নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

দীপ ছিলো, শিখা ছিলো, শুধু তুমি ছিলেনা বলে...

শায়মা

দিয়ে গেনু বসন্তেরও এই গানখানি বরষ ফুরায়ে যাবে ভুলে যাবে, ভুলে যাবে,ভুলে যাবে জানি...তবু তো ফাল্গুন রাতে, এ গানের বেদনাতে,আঁখি তব ছলো ছলো , সেই বহু মানি...

শায়মা › বিস্তারিত পোস্টঃ

আনাড়িদের জন্য পেন্সিল স্কেচ - ব্যাকরণবিহীন অব্যর্থ শিক্ষণ :) :) :)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৪৮


প্রায়ই কিছু কিছু ছবি দেখে আমি বুঝতেই পারিনা সেটা নাকি হাতে আঁকা! অবিকল যেন সত্যিকারের মানুষ, পশু, পাখি বা প্রকৃতির ছবি! আমি মুগ্ধ হয়ে যাই! অবাক চেয়ে রই! এই মুগ্ধতা বা অবাক হবার ব্যাপারটা আমার আজকের নয়। এই মুগ্ধতার শুরু সেই ছোট্টবেলায়।একদা আমাদের বাড়িতে এলেন এক চাচ্চু।
তিনি আমার টোনাটুনির গল্পের বই থেকে সাধারণ পেন্সিলেই এঁকে ফেল্লেন জলজ্যান্ত দুটি টোনা আর টুনিপাখি। চাচুটা চলে গেলেন দুদিন পরেই কিন্তু আমি সারাদিন চেয়ে রই সেই খাতার পাতার টোনাটুনির ছবিতে। কি আশ্চর্য্য! পেন্সিলেও এঁকে ফেলা যায় এমন সত্যিকারের মতন! আমার ভাবনার সেখানেই শুরু। ভাবনা নিয়েই বসে থাকলাম না আমি। সাথে শুরু হলো অক্লান্ত প্রচেষ্টা। যেখানে সেখানে আঁকাআঁকি। শ্লেটে, মেঝেতে, চকখড়িতে, কাঠ কয়লায়, বই এর পিছের শেষ পাতাটায়, ক্যালেন্ডারের উল্টোপিঠে মানে বাড়ির যত শুন্যস্থান পূর্ন হয়ে উঠতে লাগলো আমার আঁকাআঁকিতে। অবশ্য এ কারনে আমার শূন্য পিঠেও মাঝে মাঝে কিছু দুমদাম পূর্ণতা পড়তো, তাতে কি কিছুই যায় আসে? এত অল্পে দমে যাবো, সে পাত্র আমি নহি।

তবুও মায়ের সহ্য হয় না আমার এই আঁকাআঁকিটাই। আমার নাকি লেখাপড়ার চাইতে তাতেই সময় বেশি নষ্ট হচ্ছে। এ কারণে পড়ালেখার পাশাপাশি নাচ বা গানের স্কুলে পাঠালেও উনি কখনই আমাকে পাঠাতে রাজী হলেন না ছবি আঁকার স্কুলে। কিন্তু আমার আঁকাআঁকি তাই বলে থামাতে পারলেন না তিনি। আমিও যেখানেই এক টুকরো জায়গা পাই, সেই রাজকুমারী কাঁকনমালা থেকে শুরু করে স্নো-হ্যোয়াইট যা মনে চায় এঁকেই চলি, এঁকেই চলি। এরপর যখন থেকে আমার বাচ্চাদের স্কুলে জয়েন করা, আমাকে আর পায় কে?? এক নিমিষে বোর্ডে হাম্পটি ডাম্পটি বা হিকরী ডিকরী মাউস এঁকে তাক লাগিয়ে দেই আমি বাচ্চাদেরকে। তারা ঠিক আমার ছোটবেলার মতনই অবাক চোখে তাকিয়ে থাকে আমার এই যাদুকরী হাতের দিকে। :)

এইভাবে অনেকগুলো বছর কাঁটাবার পরেও আমার ঠিক শান্তিু হত না আঁকাআঁকিটা নিয়ে। ভাবতাম কই হলো না তো ঠিক সত্যিকারের মানুষের মত চোখের জ্বলজ্বলে ভাষাটা। নাকটাও তো চেপ্টে লেগেই আছে মুখে। নাক, ঠোঁট বা কানের ওঠা ওঠা ভাবটা, কি করে আসবে এসব ছবিতে? তারপর একদিন ব্রত নিয়ে বসলাম যেমন করেই হোক আঁকতেই হবে আমাকে সত্যিকারের মানুষের মত দেখতে মানুষের মুখ, নাক, চোখ বা ঠোঁট এবং এসবের সমন্বয়ে অবিকল মানুষের মুখ। সারাজীবন আমি একটা জিনিসই শিখেছি সেটা হলো ব্রত। কঠিন ব্রত নিয়ে বসলে হবেনা এমন কোনো কথা নেই। নাই বা হলো পিকাসো বা ভ্যানগগ, নাইবা হলাম কামরুল হাসান বা হাশেম খান আমি তবুও আমিই হবো....


ব্যাস প্রথমেই লাগলাম চোখের পিছে..... আর যেহেতু একটু আধটু আঁকতে জানতাম আগে থেকেই কাজেই খুব কম সময়েই চোখগুলো প্রায় সত্যিকারের চোখ মানে রিয়েলস্টিক ছবির মতনই হয়ে গেলো আর আমি নিজের আঁকা চোখে নিজেই মুগ্ধ হয়ে গেলাম। ঘন্টার পর ঘন্টা তাকিয়ে থাকি আর আমার আঁকা চোখটাও তাকিয়ে থাকে ঠিক আমারই দিকে। আমার আর কোনো কাজে মন বসেনা, সকালে উঠেও খাতা খুলে বসে থাকি, মুগ্ধতা মুগ্ধতা! স্কুলে যেতেও ভালো লাগেনা আমার, ইচ্ছে করে সারাটাদিন নিজের আঁকা চোখে তাকিয়ে থাকি চব্বিশ ঘন্টা। আমাদের স্কুলের আর্ট টিচার আমার অনেক প্রিয় বন্ধু সে বলে আরে চোখের পাঁপড়ি একটু অগোছালো করো, ভ্রুগুলাও তোমার বড্ড সাজানো কিন্তু আমি কানে তুলিনা কারো কথাই। আরে বাবা আমি মানুষটাও তো বড্ড গোছালো, এমন অগোছালো ছবি আঁকতে যাবো কেনো?

একটু এডিটিং আর স্টাইলিং এর পরে.....যখন আমি আরও মুগ্ধ এবং মুগ্ধ!!!!! :) :) :) :)

যাইহোক শুরু হলো আমার নিরলস ব্যাকারণবিহীন রিয়েলস্টিক ছবির অঙ্কন চর্চা। পেন্সিল দিয়ে আমিও শিখে গেলাম আঁকতে, ঠিক ঠিক চোখে লাইট রিফ্লেক্ট করলে যেমনই চকচকে হয় সেই ভাবটাও আনতে।


যাইহোক আমার মত ব্যাকরনবিহীন রিয়েলস্টিক অঙ্কন যারা যারা শিখতে চাও তাদের জন্য আমার টিউটোরিয়াল...... প্রথমেই লাগবে নানা রকম পেন্সিল, HB, 2B,3B,4B,5B,6B,8B,10B,12B এমন সব পেন্সিল পাওয়া যায় প্রায় সব খাতা পেন্সিলের দোকানগুলোতেই। এখন শিখিয়ে দেই.......

হাউ টু ড্র আ রিয়েলিস্টিক আই.........

১) প্রথমেই চোখের আউটলাইনটা খুব হালকা করে এঁকে নিতে হবে। যদিও এই আঁকাটা একেবারেই আনাড়ির জন্য খুব সহজ নহে তবুও চেষ্টায় কি না হয়। একবার না পারিলে দেখো শত বার! :) আর হালকা করে আঁকতে বলেছি এই জন্য যেন দরকার হলেই ইজিলি মুছে ফেলা যায়। আই মিন কারেকশন।:) আঁকতে খুব বেশি কষ্ট হলে আয়নায় গিয়ে নিজের চোখটা দেখে আসতে হবে এতে সত্যিই আঁকাটা সহজ হয়ে যাবে। এটা কিন্তু ফান না মোটেও, সত্যিই জরুরী এবং ড্রইং এ পুরাটা সময় জুড়ে শার্পড পেন্সিল রাখাটাও অতীব জরুরী। এতে কাজটা নিঁখুত হয়।

২)এরপর চোখের মনিটাকে গাঢ় করতে শুরু করতে হবে। খুব জোরে ঘষে ঘষে পেন্সিল ইউজ করার দরকার নেই। হালকা হালকা টানে কালারটাকে গাঢ় করে তুলতে হবে। এরপর চোখের আইরিসে হালকা শেড দিতে হবে। আমি ২বি ইউজ করেছি এখানে। ফার্স্ট লেয়ার শেডিং হলেই পরবর্তী ডার্কার শেডে যেতে হবে। আইরিসের আউটলাইন ডার্কার হবে এবং উপরের হাফ পোর্শন দিকটা আরও বেশি ডার্কার হবে।

৩)আইরিশকে এবার একটু ব্লেন্ড করে দিতে হবে। অনেকভাবেই তা করা যায় তবে আমি কটনবাড বা টিস্যু দিয়েই এটা করে থাকি। ব্লেন্ডিং এর পরে আরও গাঢ় পেনসিল দিয়ে আইরিশটাকে ডার্ক করতে হবে। আমি ৩বি ইউজ করেছি। এইভাবে যতক্ষন পর্যন্ত ঠিক ঠাক সুন্দর আইরিশ না লাগে ততক্ষণ ব্লেন্ডিং এ্যান্ড ডার্কার শেডিং চলতেই থাকবে।

৪) এরপর আইরিশকে আরো আকর্ষনীয় করতে কিছু ঢেউ এর মত হাল্কা আঁকিবুকি টানা যেতে পারে। কিছু ওয়েভস বড়, কিছু ছোট হবে। এইভাবে পুরো আইরিশকে হাল্কা ঢেউ ঢেউ আবার সোজা সোজাও আঁকিবুকি দিয়ে ঢাকতে হবে।

৫) এখন চোখের সাদা অংশে কিছু শেড দিতে হবে। চোখের ঢালটা আনতে কিনারে একটু বেশি গাঢ় শেড আর মাঝে একদম হাল্কা শেড।

৬) এবার টিয়ার ডাক্ট। এখানে গাঢ় ও হালকা শেডে গভীরতা এনে একটা ভেজা ও চকচকে ভাব দিতে হবে।

৭) এখন চোখের বাকী অংশে হালকা শেড দিতে হবে ও ওয়াটারলাইন সাবধানে শেড করতে হবে।চোখের পাতার নীচ অংশে গাঢ় শেড দিতে হয়। এই আউটলাইনগুলোতে একটু ইরেজারের ছোয়া দিয়ে স্কিনের টোনটা ফুটিয়ে তোলা যায়।

৮) এইবার আইল্যাশ বা চোখের পাঁপড়ি। উপরের পাঁপড়িগুলি বড় ও বাঁকানো থাকে। নীচের গুলিও বাঁকানো তবে একটু ছোট। পাঁপড়ি আঁকার সময় একটু এলোমেলো ভাব আনলে বেশি রিয়েলস্টিক হয়।

৯) এখন চোখের মনিটার মাঝে লাইট রিফ্লেকশন আনতে একটা (বা দুটোও) ছোট্ট অংশ খালি রাখা হয়েছিলো। সেই অংশটাতে পেপার হ্যোয়াইট করে দিতে বা চকচকে রিফলেকশন আনতে ইরেজার দিয়ে একটু মুছে দেওয়া যেতে পারে।

১০) লাস্ট পার্ট হলো ফিনিশিং পার্ট। ভালো করে তাকিয়ে দেখতে হবে কোথায় হাইলাইট করতে হবে আর কোথায় ডার্ক করতে হবে । ভালো করে পরখ করে নিজে যতক্ষন স্যাটিসফায়েড না হওয়া যায় শেডিং , ডার্কিং এ্যান্ড হাইলাইটিং করতে হবে। তবে উপরের পদ্ধতিগুলো ব্যাবহার করলে আর বেস্ট এফোর্ট দিলে সফল না হয়ে কোনো উপায়ই নেই! কাজেই লেগে পড়ো আমার মত চক্ষু অংকনে!!!!!!!!!

আমার আঁকা নানা রকম চোখ!!!!!!!!!!!! :)

অবাক চোখ

জিজ্ঞাসু চোখ
বিস্মিত চোখ

জিনিভাইয়ার রাগী চোখ

আহমেদ জি এস ভাইয়ার জন্য আঁকা চোখ

পিকাচুর জন্য অপ্সরা চোখ....

অবাক চোখ ও দুঃখী চোখ

দূর দিগন্তে তাকিয়ে থাকা দুই চোখ

চোখের সাথে প্রজাপতির ঝিলিমিলি...

আমার আঁকা মৌন বিধুর নীল নয়না......

এবার আসি ঠোঁট.....রিয়েলস্টিক ঠোঁট বা ঠোঁটের ফোলা ফোলা ভাবটা আনা কিন্তু খুব সহজ কাজ না যদি তা ঠিক ঠাক আঁকতে না জানা যায়......

এবারে আমি আর কিছুই বললাম না সোজা অডিও ভিজুয়াল ট্রেনিং নেওয়া যেতে পারে।
কেমন করে আঁকবো আমরা রিয়েলস্টিক অধর কিংবা ঠোঁট
আমার ধারণা ঠোঁটই একমাত্র বস্তু যাহা মুখচ্ছবি আঁকতে সবচেয়ে বেশি সময় নেয়। তাই মন দিয়ে আঁকতে হবে, হাতে সময় নিয়ে শিখতে হবে।
ওহ আই অঙ্কন শিখিয়ে দিয়েছি কিন্তু আইব্রোটা বাদ গেছে। সেটা আঁকাটা যদিও খুব কঠিন না তবুও একটু নিজে চোখেই দেখে নিলে ভালো হয় সত্যিকারের শিল্পীরা তা কেমনে আঁকে।
How to draw Realistic eyebrow
এবার আসি নাসিকা বা নাকে। এটা মোটেও সহজ শিক্ষা নহে। এই নাসিকা অঙ্কন আদতে অল এবাউট শেড। আর সাথে একটু মাপ জোকের ব্যাপার।
নাক বা নাসিকা অঙ্কন
এবার পুরো ফেস কেমনে আঁকা যায় তার সহজ বর্ণন
স্কিন বা স্কিন টোন ফুটিয়ে তোলাটা মহা ধৈর্য্যের ব্যাপার। আমাদের শামীম বলে উফ আপনার বিরক্ত লাগে না আপা এই এট্টু এট্টু করে এইসব বানাতে! সে কি আর বুঝবে বিন্দু বিন্দু এই জলকনায় কি মহাসাগর সৃষ্টির আনন্দ পাওয়া যায়! যাইহোক স্কিন টোনটা একেবারেই রিয়েলস্টিক করা যায় যদি কেউ ধৈর্য্য নিয়ে এটা প্রাকটিস করে থাকে....
স্কিন টোনের অবাক যাদু
এবার আসি চুলে। চুলের শেডিংও এক মজার খেলা। নানা রকম শেড আর হাইলাইটে নিয়ে আসা যায় সত্যিকারের মত চুলের চেহারাটাই
চুলের শেডে মজার খেলা

আমার আঁকা চুল

আর আলুথালু বেনী.....

আমার আঁকা ছোট্টবেলা....

অনেক ফল্ট নিয়েও আমার প্রিয় একটা অঙ্কন....




আমার আঁকা প্রিয় একটি ছবির কয়েকটি রূপ। এডিটিং ও ব্লেন্ডিং এর মজার খেলা.......
এডিটিং ও ব্লেন্ডিং এর মজার খেলা

পেন্সিল শেডে আঁকা মুখ তবে এই ছবিটা আঁকতে গিয়েই আমি চুল আঁকবার সময় হাতের টানটা বুঝে গেলাম! আর ঠোঁটটাতেও সফট আর ফোলা ভাবটা আনা জেনে গেলাম।

যদিও পেন্সিল সেডই সর্বশ্রেষ্ট তবে হলুদ রঙ্গে রাঙ্গিয়ে দেবার পরে মনে হচ্ছিলো এই অভিমানিনী মেয়েটা গাইছে, রাঙ্গিয়ে দিয়ে যাও, যাও, যাওগো এবার যাবার আগে।
যাইহোক,
আঁকাআঁকি আর এডিটিং ব্লেন্ডিং এর আরও আরও মজার খেলাটা আমি পরে কখনও শিখিয়ে দেবো। অবশ্য শুধুই আমার আনাড়িভাইয়া আর আপুদের জন্য। :)


এটা আমার মুখচ্ছবি অঙ্কন প্রাকটিসের পরের অধ্যায়। সেসব নিয়েও না হয় টিউটোরিয়াল বানানো যাবে কোনো একদিন....

কালার পেন্সিলে আঁকা ছবি। আরেক এক্সপেরিমেন্ট আরেক অধ্যায়.....

নীচে পেন্সিল স্কেচ বা রিয়েলস্টিক ড্রইং এর কিছু ভিডিও লিঙ্ক দেওয়া হলো....
realistic drawing for beginners-নবীনদের জন্য

Realistic Drawing Tips and Techniques - How To Draw Realistic Portraits

Pencil portrait in about 7 minutes

How to draw a portrait from photo

Portrait-Pro Drawing Course

Pencil portrait - drawing a beauty

আরও কিছু চিত্রাঙ্কন শেখার নিয়ম কানুনের পেইজের লিঙ্ক.... যারা পড়ে পড়ে শিখতে চায় তাদের জন্য....
Free Photorealistic Pencil Drawing Tutorial Step by step advanced graphite drawing techniques

50 Clever Tutorials and Techniques on Traditional Drawing

Portrait Tutorial - How to Draw a Face Step by Step

Pencil Art, Pencil

SHADING TECHNIQUES WITH PENCIL

DRAWING A PENCIL PORTRAIT - LINE, SHAPE AND PROPORTION

এই গেলো নিয়মকানুন শিক্ষা দীক্ষার নানা পেইজ এবং ভিডিও লিঙ্কগুলি। তবে একবার মুস্তাফা মনোয়ারভাইয়া আমাকে বলেছিলেন ছবি আঁকার শুধু একটাই নিয়ম। এই নিয়মটা জানলে পৃথিবীর সব ছবিই আঁকা সম্ভব। সেই নিয়মটা হলো, ছবি আঁকার কোনো নিয়মই নেই। শুধু মন দিয়ে যা আঁকবো তা যেন দেখি, চোখ বুজে ভাবি একটা পাতার ঠিক কেমন চেহারা, কেমন তার ধারগুলো, কেমন তার শিরাগুলো.... আর সেভাবেই সেভাবেই পেন্সিলে হাত ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে এঁকে ফেলি একটা পাতার ছবি।

আর আমার নিয়ম হলো ছবি আঁকার শুধু দুইটাই শর্ত, অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর মন দিয়ে আঁকাআঁকি......

আর তারপর সৃষ্টির আনন্দ যে কি তা মন দিয়েই ফিল করাটা....আর তাই এই নিজের আনন্দ অন্যদের মাঝে ছড়িয়ে দিতেই এই পোস্টের অবতারণা। আমি চাই সবাই আমার মত এঁকে এঁকে মজা পাক.....

এ আনন্দ ছড়িয়ে পড়ুক সব খানে, সব মনে......

সবশেষে পাতা পাতা আঁকাআঁকি বলতে বলতে আমার মনে পড়ে গেলো পাতার গান, জলের গান....
পাতার গান, জলের গান


যদি কেউ আঁকতে গিয়ে মনে করে পাতাটা হয়ে গেলো ছাতা কিংবা মাথাটা হয়ে গেলো হাতাই তবুও নো প্রবলেমো!!!!!!!! আনন্দ নিয়ে আঁকতেই থাকো, আঁকতেই থাকো.........ঠিক আমার মতন........:) :) :)


এই লেখা আমি উৎসর্গ করছি মোটা ফ্রেমের চশমাভাইয়াকে। ভাইয়াটা আমাকে এমন একটি টিউটোরিয়াল লিখতে বলেছিলো। ভাইয়ামনি আমার এই লেখাটা তাই তোমার জন্য.....


হাউ টু ড্র আ রিয়েলিস্টিক আই.........

১) প্রথমেই চোখের আউটলাইনটা খুব হালকা করে এঁকে নিতে হবে। যদিও এই আঁকাটা একেবারেই আনাড়ির জন্য খুব সহজ নহে তবুও চেষ্টায় কি না হয়। একবার না পারিলে দেখো শত বার! :) আর হালকা করে আঁকতে বলেছি এই জন্য যেন দরকার হলেই ইজিলি মুছে ফেলা যায়। আই মিন কারেকশন।:) আঁকতে খুব বেশি কষ্ট হলে আয়নায় গিয়ে নিজের চোখটা দেখে আসতে হবে এতে সত্যিই আঁকাটা সহজ হয়ে যাবে। এটা কিন্তু ফান না মোটেও, সত্যিই জরুরী এবং ড্রইং এ পুরাটা সময় জুড়ে শার্পড পেন্সিল রাখাটাও অতীব জরুরী। এতে কাজটা নিঁখুত হয়।

২)এরপর চোখের মনিটাকে গাঢ় করতে শুরু করতে হবে। খুব জোরে ঘষে ঘষে পেন্সিল ইউজ করার দরকার নেই। হালকা হালকা টানে কালারটাকে গাঢ় করে তুলতে হবে। এরপর চোখের আইরিসে হালকা শেড দিতে হবে। আমি ২বি ইউজ করেছি এখানে। ফার্স্ট লেয়ার শেডিং হলেই পরবর্তী ডার্কার শেডে যেতে হবে। আইরিসের আউটলাইন ডার্কার হবে এবং উপরের হাফ পোর্শন দিকটা আরও বেশি ডার্কার হবে।


৩)আইরিশকে এবার একটু ব্লেন্ড করে দিতে হবে। অনেকভাবেই তা করা যায় তবে আমি কটনবাড বা টিস্যু দিয়েই এটা করে থাকি। ব্লেন্ডিং এর পরে আরও গাঢ় পেনসিল দিয়ে আইরিশটাকে ডার্ক করতে হবে। আমি ৩বি ইউজ করেছি। এইভাবে যতক্ষন পর্যন্ত ঠিক ঠাক সুন্দর আইরিশ না লাগে ততক্ষণ ব্লেন্ডিং এ্যান্ড ডার্কার শেডিং চলতেই থাকবে।

৪) এরপর আইরিশকে আরো আকর্ষনীয় করতে কিছু ঢেউ এর মত হাল্কা আঁকিবুকি টানা যেতে পারে। কিছু ওয়েভস বড়, কিছু ছোট হবে। এইভাবে পুরো আইরিশকে হাল্কা ঢেউ ঢেউ আবার সোজা সোজাও আঁকিবুকি দিয়ে ঢাকতে হবে।

৫) এখন চোখের সাদা অংশে কিছু শেড দিতে হবে। চোখের ঢালটা আনতে কিনারে একটু বেশি গাঢ় শেড আর মাঝে একদম হাল্কা শেড।

৬) এবার টিয়ার ডাক্ট। এখানে গাঢ় ও হালকা শেডে গভীরতা এনে একটা ভেজা ও চকচকে ভাব দিতে হবে।

৭) এখন চোখের বাকী অংশে হালকা শেড দিতে হবে ও ওয়াটারলাইন সাবধানে শেড করতে হবে।চোখের পাতার নীচ অংশে গাঢ় শেড দিতে হয়। এই আউটলাইনগুলোতে একটু ইরেজারের ছোয়া দিয়ে স্কিনের টোনটা ফুটিয়ে তোলা যায়।

৮) এইবার আইল্যাশ বা চোখের পাঁপড়ি। উপরের পাঁপড়িগুলি বড় ও বাঁকানো থাকে। নীচের গুলিও বাঁকানো তবে একটু ছোট। পাঁপড়ি আঁকার সময় একটু এলোমেলো ভাব আনলে বেশি রিয়েলস্টিক হয়।

৯) এখন চোখের মনিটার মাঝে লাইট রিফ্লেকশন আনতে একটা (বা দুটোও) ছোট্ট অংশ খালি রাখা হয়েছিলো। সেই অংশটাতে পেপার হ্যোয়াইট করে দিতে বা চকচকে রিফলেকশন আনতে ইরেজার দিয়ে একটু মুছে দেওয়া যেতে পারে।

১০) লাস্ট পার্ট হলো ফিনিশিং পার্ট। ভালো করে তাকিয়ে দেখতে হবে কোথায় হাইলাইট করতে হবে আর কোথায় ডার্ক করতে হবে । ভালো করে পরখ করে নিজে যতক্ষন স্যাটিসফায়েড না হওয়া যায় শেডিং , ডার্কিং এ্যান্ড হাইলাইটিং করতে হবে। তবে উপরের পদ্ধতিগুলো ব্যাবহার করলে আর বেস্ট এফোর্ট দিলে সফল না হয়ে কোনো উপায়ই নেই! কাজেই লেগে পড়ো আমার মত চক্ষু অংকনে!!!!!!!!!

এই পোস্ট গত ৩ রা ফেব্রুয়ারী ২০১৭ এ প্রকাশিত হয়েছিলো এবং আজ ৩ মাস পর হঠাৎ গত কয়েকদিন যাবৎ একজন ব্লগারের আমার মতে উদ্দেশ্য প্রনোদিতভাবে আমার এই পোস্ট নিয়ে তার চরম আপত্তি এবং ক্রমাগত অভব্য ভাষার ব্যাবহার ( যা পরবর্তীতে মডারেটর এবং কিছু ব্লগারের কারণে পরিমার্জিত) ও আমিসহ নানা ব্লগারের মন্তব্য প্রতি মন্তব্যের আচরণে সন্মান খুন্নিতে এবং ব্লগের পরিবেশ দুষিত হয়ে ওঠায় আমি এই পোস্ট এডিট মানে আগের পোস্টটি অবিকৃত রেখে আমার নিজের হাতে আঁকা ছবিগুলি স্টেপস সংযুক্ত করে আজ ২৬।৫।২০১৭ তে এডিট করলাম।

তার দাবী -

১. আমার চোখের জল আঁকা ছবিটি আমি তার ছবি দেখে এঁকেছি যা সম্পূর্ণ মিথ্যা এবং তার কল্পনা প্রসুত এবং যার প্রমান আমার এই পোস্টে দেওয়া আছে

২. আরও এক দাবী আমার একজন নারীর পিঠের ছবিটি আমি নাকি কার্বনে এঁকেছি যা সম্পূর্ণ ভাবে তার মস্তিস্ক ধারনা সেটিরও তার দাবীর ভুলের প্রমান ও ব্যাখ্যা এখানে দেওয়া হয়েছে।

আর বাকী ৩ নং যে দাবীটি ছিলো আমার নেট থেকে পাওয়া পেইজ থেকে শেখা টিউটোরিয়ালের লেখনীতে আমার স্বহস্তে আঁকা ছবি না দিয়ে আমি কেনো সেই পেইজের ছবি দিলাম এবং আমার টিউটোরিয়াল বললাম এই দাবীটি কিছুটা পরিনত হওয়ায় আমি নীচে সেই পেইজের লিংকটি যুক্ত করে দিলাম।


৩রা ফেব্রুয়ারী ২০১৭ এ এই পোস্টে প্রকাশিত আমার বাংলায় লেখা টিউটোরিয়ালে আমার মত করে বুঝে নিয়ে আমি যে লেখাটি লিখেছিলাম ও তার সাথে আামার শেখা যে পেইজটি থেকে কিছু স্টেপসের ছবি দিয়েছিলাম সেই পেইজটির লিঙ্ক


যারা এ অস্থিরতায় এ কলুষতায় সকল প্রকার সহযোগীতা দিয়ে মানষিক দৃঢ়তা দিয়ে আমার পাশে ছিলেন, তাদের সকলের প্রতি রইলো কৃতজ্ঞতা ও ভালোবাসা।

মন্তব্য ৩৮৮ টি রেটিং +২৯/-০

মন্তব্য (৩৮৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫১

পলাশমিঞা বলেছেন: ১

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৬

শায়মা বলেছেন: ১ !!!!!!!!!!! :(

ছবি এঁকে দেখাও কেমন ১!!!!

২| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫২

পলাশমিঞা বলেছেন: হাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহা, আমি ১ এবং ২ হয়েছি।

:P

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৮

শায়মা বলেছেন: ছাই হইসো!!!!!!

১ বা ২ হতে চাইলে এই পোস্ট পড়ে আগে ছবি এঁকে আনো একটা।

৩| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৪

গেম চেঞ্জার বলেছেন: স্কেচিং এইবারে না শিখে ছাড়ছি না!!!!!!!!!!!!!!! (প্রিয়তে & & +)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৯

শায়মা বলেছেন: ঠিক ঠিক আমিও চাই!!!!!!!!

সবাই ইজি ইজি শিখে ফেলুক আর আমার মত আনন্দে ভাসুক!!!!!!!

৪| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৬

পলাশমিঞা বলেছেন: মিস্টা চেঞ্জার, আমি কিন্তু গ্রাফিক্স ডিজাইনার B-)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০৬

শায়মা বলেছেন: হায়রে ভাইয়া মায়ের কাছে মাসী বাড়ির গপ্পো!!!!!!!!!

গেমু হইলো এইকালের গ্রাফিক্সো ডিজাইনার আর তুমি তো আদ্দিকালের তবে তোমার ডিজাইনকৃত ছবিখানা বেশ ছিলো ভাইয়ামনি!!!!!



থ্যাংকস ফর দ্যা ডিজাইনিং!!!!!!!!!!!!

৫| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৬

গেম চেঞ্জার বলেছেন: হাঃ হাঃ হাঃ

পলাশ ভাই!

এইবার চাইনিজ না খাওয়ালে কিন্তু মানছি না!!!!!!!!!!!!!

B:-/

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০৭

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া তোমাকে চাইনিজ খাওয়াতে চিনেই নিয়ে যাবে! :)

৬| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০০

পলাশমিঞা বলেছেন: ঠিকাছে, দেশে আসলে ওকে নিয়ে চাইনিজে যাব। আমি কিন্ত সাপ বিচ্ছা খাই না। ডর লাগে :D

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০৮

শায়মা বলেছেন: কাকে নিয়ে?

ওকে মোকে কি?

কার কথা বলো?

ছবি আঁকা বাদ দিয়ে চাইনিজ খানা পিনা !!!!!!

চলবে না!!!!!!!!!!!

৭| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০১

গেম চেঞ্জার বলেছেন: আপনি গ্রাফিক্স ডিজাইনার!

বাহঃ দারুণ তো!

আমি অবশ্য কাজ টা একটু একটু জানি! শায়মাপু সেটা দেখেছে!!

তবে আপনার একটা কাজ দেখালে দারুণ লাগত!!! :)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১০

শায়মা বলেছেন: এক কাজ করো তোমরা দুজনই চীন দেশে যাও গেমু আর পলাশভাইয়া।

সেখানে গিয়ে গ্রাফিক্স করো আর চাইনিজ খাও! :)

৮| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০৪

গেম চেঞ্জার বলেছেন: পলাশমিঞা বলেছেন: ঠিকাছে, দেশে আসলে ওকে নিয়ে চাইনিজে যাব। আমি কিন্ত সাপ বিচ্ছা খাই না। ডর লাগে

আর আমি???

আমি না দাবি তুললাম!!!!!!!!!!! B:-)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৩

শায়মা বলেছেন: তুই তো খাস!

সবাই জানে!

সাপ ব্যাঙ, তেলাপোকা, টিকটিকি, থু থু ইয়াক থু!!!!!!!!!!!!!!!!! :-P

৯| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০৮

পলাশমিঞা বলেছেন:

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৪

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া এটা তো দেখছি আমার টিউটোরিয়াল ছাড়াই বেশি রিয়েলিস্টিক!!!!!!!!!! B:-)

১০| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১০

পলাশমিঞা বলেছেন:

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৬

শায়মা বলেছেন: গেছি!!!!!!!!!!!!!!!

১১| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১১

পলাশমিঞা বলেছেন: জি নিশ্চয় আপনাকে এবং শায়মাকে খাওয়াব। আমি সে দিন অনশনে থাকব। (হাহাহাহাহাহা)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৮

শায়মা বলেছেন: হায় হায় অনশনে কেনো!!!!!!!

স্বপ্নেও ভেবোনা আমরা তোমার মান ভাঙ্গিয়ে খাও খাও বলবো ভাইয়ামনি!!!!!

জানি তুমি একবার সাধিলেই খাও!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

১২| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৩

শাহাদাৎ হোসাইন (সত্যের ছায়া) বলেছেন: আনাড়িদের জন্য আসলেই একটা ভাল টিউটোরিয়াল হতে পারে।
সব কিছুর উর্দ্ধে আপনার হাতে আলাদা একটা ম্যাজিক আছে, সেটা অস্বীকার করার উপায় নাই।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২১

শায়মা বলেছেন: ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!

থ্যাংকস আ লট!!!


আমার মনে হয় তুমি আমার আঁকাআঁকির সবচেয়ে বড় ফ্যান!!!!!!

মন থেকে বলো যে আমি সেটা বুঝতেই পারি ভাইয়া!!!!!!!!

অনেক অনেক খুশি লাগে তখন ভাইয়া!!!!!!!

তুমি যে ঠোঁটকাটা স্বভাব আমি জানি খারাপ হলে কখনই বলতে না আমাকে অকারনে খুশি করতে আর সবচেয়ে বড় কথা কি জানো!!!!!!!!! অং বং কি হয়েছে জানিনা তবে নিজে এঁকে আমি নিজেই এত খুশী যে আমি চাই একটু চেষ্টা করে অন্যেরাও যারা আঁকতে চায় এঁকে ফেলুক!!!!!!!

আনন্দ একা একা ফিল করলে ঠিক ঠাক সেটা ফিল করা যায় না!

আবারও থ্যাংকস ভাইয়ামনি!!!!!!:)

১৩| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৫

গেম চেঞ্জার বলেছেন: যাক, অন্তত সম্মতি পাওয়া গেল। আর অনশনকারীর সাথে চাইনিজ কি করে খেতে হয় সেটা আমরা ভালই জানি কিন্তু!!! :-B

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২৩

শায়মা বলেছেন: হ্যাঁ ঠিক বলেছো!!!!!!!!

অনশনকারীর চোখ বেঁধে.....

ঐ যে সেবার ঐ অনশনকারীর সামনে কেমনে খেয়েছিলাম মনে নাই!!!!!!! :)


১৪| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৭

গেম চেঞ্জার বলেছেন: লেখক বলেছেন: তুই তো খাস!

সবাই জানে!


ইয়ে, মানে আগে খেতাম! এমনকি আস্ত একেকটা ডাইনোসরও!!!!!!!!! B-)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২৪

শায়মা বলেছেন: ঠিক ঠিক ডাইনোসরগুলাও বিবর্তিত হয়ে টিকটিকি গিরগিটি হয়ে গেছে আর তোমার খাদ্যাভ্যাসও বদলে গেছে গেমু!!!!!!!!!!!!!!


হাহাহাহাহাহাহাাহাহাহাহাহাহাহাহাহহাাহা

১৫| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৮

পলাশমিঞা বলেছেন: দেখছ, আমি অনেক কিছু পারি।

মিস্টার চেঞ্জার, আমি আসলে রোগা মানুষ বাইরে খাই না।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২৭

শায়মা বলেছেন: ঠিক ঠিক!!!!!!!!

আগে থেকেই গান পারতে, কবিতা পারতে লিখতে পারতে আর এখন পারো অনশন!!!!!!!!!!

ভেরি গুড প্রাকটিস ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!!!! :) :) :)

১৬| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২১

অদ্ভুত_আমি বলেছেন: আপু স্কেচ গুলি অসাধারণ হয়েছে, সেই সাথে টিউটোরিয়াল ।
আকঁতে মন চায়, কিন্তু সময় পাই না :( :( :(

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৩১

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!!!!!

লেখার সময় তোমার কথা মনে পড়েছিলো!

গ্লাস পেইন্ট টিউটোরিয়াল দেখে এঁকে ফেলেছিলে তুমি দারুন সব গ্লাস পেইন্ট এবার নিশ্চয় তুমি আঁকবে রিয়েলিস্টিক পোট্রেইটও নিশ্চয়ই ভাইয়ামনি!!!!!!!

১৭| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২৩

নুরুন নাহার লিলিয়ান বলেছেন: =p~ আমি অবাক হলাম। আমি বিস্মিত হলাম। এতো মেধাবী আর প্র তিভা!!!. অনেক শুভ কামনা।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৩৪

শায়মা বলেছেন: হা হা আপুনিমনি!!!!!!!!

ইহা হলো ইজি কাজে বিজি থাকা প্রতিভা!!!!!!

আরও আরও থাকো আমাদের সাথে অচিরেই বুঝে যাবে নেই কাজ খই ভাঁজে কাহার জুড়ি নেই আর!!!!!


অনেক অনেক থ্যাংকস আপুনিমনি!!!!!!!

১৮| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২৬

জাহিদ অনিক বলেছেন: বাহ । দারুন শায়মা আপু !!
দারুন টিউটোরিয়াল । তবে আমার জন্য এই টিউটোরিয়াল কোন কাজেই আসল না । আমি ছবি আকতে জানি না।
মেট্রিকে ব্যাঙ এর মৃত দেহই আকতে পারতাম না ।
তবে যারা ছবি আকে তাদের শ্রদ্ধা করি । তারা মহান । ছবি দিয়ে তারা প্রতিবাদ করে । তুমি তো আবার অলরাউন্ডার ।

নাচ, গান, কবিতা, ছবিতা কোন কিছুই বাদ রাখ নি । কলার কোন কিছুই বাকি নেই, একেবারে ছলাকলায় পারদর্শী ।



০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৩৯

শায়মা বলেছেন: হাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহা

ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!!!!!!

হাসতে হাসতে মরলাম!!!!!!!

ছলা কলা বলা এবং কানমলা সবই আমি শিখতে চাই!!!!! মাই হবি ইজ লার্নিং!!!!!

কিন্তু তুমি পারবেনা কেনো? এত কষ্ট করে শিখিয়ে দিলাম!!!!!!!

যাও এখুনি তোমার নিজের ছবি আয়নায় দেখে একটা গোফ এঁকে আনো!!!!!!!

১৯| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৩০

বর্ষন হোমস বলেছেন:

পেন্সিল কিনতে কিনতে ফকির হয়ে গেলাম।মুস্তাফা মনোয়ার ভাই প্রথমে বললেন কোন নিয়ম নেই তা ধরিয়ে দিলেন এত্তগুলা নিয়ম সাথে আপনি দুইটা লাগায়া দিলেন।এসব নিয়ম ফলো করতে গিয়ে আমার হায়াত ও কমে গেল আবুল ও হয়ে গেলাম।আমার মনে হয় আর গোয়েন্দাগিরিও করা হয়ে উঠছে না।শুধু এই পোষ্ট পড়ার কারনে। :-< :-<

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৪১

শায়মা বলেছেন: হায় হায় মুস্তাফা মনোয়ার ভাইয়া এই কথা তোমাকেও বলেছে নাকি!!!!!!!

কত পেন্সিল কিনেছো ভাইয়া!!!!!!

ছবি তুলে এনে দেখাও!!!!!!!!

২০| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৩২

পলাশমিঞা বলেছেন: সাপ বিচ্ছু খাওয়ার চেয়ে অনশন করা ভালো। অন্তত বিষ হজম করতে হবে না।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৪৬

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া আমরা সাপ ব্যাঙ রাঁধার আগে বিষ তুলে নেই আর তারপর কেউ অনশন করলে সেই বিষে অনশন ভাঙ্গাই! :)

২১| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৩৪

গেম চেঞ্জার বলেছেন: পলাশমিঞা বলেছেন: দেখছ, আমি অনেক কিছু পারি।
মিস্টার চেঞ্জার, আমি আসলে রোগা মানুষ বাইরে খাই না।

কনট্রাডিকশন!
কনট্রাডিকশন!


;)


০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫১

শায়মা বলেছেন: পলাশভাইয়াকে ভাবী বকা দিসে তাই এই অবস্থা ভাইয়া!!!!!!:(

২২| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৩৪

শাহাদাৎ হোসাইন (সত্যের ছায়া) বলেছেন: :-/ হাসলাম আপুমনি। আসলেই আমি ঠোটককাটা, আমাদের গ্রামে শিশু জন্ম গ্রহণ করলে মায়েরা তার মুখে মধু দেয়, আমার যাতে সন্তানেরা বড় হলে মুখে মিষ্টি কথা বের হয়। কিন্তু আমাকে আমার মা সেটি দিতে পারেনি। কারণ, আমার জন্মের সময় দেশে বন্যা চলছিল। তবে আসলেই আপনার পেন্সিলে আকা ছবি ভাল লাগে। যেমন শেষেরটা, একদম দুর্ভীক্ষের ছবি (জাস্ট ফান করলাম)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫৬

শায়মা বলেছেন: ঐ ভাইয়া!!!!!

শেষেরটা দূর্ভীক্ষ হবে কেনো!!!!!!! সেটা তো ডায়েটিং কন্যা!!!!!!!! হাহা হা হা আসলে আমার ইন্টারেস্ট মুখচ্ছবি তবে এনাটমিক্যাল শিক্ষা দীক্ষাও একজন শিল্পীর জীবনে প্রয়োজন হেতু উহা আঁকিয়াছিলাম।

তবে আমার আঁকা মুখ আর চোখ এঁকে আমি নিজেই আনন্দে ভাসি......

আর তোমার মত মধু না খেয়ে বড় হওয়া তিতা মানুষ যখন ছবি দেখে মধুর কথা বের করে ফেলো তখন বিস্মিত এবং আনন্দিতের মাত্রা বেড়ে সীমা ছাড়ায়!!!!!!!!!!!

২৩| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৪৭

মোটা ফ্রেমের চশমা বলেছেন: ইয়েস! ফাইনালি!! কোন কথা ছাড়াই প্রিয়তে সবার আগে।

কালকে নীলক্ষেত থেকে পেন্সিলের ডিব্বা কিনে আনবো!

ভালোবাসা! ভালোবাসা! ভালোবাসা! ভালোবাসা! নিঃস্বার্থ ভালোবাসা রইলো শায়মাপুর জন্য।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫৮

শায়মা বলেছেন: হা হা হা

ভাইয়া আঁকার পরে আমাকে ছবি তুলে দেখাতে ভুলোনা।

এত পরিশ্রমের লেখাটাতে অন্তত একজন কেউ শিল্পী হয়ে শৈল্পিক আনন্দ পাক সেটাই আমার চাওয়া!!!!!

২৪| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৪৯

পলাশমিঞা বলেছেন: তাইলে ঠিকাছে, বিষপান করার জন্য আমি আর দেশে যাব না।
হাহাহাহাহাহা।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:০৪

শায়মা বলেছেন: তাইলে আমরাই চলে যাবো তোমার দেশে ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!!

তোমার সেই দেশেরই তরে ...আমার মন যে কেমন করে....

২৫| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৪৯

বর্ষন হোমস বলেছেন: আপনি বললেন যে HB 1B 2B 3B 4B 5B 6B 7B.....একটা করে কিনলে কয়টা হয়।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:০৯

শায়মা বলেছেন: হা হা হা 1B 5B 7B আমার নাই!!!!

ওপস পোস্টে 5B ভুল করে গেছে। এডিট করে দেবো পরে!!!!!!!!

২৬| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫২

জাহিদ অনিক বলেছেন:
এই যে গুগল আমার হয়ে একে দিছে । একেবারে ফরাসী জাঁদরেল গোঁফ !!

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:০৯

শায়মা বলেছেন: তুমি গবুচন্দ্র মন্ত্রী আগে জানতাম না ভাইয়া!!!!!!!!!! :-/

২৭| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫৬

গুলশান কিবরীয়া বলেছেন: বাহ !! চমৎকার একটি পোস্ট । নিজে শিখেছ , এবার সবাইকে শিখিয়েও দিলে ।

ক্রিয়েটিভ মানুষদের বিষয় থাকে সবসময়ই শিশুদের মত , তাই তোমারও রয়েছে ।

অনেক অনেক শুভকামনা তোমার জন্য ।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:১৫

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ আপুনি!!!!!!!!!!!

সবাইকে কিন্তু বলে দেবো তুমি যে এক জিনিয়াস আর্টিস্ট!!!!!!!

তোমার আঁকা একটা ছবি দিয়ে যাও আপুনি!!!!!

২৮| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫৮

গুলশান কিবরীয়া বলেছেন: ২৭ নম্বর মন্তব্যে "বিষয়ের" এর জায়গায় বিস্ময় হবে । :)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:১৬

শায়মা বলেছেন: ওকে আপুনি!!!!!

তোমার আঁকা একটা ছবি দাও এইবার!!!!:)

২৯| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:০৪

মোটা ফ্রেমের চশমা বলেছেন: দেখাবো কিন্তু পচা কিছু হলে মজা নিবা নাতো? :||

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:২০

শায়মা বলেছেন: পঁচা হবে কেমনে!!!!!!!!!! B:-)

যেভাবে শিখিয়ে দিয়েছি!!!!!!!

পঁচা হবার কোনো উপায়ই নেই!!!!!!!!!!!!!

৩০| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:১৩

জাহিদ অনিক বলেছেন: এমন অনেক কিছুই হবে যা কেউ জানেনি আগে B-)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:২৩

শায়মা বলেছেন: হুম!!!!!!!!!

এইবার কি যে আবিষ্কার হবে!!!!!!!!!!!!!

সেই আমলে গবুচন্দ্র জুতা আবিষ্কার করেছিলেন

এই আমলে এই গবুচন্দ্র যে কি আবিষ্কার করে চিন্তায় পড়লাম!!!!!!!!!!!

৩১| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:১৬

খায়রুল আহসান বলেছেন: আঁকাআঁকি আমার বিষয় নয় মোটেই। আঁকাআঁকির যোগ্যতা অনুযায়ী বাংলাদেশের ১৬ কোটি মানুষকে যদি এক লাইনে দাঁড় করানো যায়, তবে নিঃসন্দেহে আমার অবস্থান হবে ১৬ কোটি তম স্থানটিতে! এমনকি বেবীদেরও পরে! :)
ব্যাঙ, ফুল, তেলাপোকা ইত্যাদির ছবি আঁকতে পারতাম না বলে ডাক্তার হবার আশা কলেজ ছাত্রাবস্থায়ই বাদ দিতে হয়েছিল, বায়োলজী না নেবার কারণে।
তবু আমি এ লেখাটিতে ৫ম 'লাইক' দিয়ে গেলাম, এ পোস্ট লিখতে কী পরিমাণ এফোর্ট দিতে হয়েছে এবং কতটা মনযোগ আর নিষ্ঠার সাথে এ কাজটি করতে হয়েছে, সে কথা ভেবে।
ভেরী ওয়েল ডান! আশাকরি, আঁকাআঁকিতে যাদের উৎসাহ আছে, তারা এ পোস্ট পড়ে নতুন কিছু একটা আঁকতে বসে যাবেন।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৪৯

শায়মা বলেছেন: হায় হায় কি বলো ভাইয়া!!!!!!

কিছুতেই ইহা হইতেই পারেনা!

আমি তোমাকে আমার এই অব্যার্থ অঙ্কন শিক্ষার টিউটোরিয়াল দিয়েছি ভাইয়া । কাল সকাল থেকেই শুরু করো ! পারবেই পারবে!!!!!
আর এফোর্টে আমার জুড়ি নেই! এসব আমার কাছে খেলা খেলা সারাবেলা ভাইয়ামনি!!!!!

আমিও চাই আমার এই পোস্ট পড়ে সবাই আঁকাআঁকির আনন্দে মেতে উঠুক!!!!!!!

৩২| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:১৮

কালীদাস বলেছেন: জ্যাতা জিনিষের ছবি আঁকা বেশরিয়তি। পরে তো জাহান্নামের আগুনে গ্রিল হইবেন। X((
বইলা লাভ কি? আমি নিজেও আনমনে সারাক্ষণ বিভিন্ন কিসিমের ভেটকির চেহারা "স্কেচাইয়া" ভরায়া ফেলি। চিন্তা করে দেখলাম, বেশিরভাগ সময় নিজের স্কেচটা আঁকি /:) (এইডা কি জিনিষ জিগায়েন না!)।

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৫৪

শায়মা বলেছেন: ধুর!!!! জাহান্নামের এক আগুন নিয়ে ভাবলে কি চলবে ভাইয়া?

শুনেছি নাচ, গান, বেপর্দা সবই বেশরিয়তী এবং জাহান্নামী! কয়টা আগুন আর সামলাবো বলো তার থেকে যে কটা দিন বেঁচে আছি জ্যাতা মরা সবই এঁকে এঁকে আনন্দে ভেসে যাই!!!!!!!!!!

তোমার ভেচকী স্কেচের ছবি দাও ভাইয়া!!!!! প্লিজ প্লিজ প্লিজ!!!!!!!!!!


আর এটা কি একেছো আমি জানি তাই আর জিগালাম না!!!!!! :)

৩৩| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:২৩

পিকাচু বলেছেন:
মনযোগ দিয়ে প​ড়লাম না।কখনো কোন ছবি আঁকার দরকার প​ড়লে ইউ আর দেয়ার টু ডু সো :)

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৫৬

শায়মা বলেছেন: হায় হায় মনোযোগ দিয়ে পড়লে না বলেই তো তোমার সাথে আঁকা চক্ষুর ঘটনাটা মিস করে গেলে! :(

৩৪| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৩৬

কয়েস সামী বলেছেন: দেখি এখন কিছুটা আঁকতে পারি কি না!

০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৫৭

শায়মা বলেছেন: পারবে ভাইয়া!!!!!!

অবশ্যই পারবে!!!

আমিও এভাবেই পেরেছি!!!!!

৩৫| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৩৮

সুমন কর বলেছেন: তুমি এতো কাজ করো কখন !! আর এতো গুণ থাকলে হবে !!!

গ্রেট পোস্ট। প্রিয়তে রেখে দিলাম। আমাকে দিয়ে তো হবে না !! যদি কারো কাজে লাগে।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:০১

শায়মা বলেছেন: এইগুলো তো কাজই না ভাইয়া!!!
আর আমি না অল রাউন্ডার !!!!!!! অল রাউন্ডারদের অনেক গুণ থাকতে হয় তো!!!!!!! B:-)


:P

:P

:P


প্রিয়তে রাখার জন্য থ্যাংকস কিন্তু ভাইয়া আমি যে সহজ শিক্ষন দিয়েছি তাতে না পারার কিছু নেই। তুমিও পারবে!!!!!!:)

৩৬| ০৩ রা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৪৩

জাহিদ অনিক বলেছেন: এই আমলে এই গবুচন্দ্র যে কি আবিষ্কার করে চিন্তায় পড়লাম!!!!!!!!!!!


দেখাই যাক না, কি বেরিয়ে আসে। চোখ রাখুব সামু ব্লগে !!

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:০৪

শায়মা বলেছেন: নতুন আবিষ্কার!!!!!!

বুঝেছি সেই বাঁদর বা ইঁদুরের মত কিছু একটা হবেই তাইনা ভাইয়া!!!!!!!!!

৩৭| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:০০

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: আঁকা আঁকি শেখার উদ্দ্যেশ্য এখানে মোটেও ঢু মারিনি, আঁকা আঁকি আমাকে দিয়ে হয়না। তবে কোনটা হয় তাও জানি না। জিনিয়াস রা সবজায়গাই জিনিয়াস তোমার বেলা যা সহজ আপুনি আমার বেলা কি যে কঠিন তা কি করে বুঝাব! তাই আঁকা বাদ। তুমি একেঁছ আমি দেখেছি তাতেই আনন্দ।
একসময় প্রায় সপ্তাহে একদিন হলেও চারুকলাতে যেতাম ওখানে যেতে যেতে একজন বন্ধুও হয়ে গেছিল তার ছিল লাষ্ট ইয়ার তাই বেশীদিন তার আঁকা জুকা দেখা হয়নি শিখতে চেষ্টা করেছি অনেকবার পারিনি কিছুই।
এখন কাজের জন্য ইলেষ্টেটর দিয়ে চুরি চাপটি করে কিছু গ্রাফিক্স করে নেই তাও কপি পেষ্ট এই সেই। মেকারদের শিল্পমনা হওয়া মনে হয় অনেক ট্রাফ।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:০৮

শায়মা বলেছেন: না!!!!!!!!!!!!!

মোটেও কঠিন নহে ভাইয়া!!!!!!

শুধু দরকার একটু ধৈর্য্য নিয়ে চুপটি করে বসা তারপর ১০১% মনোযোগে দিন দুনিয়া ভুলে ছবি আঁকায় মনোনিবেশ করা!!!!!!!!

দেখো ভাইয়া হবে না বলে কিছুই নেই!

আমাকে কি তোমার খুব শান্ত শিষ্ট ধৈর্য্যশীলা মনে হয় !!!!!!! তবুও আমি কি করে আঁকলাম বলো তাইলে!!!!!!!

শুধু অপরিসীম ইচ্ছাশক্তি আর মন দিয়ে ধৈর্য্য ধরে!!!!!!!!!


তুমিও পারবে শুধুই একটু ইচ্ছা করে দেখোই না!!!!!!

৩৮| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:০৩

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন:
আপনার ছবি দেখে মন খারাপ হয়ে গেল..................কারণ ঐ একটাই! এতো সুন্দর করে, যদি আপনার মত ছবি আঁকতে পাড়তাম । আমিও ছবি আঁকতে পাড়ি কিন্তু বাস্তবে নয় কল্পনায় ! B-)

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১০

শায়মা বলেছেন: আরে সুন্দর করে যেন আঁকতে পারো তাই তো দিলাম এই সহজ টিউটোরিয়াল!!!!!!!!!!!

৩৯| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১০

ধ্রুবক আলো বলেছেন: পোষ্টে +++++++++
আপনার সফলতার জন্য অভিনন্দন ও শুভ কামনা। কঠিন ব্রত না থাকলে কোন কিছুই অর্জন করা যায় না, যাক অনেক কিছুই শিখলাম, প্রেষনাও পেলাম!
তবে আপু একটা কথা হলো, আঁকাআঁকি খুব সুন্দর লাগে কিন্তু আমাকে দিয়ে আঁকাআঁকির আকার টাও হবে না! কোন দিনই আমি আঁকতে পারি নি তাই আর গবেষনাও করিনি!

যাই হোক আপনি আরও উন্নতি করুন....

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১৩

শায়মা বলেছেন: না ভাইয়া তুমিও পারবে ....

আমার স্টেপগুলো ফলো করে দেখো!!!!!
ইহা অব্যার্থ মহৌষধ.............

৪০| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১৩

জাহিদ অনিক বলেছেন: ইঁদুর বাদুড় তেলাপোকা ছারপোকা অনেক কিছুই বেরিয়ে আসতে পারে !!!! সাবধান ! সাবধান !!!

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১৬

শায়মা বলেছেন: হি হি তাও আবার তিনারা কবি বাহাদূর!!!!!!


হা হা হা

৪১| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১৩

আলভী রহমান শোভন বলেছেন: অসাধারণ একখানা পোস্ট দিছো, আপুনি !

স্কেচিং শিখতে অনেক কাজে দিবে।

লাইকাইলাম আর প্রিয়তে রাখলাম।

ভালো থেকো। :)

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১৭

শায়মা বলেছেন: তাই তো এত করে বলছি!


এটা স্কেচিং এর অব্যার্থ মহৌষধ কিন্তু দেখো অনেকেই ভয় পাচ্ছে!!!!!!!!:(

৪২| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:২০

আলভী রহমান শোভন বলেছেন: ভয় পাওয়ার তো কিছু দেখছি না, তোমার পোস্ট পড়ে আরও উৎসাহ পাবার কথা স্কেচিং নিয়ে।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সকাল ১১:১৫

শায়মা বলেছেন: শুধু উৎসাহ না!!!!!!!!

একদম অব্যার্থ শিক্ষন!!!!!!!!

৪৩| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:৩৫

খায়রুল আহসান বলেছেন: প্রথম ছবিটা থেকে চোখ ফেরানো দায়।
অনেক ফল্ট নিয়েও আমার প্রিয় একটা অঙ্কন.... এবং তার পরেরটার পরেরটাও ভাল লেগেছে।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সকাল ১১:৪৫

শায়মা বলেছেন:

থ্যাংক ইউ ভাইয়া!!!

আরও অনেক অনেক ছবি আছে।






এই ছবিটা আঁকতে গিয়ে, পেন্সিল শার্প করার সময় চোখে পেন্সিলের গুড়া ঢুকে আমার খবর হয়ে গেছিলো। দুইদিন চোখ ফুলে ছিলো !!!!:(

৪৪| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সকাল ৭:০৫

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: তোমার টিউটোরিয়াল ভাল্লাগছে শায়মাপু!:)

তয় এত তারাতাড়ি নম্বর দিতে পারুমু না( যদিও এ+ দেবো বলেই মনে মনে ঠিক করেছি)!!:):)

নম্বর পাইতে হইলে একটা Assignment জমা দেও আগে!:)

Assignment- এর টাইটেল “বুদ্ধ আপু মিষ্টি ভাই এর স্কেচ”

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সকাল ১১:৪৬

শায়মা বলেছেন: হা হা হা ওকে ওকে

তোমার জন্য “বুদ্ধ আপু মিষ্টি ভাই এর স্কেচ” শিরোনামে আঁকতে বসলাম!!!!!!!!

৪৫| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১২:০৯

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: আমি একজন নির্বোধ টাইপের মানুষ। তাই তোমার এমন গোপন প্রতিভার খবর জানতাম না বোন। আচ্ছা, আমি কী স্কেচ করতে পারবো? আমার হাতের লেখাই তো আমি নিজে ছাড়া আর কেউ বুঝতে পারে না। মানুষের মুখের স্কেচ আঁকতে গিয়ে যদি অমানুষের মুখের স্কেচ হয়ে যায়, তখন?

ধন্যবাদ বোন শায়মা।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১২:২৯

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা হা হা

ভাইয়া হাসতে হাসতে মরেই গেছি!!!!!

আমার প্রতিভা মতিভা কিছুই না ভাইয়া!

আমার ধারণা সকল প্রতিভার উৎস মানুষের অদম্য ইচ্ছাশক্তি আর লেগে থাকার ক্ষমতা!!!


তোমার হবে না মানে কোটি কোটিবার হবে!!!!!!!

অমানুষের মুখ এঁকে ফেললেও ভাববে সেটাই অসাধারণ মানুষের মুখ!!!!!


পজিটিভ চার্জে সকল নোগটিভিটি মৃত্যু বরণ করিবেক!!!!!!!!

৪৬| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১২:১১

কামরুন নাহার বীথি বলেছেন:
আপু, এমন করে ছবি আঁকতে হবে?
জীবনেও আমাকে দিয়ে হবে না। আপনি খুব ধৈর্যশীল টিচার।
কিন্তু আমি ফাঁকিবাজ ছাত্রী!!! ;)

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১২:২৯

শায়মা বলেছেন: একশোবার হবে!!!!!!

কোটিবার হবে!!!!!!!!!!

চ্যালেঞ্জ!!!!!

শুধু চোখ আঁকার স্টেপগুলো ফলো করেই দেখো একটা বার আপুনি!!!!!!!

৪৭| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১:৩২

ভ্রমরের ডানা বলেছেন:


শিল্প যে মনে বেধেছে তার ঘর,
সে মন শুধু মন নয়, বুনন কারিগর।
বাবুই যেমনে বাধে শিল্পের বাসা,
সে মন শুধু মন নয়, জাদু দিয়ে ঠাসা!


আর ছবিগুলো তেমনি হয়েছে ভায়া খাসা!

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:২১

শায়মা বলেছেন: হা হা হা

ভ্রমর যেমন গায় গুনগুন
সুর তোলে হৃদে রুনুঝুনঝুন
মায়ামদিরায় উড়ে চলে যায়
রিনরিনে তানে কথা বলে যায়......

থ্যাংক ইউ ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!

৪৮| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:৫২

মনিরা সুলতানা বলেছেন: এত কষ্ট করবে কে ?
তার চাইতে তোমার গুলো দেখি ,সুন্দর সব :)

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:২২

শায়মা বলেছেন: হা হা হা

ফাঁকিবাজি চলবে না আপুনি!!!!


একটু চেষ্টা করে দেখো.....

একটা মাত্র চোখ.....

তোমার চোখ,
ভাইয়ার চোখ,
বেবিদের চোখ.....
যার ইচ্ছা তার চোখ......

৪৯| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১১

সামিয়া বলেছেন: অসাধারণ অসাধারণ!!! ভেরি গুড জব। প্রিয়তে নিলাম। এই পোষ্টের জন্য হাজার হাজার প্লাস +
যদিও জানিনা আমি সময় করে শিখতে পারবো কিনা কিন্তু অনেক ভালো লাগে পেন্সিল স্কেচ।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১৯

শায়মা বলেছেন: পারবে!!!

পারবে আপুনি!!!!

অবশ্যই পারবে!!!!

প্রথমেই স্টেপ বাই স্টেপ রিয়ালস্টিক আই ড্রইং শেখো... দেখো এরপর আর কেউই তোমাকে আটকাতে পারবেনা।:)

৫০| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:৫৪

অসমাপ্ত কাব্য 21 বলেছেন: আপু, তোমার চোখের পাল্লায় পরে আঁকতে গিয়ে তো আমার পেন্সিলটাই শ্যাষ........ :'(
এখন আমার পেন্সিলের দাম কে দিবো......? :'(

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:২৯

শায়মা বলেছেন: হায় হায় কেনো!!!!!!!!!

শার্প ইওর পেন্সিল এ্যান্ড ট্রাই এগেইন!!!!!! যতখন না পারো ট্রাই এ্যান্ড ট্রাই এইসব এক্সিউজ চলিবেক না ভাইয়ু!!!!!!!!!!!

৫১| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪৫

ছন্নছাড়া মন বলেছেন:



আপনি কি গ্রাফিক্স ট্যাবলেট ইউজ করেন?!

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪৬

শায়মা বলেছেন: সেটা আবার কি ভাইয়ামনি!!!!!!!

আমি তো আমার যাদুকরী হাত দিয়ে এঁকেছি ছবিগুলা!

আর ব্লেন্ডিংগুলা ব্লেন্ডিং টুলস এ!!!!!

কিন্তু আমি আসলে পেন্সিল স্কেচটাই এনজয় করি আর সেটাই সবাই শিখে যাক আমার মত করে সেই ইচ্ছায় এই পোস্ট লিখেছি!

তুমি কেমন আছো ভাইয়া???

৫২| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৫৩

জেন রসি বলেছেন: সবগুলো আগেই দেখেছি। মজার এক্সপেরিমেন্ট। সবকিছুরই একটা এলগরিদম আছে। সেটা শিখে ফেলতে পারলেই বাকি সব সহজ হয়ে যায়।

আমার চোখের ব্যাপারে কিছু বললাম না! :P

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৫৭

শায়মা বলেছেন: ভাইয়ু!!!!!!!!!!!!

আমি যে এলগরিদমে এত ভালো জানতাম না!!!!!!!!!!!!!! B:-)

আর তোমার চোখের ব্যাপারে বলবা কি!!!!!!!

আমি তো আর মিথ্যা বলিনি!!!!!!!

৫৩| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:১১

জেন রসি বলেছেন: আমার চোখ গল্পের ভেতরের গল্প অনুসন্ধান করে! ;) তাই চোখে অনেক রকম গল্পের লেয়ার থাকে! পেঁয়াজের খোসার মত! ;)

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৪

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে গুড গুড!!!!!!!!

কালেই আঁকবো পেঁয়াজ চোখ!!!!!!! হা হা হা হা

৫৪| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৩৯

অরুনি মায়া অনু বলেছেন: হা হা হা আপনার শূণ্য পিঠে দুমদাম পূর্ণতা পড়ত। তবে আপনি একজন সফল চিত্রশিল্পী হতে পেরেছেন এটাই মূখ্য। খুব সুন্দর আপনার হাতের কারুকাজ।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৪২

শায়মা বলেছেন: ইয়েস আপুনি!!!!!!

ছোট থেকেই আমি অদম্য ছিলাম তো!!!!!!

সফল কুফল জানিনা তবে নিজে এঁকে নিজেই মুগ্ধ!!!!!!!


তাই তো ব্যাকরনবীহিন শিক্ষাটা সবার মাঝেই ছড়িয়ে দিতে চেয়েছি!!!!!!!! :)

৫৫| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৪৯

উম্মে সায়মা বলেছেন: খুব সুন্দর আপু। প্রিয়তে রাখলাম। পরে ট্রাই করব......

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫৫

শায়মা বলেছেন: অবশ্যই ট্রাই করো আপু!!!!!!!!

ইহা অব্যার্থ শিক্ষন! স্টেপগুলো ফলো করলেই হবে মন দিয়ে!!!!

আর আঁকার পরে কেমন মজা সেটা নিজেই বুঝে যাবে আপুনি!!!!!!!!!!! :)

৫৬| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫১

রাজীব নুর বলেছেন: এক কথায় বলি- অসাধারণ !!!!

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫৬

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!!!

তুমিও একটা চেষ্টা করো সুরভীভাবীর ছবি আঁকার!!!!!!!!!

নিশ্চয়ই পারবে!!!!!!!!! :)

৫৭| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৪৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা,



প্রথমেই বলে নিই , শিরোনামের "....অব্যার্থ....." শব্দটিকে ঠিক করে দিন । এমন সুন্দর সব চোখে , দৃষ্টিকটু লাগছে ।
আর সরবে বলি , " আহমেদ জি এস ভাইয়া খুশ হুয়া !" ( তার ভুয়া চোখ এঁকেছেন বলে :P )

বোঝা গেলো , চোখ আপনার একটি প্যাসন এবং অবসেশান । যে ক'টি চোখের ছবি এঁকেছেন তার দৃষ্টির ভেতর থেকে এই গানটির সুরই যেন ভেসে আসছে মনে হলো ---
চক্ষে আমার তৃষ্ণা ওগো,
তৃষ্ণা আমার বক্ষ জুড়ে ....হায়..।


আর অর্ধনগ্নিকার যে ছবি এঁকেছেন সেটা দেখে আমার নিজের আঁকা ছবিটির কথা মনে হলো । পেইন্টশপে মাউস টেনেটেনে আঁকা । আপনার মতো স্কেচ নয় । খারাপ লাগবেনা মনে হয় খুব একটা ।



সব মিলিয়ে ভালো হয়েছে পোস্টখানি । আপনার ছবিগুলো ফটোশপে নিয়ে বিভিন্ন গ্রাফিক্সে ফেলে দেখতে পারেন । মন্তব্যের ঘরে এর কয়েকটি উদাহরন দিয়েছেন কেউ কেউ।
শুভেচ্ছান্তে ।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:০৩

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া ব্য এর চেয়ে ব্যা দেখতে আমার বেশী ভালো লাগে মানে একটা আকার বেশি!!!!!! জানোই তো আমার সবকিছুই বেশি বেশি বাড়াবাড়ি!!!!!!! :(

যাইহোক তুমি বলার সাথে সাথে অব্যার্থ ব্যাকারণ সব ঠিক করে দিলাম!!!!!!! হাজার হোক তুমি বলেছো তাই না করে পারি!!!!!!!:)

যাইহোক চোখের লাইট রিফ্লেকশন আঁকার পিছে কাহিনী এত সোজা ছিলো আমি আগে কিন্তু খেয়াল করিনি। তবে তোমার চোখ নিয়ে আমি ঠিকই এঁকেছি। ইহাকে বলে শিল্পীর মনের কল্পনা যাহা আঁকিবেন তাহাই সত্য!:) দেখোনা এবস্ট্রাক্ট আর্টগুলা ছাতা একে বলে মাথা সেটা ছাতাও হয় না আবার মাথাও না তবে শিল্পী বলে বলিয়া তাহাই সত্য!!!!!!!!!:(

আর তোমারটা বুঝি অর্ধনগ্নিকা! এটা তো পুরাই!!!!!!! বাট আমারটা রিয়েল অর্ধ!!!!!!!

কিন্তু তোমার ছবির মনে এত দুঃখ কেনো!!!!!!!! সে কি কাঁদছে নাকি! :( :( :(

যাইহোক মাউস টেনে টেনে আমিও অনেক এঁকেছি!!!!! উফ সেটাও কম দূরহ অসাধ্য দুসাধ্য নহে। ওকে আরেকদিন না হয় সেটারও ব্যকারনবিহীন শিক্ষন দেওয়া যাবে যারা আজও আঁকতে জানেনা তাদেরকে!!!!!!!!! :) :) :)

৫৮| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:২৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


ওকে, আমি উৎসাহিত, আমি নতুন জীবনে প্রবেশ করছি হয়তো।

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:২৮

শায়মা বলেছেন: হায় হায় নতুন জীবন মানে কি !!!!!!!!!!


তুমি কি আরও একটা .......................!!!!!!!!!!!!! B:-) B:-) B:-)

৫৯| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫০

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: আমিও নানান কাজের বেগুনিরে ভাই!:)

আরো একটা গুন থুক্কু বেগুন যোগ করার জন্য পোস্টা সংগ্রহে রাখলাম!:)


অফটপিক:- স্কেচ কই??????

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৫

শায়মা বলেছেন: গুড গুড আগে নিজে এক খানা চর্চাছবি দেখাও!!!!!!!!

তারপর আনবো!!!!!!!!

৬০| ০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০৫

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: বুদ্ধিখান খাসা হইছেরে ভাই!:)

আমিও কোন দিন ছবি আঁকতে পারবো না আর স্কেচ দেখাও হবে না!!!:):)



বিদ্র;- পোস্টে এ প্লাস পেতে হলে স্কেচ কিন্তু জমা দিতেই হবে!:):):):)

০৪ ঠা ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৩

শায়মা বলেছেন: কে বলেছে পারবেনা!!!!!!!!!!!!!!!!!

B:-)

পারিবোনা এ কথাটি বলিও না আর
একবার না পারিলে দেখো শতবার!!!!!!!!

৬১| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১৭

আখেনাটেন বলেছেন: বহুদিন ধরে একটি রিয়ালিস্টিক চোখ আঁকার চিন্তা মাথায় ঘুরপাক খাচ্ছিল (কেন তা জানার জন্য জিজ্ঞাসু দৃষ্টিতে তাকাবেন না ;) ? )। বহুবার চেষ্টার ফসল হিসেবে যে চোখগুলো এঁকেছিলুম তা ছিল যেমনি ভয়ংকর তেমনি জঘন্য। :(( :(( বহু চেষ্টা করেও মনোবাঞ্ছনা পূরণ না হওয়ায় বহুদিন মনে বেদনা অনুভূত হয়েছিল।

তাই সে চেষ্টায় ইস্তফা দিয়ে দিয়েছিলুম বহু আগেই। তো আপনার এই বহুমাত্রিক চক্ষূ দেখে মনে বড় লোভ হচ্ছে 'বহুদিন পর আরেকবার চেষ্টা করায় যায়'। :D

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:৪০

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!

এইবার আর নিরাশ হবে না!!!!!

ইহা আবার অঙ্কন শিক্ষনের অব্যর্থ পন্থা......


অবশ্যই ট্রাই করো। চক্ষু টিউটোরিয়াল স্টেপগুলো ফলো করলেই তোমাকে আটকায় কে!!!!!!!!! :) :) :)

৬২| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১২:২৫

এম এ কাশেম বলেছেন: কলমে যেমন , হাতে ও দেখি যাদু আছে তেমন।

শুভেচ্ছা জানবেন কবি ও শিল্পী।

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:৪১

শায়মা বলেছেন: হুম ভাইয়া !!!!!!!!

আমি তো যাদুকরী!!!!!!!!!!

মানে ভালো বুদ্ধি দিয়েছো! এইবার যাদুটাও শিখে ফেলবো ভাবছি!!!!!! :)

৬৩| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১:৪১

শিখা রহমান বলেছেন: শায়মা এত্তো গুণী মেয়েটা!!! কি দারুন একটা লেখা। আঁকতে পারি না কিন্তু মুগ্ধতো হতে পারি। একরাশ মুগ্ধতা আর শুভকামনা। :)

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:৪২

শায়মা বলেছেন: আঁকতেও পারবে আপুনি!!!!!!

আর সে জন্যই তো এমন সহজ শিক্ষাপাঠ দিলাম!!!!! :)

৬৪| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:৪২

ANIKAT KAMAL বলেছেন: মুগ্ধতার কা‌ছে পরাজয় হার মানল অাপু শ্রে‌ষ্ঠত্ব‌ের শু‌ভেচ্ছা অফুরান

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:৪৪

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!!!!! এখন একটা চক্ষু এঁকে আনো!!!!! :)

৬৫| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:০১

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা ,




ওই মেয়ে ; আমার নগ্নিকা এখন কাঁদবে না তো কি ? আমি কি সব বেআব্রু করতে বলেছি ? আমি শুধু "অব্যার্থ" শব্দটা থেকে "আ-কার" এর আঁচলটা সরাতে বলেছি । যেন অর্ধনগ্ন হয় শিরোনামটা ।
আর আপনি তো "ব্যাকারণের" থেকেও "আ-কার" এর আঁচলটা সরিয়ে পুরোটাই নগ্ন করে ফেললেন ! B:-)

এবার তো আমার ব্যা....ব্যা......ব্যা করার পালা । :((

জানলুম, বেশি বাড়াবাড়ি হয়ে গেছে :P








ভাইয়া ব্য এর চেয়ে ব্যা দেখতে আমার বেশী ভালো লাগে মানে একটা আকার বেশি!!!!!! জানোই তো আমার সবকিছুই বেশি বেশি বাড়াবাড়ি!!!!!!! :(

যাইহোক তুমি বলার সাথে সাথে অব্যার্থ ব্যাকারণ সব ঠিক করে দিলাম!!!!!!! হাজার হোক তুমি বলেছো তাই না করে পারি!!!!!!!:)

যাইহোক চোখের লাইট রিফ্লেকশন আঁকার পিছে কাহিনী এত সোজা ছিলো আমি আগে কিন্তু খেয়াল করিনি। তবে তোমার চোখ নিয়ে আমি ঠিকই এঁকেছি। ইহাকে বলে শিল্পীর মনের কল্পনা যাহা আঁকিবেন তাহাই সত্য!:) দেখোনা এবস্ট্রাক্ট আর্টগুলা ছাতা একে বলে মাথা সেটা ছাতাও হয় না আবার মাথাও না তবে শিল্পী বলে বলিয়া তাহাই সত্য!!!!!!!!!:(

আর তোমারটা বুঝি অর্ধনগ্নিকা! এটা তো পুরাই!!!!!!! বাট আমারটা রিয়েল অর্ধ!!!!!!!

কিন্তু তোমার ছবির মনে এত দুঃখ কেনো!!!!!!!! সে কি কাঁদছে নাকি! :( :( :(

যাইহোক মাউস টেনে টেনে আমিও অনেক এঁকেছি!!!!! উফ সেটাও কম দূরহ অসাধ্য দুসাধ্য নহে। ওকে আরেকদিন না হয় সেটারও ব্যকারনবিহীন শিক্ষন দেওয়া যাবে যারা আজও আঁকতে জানেনা তাদেরকে!!!!!!!!! :) :) :)

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:০৭

শায়মা বলেছেন: আমি ব্যা ব্যা করবো কেনো!!!!!!!!!!! B:-)

ব্যা ব্যা করবে ব্যা ব্যা ব্লাক শিপ......:)


আর ভ্যা ভ্যা করবে তোমার নগ্নিকা ভাইয়া!!!!!!!!!!! :D

তবে আমি কাল সারারাত ভেবে ভেবে বুঝেছি কেনো তার মন খারাপ কারণ তাকে অন্ধকার কুঠুরীতে আটকে রাখা হয়েছে! আহারে বেচারা.... জানলা দিয়ে একটু আলো আসতে দিলেই তো তাহার মন ভালো হয়ে উঠতো!!!!!

অবশ্য পিঠে একটু হলুদ ছোঁয়াচ দেখে আমি রোদের আলো ভেবে ভুল করেছিলাম পরে বুঝলাম সেটা কাঁচা হলুদে রুপচর্চা চলিতেছে! আর এই রকম রুপচর্চা মানে হলুদ মেখে বসে থাকা কি রকম বিরক্তের কাজ সে তো বুঝায় যাচ্ছে উনার মন খারাপ দেখে !!!!!!!

:(

৬৬| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:০৬

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: কাকের ঠ্যাং, বকের ঠ্যাং কে কী আঁকলো মন্তব্য কলামে, দেখার জন্য আবার এলাম। জাহিদ অনিক এঁকেছেন একটা গোঁফ, কালীদাস এঁকেছেন একটা হিজিবিজি, আহমেদ জী এস এঁকেছেন ( না, বলবো না ), আর পলাশ এঁকেছে সুন্দর দুটো চোখ। পলাশ তোমার একটা ছবিও কপি পেস্ট করেছে মনে হয়।
যাই হোক, আমি আজ সকাল থেকে একটা মেয়ের মুখমণ্ডল আঁকার চেষ্টা করছিলাম। কিন্তু চোখটাকে পটলচেরা করার সব চেষ্টা বিফলে গেল। আমার দ্বারা এসব হবে না বোন। তার চেয়ে যাই একটা গল্প লিখি। কী বল?

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:১১

শায়মা বলেছেন: না না চলবে না পটলচেরা না হোক আলু চেরা আঁকো। নয়তো পেঁয়াজ চেরা!! ওপস পেঁয়াজ চেরা তো আবার জিনি ভাইয়ার চোখ।

তুমি না হয় একটা গল্পচেরা চোখই আঁকো ভাইয়া!!!!! এত সহজে নিরাশ হতে নেই!:)

তবে এটা পড়ে---

কাকের ঠ্যাং, বকের ঠ্যাং কে কী আঁকলো মন্তব্য কলামে, দেখার জন্য আবার এলাম। জাহিদ অনিক এঁকেছেন একটা গোঁফ, কালীদাস এঁকেছেন একটা হিজিবিজি, আহমেদ জী এস এঁকেছেন ( না, বলবো না ),

শেষে এসে আমি হাসতে হাসতে মরলাম কারণ মনে মনে তুমি তখন নাউজুবিল্লাহ পড়ছিলে আমি শুনতেই পাচ্ছি ভাইয়া!!!!!!!! হা হা হা হা হা

৬৭| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:২৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা ,



মাথার মধ্যে কিচ্ছু নেই দেখছি আপনার ! কি বলেছি আগের মন্তব্যে ?
"ব্যকরণ" কে আগের মতো " ব্যাকরণ" করে দিন । ন্যাংটো লাগছে ।

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৩১

শায়মা বলেছেন: কি বলো ভাইয়া!!!!!! আমি তো চেক করে দেখলাম ব্যাকারন ভুল ব্যকারণ ঠিক!!!!!!

তুমি আবার লিখলে ব্যাকরণ!!!!!!

ক এর সাথে আবার আকার নাই!!!!!!!!!! কি আকার দেবো নাকি দেবোনা!!!!!


হায় হায় কই যাই !!!!!!!!

:( :( :(

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৩৮

শায়মা বলেছেন: বাংলা ব্যকারণ | - Book or ebook
Translate this page

প্রয়োজনীয় বাংলা ব্যকারণ বই - সব রকমের বাংলা বই পাওয়া যায়

বাংলা ব্যকারণ | - Book or ebook

বাংলা ব্যকারণ - Central Library, Shahjalal University of Science ...

বাংলা ব্যাকরণ পাঠ ৭ – বিসর্গ সন্ধি

এরা সবাই কি লিখেছে দেখো!!!!!!!!!!! :((

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৪২

শায়মা বলেছেন: আবার দেখা যাচ্ছে

বাংলা বই(বাংলা ব্যাকরণ ও সাহিত্য )

বাংলা ভাষার ব্যাকারণ (বাংলা ২য় পত্র ) নবম শ্রেণী দ্বিতীয় অধ্যায় ...

বাংলা ব্যাকারন ও English Grammer শেখার সবচেয়ে সহজ বই কোনটি

মাধ্যমিক বাংলা ব্যাকরণ SSC Bangla Grammar - Largest Bangla ...

সহজ বাংলা ব্যাকারণ ও রচনা - স্কুলের বই - বিষয় ভিত্তিক


ওহ নো!!!!!!!!!!!
আমি তো এখন সত্যিই ব্যা ব্যা করে পাগল হয়ে যাবো!!!!!!!!!! :-/

৬৮| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৫৩

খায়রুল আহসান বলেছেন: ব্যাকরণ - এটাই শুদ্ধ বানান।

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৫৫

শায়মা বলেছেন: হ্যাঁ !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

আহমেদ জি এস ভাইয়ার সাড়া না পেয়ে আমি কালপুরুষভাইয়া থেকে নিশ্চিৎ হয়ে আসলাম!!!!!!! দেখো ঠিক করে দিয়েছি ভাইয়া!!!!!!!!!!!! :)

৬৯| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: শিরোনামটা ঠিক হয়েছে, ভেতরে এখনো অনেক জায়গায় হয় নাই, যেমন-- যাইহোক শুরু হলো আমার নিরলস ব্যাকারণবিহীন রিয়েলস্টিক ছবির অঙ্কন চর্চা...
যাইহোক, শিরোনামটাই আসল। ভেতরে ঢোকার কষ্ট না করতে চাইলে তা নাও করতে পারেন। তবে আপনি যেহেতু একজন পারফেকশনিস্ট, তাই বললাম।

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১৫

শায়মা বলেছেন: নো কষ্ট ভাইয়া!!!!!!!!!

সব ঠিক করা হবে!!!!!!!


শুধু একটু রেস্ট নিয়ে নেই!!!!!!!!!! :)

৭০| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৩০

জেন রসি বলেছেন: আমার পাঁচ মাত্রার চোখ আঁকার কথা ছিল। ;)

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:০৬

শায়মা বলেছেন: পাঁচ মাত্রার চোখ আঁকতে পাঁচ দিন লাগবে ভাইয়ু!!!!!!! :)

৭১| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:০১

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: চমৎকার টিউটোরিয়াল ! শায়মা দেখছি আমাকে ছবি আঁকা শিখিয়েই ছাড়বে! =p~

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:০৭

শায়মা বলেছেন: আঁকো আঁকো এখুনি আঁকতে বসো!!!!!! আয়নার সামনে নিজের চোখ! :)

৭২| ০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:২০

জেন রসি বলেছেন: লেখক বলেছেন: পাঁচ মাত্রার চোখ আঁকতে পাঁচ দিন লাগবে ভাইয়ু!!!!!!! :)

পাঁচদিন পর আর্টিস্ট কোন মাত্রায় অবস্থান করে সেটাই দেখার বিষয়! ;)

০৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:২৯

শায়মা বলেছেন: তুমি কি আর পাঁচ মাত্রার চোখ নিয়ে কিছু দেখতে পাবা!!!!!!!


যেই মাত্রায়ই থাকি না কেনো তুমি দেখবা পাঁচো গুন বেশি!!!!!! হায় হায় !!!!!!

৭৩| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:২১

অতঃপর হৃদয় বলেছেন: আমার সব কিছু কেমন জানি গুলিয়ে যাচ্ছে। ছোট মাথায় এত বড় বড় জিনিস ঢুকবে কিনা কে জানে, তবুও চেষ্টা করতে করতে হয়ত সফল হয়ে যেতে পারি। আপুনি, আপনার পোস্ট টা প্রিয় তে রাখলাম। ধন্যবাদ এত সুন্দর পোস্টের জন্য।

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:৫১

শায়মা বলেছেন: ঠিক তাই!!!!!

চেষ্টা করলে সাফল্য অনিবার্য্য তবে চেষ্টাটা হতে হবে চেষ্টার মত চেষ্টা।

৭৪| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:১৬

জেন রসি বলেছেন: নেক্সট এক্সপেরিমেন্ট কি নিয়ে হবে? এবার একটা মুভি বানিয়ে ফেলুন! :)

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩১

শায়মা বলেছেন: ম্যুভি!!!!!!!!!!!


বানাতে হয় !!!!!!!!!!!!

সেটা তো আমি নিজেই অভিনয় করবো ভাবছি!!!!!! :)

৭৫| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৪

জেন রসি বলেছেন: পরিচালনার দায়িত্ব আমাকে দিয়েন! ;)

আমি সেটা উপভোগ করি! :P

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৭

শায়মা বলেছেন: না না তাই কি হয়!!!!!!!!!


পরিচালনাটাও শিখে ফেলছি!!!!!!!!!!


হা হা হা

ইউ নো লার্নিং ইজ মাই হবি!!!!!!!!!! :) :) :)

৭৬| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪৩

জেন রসি বলেছেন: কে কিভাবে কেন কোন কিছু শিখে সেটা বুঝাটা আমার হবি!!! ;)

এতে করে এক ঢিলে কয়েকটা পাখি মেরে ফেলা যায়!!! :P

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫২

শায়মা বলেছেন: পাখি!!!!!!

পাখি মারা দন্ডনীয় অপরাধ!!!!!!!!

তোমার বাড়ি এখন পুলিশ পাঠানো হচ্ছে !!!!!!!!!!


পাখিগুলা লুকাও শিঘ্রি!!!!!!!!!!

৭৭| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:০৯

জেন রসি বলেছেন: নো প্রোব!

পাখিগুলো রান্না করে খেয়ে ফেলব! ;)

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:১৩

শায়মা বলেছেন: কাঁচাই খাও!!!!!!!!
কাটা, বাছা, রাঁধা,বাড়ার সময় কি এখন আছে!!!!!!!!!!!!!! B:-)

৭৮| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:১৬

জেন রসি বলেছেন: লবন দিয়ে আগুনে ঝলসে নেব! একটা ওয়াইল্ড আবহ সৃষ্টি হবে! ;)

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২০

শায়মা বলেছেন: হায় হায় ভাইয়া!!!!!!!!

ঝলসাতে তো সময় লাগবে!!!!!!!!!!!!


ডু নট ওয়েস্ট টাইম!!!!!!!!!!!!!! #:-S

৭৯| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২৬

জেন রসি বলেছেন: সময়ের সাথে দাবা খেলাটাই আসল খেলা। মাঝে মাঝে চাল দিতে সময় লাগে। লাগুক। ভুল চাল দিলে সময় থাকবে! কিন্তু রাজা থাকবেনা! ;)

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৩৯

শায়মা বলেছেন: যাক গে!!!!!!

রাজা না থাকলে কি হবে!!!!!!!!

রাণী তো থাকবে!!!!!!!!!!!! :)

৮০| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:১৩

জেন রসি বলেছেন: রাজা না থাকলে রাণীকে স্লেভ বানিয়ে ফেলবে প্রতিপক্ষ! ;)

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:১৬

শায়মা বলেছেন: B:-)


কি বলো!!!!!!!!!!!!!!!!


এত্ত বড় সাহস!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!


প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করার জন্য তাইলে ১০ রাজার অর্ডার দেওয়া হৌক!!!!!!!!!!!!


হাহাহাহাহাহাহাহাহাহাহাাহাহাহাহাহা

৮১| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:২১

জেন রসি বলেছেন: অর্থাৎ মাঝে মাঝে সময় নষ্ট করাটাও ইফেক্তিভ! ;)

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৩৫

শায়মা বলেছেন: জগতে কোনো কিছুই মূল্যহীন নহে।

৮২| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৪৩

জুন বলেছেন: শায়মা ব্লগে তোমার প্রতিভার আর কত নজির দেখতে হবে তাই ভাবছি। তোমার আঁকাআকিতে মুগ্ধ। প্রতিটি ছবি মনে হচ্ছে কথা বলে উঠবে এত জীবন্ত। চোখ যে মনের কথা বলে তা ঠিক যেন তোমার না দেখা চোখের মতই আকর্ষণীয় :) আমি আকতে গেলে হয়তো এত সহজ সরল পটল চেরা চোখ আকতেই পারবো না। হয়ে যাবে কাকের ঠ্যাং বকের ঠ্যাং। যার যেমন প্রতিভা আরকি :(
অনেক অনেক ভালোলাগা রইলো তোমার স্কেচ পোষ্টে :)
+

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৪৯

শায়মা বলেছেন: আপুনি!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

তুমিও পারবে!!!!!!!!!!!!

আমার চোখ আঁকার স্টেপগুলো ফলো করে দেখো!!!!!!!!!!!

অবশ্যই পারবে!!!!!!!!!!!!!!!!!!! :)

বিশ্বাস করো!!!!!!!!!!!!!!

লাভ ইউ আপুনিমনি!!!!!!!!

৮৩| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৪

জুন বলেছেন: হয়তো চেষ্টা করলে পারবো শায়মা। তবে চেষ্টার ইচ্ছে থাকতে হয় কি বলো? তুমি আমারো অনেক অনেক প্রিয় ব্লগার। আই লাভ ইউ টু :)

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০২

শায়মা বলেছেন: হাহাহাহাহা এখুনি একজনকে তোমার কথা বললাম আপুনি!!!
বললাম জুন আপুকে দেখলেই বুঝা যায় রিয়েল ব্লগার/রাইটার বা একজন প্রকৃত জেন্টেল লেডি কেমন হওয়া উচিৎ!!!

তুমি কিন্তু আমাকে থাইল্যান্ডের সেই পুতুলটা দাওনি আজও!!!!!!!!!!!!!!:(

৮৪| ০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৫

জুন বলেছেন: কোন পুতুলটা শায়মা? ওই যে ফ্লোটিং মার্কেটের নৌকার ফলওয়ালী ?? এই সপ্তাহে যাচ্ছি। বেচে ফিরলে অবশ্য আনতে চেষ্টা করবো। কিন্ত পৌছাবো কার হাত দিয়ে সেটাই ভাবছি। কারন পরী রাজ্যের রুপসী পরীটাতো থাকে সেই সাত আসমানের উপর যাকে বলে আকাশে :)

০৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২৭

শায়মা বলেছেন: হা হা আগে এনেই দেখো!!!!!!!

তারপর বলো!!!!!!!!!!!!


পরীরাজ্যের হেলিকপ্টার তোমার বাড়ির ছাদে নামবে!!!!!!!! হাহাহাহাহাহাহাহাাহাহা

৮৫| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সকাল ১০:১১

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: আহা কি সুন্দর ছবি!
আপু তোমার আকাআকি আরও ভাল হোক সেই কামনায় করি।

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১৮

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!!!!

আর তুমিও আঁকা শিখে নাও আমার লেখালিখি থেকে!!!!!!! :)

৮৬| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২৬

জেন রসি বলেছেন: আমি বেশ কয়েকবার আঁকাআঁকির চেষ্টা করেছি। শেষ পর্যন্ত সেসব অনেকটাই দালির মহান চিত্রকর্মের মত হয়ে যায়! :P

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৩৩

শায়মা বলেছেন: তুমি তো এমনিতেই মহান ভাইয়া!!!!!


মহান না হয়ে যাবে কই!!!!!!!!!!!!!! B:-)

৮৭| ০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৪১

জেন রসি বলেছেন: নিজেকে মহান ভাবা একটা অবসেসিভ ডিজঅর্ডার! ;) এই সমস্যা আমার নেই! আমার বরং এঞ্জেল, ডেভিল এবং মানুষের মিক্সচার পছন্দ! :P

০৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫১

শায়মা বলেছেন: এই তিনের মিক্সারে কি মহান জিনি ভাইয়া চিত্রকর্ম বের হবে তাই দেখার অপেক্ষায় অপেক্ষিত!!:)

৮৮| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ভোর ৫:৪৮

ভীনদেশী বলেছেন: আনাড়িদের জন্য পেনসিল স্কেচ শিক্ষণ । ভালো, কিন্তু অভিজ্ঞরা .............? আনাড়িতো তাই পোস্ট প্রিয়তে তুলে নিলাম।

০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:২৪

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!

কতদিন পরে দেখলাম!!!!

অভিজ্ঞদের জন্য দেইনি তো!!!!! আমার ব্যাকরণহীন শিক্ষন কি আর তারা নেবে নাকি!!!!!!

আমিও যেভাবে আনাড়ি থেকে সহজ শিক্ষনে শিখেছি তা থেকে অন্যরাও কেউ কেউ শিখে ফেলুক এই আমার চাওয়া!!!

৮৯| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:০১

বাবুরাম সাপুড়ে১ বলেছেন: আমি আনাড়ি ,শিক্ষার্থী তব দ্বারে ! ঘোড়ার ডিম আর সোনার পাথরবাটী অঙ্কন শিখিতে চাহি ! বড় আশা করে এসেছি গো ফিরায় না মোরে .......!

০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১৪

শায়মা বলেছেন: ঘোড়ার ডিম আকা কোনো ব্যাপার হলো!!!!!!!

ডিমের ঢালটা আঁকতে আউটলাইনের দিক থেকে গাঢ় করে দেবে আর মাঝে একটু চকচকে ভাব রাখবে। নীচেও একটু ছায়া দিয়ে দিও। যত বড় আঁকবে ততই ভালো ঘোড়ার ডিম হবে !:)


আর সোনার পাথরবাঁটি!!!!!!!!!

সে তো আরও ইজি!!!!!!!!!

হলুদ হলুদ কমলা কমলা রংটা সোনার জন্য আর পাথবাটিটাকে একটু এ্যাশ করে দিও....

ব্যাস কেমন শিখিয়ে দিলাম ভাইয়া......

আফটার অল তুমি অতিথি আমারই দ্বারে....ওগো সাপুড়ে ভাইয়া ......:)


আবার তুমি যে কিছু চাহো না.....শুধু একটুখানি অঙ্কন শিখিবে.....
আমি না শিখালে শিক্ষক আর পাইবে কোথা!!!!!!!!!!!!!!!!

কেঁদে কেঁদে কোথা বেড়াবে.......!!!!!!!!!! :P

৯০| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:০২

টুনটুনি০৪ বলেছেন: আপনার অংকন দেখে মুগ্ধ হলাম। একজন দেখলাম আপনাকে নিয়ে একটা সনেটও লিখে ফেলেছেন।

০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:০৮

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ আপুনি!!!!!

এইবার আঁকো মনের আনন্দে! :)

৯১| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৪৯

সাহিদা সুলতানা শাহী বলেছেন: যেন তিনি মুক্তা ঝরা রত্ন অবারিতা
কথা তার ঝরা ফুল, ঝরে কুড়ি কুড়ি।

আপনার পোষ্ট দেখে কবির কথার প্রথম লাইনের মিল পেলাম।

০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৫৩

শায়মা বলেছেন: বাপরে

আমি তো ধন্য হয়ে গেলাম আপুনি!!!!!!

৯২| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫৬

টুনটুনি০৪ বলেছেন: খুব চমৎকার চমৎকার ছবি এঁকেছেন। দেখেতো আমার চোখ জুড়িয়ে গেল। :-& ...................... 8-|

০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫৯

শায়মা বলেছেন: আরে তুমিও আঁকো আপুনিমনি!!!!!

আমিও চোখ জুড়াই, মন ভরাই!!!!!!!! :)

৯৩| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:৫৯

অপু দ্যা গ্রেট বলেছেন: অনেক দিন পর ব্লগ এ এসে যাদের খুজেছি তাদের একজন কে পেয়ে গেলাম ।

কেমন আছেন আপু?

আর পেন্সিল স্কেচ এই টিপ টা কাজে লাগবে আগে আকাআকি করতাম ভুলে গেছি ।

ধন্যবাদ

০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:০০

শায়মা বলেছেন: তো তুমি এতদিন কোথায় ছিলে ভাইয়ু????


আমি ভালো আছি! আমি তো সেই আগের মতই আছি!!!!!!

আগে আঁকতে এখন আবার শুরু করো!!!!!!!!! :)

৯৪| ০৮ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৩৪

আরেফ বলেছেন: অসাধারণ,আকিয়ে আপনি। ভাললাগা রেখে গেলাম।

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:০৮

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়ু!!!!!!!!! :)

৯৫| ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:২৭

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন:
নিচের কবিতা পড়ে একটু বলবেন ,কি বুঝলেন ? আমি কিছু বুঝিনি, এ কারণে আপনার ব্লগে এ কবিতা নিয়ে জরুরী অবতরণ করলাম । B-)


কবিতা...........

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:২৯

শায়মা বলেছেন: ওকে আগে গিয়ে পড়ে আসি! :)

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৩৫

শায়মা বলেছেন: আমি একটু সংশোধনী দিলাম ভাইয়া!!!!!!


দেখি এখন কি করে ভাইয়াটা!!!!!!!! :)

৯৬| ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪০

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন:
আচ্ছা ঠিক করে দিয়েছেন বুঝলাম কিন্তু ছবি সাথে তো কবিতা যায় না B:-/ !!!

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪১

শায়মা বলেছেন: ওহ তাইতো!!!!!!!!

ছবিটাও দিয়ে আসি তাইলে!!!!!:(

নাকি তুমি দেবে?

৯৭| ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪২

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: অসাধারণ আপু আপনার শিল্পকর্ম। চিত্রাঙ্কন গুলো চমৎকার হয়েছে। চোখগুলোতে বাস্তবতা ফুটে আছে। অবাক হয়েছি চোখের মনিগুলো অবিকল জীবন্ত মানুষের চোখের মনির মতোই একদম নিখুঁত। ভালো লাগা আর মুগ্ধতায় কৃতজ্ঞতা রেখে গেলাম। শুভকামনা সবসময়।

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪৮

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া সত্যি বলতে আমার পুরো আঁকাআঁকির মেইন থিমই চোখে।

আমিও এঁকে এমন মজা পেয়েছি যে আমি চেয়েছিলাম আরও অনেকেই যেন এই মজাটা ফিল করতে পারে তাই এই টিউটোরিয়াল রচনা!

তুমিও আামর টিউটোরিাল দেখে এঁকে ফেলো ভাইয়া!

ইটস ইজি!!!!!!!!! ইফ ইউ রিয়েলী পে ইওর এটেনশন!!!!!!! :)

৯৮| ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪৫

শাহরিয়ার কবীর বলেছেন:
আজ্ঞে,
আপনি হলেন ব্লগের মুরব্বি =p~
নিশ্চয় আমার থেকে আপনার কথার গুরুত্ব অনেক!!
আপনি ছবিটা দিয়ে আসেন !!! B:-)

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০০

শায়মা বলেছেন: ওকে!!!!!!!!!!:)

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:১৮

শায়মা বলেছেন: ছবি দেই নাই। হিন্টস দিয়ে আসলাম। নিজেই করুক! :) সেটাই ভালো নিজের জন্য!!!! :)

৯৯| ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৮

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: স্কুল জীবনে ট্রাই করেছিলাম, কিন্তু কারোর মতোই হয় না দেখতে। ( যাকে ভেবে এঁকে ছিলাম তার মতো হয়নি) চেষ্টা ছিল, কিন্তু হয়নি। তবুও আপনার টিউটোরিয়াল পড়ে চেষ্টা করবো, জানিনা কার মতো হবে দেখতে।



তবে আপনার জন্য শুভকামনা থাকবে

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:১৭

শায়মা বলেছেন: হবে না এটা আমি মরলেও বিশ্বাস করি না ভাইয়া!!!!!!

হবেই হবে!!!!!!!

১০০| ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৪৭

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: আমার লেখাগুলো চুরি হয়ে যাচ্ছে!! করার থাকলে দু একটা উপদেশ পরামর্শ দাও

লিংক
চুরির পন্য যখন লেখা

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:০১

শায়মা বলেছেন: চোরকে আমি ভুই পাই!!!!!:(

তবে কি করার আছে ভাবি আর একটু!!!!! :)

১০১| ০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:০৫

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: তোমার এই ভাই আবেগে মরে যাচ্ছে আপুনি!!!

শ্বান্তনা দিতে তাড়াতাড়ি পোস্টে আসো!

০৯ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:০৮

শায়মা বলেছেন: শুধু সান্তনা!!!! সাথে অনুপ্রেরণা দিয়ে এলাম তো!!!!!!!!!!

১০২| ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫১

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: আসলেই ভয়াবহ সুন্দর। :D

১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৩

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!!!!!!


ভীন গ্রহের ললনা পেলে তারটাও আঁকতাম !!!!!!!!! :)

১০৩| ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৪

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: তবে আপু কিলার লুকের একটা চোখ আঁকতে হবে B-)

১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৫৭

শায়মা বলেছেন: আঁকছি তো!!!!!!!!!

এই যে দেখো



যদিও ইহা জিনি কিলারের চোখ আঁকা হইয়াছে! হা হা হা :P

১০৪| ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০১

মোশফেক জামান সফল বলেছেন:
এই চোখটা ভীনগ্রহ এর হলে ভাল হয় তবে, ভীনগ্রহ র ললনা, নাক বোচা হওয়ায় কানও কিন্তু চ্যাপটা হবে ফলে চোখগুলো বড় বড় হবে। ;)

১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০৬

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া তুমিই তো তাকে দর্শন করিয়াছো কাজেই তাকে এঁকে আনো যাও। এখুনি একে আনো!!!!!!!!! :)

১০৫| ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:০৪

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: আসলেই কিলার! B:-) আপু।

১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১০

শায়মা বলেছেন: আসলেই!! বিশ্বাস না হয় জিগাসা করে দেখো ভাইয়াকে!!!!!!! :P

১০৬| ১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৩

জেন রসি বলেছেন: আমি কিলার???

হাহাহাহহাহাহাহা

হু নোজ? ;)

১০ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:১৮

শায়মা বলেছেন: আই নো!!!!!!!!! :)


কিন্তু মোশফেক সফলভাইয়া তো শুনেই পালিয়েছে ভয়ে!!!!! :(

১০৭| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সকাল ১১:৫২

মোশফেক জামান সফল বলেছেন:
আঁকতে না পারলেও চেষ্টা করেছি! ;)

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১২:০৫

শায়মা বলেছেন: B:-)


কি চেষ্টা ভাইয়া!!!!!!!!!!!


নো নকলবাজি!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!


নিজের হাতে চেরেষ্টা করো!!!!!!!!!! X((

১০৮| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:১১

লিজালিজা বলেছেন: অসাধারণ আপু।থ্যাঙ্কস নতুন করে আবার ইচ্ছেটাকে জাগিয়ে তোলার জন্য। আমি ও ছবি আঁকতে ভালোবাসি কিন্তু পারিনা ভালো। তাই রং আর পেন্সিল এখন বাক্সবন্দী। এবার মনে হয় ওদের মুক্তির দিন এলো। ৬ এবং ৭ এ মনে হয় কোন্ পেন্সিল ব্যাবহার করেছেন তা লিখেন নি। আরো টিপস এবেং ভিডিও টিউটোরিয়াল দিলে ভালো হবে আমাদের মত আনাড়িদের জন্য।

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:১৮

শায়মা বলেছেন: আঁকো আঁকো শিঘ্রী আঁকো আপুনি!
৬/ ৭ মানে চোখের টিউটোরিয়ালের ৬/৭ নাম্বার ?

পুরো ছবিটাতেই HB, 2B, 4B & 6B ইউজ করা হয়েছে। :)

১০৯| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১২

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: সময় লাগবে! তবে!!!! ;)

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১৮

শায়মা বলেছেন: কত আর লাগবে বড় জোর ৭ ডেজ!!!!!!!!!

এভরিডে ওয়ান আওয়ার!!!!!!!!! :)

১১০| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:২১

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: তা তো চেষ্টা করাই যায়। ;) দোয়া করবেন।

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:৪০

শায়মা বলেছেন: অনেক অনেক দোয়া ভাইয়া!!!!!!!! :)

১১১| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:৫৬

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: কিন্তু জ্বলজ্বল করা অংশগুলোতে মোমবাতি ব্যাবহার করলে কেমন হয়???

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:১৪

শায়মা বলেছেন: মোমবাতি!!!!!!


জ্বলজ্বল করা অংশ মানে!!!!!!!!

বুঝলাম না তুমি কি আঁকার কথা বলছো!!!!!

১১২| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৩৪

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: যাস্ট পেন্সিল দিয়ে চোখ এঁকে তার ওপর মোমবাতি আলতো করে ঘষলে চোখ দুটো কি জ্বলজ্বল করবে????

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৫৩

শায়মা বলেছেন: না!!!

শেডিং করতে চাইলে টিস্যু বা কটন বাড দিয়ে কোন দিকটা লাইট আসবে আর কোন দিক ডার্ক সেইভাবে ঘষে সফট ভাব আনতে হবে আর জ্বলজ্বল অংশ শুধু ইরেজার দিয়ে পেপার হ্যোয়াইট বের করে আনলেই হয়ে যাবে! :) নিজের চোখ আয়নায় দেখো কোথায় লাইট পড়েছে ছবিতে শুধু সে অংশটুকু সাদা করে দাও।

১১৩| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৫৯

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: বাহ, দারুন তো!!!! খুব ভাল লাগ্লো।

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৪

শায়মা বলেছেন: এটাই মজা ভাইয়া!!!!!!!

ট্রাই করো এখুনি! :)

১১৪| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৬

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: হুম আপু চেষ্টা করছি।

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৮

শায়মা বলেছেন: ভেরি গুড!
চেষ্টা করো আর এঁকে ছবি তুলে আনো!!!!!!

১১৫| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪৫

এ.টি.এম.মোস্তফা কামাল বলেছেন: ছবি আঁকার প্রতিভায় রীতিমতো মুগ্ধ। এক মানুষের কতো গুণ !!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

অ.ট. প্রতিকথার স্টলে যাবার সুযোগ কি পেয়েছেন ?

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪৯

শায়মা বলেছেন: এখনও যাইনি ভাইয়া! ১৫ এর পর যে কোনো দিন চলে যাবো!!!!!! :) :) :)


আর ছবি আঁকার প্রতিভা সবার মাঝে ছড়িয়ে দেবার উদ্দেশ্যে এই টিউটোরিয়াল ভাইয়ামনি!

১১৬| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫৫

খোলা মনের কথা বলেছেন: আকিঁবুকিঁর হাত আমার ফার্ষ্টকেলাস খারাপ :D :D :D
মাঝে মাঝে ভাতিঝা-ভাতিঝি, ভাগনা-ভাগনিরা এটা ওটা আকাঁর কথা বললেই ঠাকুরমার ঝুলির গল্প শুরু করে কাটিয়ে দি... :D :D :D
প্রিয়তে নিলাম, ভবিষ্যৎতে প্রক্সি হিসাবে কাজে দিবে....

সুন্দর একটা পোষ্ট দেওয়ার জন্য ধন্যবাদ আপু!!!

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:০৩

শায়মা বলেছেন: এই টিউটোরিয়াল ফলো করলে আর অদম্য ইচ্ছা শক্তি থাকিলে (আমার মত) তুমি সফল হইবেই বৎস!

কাজেই নো অজুহাত! আঁকাআঁকি খারাপ ভালো হাত নেই!!!! শুধুই ইচ্ছার অভাব!

লেগে পড়ো পিচ্চু ভাইয়ু!!!!!!!!!!!!

১১৭| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫৮

খোলা মনের কথা বলেছেন: আকাঁর জন্য আপনে যতই ফাষ্টো কেলাস হোন না কেন আমার চোখ আকাঁ এতো সহজ না হুমমম
একথার উপর রাগ করে যেন আবার চেষ্টা করতে যাবেন না কিন্তু!!!! :) :) :)

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:০৪

শায়মা বলেছেন: চ্যালেঞ্জ দিয়ে কেউ কোনোদিন পার পায়নি আমার কাছে ভাইয়ু!!!!!!!!!

একখানা ক্লোজ আপ চক্ষু দিয়ে যাও এঁকে ফেলি ঝটর পটর!!!!!! :)

১১৮| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২৪

খোলা মনের কথা বলেছেন: আফনের মত সহী উসসসতাদ পেলে তো মাঝে মাঝে জয়নুল, কামরুল হয়ে যেতে ইচ্ছে করে!!!

আচ্ছা আফা কোন দিন আফনে ট্যেরা চোখ আকিঁছেন??? সব কুয়ালিটি সবার থাকে না হুমমম। B-)) B-)) B-))

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২৮

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা


ইউ নো আই এ্যাম পারফেকশ্যনিস্ট!!!!!!!! :)

কারো টেরা চোখ থাকলেও আমি সেটা সোজা করে এঁকে দেবো!!!!!!

ডোন্ট ওয়ারী এ্যাট অল ভাইয়ু!!!!!!!!


তোমার টেরা চোখের ছবিটাই দাও !!!!!!!!!!!!!! !:#P

১১৯| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৪৪

খোলা মনের কথা বলেছেন: কত ডাক্তার দেখালাম কেউ আমার ট্যেরা চোখ সোজা করতে পারলো না আর আজ নাকি আপনি আমার চোখ সোজ করে দিবেন???

চোখে পানি আর থামাতে পারলাম না। আজ যদি আমার খুকির মা থাকতো তাহলে সে কত না খুশি হতো!!!!

আমার ট্যেরা চোখের জন্যই তো সে ভেগেছিল!!!! :( :( :(

১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:০২

শায়মা বলেছেন:
আহারে ভাইয়া!!!!!!!


আমাকে আগে জানালেই আমি ঠিকঠাক সোজা চোখ এঁকে তাহাকে আটকাতাম!!!!!! :(


থাক আর কেঁদে কি হবে!! :(


:P


১২০| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৪৮

মোশফেক জামান সফল বলেছেন:
একটু চেষ্টা করলাম! আপু!!!!! ;)

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৪২

শায়মা বলেছেন: বাহ!!!!!!!!!!

ভালোই তো!!!!!!!!!

আর এত্তু চেরেষ্টা করলেই হয়ে যাবে ভাইয়া!!!!!! :)

১২১| ১১ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৫০

মোশফেক জামান সফল বলেছেন:
আমার চোখ কিন্তু আপুনি!!!! ;)

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৪৫

শায়মা বলেছেন: বাপরে!!!!!!!


পিচ্চুকালে তো লক্ষী ছিলে মনে হচ্ছে!!!!!!

১২২| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৫৯

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: আপনার আঁকা চোখ গুলো তে থ্রি ডি ভাব আছে, আমার গুলতে হয় না কেন।??

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:২৯

শায়মা বলেছেন: ইটস অল আবাউট প্রাকটিস ভাইয়ু!!!


তুমি প্রাকটিস করো মন দিয়ে হয়ে যাবে।

আর এই কারনেই আমি টিউটোরিয়ালটা দিয়েছি। থ্রি ডি ভাব আনার এক মাত্র কৌশল শেডিং বুঝতে হবে জাস্ট লাইড শেড কোথায় আর ডার্ক শেড কোথায়।

মন দিয়ে দেখো আর আঁকো। :)

১২৩| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:০০

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: হ্যা আপু একটু চুপ চাপ ছিলাম আরকি ;)

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৩

শায়মা বলেছেন: এখনও আছো মনে হচ্ছে!!!!!!!!

একা একা বসে আছো ছবিতেও!!!!!!!!!


হা হা যদিও ছবি সব সময় সত্যি বলে না...... আমার এই পোস্টটার ঠিক আগের পোস্টে মানে রাঙ্গামাটির পোস্টেও আমার এমন একাকী বসা ছবি দেখেও অনেকেই বলেছিলো আহা কি ভালো মানুষ রে...... ভাগ্যিস উল্টা দিকের মুখ দেখা যাচ্ছিলো না!!!!!


তাইলেই জারি জুরি ফাঁস হয়ে যেত!!!!!!!!!!! :P

১২৪| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:০২

খোলা মনের কথা বলেছেন: মোশফেক জামান সফল ভাইয়ের চোখ দেখে ছানাবড়া চোখের কথা মনে পড়ে গেল।

এখন বুঝলাম ছানাবড়া চোখ দিয়ে আকাঁ-আকিঁর কেলাস শুরু করতে হয়!!! :D বর্ণমালা অ, আ এর মত!!!

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৬

শায়মা বলেছেন: হা হা হা ঠিক তাই ......

আমার তো মনে হচ্ছিলো ভেঙ্গে যাওয়া ছানার বড়া!!!!!!!!!!!


হা হা হা

থাক থাক আস্তে বলো এই কথা শুনলে মোশফেকভাইয়া আবার অঙ্কন চর্চা বন করে দিতে পারে।

এইবার একটা ভ্যালেনটাইন গল্প লেখো দেখি....আফফানের ভ্যালেনটাইন!!!!!!!!!!!!

১২৫| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:১৭

খোলা মনের কথা বলেছেন: ঠিক আছে আপু এখন থেকে যা বলবো সব ফিস ফিস করে যেন কেউ না শুনতে পারে......

আফফানের দ্বিতীয় পর্ব'র জন্য চেষ্টা করবো। আপনাদের অনুপ্রেরনা পেলে খুব ভাল লাগে আপু!!!!

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:২৮

শায়মা বলেছেন: হা হা ওকে ওকে ফিসফিস মিটমিট করে বলিবোক!!!!!!!! :P


যাইহোক

আফফানের ভ্যালেনটাইন লিখো!!!!!!

আমি তো আফফানের ফ্যান হয়ে গেলাম!!!!!!!!!

১২৬| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪০

রক্তিম বিজয় বলেছেন: আপুনি এত্ত সুন্দর আঁকো কেমনে???

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩১

শায়মা বলেছেন: এই যে টিউটোরিয়াল দিয়ে দিলাম!!!!!

এভাবে আঁকলেই হয়ে যাবে !!!!!!!

আরও সুন্দর হবে তোমারটা নিশ্চয়ই!!!!!!!!

১২৭| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২০

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: ভাল লাগলো। আচ্ছা আপু আমি যদি আপনাকে আমার একটা স্কেচ আকতে বলি তাহলে সেটি কি পাওয়ার সম্বাবনা আছে কিংবা কোন মাধ্যমে পাব। জানালে উপকৃত হবো। :)

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৩২

শায়মা বলেছেন: মাধ্যম তো কোনো ব্যাপারই না তবে ভাবছি!!!!!

আমি কি আর অত বড় শিল্পী হতে পেরেছি যে তোমার স্কেচে ১০০ তে ১০০ পাবো!!!!!!

তবে আমি অধ্যসবায়ী বটে কাজেই

নিশ্চয়ই নিশ্চয় পারিবোক!!!! :) :) :)

১২৮| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:১৬

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: আপনার প্রোফাইল এ মিথলোজির মত ছবি টা কি আপনার??? আপু

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৫৪

শায়মা বলেছেন: না !!!!!

সেটা বিখ্যাত ছবি হেড অব লেডা!!!!!!!!!!


আমি অবশ্য এটাও আঁকবো ভাবছি!!!!!!!! :) :) :)

এখুনি একটা ভ্যালেনটাইন ছবি একে আসলাম!!!!!! :)

১২৯| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৪৬

খোলা মনের কথা বলেছেন: আফফানের সাথে আফফানের বউ কি ঘুরতে যাবে সেটা নিয়ে আমি কনফিউজ!!!!

আফফান ফ্যান ক্লাব চালু করা যায় কিনা দেখি!!! :D:D:D:D

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৪৩

শায়মা বলেছেন: হা হা না আফফানের বউ না ঘুরিয়ে আফফানের গার্লফ্রেন্ড ঘুরাতে পারো। বউ এর হাতে মাইর কেমনে বাঁচায় সে একটু দেখি।

হা হা হা

আমি সিজলিং চিকেন আর ম্যাশড পটেটো বানাতে গেলাম!!!!!

ততখন ভেবে বের করো পিচ্চু! :)

১৩০| ১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:০১

খোলা মনের কথা বলেছেন: হাফনে ইরাম খেনে???

যাচ্ছেন, যাচ্ছেন আবার জিহ্বাতে পানি এনে দিয়ে..... না থাক!!!! :P :P

১২ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৪৭

শায়মা বলেছেন: কি করবো খেতে যেতে হলো তো!!! :(

আর প্রায়ই আমার আবার রাঁধা বাড়া শখ হয়! :)

১৩১| ১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ ভোর ৫:৫২

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: ভাল

১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:৪৪

শায়মা বলেছেন: গন্ধে উদাস হাওয়ার মত উড়ে তোমার উত্তরী, কর্ণে তোমার কৃষ্ণচূড়ার মঞ্জরী....


ভাইয়া আমার নতুন পোস্ট পড়ো....


বসন্ত বিলাস!!!!!!

১৩২| ১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:১২

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: হ্যা, আপু আমিও সকালে একটা কবিতা লিখেছিলাম। বিকেলে লওজ অফ ক্রাশ রেট নামে আরেকটি পোস্ট করবো। পড়ার অনুরোধ রইল।
হ্যা, আপু আমিও সকালে একটা কবিতা লিখেছিলাম। বিকেলে লওজ অফ ক্রাশ রেট নামে আরেকটি পোস্ট করবো। পড়ার অনুরোধ রইল।

১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:২৮

শায়মা বলেছেন: অবশ্যই ভাইয়া!!!!!!!!


আমি যখন প্রথম ব্লগ লেখা শুরু করি বাসায় ফিরেই রোজ লিখতাম কিছু না কিছু নইলে কিছুই ভালো লাগতো না!!!!!:(

১৩৩| ১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:১৪

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: আমি এক্ষুণি পড়ছি আপু।

১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৩:৩০

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে পড়ো পড়ো আমি এখন দ্বিতীয় প্রস্ত সাজুগুজু করে গানের অনুষ্ঠানে যাই!

তোমাকে বাসন্তী ফাল্গুনী শুভেচ্ছা!!!!!!!!! :)

১৩৪| ১৩ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:১৬

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: আপনাকেও শুভেচ্ছা! আপু।
আর ভ্যালেন্টাইন ডে এর অগ্রিম শুভেচ্ছা।
তবে আপু, ইয়ে মানে ভ্যালেন্টাইন ডে উপলক্ষে আমাকে একটা স্কেচ এঁকে দিতে পারবেন???
:)

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:২৭

শায়মা বলেছেন: ওকে এঁকে দেবো ভাইয়া!!!!!!!


মেজাজটা ভালো হোক আগে!!!!!!!!!


ভীষন মেজাজ খারাপে আছি!!!!!!!!! :(

১৩৫| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১২:১০

ইন্জিনিয়ার জনি বলেছেন: বছর দুয়েক পর ব্লগে এসে অাপুর পোস্ট খানা চোখে পড়িল, তাই কমেন্ট না করে ফাকি দেয়া গেলনা! :)
শুভ কামনা রইল নতুন বছরের জন্য।

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:২৯

শায়মা বলেছেন: বছর দুয়েক!!!!!

এতদিন আসোনি কেনো ভাইয়া!!!!!!!!!!!

১৩৬| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৩৪

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: কেন আপু ভ্যালেন্টাইন ডে কেমন কাটালেন???? :(

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৫:৪০

শায়মা বলেছেন: ভালোই ছিলো কিন্তু দুপুর থেকে মাথায় খুন চেপেছে!!!!!!!


একটা চাকু পেলেই আমি........ X((


তবে দুঃখের বিষয় কাল সন্ধ্যায় Sbarro তে ঠান্ডা পেপসি খেয়ে আর আইসক্রিম খেয়ে জ্বর এসে গেছে গলা ব্যাথাসহ!!!!!!! :(

১৩৭| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৩

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: আশা করি তাড়াতাড়ি সুস্থ হয়ে উঠুন।

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:১৭

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!!!!!!!

কিন্তু মেজাজটা যে কেমনে ঠিক করি ভাবছি !:)

১৩৮| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:২১

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: "আজ ঘুমিয়ে তারা গুলি চুপি চুপি কথা কয় " মিলার এই গানটা শুনতে পারেন, মন ভাল হবে! ;)

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:২৭

শায়মা বলেছেন: ঘুমিয়ে ঘুমিয়ে কথা বলে!!!!!!!!!!

তারারা!!!!!!!!!!! 8-|


তার থেকে শুনি
আকাশ ভরা সূর্য্য তারা

১৩৯| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৬

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: তবে আমার গানটাও কিন্তু অনেক ভাল, আপু।

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫০

শায়মা বলেছেন: আচ্ছা খুঁজে দেখি মিলামনির গান!!!! :)

১৪০| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৯

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: আমি আকাশ ভরা কিশোর কুমারের টা শুনেছিলাম, ভাল! :)

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৫৩

শায়মা বলেছেন: গান শুনে অবাক হয়ে যাই!!!!!!!!

কি করে লিখলেন তিনি......


তাহারই মাঝ খানে আমি পেয়েছি মোর স্থান.....

১৪১| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৩৭

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: রবীন্দ্র সঙ্গীত এমনই হয়ে থাকে আপু! :)

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৪৭

শায়মা বলেছেন: তাইলে এইটা দেখো আর শোনো

১৪২| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৫৩

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: ভালই!

১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৯:৪০

শায়মা বলেছেন: ভালোই না !!!!!!!!!! খুবই ভালো !!!!!!!!

অনেক অনেক ভালো !!!!!!!!! :) :) :)

১৪৩| ১৪ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১০:২৩

মোশফেক জামান সফল বলেছেন: অনেক অনেক ভাল, ভাল থাকবেন, শুভ রাত্রি। :)

১৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:০৮

শায়মা বলেছেন: তুমিও নিশ্চয় ভালো ছিলে অনেক অনেক ভাইয়া!

তবে আমি একটু খারাপ আছি মানে মেজাজ খারাপে!!!!!!:(

১৪৪| ১৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১২:২৯

হাবীব কাইউম বলেছেন: আহুম, এখন পুস্ট পড়ার টাইম নাই, অফিসে আছি। আপ্নেরে খালি জানাইতে আইলাম। আহুম, এখন পুস্ট পড়ার টাইম নাই, অফিসে আছি। আপ্নেরে খালি জানাইতে আইলাম।
বইমেলায় স্টল নম্বর ২৮২

১৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:০৯

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া!!!!!!!!


থ্যাংকস আ লট!

অবশ্যই নিয়ে আসবো। :)

১৪৫| ১৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ১:০২

পলক শাহরিয়ার বলেছেন: মুগ্ধতা!
আপু তোমার এত্তো গুন!
তুমি দেখি সামু মাঠের অলরাউন্ডার,
সাকিব আল হাসান!

১৫ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ বিকাল ৪:১০

শায়মা বলেছেন: :P


:P

:P

কেমন আছো ভাইয়ামনি???

১৪৬| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সকাল ৭:৫৭

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
একটি পোষ্ট নিয়ে দিন কতেক ব্যস্ত থাকায় আসতে পারি নাই ।
আঁকা ঝোকা আমি মোটেও পারিনা, এটা শিখার চেষ্টা বৃথা তাই
তবে তোমার আঁকা পেন্সিল স্কেচ গুলি নিয়ে দুটি কথা বলে যাই ।

জানতাম লিখালিখির জন্য তুমি খ্যাতিমান, অংকনশিল্পী হিসাবে পরিচয়টি ছিল একান্তই অজানা । এখনতো দেখি পেন্সিলে আঁকা তব ছবির বিশাল ভাণ্ডার , নতুনদের জন্য আঁকার পদ্ধতি যে সুন্দর করে শিখালে তাও অসাধারণ ।

অঙ্কিতব্য ছবির নামাকরণ এর সাথে কি বলতে চাওয়া হচ্ছে কাগজের ছবিতে তার আভাস সুন্দরভাবে ফুটে উঠেছে।
পেন্সিলের টানে –রেখার পর রেখা, বিন্দুর পর বিন্দু, একের পর এক , কি সুন্দর একটির পর একটি চোখের আকৃতির আভাস প্রদর্শনী ছবিতে ফুটে উঠেছে । আবার পরের খোঁচায় ভিন্ন আরেকটি চোখের আকৃতি পরিস্ফুট হয়েছে। আর এ ভাবেই দেখা যায় এক-একটি পৃথক ছবি ও দেহের অস্তিত্ব দৃশ্যমান হয়ে উঠেছে। একটির পর একটি পরিচিত আদলের পরিবর্তে অচেনা নতুন চোখ, নতুন মুখ ও পিঠ ফুঠে উঠেছে, চেনা চোখ ও অবয়বগুলি ফুটে উঠেছে রহস্যময় আকৃতি নিয়ে । কেবল রেখাকে ঘুরিয়ে-বাঁকিয়ে তার মধ্যে প্রাণ সঞ্চারের এই প্রচেষ্টা সত্যিই হৃদয় মন কেরে নেয় ।

রেখা ও বিন্দুপুঞ্জের এই যে সুপ্ত শক্তি তা’ মনে হয় তোমার চোখেই গভীরভাবে ধরা পড়েছে , তাইতো রেখাকে ঘুরিয়ে-ফিরিয়ে বিভিন্ন রকমের চোখ ও দেহাবয়ব কিভাবে পেন্সিল স্কেচে করা যায় তা সুন্দরভাবে দেখাতে পেরেছ ।

উদাহরণ হিসাবে আঁকা ছবিগুলি দেখেও মনে হল এগুলি কেবল রেখাই নয়, এগুলি তার থেকেও বেশি কিছু , আমার মনে হল এগুলি চিত্রাঙ্কিত স্বপ্ন, এক কাব্যিক কল্পনার দর্শন। মনে হল এগুলি রেখার ছন্দে আবদ্ধ তোমার সকল কবিতা যেখানে নিরন্তর জীবনস্রোত, নিশ্চুপ মহাকাল, চোখের রেখাপুঞ্জে কোন টিতে রয়েছে মহানন্দ কিংবা আর্তনাদ । কোন কোন চোখ যেন আকস্মিক ইচ্ছাপূরণের আকাঙ্ক্ষায় সংগীহীনা বেদেনার লক্ষ্যহীন উদাস দৃস্টি। আবার কোনটা মনে হল নিরবধি মহাশূন্য পেরিয়ে ভঙ্গিমারাজির মিলিত হওয়ার মহাসংগীত ।

অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল নতুন দেরে শিক্ষা দানের এ মহতি প্রচেষ্টার জন্য ।

১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২৫

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়া!!!!!!!!!


এমন মন্তব্য শুধু তুমিই পারো!!!!!!!

১৪৭| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ দুপুর ২:১৪

আমিই মিসির আলী বলেছেন: এইচএসসি পরীক্ষার পর যখন ভর্তি পরীক্ষার জন্য প্রস্তুতি নিবো তখন আমার মাথায় চাপলো এই আঁকাআঁকির ভূত।
কয়েকদিনের প্রচেষ্টায় আমি মোটামুটি ছবি আঁকা শিখলেও পরীক্ষার কঠিন ক্ষতি সাধন হয়।


এরপর আর আঁকাআঁকি করি নাই।



আপনার আঁকাআঁকি দেখিয়া মুগ্ধ হইলাম।

১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২৬

শায়মা বলেছেন: থ্যাংক ইউ ভাইয়ামনি!!!!!!!!

মুগ্ধ হবার জন্য অনেক অনেক থ্যাংকস!!!!!!!!!! :)

মনে হচ্ছে তুমিও ছবি পাগলা আছো আমার মতনই!!!!!!!

১৪৮| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৪২

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
মন্তব্যটি মনে হয় তেমন ভাল লাগেনি !!!! :) কি আর করব আমার ক্ষমতার দৌঁড় যে এতটুকুই, তোমার এ মহতি কর্মকে সঠিকভাবে নিপুন তুলির আচরে করতে পারিনি প্রকাশ, আমি যে এ ব্যপারে একান্তই অনবিজ্ঞ তাই , তবে নিরন্তর শুভ কামনা জানাই ।

১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:০৯

শায়মা বলেছেন: তোমার মন্তব্য ভালো লাগবেনা !!!!!!!!!! তাই কি হয় ভাইয়া!!!!!!!!!

আসলে আমার অনেক জ্বর এসেছে!!!!!!!!


কিন্তু তার মাঝে খুশির কথা হলো অনেক অনেক রাগ দুঃখ আর বিরক্তির পরে আমার প্রকাশক ভাইয়ামনি আমার কবিটার বইটি আজ বিকাল ৫ টায় মেলায় আনিয়াছেন! :)

১৪৯| ১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৪০

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: আপু আপনে কই.... ছিলেন কয়েকদিন।
ভালো আছেন নি ?

১৬ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ১১:৪৫

শায়মা বলেছেন: আমি তো ছিলামই ভাইয়া!!!!!

তবে সকালে স্কুলে ছিলাম ২ টা পর্যন্ত! :)

১৫০| ১৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৩৪

সাকিবুর রহমান খান বলেছেন: সালটা ছিল 2012 ৷ তৎকালীন সময়ে যে কোচিংয়ে পড়তাম সেখানে একজন চারুকলার শিক্ষক আমদাানী হয়েছিল ৷ উনার উৎসাহে দীর্ঘ এক ঘন্টা একটা ঘড় আঁকার চেষ্টা করে আবিষ্কার করেছিলাম সেটা একটা শহীদ মিনারের অবয়ব হয়েছে :|| ৷ সেই ছিল আমার ছবি আঁকার শুরু এবং শেষ ৷ এখন আবার ইচ্ছা হচ্ছে =p~ ৷ তবে যদি চোখ আঁকতে চাই, এটা কিসের অবয়ব হতে পারে?? 8-|

১৭ ই ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৪৭

শায়মা বলেছেন: মাছ হতে পারে ভাইয়া!!!!!!

চোখের সাথে মাছের কিছু মিল আছে....

একটা চেষ্টা করে দেখোই না দেখি কি হয় !!!!!!! :)

১৫১| ২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৪৬

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: লেখছি আপু, কিছুক্ষণ আগেই শেষ করেছি কবিতাটি।
আপনার একটা গুরুত্বপূর্ণ পরামর্শ পাবো কবিতায় সে আশায় থাকবো।

২১ শে ফেব্রুয়ারি, ২০১৭ রাত ৮:৪৮

শায়মা বলেছেন: ওকে পোস্ট দাও দেখি!

১৫২| ০২ রা মার্চ, ২০১৭ সকাল ১১:১৩

দ্যা ফয়েজ ভাই বলেছেন: এসএসসি পরীক্ষার্থী ছিলাম।তাই এতদিন আসতে পারিনি।এসেই এমন একটা প্র‍্যাক্টিকেল ক্লাশ পেয়ে খুশি হলাম।বন্ধের মধ্যে শিখে নেবো ইনশাল্লাহ।

০২ রা মার্চ, ২০১৭ বিকাল ৫:৫০

শায়মা বলেছেন: অবশ্যই শেখো ভাইয়ামনি!!!!!!! :)

১৫৩| ০৬ ই মার্চ, ২০১৭ বিকাল ৫:৩২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: দারুন ছিল আপি

০৬ ই মার্চ, ২০১৭ বিকাল ৫:৩৬

শায়মা বলেছেন: তুমি আঁকাআঁকি খুব লাইক করো বুঝাই যায় তোমার বাবুদের আঁকাআঁকি দেখে! :)

১৫৪| ১৪ ই এপ্রিল, ২০১৭ রাত ৩:০৭

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ সকাল ৮:১১

শায়মা বলেছেন: নতুন বছরের শুভেচ্ছা ভাইয়ামনি!!!!!!!

১৫৫| ১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৩:২৯

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ, আপুমনির কাছ হতে নতুন বছরের অসাধারণ শুভেচ্ছা পেয়ে
মুগ্ধ হয়ে অপলুক নয়নে শুধু চেয়ে থেকেছি ।
এর উপরটুকু যে কার তাও বুঝে নিয়েছি ।

আমার পরের একটা মেগা পোষ্ট হতেছে লিখা ছবিটির গলায় যা ঝুলছে সে বিষয়ক দেশে বিদেশের শিল্পকর্ম নিয়ে , মেঘ না চাইতেই বৃষ্টির মত মিলে গেল আমার পোষ্টের জন্য গুরুত্বপুর্ণ এ ছবিটা । তোমার যদি কোন আপত্তি না থাকে তবে যথাযথ কৃতজ্ঞতা জানিয়ে ছবিটি করতে চাই ব্যবহার আমার পোষ্টে , আমার লিখাটির কোন এক জায়গায় এটা খুবই প্রাসঙ্গীক হবে ।

ভাল থাকার শুভ কামনা রইল ।

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৩:৫১

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে নো প্রবলেমো ভাইয়ু!!!!!!!!

আমার কাছে যতগুলি আছে সোনালী, রুপালী, লালচে কালচে মুক্তার মালা, দেখি সেসব খুঁজে পাই কিনা!!!!!!!!

না পেলেও মালা গুলি নিয়ে একটু পরে ছবি তুলে আনছি ডোন্ট ওয়ারী এট অল!!!!!!

১৫৬| ১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৪:১১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ , খুব খুশী হয়েছি । লিখার কাজ চলছে , জানইতো আমার লিখা একটা জগা খিচুরী, কোন কোন দিক হতে কোন দিকে যায় তার কোন ঠিক নাই , উত্তর মেরু হতে দক্ষিন মেরু সবদিকে হাতরাই , সাগর সেচে মুক্তা কুড়াতে চাই, যদিও কিছু না পাই ।
শুভেচ্ছা রইল ।

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৪:১৬

শায়মা বলেছেন: আহা বললেই হলো!!!!!!!!!

তুমি হলে ২০১৬ এর এক ও অদ্বিতীয় রত্ন আমাদের!!!!!

তোমার তুলনা তুমিই ছিলে ভাইয়ু!!!!!!!

কারোরই সাহস নেই তোমাকে প্রতিদ্বন্দিতার!!!!!


তোমার মত এত গবেষনামূলক লেখা কে আর পারবে বলো!!!!!!!!

১৫৭| ১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৪:৩৬

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ তোমার প্রসংসা আমার জন্য অনেক বড় প্রেরনা ।

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৪:৫১

শায়মা বলেছেন: :) :) :)


যাই যাই ছবি তুলে আনি মুক্তার মালার তবে একটা বাঁদরও যোগাড় করবো কিনা ভাবছি!!!!!!!!! :)

১৫৮| ১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৫:৩৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অফ টপিকে বলি, ঘরে তুলে এনেছিলাম অজ পাড়াগায়ের একজন অকালে প্রয়াত স্কূল টিচারের এতিম মেয়েকে , শর্ত ছিল একটাই , একগাছি সুতাও যদি আমাকে দেয়া হয় , তাহলে কোন কথা না বলেই উঠে আসব অাসর থেকে । তাই বলি দেখবে বাঁদরটা যেন সেরকম না হয় , তাহলে মুক্তার মালাটা যাবে যে বৃথায়!!!! :) তবে মুঁক্তার মালাগুলি তোমার নাম করে সবার জন্য দিবযে উজার করে :) :)

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৪

শায়মা বলেছেন: হা হা হা হা ভাইয়া !!!!!!!!!!!


তুমিও বাঁদর ছিলে জানতাম না !!!!!!!! আজ জানলাম!!!!!!!!!!!!!!! :P

১৫৯| ১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ রাত ৯:০৭

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:


বাঁদর ছিলাম মানে ..
বাল্যকালটা কেটেছে শালবনের কিনারে
যেখানে ভরে থাকতো বানরে আর বানরে
কাঠাল গাছের মাথায় চড়ে কাঠাল খেতাম
বানরের সাথে ডালে বসে ভাগাভাগি করে।
আরো যে কত প্রকারের বাঁদরামী ছিল
এখন শুধু সে দিনটাতেই ফিরে যেতে
দারুন ইচ্ছে করে , তবে সে সময়কার
বাঁদরামী দেখে সকলে দিত হাত তালী :)
এখন বাঁদরামী করলে দিবে শুধু গালী X((

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ রাত ৯:১৪

শায়মা বলেছেন: না না
এখন তুমি লক্ষী ছেলে
বলতে গেলে আতেল প্রায়
তোমায় এমন বাঁদর বলে
মুন্ডুটা আর কে হারায়!

তুমি জ্ঞানী, তুমি গুণী
পন্ডিতের ঐ টিকির চূড়
কেউ যদি আজ বাঁদর বলে
পিটিয়ে তারে করবো দূর!!!!!!!


১৬০| ১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ রাত ১১:১৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ আপুমনি, তোমার মুক্তার মালা লেখা নিয়ে ব্যস্ত আছি , ভাল সময় কাটুক এ কামনা রেখে গেলাম ।

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ রাত ১১:২১

শায়মা বলেছেন:
হাসি সহও দিয়ে দিলাম ভাইয়া!

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৭ রাত ১১:৩৬

শায়মা বলেছেন:

এটা গোল্ডেন পার্ল :)

১৬১| ১৭ ই এপ্রিল, ২০১৭ রাত ১২:৪৮

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপুমনি ।

২১ শে এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৫:৫৬

শায়মা বলেছেন: তোমাকেও ভাইয়া!!!!!!!!! :)

২২ শে এপ্রিল, ২০১৭ সকাল ৮:৩৫

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া

বাঁদরের গলায় মুক্তার মালা লেখাটার কি অবস্থা!!!!!!

কোনো খবর নাই কেনো???

১৬২| ২২ শে এপ্রিল, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ আপুমনি , আমি একটু ব্যস্ত সময় পার করছি বিষয় কর্মের কারণে । তাপরেও তুমিতো জানই আমার একটি লিখা বিভিন্ন দৃষ্টিকোন হতে লেখা হয় , লিখাটির জন্য আমাকে দুনিয়ার এ প্রান্ত হতে ওপ্রান্ত পর্যন্ত হাতরিয়ে বেড়াতে হয় । তবে লিখাটির কাজ এগিয়ে চলেছে , দিন কয়েকের মধ্যে একটি আকার দিতে পারব বলে মনে করি । তবে লিখার এ পর্যায়ে এসে একটু সমস্যায় পরেছি । তুমি তো জানই বহু প্রকারের মুক্তা রয়েছে , রয়েছে সাগরবাসী, নদী ও ঝিলের ঝিনুকের মুক্তা , ঝিনুকের সে সকল মু্ক্তার নাম মাদার অফ পার্ল Mother of Pearl । রয়েছে শুক্তি মুক্তা বা Oyster Pearl, এই মুক্তাটিই বাজারে সবচেয়ে বেশি ব্যবহৃত হয় , রয়েছে শঙ্খমুক্তা বা Conch pearl এগুলি গোলাপী রঙের খুব দামী মুক্তা । রয়েছে অজগর কিংবা ব্যাঙের মাথায় থাকা মুক্তা যা ফনিমুক্তা নামে পরিচিত, রয়েছে বুড়ু হাতির দন্ত কোষ ও ব্রেইনে গজানো গজমুক্তা ,তিমি মাছের মাথায় গজানো মৎসমুক্তার সন্ধানও পাওয়া গেছে ।

এছাড়া সাগরের ঝিনুকের মুক্তাই শুধু নয়, আজকাল পুকুরেও মুক্তার চাষ শুরু হয়েছে দেশে দেশে যাকে কালচার্ড পার্ল বলে । জাপান ও ভারতে এ ধরণের মুক্তা প্রচুর উৎপন্ন হচ্ছে । বাংলাদেশও প্রণোদিত উপায়ে মুক্তা উৎপাদনে সফল হয়েছে। গবেষণা অব্যাহত রাখলে বাংলাদেশের অনুকূল পরিবেশে বিপুল পরিমাণ মুক্তা উৎপাদন সম্ভব। এ কাজে দেশের লক্ষ লক্ষ বেকার যুবক যুবতি নিয়োজিত হতে পারবে । এর সুফল হবে বহুমুখী । আমার লিখার অন্যতম মুল লক্ষ হলো এই শিল্পের উন্নয়নটিকে হাইলাইট করা । আমার ইচ্ছা তোমার কাছ থেকে নেয়া প্রথম ছবিটাকে আমার লিখায় বাংলাদেশী এই কালচার্ড মুক্তার জন্য ‘ব্রান্ড এমবাসেডর’ হিসাবে ব্যবহার করা । তোমার মুক্তা গুলিকে শুক্তি মুক্তা হিসাবেই মনে হচ্ছে । তার পরেও এটাকে যদি কালচার্ড বা প্রনোদিত মুক্তা হিসাবে দেখাই এবং ব্রান্ড এমবাসেডর জন্য ছবির ইমেজটি তোমার সৌজন্যে বলে অভিহিত করি তাহলে তুমি বিব্রত হও কিনা তা নিয়ে বেশ দু;শ্চিন্তায় আছি। তাই এ বিষয়ে তোমার গ্রীন সিগনালের অপেক্ষায় রইলাম । আমি চাই আমাদের দেশী মুক্তার দেশে বিদেশে বহুল প্রচার পাক ।
অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল ।

২৬ শে এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৪:০৩

শায়মা বলেছেন: এহ ছি ছি ছি এই বাজে রেজ্যুলেশনের ছবিকে বাংলাদেশী কালচার্ড মুক্তার জন্য ‘ব্রান্ড এমবাসেডর’ হিসাবে ব্যবহার করা !!!!!!!!!!!!!


আমি নেই নেই নেই রে..........



যাইহোক গলা কাঁটা ছবি যত ইচ্ছা তত নিয়ে নাও ভাইয়া, গলা না কাঁটা থাকলেই শুধু এট্টু লুইজ্জা পাই!!!!!!!! :P

১৬৩| ২৭ শে এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৫:২২

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ, কালচার্ড মুত্তাতো , তাই ছবিসহ সব জায়গাতেই কালচার থাকবে !!!
যে রেজুলেশন অআছে তাতেই তাতেই ছবিটা অপরুপ লাগছে , মুক্তার
রেজুলেশন ছবিটাকে আরো বেশী সৌন্দর্যময় করেছে ।
ছবিটার গলা কাটা থাকবেনা ,শুধু লজ্জার অনুভুতি পাওয়ার যায়গা
মাথাটাই কাটা থাকবে । লোকে শুধু
কল্পনা করে নিবে সেটা ছিল কার :)

অনেক অনেক শুভেচ্ছা রইল

৩১ শে মে, ২০১৭ রাত ৮:১৫

শায়মা বলেছেন: ভাইয়ামনি কেমন আছো???:)

১৬৪| ২৭ শে এপ্রিল, ২০১৭ বিকাল ৫:৪১

অপ্‌সরা বলেছেন: হা হা কমেন্টটা পড়ে অনেক হাসছি ভাইয়া। তাই এই নিকেই হেসে ফেললাম!!!!!! :) :) :)

১৬৫| ০৭ ই মে, ২০১৭ রাত ১২:৪৮

অর্ক বলেছেন: এই পোস্টটা আমার খুব ভাল লাগল! ছবিগুলো দারুণ! আর্টকে আমি খুব ভয় পাই, খুব জটিল মনে হয়। একবার এক প্রদর্শনীতে বড় একটা পেইন্টিং'র সামনে দাঁড়িয়ে শিল্পীকে পাশে দেখে হঠাৎ জিজ্ঞেস করে বসি, 'এটা করতে অনেকদিন সময় লেগেছে আপনার তাই না? জবাবে তিনি জানান, বেশিদিন নাকি লাগেনি তিন চার দিনে হয়ে গেছে। আশ্চর্য হয়েছিলাম, বলে কি হাফ দেয়াল ছবিটা তিন চার দিনে! হা হা।

০৭ ই মে, ২০১৭ বিকাল ৪:০৬

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া কেমন আছো!!!!!!!

ছবি আঁকা সহজ নয় বটে তবে ইচ্ছা থাকিলেই উপায় হয়!!!!!!!!

১৬৬| ২৩ শে মে, ২০১৭ সকাল ৯:৩৮

নাদিম আহসান তুহিন বলেছেন: আমার দ্বারা এইগুলো কখনো হবে বলে মনে হয়না।ইন্টারে বায়োলজির প্রাক্টিক্যাল খাতায় বহুত কষ্টে কয়েকটা চিত্র আঁকতে হয়েছে নিরুপায় হয়ে। মাঝে মাঝে শিখতে ইচ্ছে করে।


আমি মুগ্ধ হয়ে আপনার স্কেচ দেখছিলাম এতক্ষণ।

২৩ শে মে, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৬

শায়মা বলেছেন: ওলে ভাইয়া তুমি মুগ্ধ হয়েছো আর আমি এতক্ষন একজন মহান চিত্রশিল্পীর আমার এই পোস্টের বিরুদ্ধে করা পোস্ট পড়িতেছিলাম !!!!!!!!!!


হা হা হা হা যাইহোক মানুষ যে কত কিছু নিয়েই লাফ দিতে পারে তাও জনপ্রিয়তার আশায় তাই দেখে না হেসে পারলাম না ।


আমি এই পোস্ট লিখেছি আনাড়িদের জন্য কারন আমি নিজে কখনও কোথাও আঁকা না শিখে যে পদ্ধতিতে শিখেছি সেটাই লিখেছি আর উনি আসলে এইখান থেকে চুরি ঐখান থেকে চুরি আবার উনার চোখ নাকি আমি চুরি করছি বলতে !!!!!!!!! কই যাই ভাইয়ামনি!!!!!!!!!!!!!!!!!!!!

২৩ শে মে, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৮

শায়মা বলেছেন: তার পোস্ট পড়ে নিজের পোস্টে আবার আসলাম!!!!!
যেখানে টিউটোরিয়াল দেওয়া হয়েছে সেটা আমি চুরি করে নাকি নিজে নামে চালাইছি!!!!!!!


অথচ আমার আঁকা চোখগুলির আগে লেখা আছে আমার আঁকা নানা রকম চোখ। টিউটোরিাল আমি এঁকেছি এটা কোথাও বলিনি।

এই পাগল নিয়ে কই যাই!!!!!!!

১৬৭| ২৩ শে মে, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:১৫

নাদিম আহসান তুহিন বলেছেন: আমিও এতক্ষণ উর্বি আপুর পোস্টটা পড়তেছিলাম। যাইহোক, আপনার উচিত বিষয়টা ক্লিয়ার করা। আর অবশ্যই একে অপরকে পারস্পরিক সম্মান ও শ্রদ্ধা বজায় রেখে মন্তব্য করবেন বলে আশা করছি।

২৩ শে মে, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:২২

শায়মা বলেছেন: আমিও আশা করি কিন্তু আমার মনে হয় না উর্বিমনির সাথে সেটা করা বেশিক্ষন সম্ভব হবে !!!!!!! :)

বিষয়টা ক্লিয়ার করেছি অলরেডি যে এটা আমার আনাড়িদের জন্য পোস্ট যারা কোনোদিন আমার মত আর্ট স্কুলে যাইনি ! আর সেটা বলায় সে অভদ্রের মত লিখলো আমি নাকি চুরি ধরা পড়ার পরেও মানে উনার বিশিষ্ঠ চিত্রকর্ম চুরি ধরা পড়ার পরেও ফালাফালি করছি!!!!!!!!!! B:-)

১৬৮| ২৪ শে মে, ২০১৭ সকাল ১১:০০

নাগরিক কবি বলেছেন: আমার অনুমিত ছাড়া আমার চোখ আঁকছো। তোমার নামে মামলা করমু। :-0

২৬ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:২৭

শায়মা বলেছেন: হায় হায় এতক্ষন এই আইডিতে ছিলাম না তাই অনেক কিছু মিস হয়ে গেলো!

যাইহোক আমার নামে মামলা কইরোনা ভাইয়াজান!!!!!!! আমি মামলা ভুই পাই!!!!!!! :(

এমনিতেই উর্বিমনির ৩ দাবীর ১ দাবী আমার টিউটোরিয়াল লিখে চোখের স্টেপসের ছবিগুলি এই পেইজের উল্লেখ করে দিলাম না কেন? সেই নিয়ে দুদিন ধরে ঘেন ঘেন ভেন ভেনে সমগ্র ব্লগবাসী বিরক্ত হয়ে গেলো।

আমার মানহানী করে উনি আবার এই ছবির আর্টিস্টের কাছে মামলার আবেদন জানাইছেন নাকি!!!!!!!! সেই নিয়ে সাত কাহন!
এইসব দেখে বিরক্ত হয়ে হামাভাইয়া আর ইউ ভাইয়া বলেছেন আর্টিস্ট খুঁজে না পেলে পেইজটাই এ্যড করে দিয়ে এই সব ঘেন ঘেন বন্ধ করে দিতে। । এখন খুঁজে খুঁজে যে আর্টিস্ট পেলাম তাকে নিয়েও তো চিন্তায় আছি। সে আবার সেই আর্টিস্ট না হয়ে অন্য কেউ হলে তো সেও মামলা করে দেবে!!!!!! হায় হায় ! কই যাই!!!!!!!!!!!

এত মামলা!!!!!!!!!! আমি কই পালাবো!!!!!! #:-S

১৬৯| ২৬ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৪১

নাগরিক কবি বলেছেন: আর্টিস্ট কি আমার থেকে অনুমিত নিয়েছিল? বুড়া হই গেছি মনে থাকে না। আমার চোখ নিয়ে এত গ্যাঞ্জাম। আমি বরং বনবাসী হয়ে যাই। B-))

২৬ শে মে, ২০১৭ রাত ৩:৪৭

শায়মা বলেছেন: আমাকেও নিয়ে যাও!!!!!!! :(

১৭০| ২৭ শে মে, ২০১৭ রাত ১২:০৯

পাহাড়ের কান্না বলেছেন: উর্বিমনির পোস্ট দেখেতো আমি মাননীয় স্পীকার হয়ে গেলাম আপু :(

২৭ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৩:১৮

শায়মা বলেছেন: যাক তবুও অনেকদিন পর তো তোমাকে দেখা গেলো ভাইয়া!!!!! :)

১৭১| ২৭ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৩:৫১

আখেনাটেন বলেছেন: খ্যাতির বিড়ম্বনা থাকে বৈকি! এই ঘটনাকেও মনে করেন সেই রকম কিছু। দিনশেষে ব্লগার উর্বি কিন্তু আপনার উপকারই করে দিয়েছে। কীভাবে? সেটা একটু চিন্তা করলেই বুঝতে পারবেন।

আশা করি এই কয়দিনের ঝণ্ঝাবিক্ষুব্ধ মহূর্তগুলো ঝেড়ে ফেলেছেন মন থেকে।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

২৭ শে মে, ২০১৭ বিকাল ৪:১১

শায়মা বলেছেন: ভাইয়া কেমন আছো?

ঠিক তাই। প্রথমে ভীষন অবাক হয়েছিলাম। এই মেয়ে কি করে এই সব করে ভেবে। কারণ সে আমাদের কাছে বিশেষ করে আমার কাছে আদরের ছোট একজন বাচ্চা ব্লগার হিসাবেই ছিলো। এমন কিছু যদি আমরা ভুল করেও ভেবে থাকি যে কেউ আমারটা দেখে এঁকেছে বা করেছে আমার এই ব্লগে অন্তত একটা প্রাকটিস দেখেছি, হাজারও কেচাল গন্ডগোলের মাঝেও তা নিয়ে ডিসকাস করতে বা সোজা বলতেই।

তার যদি মনে হয়ে থাকতো খুব দৃঢ় ভাবেই যে আমি ওর আঁকা চোখ দেখে এঁকেছি তো আমাকে জিগসাই করতে পারতো। জানতে চাইতে পারতো আমি তারটা দেখে এঁকেছি কিনা? তাহলেই ভুলটা আমি দেখিয়ে দিতাম যে আমার আর ওর আঁকা চোখ দুইটাতে কান্নার জল থাকলেও আমি তো নেট থেকে ছবি নিয়ে এঁকেছি, তারটা নয়!। এবং পরবর্তীতে সেই প্রমান এনে আমি তাকে দেখিয়েছিও। তখন তার শুরু হলো আরেক বোকার মত আবদার, তাইলে আমি সেই নেটের ছবিই আর্টিস্ট বারবারকেই জানাইনি কেনো? বা তার পারমিশন নেইনি কেনো বা লিখে রাখিনি কেনো যে আমি এই চোখ আঁকা শিখেছি এই ছবি দেখে। এটা কপিরাইট হেন তেন।

তার একটা থেকে আরেকটাই স্যুইচ করতেই থাকে এ কেমন পাগলামী! সেই আর্টিস্টদেরকে সে নাকি মেইল করে জানিয়ে দিয়েছেন - এই যে দেখেন আপনার আঁকা ছবি একজন মহামান্য বিশিষ্ঠ ব্লগার ও চিত্র শিল্পী ( তার ভাষায় যা চুন্নী, গুন্নী) তিনি অসাধুপায়ে একে সস্তা খ্যাতি অর্জন করতে চেয়েছেন।

ওহ অসাধুপায়টা হলো আবার সেই ছবি নাকি আমি নিজে থেকেই আঁকতে পারিনি তাই আঁকতে আমার কার্বন লেগেছে! এত কষ্ট করে কেউ আঁকে বা অন্যের আঁকা নিয়েও ভাবে আমি জানতাম না কারো এত সময় আছে।

আর সস্থা খ্যাতি! আরও হাস্যকর। এই ব্লগে আমার আর খ্যাতির কোনো দরকার আছে?

অনেক তো পেয়েছি!

যাইহোক
আর একদল ৩ৃয় পক্ষ আছে। কখনও কোনো খবর নাই ব্লগ লেখার প্লাটফর্ম ভাবলেও যাদের লেখার টিকিও কালে ভদ্রেই দেখা যায় কোনো ভালো ইস্যুতে তাদের টাকটাও দেখা মেলেনা তারা আবার যেই না দেখলো উদ্দেশ্য প্রনোদিত ভাবে আমার গাঁয়ে পড়ে লাগতে আসা কিছু না কিছু, অমনি ছুটে আসবে ব্লগটা শেষ হলে গেলো এই ব্লগারের জন্য। কেনো কেনো সবসময় সব কেচাল তাকে ঘিরেই কেনো??

এমনিতে উনাদের খবর নাই কিন্তু ওৎ পেতে বসে থাকে কখন কাকে টেনে নামানার ব্যার্থ চেষ্টা চলছে তা দেখতে।

এই নিয়ে অনেককেই বলতেও শুনেছি তারাই নাকি ষড়যন্ত্র করে এমন সব ইস্যুর। বুদ্ধি দেয় বোকাগুলিকে। ইভেন কারা আমার সাথে গল্প লিখবে কমেন্ট করবে সেসব নিয়েই গ্রাম্য পলিটিক্সের মত ভাংচি দিতে যায়।

১৭২| ৩০ শে মে, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৪৫

অর্ক বলেছেন: শায়মা প্রথমেই আমি খুব 'সরি সরি সরি'। শুরুতে বোকার মতো বিভ্রান্ত হয়ে বসেছিলাম! আসলেই ব্যাপারটা কেমন যেন একটা অসুস্থ প্রবণতা। একজন সুস্থ স্বাভাবিক মানুষ কেন এরকম করবে! গনি মিয়া একজন অশিক্ষিত লোক, চা'র দোকান আছে। ওর ওখানে দীর্ঘ দিন ধরে চা খাই। ব্যক্তিগত কিছু অনিবার্য কারণে গনি মিয়া আমাকে পছন্দ করে না। কারণ নাই বা বললাম। তেমন বড় কিছুও আবার নয়। আমি সব-ই বুঝতে পারি। ওকেও আমি মোটেই পছন্দ করি না। ও অত্যন্ত ধরিবাজ টাইপের লোক। ইচ্ছে করে আমার কাপে অল্প চা দিয়ে থাকে যাতে আমি তাড়াতাড়ি খেয়ে বিদার হই। আমি ওর দোকানে গেলেই ও নিজের মতো নানা রকম বিরক্তি সূচক অঙ্গভঙ্গি করে থাকে, অবশ্যই আমার দিকে তাকিয়ে নয়। মুখ কাল ছাই তো আছেই। কিন্তু আমরা পরস্পর উভয়কে যতো ঘৃণাই করি না কেন। আমাদের মাঝে এমন কিছুই হয়নি যে একজন আরেকজনের সামান্যতম কোনও ক্ষতি করে বসবো। উহু এহেন গনি মিয়ার ব্যাপারেও আমি শতভাগ নিশ্চিত আজ, কাল, পরশু জীবনের কোনও পর্যায়েই গনি মিয়া কোথাও কখনও গা'য়ে পড়ে আমার কোনও অনিষ্ট করবে না। এভাবেই ইতোমধ্যে হাজার কাপ চা খাওয়া হয়ে গেছে, এখনও ওদিকে গেলেই ওর ওখানে মাঝেমাঝে খাই।
সব দেখে শুনে মনে হলো উক্ত ব্যক্তি যেন একেবারে 'তোকে দেখে নেব' ধরণের ভীষণ কসম খেয়ে পরিকল্পিতভভাবে আপনার পিছনে লেগেছে। এর কারণ হয়তো আপনারও জানা নেই! মন্তব্যের এক জায়গায় ব্যক্তিটি কাওকে বলছিল যে, 'আমি তাকে বড় বোনের স্থান দিয়েছিলাম, ক্ষেত্র বিশেষে মনে হলো উনি আমার শ্রদ্ধার জায়গাটাকে অত্যন্ত খেলোভাবে দেখছেন।' আরেক জায়গায় আবার কাওকে নির্দিষ্ট করে বলেন, 'যখন আপনার সম্মানের জায়গা নিয়ে উনি এমন করবেন, তখন বুুঝবেন।' এরকম কিছু কথা। মনে হলো ব্যক্তিগত জীবনে সে আপনার প্রতি দারুণ বীতশ্রদ্ধ; আপনার ওপর আক্রোশের পিছনে ব্যক্তিগত কারণই মূখ্য, আর্ট, ছবি পোস্ট এসব নিতান্তই অসুস্থ কৌশল। এসব বলার অর্থ হলো ব্যক্তিটির অদ্ভুত আচরণ ও বিশেষ সেই ভিডিওতে বরফ শীতল, হিম কণ্ঠস্বর শুনে মনে হলে তিনি মানসিকভাবে পরিপূর্ণ সুস্থ নন। অনেক অতিমাত্রায় মেধাবি মানুষদের মাঝে এপ্রবণতা অনেক সময় দেখা যায়। দেখা যাবে হয়তো খুব তুচ্ছ কারণে এরকম নরক গুলজার করে ছেড়েছেন।
আজ দেখলাম উক্ত পোস্ট মুছে ফেলা হয়েছে। সুন্দর সমাপ্তি বলা যেতে পারে। যা হোক ব্লগার জেন রসি, গেম চেন্জার ও আরও দুয়েকজন আপনার এই অযাচিত বিপদে দারুণ সহযোগিতা করেছে। সম্ভব হলে ওদের কিছু চকোলেট খাওয়াতে পারেন; সরাসরি সম্ভব না হলে ডাক মাধ্যমেও প্রেরণ করতে পারেন। তবে সংগ্রামী ঘুঘুকে (কাছাকাছি ছদ্মনাম) এদলে ফেলা যাচ্ছে না। পোস্টে সে শুরুতেই ব্যক্তিগত আক্রমণে চলে গিয়েছিল; ফেম সিকিং, আপনার জনপ্রিয়তা, ব্লগিংয়ের আপনার সময়কাল ইত্যাদি অপ্রাসঙ্গিক বিষয় এনে। যার প্রেক্ষিতে আমি কিঞ্চিৎ মেজাজ হারিয়ে ফেলেছিলাম। সেজন্য আমি অনুতপ্ত। আপনিও হয়তো দেখছেন না কিন্তু এমুহূর্তে এক হাতে আমি এক কান ধরে আছি।
যাক সব নিশ্চয়ই এখন ঠিকঠাক। আর কি বলবো! আপনার জন্য ভরপুর শুভকামনা। দিনশেষে পুরো ঘটনাটা আপনার জন্য শাপে বর হয়ে। আপনার উচ্চতা আরও অনেক, অনেক উঁচুতে পৌছে গেছে, প্রায় আকাশের কাছাকাছি। আমি নিশ্চিত ইতোমধ্যেই আপনি উক্ত ব্যক্তিকে ক্ষমা করে দিয়েছেন। আপনাকে যতোটুকু চিনেছি তাতে মনে হয়না কারও প্রতি ঘৃণা বা তিক্ততা মনে পুষে রাখা আপনার জন্য সহজ হবে।

৩০ শে মে, ২০১৭ রাত ৮:২০

শায়মা বলেছেন: বহুযুগের ওপার হতে আষাঢ় এলো
এলো আমার মনে,
কোন সে কবির ছন্দ বাজে
ঝরোঝরো বরিষনে........

যে মিলনের মালাগুলি
ধুলায় মিশে হলো ধুলি
গন্ধ তারি ভেসে আসে
আজি সজল সমীরণে !!!!!


সেদিন এমনি মেঘের ঘটা
রেবা নদীর তীরে
এমনি বারি ঝরেছিলো
শ্যামল শৈল শিরে
মালবিকা অনিমিখে
চেয়েছিলো পথের দিকে
সেই চাহনী এলি ভেসে
কালো মেঘের ছায়ার সনে!!!!
ঝরোঝরো বরিষনে !!

গান শোনো ভাইয়ামনি! :)

১৭৩| ৩০ শে মে, ২০১৭ রাত ৮:০০

শায়মা বলেছেন: বহুযুগের ওপার হতে আষাঢ় এলো এলো আমার মনে, কোন সে কবির ছন্দ বাজে ঝরোঝরো বরিষনে........ যে মিলনের মালাগুলি ধুলায় মিশে হলো ধুলি গন্ধ তারি ভেসে আসে আজি সজল সমীরণে !!!!! মাধবী হঠাৎ কোথা হতে এলো ফাগুন দিনের স্রোতে সেদিন এমনি মেঘের ঘটা রেবা নদীর তীরে এমনি বারি ঝরেছিলো শ্যামল শৈল শিরে মালবিকা অনিমিখে চেয়েছিলো পথের দিকে সেই চাহনী এলি ভেসে কালো মেঘের ছায়ার সনে!!!! ঝরোঝরো বরিষনে !!

১৭৪| ৩০ শে মে, ২০১৭ রাত ৮:১০

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা অথবা অপ্‌সরা ,




শারীরিক অসুস্থতার কারনে গেল ক'দিনে ব্লগে সময় দিতে পারিনি । তবে আজ সকালে লগইন না হয়ে ব্লগে ঢুকেছিলুম । দেখলুম আপনার একটি পোষ্ট । সে পোষ্টের সূত্র ধরে অনেক কিছুই দেখা হলো । এখন ঘরে ফিরে সে সম্পর্কে মন্তব্য করতে গিয়ে দেখি পোস্টটি উধাও সাথে উধাও আপনার সম্পৃক্ত পোস্টগুলিও ।

আপনাকে একটা কথা বলি -- ফলন্ত বৃক্ষ ফলভারে ঝুঁকে থাকে নত হয়ে । আর গুটিকয়েক ফল নিয়ে তালগাছ ঠায় দাড়িয়ে থাকে মাথা উঁচু করে । যতো ফলই সে গাছে ধরুক না কেন , তার মাথা নত হয়না কিছুতেই ।
ক'বছরের অভিজ্ঞতায় জানি , আপনি ফলবতী বৃক্ষের মতো । তেমনটাই আশা আপনার কাছে । গুনিজন যে জ্ঞানভারে নত থাকে সেটা তার পরাজয় নয়; সেটা তার নম্রতা- তার প্রাজ্ঞতা ।

আশা করি , আপনাকে বোঝাতে পেরেছি কিছু ।

নিজের মতো থাকুন , রসে- আমোদে- হাসিতে অফুরান ।
শুভেচ্ছান্তে ।

৩০ শে মে, ২০১৭ রাত ৮:১৫

শায়মা বলেছেন: তোমার কি হয়েছে ভাইয়া!
আজকাল তো চিকনগুনিয়ায় সারা শহর ভরে গেছে।

তোমারও আবার তাই হলো নাকি!

নিশ্চয় সেটা না ।

যাইহোক তোমার ভালোাবাসার পোস্টে একটি ভালোবাসাময় ইয়া বিশাল বক্তৃতা লিখতে গিয়ে আর লেখা হলো না কারণ সেদিনই !!!!!!! :(

যাইহোক
আজ সন্ধ্যা থেকেই শুনছি

তুমিও শোনো ভাইয়ামনি!

অনেক অনেক ভালোবাসা আর তাড়াতাড়ি একদম ভালো হয়ে ওঠো সেই শুভকামনা! :)

৩০ শে মে, ২০১৭ রাত ৮:২৬

শায়মা বলেছেন: সেদিন এমনি মেঘের ঘটা
রেবা নদীর তীরে
এমনি বারি ঝরেছিলো
শ্যামল শৈল শিরে
মালবিকা অনিমিখে
চেয়েছিলো পথের দিকে
সেই চাহনী এলো ভেসে
কালো মেঘের ছায়ার সনে!!!!
ঝরোঝরো বরিষনে !!

গানটা শোনো ভাইয়া ।

১৭৫| ৩০ শে মে, ২০১৭ রাত ১০:১৮

অর্ক বলেছেন: মন্তব্য করবোনা করবোনা করেও শেষমেশ না করে পারলাম না। মনে কিছু করবেন না, আপনার পোস্ট করা গানটা শুনলাম ও তিন চার লাইন শোনার পর বিরক্তির মাত্রা চরম বেড়ে গেলে বন্ধ করে দিতে বাধ্য হলাম। এমুহূর্তে গান উপভোগ করার মতো মানসিক অবস্থা হয়তো নেই। তারপর থেকেই মুখের ভিতরটা কেমন তেতো তেতো হয়ে আছে, এর থেকে ঢের ভাল হতো যদি প্রতিমন্তব্যে শুধু সাধারণ কিন্ত প্রাসঙ্গিক হু হা করে রেখে দিতেন।

৩১ শে মে, ২০১৭ রাত ২:২২

শায়মা বলেছেন: তুমি এমন বকাঝকা স্টাইলে কথা বলো কেনো???

মনে হয় সারাক্ষন টং হয়ে আছো?????? :(

এত বিরক্ত হওয়াই বা কেনো শুনি!!!!!

তেতো তেতো গান শুনে নাকি তোমার এমনিতেই তেতো মুখ সে কি আমি জানিনা!!!!!!!!!!!!! :( :( :(

প্রতিমন্তব্যে এক বোতল মধু আনি তার চেয়ে ওকে!!!!!!!!!!!!! :) :) :) :)


রোজ সকালে তিন টেবিল চামচ মেপে মেপে খাবে ! :)


তাহলে মুখের তেতোভাব বদলে সুমিষ্টতা অবশ্য সম্ভাব্য ! :)

১৭৬| ০১ লা জুন, ২০১৭ রাত ৯:৫৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: শায়মা ,



প্রতিমন্তব্য আর আমায় গান শোনাতে চাওয়ায় ধন্যবাদ ।

হুমমমমমম... ঠিকই ধরেছেন । চিকনগুনিয়ায় চক্করেই চিতপাত হয়ে ছিলুম কয়েকটা দিন । :(( :((

ভালো থাকুন । শুভেচ্ছান্তে ।

০১ লা জুন, ২০১৭ রাত ৯:৫৮

শায়মা বলেছেন: ঠিক ধরেছিলাম!

এমনিতে কি আর নিজেকে আমি বলি সবজান্তা শমসারিকা!!!!!!!!! :) :) :)

যাইহোক শুনেছি এই রোগে এখ বছরও ভোগায়। আমরা তো বিকাল ৪ টা বাজতেই জানালা দরজা এটে বসে থাকি। :(


নিশ্চয় এখন ভালো আছি ভাইয়া!

অনেক অনেক ভালো থেকো। :)

১৭৭| ১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ১২:২৪

অর্ক বলেছেন: আচ্ছা সে কি ভুল স্বীকার করে ক্ষমা চেয়েছে?

১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ১২:৫৩

শায়মা বলেছেন: সাইকোরা কি তাদের ভুল স্বীকার করে!

করে না!

মানুষ ভুল করতেই পারে আর মানুষই স্বীকার করে কিন্তু সাইকোরা সেটা পারেনা।

তবে সাইকোদেরকে উস্কানী দেয় যারা তারা আরও ভয়াবহ !

সমাজের বোঝা বাড়ায় ! :(

ভাইয়ামনি!

সেই পোস্ট দিয়েও শান্তি হয়নি এরপর কিছু মাল্টি নিয়ে তৎপরতা চালাচ্ছে কিছু মাল্টি বাহিনী। তবে তাদের বাড়িতে নেট নেইতো অফিসের নেট দিয়ে আসে তাই আজ ছুটির দিনে তাদের দেখা নেই। অফিস খুললেই বিনা পয়সার নেট দিয়ে মুখোশ পরে আসবেন ! :)

১৭৮| ১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ১:১৩

গেম চেঞ্জার বলেছেন: অর্ক বলেছেন: আজ দেখলাম উক্ত পোস্ট মুছে ফেলা হয়েছে। সুন্দর সমাপ্তি বলা যেতে পারে। যা হোক ব্লগার জেন রসি, গেম চেন্জার ও আরও দুয়েকজন আপনার এই অযাচিত বিপদে দারুণ সহযোগিতা করেছে। সম্ভব হলে ওদের কিছু চকোলেট খাওয়াতে পারেন

চকলেটে হবে না। 8-|
আমি+রসিভাই++ আরো অনেকের জন্য খানা কবে হইবেক?? B-) B-))

১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ১:১৬

শায়মা বলেছেন: ঈদের দিন!!! :)

এখন তো রোজা!!!!!!! B:-)

১৭৯| ১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ১:১৮

গেম চেঞ্জার বলেছেন: হাঃ হাঃ হাঃ

সবাই তো আর রোজা রাখে না। তবে!!!!! ;) মনে থাকে যেন!!!!!!!!!!!!!! :P

১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ১:২০

শায়মা বলেছেন: থাকবে থাকবে !!! তবে আজই পাখার অর্ডার দিয়ে রাখি! :)

১৮০| ১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ১:৩৪

অর্ক বলেছেন: link|https://youtu.be/auSo1MyWf8g|আমাদের এই পৃথিবী এসব অসুস্থতার থেকে অনেক সুন্দর! যদি আপনার কোনও কিছু ভাল না লাগে তবে তা এভয়েড করবেন। মাল্টি দিয়ে এখানে কিছুই করা যাবে না, যদি না আপনি নিজে সেখানে জড়ান নিজেকে। ব্যক্তিগত জীবনে সতর্ক থাকবেন। এখানে ব্লগে শায়মাপু শায়মাপু করে শতাধিক মন্তব্য করা অনেক ব্লগারের হয়তো কখনও সৌভাগ্য হবে না আপনার একটি ছবি দেখারও। আমার মনে হয় আপনি ব্লগ নিয়ে একটু বেশি সংবেদনশীল! যা হোক আশা করি ব্লগে আমাদের বন্ধুত্ব সবসময় থাকবে। শুভরাত্রি। ]

১০ ই জুন, ২০১৭ বিকাল ৫:০১

শায়মা বলেছেন: ভিডিওটা দেখে মুগ্ধ হলাম ভাইয়া!
হ্যাঁ এই পৃথিবী অনেক সুন্দর শুধু আমরাই মাঝে মাঝে অসুন্দর হয়ে যাই আর অসুন্দরের মাঝেও প্রকারভেদ আছে কারন আছে। নাই কাজ খই ভাঁজ বা অকারণেই যখন কেউ কেউ অপ্রত্যাশিত ঘটনা ঘটায় তখন এই সুন্দর পৃথিবীটাই অসুন্দরে ভরে যায়। কিছু করার নাই।

আমার যা ভালো না লাগে আমি এভয়েডই করি ভাইয়া তবে কেউ আমাকে নিয়ে আমার এই ভালোলাগার জগৎটাকে নিয়ে বা আমার কোনো কাজ নিয়ে নিজের মত করে উদ্ভট ভেবে নিয়ে বা বানিয়ে বানিয়ে মিথ্যা বলবে আমি কি তার ব্যাখ্যা দেবোনা? প্রতিবাদ করবো না? অনেকেই বলছে বা বলবে এসবে না জড়ালেই হয়। কিন্তু আমি যদি এই মিথ্যাটাকে এক্সপ্লেইন না করে দিতাম বা দেই তাহলে তুমি নিজেই কি ভুল বুঝোনি? তুমি নিজেই তার সুবিশাল মিথ্যা কথন একের পর এক বানোয়াট ব্যাখ্যা দেখে হিমসিম খেয়ে গেছিলে । এক নিমিশেই ধরেই নিয়েছিলে এত বড় বুকের পাটা করে এই মেয়ে এই সব ছবির এত সুনিপুন সুচতুর ব্যাখ্যা যখন দিচ্ছেই এটাই তাহলে সত্য! দেখো তুমি ছবি আঁকা জানোনা বলে একজন ছবি আঁকা মানুষ কি বলছে না বলছে না ভেবেই তা সত্য ধরে নিলে। আবার যারা জানে না ঠিকি কিন্তু বিচার করার ক্ষমতা আছে তারা কিন্তু তাদের চোখ খাঁটিয়ে বুদ্ধি খাটিয়ে ঠিকই বুঝে নিলো কোন কোন জায়গায় তার গলদ , ভুল বুঝা বা মিথ্যাটা!

আর এক দল আছে এই সুযোগে মুখোশে মুখ ঢেকে এই বোকা মেয়েটাকে তাল দিয়েছে আর কিছু অতি বোকা মানব মানবী আছেন যারা লাফ দিয়ে পড়ে উস্কানীতে তাদের যে জুড়ি মেলা ভার তা দেখিয়ে দিলেন।

যাইহোক, ব্যাক্তিগত জীবনে সতর্ক থাকতে হবে কেনো? বুঝলাম না ! ভেবেছো এরা আমার ব্যাক্তিগত জীবনেও হামলা করবে!!!
সে দুঃস্বপ্ন কখনও পূরণ হবে না ভাইয়া।

আর আমার ছবি দেখার কি দরকার! কি হবে আমার ছবি দেখে!!!!!! ছবি দেখার জন্য এত কিছু হলে না হয় একটি না কয়েকটি ছবিই পোস্ট করে দেওয়া যাবে। কিন্তু ছবির সাথে এসবের সম্পর্ক কেনো!!!!

শুধু ব্লগ না অনেক ব্যাপারেই আমি সংবেদনশীল ভাইয়া। এই সংবেদনশীলতা নিয়ে আমাকে আরও বেশি কাজ করতে হবে । আসলে কি জানো ? সবচেয়ে কষ্ট পেয়ে যাই যখন দেখি আমি যাদেরকে যেভাবে দেখি বা ভালোবাসি তারা আসলে আমাকে অন্যভাবেই দেখেছিলো মানে আমি ভুল ছিলাম এটা দেখেই।

অনেক ভালো থেকো ভাইয়ামনি!

অনেক অনেক ভালোবাসা। :)

১৮১| ১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ১:৩৬

অর্ক বলেছেন: ...

১০ ই জুন, ২০১৭ বিকাল ৫:০৫

শায়মা বলেছেন: :)

১৮২| ১০ ই জুন, ২০১৭ রাত ২:০১

অর্ক বলেছেন: '...' ক্লিক করতে ভুলবেন না! ওটা একটা গানের লিংক।

১০ ই জুন, ২০১৭ বিকাল ৫:০৩

শায়মা বলেছেন: করেছি এবং দেখেছি !!! :)

অনেক অনেক থ্যাংকস!!!!!!

১৮৩| ১২ ই জুন, ২০১৭ রাত ৩:১৭

অর্ক বলেছেন: উহু আপনি আমার কথাগুলো ঠিক বোঝেননি! আপনি যা বলছেন আমিও অনেকটা তাই বা কাছাকাছি ধারণা রাখি।
*ব্লগে আপনার মাল্টির ভয়টা কিছুতেই বোধগম্য হচ্ছে না। একে তো আপনি নিয়মিত পোস্ট করেন না, আর যেসব লেখা পোস্ট করেন, তা একেবারে ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে যেমন ভ্রমণ, রান্নাবান্না, গল্প, কবিতা ইত্যাদি। এমন নয় যে রাজনীতি, ধর্ম, বা বিশেষ কোনও মতবাদের চর্চা করে থাকেন ব্লগে, যাতে আপনার খুব বিরুদ্ধবাদী কোনও পক্ষ দাঁড়িয়ে যেতে পারে। যারা মনে করে আপনার লেখা সমাজে বিশেষ প্রভাব ফেলে এবং তা তাদের কর্ম তৎপরাতায় ব্যাঘাত সৃষ্টি করে। ব্লগার আসমানগাজীর ক্ষেত্রে এরকম হলেও হতে পারে, কিন্তু আপনার সাথে কেন!
আমি কোনও যুক্তিই পাচ্ছি না কেন ব্লগে কেউ আপনার বিরুদ্ধে ওভাবে আটঘাট বেঁধে অমন তৎপরতা চালাবে; মাল্টি বা স্বনামেই হোক, যা আপনি ভাবছেন! মাল্টি দিয়ে কি করতে পারে তারা, আপনার পোস্টে এসে আপনাকে গালিগালাজ করবে, আপনার বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত পোস্ট দিবে?
আমি সত্যি বিন্দুমাত্র বুঝতে পারছি না!

*আমার মন্তব্য মূলত ছিল আপনার পাগল ফ্যানদের বিরুদ্ধে, যারা যুক্তি তর্ক ব্যতিরেকে কাওকে ব্যক্তিগতভাবে নাজেহাল করতে চেয়েছিল, তাদের বিরুদ্ধে। আর একটা জিনিস কি, আমার মতো দলমত নিরপেক্ষ সাধারণ ব্লগারদের জন্য ওই পোস্টটা তেমন কোনও গুরুত্বই বহন করে না। ব্লগ কর্তৃপক্ষই যথেষ্ট সত্যমিথ্যা যাচাই করে সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য। যদি তারা তা না করে তবে তা তাদের দৈন্যদশা। সেসব মৃত, পুরনো প্রসঙ্গ থাক।

*আমিও তাই বলছি। আমার মনে হয় যে আমাদের কারই ব্লগ নিয়ে বেশি সংবেদনশীল হওয়া উচিৎ নয়। ব্লগের দুনিয়া খুব ছোট্ট। অতো মাথায় তোলার মতো কিছু নয় এটা। সুস্থ সুন্দর শিল্পের চর্চা করার ডিজিটাল মাধ্যম হিসেবে দারুণ একটি প্লাটফর্ম! আমিও তাই বলছি এটা এতো ছোট্ট জায়গা যে, এখানে আপনার একটা ছবি চাওয়ার মতো কোনও উপলক্ষও নেই, হবেও না কারও। আপনার কথাই আমিও বলছি কি হবে আপনার বা আরেকজনের ছবি দেখে!

*ব্যক্তিগত জীবনে সতর্ক থাকা বলতে বোঝাতে চেয়েছি, এমন কোনও 'সাইকো'র সংস্পর্শে আমাদের থাকা উচিৎ নয় যে জীবনের কোনও পর্যায়ে আমাদের এমন বিপদের কারণ হতে পারে! এধরণের মানুষকে আমরা যদি বুকে জড়িয়ে নেই আর পরবর্তীতে যদি ক্ষতিগ্রস্ত হই, তাহলে নির্ঘাত আমরা নিজেরাই নিজেদের দোষী ঠাওরাব নিজের নির্বুদ্ধিতার জন্য। সচেতন প্রতিবেশীটিও তখন বলবে, যেমন গলায় গলায় মিল করেছিল! মন্তব্যে সে বারবার বলছিল 'আমি তার ব্যক্তিগত অনেক গোপন বিষয় জানি'! এতে বোঝা যায় শুধু ভার্চুয়াল জগতে আপনাদের সম্পর্ক সীমাবদ্ধ ছিল না। সেজন্য বলা ব্যক্তিগত জীবনে সতর্ক থাকতে হবে।
*
যাই হোক শায়মা এসব নিয়ে আর একটা শব্দ লেখারও কোনও মানে হয় না। যার যার জীবনের ক্ষেত্র আলাদা, ব্লগে এসে শুধু কাদা ছোড়াছুঁড়ি! ছি! ওই ব্লগারের উচিৎ নিজের ভুল স্বীকার করে আপনার কাছে ক্ষমা চাওয়া। এমন না করলে প্রমাণ হয় তার মাঝে বিন্দুমাত্র কোনও বিবেকবোধ বলে কিছু নেই! ছি ধিক্কার জানাই!
আর আমার কোনও ব্যবহারে আপনি কষ্ট পেয়ে থাকলে আমি সত্যি আন্তরিক দুঃখ প্রকাশ করছি। আমি সত্যি খুব দুঃখিত। ভবিষ্যতে লক্ষ্য যেন এমন আর না হয়। আমি নিশ্চিত হবেও না হা হা হা।
ব্লগের কনসেপ্টটা আমার মোটেই ভাল লাগছে না। নানান ধরণের জটিলতা! আমি ব্লগ ছেড়ে দিচ্ছি ক্রমশ।
আপনার জন্য অনেক শুভকামনা। সবসময় সুখী থাকুন।

১২ ই জুন, ২০১৭ রাত ৯:০৯

শায়মা বলেছেন: অর্ক বলেছেন: উহু আপনি আমার কথাগুলো ঠিক বোঝেননি! আপনি যা বলছেন আমিও অনেকটা তাই বা কাছাকাছি ধারণা রাখি।
*ব্লগে আপনার মাল্টির ভয়টা কিছুতেই বোধগম্য হচ্ছে না। একে তো আপনি নিয়মিত পোস্ট করেন না, আর যেসব লেখা পোস্ট করেন, তা একেবারে ব্যক্তিগত বিষয় নিয়ে যেমন ভ্রমণ, রান্নাবান্না, গল্প, কবিতা ইত্যাদি। এমন নয় যে রাজনীতি, ধর্ম, বা বিশেষ কোনও মতবাদের চর্চা করে থাকেন ব্লগে, যাতে আপনার খুব বিরুদ্ধবাদী কোনও পক্ষ দাঁড়িয়ে যেতে পারে। যারা মনে করে আপনার লেখা সমাজে বিশেষ প্রভাব ফেলে এবং তা তাদের কর্ম তৎপরাতায় ব্যাঘাত সৃষ্টি করে। ব্লগার আসমানগাজীর ক্ষেত্রে এরকম হলেও হতে পারে, কিন্তু আপনার সাথে কেন!

কারণ তাদের পাকা ধানে মই পড়ে যায় !!!!! :(
যারা এসব বলে তাদের কোনো লেখা বা কমেন্ট দেখবেনা তুমি সহজে মানে বলতে গেলে তারা মমি ব্লগার মানে তাদের দেখা নাই কোথাও কোনো খানে, ব্লগে কোনো পদচারণা নেই কিন্তু প্রিপ্ল্যানড গেইম সেট করেই তারা কেচাল লাগিয়েই তৎপর হয়ে ওঠে। ব্লগে সেই কেচাল পোস্টে তৎপরতা, বড় বড় বাণী! ব্লগ গেলো ব্লগ গেলো!

ফেসবুকে তো পুরাই বানী সমগ্র! এমনইতে ব্লগ নিয়ে মাথা ব্যাথা নেই। কিন্তু নিজেরাই আড়ালে কেচাল লাগিয়ে দিয়ে বাণী সমগ্র লিখতে থাকেন, যেন কত বড় বড় সব ব্লগার একেকজন! কি বিশাল গিয়ানী গুনী । মনে হচ্ছে আগামী বই মেলায় তারা ব্লগ সংক্রান্ত বাণী সমগ্র ও ব্লগের চিন্তায় ঘুম আসেনা টাইপ কোনো বই লিখবেন।

১৩ ই জুন, ২০১৭ রাত ১২:২৮

শায়মা বলেছেন: *আমার মন্তব্য মূলত ছিল আপনার পাগল ফ্যানদের বিরুদ্ধে, যারা যুক্তি তর্ক ব্যতিরেকে কাওকে ব্যক্তিগতভাবে নাজেহাল করতে চেয়েছিল, তাদের বিরুদ্ধে। আর একটা জিনিস কি, আমার মতো দলমত নিরপেক্ষ সাধারণ ব্লগারদের জন্য ওই পোস্টটা তেমন কোনও গুরুত্বই বহন করে না। ব্লগ কর্তৃপক্ষই যথেষ্ট সত্যমিথ্যা যাচাই করে সিদ্ধান্ত নেয়ার জন্য। যদি তারা তা না করে তবে তা তাদের দৈন্যদশা। সেসব মৃত, পুরনো প্রসঙ্গ থাক।

আমার পাগল ফ্যানরা যুক্তি তর্কের ধার ধারেনি সেটা কিন্তু নয় ভাইয়া। বরং তুমিই কারো যুক্তি দেখার আগেই এক নজরে ভুল করেছিলে। আর ব্লগে কেউ এমন অস্থিরতা সৃষ্টি করলে ফ্যান লাগেনা এমনিতেই যাদের বুদ্ধি বিবেচনা আছে তারা মতামত বা যুক্তি দিয়েই থাকে।

আর ইউ ভাইয়া
হামা ভাইয়া
জেন রসিভাইয়া
গেমু ভাইয়া
গুলশান কিবরিয়া আপু
ফাতেমা আপু
রাবেয়া আপু
আশিকুর ভাইয়া
শিপু ভাইয়া
সেলিমভাইয়া
নস্টালজিক
কি করি ভাইয়া
বৃতিমনি
সোহানী আপু
বিদ্রোহী ভৃগুভাইয়া

আরও সব নাম মনে নাই খুব সুন্দর যুক্তি দিয়েই বুঝিয়ে দিয়েছিলো। হ্যাঁ কেউ কেউ তাকে মানষিক বিকৃতি/মানষিকভাবে অসুস্থ্য এসবও বলেছিলো। তবে সেসবের তুলনার যুক্তিগুলোই বরং বেশি শক্তিশালী ছিলো।

আর পরবর্তীতে রহমাস আসাদ নামে এই ব্লগারের পোস্টে তাদের নিেজেদের মাল্টিটাই প্রতিপক্ষ সেজে একটিং করছিলো। পক্ষে বিপক্ষে মতামত দিচ্ছিলো। আমার জানা মতে এই সব নিক কেউ কখনও আমরা চিনিওনা আর রহমান আসাদ গং ছাড়া কেউ চিনেও না।

১৩ ই জুন, ২০১৭ রাত ১২:৩৪

শায়মা বলেছেন: *ব্যক্তিগত জীবনে সতর্ক থাকা বলতে বোঝাতে চেয়েছি, এমন কোনও 'সাইকো'র সংস্পর্শে আমাদের থাকা উচিৎ নয় যে জীবনের কোনও পর্যায়ে আমাদের এমন বিপদের কারণ হতে পারে! এধরণের মানুষকে আমরা যদি বুকে জড়িয়ে নেই আর পরবর্তীতে যদি ক্ষতিগ্রস্ত হই, তাহলে নির্ঘাত আমরা নিজেরাই নিজেদের দোষী ঠাওরাব নিজের নির্বুদ্ধিতার জন্য। সচেতন প্রতিবেশীটিও তখন বলবে, যেমন গলায় গলায় মিল করেছিল!

একদম তাই। এখন থেকে সাইকো এভয়েড করবো আর তাই একটু না অনেকখানি সাবধান হবো! :)

মন্তব্যে সে বারবার বলছিল 'আমি তার ব্যক্তিগত অনেক গোপন বিষয় জানি'! এতে বোঝা যায় শুধু ভার্চুয়াল জগতে আপনাদের সম্পর্ক সীমাবদ্ধ ছিল না। সেজন্য বলা ব্যক্তিগত জীবনে সতর্ক থাকতে হবে।

না তার সাথে ভারচুয়াল এর বাইরে কোনো ব্যাক্তিগত সম্পর্ক ছিলো না। ওমন জানা অনেকেই জানে যা আসলে না জানা ! কারণ আমি কিছুই জানাইনি আর যেটুকু জানিয়েছি তাতেও আসলে জানার কিছু নেই কাজেই ঐ আমার জানানো জানা নিয়ে হ্যাপী থাকুক এত যখন জানার ইচ্ছা কি আর করা!!!!!!

১৮৪| ২৩ শে অক্টোবর, ২০১৭ রাত ১১:২১

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন:

তোমার যে ফেবু একাউন্টে এই ছবি আছে, তাতে পাঠিয়েছি পুরো গল্প (যতটুকু লিখেছি)

আমার কমেন্ট-টা ডিলেট করে দিও।

২৪ শে অক্টোবর, ২০১৭ বিকাল ৫:০০

শায়মা বলেছেন: আত্তা !!!!!!!!! নো প্রবলেমো!!!!!!!!!!! :) :) :)


১৮৫| ১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:৫৫

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন:





আমি আঁকাবুকি শিখতে চাই । যাবতীয় সব আমি হৃদয়ে এঁকে বুঝে নিতে চাই আমি কতবড় চিত্রকর !

১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০১

শায়মা বলেছেন: ওলে!!!!!!!!!!
রোবোভাইয়ু!!!!!!!!!!!!!!

প্রেমে পড়লে নাকি!!!!!!!! B:-)

১৮৬| ১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৪

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন:




কবিতা চরণ বের করতে হলে সবকিছুতে পড়তে হয় । প্রেম, দ্রৌহ, আবেগ, অভিমান, কান্না, হাসি, বিসর্জন ইত্যাদি ইত্যাদি !

১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৩

শায়মা বলেছেন: বাপরে গেছি গা!!!!!!

তোমার পাল্লায় পড়ে তোমার প্রেমিকার কি হয় ভাবছি! চিন্তায় পড়লাম!!!!!!

১৮৭| ১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৩৮

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন:





হা হা !

আপনি মেকআপ খুব ভাল পারেন । কমেন্টের প্রতি উত্তরে আপনার ছবি দেখে মনে হলো !

১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:২৯

শায়মা বলেছেন: থাক থাক আর ছবি দেখে কাজ নেই!!!!!!!!

শেষে রোবো কবিতা লিখতে গেলে খবর আছে আমার!!!!!!!!!

১৮৮| ১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৩৩

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন:




হা হা হা । জগৎ ভালই হাসাতে জানে রম্য করে !

মেকআপের আঁড়ালে আপনি কে তা বোঝার কোন উপায় নেই!!

১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৫৬

শায়মা বলেছেন: ঠিক ঠিক তবুও তোমার মত রোবো না তা নিশ্চয় বুঝা যাইতেছে!


তোমার জন্য শিঘ্রীই আনবো অপু তানভীর ভাইয়ার রোবো বউ!!!!!!!!

১৮৯| ১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:০০

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন:



আমার কাছে আপনাকে রোবটই মনে হয় । হয়তো এখন বলবেন আমি এতো ঢং করি তবুও আমাকে রোবট মনে হয় ! এর কোন উত্তর নেই, আমার অনুভূতি বলে মানে ইন্টিউশান বলে এই যা !!

১০ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:২২

শায়মা বলেছেন: এহ লে এক রোবোট আরেকজনকে বলে রোবো!!!!!!!!!!!!! কলিকাল!!!!!!! রোবোটদের কলিকাল!!!!!!!!!!

১৯০| ১৭ ই নভেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:৪২

কথাকথিকেথিকথন বলেছেন:





হ্যাঁলো রোবট ! হাই রোবট ! হাউ আর ইউ ?
জংফদজক্কুরেন্মজসু ? ক্সজফেনাপ? এল্রলেইরী ?

১৭ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:১৩

শায়মা বলেছেন: রোবোটা নিজের সাথে নিজে কথা বলে!!!!!!!! হি হি হি

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.