নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সাইড-লাইনে দাঁড়িয়ে মজা দেখে যাই

যূথচ্যুত

“কিছু মনোগ্রাহী কথা যা আপনাকে এই ব্লগের প্রতি আকৃষ্ট করবে”

যূথচ্যুত › বিস্তারিত পোস্টঃ

একটি বলশেভিক রূপকথা এবং তৎপরবর্তী...

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:০৮




ডি স ক্লে ই মা র

এই কাহিনীর সমস্ত চরিত্র কাল্পনিক। জীবিত বা মৃত কোন ব্যক্তি বা ঘটনার সাথে মিল পাওয়া গেলে তা নিতান্তই অনিচ্ছাকৃত ও কাকতালীয়।





সে আজ থেকে অনেক দিন আগেকার কথা। উত্তর গোলার্ধে বিশাল আয়তন ব্যাপী এক ব্লগ ছিল। বাংলা ভাষার বৃহত্তম ব্লগ। নাম ছিল রাশিয়া, ওরফে রাশু।

ঐতিহাসিকেরা বলেন, অনেকদিন ধরেই নাকি রাশু-তে ছড়ি ঘোরাচ্ছিল জারতন্ত্র। অবশ্য সব ঐতিহাসিকই ওই অভিধায় বিশ্বাসী নন। কতিপয় চরমপন্থী ইতিহাসবাদ একেই চোরতন্ত্র নামেও অভিহিত করেছেন। সে যাই হোক, জারতন্ত্রের স্বেচ্ছাচারিতা, অত্যাচারে ও নিপীড়নের ঠেলায় ব্লগবাসী যারপরনাই অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছিলেন।

বেশ কিছু বিপ্লবী ব্লগার রাশুর শাসনব্যবস্থায় একটা বড় রকমের পরিবর্তন দাবী করলেন। তাঁরা এখানে ওখানে নানারকম পোস্ট দিয়ে জনগনকে জারতন্ত্রের কুফল সম্পর্কে সচেতন করার প্রয়াস চালান।

অবশেষে আসে সেই দিন! ১৯১৭’র ১০ই নভেম্বর (একোডিঙ টু গ্রেগরিয়ান ক্যালেন্ডার কিন্তু, কেমন)। তো নভেম্বরের সেই পুণ্যলগ্নে লেনিন (সঙ্গত কারণেই নাম পরিবর্তিত)-এর নেতৃত্বে জারতন্ত্র বিরোধীরা একজোট হয়ে একটি পোস্ট দেন। সেখানে জারের অত্যাচারের চিত্রাবলী প্রামান্য দলিলসহ তুলে ধরা হয়। যা দেখে বিশ্ববাসী (আচ্ছা বেশ। ব্লগবাসী) বিস্ময়ে হতবাক, আকস্মিকতায় স্তম্ভিত এবং বেদনায় মূক হয়ে পড়েন। রাষ্ট্রসংঘ (এই গল্পের, এই জায়গায় এসে নন-কম্যুনিস্ট ঐতিহাসিকেরা—ইতিহাস বিকৃত করা হচ্ছে মর্মে একটা কোলাহল তুলে থাকেন) থেকে, এ বিষয়ে অবিলম্বে ব্যবস্থা গ্রহনের আশ্বাস দেওয়া হয়।

আশ্বাসমতো ১১ই নভেম্বর রাত্রি অলমোস্ট ১০ঘটিকায় সমগ্র ব্লগ-এর প্রতিটি কোন থেকে কপি-পেস্ট সুযোগ উঠিয়ে নিয়ে জারতন্ত্র-কে সমূলে উচ্ছেদ করা হয়। পেত্রোগাদ-এর অ্যাকাউন্ট থেকে একটি পোস্ট এর মাধ্যমে বলশেভিক-রা তাঁদের বিজয়-সংবাদ ঘোষণা করেন।

কিন্তু সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার প্রায় সাথে-সাথেই সচেতন বিরোধিরা রাশু মুখর করে তোলেন।

রাশুতে মাতম ছেয়ে গেল।

২৪ ঘন্টার মধ্যেই রাশুর ইতিহাসের সর্বোচ্চ সংখ্যক পোস্ট রিলিজ করে সকলেই একবাক্যে সায় দিলেন—হ্যাঁ। এ বিপ্লবের ফলে রাশুর পোস্ট-এর সংখ্যা ভয়ানক রকম কমে যাবে।

স্বাভাবিক ভাবেই রাষ্ট্রসংঘ থেকে বিষয়টি পুনর্বিবেচনা করে দেখার ভরসা দেওয়া হয়।

কিন্তু হায়!

রাষ্ট্রসংঘের কাজকে তুমুল স্পিডে বালখিল্য দেগে দেওয়া হল।

যে ব্যক্তি সর্বশেষ পোস্ট করেছিলেন প্রায় বছরতিনেক আগে তিনি পর্যন্ত হন্তদন্ত হয়ে ছুটে আসলেন। এবং জানালেন, এ দুর্ঘটনার প্রেক্ষিতে তিনি আগামীদিনে পোস্ট লিখতে অপারগ।

অনেকে সভা ডেকে জানাল, জারতন্ত্র-কে মোটের ওপর তেমন ক্ষতিকারক বলা চলে না। কারণ জারের অত্যাচার ছিল মূলত সিলেক্টিভ, সামগ্রিক কিছু নয়। কাজেই নগন্য-সংখ্যক প্রলেতারিয়েতের মুখ চেয়ে একেবারে জারতন্ত্রের-ই অবসান ঘটিয়ে দেওয়া একটি অপরিণামদর্শী সিদ্ধান্ত বই কিছু নয়।

জারতন্ত্রের প্রকৃত এবং সহিহ্‌ বিলোপ যে পাগলের প্রলাপ ব্যতীত আর কিছু নয় এ নিয়ে সর্বমোট সতেরোটি গবেষণাপত্র পোস্ট করা হয়। জারেরা যে কী কী উপায়ে নিজেদের শিকড় বাঁচিয়ে রাখতে পারেন এবং তা ছড়িয়ে পুনরায় ডালপালা মেলতে পারেন তা নিয়েও অনেকানেক মনোজ্ঞ প্রবন্ধ লেখা ও পুনঃপোস্টিত হয়।

কেহ বলেন, তিনি নিতান্ত আম নাগরিক। এতদসত্ত্বেও তিনিই স্বয়ং অন্তর্জালের সহায়তায় সাড়ে চার মিনিটের মধ্যে “সমাজতন্ত্রের মাঝারে পুঁজিবাদ নিয়ে আসুন” শিখে ফেলেচেন। কাজেই পেশাদার জারেরা যে তা নিয়ে কতদূর অগ্রসর হতে পারে সে ব্যাপারে তিনি উদ্বেগ প্রকাশ করেন।

রাশুর মন্তব্যঘরে কপি করা যাচ্ছেনা দেখে অনেকেই দুঃখ প্রকাশ করিলেন। জানালেন মন্তব্য-খুপরিই ছিল তাঁদের বাংলা বলার একমেবাদ্বিতীয়ম স্থান। এরপর থেকে তাঁরা আর কোনদিন কোনও স্থানেই বাংলা বলতে পারবেন না বলে ভেঙে পড়েন।

কেহ বলিল, তিনি দুই সেকেন্ডেই সমাজতন্ত্রের বাইশটি ভুল বের করে ফেলেচেন। কাজেই আগামী দুই-বৎসর এরূপ চলিতে থাকিলে সমাজতন্ত্র প্রতিষ্ঠার কী পরিমান খেসারত দিতে হতে পারে এ বিষয়ে তিনি বিশ্ববাসী-কে ভেবে দেখতে অনুরোধ করেন।

রসিকজনে পোস্ট দিলেন- “জারতন্ত্রের উচ্ছেদ করতে গিয়ে রাশু ব্যাজারতন্ত্র নিয়ে এসেছে”। সেই পোস্ট সর্বোচ্চ পঠিত হল ও সর্বাধিক লাইক কামাইল।

এমতাবস্থায় চারিদিক যখন বিষম হাহাকার ও মহা শোরগোলে ছেয়ে গিয়েছে, চতুর্দিকে অতি গাঢ় কুজ্ঝটিকা ব্যাপ্ত হইয়াছে, নবকুমার আহরণযোগ্য কাষ্ঠ খুঁজিয়া পাইতেছেন না, ঠিক সেই মোক্ষম মুহূর্তে রাষ্ট্রসংঘ প্রত্যাশামাফিক সমাজতন্ত্রে কতিপয় মডিফিকেশন নিয়ে আসলেন। এবং তাতে করে রাশুতে জারতন্ত্র ও পুঁজিবাদ-সম্ভূত সমস্যা দুইকেই মোটামুটি সামলে নেওয়া গেল।

অতঃপর সকল ব্লগার সোভিয়েট রাশু দীর্ঘজীবী হউক শ্লোগান তুলিয়া সুখে-স্বাচ্ছন্দে ব্লগিং করিতে থাকিল।

আমার কথাটি ফুরোল ইত্যাদি...




মন্তব্য ৫৪ টি রেটিং +১৩/-০

মন্তব্য (৫৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:৪১

জুন বলেছেন: অতপর সকল ব্লগার ------- ব্লগিং করিতে থাকিল
কোথায় স্বাচ্ছন্দ্য কোথায় সুখ দেখলেন যুথচ্যুত :-* উপরের লাইনটিতো কপি করতে পারলাম না,
অনেক কষ্টে কপি করতে হলো :(
সামুর সাম্প্রতিক একটি বিষয়ের উপর উপভোগ্য একটি লেখায় +

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৩২

যূথচ্যুত বলেছেন: আহা! কপি যখন করছেন, তখন একটু কষ্ট তো হবেই ;)

২| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:৪৫

মোহেবুল্লাহ অয়ন বলেছেন: যে ব্যক্তি সর্বশেষ পোস্ট করেছিলেন প্রায় বছরতিনেক আগে তিনি পর্যন্ত হন্তদন্ত হয়ে ছুটে আসলেন। এবং জানালেন, এ দুর্ঘটনার প্রেক্ষিতে তিনি আগামীদিনে পোস্ট লিখতে অপারগ।

এই ব্যাটারে আমার থাপ্রাইতে মন চাইছিল। পোস্ট দিয়া একেবারে জমিদার হইয়ে গেছে। ভাব কি! X(

যাই হোক, আপনার লেখা পইড়া অনেক মজা পাইছি। মাঝে মাঝে এরকম লেখা দেখলে ভালই লাগে। :D

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৩৭

যূথচ্যুত বলেছেন: আমি কিন্তু সবকিছু দেখে শুনে বেশ মজাই পাচ্ছিলাম। =p~

তারপর ভাবলাম, লোকজনকে একটু খোঁচানো যাক :P

৩| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:৪৮

মোহেবুল্লাহ অয়ন বলেছেন: পেত্রোগাদ-এর অ্যাকাউন্ট থেকে একটি পোস্ট এর মাধ্যমে বলশেভিক-রা তাঁদের বিজয়-সংবাদ ঘোষণা করেন।

=p~ :#) :-B

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৩৭

যূথচ্যুত বলেছেন: ;)

৪| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:০১

সাহসী সন্তান বলেছেন: আমরা ব্যাপারটাকে কাল্পনিকই ধইরা নিলাম! যা একটু আধটু মিল থাকলেও উহা কেবল মিডিয়ার সৃষ্টি বইলা চালাইয়া দেওয়াটা এখন সময়ের ব্যাপার। সুতরাং এ ব্যাপারে আপনি পুরোপুরি ভাবে দুশ্চিন্তামুক্ত থাকতে পারেন... ;)

রম্য ভাল হইছে! গত দুইদিন ধইরা ব্লগে যে হাহাকার দেখছি তাতেই বোঝা যাইতেছে আম-পাবলিক রাশুরে কতটা ভাল পায়! =p~

শুভ কামনা জানবেন!

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৪০

যূথচ্যুত বলেছেন: যাক! বাঁচলাম! ;)

হুমম। রাশুকেও কম টিটকিরি সইতে হয়নি। বস্তুত সেই খারাপ লাগা থেকেই সার্কাজমটা করা।

৫| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৯

স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা বলেছেন: দাদা যূথ, তুমি কিছুদিন আগে একটা কবিতার সাইটের নাম বলেছিলে, ওই সাইটটার নামটা আবার দাও তো। খালি কলম চালালে তো আর হচ্ছে না। পেটটাও চালাতে হবে। অফটপিক কমেন্টের জন্য ক্ষমা চেয়ে নিলাম।

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৫১

যূথচ্যুত বলেছেন: এক

দুই

তিন

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৫৭

যূথচ্যুত বলেছেন: ওপরের দুটো কিন্তু ঘরের নেট উড়িয়ে পরের পেট ভরানোর কেস। নিজের পেট চালাতে হলে 'তিন' নম্বরটাই কাজের।

আর ক্ষমা টমা চাওয়ার কী আছে! আমরা সক্কলেই ভুখা নাঙ্গা মেহনতি জনতা। হাতে হাত মিলিয়ে পথে নামুন সাথী।

দুনিয়ার সর্বহারা এক হউক।

৬| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:২২

বিলিয়ার রহমান বলেছেন: আমি মুখে কিছু না বলে কেবল প্রিয়তে নিয়ে গেলাম!! :(



কখনো কখনো কিছু না বলে অনেক কিছু বলা যায়!!! 8-|



+++

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৫৮

যূথচ্যুত বলেছেন: ;)

৭| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:


স্যরি, আমার কাছে রূপকটিকে পরিপক্ক মনে হয়নি

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:০১

যূথচ্যুত বলেছেন: স্যরি, এটা মেটাফর নয়। সিমিলি।

৮| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:১২

করুণাধারা বলেছেন: ভাল লাগল।

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:০১

যূথচ্যুত বলেছেন: এটা জেনে আমারও ভালো লাগল। ধন্যবাদ :)

৯| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:০৭

স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা বলেছেন: তিন নংটার আগামাথা কিছুই বুঝলাম না।লেখা পোস্ট করব ক্যামনে?

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:১৩

যূথচ্যুত বলেছেন: ওটা আপনার দেশেরই!

সাইটটা খুলছে তো?

এবার প্রথমে ওখানে একটা অ্যাকাউন্ট খুলতে হবে। লেখালিখি তো বটেই এমনকি কোন লেখায় মন্তব্য করতে গেলেও তাই-ই করতে হয়! রাইটার্স অ্যাকাউন্ট যাকে বলে! তারপর আপনার লেখক প্যানেলে গিয়ে লেখা টেখা জমা দিন, না দিন আপনার খুশি। আর সাইটের নিয়মাবলী, নীতিমালা-টালা কীসব আছে সেসব পড়ুন। ক্লিয়ার হয়ে যাবে।

১০| ১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:১৯

মানিজার বলেছেন: :|| মুটা দাগের কাহীনি ।

১৩ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১০:১৭

যূথচ্যুত বলেছেন: কী আর করা! :||

১১| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১২:২৯

সুমন কর বলেছেন: আরো একটু সহজ করে লিখলে ভালো হতো। তবে ভালো লিখেছেন। +।

তবে, দুঃখের বিষয় সমস্যার সমাধান হয়নি। এখন শিরোনাম সহ পোস্ট কপি-পেস্ট করা যাচ্ছে।

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১:১১

যূথচ্যুত বলেছেন: হ্যাঁ। দেখলাম। আমি একেবারেই টেকি নই তাই এর সঠিক সমাধান কী হতে পারে বা সমাধান আদৌ সম্ভব কিনা তা নিয়ে কিছুই বলতে পারছি না। তবে বিষয়টি খুব বেশি সংখ্যক তস্করের গোচরে এসেছে বলে মনে হয় না। সেক্ষেত্রে আমার কথা এই যে, এটা নিয়ে আমাদের এই মুহূর্তে ব্লগে খুব বেশি হইচই করাটা বুদ্ধিমানের কাজ হবে না। বরং আমাদের উচিৎ সামুর পার্সোনাল ইমেইলে সমস্যাটা জানিয়ে দিয়ে কিছুদিন অপেক্ষা করা।

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১:১২

যূথচ্যুত বলেছেন: আর পোস্ট ভালো লাগায় ও প্লাস দেওয়ার জন্য কৃতজ্ঞতা :)

১২| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১:২৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: একটি বলশেভিক রূপকথা এবং তৎপরবর্তী কাহিনী তে ভালোলাগা ।

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১:২৬

যূথচ্যুত বলেছেন: ধন্যবাদ। :)

১৩| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১:৩০

সচেতনহ্যাপী বলেছেন: এখন আবার দাড়িয়ে গেছে স্বাধীনতার পক্ষ/বিপক্ষ =p~ ।। আসলে সবকিছুই পূরন হয় না।।

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১:৩৭

যূথচ্যুত বলেছেন: সেজন্যই তো আমি নিরপেক্ষ। সাইড-লাইনে দাঁড়িয়ে মজা দেখে যাই! ;)

১৪| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৩:৪৩

ফেরদৌসা রুহী বলেছেন: রম্যে অনেক মজা পেলাম।

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ ভোর ৪:৩৪

যূথচ্যুত বলেছেন: =p~

১৫| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ সকাল ৭:৫৯

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: =p~ =p~ =p~

ভাল লাগলো :)

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:৫০

যূথচ্যুত বলেছেন: ধন্যবাদ।

১৬| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ সকাল ৯:৪৩

গিয়াস উদ্দিন লিটন বলেছেন: যে ব্যক্তি সর্বশেষ পোস্ট করেছিলেন প্রায় বছরতিনেক আগে তিনি পর্যন্ত হন্তদন্ত হয়ে ছুটে আসলেন। এবং জানালেন, এ দুর্ঘটনার প্রেক্ষিতে তিনি আগামীদিনে পোস্ট লিখতে অপারগ। =p~ =p~ আপনার রসবোধ চমৎকার!!

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:৫২

যূথচ্যুত বলেছেন: অ্যাইত্তো! এই প্রশংসাখানি শোনার জন্যই না এত খাটাখাটনি! ;)

১৭| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ সকাল ১০:৫৫

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: ভাল লিখেছেন।

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:৫২

যূথচ্যুত বলেছেন: ধন্যবাদ।

১৮| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ দুপুর ১২:৪০

স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা বলেছেন: ৩ নংটাতে কি তাৎক্ষণিক লেখা প্রকাশিত হয় না?আর শুধু,মাসের জন্য নির্দিষ্ট টপিকের উপরই লিখতে হয়?

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৩

যূথচ্যুত বলেছেন: লেখা প্রকাশের আবার তাৎক্ষণিক কী হে! এ কি তোমার প্রতিবর্ত ক্রিয়া পেয়েছ?

হ্যাঁ। তিন নম্বরটা একটা প্রতিযোগিতা বিশেষ। যেমন সামনের মাসের যে বিষয়টা দেওয়া হয়েছে তার ওপরে লেখা জমা দিতে হবে এই মাসের ২৫ তারিখের মধ্যে। রেজিস্ট্রেশন করিয়েছ?

আর প্রথম দুটো বোধহয় টপিক নির্দিস্ট প্ল্যাটফর্ম নয়। লেখা শিশুতোষ হলেই চলবে। যা তুমি ফুলফিল করেছ। তবে প্রকাশকাল খোদায় মালুম। আমি নিজেই ওখানে দেবো দেবো করে দিয়ে উঠতে পারিনি এখনো অব্দি। তাই ঠিক জানি না।

১৯| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ দুপুর ২:০০

অন্তরন্তর বলেছেন: মজা দেখতে কিন্তু বেশ মজা লাগছিল। কখনো কখনো মধ্যপন্থা অবলম্বনে বেশ ভাল ফল দেয়। শুভ কামনা আপনার জন্য।

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:০৮

যূথচ্যুত বলেছেন: না না! মধ্যপন্থা'র দীর্ঘমেয়াদি ফল মোটেই ভালো হয় না। মঝঝিম পন্থা'র প্রবর্তক স্বয়ং বুদ্ধের-ই কী হাল হয়েছিল ভাবুন তো একবার!

বুদ্ধমূর্তি'র নাকভেঙে গেছিল :(

আমার পজিশন হচ্ছে সাইড-লাইনে থাক। মানে ধরুন, একটা ফুটবল খেলায়, খেলছে দুই পক্ষ। এবং মধ্যপন্থা নিয়েছে রেফারি।

আমি দাসানুদাস দর্শক মাত্র। ;)

২০| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৪:৫৪

কঙ্কাবতী রাজকন্যা বলেছেন: রাশু এবং রাশুবাসীর জয় হোক।

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:১২

যূথচ্যুত বলেছেন: সোভিয়েট রাশু অমর রহে! ;)

২১| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:১২

স্নিগ্দ্ধ মুগ্দ্ধতা বলেছেন: রেজিস্ট্রেশন করিয়েছ? রেজিস্ট্রেশন করে অলরেডি কবিতা লিখে জমা দিয়ে দিয়েছি।আহ!দেড় হাজার টাকা এখন হাতের মুঠোয়!

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:১৯

যূথচ্যুত বলেছেন: আমার কমিশন কত? :``>>

২২| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:৩৬

উম্মে সায়মা বলেছেন: হাহাহা। সেইরকম হয়েছে =p~
সোভিয়েট রাশুর জয় হোক :)

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৪১

যূথচ্যুত বলেছেন: কোনরকম? ;)

২৩| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:৫৮

উম্মে সায়মা বলেছেন: এক্কেরে সেইরাম ;)

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৩৮

যূথচ্যুত বলেছেন: এইরাম? ;)

২৪| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৩৮

প্রামানিক বলেছেন: রসালো পোষ্ট। ধন্যবাদ

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৪২

যূথচ্যুত বলেছেন: রস এবং আলো দুই-ই রাখার চেষ্টা করা হয়েছে। :`>

ধন্যবাদ আপনাকেও।

২৫| ১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৪৩

উম্মে সায়মা বলেছেন: হাহাহা =p~ =p~

১৪ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৯:৪৬

যূথচ্যুত বলেছেন: :-B

২৬| ১৫ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ১:২১

ফাহমিদা বারী বলেছেন: রম্যের চটকে ব্যাড়াছ্যাড়া দশা!
ছেলের এলেম আছে! দেখ, এলেমের যেন সদ্ব্যবহার হয়!

১৬ ই নভেম্বর, ২০১৭ রাত ৩:৪৩

যূথচ্যুত বলেছেন: ব্যবহার তো নির্ঘাত হবে।

তবে সদ্ব্যবহার শব্দটা ব্যক্তি সাপেক্ষ! :P

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.