নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

পাকিস্তান রাষ্ট্রটি না থাকলে পৃথিবীটা আরো সুন্দর হতো

১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ১২:৪১



১। মানুষের সাথে মানুষের সম্পর্কগুলো হয়তো আজীবন থাকে না। তবু যে ক'দিন সম্পর্ক থাকে সে সময়টুকু অন্তত এমন আচরণ করা উচিত, যেন সম্পর্ক ভেঙে যাবার পরও মানুষটা আপনাকে সম্মান করতে পারে।

২। "তোমার যদি বড় হবার আকাঙ্ক্ষা না থাকে, তুমি যদি শুধু কেরানি হতে চাও, তাহলে কেবল কেরানিই হবে এর চেয়ে বড় কিছু হতে পারবেনা। কিন্তু তুমি যদি চাঁদকে স্পর্শ করতে চাও তবে চাঁদকে স্পর্শ করতে না পারলেও কাছাকাছি যেতে পারবে।"
--- রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর

৩। পৃথিবীতে যে মানুষটি এলো সে ধীর লয়ে বড় হতে হতে দেখতে দেখতে নির্দিষ্ট বয়সে উপনীত হয়ে পৃথিবী থেকে বিদায় নিলো_ এটাই তো বাস্তবতা, এটাইতো সত্যি। মানুষের পার্থিব জীবনের মেয়াদকাল খুবই সীমিত। মানবজীবনের মেয়াদের অবসান ঘটে মৃত্যুর মধ্য দিয়ে।

৪। নানাবিধ রোগ প্রতিরোধে আমাদের দেশে গ্রীষ্মকালীন ফল তরমুজ আল্লাহ পাকের দেয়া এক বিরাট নেয়ামত, প্রাকৃতিক মেডিসিন।

৫। হাবলু কমোডে বসে তার নতুন আইফোন-৫ দিয়ে কথা বলছিল। হটাৎ তার ফোন নিচে কমোডে পড়ে গেলো। সে দুঃখে কষ্টে অনেক কান্নাকাটি করতে লাগলো। তখন হঠাৎ এক দেবতা আসলো পানি থেকে উঠে আর তাকে একটা সোনার আইফোন দিল। হাবলুর তখন কাঠুরের গল্প মনে পড়লো আর সে বলল “না এটা আমার না” । দেবতা তখন বলল, “আরে গাধা... এটা ধুয়ে তো দ্যাখ” ।

৬।
ছবিটি রাজারবাগ মোড় থেকে তোলা।
ইদানিং বড় বড় রাস্তার মোড়ে এরকম ঘর বানানো হচ্ছে পুলিশদের জন্য। আমার মনে হয়, রাস্তায় দাঁড়িয়ে হোন্ডা, সিএনজি, গাড়ি, পিকাপ ভ্যান থেকে ঘুষ নিতে পুলিশদের লজ্জা লাগে। তাছাড়া এখন সবার হাতে হাতে মোবাইল। কে কখন ছবি তুলে ফেলে, ভিডিও করে ফেলে। তাছাড়া চক্ষু লজ্জা বলে একটা কথা আছে। এখন নিরাপদে এই ঘরে বসে পুলিশরা দেনদরবার করতে পারবে। ঘুষ গ্রহন করতেও কোনো ভয় নেই। কেউ দেখবে না। কেউ জানবে না। বিশেষ করে ঈদের আগে পুলিশরা পাগল-পাগল হয়ে যায়। তখন তাদের চোখ মুখ চকচক করে। খুব মন দিয়ে শিকার ধরে। একটা শিকার ধরার পর তাদের চোখ মুখ অন্য রকম হয়ে যায়। শিকার ধরে বীরের মতো বড় স্যারের কাছে নিয়ে আসে।

মন্তব্য ৫৮ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৫৮) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ১২:৪৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


৫ নং'টা টপ হয়েছে।

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: হা হা হা ----

২| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ১২:৪৭

কাওসার চৌধুরী বলেছেন: চমৎকার আরেকটি, গুরুত্বপূর্ণ পোস্ট, রাজীব ভাই। সত্যটা তুলে ধরেছেন।

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: ভালোবাসা নিরন্তর।

৩| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ১২:৫২

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: পুলিশ, পাসপোর্ট অফিস, বিআরটিএ, তিতাস, রাজউক, কাস্টমস - এসব জায়গায় অনেক মানুষের অদৃশ্য লালা ঝরে আ রচোখ চিকচিক করে শিকার দেখলে...

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ।

৪| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ১২:৫৭

মো: নিজাম উদ্দিন মন্ডল বলেছেন: রাতের বেলা আপনার সাথে ক্যাচাল করলাম না।।


আপনি প্রথম সারির সিনিয়র ব্লগার। পোস্ট দেবার সময় শিরোনাম, ছবি এসব একটু ভেবে দিবেন। নিজের মাকে ভালবাসা ভাল, তাই বলে অতিভক্তি দেখাতে গিয়ে অন্যের মাকে গালি দিয়ে নয়!!!!


শুভ রাত্রি।

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: গালিটা আমার ঠিক আসে না।
ম্যাও ম্যাও টাইপ পোষ্ট দিয়েছি। কাজেই ক্ষমা সুন্দর চোখে দেখবেন। এতটুকু আপনাদের কাছে আশা করতেই পারি।

৫| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ১:১৩

এক হতভাগা বলেছেন: শিরোনাম , লিখা , ছবি কিছুটা এলোমেলো হয়ে গেলো না ?

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: তা হয়েছে।
এজন্য আমি আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

৬| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ১:২২

আকতার আর হোসাইন বলেছেন: শিরোনামের সাথে তোহ লেখার কোন মিল পেলাম না...

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৩২

রাজীব নুর বলেছেন: এটা আমার স্টাইল।

৭| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ২:১৪

ওমেরা বলেছেন: পৃথিবীতে এত এত দেশ তার মাঝে শুধু পাকিস্তানকেই আপনার খারাপ মনে হল !!

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৩৩

রাজীব নুর বলেছেন: জ্বী।
পাকিস্তানে যে সবচেয়ে ভালো। সেও একটা শুয়োরের বাচ্চা।

৮| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ২:২১

কলাবাগান১ বলেছেন: @ওমেরা
পাকিস্হান কি খুব ভাল দেশ??? তারা আমাদের সাথে কিরকম ব্যবহার করেছিল ১৯৭১ সনে আর তারপর থেকে??

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৪১

রাজীব নুর বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ।

৯| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ৩:১৯

এমজেডএফ বলেছেন: শিরোনাম, ছবি ও লেখা সম্পূর্ণ ভিন্ন। সম্ভবত রাজীব সাহেবের সৃস্ট নতুন স্টাইল! ভালোই তো, খারাপ না। নিজের বাস্তব অভিজ্ঞতা থেকে শিরোনামের সাথে সম্পূর্ণ একমত।

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৪৫

রাজীব নুর বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাই।

ভালো থাকুন। সুস্থ থাকুন।

১০| ১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৭:১৮

তার ছিড়া আমি বলেছেন: ব্লগার সকল!!!!!! ভাবছেন সবকিছু এলোমেলো কেন? হ্যা,,, এটা হল, "নুরী স্টাইল"। কি বলেন রাজিব ভাই?

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৫২

রাজীব নুর বলেছেন: একদম ঠিক।

১১| ১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৪৫

ক্স বলেছেন: পাকিস্তান রাষ্ট্রটি না থাকলে বাংলাদেশ নামে কন রাষ্ট্রের জন্ম হতোনা। এখন আমরা হিন্দু প্রধান একটি দেশের সংখ্যালঘু সম্প্রদায় হয়ে 'পূর্ববঙ্গ' নাম নিয়ে বেঁচে থাকতাম। ৮৮ টি স্যাটেলাইটের গর্ব করতাম, পারমাণবিক শক্তির গর্ব করতাম।

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ৯:৫৬

রাজীব নুর বলেছেন: আপনার মন্তব্যটি আমাকে পীড়া দিল।

১২| ১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ১০:১০

ক্স বলেছেন: পীড়া দিলেও এটাই সত্যি। পাকিস্তান রাষ্ট্রের প্রতিষ্ঠার জন্য পাঞ্জাবীরা মুলতানিরা আন্দোলন করেনি, করেছে শেরে বাংলা, সলিমুল্লাহ, আহসানউল্লাহ, নওয়াব আলী চৌধুরী নামের বাঙালিরাই। তারা খুব ভালো করেই জেনেছিলেন ইন্ডিয়া কি জিনিস। তাই পাকিস্তানের প্রয়োজনীয়তা তখন অনস্বীকার্য ছিল। আবু ইসহাকের 'সূর্য দীঘল বাড়ি' উপন্যাস পড়লে আপনি বুঝতে পারবেন পাকিস্তানের জন্মে পশ্চিমের চেয়ে পূর্বের অধিবাসীরাই খুশী হয়েছিল বেশি।

পাকিস্তান হয়েছিল বলেই মুক্তিযুদ্ধে আমরা প্রতিবেশী দেশের সহায়তা ও সমর্থন পেয়েছি। ভারতের মধ্যে থাকলে আমাদের অবস্থা হত কাশ্মীরের মত। সেটা কি ভাল হত?

১৩ ই মে, ২০১৮ সকাল ১১:১২

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

১৩| ১৩ ই মে, ২০১৮ বিকাল ৪:২৭

গড়ল বলেছেন: শেরে বাংলা, সলিমুল্লাহ, আহসানউল্লাহ, নওয়াব আলী চৌধুরীদের মত অথর্ব মুসলমানদের জন্যই ফাকিস্তান হয়েছে। না হলে তখনই বাংলাদেশ হত, এদের বিরোধীতা ও ষড়যন্ত্রের কারণেই হয় নাই। এরা এতটাই ঘীলুহীন যে ফাকিস্তান বানিয়েছে ঠিকই কিন্তু এর নিয়ন্ত্রণ নিতে পারে নাই, নিয়ন্ত্রণের ভার দিয়ে দিয়েছে জিন্নাহ নামক মাতালের হাতে। আপনি একেবারে আমার মনের কথা বলেছেন, ফাকিস্তান দেশটা বিশ্বের জন্য বিষফোড়া। ফাকিস্তান না থাকলে তালেবান হোত না, লাদেন হোত না আর এত জঙ্গীবাদ ছড়াতো না বিশ্ব জুড়ে। ফাকিস্তান হচ্ছে জঙ্গীবাদের আঁতুরঘর।

১৩ ই মে, ২০১৮ বিকাল ৪:৫৫

রাজীব নুর বলেছেন: আসেন ভাই বুকে আসেন।

১৪| ১৩ ই মে, ২০১৮ রাত ৮:৫৫

খনাই বলেছেন:



রাজীব নূর সাহেব : ফটোগুলো আপনার জন্য আর সাথে এক নম্বর পচা কলা না কিসের বাগান যেন তার জন্যও | জাতির পিতার ফটো দেখে কি মনে হচ্ছে উনার ভালোবাসার অভাব আছে ওই দেশ আর তার নেতার প্রতি? FYI, এইটা ওই দেশেই ১৯৭৪ সাথে ওআইসি সম্মেলনের ফটো | জাতির পিতা ওখানে গিয়েছিলেন স্বাধীনতার মাত্র তিন বছর পর | আপনার অভব্য আর ব্লগে উচ্চারণ অযোগ্য গালি গালাজ মরহুম জাতির জনকের গায়ে লেগেছে যদি মনে করেন তাহলে ক্ষমা চান | আর পচা কলার বাগান নাকি কি ওটাকেও বলুন জাতির পিতাকে গালাগালি না করতে প্লিজ |

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০১

রাজীব নুর বলেছেন: ভালো থাকুন।

১৫| ১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ১:০৯

যুক্তি না নিলে যুক্তি দাও বলেছেন:



#আপনার স্টাইলের সংগে খাপ খেয়ে নিইয়েছি।
#পাঁচ নম্বরটা দুইবার হৃদয়াঙ্গম করলাম।

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০১

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

১৬| ১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ২:৫৫

অনল চৌধুরী বলেছেন: এ্যামেরিকা,ইংল্যান্ড,ফ্রান্স,রাশিয়া,চীন,ভারতসৌদি আরব আর ইসরায়েলের কথা বলছেন না কেন?এরা কি খুব ভাল?

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০২

রাজীব নুর বলেছেন: আপনি'ই তো বলে দিলেন।

১৭| ১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৩:০৭

অনল চৌধুরী বলেছেন: গড়ল ,ছোট মুখে বড় কথা ভাল না।শেরে বাংলা সম্পর্কে কি জানেন?তিনি বাংলার স্বাধীনতা চেয়েছিলেন তাই ভয়ে পাকিরা তাকে গৃহবন্দী করে রেখেছিলো।১৯৪৬-এ সোহরাওয়ার্দি-শরৎ বসু দুই বাংলাকে এক করে স্বাধীন রাষ্ট্র গঠন করতে চেয়েছিলেন।এতে জিন্নাও রাজী ছিলো।কিন্ত গান্ধী অার নেহেরুর জন্য হয়নি।১৯৪৭ এ পশ্চিমবঙ্গের হিন্দুরা বাংলা ভাগ করার পক্ষে রায় দিয়েছিলো।বাংলা ভাষা-ভাষী পূর্ববঙ্গের সাথে যোগ না দিয়ে অবাঙ্গালী প্রধান ভারতের সাথে যুক্ত হতে তাদের বিবেকে বাধেনি।অথচ এই হিদুরাই ১৯০৫ এ তান্ডব চালিয়ে বাংলা বিভাগ রদ করতে ইংরেজদের বাধ্য করেছিলো।

পাকিস্তান না হলে কোনদিনও বাংলাদেশ হতো না।কারণ গত ৭১ বছরে কোন রাজ্য ভারত থেকে আলাদা হয়ে স্বাধীন হতে পারেনি,বরং ভারত সিকিম দখল করেছে আর ভুটান-নেপালকে আশ্রিত রাজ্য বানিয়েছে।তালেবান-লাদেন সব এ্যামেরিকার সৃষ্টি।পাকিদের এই ক্ষমতা নাই ।
গালি দিয়ে লেখক হওয়া যায় না,এজন্য অাগে ২০-৩০ বছর পড়াশোনা আর গবেষণা করতে হয়।

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০৪

রাজীব নুর বলেছেন: জ্বী পড়াশোনাটা অব্যহত রেখেছি।

১৮| ১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৩:২৩

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: হা হা হা, মজাদার পোষ্ট।
৫নংটা সত্যি দারুণ।

শিরোনামে একমত

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০৪

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

১৯| ১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৩:৩১

এমজেডএফ বলেছেন: @খনাই,
১৯৫০ - ১৯৫৩ সাল তিন বছর পরষ্পরের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে তিন মিলিয়ন মানুষের মৃত্যুর পর ৬৫ বছরের চিরবৈরিতার অবসানের জন্য উত্তর কোরিয়া ও দক্ষিণ কোরিয়ার নেতারা যদি হাত ও বুক মিলাতে পারে,
১৯৪৮ সাল থেকে শুরু করে এ পর্যন্ত চারবার আরব-ইসরাইল যুদ্ধে সৌদি আরবসহ আরব বিশ্বের দেশগুলো ইসরাইলের কাছে বারবার চরম মার খাওয়ার পরও সমগ্র মুসলিম জাহানের চিরশত্রু ইসরাইলের সাথে মুসলিম জাতির পূণ্যভূমির দেশ সৌদি আরব যদি বন্ধুত্ব ও চুক্তি করতে পারে,
তবে ৭০-এর যুদ্ধে পরাজিত পাকিস্তানের নেতা ভুট্টোর সাথে বিজয়ী শেখ মুজিবের কোলাকুলি করলে দোষটা কী? এতে লজ্জা বা খারাপ লাগলে ভুট্টো ও পাকিস্তানীদের লাগা উচিত, শেখ মুজিব ও বাঙালিদের নয়।

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০৫

রাজীব নুর বলেছেন: দারুন বলেছেন।

২০| ১৪ ই মে, ২০১৮ ভোর ৫:০৪

খনাই বলেছেন: @ এমজেডএফ,
আপনি ইতিহাসেও ছিলেন মনে হয় অনেকদিন ! ইতিহাসের জ্ঞান থাকা মন্দ না।আগেই বলে রাখি আপনার ঐতিহাসিক তথ্যের ভিত্তিতে জানানো সমঝোতা প্রচেষ্টাগুলোর সাথে আমি আমি একমত | ওগুলোতে আমি দোষের কিছু দেখিনা । কিন্তু আমার মন্তব্যটা ছিল রাজীব নূর সাহেবের মন্তব্য নিয়ে | তাই তাকেই আবার কোট করলাম, " পাকিস্তানে যে সবচেয়ে ভালো। সেও একটা শুয়োরের বাচ্চা" (ধরে নিচ্ছি উনি বলতে চেয়েছেন পাকিস্তানকে যে ভালো বলে বা ভালোবাসে সেও একটা শুয়োরের বাচ্চা)। নূর সাহেবের ভাষাগতভাবে অন্ধকারসম মন্তব্য কে আমি অফ যেতে বলছিনা। সবার মতামত দেবার অধিকার আছেই ।কিন্তু আপনার ঐতিহাসিক তথ্যের ভিতিত্তে এটা বলাই যায় বঙ্গবন্ধুর ভুট্টোর সাথে কুলাকুলি, দ্বিতীয় ফটোতে হুয়েরি বুমেদীন (তখন আলজেরিয়ার প্রেসিডেন্ট ) আর ভুট্টোর (পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী !) দুহাত ধরে হাস্যোজ্বল মুখে হাটাতে ভুট্টো আর পাকিস্তানেই প্রতি ভালোবাসার প্রকাশ খুবই প্রকাশ্য (এটাতে আমি কোনো খারাপ কিছু দেখিনা আপনার বলা সমঝোতাগুলোর মতোই ! রাজনীতিতে সমঝোতা হতেই পারে সামাজিক জীবনের মতোই । প্রধানমন্ত্রীর পাকিস্তানি বাহিনীর পরিত্যক্ত প্রণয়িনী রাজাকারের সাথে আত্মীয়তা নিয়েও আমার তাই কোনো মন্তব্য নেই )। কিন্তু ভুট্টো আর পাকিস্তানের প্রতি এই ভালোবাসা দেখানোতে বঙ্গবন্ধুও কি রাজীব নূর সাহেবের কথিত ওই গালির অন্তর্ভুক্ত নর্দমার পশু আখ্যায়িত হবেন কিনা সেটাই ছিল আমার প্রশ্ন ? যদি হন তাহলে জাতির জনকের সাচ্চা সমর্থক হিসেবে তাকে ওই নর্দমার পশুর বাচ্চা বলার জন্য তীব্র নিন্দে জানাচ্চি । এবং রাজীব নূর সাহেবকে মন্তব্য প্রত্যাহারের অনুরোধ করছি । আপনি কি বলেন ? টেক কেয়ার ।

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: সত্য কথা বলতে কি মন্তব্য করবো বুঝতে পারছি না।

ছবি মানুষের সাথে সবচেয়ে বেশি প্রতারনা করে।

২১| ১৪ ই মে, ২০১৮ সকাল ৭:০৯

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: মানুষে মানুষে হোক ভালোবাসা
তাই করি প্রত‍্যাশা
যতই থাকুক বিরোধ
দিন শেষে যেন হাসি মুখে বলিতে পারি
আমরা তো ভাই ভাই
ভালোবাসার সে সুখ তাহার তুল‍্য কিছু
ত্রিভুবনে নাই।
মানুষ পরিচয়ে জন্মেছে যে ভবে
সকল কষ্ট ভুলে ভালোবাসিলে মানুষ
মানুষ হলো তবে।

....... সেলিম আনোয়ার। :)


১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: খুব সুন্দর বলেছেন।

২২| ১৪ ই মে, ২০১৮ সকাল ৭:৪৬

তার ছিড়া আমি বলেছেন: বাংলাদেশে একটা দল আছে, "যমিয়তে উলামায়ে ইসলাম" তারা এখনো অকন্ড ভারত চায়।

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: ওদের কানে ধরে ভারত পাঠিয়ে দেওয়া দরকার।

২৩| ১৪ ই মে, ২০১৮ সকাল ৭:৪৮

তার ছিড়া আমি বলেছেন: বাংলাদেশে একটা দল আছে, "যমিয়তে উলামায়ে ইসলাম" তারা এখনো অখণ্ড ভারত চায়।

২৪| ১৪ ই মে, ২০১৮ সকাল ১০:০৭

নীলপরি বলেছেন: শেষেরটা বেশ লাগলো । :)

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

২৫| ১৪ ই মে, ২০১৮ সকাল ১০:৩১

গড়ল বলেছেন: @অনল চৌধুরী, মুসলিম লীগ সৃষ্টি করল কারা, আর সৃষ্টি করে জিন্নাহর হাতেই বা নেতৃত্ব তুলে দিল কারা। আপনি যাকে শরদ বসু বলছেন তাকে আমি চিনি না তবে সুভাষ বসুকে চিনি যিনি অখন্ড বাংলা নিয়ে আলাদা রাষ্ট্র গঠনের চেষ্টা করেছিলেন। রাজনীতি করল পূর্ববঙ্গের লোক, দল সৃষ্টি করল পূর্ব বঙ্গের লোক কিন্তু ক্ষমতা পেল জিন্নাহ, এটা কাদের দোষ। আর পশ্চিম বঙ্গের লোকেরা পূর্ববঙ্গের সাথে থাকতে চায় নি এটা ভূল কথা, তারা পাকিস্তানের সাথে থাকতে চায় নি। কারণ বাংলাদেশ নিয়ে কোন ভোটাভুটিই হয়নি, হয়েছে ভারত আর পাকিস্তান নিয়ে। প্রশ্নের উত্তরগুলো দিলে আমার কনসেপ্ট ক্লিয়ার হত, আমি বলে নাই যে শেরে বাংলা বা সহরোওার্দি বাংলাদেশ চায় নি। আর আমি কখনই লেখক হতে চাইনি কারণ সেই যোগ্যতাও আমার নাই।

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:১০

রাজীব নুর বলেছেন: সুন্দর মন্তব্য করেছেন।

২৬| ১৪ ই মে, ২০১৮ দুপুর ১:৪৯

ফাহীম দেওয়ান বলেছেন: @ খনাই - আমার মনে হয় নুর সাহেবের ভাষা বুঝতে আপনার সমস্যা হয়নি, কিন্তু আপনি উদ্দ্যেশ্য প্রনদিত ভাবে তার লেখা ভাষাকে বিকৃত করার চেষ্টায় রত আছেন।

"পাকিস্তানে যে সবচেয়ে ভালো। সেও একটা ---------------"

ভালো করে না দেখলেও উপরের এই লাইনটিতে নুর ভাই পাকিস্তানের অধিবাসীদের কথা বুঝিয়েছেন, অন্য কোন পাকিস্তান প্রেমিকে বুঝান নি।

আর আপনার প্রকাশ করা ছবি গুলি ভুট্টোর প্রতি বংগবন্ধুর ভালোবাসা প্রকাশ করে থাকলে আপনি পররাষ্ট্রনীতি কি জিনিস সেটা বুঝে আসেন প্লিজ। একটা হাস্যজ্জল ছবি দিয়ে তার সাথে বিকৃত তথ্য দেয়াটা আপনাকে পীড়া না দিলেও, ইতিহাসের প্রতি আপনার চরম অবমাননা করা হয়েছে।

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:১১

রাজীব নুর বলেছেন: চরম বলেছেন। চরম।

২৭| ১৪ ই মে, ২০১৮ বিকাল ৫:২৮

জাতির বোঝা বলেছেন: সোনার কুড়াল কে না পেতে চায়। কারণ সবাই গল্পটি জানে। তবে আপনার পোস্ট অসাধারণ।

১৪ ই মে, ২০১৮ রাত ৯:১২

রাজীব নুর বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ।

২৮| ১৫ ই মে, ২০১৮ রাত ২:৫৪

অনল চৌধুরী বলেছেন: মুসলিম লীগ সৃষ্টি করেছিলো ঢাকার নবাব পরিবার,যারা ছিলো উর্দুভাষী এবং বাংলাভাষাকে নীম্নশ্রেণীর ভাষা মনে করতো।এই বংশের লোক খাজা নাজিমউদ্দিনের নির্দেশেই ১৯৫২ সালে ভাষা আন্দোলনকারীদের উপর গুলি চালানো হয়।ভারতের হিন্দু এবং মুসলমান দুই ধর্মের লোকরাই বাংলার হিন্দু ও মুসলমানদের ছোট করে দেখতো।এর কারণ সম্ভবত তাদের মেধা,পরশ্রীকাতরতা-হিংসা-বিবাদ বা মাছ খাওয়া।তাই কংগ্রেস বা মুসলিম লীগ-কোন দলেই বাঙ্গালীরা নেতৃত্বের আসনে যেতে পারেনি।সুভাষ বসুকে কংগ্রেস ছেড়ে আসতে হয়েছিলো।জ্যোতি বসুকে কখোনোই ভারতের প্রধানমন্ত্রী হতে দেয়া হয়নি।প্রণব মূখাজির আগে কোন বাঙ্গালী রাষ্ট্রপতি হতে পারেনি।
মুসলমানদের ক্ষেত্রেও একই ব্যাপার।উর্দুভাষীদের দৌরাত্তের কারণে বাংলাভাষী ফজলুল হক-সোহরাওয়ার্দিরা মূল নেতৃত্ব পাননি।আরেকটা বড় কারণ,কারণ ভারতীয় সেনাবাহিনীতে মুসলিমদের মধ্যে বাঙ্গালীদের সংখ্যা ছিলো খুবই কম।পান্জাবীরা ছিলো সংখ্যাগরিষ্ঠ,যারা বাঙ্গালী মুসলিমদের নীচ শ্রেণীর হিন্দু থেকে ধর্মান্তরিত আর নিজেদের উচ্চ শ্রেণীর মনে করতো।বাঙ্গালীদের গায়ের রঙ্গের কারণে তাদের সাথে চরম বর্ণবাদিী আচরণও করা হতো।এই সেনারা জিন্নাহকে সমর্থন দিয়েছিলো।সুতরাং বাঙ্গালীদের মুসলিম লীগের প্রধান নেতা হওয়ার কোন সুযোগ ছিলো না।

সুভাষ বসু কখনোই এককভাবে বাংলা স্বাধীনতা চননি।তার বাহিনীর নাম Indian Repablican Army ছিলো সুতরাং নামই তা প্রমাণ করে।
শরৎ বসু ছিলেন সুভাষ বসুর বড়ো ভাই।তিনি সোহরাওয়ার্দীর সাথে মিলে ১৯৪৬ সালেই কলকাতাকে রাজধানী করে যুক্তবঙ্গ প্রতিষ্ঠা করতে চেয়েছিলেন।[sb]পশ্চিম বঙ্গের লোকেরা পূর্ববঙ্গের সাথে থাকতে চায়নি এটা ভূল কথা,তারা পাকিস্তানের সাথে থাকতে চায় নি। এটা ভূল কথা,১৯৪৬ এর পরিকল্পনায় পাকিস্তানের সাথে যোগ দেয়ার কোন কথাই ছিলো না।কিন্ত হিন্দুদের কারণে তা হয়নি।যুক্ত বাংলা হলে মুসলমানরা সংখ্যাগরিষ্ঠ হবে,হিদুদের জাত যাবে,এজন্যই তারা হিন্দুপ্রধান ভারতের সাথে যোগ দিয়েছিলো।
ইন্টারনেটে শরৎ বসু-সোহরাওয়ার্দী পরিকল্পনা খূজে দেখলেই সব তথ্য পাবেন।ইতিহাস বইয়েও লেখা আছে।লেখক হতে চাওয়া দোষের কিছু না,শুধু তথ্যগুলি সঠিক হতে হবে।

১৫ ই মে, ২০১৮ সকাল ১০:৪১

রাজীব নুর বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ।

২৯| ১৫ ই মে, ২০১৮ রাত ৩:১৪

অনল চৌধুরী বলেছেন: https://en.wikipedia.org/wiki/United_Bengal

৩০| ১৫ ই মে, ২০১৮ সকাল ১০:৫১

অনন্য দায়িত্বশীল আমি বলেছেন: পাকিস্তানের চেয়েও খারাপ রাষ্ট্র পৃথিবীতে কয়েক গন্ডা আছে।

১৫ ই মে, ২০১৮ বিকাল ৫:০৫

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.