নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

কি বলা যায়! কিছু কথায় নিজেকে ব্যক্ত করা সম্ভব না আমার পক্ষে। তাই একটা সিরিজে কিছু কিছু করে সবই বলছি।

সামু পাগলা০০৭

আমি অতিআবেগী, আগে ব্যাপারটা লুকানোর চেষ্টা করতাম। এখন আর করিনা।

সামু পাগলা০০৭ › বিস্তারিত পোস্টঃ

সামুতে সামু পাগলার ৬ বছর! প্রথমাংশে: ব্লগ নিয়ে প্রশ্নের উত্তর, সামুর কাছে কৃতজ্ঞতা! শেষাংশে: পার্টি ফর ব্লগারস! :) :)

২৩ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৫

দেখতে দেখতে সামুতে পার করে ফেললাম ৬ টি বছর! বিশ্বাসই হচ্ছেনা। নিজেকে বেশ সিনিয়ার সিনিয়ার মনে হচ্ছে! হাহা। আমার ব্লগ নিয়ে কিছু কমন প্রশ্ন বারবার শুনি, সেগুলোর জবাব অনেকবারই দিয়েছি আলাদাভাবে। আজকে সুযোগ পেয়ে পোস্টে দেব। আর তাছাড়া সামু নিয়ে অনেককিছু বলার আছে। সেসব পোস্টের প্রথমাংশ। পোস্টের পরের অংশে থাকবে ধুম ধারাক্কা পার্টি! :)

-----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------

প্রথমাংশ:



আমার ব্লগ নিয়ে ফ্রিকোয়েন্টলি আস্কড কোয়েশ্চনস এন্ড আনসারস:

১) ব্লগের সন্ধান কিভাবে পেলেন?
আমি একদিন গুগল বাংলাদেশে কি একটা খবর নিয়ে সার্চ দিয়েছিলাম, সামু এসেছিল সার্চ রেজাল্টে। ব্লগ কি বুঝিনা তখনো। এসে অবাক হয়ে ভাবছি এটা কি পেপার? এমন কেন? কিছু পোষ্ট দেখলাম মানুষজন তুমুল ঝগড়া, তর্ক বিতর্ক করছে। বেশ অবাকই হয়ে গেলাম। আবার মজাও লাগল ব্লগের পুরো ব্যাপারটা। বেশ কিছুক্ষন ঘোরাফেরা করলাম। দেখলাম নানা বিষয় নিয়ে নানা ধরণের লেখা। তখন সামুতে ভীষন ভালো ভালো গল্প লেখক ছিলেন। সেসব গল্পগুলো পড়তে পড়তে ব্লগের নেশায় পড়ে গেলাম। পরের অন্য নানা ধরণের পোস্টও পড়া শুরু করি। প্রথম দিন থেকেই সামু ব্লগ খুব প্রিয় জায়গা হয়ে গিয়েছিল। হাতে সময় থাকলেই ঘুরে যেতাম। এভাবে ঘুরতে ঘুরতে একদিন ভাবলাম আমিও একাউন্ট খুলে ফেলি!

২) আপনি মেয়ে, কিন্তু আপনার নিক নেম এমন কেন? সামু পাগলী নয় কেন? আর ০০৭ এর রহস্য কি? একটা মেয়েলি প্রোফাইল পিকচার রাখতে পারেন না?
এই প্রশ্নটি আমি কোটিবার পেয়েছি, সামনে আরো কোটিবার পাব সেটাও জানি।

আমি যখন ব্লগ একাউন্ট খুলি অনেক ছোট ছিলাম। কৈশোরে পা দিয়েছি সবে এমন। অন্তর্জালেও বেশ নতুন ছিলাম। তখন এতকিছু বুঝিনি। আমি ব্যাস এটা বোঝাতে চেয়েছিলাম যে সামু আমার অনেক পছন্দের। পাগলা লিখলে সবাই ছেলে ভাববে আর কনফিউজড হয়ে আমাকে বকাবকি করবে (প্রথমদিকের মতো), এবং অনেক প্রশ্নের উত্তর দিতে হবে এই বিষয়টি মাথায় আসেনি। কেননা চলতি কথায় আমরা অতটা খেয়াল করে বলিনা। পাগলা, পাগল, বুদ্ধিমান, গাধা একটা মেয়েকেও বলে ফেলি। নিক খোলার সময়ে আমার এদিকটি খেয়াল রাখা উচিৎ ছিল, কিন্তু অতো ম্যাচিউরিটি সেই বয়সে ছিল না। উত্তেজিত ছিলাম ব্লগ একাউন্ট খুলছি! বিরাট ব্যাপার!

মাশরাফি ভাইয়া আমার জানের জান। উনি আমার আইডল। মানুষ হিসেবে ওনার ১% ও হতে পারলে জীবন ধন্য হতো! আই লাভ হিম, লাভ হিম! এজন্যে ওনার ছবি দিয়েছি।
তবে হ্যাঁ এটা আমার মাথাতেও এসেছিল যে একটা ন্যাকা ন্যাকা মেয়েলি প্রোফাইল পিক দেই, তাহলে সবার কনফিউশন দূর হবে। পরে মনে হলো, সেটা খুব জরুরি না। আমি মেয়ে সেটা প্রমাণের এত চেষ্টার প্রয়োজন নেই। আমার কয়েকটি লেখা পড়লেই মানুষ বুঝে যাবে। কেননা মেয়েদের কথার, লেখার ধাঁচই আলাদা হয়। আর না জানলেও আমার কোন সমস্যা নেই। আমাকে কেউ ছেলে ভাবলে কি আমার ছেলেদের মতো গোঁফ গজিয়ে যাবে নাকি? ব্লগার ব্লগারই! ছেলে হোক আর মেয়ে হোক! মাশরাফি ভাই সরবে না!

০০৭ এ আমার কোন দোষ নেই। সামুতে যখন একাউন্ট খোলার চেষ্টা করছিলাম শুধু সামুপাগলা চেয়েছিলাম, তারা বলল এটা এভেইলেবল না। সামুপাগলা০০৭ এভেইলেবল। ব্যাস নিয়ে নিলাম সাথে সাথে!

এরপরে নিক পরিবর্তন করিনি কেন? হুমম, এই নিকটির সাথে অনেক মায়া, স্মৃতি জড়িয়ে গেছে। আর এমনিও আমার এমন খারাপ অভ্যাস হয়ে গিয়েছে যে দু একজন ভাই, ভাইয়া না বললে মনেই হয়না সামু ব্লগে আছি! ;)

৩) আপনি এত অনিয়মিত কেন? হুটহাট উধাও হন কোথায়?
আমি আসলে যখন কোন সামার ব্রেক বা উইন্টার ব্রেইক পাই তখনই ব্লগে আসি। কেননা যখন আমার ক্লাস চলতে থাকে ক্লাস, এসাইনমেন্ট, এক্সামসের চিন্তায় ব্রেইন পূর্ণ থাকে। তখন নতুন নতুন ক্লাস প্রজেক্টের আইডিয়া ভাবতে ভাবতে ব্লগীয় কন্টেন্ট মাথায় আসতে চায়না। আর ব্লগ লিখতে একটু আকটু ভাবতে হয়। "আজকে মেঘলা আকাশ" এইটুকু তো লেখা সম্ভব না ব্লগে। ডিটেইলে কিছু লিখতে গেলে ভালো একটা আইডিয়া লাগে। যখন পড়াশোনার প্রজেক্ট নিয়ে ব্যস্ত থাকি, সেই আইডিয়াগুলোই মাথায় ঘুরপাক খায়। ব্লগীয় ভাবনাগুলো আর আসতে চায়না।
তবে এতে ক্ষতির কিছু নেই। আমি যখন রেগুলার হই, একসাথে প্রচুর পোষ্ট করি। যারা কাজের ফাঁকে ফাঁকে পোষ্ট করেন তারা হয়ত মাসে ৩/৪ টা করে পোষ্ট করলেন, আমি দেখা গেল একটি ছুটির মাসে ৯/১০ টি পোষ্ট একসাথে করে ফেললাম। সো যারা আমার ব্লগ পড়েন অথবা বন্ধুতাপূর্ণ সম্পর্ক আমার সাথে, তাদের বলব, ডোন্ট গেট ম্যাড গাইজ! পুরো বছরের ঘাটিতে কয়েকমাসে পুরোপুরি পোষানো সম্ভব না, তবুও আমি চেষ্টা করি। আর যখন থাকি না তখনো সবাইকে মনের ভেতরে রাখি! :)

ব্লগে যা কিছু মজার:

১) ব্লগে আমার সবচেয়ে মজার অভিজ্ঞতা হচ্ছে মানুষজন আমাকে ভাই, ভাইজান, ভাইয়া ইত্যাদি বলে ডাকে। যতোবার দেখি ততোবার হাসি পায়। ইট নেভার গেটস ওলড। অনেকসময় তো মানুষ বিশ্বাসই করতে পারেনা যে একটা মেয়ে এমন অদ্ভুত দর্শন নাম রাখতে পারে! আমি ফান করছি না সিরিয়াসলি সত্যি বলছি সেটা ভেবে কনফিউজড হয়ে যায়! মানুষ আমাকে ছেলে ভাবছে সেই অদ্ভুত মজার অভিজ্ঞতা সামু ছাড়া আর কোথাও সম্ভব হতো না। অবশ্য আমার নিক নেম এমনই, কারো দোষ নেই। বাট স্টিল, স্ক্রিনের এপাশে বসে থাকা মেয়েটির জন্যে অবশ্যই খুব মজার একটা বিষয়।

২) আমি যখন ব্লগে একাউন্ট খুলি তখন ভার্চুয়াল জগৎটা ভীষন অপরিচিত ছিল। কোন লেখা দেবার পরে যখন কেউ কমেন্ট করত মনে হতো, ওমা! মানুষটা আমাকে বলছে? চেনে না জানে না আমার লেখার ব্যাপারে মতামত দিচ্ছে? ব্যাপারটি খুবই মজার লাগত।

৩) ক্যাচাল ট্যাচাল প্রথমদিকে খুবই মজার লাগত, ভাবতাম মানুষজন কোন কারণ ছাড়াই অনলাইনে এসে অপরিচিত মানুষের সাথে ঘন্টার পর ঘন্টা ঝগড়া কার শক্তি পায় কোথা থেকে? এসব ভাবতে ভাবতে ক্যাচাল পোষ্টে ঢুঁ মারতাম আর হেসে খুন হতাম।
এখন যদিও বিরক্তি লাগে ক্যাচাল পোষ্ট। কেন? (ব্লগে এতদিন আছি, একটা ভাবগাম্ভীর্যের ব্যাপার আছে না?!) :D

ব্লগীয় জীবনের অর্জন:

১) অবশ্যই সব ব্লগারের মতোই সেইফ হওয়া অসাধারণ কিছু ছিল।

২) প্রথম যখন নিজের পোষ্টকে নির্বাচিত পাতায় দেখি।

৩) আমার লেখা পোষ্ট স্টিকি হওয়াটা অনেক আনন্দের ছিল।

৪) ব্লগ কর্তৃপক্ষের মূল্যায়নের সাথে সাথে কিছু কিছু লেখার ব্লগারদেরও মারাত্মক সারা পেয়েছি। অবশ্যই সেটাও অনেক আনন্দের।

ব্লগে মন এবং মেজাজ কখন খারাপ কখন হয়?

১) যখন পরিচিত ব্লগাররা ব্লগ ছেড়ে চলে যায় বা অনিয়মিত হয়।

২) যখন আমার প্রিয় কোন ব্লগার অহেতুক আক্রমণের শিকার হন।

৩) যখন নির্বাচিত পাতায় কোন নিম্নমানের পোষ্ট দেখি।

৪) যখন দু মিনিটে কোন ব্লগারের পোষ্ট ৫০০০ বার ভিউ হয়। রিলোড ভূতের কারবার দেখে বিরক্তি লাগে। লেখা হিট করাতে এত ছোট কেন হতে হবে? আলোচিত পাতা এমন কোন বড় এচিভমেন্ট না। তার চেয়ে নির্বাচিত পাতায় জায়গা পাবার চেষ্টা করুন এবং উন্নতমানের লেখা লিখে উন্নত করুন নিজেকে।

৫) যখন কেউ অহেতুক ক্যাচাল করে মন্তব্য সংখ্যা বাড়িয়ে পোস্ট হিট করার চেষ্টা করে। আরেহ পাগলা আমার নাম, আপনারা কেন পাগলামি করেন? হিটের লোভে ব্লগের পরিবেশ খারাপ কেন করেন?

৬) যখন শুনি বছরের পর বছর ধরে একাউন্ট খোলার পরও নতুন কোন ব্লগার সেইফ হতে পারছেনা। এ ব্যাপারে কর্তৃপক্ষকে একটু দৃষ্টি দিতে বলব, নাহলে প্রচুর গুণী ব্লগার হবার যোগ্য মানুষকে আমরা হারিয়ে ফেলব।

সামু ব্লগ আমাকে কি দিয়েছে?

১) মানুষজনের ভালোবাসা, আদর পেয়েছি প্রচুর। সেটাই সবচেয়ে অমূল্য। অনেক ইয়ার, দোস্ত, ভাই, বোন পেয়েছি। তারা আমাকে কি ভীষন আন্তরিকতায় বেঁধে রেখেছেন তা আসলে ভাষায় প্রকাশ করা সম্ভব না। আমি কারো নাম স্পেসিফিক্যালি নিচ্ছিনা শুধু এ ভয়ে যে যদি একজনেরও নাম মিস করি তবে ভীষন খারাপ লাগবে। লাস্ট ৬ বছরে প্রচুর প্রচুর মানুষ আমার প্রিয় ও আপন মানুষের লিস্টে জায়গা করে নিয়েছে। আমি নাম না নিলেও আপনারা জানেন আপনারা কারা। লাভ ইউ অল!

২) সামুতে অনেককিছু শিখেছি। আমি সত্যি বলছি জীবনে সবচেয়ে বেশি বকা সামুতেই খেয়েছি। বাস্তবজীবনে কেউ আমাকে এত কড়া কথা বলেনি। ছোটবেলায় খুব নরম স্বভাবের ছিলাম, কেউ কিছু বললেই চোখ ছলছল করে উঠত, তাই উঁচু স্বরে আমার সাথে কথা বলে না কেউ। কিন্তু সামুতে নিক নেইমের কারণে প্রচুর কনফিউশনে পড়ত অনেকে প্রথম প্রথম। ভাবত আমি ফান করছি নিজেকে মেয়ে বলে। সেজন্যে আজেবাজে বকাঝকা করত। কেননা আমি যখন সামুতে যাত্রা শুরু করি, তখন কিছু ফেক নিক ছিল যারা জেন্ডার নিয়ে ফাজলামি করত। আমাকেও অনেকে সেই ক্যাটাগরির ভেবে ভুল করত।
তাছাড়া কোন পোষ্ট কারো ভালো না লাগলে বা পোষ্টের বক্তব্যের সাথে সহমত পোষন না করলেও বেশ লম্বা রচনা লিখেছেন আমার নিন্দা করে। গঠনমূলক সমালোচনায় মানুষ লেখার ভুল ত্রুটি ধরিয়ে দেয়, কিন্তু এক ধরণের মানুষ আছে যারা লেখিকাকে নিয়ে কড়া মন্তব্য করেন। সেটাই সমালোচনা আর আক্রমণের মধ্যের পার্থক্য। আমি সমালোচনা কখনোই খারাপ ভাবে নেইনি কিন্তু যখন কেউ পারসোনালি আঘাত করত কেমন যেন অড লাগত। আমি প্রথম প্রথম খুব অবাক হতাম ভেবে যে কারো এত সময় বা ইচ্ছে হয় কি করে না জেনে না বুঝে একটা মানুষকে এভাবে বলার!
পরে দেখলাম যারা আমাকে বাজে কিছু বলছে তারা অন্যদেরও বলছে। অনেকে বাস্তব জীবনে মিনমিনে স্বভাবের হয় বিধায় ব্লগে এসে সব রাগ ঢেলে দেয়! তেমন ব্লগারের সংখ্যা খুবই কম, বা তারা আসলে ব্লগার গোত্রীয় না। তাদেরকে এভয়েড করা আর তাদের কথাগুলো সিরিয়াসলি না নেওয়াটা ব্লগ থেকে শিখেছি। এই শিক্ষা বিরাট কাজের শিক্ষা বোথ ভার্চুয়াল এবং রিয়েল লাইফে।

৩) আমি ব্লগিং শুরু করি অনেক কম বয়স থেকে। সেই সময়ে যখনই স্কুলে কোন লম্বা ছুটি পেতাম, ব্লগে এসে সময় দিতাম। কিশোর কিশোরিরা সবচেয়ে বেশি বিপথগামী হয় ছুটির মধ্যেই। অলস মস্তিষ্ক শয়তানের কর্মশালা, সেই নিয়ম মেনে যেকোন বাজে কাজে বন্ধুদের চাপে পরে জড়িয়ে যায়। কিন্তু আমার ছুটির দিনের বন্ধু ছিল সামু, যার চাপে আমাকে ছুটিতেও জ্ঞান চর্চা করে যেতে হয়েছে। সেকারণে আমি হয়ত অনেক বিপদ থেকে বেঁচে গিয়েছি, মাথায় আজেবাজে কোন কাজের চিন্তা আসেনি।

৪) আমি বিদেশে পড়াশোনা করেছি হাইস্কুল থেকে। বাংলা সেভাবে চর্চা করতে হয়না পড়াশোনার খাতিরে এবং দৈনন্দিন জীবনে। সামুতে না আসলে বাংলা পুরোপুরি ভুলে যেতাম। বানান একটাও মনে থাকতনা। এর জন্যে আমি যতোই কৃতজ্ঞতা স্বীকার করি কম হবে।

৫) লেখালেখি বা যেকোনকিছু যতোই চর্চা করা যায় ততোই হাত খোলে। সামু আমাকে জ্ঞান চর্চার অসাধারণ প্ল্যাটফর্ম দিয়েছে, নিজেকে দক্ষ করার সুযোগ দিয়েছে।

৬) সামুর কারণে নানা নতুন নতুন বিষয়ে ইন্টারেস্ট তৈরি হয়েছে। কি নিয়ে পোস্ট লেখা যায় ভাবতে ভাবতে নতুন নতুন বিষয় জানার ও শেখার ইচ্ছে তৈরি হয়েছে মনে। অনেক বিষয়ে জ্ঞান বেড়েছে।

৭) আমি বিদেশে থেকেও দেশী একটা মায়া মায়া আদর আদর পরিবেশ পাই সামুর কারণে।

৮) আড্ডাঘর পেয়েছি সামুর কারণে। যারা জানেন তা তাদের জন্যে একটু বলি। আড্ডাঘর হচ্ছে আমার দেওয়া একটি আড্ডাপোষ্ট যা কবছর ধরে চলে আসছে। নানা ব্লগার এসে সেখানে আড্ডা দেয়। নিয়মিত আড্ডাবাজেরা একদম ফ্যামিলির মতো হয়ে গিয়েছে। অসাধারণ কিছু মানুষের সাথে পরিচয় হয়েছে সামুর আড্ডাঘরের সুবাদে। আড্ডাঘরে গেলে সবার হাসি মজা খুনসুটিতে আমার মন অনেক ভালো হয়ে যায়।
আড্ডাঘর: সামুপাগলার ব্লগবাড়িতে আমন্ত্রিত সিনিয়ার, জুনিয়ার সকল ব্লগার!

আসলে সামু আমাকে এত কিছু দিয়েছে যে বলে শেষ করা যাবে না। আমি অন্যকোন প্ল্যাটফর্ম থেকে লেখায় হাত পাকিয়ে ব্লগে আসিনি। আমি জানতামও না সামু ছাড়া কোনকিছুকে। আমি যে বয়সে ব্লগিং শুরু করেছি তার কারণে এবং ভিনদেশে থাকার কারণে অন্য অনেক ব্লগারের চেয়ে সামুর ইমপ্যাক্ট আমার বাস্তব জীবনেও খুব ভালো ভাবেই পরেছে।

সামুতে এসে সংকোচে চেয়েছিলাম শুধু একটি সাদা লাইনটানা পেপার এবং কিছু কালো কালি। সামু আমাকে নির্দ্বিধায় গোটা এক আকাশ দিয়েছে.................

-----------------------------------------------------------------------------------------------------------------------------

শেষাংশ



ভারী কথা অনেক হলো। এবারে রিয়েল সেলিব্রেশন শুরু হবে। :) বিশেষ দিনের কিছু আয়োজন!











গান ছাড়া পার্টি বেমানান! সাম ঝাকানাকা সংস! :D













শেষ করছি পাঠকের জন্যে সহজ একটি কুই দিয়ে।
কুইজ: আজকে আমার ব্লগ পরিসংখ্যানে কাকতালীয়ভাবে আরেকটি বিশেষ ব্যাপার যোগ হয়েছে। বলুনতো কি? :)

সকল ছবি ও ভিডিও সূত্র: অন্তর্জাল!

মন্তব্য ১০২ টি রেটিং +১২/-০

মন্তব্য (১০২) মন্তব্য লিখুন

১| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:০০

কাইকর বলেছেন: তাহলে তো আজ সামু পাগলা আপুর ব্লগে জন্মদিন বলা চলে। শুভ জন্মদিন আপু। সবসময় পাশে থেকে উৎসাহ-অনুপ্রেরণা দিবেন।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:০৫

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হাহা! একদম ঠিক বলেছেন কাইকর! আজকে আমার ব্লগীয় জন্মদিনই বটে। আপনার শুভকামনার জন্যে আন্তরিক ধন্যবাদ।

জ্বি দোয়া করবেন, যেন সবসময় সবার পাশে থাকতে পারি।
শুভেচ্ছা রইল।

২| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:০৪

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: বাহা!! খুব সুন্দর অভিজ্ঞতা শেয়ার করলেন। সময় নির্বাচনও সঠিক হয়েছে। তবে পার্টিতে নৈব নৈব চ ।


শুভ কামনা রইল।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:০৮

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: সামুর অভিজ্ঞতা ঝাল টক মিষ্টিতে সুন্দরই ছিল আসলে! উৎসাহিত হলাম আপনার কথায়।

অনেক ধন্যবাদ পাঠ ও মন্তব্যে।
ভালো থাকুন।

৩| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:০৯

মো: নিজাম উদ্দিন মন্ডল বলেছেন: ছয় বছর বয়সে আপনার শিশুকে স্কুলে পাঠান!!:P
পাগলু গান গাওঃ
পরানের বান্ধব রে
বুড়ি হইলাম তোর কারণে....


পুনশ্চঃ
ক্যাচালে ব্যস্ত আছি! লেখা পড়ার মুড নাই:P

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:১৩

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হাহাহা! গুড ওয়ান! এতদিন তো সামু বাড়িতে শেখানো হচ্ছিল, এখন আমার সামু স্কুলে ভর্তি হওয়া উচিৎ।

পরানের বান্ধব রে
বুড়ি হইলাম তোর কারণে.

কাকতালীয় ব্যাপার, এই গানটি আমার মথায় কদিন ধরে বেজে চলেছে। আসলেই সামুতে বুড়ি হয়ে গিয়েছি রে। আগে সবাইকে আপু আপু করতাম এখন অনেকে আমাকে আপু আপু করে। কেমন যেন লাগে! আমি বাচ্চাই থাকতে চাই সবসময়! :)

ওহ! লেখা পড়ার মুড হলে পড়ে যেয়েন। :)

ধন্যবাদ উপস্থিতিতে।
সকল শুভেচ্ছা রইল।

৪| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:১২

স্রাঞ্জি সে বলেছেন: ইস কি যেনন নাই,

মনে পড়ছে।

মিষ্টি। মিষ্টির দাম কি কমে গেছে।
যাক এত কিছু দিলেন শোকরান।

ব্লগীয় জন্মদিনে শুভেচ্ছা রইল....

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:১৫

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: নেই কে বলল? কেক নামক জিনিসটি খেতে মিষ্টি হয়, একবার ট্রাই করে দেখুন। ;) :D

আপনাকেও অনেক ধন্যবাদ মন্তব্যে শুভেচ্ছা জানানোর জন্যে।
ভালো থাকুন।

৫| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:২৭

সুমন কর বলেছেন: শততম পোস্ট !!! দারুণ লাগল।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:৩১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: জ্বি এটা আমার শততম পোস্ট। প্রচুর পোস্ট ড্রাফটে নিয়েছি, মুছেছি। কিন্তু অবশেষে নানা কিছু পেড়িয়ে ১০০ তে পা রাখলাম! আর কাকতালীয় ভাবে জন্মদিনের দিনেই! হাহা।

পাঠ ও মন্তব্যে আন্তরিক ধন্যবাদ।
শুভেচ্ছা।

৬| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:৩১

অদ্ভুত_আমি বলেছেন: ষষ্ঠবর্ষপূর্তি , শততম পোস্ট এবং তিন লক্ষ ব্লগ হিট এর জন্য অভিনন্দন ও শুভেচ্ছা । !:#P
কুইজ উত্তরঃ শততম পোস্ট অথবা তিন লক্ষ ব্লগ হিট

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:৪৩

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: বাব্বাহ! এতকিছুর অভিনন্দন জানিয়ে দিলেন! কিছুই বাদ রাখেন নি। আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।

শততম পোস্ট ঠিক উত্তর, আপনাকে অভিনন্দন।
ভীষন ভালো থাকুন।

৭| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:৩৫

আহমেদ জী এস বলেছেন: সামু পাগলা০০৭ ,



হ্যা .... দেখতে দেখতে পার করে ফেললেন ছয়টি বছর । এ ছয় বছরে আপনার অর্জন যেমন অনেক তেমনি ব্লগকে চনমনে আর চাঙ্গা রাখতে আপনার শ্রমও কিন্তু কম নয় । ব্লগ যেমন আপনাকে দিয়েছে তেমনি ব্লগকে আপনি দিয়েছেন " টনিক " ।

কিশোরী থেকে তরুণী হয়েছেন ব্লগের মাঠে ঘাটে চরে , এবারে তরুণী থেকে প্রবীনা হবার পথে ব্লগ আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাক অনেক অনেক দূর।

শুভেচ্ছা রইলো অফুরান , আপনার ছয় বছর পূর্তিতে । এমনই টগবগে থাকুন .. থাকুন সদা লাস্যময়ী ।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:৪৭

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হেই আহমেদ জী এস! বিশেষ দিনে নিজের ব্লগবাড়িতে আপনাকে পেয়ে আনন্দিত হলাম।

এ ছয় বছরে আপনার অর্জন যেমন অনেক তেমনি ব্লগকে চনমনে আর চাঙ্গা রাখতে আপনার শ্রমও কিন্তু কম নয় ।
থ্যাংকস এ লট। কথাগুলো আনন্দ এবং প্রেরণা হয়ে গেঁথে গেল মনে বহুদিনের জন্যে।

কিশোরী থেকে তরুণী হয়েছেন ব্লগের মাঠে ঘাটে চরে , এবারে তরুণী থেকে প্রবীনা হবার পথে ব্লগ আপনাকে এগিয়ে নিয়ে যাক অনেক অনেক দূর।
একদম ঠিক কথা বলেছেন। তবে তরুণী, প্রবীনা সেসব হতে ইচ্ছে করেনা, মনে হয় কিশোরি বয়সটাকেই ধরে রাখি। হাহাহা!
দোয়া করবেন মনটাকে যেন এট লিস্ট সেই বয়সেই রাখতে পারি।

আন্তরিক মন্তব্য এবং শুভেচ্ছায় কৃতজ্ঞতা রইল।

৮| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:০৪

মো: নিজাম উদ্দিন মন্ডল বলেছেন:
পড়লুম!
লেখাতে কাউকে কি বাঁশ দিলে?
পাগলু তোমার ঝাকানাকা সঙ কই???:P
গানের দু লাইন লিরিক লিখে দেখাও....

কুইজের উত্তর:
সেঞ্চুরি এবং মন্তব্য করেছি থেকে "মন্তব্য পেয়েছি" এই অংশটা ভৌতিক রকমের বেশী!

পুনশ্চঃ
তোমার আড্ডাবাজদের মাসে দু-একটা পোস্ট দিতে বলবে!
আনসেফ নতুনদের তুমি খুব একটা মন্দব্য/সুতব্য কর না!


কুইজঃ
পোস্ট করেছি:১৭৫টি
মন্তব্য করেছি:৫৪২০৫টি
মন্তব্য পেয়েছি:৫৩২৯০টি
ব্লগ লিখেছি:৮ বছর ৩ মাস
অনুসরণ করছি:০ জন
অনুসরণ করছে:১৪৮৭ জন

১. এটা কে?
২. তোমার পছন্দের ব্লগার কে?

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:২২

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: লেখাতে কাউকে কি বাঁশ দিলে?
আপনার পড়ে মনে যা মনে হয় তাই মনে করুন।

আমার গান টান লেখার শখ নেই, অন্যের লেখা, গাওয়া হিট কিছু ঝাকানাকা সংস পোস্টে দেওয়া আছে। সেটাতেই মন ভরান।

হাহা, এটা নিয়েই পোস্টে লেখা উচিৎ ছিল। আড্ডাঘরে প্রচুর কমেন্ট পড়ে, যার অনেকগুলো আমাকে করা না, এক আড্ডাবাজ অন্যজনকে করছেন এমন। সেসব হাজার হাজার কমেন্টের জবাব দেবার সময় বা প্রয়োজন কোনটাই নেই। আর আমি ব্লগে সারাবছর থাকিনা, কয়েক মাস থাকি। যখন থাকি না তখনো আড্ডাঘরে কমেন্ট পড়তে থাকে। সেকারণেই এমন ভৌতিক ব্যাপার।

তোমার আড্ডাবাজদের মাসে দু-একটা পোস্ট দিতে বলবে!
আপনি কি বোঝাতে চাইছেন? বেশ কিছু ভালো লেখক ও ভালো ব্লগার আড্ডাঘরে রেগুলার। হেনাভাইয়ের মতো সুলেখক আড্ডাঘরের সর্দার। তাছাড়াও অনেকে নানা বিষয় নিয়ে পোস্ট করে রেগুলার এক্টিভ। আর যেসব আড্ডাবাজ ব্লগে কম লেখেন সেটা তাদের চয়েস, আমি কাউকে কিছু বলার কেউ না। সবারই নিজ নিজ ব্যস্ততা, স্ট্র্যাগল থাকে। জোর করে কাউকে আড্ডাঘরে আনার চেষ্টা করিনা, ব্লগ লেখানোর চেষ্টাও থাকেনা।

নাহ, আমি সেইফ আনসেইফ দেখে পোস্ট পড়িনা। ব্লগারের নাম নয়, ব্লগ পোস্টই তার পরিচয়। যে লেখা পড়ে মনে দাগ কাটে অথবা মনে হয় আমার মতামত দেবার কিছু আছে সেটিতেই কমেন্ট করি। একজন নতুন ব্লগার খুব সুন্দর বিষয় নির্বাচন করছেন, আমি অবশ্যই কমেন্ট করি। একজন ব্লগার ২ বছর আনসেফ ছিলেন, কিন্তু অসাধারণ কবিতা লিখতেন। রেগুলার তার ব্লগে যেতাম। অনেক নতুন ব্লগারকে রিসেন্টলিও কমেন্ট করেছি। তবে হ্যাঁ, কেউ নতুন বা আনসেইফ বলে তার এমন লেখা যেটা আমার ভালো লাগেনি সেটিতেও কমেন্ট করে আসব অতো মহান আমি নই। আমি পাঠক! পাঠকের মন জিততে পারলেই সে কমেন্ট করবে।

এটা শায়মা আপু।
আমার অনেক পছন্দের ব্লগার আছে। একজনের নাম নিতে পারবনা।

ধন্যবাদ আবারো ঘুরে আসার জন্যে। শুভেচ্ছা।

৯| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:২২

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: আমার আপ‌মণি বড় হ‌য়ে যা‌চ্ছে! অ‌নেক বড় হও।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:২৪

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: সাজ্জাদ ভাইয়া! এ পোস্টে আপনাকে না পেলে দিনটি অপূর্ণ থেকে যেত। কি সুইট একটা কমেন্ট করলেন! দোয়া করার জন্যে অনেক ধন্যবাদ ভাইয়া।

ভীষন ভালো থাকুন।

১০| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:৪৪

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: আমার পড়া বর্ষপূর্তি পোষ্টের সেরা পোষ্ট! আ কমপ্লিট পোষ্ট :)
হ্যাটস অফ সখি

ন' বছর পূর্তির পোষ্টেও গতানুগতিকই লিখেছি নিজেও! এত চমৎকার করে প্রশ্নোত্তরে;
আবার নিজের অনুভব, পাওয়া না পাওয়ার এত দারুন উপস্থাপন! পার্টি, খাবার, গান, মাস্তি ! কি নেই এখানে।
না না ফ্লার্ট করে নয় সত্যি মন থেকে বলছি- আমার চোখে পড়েনি! স্ব-মূল্যায়নে সবাই একটু আধটু পার্সিয়ালটি করেই থাকে!
কিন্তু এমন অবলীলায় কে কবে কয়েছে ;) ????

শেষ বেলাতে অসাম বাজিমাত-
" সামুতে এসে সসংকোচে চেয়েছিলাম একটা সাদা লাইন টানা পেপার এবং কিছু কালো কালি, সামু আমাকে নির্দ্ধিধায় দিয়েছে গোটা আকাশ !!!"
বার কতক পড়লাম। এক আকাশ মুগ্ধতা ছড়িয়ে গেল অনুভবের গহনানুভবে :)

অভিনন্দন ছয় বছর পূর্তির :)
ছয় হোক ষোল, ছত্রিশ থেকে শততম :)
দীর্ঘায়ুতে এলার্জি না থাকলে শতায়ুর শুভকমনা :P




২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৩৯

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হেই সখা!

আপনাকে সব পোস্টেই পাশে পাই। তবে এই পোস্টে বিশেষ ভাবে আশা করছিলাম আপনি আসবেন। আপনি আশা পূরণ করেছেন। এজন্যে কৃতজ্ঞ।

এহ! যার মন্তব্যের প্রতিটি লাইনও সবার চেয়ে আলাদা তার নিজের পোস্ট তাও আবার পূর্তি পোস্ট নাকি গতানুগতিক হয়! বললেই হলো! বেশি বেশি বিনয়! :)

ওমা! ফ্লার্ট করছেন না? আমি তো কত খুশি হয়ে গিয়েছিলাম তাই ভেবে! মনটা খারাপ করে দিলেন! কিডিং! ;) :D

আপনি এত প্রশংসা করেছেন! পড়ে আসলেই অনেক আনন্দিত হলাম যে কেউ যত্ন নিয়ে পড়ে এবং এভাবে ভাবে আমার পোস্ট নিয়ে!

বিশাল ছবিটির বিশাল শুভেচ্ছা মন ছুঁয়ে গেল।

দীর্ঘায়ুতে নো এলার্জি, আমি অনেকদিন বাঁচতে চাই, তবে বুড়োকালে একেবারে বিছানায় পড়ে অন্যের সাহায্যে নয়। আমার ইচ্ছে সবসময় ইয়াং এন্ড ফিট থাকা এবং বহুদিন বাঁচা। অনেককিছু দেখতে ইচ্ছে হয়রে সখা! দেশের অনেক উন্নতি, প্রযুক্তির উন্নতি।
আমাদের ক্লাসে একটা ভিডিও দেখাচ্ছিল যে ১০০ বছর পরে মানুষ পৃথিবীর বাইরের গ্রহে বসতি গড়ার মতো টেকনোলজিকাল এডভান্সমেন্ট পাবে। আমার মনটা খারাপ হয়ে গেল, ইশ আমি দেখতে পারব না সেটা? এক্সপ্লোর করতে পারবনা সেসব গ্রহ!
তো আপনার দোয়া যেন আল্লাহ গ্রহণ করেন। :)

আপনার জন্যেও আমি অনেক দোয়া করি। বহুদিন বাঁচুন, আপনার মতো আন্তরিক ভালো মানুষদের দরকার আছে পৃথিবীতে। হাসিখুশি থাকুন এবং সবাইকে সুখে রাখুন।

১১| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:০৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: অভিনন্দন হে !!!

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৪১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ অভিনন্দনে।
শুভেচ্ছা অজস্র!

১২| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:০৯

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: সামুতে তোমার ছয় বছর পূর্তিতে অভিনন্দন। কুইজের জবাব ইতিমধ্যে দেওয়া হয়ে গেছে বলে ওটা থেকে দূরে থাকলাম। ঝাকানাকা নাচ গানগুলো একটা একটা করে সাবাড় করবো। আপাতত খেলা দেখছি। আর রাত বারোটা থেকে জার্মানি ভার্সেস সুইডেন খেলা দেখার প্রস্তুতি নিচ্ছি।

ধন্যবাদ সামু পাগলা০০৭।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৪৩

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: থ্যাংকস এ লটটটট হেনাভাই! পূর্তিতে আপনার অভিনন্দন পেয়ে মন ভরে গেল।

হাহা, চুপিচুপি কানেমুখে বলি, ঝাকানাকা গানগুলো বিশেষভাবে আপনার জন্যেই! ;)

হেনাভাই, বিশ্বকাপের পাগলামিতে বেশি রাত জাগবেন না কিন্তু। আপনার প্রিয় দলই সবসময় জিতুক।

ভীষন ভালো থাকবেন।

১৩| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৩২

মোছাব্বিরুল হক বলেছেন: আপনার ৬ বছর পুর্তিতে অভিনন্দন।
এবং ধন্যবাদ এমন সুন্দর পার্টি দেয়ার জন্য।
আহা...... খেয়ে দেয়ে গান গেয়ে আমার অবস্থা এখন ...................

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৪৪

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ অভিনন্দন জানানোর জন্যে।

থ্যাংকস এ লট পার্টি এটেন্ড করার জন্যে, আপনার কথায় বুঝতে পারছি পার্টি খুব এনজয় করেছেন! হাহা।

শুভেচ্ছা।

১৪| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৩৯

কাওসার চৌধুরী বলেছেন: সামুতে আপনার ছয় বছর, এজন্য অভিনন্দন। আশা করি নিয়মিত এভাবে সুন্দর সুন্দর পোস্ট দিয়ে ব্লগ মাতিয়ে রাখবেন। আপনি ধৈর্য্য ধরে কাজের/পড়াশুনার ফাঁকে এত লম্বা লম্বা ও চমৎকার পোস্ট দেন এজন্য ধন্যবাদ।

শুভ কামনা সব সময়। ভাল থাকবেন পরিবারের সবাইকে নিয়ে।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৪৮

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: অভিনন্দনে আন্তরিক ধন্যবাদ।

দোয়া করবেন যেন সবসময় আপনাদের সাথে আনন্দে মেতে থাকতে পারি, মাতিয়ে রাখতে পারি।

মোস্ট ওয়েলকাম! আপনাকেও সুন্দর ও প্রেরনাদায়ী মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ।
সদা সর্বদা হাসিখুশি থাকবেন।

১৫| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৪৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: আজকে জার্মানি আর সুইডেনেরে খেলা। সুইডেন জিতে যাবে বোধ হয় ।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৪৯

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: আপনি কোন দলের সাপোর্টার? জার্মানি নিশ্চই? বেশিরভাগ মানুষ ব্রাজিল, আর্জেন্টিনার পরে জার্মানিকেই এগিয়ে রাখে। এবারের বিশ্বকাপে ফেমাসরা হারতে থাকবে সেটাই যেন রীতি হয়ে গিয়েছে!

১৬| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৫১

সোহানী বলেছেন: অভিনন্দন। ভালোলাগলো কফি/চা উইথ সামু।

দীর্ঘদিন সামুর প্রেমে পড়া ও নিজেকে ধরে রাখা অনেক বড় কিছু। তুমি এখনো ছোট তাই তোমার লিখার মধ্যে পাঠকরা কৈশর থেকে তরুনী, তরুনী থেকে পৈাঢ়, এবং এক সময় পৈাঢ় থেকে ............... লিখা পাবো। এবং অনেক কিছুই পাঠক জানতে পারবে।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:২১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: থ্যাংকস এ লট আপু!

কফি চা তো ছিল না পোস্টে! হাহা।

একমত, আমারো মনে হয় ধরে রাখাটা কঠিন, অনেক ব্লগারকেই দেখি কয়েক মাস ব্লগিং করে আর খবর নেই, আসেইনা ব্লগে। আপনিও তো বহুদিন ধরে আছেন। যারা ব্লগের মায়া কাটাতে পারেনা তারাই ব্লগার!

দোয়া করবেন আপু, যেন বহুদিন ব্লগের সাথে জড়িয়ে থাকতে পারি।
সকল শুভেচ্ছা!

১৭| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৫৪

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: মেক্সিকোর সঙ্গে দক্ষিণ কোরিয়া হেরেে গেলে ২-১ গোলে । দারুন খেলা হয়েছে ।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:২৩

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: তা হোক দারূন খেলা, আপনি আমার আগের প্রতিমন্তব্যের জবাব দেননি! :( ;)

১৮| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:০২

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: অভিনন্দন ৬ বছর পূর্তিতে।
আহা এই বিশাল আয়োজন চলছে এখানে আমি কোথায়!
খাবার দাবারও আছে দেখি। শেষ সময়ে আসলাম মনে হয়। বাকি আছে কিছু?তবে সুগারের জন্য এসব সাবার করতে পারবো না মনে হয়। টক ঝাল কিছু হলে ভাল হতো।

বিনোধনও আছে। সব মিলিয়ে সুন্দর হয়েছে। অনেক কথাই বলে দিয়েছেন। সবাই যেনে গেল আপনার ব্লগিও চিন্তা চেতনা। ভাল থাকুন সবসময়। হেপী ব্লগিং

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:২৬

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: সুজন ভাই! কি যে বলেন, আপনি ছাড়া পার্টি শুরুই হয়না ঠিকভাবে, আর শেষ! একদম ঠিক টাইমে এসেছেন। :)

অভিনন্দন জানানোর জন্যে ধন্যবাদ।

বেশিরভাগ খাবারই ঝাল সুজন ভাই, কেক ছাড়া বাকিসব কিছু খেতে পারেন।

অনেক ধন্যবাদ। ব্লগ নিয়ে নিজের ভাবনাগুলোকে প্রকাশের চেষ্টা করেছি।
আপনিও সবসময় ভালো থাকুন।

১৯| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:০৮

নাজিম সৌরভ বলেছেন: ছয় বছর !
আপনি তো পুরা বুড়ি !!
অবাক করা ব্যপার, আপনার প্রতিটা লেখায় কিশোরীর আবেগ ঝরে পড়ে !!!
:)
আপনি তো দেখছি এভার গ্রিন গার্ল । আমি সামুতে মাত্র এক মাস প্লাস সামথিং । একজন নতুন বালকের পক্ষ থেকে ছয় বছর পুর্তির অভিবাদন গ্রহণ করুন ।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:২৮

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: ডোন্ট কল মি বুড়ি! ইট হার্টস! ;)

আপনার প্রতিটা লেখায় কিশোরীর আবেগ ঝরে পড়ে !!! আপনি তো দেখছি এভার গ্রিন গার্ল ।
এই কথাগুলোতে মুড ঠিক হয়ে গেছে! :) দোয়া করবেন যেন সবসময় কিশোরী মেয়ের সরল আবেগকে ছুঁয়ে থাকতে পারি। হাহা।

অবশ্যই গ্রহণ করছি। আন্তরিক ধন্যবাদ।

আশা করি ১ মাসটি একদিন ১০ বছর এবং তারও বেশি হবে। ব্লগের সাথে থাকুন।
হ্যাপি ব্লগিং!

২০| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:২৬

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুইডেন জিতলে ব্রাজিলের জন্য ভালো হবে । সুইডেন জিতে যাক ।জার্মানি তাহলে ১ম রাউন্ডেই বাদ । ;)

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:৩৪

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: ওহ আচ্ছা! এই ম্যাচে আপনি কারো পক্ষে না, তবে এক দলের পক্ষ হয় অন্যের বিপক্ষে! কত রাজনীতি! হাহা।

২১| ২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:৪০

অচেনা হৃদি বলেছেন: আপু, এই লেখা থেকে জানতে পেরেছি বিভিন্ন সময় বিভিন্ন ভালোমানের লেখক ব্লগ হতে সরে গেছেন । আচ্ছা আপনিও কি এভাবে কোন এক সময় সরে যাবেন ? :(
জানেনই তো আমি নতুন । আমি আসার পর অল্প কয়েকজন ভালো ব্লগারকে পেয়েছি যাদের মাঝে আপনি অন্যতম । প্লিজ কখনো হারিয়ে যাবেন না ।

২৩ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:৪৭

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: সুইট সুইট হৃদি আপু, একদম ঠিকই জেনেছেন। ব্লগের জেনারেশন পরিবর্তিত হতে থাকে। পুরোন অনেকে চলে যায়, নতুন অনেকে আসে আপনারই মতো, তারাও আবার পুরোন হয় নতুনকে স্বাগতম জানিয়ে। তবে কিছু কিছু ব্লগার আছে কখনো ব্লগের মায়া কাটাতে পারেনা। আমি ব্লগে ইরেগুলার হতে পারি, কিন্তু পুরোপুরি ছাড়ব না কখনো ইনশাল্লাহ।

আর থ্যাংকস এ লট আমাকে এত আপন ভেবে আন্তরিকভাবে থাকতে বলার জন্যে। আমি না গেলেও যদি অন্য আপন কোন ব্লগার চলে যায় তবে একদমই মন খারাপ করবেন না। ব্লগার আসে যায়, কিন্তু সামু থেমে থাকেনা। এক সাথী হারালে অন্যকাউকে পেয়ে যাবেন। শুভকামনা করি, ব্লগে প্রচুর বন্ধু বানান, ভালো ভালো লেখা লিখুন।

পাঠ ও মন্তব্যে আন্তরিক কথামালার জন্যে ধন্যবাদ।

২২| ২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ১২:২৪

মনিরা সুলতানা বলেছেন: অনেক অনেক শুভেচ্ছা বর্ষপূর্তির !!!
অন্তরস্থলের ধন্যবাদ সব সব এত মিষ্টি আর প্রাণবন্ত থাকার জন্য!!!
ভালোবাসা।

২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ১:২১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ মনিরা আপু।

অন্তরস্থলের ধন্যবাদ সব সব এত মিষ্টি আর প্রাণবন্ত থাকার জন্য!!!
হাহা, সো সুইট অফ ইউ!

প্রচুর ভালোবাসা আমার তরফ থেকেও।

২৩| ২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ১২:৪৯

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: জার্মানি হারার পথে । এক গোল খেয়ে বসেছে।

২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ১:২৩

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: ফুটবলে বা যেকোন গেমেই ১ মিনিট আগেও কিছু বলা যায়না। জার্মানিও এক গোল করেছে। দেখা যাক.......

২৪| ২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ১:২৫

কুঁড়ের_বাদশা বলেছেন: অভিনন্দন ! !:#P !:#P

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ৯:৪৫

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ জানাই।
শুভেচ্ছা!

২৫| ২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ২:১২

হাসান রাজু বলেছেন: অভিনন্দন, শুভ কামনা ।

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:০১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ হাসান রাজু। বর্ষপূর্তি পোস্টে আপনার উপস্থিতিতে খুশি হলাম।
শুভকামনা আপনার জন্যেও।

২৬| ২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ৩:০৫

Kishor Mainu বলেছেন: ভাগ্যিস দেখেছিলে।
না হলে সামু একজন ছেলেনিকধারী গুনী মেয়ে ব্লগার হারাতাম।
বাই দা ওয়ে,আপনি দেখতে কেমন খুব জানতে ইচ্ছা করতেছে।

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:০৫

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হেই! পোস্টে পেয়ে ভালো লাগল।

ছেলে নিকধারী মেয়ে ব্লগার! হাহা! তা যা বলেছেন। আসলেই তো তাই।

কেমন আর দেখতে? দুটো চোখ, একটা নাক, দুটি করে হাত পা আছে অন্যসব মানুষের মতো। :)

অনেক ধন্যবাদ পাঠ ও মজার মন্তব্যে।
ভালো থাকুন।

২৭| ২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ৩:২৪

রাকু হাসান বলেছেন: বাহ ! ভাইয়া বলে জানতাম । সামু আপুর জীবনের গল্প চমৎকার হয়েছে । কিন্ত শেষে এমন না করলেও পারতেন ! :( আমি তো প্রস্তুতি নিতে ছিলাম । ঢাকায় কোথাও হয়তো পার্টি হবে । দেখা আড্ডা হবে

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:০৭

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: যাক, আজকে জেনে গেলেন আমি আপু!

আহারে! আমি ভাবিনি যে এমনকিছু ভাববেন। আমি তো প্রবাসে থাকে, ঢাকায় পার্টি কিভাবে দেই? :)

পাঠ ও মন্তব্যে আন্তরিক ধন্যবাদ।
শুভকামনা!

২৮| ২৪ শে জুন, ২০১৮ ভোর ৬:৪৮

Sujon Mahmud বলেছেন: অনেক দিন পর সামু পাগলাকে দেখে ভালো লাগলো। সেই সাথে ভুল ধারণাটাও শুধরাতে পারলাম। এত দিন মনে করছি সামু পাগলা ০০৭ একটা ছেলের প্রেফাইল।

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:০৯

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: যাক ভুল ঠিকে পরিণত হল অবশেষে। :)

ঠিক অনেকদিন পরে না, লাস্ট কদিন ধরে বেশ রেগুলার, প্রচুর পোস্ট করেছি।

পাঠ ও মন্তব্যে ধন্যবাদ।
শুভেচ্ছা অজস্র!

২৯| ২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ৭:১৫

সিগন্যাস বলেছেন: ছয় বছরে অনেক ব্লগার ব্লগ ছেড়ে চলে গেছেন।উনারা আমারও অত্যন্ত পছন্দের লেখক ছিলেন।আপনি সহ সিনিয়রদের মাত্র অল্প কয়েকজন এখনো রয়ে গেছেন।সেজন্য আপনাকে ধন্যবাদ।
ছয়বছর লম্বা সময়।ঠিক বলছি না?আপনি নিশ্চয় নিজেই বিস্মিত যে আপনার ছয়টা উইন্টার সামুতে কেটে গেছে।তাই না?

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:১৬

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: একদম ঠিক বলেছেন। কত গুণী ব্লগারকে আমরা হারিয়েছি! শুরুর দিকে যারা পাশে ছিলেন তারা আর নেই। তখনকার প্রিয় মুখগুলোকে কতদিন হলো"অনলাইনে আছেন" লিস্টে আর দেখিনা! তবে কখনো সামুকে পর মনে হয়নি। নতুন কেউ এসে আপন একটা জায়গা করে নিয়েছে মনে। এভাবেই চলে গেল ৬ টি বছর!

আমার পোস্টের একদম প্রথম লাইনেই আমি বলেছি, বিশ্বাস করতে পারছি না যে এত লম্বা সময় কেটে গেল! আসলেই, দেখতে গেলে বেশ লম্বা সময়, আবার দেখতে গেলে তেমন কিছুই না! সামনে আরো অনেকদিন থাকতে চাই। যতদিন সামু থাকবে, ইরেগুলারলি হলেও সামুপাগলাও থাকবে ইনশাল্লাহ!

পাঠ ও মন্তব্যে আন্তরিক ধন্যবাদ।
ভালো থাকুন।

৩০| ২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ৯:২৬

নতুন নকিব বলেছেন:




ওহ! দারুন! অনেক স্মৃতি উঠে এসেছে নিপুন আন্তরিকতায়। ধন্যবাদ।

হেই! যাক, শুধু ধন্যবাদ দিয়ে শেষ করলাম না। সাথে উপহার ছোট্ট এই কবিতাটিও-

ছয়টি বছর কাটিয়ে সামুর প্রেমে,
স্মৃতিগুলো আগলে মনের ফ্রেমে।
এমনি করেই কাটুক সময় প্রিয়,
এমনি করেই মায়ার পরশ দিও।

নিপুন স্মৃতির কথন - কথকতায়,
সামুর উঠোন মাতিয়ে দিও ঠায়।
প্রানের ছোঁয়ায় তোমার লেখার সাজে,
মন পড়ে থাক, 'সাপা'-র লাইনের ভাজে।

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:১৯

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হেই! আপনাকে ছাড়া তো বর্ষপূর্তির পোস্ট খালি খালি লাগত। উপস্থিতিতে কৃতজ্ঞতা। :)

বাহ! কি সুন্দর একটা উপহার নিয়ে হাজির হলেন। লাভ ইট! থ্যাংকস এ লট!

আপনার মন্তব্যে ভীষন ভালো লাগা রইল।
শুভেচ্ছা।

৩১| ২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ৯:২৮

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: মেম সাহেবকে অনেক অনেক অভিনন্দন।

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:২১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: মোস্তফা সোহেল! পোস্টে পেয়ে খুবই খুশি হলাম!

আন্তরিক ধন্যবাদ অভিনন্দন জানানোর জন্যে।
ভালো থাকুন।

৩২| ২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:৪৩

রাজীব নুর বলেছেন: এই পোষ্ট স্টিকি করা হোক।

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১১:৪৭

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: জন অথবা ব্লগের সার্থে লেখা পোস্টগুলো স্টিকি হয়। বর্ষপূর্তির পোস্ট স্টিকি হয়ে লাভ কি?

ধন্যবাদ মন্তব্যে।
শুভেচ্ছা।

৩৩| ২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১০:৫৮

কথার ফুলঝুরি! বলেছেন: এক কথায় অসাধারন ! এক লাইন করে পড়ছিলাম আর মুগ্ধ হচ্ছিলাম। খুব দারুন দারুন বিষয় গুলো নিয়ে লিখেছেন এবং চমৎকার উপস্থাপনা। আপনার নিক সামু পাগলা ০০৭ কেন এবং কিভাবে হল জেনে খুব মজা পেলাম :-B সবার মত আমিও আপনাকে ছেলে ভেবেছিলাম আর ০০৭ দেখে ভেবেছিলাম জেমস বন্ড এর ভক্ত আপনি :P হাহা ! আর, ৬ বছর , বাপ রে বাপ B:-)


বি ঃ দ্র ঃ সামু তে আমার ৬ বছর হতে হতে তো আমি বুড়ী হয়ে যাব :P :((

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১১:৫০

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হেই কথা আপু! পোস্টে পেয়ে ভীষনই খুশি হলাম।

অনেক ধন্যবাদ, প্রশংসায় উৎসাহিত হলাম, আনন্দিত হলাম।

আরেহ, আমারো তো ৬ বছর হয়েছে, কিন্তু আমি এখনো ইয়াং এন্ড কুল আছি, আপনিও থাকবেন। :P ;)

পাঠ ও ভীষন মজার মন্তব্যে থ্যাংকস।
শুভকামনা রাশি রাশি!

৩৪| ২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১১:০০

সিগন্যাস বলেছেন: এখন কয়টা বাজে? |-)

২৪ শে জুন, ২০১৮ সকাল ১১:৫১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: ঘড়ি মামাকে জিজ্ঞেস করেন। ;) :D

৩৫| ২৪ শে জুন, ২০১৮ দুপুর ১২:০২

ধ্রুবক আলো বলেছেন: প্রথামাংশে শুভেচ্ছা গ্রহন করুন।
আমার এক সাথে দুটো প্রশ্ন- দেশে আসবেন কবে, আমাকে কি খাওয়াবেন? কাচ্চি বিরিয়ানি না মোরগ পোলাও? :)

২৪ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪২

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হেই ধ্রুবক আলো! আন্তরিক ধন্যবাদ শুভেচ্ছায়।

দুটো প্রশ্নের একসাথে দুটো উত্তর: ঠিক নেই, যখন আসব তখন আপনি যা চাইবেন তাই খাওয়াব আপনার টাকায়। :)

ভীষন ভালো থাকুন।

৩৬| ২৪ শে জুন, ২০১৮ দুপুর ১২:১০

মোছাব্বিরুল হক বলেছেন: জীবনের প্রথম এমন অনলাইন পার্টি বলে কথা। এনজয় করবনা :P :P :P

২৪ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৫

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হাহা! অনলাইন পার্টি! ঠিক বলেছেন তো।
অবশ্যই! বর্ষপূর্তির বিশেষ দিনে পার্টি এনজয় করুন খুব করে।

পাঠ ও মন্তব্যে ধন্যবাদ।
শুভকামনা!

৩৭| ২৪ শে জুন, ২০১৮ দুপুর ১:৩৩

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
ছয় বছরের বয়ান সুন্দর ভাবে লিখেছেন পোস্টে। সাথে খাওয়া-দাওয়া, গান আর কি চাই।

সুন্দর ও স্বার্থক হোক আগামীর পথচলা।

২৪ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৬

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: আন্তরিক ধন্যবাদ আপনাকে পোস্টটি পড়ার জন্যে।
শুভকামনায় আনন্দিত হলাম।

ভালো থাকবেন।

৩৮| ২৪ শে জুন, ২০১৮ দুপুর ২:১৫

লাবণ্য ২ বলেছেন: অনেক অনেক অভিনন্দন আপু!

২৪ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৯

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: লাবণ্য আপু! ভীষনই খুশি হলাম আপনাকে বর্ষপূর্তি পোস্টে পেয়ে।

আন্তরিক ধন্যবাদ অভিনন্দন জানানোর জন্যে।
শুভেচ্ছা।

৩৯| ২৪ শে জুন, ২০১৮ দুপুর ২:১৭

কামরুননাহার কলি বলেছেন: ইই...............মা এত্তো খাবার!!!!! আপি আমি যখন আপনার লেখা পড়তে পড়তে নিচের দিকে আসছি তখনই এই খাবার গুলো চোখে পড়ে গেলো ডেপডেপ করে তাকিয়েই থাকলাম কিন্তু ...............খেতে পারলাম না। :``>> :``>> :``>> :``>> :``>>

২৪ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৩

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: হাহাহা! কলি আপু আপনি খেতে ভালোবাসেন বোঝা যাচ্ছে। আরে খেতে পারলেন না মানে কি? দর্শনেই অর্ধভোজন! ;) :)

পাঠ ও মজার মন্তব্যে অনেক ধন্যবাদ।
শুভকামনা!

৪০| ২৪ শে জুন, ২০১৮ বিকাল ৪:১৫

আমি ব্লগার হইছি! বলেছেন: ইলিশ পোলাও টা সুন্দর ছিল পাগলা।

২৪ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৫

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: এই মেন্যুতে আমারো প্রিয় ইলিশ পোলাও! :)

৪১| ২৪ শে জুন, ২০১৮ বিকাল ৫:৩৫

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: জন অথবা ব্লগের সার্থে লেখা পোস্টগুলো স্টিকি হয়। বর্ষপূর্তির পোস্ট স্টিকি হয়ে লাভ কি?

ধন্যবাদ মন্তব্যে।
শুভেচ্ছা।

ব্যাপারটা আমি জানতাম না।
আজ জানলাম।

২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:০১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: ওহ আচ্ছা আচ্ছা।

আবারো ঘুরে এসে প্রতিমন্তব্য নিয়ে কিছু বলার জন্যে থ্যাংকস এ লট।
শুভকামনা।

৪২| ২৪ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৪৬

ভ্রমরের ডানা বলেছেন: =p~

শউভেচ্ছা মেয়াবাই থুক্কু ভাবি থুক্কু আফা...


আপ্নে লিগেন্ড.....


২৪ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:০৩

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: আজকের দিনেও ফাজলামি! ফাজিল কোথাকার!

আপনাকে ব্লগে অনেকদিন দেখিনা। তাই এই পোস্টে পাব সেটা আশা করিনি। পরিচিত মানুষটিকে পেয়ে খুব ভালো লাগল। কোথায় ছিলেন?

৪৩| ২৫ শে জুন, ২০১৮ রাত ১১:১৬

সোহানী বলেছেন: আবার ফিরে আসলাম তোমাকে নিয়ে একটা কথা মনে পড়াতে।

আমি যতটুকু দেখেছি কেনেডিয়ান বর্ন বা মাইগ্রেটেড চাইল্ড যখন টিন এজ বা তরুন হয় তারা মূল কেনেডিয়ান কালচারের সাথে মিশে যায় বা আধা খিচুরি হয়ে চলে। কিন্তু তুমি এ প্রজন্মের হয়েও দেশের প্রতি ভালোবাসা ধরে রেখেছো, সামুর প্রতি ডিভোশান ধরে রেখেছো এবং বাংলায় লিখালিখি চালিয়ে যাচ্ছো। আমি সত্যিই অভিভূত। এটা যে কতবড় একটি ত্যাগ তা দেশে বসে কেউই বুঝবে না। আমার চারপাশের দেশী তরুন-তরুনীদের দেখে অামি মাঝে মাঝে হতাশ হই, ভয় পাই আমার সন্তানদের নিয়ে।

ভালো থাকো সবসময়।

২৬ শে জুন, ২০১৮ রাত ১২:৪২

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: সোহানী আপু, আপনার মন্তব্য পড়ে বুঝলাম যে আপনি আমাকে মানুষ হিসেবে অনেকটাই বোঝেন। ভীষন ভালো লাগার একটি অনুভূতি মনে বয়ে গেল।

আর খিচুড়ি জেনারেশন আমি কানাডায় অনেক দেখেছি। এদের সাথে আমি কখনোই মানাতে পারিনা। আমি ১০০% বাংলাদেশী, কানাডিয়ান, জাপানিজ, ইরানি সহ যেকোন দেশের মানুষের সাথে মিশতে পারি। কিন্তু খিচুড়িদের সাথে যে কি অদ্ভুত লাগে! আমি কি বিষয় নিয়ে কথা বলব? আর কি ভাষায়? কিছু বাংলা বোঝে, কিছু শব্দ বোঝে না। বাংলাদেশের কোন খোঁজ খবর সেভাবে রাখেনা। অনেকে তো বলেই, যে আমি এখানকার, আমার বাবা মা বাংলাদেশের। যাদের জন্ম কানাডায়, বা বেড়ে উঠেছে কানাডায় তারা এমন ভাবতেই পারে। আমি তাদের অবস্থান বুঝি। তবে তাদের সাথে স্মুথলি মিশতে পারিনা। একটু কথা বললেই ইংলিশের মতো বাংলা শুনে মাথা ভনভন করে।

আমি মনে করি কোন একটি দেশ ও সস্কৃতির ওপরে মারাত্মক আবেগ অনুভব করতে না পারলে জীবনটা অপূর্ণ থাকে। সবকিছু হতে গিয়ে যেন কিছুই হতে পারেনা অনেকে।

আবার অনেকে প্রবাসী এমনও আছেন যারা কানাডিয়ান অথবা বাংলাদেশী কালচারের কোন একটিকে বেছে নিয়েছেন পুরোপুরি। তাদেরকে বেশি হ্যাপি মনে হয়। দুটোর মধ্যে পিষে যাওয়া জেনারেশনকে দেখে মায়া লাগে।

আমাকে অনেকে বলে যে তারাও চায় তাদের সন্তান আমার মতো সালোয়ার কামিজ পরুক ইত্যাদি। কিন্তু মজার ব্যাপার যে বলছে সেই মা টিও কিন্তু দেশী পোশাক পরছেনা অনেকসময়। বাড়িতে হিন্দি সিরিয়াল, ইংলিশ ব্রেকফাস্ট/ডিনার, ওয়েস্টার্ন পোশাক আশাকের চল থাকলে, এবং বাইরে সব বিদেশীর সাথে মিশলে বাচ্চাদের আর দোষ কি? তারা কনফিউজড হয়ে যায় ভীষন।

যাই হোক আর তাই হোক, যে কালচারই ফলো করুক, যে ভাষারই চর্চা করুক না কেন, ভালোমানুষ হোক সবাই! এটাই আসল ব্যাপার।

আপু, আপনার কমেন্টটি ভীষনই মায়ামাখা ও আন্তরিক। আমি অনেক খুশি হয়েছি পড়ে। জীবন ও ব্লগীয় পথচলায় অনেক প্রেরণা পেলাম আপনার কথায়।

আপনিও সবসময় ভালো থাকবেন।

৪৪| ২৬ শে জুন, ২০১৮ রাত ১২:৫৫

Kishor Mainu বলেছেন: X(( X( X((
এরপর থেকে যদি আপনি এভাবে মজাদার খাবারে ছবি দিয়ে সবাইকে ইয়া(সঠিক শব্দ খুজে পাচ্ছিনা,নিজ দ্বায়িত্বে বুঝে নেন) করেন আমি আপনার নামে মামলা করব।
পার্টি দিলে খাবার ছাড়া দিবেন।
আর যদি দিতেই হয়,তাহলে ঠিকানা দিয়ে দিচ্ছি,পার্সেল করে পাঠিয়ে দিবেন। B-))

২৬ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:০৬

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: ওরা কারা? যারা ব্লগীয় জন্মদিনের পোস্টে অভিনন্দনের বদলে রাগের ইমো নিয়ে হাজির হয়? :D

এহ! মামলা করবে, আপনি আপনার নামে উল্টো মামলা করব। আমার ব্লগবাড়িতে এসে আমার ওপরে হুমকি ধামকি! তবেরে! আরেহ, জানেন না খাদ্যের দর্শনে হয় অর্ধভোজন। ফ্রি ফ্রি এতসব খাবার অর্ধেক খেতে পারলেন, কেস করলে আর ফ্রি থাকবে না। পুরো টাকা গুণে গুণে নেব! হাহাহা।

পার্টি তো খাবার, গান ছাড়া হয়না। আর আমি এতদূরে থাকি যে খাবার পার্সেল করে দেশে সব ব্লগারের ঠিকানায় পৌঁছাতে গেলে সেগুলো আর খাবার থাকবেনা, রাবার হয়ে যাবে। তাই আপনার ঠিকানা আপনার কাছেই রাখুন। :)

মজার মন্তব্যে ধন্যবাদ।
শুভকামনা!

৪৫| ২৬ শে জুন, ২০১৮ রাত ১২:৫৯

Kishor Mainu বলেছেন: আর একটা কথা,এটা তো আপনার ১০১তম পোস্ট হিসেবে শো করছে।
তাহলে উত্তরটা কি???

২৬ শে জুন, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:০৯

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: উত্তরটা ১০০ তম পোস্টই। এটাই আমার ১০০ তম পোস্ট ছিল। এরপরে আরেকটি পোস্ট এসেছে। সেই পোস্টটি ইচ্ছে করে এই পোস্টের বেশ পেছনে ফেলা হয়েছে। সেই পোস্টটিকে আড্ডাঘরের কিছু কাজে লেখা হয়েছে, নতুন আড্ডাঘরে লিংকটি শেয়ার করা হবে। এজন্যে প্রথম পাতায় প্রকাশিত হয়নি এবং চোখের সামনেও নেই।

ধন্যবাদ।

৪৬| ২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:১২

সম্রাট ইজ বেস্ট বলেছেন: অর্ধযুগ পূর্তিতে অভিনন্দন! পার্টিতে যথাসময়ে যোগ না দিতে পারায় আন্তরিকভাবে দুঃখিত! খাবারগুলো বাসি হয়ে গেছে তাই খেতে পারলাম না। :( তবে সামনের কোন পার্টিতে অবশ্যই যথাসময়ে যোগ দেয়ার চেষ্টা করব ইনশাআল্লাহ! ততক্ষণ ভালো, সুস্থ ও সুন্দর থাকুন মিস বোকামতী! :)

২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:২১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: মিস্টার বোকা, আপনাকে আন্তরিক ধন্যবাদ।

ইটস ওকে! কি আর করার!
কথার কথা একটা বলে দিলেন, কিন্তু আসলেই নতুন একটি পার্টি জলদিই আসছে, যোগ দেন কিনা দেখি। :)

এহ! খাবার বাসি হয়ে গেছে! এগুলো ডিজিটাল খাবার, বছর পার করেও এমনই ফ্রেশ থাকবে। ;)

আপনি অবশ্যই ভালো থাকবেন, সবাইকে ভালো রাখবেন।

৪৭| ২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ৮:৫৬

ভ্রমরের ডানা বলেছেন:
কেনাডা যাইতে মুঞ্চায়। রাস্তাডা বলেন!

২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:২৮

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: রাস্তাডা তো বহুত সহজ আচে মিয়াভাই। আপনে আপনার বাড়ির সব থেইক্কা কাছের মার্কেটে যান, হেইখান থেইক্কা সবচাইতে দূরের যাদুঘরে যাইবেন, হেই যাদুঘর হইতে যে পার্ক দেখবেন পর্থম, হেইহানে ঢুইক্কা পরবেন। এরপরে নাগরদোলায় চইরা, আসমানের দিইক্কা লাফ দিবেন। হেরপর যদি জ্ঞান ফিইরা আহে তয় আপনে নিজেরে কানাডায় পাবেন, আর যদি না ফেরে তয় আমার দোস নাইক্কা! আপনারে ঠিক ভাবে জাম্প লাগাইতে হইব! :)

৪৮| ২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:৩৫

ভ্রমরের ডানা বলেছেন:


ফাইন রাস্তা! এমনটা খুজছি বহুদিন হল।

২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:৫১

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: অহন তো পাইয়া গেলেন ঠিকানা, যাত্রা শুরু করেন মিয়াভাই। :)

৪৯| ২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ৯:৫২

ভ্রমরের ডানা বলেছেন:
আমি একা যামু না। লগে আপ্নারে চাই। একা যাওয়া বোরিং হপে!

২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:০৩

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: আমি তো এহানেই আচি। আমারে নেবেন কেমনে? আপনে আইস্সা আমার লগে দেহা করেন, হেরপর দুজন মিইল্লা কানাডা ঘুরুম। :)

৫০| ২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:২৭

ভ্রমরের ডানা বলেছেন:

আপনি আইসসা নাগুরদুলায় উইঠা দেখাইয়া দেন। দেখাইয়া দেন ফিলিজ। পর্থুম জামু বইলা কথা। :-B এক সাথে ঘুরমু বলে কথা।

২৭ শে জুন, ২০১৮ রাত ১০:৩৬

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: আপনে না! কি কন এসব! আপনে এইটুকুন রাস্ডা একা আইতে পারবেন না? না পারলে কানাডায় আসার কাম নাইক্কা, এহানে এত্ত বড় দেসে হারাইয়া যাইবেন গা, আমারে আর খুঁইজাই পাবেন না। আপনে এহা আইতে পারলে আহেন, নাইলে আপনের লগে ঘুরাঘুরি করুম না, কইয়া দিলাম! ;)

৫১| ২৯ শে জুন, ২০১৮ বিকাল ৪:৪২

ভ্রমরের ডানা বলেছেন:


ডিগবাজি শুরু হইছে যাবার লাইগা। হে হে হে!

০২ রা জুলাই, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৩৫

সামু পাগলা০০৭ বলেছেন: এতদিনে তো পৌঁছে যাবার কথা এমন ডিগবাজিতে। কোথায় আছেন এখন? দেশ থেকে আমার জন্যে উপহার এনেছেন তো? ;) :D

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.