নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

কমবুঝি কিন্ত কিছু একটা নিয়ে বোঝার চেস্টা করি তাই যত পারি বই পড়ি ।

ঠ্যঠা মফিজ

ঠ্যঠা মফিজ › বিস্তারিত পোস্টঃ

দ্যা সামুরাই কথন

১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:২৯


সামুরাই হল জাপানের প্রাক-শিল্পাঞ্চল যুগের সামরিক বাহিনীর সদস্য যা অনেকের কাছে জাপানী যোদ্ধা হিসেবেও পরিচিত। এর অন্য আরেকটা নাম আছে সেটা হল বুশি। জাপানী ক্রিয়াবাচক শব্দ সাবুরাই থেকে সামুরাই শব্দটির উৎপত্তি ঘটেছে। এর অর্থ হচ্ছে কাউকে সেবা করা। ইদো শাসনামলে সামুরাই শব্দটির সর্বশেষ প্রয়োগ হয়েছিল। বিখ্যাত অনুবাদক উইলিয়াম স্কট উইলসনের মতে, ১০ম শতকে জাপানী কবিতার প্রাথমিক সংকলন গ্রন্থ কোকিন ওয়াকাশু তে প্রাচীন এবং আধুনিককালের সংমিশ্রণের গড়া জাপানী কবিতায় এর প্রথম উপস্থিতি লক্ষ্য করা যায়। একজন সামুরাই অনেক ধরনের অস্ত্রশস্ত্র ব্যবহার করার অধিকারী ছিলেন। তার মধ্যে তাদের কাছে জনপ্রিয় অস্ত্র হিসেবে রয়েছে কাতানা নামীয় লম্বাটে ধরনের তলোয়ার। ডান হাতেই তারা অস্ত্র ধারণ করে থাকেন।প্রতিটা সামুরাই তারা নিজেদের কাছে দুইটি করে তলোয়ার রাখেন। শান্তিকালীন সময়ে কাতানা এবং ওয়াকিজাশি নামীয় ছোট ধরনের তলোয়ার বহন করেন। কিন্তু যুদ্ধের সময়ে তারা লম্বা তলোয়ার তাচি এবং ছোট তলোয়ার টান্তো রাখেন। প্রাচীন ইউরোপের নাইটদের তুলনায় তারা কম অস্ত্র বহন করে থাকেন আর এটা
তাদের অন্যতম একটা গুন।

তলোয়ার হল উপমহাদেশের এক ধরনের বাঁকা অসি যা আধুনিক বাংলাদেশ, ভারত, পাকিস্তান, আফগানিস্তানে পাওয়া যায়।এক সময়এই উপমহাদেশে যুদ্ধ ক্ষেত্রে তলোয়ার ছিল প্রধান যুদ্ধ অশ্র।তলোয়ার অন্যান্য বাঁকা অসি যেমন আরব সাইফ, ফার্সি শমসের, তুর্কি কিলিজ এবং আফগান পুলয়ার এর পাশাপাশি উদ্ভূত, এই সব বাঁকা অসিগুলো উদ্ভূত হয়েছে মধ্য এশিয়ার তুরস্কের উন্নত বাঁকা অসি থেকে।
একেকজন সামুরাই বিশ্বাস করেন যে তলোয়ারই তার আত্মাকে ধারন করে আছে,আর তাই তারা তলোয়ারকেই সবচেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ জিনিস হিসেবে মনে করেন। তাদেরকে যথোপযুক্ত সম্মান না করলে তাদেরকে যে কারোর সাথেই যুদ্ধ করার অনুমতি দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেকটি তলোয়ারই পরীক্ষা করার জন্য তৈরী করা হয়েছে। সেজন্যে তলোয়ার ধারক যে-কোন অপরাধীকে হত্যা করার মাধ্যমে তলোয়ারের ধারালো অবস্থা পর্যবেক্ষণ করতে পারেন। যোদ্ধার করণীয় বা বুশিদোর নীতি অনুসরণ করে সামুরাই নিজ জীবন সচল রাখেন। প্রভুর প্রতি আনুগত্যবোধ, আত্মনির্ভরশীল, নিয়মানুবর্তিতা, নৈতিক আচরণ ইত্যাদির কারণে যুদ্ধক্ষেত্রেও সম্মানিত হয়ে থাকেন। যখন সামুরাই তার প্রভু বা শিক্ষককে হারান তখন তা দাইমিও নামে আখ্যায়িত করা হয় এবং তিনি রোনিন নামে পরিচিত হন। পরাজয় বা বুশিদো নীতি মেনে না চলার কারণে সামুরাই অসম্মানিত হলে তাকে অবশ্যই সেপ্পুকু নামের আনুষ্ঠানিক আত্মহত্যা করতে হয়। তাদের কাছে অসম্মানের চেয়ে মৃত্যুই অধিকতর শ্রেয়। যুদ্ধক্ষেত্রে সেপ্পুকু নামের আনুষ্ঠানিক আত্মহত্যায় শত্রুর হাতে ধৃত হবার পূর্বে তারা তাদের পেট কেটে ফেলেন।

মন্তব্য ১৬ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (১৬) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৩৬

মো: নিজাম উদ্দিন মন্ডল বলেছেন: বাহ্, দারুন এক বিষয়ে লিখেছেন। সামুরাই আমার পছন্দের চরিত্র। দ্যা লাস্ট সামুরাই দেখেছেন??

এবার নিনজা সম্পর্কে লিখুন।

১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৪১

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: এক সময় সামুরই,নিনজা এবং কম্ফু ক্যারাটি মুভিগুলো আমার খুব প্রিয় ছিল। এখন সময়ের অভাবে সব প্রিয় বিষয়গুলো
অপ্রিয় হয়ে যাচ্ছে।এইযে যেমন দেখব দেখব বলে এখনো দ্যা লাস্ট সামুরাই মুভিটা দেখা হয় নাই ।ধন্যবাদ ভাই নিজাম।

২| ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৩৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


কমবুদ্ধির গৌরবের সময় ছিল সামুরাইদের যুগ।

১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৪৩

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই চাঁদগাজী। ঐ সময়ের মানুষদের সত্যিকার অর্থে ছিল প্রখর বুদ্ধি।

৩| ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১১:১৭

মো: নিজাম উদ্দিন মন্ডল বলেছেন: চাঁদগাজী রাজনীতি নিয়ে যা খুশি বলুক, কিন্তু সমুরাই নিয়ে উল্টা পাল্টা বললে খবর আছে।X(X(

১৮ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৪৩

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: ওই লোকের কথা বলে কোন লাভ নেই।

৪| ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১১:২৬

রাজীব নুর বলেছেন: এরকম পোষ্ট সামুতে আরেকটা পরেছি।

১৮ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৪৫

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: হয়ত বা পড়তে পারেন। কেন পৃথিবীতে একই চেহারার দুটি মানুষ হতে পারে না।

৫| ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১১:৩৭

কৃষ্ণ কমল দাস বলেছেন: এদের সম্পর্কে আমি হালকা জানতাম......আজ আর একটু জানলাম

১৮ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৪৬

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: ধন্যবাদ।

৬| ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১১:৫৩

গড়ল বলেছেন: ভাই আপনে যে ছবি দিয়েছেন সেটা সামুরাইদের অস্ত্র না, সামুরাইদের অস্ত্র হল এটা



@মো: নিজাম উদ্দিন মন্ডল: নিনজা হল প্রাচীন জাপানীজ কমান্ডো বাহিনী।

১৮ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৪৭

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই সরল মনের গড়ল। ;)

৭| ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ দুপুর ১২:৫৯

মো: নিজাম উদ্দিন মন্ডল বলেছেন: @গড়লঃ সামুদের আসল অস্ত্রর ছবি জন্য ধন্যবাদ। উপর থেকে ২য় টি কার্টুনে ব্যবহৃত হয়।

আমি সামুরাইদের প্রতি দুর্বল। ছোটবেলা শুধু সামুরাই এক্স দেখতাম বলে বন্ধুরা খ্যাপাতো "কীরে এক্স দেখবি না?:P এখনো সামু ব্লগ বললেই সামুরাইদের কথা মনে পড়ে। আপনার কথামত পেয়ে গেলাম নিনজা

১৮ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৪৭

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: :P

৮| ১৭ ই মার্চ, ২০১৮ দুপুর ১:১১

লর্ড অফ দ্য ফ্লাইস বলেছেন: ESPN চ্যানেলে মার্শাল আর্টের একটা প্রতিযোগিতা দেখেছিলাম। বিভিন্ন ব্যাকগ্রাউন্ডের প্রতিযোগী একজন করে এসে বিভিন্ন কসরত দেখায়। প্রথম হয় এক কিশোর সামুরাই। তার স্কিল দেখে একশন মুভির দৃশ্যগুলিকে আর অবাস্তব লাগে না।

১৮ ই মার্চ, ২০১৮ সকাল ১০:৪৮

ঠ্যঠা মফিজ বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.