নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

জীবনকে যারা উপভোগ করতে চান, আমি তাঁদের একজন। সহজ-সরল চিন্তা-ভাবনা করার চেষ্টা করি। আর, খুব ভালো আইডিয়া দিতে পারি।

সত্যপথিক শাইয়্যান

অন্যদের সেভাবেই দেখি, নিজেকে যেভাবে দেখতে চাই। যে বিষয়গুলো নিয়ে লেখার চেষ্টা করি- মোটিভেশনাল গল্প-কাহিনী-প্রবন্ধ, ছড়া এবং কবিতা

সত্যপথিক শাইয়্যান › বিস্তারিত পোস্টঃ

ট্রাম্পের পরবর্তী টার্গেটঃ ইরান

১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ১:১৯


মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প মিত্রদের আপত্তিকে পাত্তা দেননি। তিনি কিমের সাথে বসেছেন এবং বিশ্বকে দেখিয়েছেন নিজের ইচ্ছেকে কিভাবে প্রাধান্য দিতে হয়। এই অবস্থা যদি তিনি অব্যাহত রাখেন, ইরান যে তার পরবর্তী টার্গেট তা বলাই বাহুল্য।

বৈঠকের ফলাফল মিত্র দেশ দক্ষিণ কোরিয়াকে বেকায়দায় ফেলে দিয়েছে। ট্রাম্প দঃ কোরিয়া থেকে সৈন্য সরিয়ে নেওয়ার কথা বলছেন। বিনিময়ে উত্তর কোরিয়া পরমাণু বোমার প্রকল্প থেকে নিজেদের সরিয়ে রাখবে। আন্তরাষ্ট্র কূটনীতি'র একটি কৌশল হচ্ছে- শক্ত প্রতিপক্ষকে আঘাত করতে হলে আগে তার বন্ধু বা মিত্রদের দূরে সরিয়ে দাও।

বিশ্বদরবারে এতোদিন একঘরে হয়ে থাকা উত্তর কোরিয়া-ইরান-কিউবা নিজেদের স্বার্থেই নিজেদের মাঝে সম্পর্ক রাখতো। আর, এই তিন দেশকে সহযোগিতা করে চীন ও রাশিয়ার মতো দেশ। উঃ কোরিয়ার সাথে এই দুটো দেশের বাণিজ্যই বেশি হয়। এখন যখন উঃ কোরিয়ার সাথে চুক্তিতে পৌঁছেছেন, চীন ও রাশিয়া স্বভাবতই খুশি হবে। এখন প্রশ্ন হচ্ছে, সেই খুশি কি এমন মাত্রায় গিয়ে পৌঁছাবে যে ট্রাম্প যদি ইরানকে বাগে আনতে আক্রমণও করে বসে তা এই দেশ দু'টিকে সেই পরিস্থিতিতে নিরপেক্ষ রাখবে?

আরো প্রশ্ন আছে। ইরান ও সৌদি আরবের মাঝে শত্রুতা অনেক দিন ধরেই। ট্রাম্পের জেরুজালেমে দূতাবাস করার সিদ্ধান্ত সুন্নী মুসলমানদের দুই ভাগে বিভক্ত করে দিয়েছে। সৌদি আরব ট্রাম্পের এই সিদ্ধান্তের বিরোধিতা করেনি, অন্য দিকে তুরস্ক নেতৃত্বে কয়েকটি সুন্নী রাষ্ট্র এর বিপক্ষে অবস্থান নিয়েছে। যার প্রতিফলন ট্রাম্পের দেওয়া ইফাতার পার্টিতে সে দেশের বড় বড় ইসলামী সংগঠনগুলোর না যাওয়া। এই পরিস্থিতিতে নিজের ইমেজকে পুনোরুদ্ধার করার একটাই উপায়। আর, তা হচ্ছে, সুন্নীদের বিপক্ষ শিয়া ইরানকে কোনঠাসা করা। এটাই কি হতে যাচ্ছে?

তবে, ট্রাম্প যদি বুদ্ধিমান হোন, তার উচিৎ হবে ইরানের সাথে উঃ কোরিয়ার মতই বন্ধুত্ব করা। এতে করে বিপদের সময় চীন তার ঘনিষ্ঠ দুই সহযোগীকে কাছে পাবে না।

ট্রাম্পের হাতে বেশি সময় নেই। এর পরে তিনি কি করেন তা সবাই দেখতে চায়। তাই, পুরো বিশ্ব আরেকবার স্তম্ভিত হবার অপেক্ষায়।



মন্তব্য ২২ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (২২) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ১:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: ট্রাম্প-কিমের বৈঠকের সূত্র ধরে অনেক মার্কিনই ‘হোয়্যার ইজ সিঙ্গাপুর’ লিখে গুগলে অনুসন্ধান করেছেন ।

১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ১:৩৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: ট্রাম্প এইসব মার্কিনিদের মাঝে সিঙ্গাপুরকে পপুলার করে দিয়েছেন, সেটাই তার সাফল্য।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

২| ১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ১:৩০

সৈয়দ ইসলাম বলেছেন: ট্রাম্প ইরানের সাথে কিছুই করতে যাইবো না হে বাগনে কুটুম্ব ;)

আপাতত ঐসব বাদ দেন, কেমন আছেন বলেন?

নাহ, বাদ দিয়েন না!

১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ১:৩৫

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: আমার মনে হয়, কিছু একটা হতে যাচ্ছে, মামাজি! :)

আমি ভালো আছি। অনেক দিন পর আপনাকে পেলাম! আপনি কেমন আছেন?

আর, কি বাদ দিবো বুঝিনি!!!

ভালো থাকুন নিরন্তর।

৩| ১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ১:৪১

অর্থনীতিবিদ বলেছেন: আন্তর্জাতিক রাজনীতিতে কূটকৌশলের অভাব নেই।

১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ২:০৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: কূটকৌশলকে নিজের ও দেশের স্বার্থে ব্যবহার করতে অনেকেই পারেন না। ধন্যবাদ।

৪| ১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ১:৪২

সৈয়দ ইসলাম বলেছেন: আলহামদুলিল্লাহ আমি চমৎকার আছি; যদিও রমজানে দীর্ঘসময় রোজা রাখা আমার জন্য কষ্টদায়ক। তারপরও আলহামদুলিল্লাহ চমৎকার আছি।

বলছি, এসব ট্রাম্প বাটপারি নিয়া তুমি টেনশন না করে বাদ দেও বরং আমাদের দেশ নিয়ে একটু ভাবো।

ঈদের মার্কেট করেছো, নাকি আমার মত প্রথা মান না!

১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ২:০২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: ১৮-১৯ ঘণ্টা ধরে রোজা চার বছর রেখে বুঝেছি রোজা কাকে বলে! আল্লাহ আপনাকে যে ধৈর্য শক্তি দিয়েছেন, তার জন্যে আল্লাহর প্রশংসা করছি।

বাইরের দেশ নিয়ে অনেক দিন পর বিশ্লেষণ করলাম। আমাদের দেশে ট্রাম্পের সমর্থক বাড়বে, তাতে সন্দেহ নেই। আর, ডলারের দামের উর্দ্ধগতি দেশের জন্যে একদিক দিয়ে ভালোই হবে, বাংলাদেশের রপ্তানিকারকরা অধিক মুনাফা লাভ করবেন। এতে অধিক কর্মসংস্থান হবে।

তবে, আমাদের দেশে আমদানী বেশি। তাই, পণ্যের দাম বাড়বে বলে ধারণা করছি। সাধারণ জনগণের জন্যে তা ভালো নাও হতে পারে।

ঈদের মার্কেট এখনো করা হয়নি। আজকেই সিলেট থেকে ঢাকায় আসলাম। সময় পাচ্ছি না বাজারে যাওয়ার।

আর, এই বয়সে এসে প্রথা মানতে দ্বিধা হয়।

৫| ১৩ ই জুন, ২০১৮ ভোর ৪:০১

চাঁদগাজী বলেছেন:


ট্রাম্প ইফতার ইত্যাাদি নিয়ে মাথা ঘামায় না

১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ৯:২২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: তবে, নিজের ইমেজ নিয়ে ভাবেন এটা সত্য।

মন্তব্যে ধন্যবাদ।

৬| ১৩ ই জুন, ২০১৮ ভোর ৫:১৮

কাওসার চৌধুরী বলেছেন: আপনার লেখায় যুক্তি আছে। ইরান-মার্কিন যুদ্ধ বেঁজে যাওয়ার একটা সম্ভাবনা আছে বলে আমিও মনে করি। চমৎকার পোস্টের জন্য ধন্যবাদ ভাই। লাইক +++ দিলাম।

১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ৯:৪৬

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: লাইক ও সমর্থনে অশেষ ধন্যবাদ।

যুদ্ধ না বাধলেও একটা সমস্যা তৈরীর সমূহ সম্ভাবনা আছে।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

৭| ১৩ ই জুন, ২০১৮ সকাল ৭:৪১

সিগন্যাস বলেছেন: আন্তর্জাতিক সম্পর্ক নিয়ে আপনার জ্ঞান ভাল।আরো কিছু লিখুন।

১৪ ই জুন, ২০১৮ রাত ১২:৩২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: আসলে রাজনৈতিক পোস্ট হয়ে যায় বলে লিখি না। উৎসাহের জন্যে ধন্যবাদ।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

৮| ১৩ ই জুন, ২০১৮ সকাল ৯:৪৬

প্রামানিক বলেছেন: চমৎকার বিশ্লষণ। ইরান মার্কিন যুদ্ধ অসম্ভব কিছু না, হতেও পারে।

১৪ ই জুন, ২০১৮ রাত ১২:৩৩

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: যুদ্ধ না হলেও রাজনৈতিক মাঠ গরম হবে শীঘ্রই, এমন ধারণা করছি। ভুলও হতে পারে। ।

শুভেচ্ছা নিরন্তর।

৯| ১৩ ই জুন, ২০১৮ দুপুর ১২:০২

রাজীব নুর বলেছেন: আমার ধারনা, আমার যখন ট্রাম্প এর মতো বয়স হবে তখন আমাকে দেখতে টড়াম্পের মতোন লাগবে।

১৪ ই জুন, ২০১৮ রাত ১২:৩৫

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: হা, হা, হা! আপনার নাম তাহলে 'বাংলার ট্রাম্প'!

ভালো থাকুন নিরন্তর।

১০| ১৩ ই জুন, ২০১৮ দুপুর ১২:০৫

টারজান০০০০৭ বলেছেন: ইরান আরো আগের হইতেই টার্গেট , পরবর্তী নহে ! তবে ইরানের সাথে কিছু হইবে না ! ইরান প্রয়োজনে ইয়ে পাতিয়া দিয়া হইলেও আপোষ করিয়া ফেলিবে ! প্রয়োজনে সিরিয়ার মতন ইরানেও লাঠিয়াল রাশিয়ারে ডাকিয়া আনিতে পারে কোপাকুপি হইতে বাঁচার জন্য ! তবে ইহা হইলে বুমেরাং হইবে ! সম্প্রতি ইজরায়েল রাশিয়ার অনুমোদনক্রমে সিরিয়াতে ইরানের সামরিক স্থাপনায় হামলা চালাইয়া প্রমান করিয়াছে , সব রসুনের এক ইয়ে !

১৪ ই জুন, ২০১৮ রাত ১২:৩৭

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: খামাখা যুদ্ধে জড়িয়ে লাভ কি!

ব্যাক ফুটে গিয়েও নিজের দেশের মানুষকে অহেতুক বিপদে না ফেলা তো বুদ্ধিমানের কাজ। এক রোখামী কখনই ভালো জিনিস নয়।

মন্তব্যের জন্যে ধন্যবাদ।

১১| ১৩ ই জুন, ২০১৮ রাত ১০:১৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: তোলপার হওয়ার মত ঘটনা। আফটার অল ট্রাম কার্ড। দেখেন আর কি কি চমক তিনি দেখান। নির্বাচনে জিতেই তো চমক দেখিয়েছেন।

১৪ ই জুন, ২০১৮ রাত ১২:৪০

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: উনি ব্যবসায়ী মানুষ। যুদ্ধবাজ হয়ে নিজের ব্যবসায়িক সাম্রাজ্য হারাতে চাবেন না তিনি। হাজার হলেও ৫/১০ বছর পর আবার নিজের ব্যবসা প্রতিষ্ঠানের হাল ধরে হবে তাঁকে। এই বুদ্ধিটা তার থাকার কথা।

মন্তব্যে ধন্যবাদ বিস্তর।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.