয়াস

মাহমুদ পিয়াস › বিস্তারিত পোস্টঃ

ভন্ড !!!!

৩০ শে এপ্রিল, ২০১৭ রাত ১১:১৯

খুব খারাপ লিখা, 'আলেম'দের না পড়ার অনুরোধ!
#বিকেলে_পর্ণ_দেখতেছিলাম । খুব মজার একটা জিনিস, আমি প্রায়ই দেখি, দেখতে হয় আর কি। তো, একটা সময় ভাবলাম, দুনিয়াতে কি আমি একাই এই জিনিস দেখি, নাকি আমার সহযোদ্ধা আর কেউ আছে?
গুগল কে জিজ্ঞেস করলাম । উনি জানালেন, প্রতি মিনিটে বিশ্বে পর্ণ দেখে ৪৪০০০ জন। আমার জন্য খুব আশার কথা, যাক তাহলে সঙ্গী আছে আমার। কিন্তু কই, কেউ তো ফেসবুকে পোষ্ট দিয়ে বলে না যে, সে পর্ণ দেখতেসে, তাহলে কাহিনি কি? এখনকার এই মিনিটের এই ৪৪০০০ জন কারা?
না মানে আমি তো বটেই। বাকি ৪৩৯৯৯ জন কই ?
আসুন সামনে যাই...
পর্ণ দেখার ক্ষেত্রে সবচাইতে এগিয়ে আছে পাকিস্তান(কমেন্টে প্রমান)।
ভাবা যায় ?
যে দেশের প্রায় ৯৮ ভাগ মানুষই মুসলিম, যারা সবসময় ইসলামের খেদমতের জন্য নিজের জীবন পর্যন্ত বাজি রাখে, তারা আবার......
তারপর আসি, আরেক মুসলিম দেশ সৌদিঅারবের দিকে। উনারা আছে পর্ন তালিকার শীর্ষ দশটি দেশের মদ্ধ্যে ৭ নম্বরে।
অারবদেশ মুসলিমদের পাপমোচনের আস্রয়স্থল, মুসলমানের সবচেয়ে পবিত্র জায়গা, অথচ এখানকার অধিবাসীরাই কি না... এই দেশে জেনাকারীর শাস্তি কি জানেনই তো ! না কি আবার বলা লাগবে?
আরেকটু বলে রাখি, সৌদিআরবে বাবা-মা তার দুইছেলেকে একসাথে স্কুলে পাঠাতে ভয় পান, কেনো পান, লিখাটা পড়ে নিশ্চয় বুঝছেন?
এটা জেনা নয় ভাইয়া, এটাকে বলে ব্যাভিচার। জেনার চাইতে কয়েকশত গুন পাপের কাজ। তারা আমাদের চাইতে অনেক হাদিস জানেন, ইসলামের অনেক কিছু বোঝেন, তবুও.......???
তাহলে এও বুঝা গেলো, উনারা শুধু এসব দেখেই ক্ষান্ত হন না, তার বাস্তব প্রয়োগও ঘটান । যাক, তাহলে আমিই একমাত্র মুসলিম নই, যে এটা দেখে!!
উনারাও দেখেন, আমিও দেখি, তবে উনাদের সাথে আমার পার্থক্য হচ্ছে, উনারা খাটি মুসলিম আর আমি ????
হে হে হে থাক!!
.
যেসব নামধারি 'আলেমগন' যারা কি না নিজেদের ওয়ালে হাদিস ছাড়া অন্য কিছু শেয়ার করেন না, অথচ কোনো মেয়ের নামের পাশে সবুজ বাতি জ্বললেই হাই-হ্যালো শুরু করেন , যারা আমার বিকেলের পোস্টের কারনে ইনবক্স গালিতে ভর্তি করেছিলেন, তারা প্লিজ একবার নাউজুবিল্লাহ পড়েন, কারন আপনার জাতভাইয়েরাই এই মুহুর্তে এটা দেখে মজা নিচ্ছে, আপ্নিও নিচ্ছেন, কিন্তু ভাব দেখাইতেসেন বিজ্ঞ আলেমদের মতো ! এরকম আর কতকাল চলবে বস?
.
for your kind information, some month ago, when I realise that, porn is one kind of addiction like drugs, then I have stopped watching porn. that & this facebook post, there is no connection in my personal life, got it ??
তাহলে ক্যান মিথ্যা বললাম যে, পর্ণ দেখতেসি?
অনেক আলেমকে চিনি যারা "আমিন না লিখে যাবেন না" টাইপ পোস্টে 'আমিন' লিখে 'আল্লাহু' লিখে দিনে কয়েক হাজার নেকী ইনকাম করেন।
আসলেই কি তারা এসব লিখে সামান্যতম কিছু পান?
যদি না পান, তাহলে এখানে খারাপ সেজে থাকার মদ্ধেও নিশ্চয়ই গুনাহের ব্যাবস্থা নাই?
তাই তাদের দিকে তাকালে মনে হয়, আমার এরকম পোস্টই দেওয়া উচিত, তাই না ??
ভাই, যদি আল্লাহকে খুশি রাখার ইচ্ছা থাকে, তাহলে সবার অগোচরে একান্তই সব ইবাদত তার জন্যই করা উচিত। সত্তিকারের আল্লাহ ওয়ালারা এটাই করেন। "আমিন না লিখে যাবেন না" টাইপ পোস্টে 'আমিন' লিখে, ফেসবুকবাসীকে খুশি রাখার মদ্ধে বাড়তি নেকির ব্যাবস্থা নাই, তেমনি ফেসবুকে "watching porn" লিখার মদ্ধেও 'হয়তো' পাপের কিছু নাই !!
উপরে আলেম বলতে কাদের বোঝানো হয়েছে, এতক্ষনে বুঝে ফেলেছেন নিশ্চয় ! তাই আশা করি, এটা নিয়ে অমুলক কথা বলবেন না । কেউই এসব না দেখুক, সেটাই বিশ্বাস !!
কি দিয়ে শুরু হইলো আর কই সেশ হইলো !!
আমার নিজেরই আশা ভঙ্গ হইলো !!!!!!!

মন্তব্য ১ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (১) মন্তব্য লিখুন

১| ০১ লা মে, ২০১৭ সকাল ৭:১৪

হাফিজ রাহমান বলেছেন: পিয়াস ভাই ! আপনার পোষ্টটি পড়ে মনে হলো, আপনি এক শ্রেণীর আলেমদের উপর বেশ ক্ষুব্ধ, যারা নিজেরা পাপ করে। অথচ অন্যের পাপাচারে নিন্দামুখর হয়। সত্যিই এ চরিত্রটা নিন্দনীয়। তবে সব আলেমকেই এক ক্যাটাগরিতে ফেলা বোধ হয় যথার্থ নয়। উপরন্তু যেসব আলেম পাপে নিমজ্জিত হয়ে অন্যের পাপাচারে খড়গহস্ত হয় সুনির্দিষ্টভাবে তাদের ব্যাপারে বিরূপ মন্তব্য করা উচিত। ঢালাওভাবে এবং অনুমানের ভিত্তিতে কারো ব্যাপারে এমন মন্তব্য অনুচিত। আর আপনি যে তথ্যটি উল্লেখ করেছেন তা যদি সত্যি হয় তাহলে তা নিতান্তই বেদনাবিধুর এবং ভয়ঙ্কর ব্যাপার। ভয়ঙ্কর এ তথ্যে নিজেদের পাপাচারকে সহজ এবং ছোট করে দেখার অবকাশ নেই। মুসলিমদের এ চারিত্রিক অবক্ষয়ই তাদের সোনালী অতীতের বিলুপ্তি ঘটিয়েছে। তাদের সোনালী অতীত ফিরে পেতে হলে পাপাচারের এ জায়গাটি থেকে তাদের সরে আসতেই হবে। নতুবা এ জাগতেই তাদের জন্য মহা দুর্যোগ অপেক্ষা করছে। এখন মুসলিম হিসেবে আপনার আমার করণীয় হলো, নেট পাপাচার থেকে নিজে বিরত থাকা এবং অন্যদেরকেও বিরত রাখতে যথাসাধ্য চেষ্টা করা। এটা মুসলিম হিসেবে প্রতিটি মুসলিম সদস্যেরি দায়িত্ব। এখানে আলেম নন আলেম কোনো প্রসঙ্গ নয়। যদিও তাদের দায়িত্বের পরিধিটা খানিকটা বিস্তৃত। আর ভাই আপনার বিকেলের পোষ্টটা কি এবং কোথায় এ সম্বন্ধে কি কোনো ধারনা পেতে পারি ? পিয়াস ভাই ! আপনাকে ধন্যবাদ। ভাল থাকুন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.