নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সনেট কবি রচিত সনেট সংখ্যা এখন ৮৬৩(২২ সেপ্টেম্বর ’১৮ পর্যন্ত) যা সনেটের নতুন বিশ্ব রেকর্ড, পূর্ব রেকোর্ড ছিল ইটালিয়ান কবি জিয়েকমো দ্যা ল্যান্টিনির, তাঁর সনেট সংখ্যা ছিল ২৫০।

সনেট কবি

রেকর্ড ভেঙ্গে রেকর্ড গড়ার দারুণ সখ। কিন্তু এমন সখ পূরণ করা দারুণ কঠিন। অবশেষে সে কঠিন কাজটাই করে ফেল্লাম। সর্বাধীক সনেট রচনার সাতশত বছরের পূরনো রেকর্ড ভেঙ্গে নতুন রেকর্ড গড়লাম। এখন বিশ্বের সর্বাধীক সনেট রচয়িতা সনেট কবি, ফরিদ আহমদ চৌধুরী।

সনেট কবি › বিস্তারিত পোস্টঃ

পাবলিকের মোচড় ও চাঁদের জোছনা , সস-২

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:১৭



পাবলিক মোচড় দিলে ক্ষমতাবানও অক্ষম হয়ে পড়ে, কোটা সংস্কার দাবীতে সাধারণ ছাত্ররা সেটা আরেক বার দেখিয়ে দিল। সরকার আর সবাইকে কুচ পরোয়া নেহি বলে বলুক পাবলিককে সে কথা না বলুক। কি সাংঘাতিক! ছাত্রদেরকে মতিয়া রাজাকার বলেছেন, এত বড় গালি তারা হজম করে কেমন করে? হতে পারে তারা মুক্তিযোদ্ধা সন্তান নয় তাই বলে রাজাকারও নয়।দল ক্ষমতায় আনে আবার দল ক্ষমতা থেকে বিতাড়নের কারণ হয় সে জন্য সরকারকে দল সামলাতে পারতে হবে। সরকার দল সামলাতে না পারলে দেশ সামলাবে কেমন করে? এত দিন যারা পিঠ পেতে মার খেয়েছে সুযোগ পেলে তারা দৈত্যে পরিণত হবে, এ বিষয়টা সরকারের মাথায় থাকতে হবে।লালন বলেছেন, সময় গেলে সাধন হবে না, কাজেই সময় থাকতে সরকারের করণীয় ঠিক করতে হবে। অনেক ক্ষেত্রেই পাবলিকের অসন্তোষ বাড়ছে। অসন্তোষের এ স্রোতগুলো একত্র হলে সরকার ভেসেও যেতে পারে, সে জন্য সরকারের শুধু নাকে তেল দিয়ে ঘুমালে হবে না।কারণ নাকে তেল দিয়ে ঘুমালে স্রোত যখন বইতে শুরু করবে তখন এ স্রোত থামাবে কে? যারা মার খেয়েছে তাদের ভিতর প্রতিশোধের আগুন জ্বলছে, সে আগুন দাবানলে পরিনত হলে ফায়ার ব্রিগেডেও কাজ নাও হতে পারে।

প্রধানমন্ত্রী বুঝালেন ৭০% সরকারি চাকুরী যোগ্যতায় হয় কিন্তু ছাত্ররা ৯০% সরকারি চাকুরী যোগ্যতায় চায়।এখন প্রধানমন্ত্রী কোটা সংস্কার নয় বরং বতিল করার কথা বলছেন। তারচে বরং ছাত্রদের কথাই থাক। নাই মামার চেয়ে কোটার কানা মামা থাকুক।

জনাব চাঁদগাজী বলেছেন দেশকে বেকার মুক্ত করা সম্ভব। তাঁর থেকে ফর্মূলা নিয়ে দেশকে বেকার মুক্ত করার চেষ্টা করা হোক। বেকারত্বের কারণে ছেলেরা বিয়ে করছে না, মেয়েদের বিয়ে হচ্ছে না, কন্যা দায় গ্রস্থ্য পিতার দায় মুক্তি ঘটছে না। এ ক্ষেত্রে অচলায়তন তৈরী হচ্ছে। সরকার এ বিষয়ে ভাবনাহীন থাকতে পারে না। জনাব চাঁদগাজীকে টেকনোক্রেট কোটায় মন্ত্রী বানানো যায়। একজন ব্লগার মন্ত্রী হলে ব্লগাররা তাদের বুদ্ধি ব্লগে কলসি উপুড় করে ঢালবে। ফলে জাতি আরো বেশী বুদ্ধিমান হয়ে উঠবে।

কারো ঘটে বুদ্ধি না থাকলে সে দুই ঘট বুদ্ধি ধার নিতে পারে। তাই বলে রাষ্ট্র চালাতে গিয়ে বুদ্ধিহীনেরমত কাজ করলে চলে না।

এত্তগুলা ছাত্র-ছাত্রী মিলে সরকারকে একটা ফ্রি পরামর্শ যখন দিয়েই ফেলেছে তখন সরকারের আর কথা না বাড়িয়ে সেটা বরং মেনে নেওয়াই শ্রেয়। কারণ এগুলোতো আমাদেরই ছেলেপিলে। ওদের মনভাবটাওতো আমাদের বুঝা দরকার। কাজেই সরকারের আর অহেতুক অভিমান নয়।

আমার এক ছাত্র গতরাতে ফোন করে বললো, স্যার, চাইলাম ফুল, সরকার দিল বাগান।কিন্তু সেটা রাগ হয়ে না দিয়ে খুশী মনে দিলেই ভালো হতো।

সভার শুভবুদ্ধিততে দেশ ও জনতার কল্যাণ হোক ।

# ক্ষমতার ঘট

ঝাঁকে ঝাঁকে আসে তারা রাস্তার উপর
চাকুরী বৈসম্য দূর ন্যার্য কামনায়
খালি হাতে ঘরে তারা ফিরতে না চায়
অনঢ় মনেতে রোখে যত আসে ঝড়।
দির রাত কেটে যায় কাঁপিয়ে শহর
সরকার ভাবে বসে হয়ে নিরুপায়
কি ভাবে এ ঝড়টারে রুখে দেয়া যায়
বলে বাপু হেথা কেন? ঘরে বসে পড়!

তারা নাহি শুনে কথা স্রোতে বয়ে চলে
দাবায়ে রাখতে পারে নেই কোন বাঁধ
সম্মুখে সকল রুখে তারা কথা বলে
দাবী পূরণে ফিরবে মনে সুধু সাধ।
সরকার ভাবে এ যে কি জ্বালা উদ্ভট
আন্দোলনে কেঁপে উঠে ক্ষমতার ঘট।


# আয়ত অচল

হতচ্ছাড়া দেশটার নেই কোন গতি
বেকারে বেকারে কত বেড়েছে বিকার
তরুণেরা হয়ে কত কষ্টের শিকার
পায়না তালাসে কোন বাঁচার সম্বল।
কত মনে সহ্য হয় এই অধঃগতি
মাথার উপরে মেঘ জমেছে চিন্তার
নিত্য দিন পেয়ে তারা তিক্ত উপহার
সৃষ্টি হয় মন মধ্যে আয়ত অচল।

ছেড়েদে মা কেন্দেঁ বাঁচি চারি দিকে ‘নেই’
কোথা গেলে পাবে কিছু মনতুষ্টি জন্যে
চারিদিকে দেখা যায় অন্ধকার সেই
মরে যেতে মন চায় সে যার সৌজন্যে।
ঘর ছেড়ে নিত্য তারা ফিরে আসে বাড়ি
হতাশা তাদের মারে সর্বদা আছাড়ি।

মন্তব্য ৩০ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৩০) মন্তব্য লিখুন

১| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:২৬

সৈয়দ তাজুল বলেছেন: সভার শুভবুদ্ধিততে দেশ ও জনতার কল্যাণ হোক এটাই কামনা

একমত

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৩৬

সনেট কবি বলেছেন: প্রথম মন্তব্যের জন্য অভিনন্দন জনাব তাজুল।

২| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৩৬

এখওয়ানআখী বলেছেন: ছাত্রছাত্রীদের স্পিরিটটা সত্য ও সুন্দরের সমন্বয় তাই এটি ধন্যবাদের যোগ্য। কিন্তু সরকার ও বিরোধীদলের স্পিরিটটা কিসের তা আমি বুঝতে পারিনা?

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৩৯

সনেট কবি বলেছেন: কিন্তু ছাত্র-ছাত্রীরা মাননীয় শিক্ষাগুরু ভিসির সাথে যা করেছে সেটা কিন্তু মোটেও সমর্থনযোগ্য নয়।

৩| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৪০

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: পাবলিকের দেয়ালে ঠেকে গেলে এমনই মোচড় দেয় - আর রাজাবাদশারা তখন জনগণের পালস বা নাড়ির স্পন্দন একটু হলেও টের পায় |

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৪৩

সনেট কবি বলেছেন: স্বামীজি একদম ঠিক কথা বলেছেন। বিষয়টা সরকারের বোধগম্য হলেই হয়।

৪| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৮:৫৬

হাফিজ বিন শামসী বলেছেন:
মুক্তিযোদ্ধারা আমাদের মাথার মুকুট। মুক্তিযোদ্ধাদের সম্মানার্থে আমরা তাদের সন্তান,নাতি-নাতনীদের সম্মান করি,ভালবাসি।তারা এ সবের প্রাপ্য। খেয়াল রাখতে হবে তাদেরকে সম্মান করতে গিয়ে অন্য কাউকে অসম্মানী বা ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত করা না হয়। যদি এমন হয় ।তবে তা সম্মানিত ব্যক্তিদের অসম্মানের কারণ হয়ে দাঁড়াবে।

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:০৩

সনেট কবি বলেছেন: ১০০% সঠিক কথা বলেছেন। এভাবেই সবাইকে মুখ খুলতে হবে।মুক্তিযোদ্ধাদের অযোগ্য পোষ্যের ভার জাতির ঘাড়ে চাপানো কোন সঠিক কাজ হতে পারে না। কিছুতেই না।

৫| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:২২

রাজীব নুর বলেছেন: জনাব চাদগাজী বেশ জোরালো ভাবেই সুচিন্তিত মতামত দিচ্ছেন চাকরি ক্ষেত্র তৈরি করা। আমিও মনে করি চাকরি বাজার উন্নত করলেই অনেক সমস্যার সমাধান হয়ে যাবে।

দেশের কয়েক লাখ মানুষের কাছে যে পরিমান টাকা আছে- সেই টাকা দিয়ে বেকার সমস্যার সমাধান করা যায়।

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ৯:২৫

সনেট কবি বলেছেন: জনাব চাঁদগাজীকে ডেকে সরকারের কাজে লাগানো দরকার। অকাজের একগাঁদা লোকের চেয়ে কাজের একটা লোকও ঢের ভালো।

৬| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:১৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


আমি আলাদাভাবে কিছু বলিনি, ব্লগে আমরা আলাপ করছি যে, ৪৭ বছর পুর্বে যে সাময়িক সমাধান হিসেবে "কোটা" দেয়া হয়েছিল, সেটা এত বছর কিভাবে টিকে থাকলো? কারণ, ৪৭ বছরে, জনসংখ্যানুসারে চাকুরী সৃষ্টি হয়নি, সব সময় বেকারত্ব বিরাজ করছিলো; এখন শিক্ষিত বেকারত্ব চরমে উঠেছে, ইহা জাতির জন্য অভিশাপ।

৪৭ বছর দেশে বেকার থাকলে, এটা কি দেশ? শিক্ষিত বেকার থাকাটা সরকারের জন্য অপরাধ।

যাক, দেশের মানুষের কাছে যেই পরিমাণ ক্যাশ আছে, ১ কোটী ১০ লাখ প্রবাসী থেকে যেই পরিমাণ রেমিটেন্স আসে, দেশের মানুষের যেই পরিমাণ দক্ষতা আছে, ও আমাদের জাতির জীবনযাত্রা যত সহজ, খুব স হজেই সবার জন্য চাকুরী সৃষ্টি সম্ভব।

প্রাইম মিনিষ্টার রাগ হয়ে বলুক, বা চাপে পড়ে বলুক, কোটা সংস্কারের সাথে সাথে উনাকে চাকুরী সৃষ্টি করতে হবে। উনার উপর এখন কোন চাপ নেই, উনি নিজকে চাকুরী সৃষ্টিতে নিয়োজিত করুক।

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:২৯

সনেট কবি বলেছেন: বাস্তবিক, বর্তমান প্রধানমন্ত্রী দীর্ঘকাল চাপহীন ছিলেন বা আছেন। এ সুযোগ তাঁর কাজে লাগানো দরকার। জনগণ খুশী থাকলে তারা তাঁকে ক্ষমতা থেকে তাড়াতে চাইবে না। কাজেই ক্ষমতা পাকাপোক্ত করতে তাঁর জন সেবার মান বাড়ানোর দিকে মনোযোগ দেওয়া দরকার। এর জন্য তাঁর দরকার যথার্থ অর্থে কিছু বুদ্ধিমান লোকের। তো এমন লোক পেয়েও হাতছাড়া করা সুবুদ্ধির পরিচায়ক নয়।

৭| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:১৫

চাঁদগাজী বলেছেন:



এই প্রতিবাদের দরকার ছিলো, শেখ হাসিনা ঘুমাচ্ছিলেন, উনার ঘুম ভেংগেছে।

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:৩১

সনেট কবি বলেছেন: এখন তিনি আবার ঘুমিয়ে না পড়লেই হয়। আমরা চাই তিনি জেগে থাকুন। আর সমস্যা সমাধানে সফল হোন। কারণ তাঁর সাফল্য আমাদেরো সাফল্য।

৮| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:১৬

অনন্য দায়িত্বশীল আমি বলেছেন: কবি ভাই একটু কবিতার মাধ্যমে প্রকাশ করলে ভালো হতোনা? চাঁদগাজী হলো মহা পন্ডিত, কোন বিষয় নেই যে চাঁদগাজী জানেনা!

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:৩৪

সনেট কবি বলেছেন: সব ব্যাপারে তিনি ভাবেন। ভাবনা থেকে জানার পরিধি বাড়ে। এভাবে মানুষ পন্ডিত থেকে মহা পন্ডিত হয়ে উঠে। আপাতত ভাবনার দৌড়ে তাঁর থেকে কেউ এগিয়ে নেই বলেই মনে হয়।

৯| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:৩৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার চেয়ে ভুয়া মুক্তিযোদ্ধার সংখ্যা অন্ততঃ ৫ গুণ বেশী হবে। ভুয়াগুলোকে ছাঁটাই করে প্রকৃ্ত মুক্তিযোদ্ধাদের (নাতিপুতিদের নয়) সুযোগ সুবিধা আনুপাতিক হারে বাড়ানো যেতে পারে।
দাবী ন্যায্য হলে তা আপামোর জনতার গ্রহণযোগ্যতা পায়। সরকার বিবেচনা করতে বাধ্য হয়। তবে সব অর্জনের পেছনেই কিছু কিছু বিসর্জন প্রয়োজনীয় হয়ে পড়ে, যেমনটা এবারেও হয়েছে।

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:৪৫

সনেট কবি বলেছেন: তারমানে চারগুণ বেশী ভুয়া সুযোগ পাচ্ছে একগুণ প্রকৃত মুক্তিযোদ্ধার পোষ্যদের সাথে। আর পোষ্যও সন্তান পর্যন্ত হওয়াই যুক্তি সংগত। নাতি-পুতি থেকে নীচের দিকে নামতে থাকলেতো সমস্যা।
সরকারের সব সময় নিজেদের কথা বহাল রাখার অভ্যাস ভালো নয়। সরকারের গণদাবীর প্রতিও শ্রদ্ধা থাকতে হয়। নতুবা সে সরকার জনগণের সরকার হয় কেমন করে?

১০| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:৩৯

কাওসার চৌধুরী বলেছেন: ভাল লেখা। পড়লাম। যুক্তি আছে।

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১০:৫১

সনেট কবি বলেছেন: সরকারের লোকদের একার বুদ্ধি আছে শুধু এটা ভাবলে হয় না। অন্যদেরও বুদ্ধি থাকতে পারে এটাও ভাবতে হয়। ভালো বুদ্ধি যেথা থেকেই পাওয়া যাক সেটা কাজে লাগতে পারলে জাতির মঙ্গল হয়।

১১| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১১:০৩

মোস্তফা কামাল পলাশ বলেছেন:
আমি একটা রাজনৈতিক দল গঠন করা শরু করেছি ব্লগারদের নিয়ে। এই দল আগামী নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠটা পেলে ব্লগার চাঁদগাজী ভাইকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নিয়োগ দেওয়ার জোর দাবি জানিয়েছে সামু ব্লগের একাধিক ব্লগার। জনাব চাঁদগাজি ভাই এর প্রধানমন্ত্রী হওয়ার বিষয়ে আপনার মন্তব্য জানিতে পারিলে ব্লগাররা বাধিত থাকিবে।

১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১১:১১

সনেট কবি বলেছেন: তাঁর প্রধানমন্ত্রী প্রস্তাবকদের মধ্যে আমিও একজন ছিলাম মনে হয়। সে যাইহোক হতভাগা জাতিকে খাদের ভিতর থেকে টেনে তোলা তাঁর দৃষ্টিতে খুঁব সহজ। তো যারা এ কর্ম সম্পাদন করতে গিয়ে গলদঘর্ম তথাপি সাফল্যের মুখ দেখছেন না তাদের উচিৎ হবে জনাব চাঁদগাজীর জন্য রাস্তা ছেড়ে দেওয়া। যদি বাস্তবিক তাঁরা আত্ম প্রেমিক না হয়ে প্রকৃত দেশ প্রেমিক হয়ে থাকেন। আর যদি সেটা তারা না পারেন তবে অন্তত জনাব চাঁদগাজীর মেধা ও যোগ্যতা তাঁরা কাজে লাগাতে পারেন।

১২| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ বিকাল ৩:৪১

প্রত্যয় তাওিহদ বলেছেন: আপনার কথার সাথে সহোমত পোষন করছি।

১৩ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১১:৩৪

সনেট কবি বলেছেন: প্রপিক দেখে আপনার সহমত ভালোই লাগছে।

১৩| ১২ ই এপ্রিল, ২০১৮ রাত ৯:৪১

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: জনতার শক্তি কী জিনিস তা দেখিয়ে দিল ছাত্র/ছাত্রীরা। যেই কাজ বি এন পি করতে এখনও সাহস পায় না সেই কাজ (রানিং মন্ত্রীর কুশপত্তলিকাতে জুতা মারা) তারা করেছে। যেই ছাত্রলীগের একটু কিছু করা যেত না সেই নেত্রীরে জুতার মালা পরানো হয়েছে। দল ক্ষমতায় থাকতেই এই অবস্থা, না জানি ক্ষমতা থেকে চলে গেলে কী অবস্থা হয়...

১৩ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১১:৪১

সনেট কবি বলেছেন: ক্ষমতায় থেকে গেলে উপায় থাকবেনা যদি জনগণকে সন্তুষ্ট করে যেতে না পারে। যে ক্ষমতায় যায় সে জনসম্পদকে বাপদাদার সম্পদ মনে করে। এমন মনে করা যে নেহায়েত ভুল সেটা তারা ক্ষমতায় থাকতে বুঝতে পারে না। এই যে দশ বছর ক্ষমতায় থাকা প্রধানমন্ত্রী এখন জেলে তার জন্য জনগণের কোন মাথা ব্যাথা আছে বলে মনে হয়না। কারণ তারা জনগণের ব্যথা করার মত কোন মাথা তৈরী করতে পারেনি। কাজেই ব্যথা আর কি করবে। এরা আবার ক্ষমতায় এসে শুধু এদের মতো করে দেশ চালাতে চাচ্ছে। জনগণের ইচ্ছার কোন মূল্যায়ণ করছে না। তার ফল কিছুটা হলেও তারা দেখে ফেল্ল।

১৪| ১৩ ই এপ্রিল, ২০১৮ ভোর ৫:৫১

যুক্তি না নিলে যুক্তি দাও বলেছেন:



দুর্দান্ত পোস্ট পড়লাম। মন্তব্য প্রতিমন্তব্য বেশ লাগল

১৩ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১১:৪৩

সনেট কবি বলেছেন: কিন্তু ঠিক যে জন্য পোষ্ট দেওয়া সেটা না হলে পোষ্ট দেওয়াটাই বেকার থেকে যাবে। সব চেয়ে বড় কথা আমাদের সরকারের বোধদয় ঘটুক। এখন বোধদয় না ঘটে উল্টা তারা বে-বোধা হয়ে পড়লেতো বিপদ!

১৫| ১৩ ই এপ্রিল, ২০১৮ ভোর ৬:১৭

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: মোস্তফা কামাল পলাশ বলেছেন:
"আমি একটা রাজনৈতিক দল গঠন করা শরু করেছি ব্লগারদের নিয়ে। এই দল আগামী নির্বাচনে সংখ্যাগরিষ্ঠটা পেলে ব্লগার চাঁদগাজী ভাইকে প্রধানমন্ত্রী হিসাবে নিয়োগ দেওয়ার জোর দাবি..."


এক নোবেল বিজয়ী বাঙালি ভদ্রলোক রাজনৈতিক দল গঠন করার খায়েশ প্রকাশ করে তার নিজের গড়া প্রতিষ্ঠান থেকে বহিস্কৃত: হয়েছিলেন | আপনার তো কম সাহস নয়, আপনার রাজনৈতিক দল গঠনের খায়েশের কারণে চাঁদগাজী এবং অন্যান্য ব্লগারসহ আপনি নিজেকে সামু থেকে বহিষ্কারের ঝুঁকি নিতে চান ? ;) আপনার এই দু:সাহসের কারণে আমরা আম জনতা সামুর অনেক সেলিব্রিটিদের লেখনীর বিপ্লব থেকে বঞ্চিত হতে পারি | তাই আপনার এই উদ্যোগে আমি ভেটো প্রদান করলাম | :)

১৩ ই এপ্রিল, ২০১৮ সকাল ১১:৪৬

সনেট কবি বলেছেন: কিন্তু আম জনতা এখন ভয়কে জয় করতে শিখছে। অবশেষে তারা ভয় শূণ্য হয়ে পড়লে যে কোন কিছুই করে ফেলতে পারে। বিশেষ করে জনগণ যদি জীবন বিলাতে প্রস্তুত হয়ে পড়ে তখন তাদের ঠেঁকিয়ে দেওয়ার সাধ্য কারো থাকবে না। কাজেই সময় থাকতে সরকারকে পরিস্থিতি বুঝে কাজ করতে হবে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.