নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

বাংলা ভাষা অনেক সুন্দর একটি ভাষা। বাংলা আমার ভাষা। বাংলা আমার দেশ।

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন

আমি কেউ না। কবে যে কেউ হতে পারবো।

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন › বিস্তারিত পোস্টঃ

প্রবাসে শ্রমিকদের প্রিয় গান

২১ শে মার্চ, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৫৮

দেশে কাজ না পেয়ে ঘর বাড়ি সহায় সম্বল বেঁচে এক জন যুবক বিদেশে যায় কাজ করতে। বুকে এক রাশ স্বপ্ন। এই হবে সেই হবে। বাস্তবে কিছুই হয় না। বিদেঁশে কামলা দেয়া খুব কঠিন কাজ। যারা এটা নিজ চোখে দেখেনি তারা কল্পনা করতে পারবে না।

তাদের কেউ কেউ জেলে যায়। যারা বা কোন রকম কাজ করে জীবন জীবিকা রক্ষা করে তাদের জীবনও খুব সুখের নয়। দেশে যে ছেলেটি ভাজা মাছটি উল্টে খেত না, ঠান্ডা ভাতের থালা মা কখনো যদি দিত লাথি দিয়ে ফেলে দিত যে ছেলে তার খাওয়ার মেনু দেখলে মা তার কেদে সারা হবেন।

তাই তো তারা মনের কষ্ট বুকে চেপে গান গায়।

আমি বন্দি কারাগারে
আমি বন্দি কারাগারে
আছি গো মা বিপদে
বাইরের আলো চোখে পড়েনা মা
আমি বন্দি কারাগারে
আমি বন্দি কারাগারে
জেলখানার সম্বল
থালাবাটি কম্বল
এছাড়া অন্য কিছু মেলেনা মা
জেলখানার সম্বল
থালাবাটি কম্বল
এছাড়া অন্য কিছু মেলেনা
সকাল আর সন্ধায়
দুইটি রুটি দেয়
সকাল আর সন্ধায়
দুইটি রুটি দেয়
রুটি খেয়ে পেট ভরেনা
মা
আমি বন্দি কারাগারে
আমি বন্দি কারাগারে
আছি গো মা বিপদে
বাইরের আলো চোখে পড়েনা মা
আমি বন্দি কারাগারে
আমি বন্দি কারাগারে
শনিবার আর মঙ্গলবার
তোমার আমার দেখাবার
তাও তো দেখা তুমি করোনা মা
আর জ্বালা সয়না
প্রাণে যে মানেনা
আর জ্বালা সয়না
প্রাণে যে মানেনা
মশার কামড়ে ঘুম ধরেনা
আমি বন্দি কারাগারে
আমি বন্দি কারাগারে
আছি গো মা বিপদে
বাইরের আলো চোখে পড়েনা মা
আমি বন্দি কারাগারে
আমি বন্দি কারাগারে
আমি দুখের দুখী
কবে হব সুখী
তাও তো জেনে তুমি বলনা মা
আমি দুখের দুখী
কবে হব সুখী
তাও তো জেনে তুমি বলনা

মন্তব্য ১০ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (১০) মন্তব্য লিখুন

১| ২১ শে মার্চ, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:০৩

শাহিন বিন রফিক বলেছেন: এই গানটি মনে হয় একটি সিনেমার হবে।

২২ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৫:০১

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: লোক গায়ক মুজিব পরদেশীর একটি বিখ্যাত গান এটি। পরে বেদের মেয়ে জোসনা ছবিতে গান টি নেয়া হয়।

২| ২১ শে মার্চ, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:০৯

মাআইপা বলেছেন: মুজিব পরদেশী’র একটি কালজয়ী গান। আপনার লেখা অনুযায়ী খুব সুন্দর একটি গান সিলেকশন করেছেন।
আমরা যারা দেশে থাকি, তারা প্রবাসী জীবনের কষ্ট আপনাদের মত করে বুঝিনা। তবে আপনাদের এই কষ্টার্জিত টাকাতেই আমাদের অনেক কিছু হয়।
তারপরও ভাল থাকার চেষ্টা করবেন এবং ভাল থাকবেন।

২২ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৫:০৩

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ। তবে বিদেশে কামলা না পাঠিয়ে দেশেই প্রচুর কলকারখানা করা দরকার। বিদেশে কাজ করলে দেশের মান থাকে না।

তবে ডাক্তার, শিক্ষক, প্রকৌশলী এই জাতীয় কাজ বিদেশে পেলে করা যেতে পারে। তাতে দেশের সুনাম বাড়তে পারে।

৩| ২১ শে মার্চ, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৮

চাঁদগাজী বলেছেন:


২০০৩ সালে, বেগম জিয়া আমেরিকার বিএনপি'র দেয়া এক সম্বর্ধনায় বলেছিল, "আপনারা যারা বিদেশে থাকেন, আপনারা এক একজন রাষ্ট্রদুত"।

মহিলা আসলেই বাংলার শ্রেষ্ঠ ডোডো ছিলো।

২২ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৫:০১

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: এই জাতীয় কথা আমাদের সব প্রধানমন্ত্রীই বিদেশ সফরে গেলে বলেন। এটা কারো মনের কথা নয় । এটা বাস্তবে সম্ভবও নয়। একটি দেশে এক জনই রাষ্ট্রদূত থাকেন যিনি একটি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে নিযুক্ত হন।

প্রধানমন্ত্রীর ভাষণ লেখার জন্য বিশেষ প্রশিক্ষিত লোক থাকেন। তিনি তার ভাষণে যা লিখে দিনে উনি তাই পাঠ করেন। সাংবাদিক শফিক রেহমান ভালো ভাষণ লিখতে পারতেন। তার লেখা ভাষণ সুখপাঠ্য ও সুশ্রাব্য ছিল।

৪| ২২ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৬:২৭

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: বাংলাদেশের গোটা অর্থনৈতিক ভিত্তিই দাঁড়িয়ে আছে গার্মেন্টসের শ্রমিক এবং প্রবাসীদের রক্ত পানি করা শ্রমে অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রার উপরে | কিছু অতি স্মার্ট নেতা/আমলা তথ্যপ্রযুক্তির মাধ্যমে বৈদেশিক মুদ্রা যায় নিয়ে যতই ফটফট করুন না কেন, ওই সেক্টরে ধূর্ত ভারতীয় বেনিয়াদের সাথে প্রতিযোগিতায় দীর্ঘমেয়াদে টিকে থাকা অনেকটাই কষ্টসাধ্য ব্যাপার, বাংলাদেশ তো কোন ছার, চীন এবং ফিলিপাইনও এদের কাছে এই সেক্টরে পেরে উঠছে না | অবশ্য চীনের সমস্যা হচ্ছে এরা প্রযুক্তিতে ভারতের চাইতে উন্নত হয় সত্বেও ইংরেজি ভাষায় দক্ষতায় এখনো অনেক পিছিয়ে রয়েছে, বাংলাদেশেরও ঠিক একই দুর্বলতা রয়েছে তা বলার অপেক্ষা রাখে না |

যাদের কষ্টে অর্জিত বৈদেশিক মুদ্রায় দেশের শীর্ষ নেতৃত্ব থেকে শুরু করে আমলা, নেতা, পাতি নেতা, ব্যবসায়ী সহ একটি বিরাট অংশ ফায় ফুর্তি এবং ফুটানি করে থাকেন এরাই আবার ওই সকল গার্মেন্টস এবং প্রবাসী শ্রমিকদের "কামলা"গিরিকে তুচ্ছতাচ্ছিল্য করতে ছাড়েন না | আর প্রবাসী শ্রমিকরা যখন দেশে আসেন, বিমানবন্দর থেকে নামার সাথে সাথে তাদেরকে যে পরিমান নাজেহাল হতে হয় তা আর বলার অপেক্ষা রাখে না |

২৩ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৫:২৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: নির্মম বাস্তবতা ফুটে উঠেছে আপনার মন্তব্যে। আপনার প্রতিটি কথাই বাস্তবতার প্রতিফলন। আপনাকে অনেক ধন্যবাদ।

৫| ২৩ শে মার্চ, ২০১৮ রাত ১২:৩৪

প্রামানিক বলেছেন: বিদেশে যারা থাকে তারা আসলেই খুব কষ্ট করে। ধন্যবাদ পোষ্ট দেয়ার জন্য।

২৩ শে মার্চ, ২০১৮ ভোর ৫:২৮

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: প্রিয় কবি ও ছড়াকার প্রামানিক ভাইকে অনেক অনেক শুভ কামনা। আপনার লেখা আমার ভালো লাগে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.