নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সাহসী সত্য।এই নষ্ট দেশ-জাতি-সমাজ পরিবর্তনের প্রচেষ্টাকারী একজন যোদ্ধা।বাংলাদেশে পর্বত আরোহণের পথিকৃত।

অনল চৌধুরী

লেখক,সাংবাদিক,গবেষক,অনুবাদক,দার্শনিক,তাত্ত্বিক,সমাজ সংস্কারক,শিক্ষক ও সব অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী যোদ্ধা

অনল চৌধুরী › বিস্তারিত পোস্টঃ

দেশের উন্নয়ন করতে হলে টাকা পাচার বন্ধ করতেই হবে।

০৭ ই মার্চ, ২০২০ রাত ৩:৩৩


http://www.ebdpratidin.com/home/displaypage/news_2020-03-06_1_20_b

অভাবের কারণে দেশের অসংখ্য মানুষ কাজের সন্ধানে বিদেশে যায়।

বিদেশ থেকে কষ্টার্জিত টাকা দেশে পাঠায় ।

আর দুর্নীতিবাজ-লুটপাটকারীরা উপনিবেশিক ইংরেজ আর পাকিস্তানী শাসকদের মতো সেই টাকা আবার অবৈধভাবে বিদেশে পাচার করে দেশের অর্থনীতি ধ্বংস করে।

এদের কারণে টাকার মূল্য কমে যায়। মুদ্রাস্ফীতি সৃষ্টি হয় আর আমদানী ব্যায় বৃদ্ধির ফলে দ্রব্যমূল্য বাড়ে।

সরকারী ব্যায় নির্বাহের জন্য সরকার প্রতিবছর বিদ্যুৎ-গ্যাস-পানির দাম বাড়ায়।
দেশে শিল্প-কারখানা বা অবকাঠামো গড়ে উঠেনা।

সৃষ্টি হয় অভাব,বেকারত্ব।

ক্যানাডার মতো পৃথিবীর প্রতিটা দেশে বসবাসকারী প্রবাসীরা যদি তাদের বসবাসকারী দেশে টাকা পাচারের বিরুদ্ধে এভাবে আন্দোলন করতে পারে,তাহলে টাকা পাচার বন্ধ হওয়ার কিছুটা সম্ভবনা আছে।

কারণ কোনো দেশই নিজের দেশে বিদেশ থেকে বৈধ-বা অবৈধভাবে টাকা আমদানী বন্ধ করতে চায় না। কারণ এর ফলে তাদের নিজেদের দেশ উন্নত হয়।

এ ব্যাপারে সৎ-নীতিবান মহাথিরের নেতৃত্বাধীন মালয়শিয়া,দুর্নীতিমুক্ত সিঙ্গাপুর,সন্ত্রাসী বৃটেন-এ্যমেরিকা বা ‘‘নিরপেক্ষ’’ সুইজারল্যান্ড-কেউই কোনো আপত্তি করেনা।



এধরণের আন্দোলনের মাধ্যমেই এ সমস্যার সমাধান হতে পারে।

মন্তব্য ২১ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (২১) মন্তব্য লিখুন

১| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ ভোর ৪:৩২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




১ লক্ষ থেকে ১০ কোটি টাকা পাচারকারীদের ধরা সম্ভব। এর চেয়ে বড় পাচারকারীদের ধরা সম্ভব না।

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ২:৪১

অনল চৌধুরী বলেছেন: কেনো?
ধরতে চাইলে তারেক-ফালু-পাপিয়া সবাইকেইধরা যায়।
না চাইলে সবচেয়ে বড় শেয়ারবাজার লুটকারীকেও না।

২| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ ভোর ৫:২৫

ইলি বলেছেন: দেশটার সব সেক্টরে এত এত দুর্নীতি সরকার কি কিছুই দেখে না বা জানেনা, আমার মনে হয় জানে দেখে বোঝে কিন্তু কিছুই করেনা করবে না বা করার নাই। মন্ত্রি এম পি নেতা সচিব পিএস পুলিশ, সবাই দুর্নীতি গ্রস্ত আর বাকি সরকার। আসলে সরকারের কিছু করার নাই সরকার এদের হাতে জিম্মি। ধন্যবাদ।

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ২:৪৪

অনল চৌধুরী বলেছেন: দুর্নীতিগ্রস্ত এদেশের নষ্ট জনগণ।
কারণ সব দলে,সব পদে সব জায়গায় এদেশের নষ্ট চোর-ছ্যাচ্চোড় জনগণই বসে আছে।
বৃটিশ বা পাকিরা এখন নাই।
তাও দেশের এই অবস্থা কেনো??

৩| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ৭:০৩

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: ঠাকুর মাহমুদ বলেছেন " ১ লক্ষ থেকে ১০ কোটি টাকা পাচারকারীদের ধরা সম্ভব। এর চেয়ে বড় পাচারকারীদের ধরা সম্ভব না।"
বিশেষত: যেসকল লুটেরা কয়েক হাজার কোটি টাকা হাতিয়ে নিয়ে দরবেশ বাবা, ক্যাসিনো বাবায় রূপান্তরিত হয়ে কেরামতি অর্জন করে তাদেরকে দুদক তো দূরের কথা দুদকের বাপও ধরতে পারবে না |

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ৩:০২

অনল চৌধুরী বলেছেন: বাংলাদেশের ডাকাত দরবেশ সিঙ্গাপুরের দ্বিতীয় বড় ধনী।

৪| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ৭:১১

চাঁদগাজী বলেছেন:



৩নং কমেনটে টাইপো:

উন্নয়নের জন্য অর্থনৈতিক তত্ব অনুসরণ করতে হয়; দুর্নীতি দমন করে, চুরি বন্ধ করে উন্নয়ন করা সম্ভব নয়; আয় থাকলে চুরি ইত্যাদি করে কেহ সম্পদ কমাতে পারার কথা নয়; আসলে, বাংলাদেশের সরকার কোন অর্থনৈতিক তত্ব অনুসরণ করছে না, ফাইন্যান্সিয়াল জ্ঞান প্রয়োগ করছে না।

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ৩:০৩

অনল চৌধুরী বলেছেন: চোর-ছ্যাচ্চোড় সাধারণ জনগণই সরকার পরিচালনা করে।
এরা ঠিক না হলে অন্য কেউ ঠিক হবে কিভাবে?????
ইউরোপ-এ্যামেরিকা বা পূর্ব ইউরোপের জনগণ বাংলাদেশ-পাকি বা ভারতের মতো হলে ওদেরও অর্থনৈতিক অবস্থাও এদের মতোই হতো।

৫| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ৮:৫০

খাঁজা বাবা বলেছেন: উন্নয়নের নামে চলছে ভয়াবহ লুটপাট।
১০ কোটি টাকার কাজে বরাদ্দ আসছে ১০০০ কোটি টাকা।
আর লুটের এই অর্থ বৈধ অবৈধ পথে পাচার হচ্ছে দেদারসে।

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ২:৪৮

অনল চৌধুরী বলেছেন: এসব চলছে আর চলতেই থাকবে।
বাংলাদেশ একটা উন্নত দেশ।কিন্ত চোর-ছ্যাচ্চোড়দের কারণেই দেশের সব মানুষ তাদের অধিকার পাচ্ছে না।

৬| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ৯:১০

রাজীব নুর বলেছেন: এখন সময় বদলে গেছে।
আগে দূর্নীতিবাজরা কালো টাকা দেশেই রাখতো< কিন্তু এখন বিদেশে পাচার করে দেয়।
অথচ সরকার এ বিষয়ে নিরব।

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ২:৫২

অনল চৌধুরী বলেছেন: অথচ লুটপাট টাকা পাচার বন্ধ হলে বাংলাদেশও ওসব দেশের মতোই উন্নত হতো।

৭| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ৯:৫৫

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: সবাই সব কিছু জানে। কিন্তু দল, সরকার চালানোর জন্য এসব পাচারকারীদের কেউ কিছু বলে না...

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ৩:০৪

অনল চৌধুরী বলেছেন: যে মার্কাই হোক না কেনো,দেশের চেয়ে দল আর দলের চেয়ে ব্যাক্তি এদেশে সবসময় বড়।

৮| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ১০:২৮

নেওয়াজ আলি বলেছেন: ভোট চোর,টাকা চোর এবং সব পাপিয়ার মা একজন ।

৯| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ১১:১০

জাহিদ হাসান বলেছেন: প্রবাসী ভাইয়েরা যদি দেশের অর্থ পাচারকারীদের প্রতিহত করেন তাহলেই কেবল অর্থপাচার ঠেকানো সম্ভব।

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ২:৫৪

অনল চৌধুরী বলেছেন: এছাড়া আর কি করা যায়?
এদেশে তো এখন গরু-ছাগল বাস করে,যারা নিজেদের অধিকার আদায়ের জন্য আন্দোলনও করতে পারে না।

১০| ০৭ ই মার্চ, ২০২০ দুপুর ১:০৪

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
কানাডা, আমেরিকা জেনেশুনে বিপুল অবৈধ অর্থসহ দুর্নিতিবাজ, শাস্তিপ্রাপ্ত খুনে আসামী, মুজিব হত্যাকারি, দন্ডপ্রাপ্ত আলবদর নেতাদের রাজনৈতিক আশ্রয় দেয় কিভাবে? নৈতিকতা কোথায়?
যেখানে আমাদের বিডি পুলিশি অনাপত্তি সনদ দেখিয়ে, গ্লোবাল ব্যাকগ্রাউন্ড চেক করে সব রিপোর্ট সন্তোসজনক হওয়ার পর ঢুকতে দেয়া হয়েছিল। এরপর আমেরিকায় প্রতিটি ডলার আয়কর ফাইলে উল্লেখ করতে হয়েছে, ইভেন ঢাকার একাউন্ট, ফ্ল্যাটভাড়ার আয় পর্যন্ত দেখাতে হচ্ছে।
অতচ পলাতক দুর্নিতিবাজ, খুনে আসামীদের জামাই আদরে বরন করা হচ্ছে।

০৮ ই মার্চ, ২০২০ রাত ৩:০৬

অনল চৌধুরী বলেছেন: ওইসব দেশকে পৃথিবীর কোনো দেশ অন্য দেশের প্রতি আচরণের ক্ষেত্রে নীতিবান বলে না।
ওদের সব আইন-ন্যায়-নীতি নিজেদের দেশের জন্য।
তবে ওরা অন্তত বাংলাদেশের চোর-ছ্যাচ্চোড়দে মতো নিজের দেশের সম্পদ বিদেশে পাচার করে না।
এজন্যই এতো উন্নত হতে পেরেছে,যা এদেশের মানুষ পারছে না।
সন্ত্রাসী ইংল্যান্ড-এ্যামেরিকায় বসবাসকারী সব খুনী -দুর্নীতিবাজদের দেশে ফিরিয়ে আনার জন্য চুক্তি করা উচিত।

১১| ০৮ ই মার্চ, ২০২০ সকাল ১০:০২

খাঁজা বাবা বলেছেন: লুটপাট চলছে সরকারী পৃষ্ঠপোষকতায়।

০৯ ই মার্চ, ২০২০ রাত ২:৩৭

অনল চৌধুরী বলেছেন: বাংলাদেশের বেশীরভাগ জনগণ বদের হাড্ডি।
গ্রাম বা শহর,শিক্ষিত-অশিক্ষিত-কারো মধ্যে কোনো নীতিবোধ নাই।
সবাই একজন আরেকজনের চেয়ে বড় চোর।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.