নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সাহসী সত্য।এই নষ্ট দেশ-জাতি-সমাজ পরিবর্তনের প্রচেষ্টাকারী একজন যোদ্ধা।বাংলাদেশে পর্বত আরোহণের পথিকৃত।

অনল চৌধুরী

লেখক,সাংবাদিক,গবেষক,অনুবাদক,দার্শনিক,তাত্ত্বিক,সমাজ সংস্কারক,শিক্ষক ও সব অন্যায়ের বিরুদ্ধে প্রতিবাদী যোদ্ধা

অনল চৌধুরী › বিস্তারিত পোস্টঃ

চীনের বিরুদ্ধে মামলা হলে এ্যামেরিকা-বৃটেনের বিরুদ্ধে হবে না কেনো?

২৩ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ১:৪৭

Click This Link

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় যথেষ্ট পদক্ষেপ না নেয়ায় এবং এ কারণে এটি বিশ্বব্যাপী ছড়িয়ে পড়ায় অর্থনৈতিক ক্ষতির অভিযোগ তুলে চীনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে যুক্তরাষ্ট্রের একটি অঙ্গরাজ্য।

স্থানীয় সময় মঙ্গলবার যুক্তরাষ্ট্রের মিসৌরি অঙ্গরাজ্য সরকার চীন সরকার ও দেশটির ক্ষমতাসীন কমিউনিস্ট পার্টির বিরুদ্ধে মামলাটি করে। করোনা ইস্যুতে ভাইরাসটির সূতিকাগার চীনের বিরুদ্ধে এটিই প্রথম মামলা।

মিসৌরির অঙ্গরাজ্যের অ্যাটর্নি জেনারেল এরিক স্মিথ সরকারের পক্ষে এই মামলা করেন।তিনি চীনের বিরুদ্ধে করোনাভাইরাস নিয়ে মিথ্যাচারেরও অভিযোগ করেছেন।খবর রয়টার্স ও সিএনএনের।

বৈশ্বিক মহামারী হিসেবে করোনার বিস্তারের নেপথ্যে চীনের দায়িত্বে অবহেলাকে কারণ হিসেবে হাজির করেছে মিসৌরি সরকার। বলা হচ্ছে, চীন ভাইরাসটি নিয়ে লুকোচুরি করেছে। এই ভাইরাস যে এতটা সংক্রামক তা তারা আগে জানায়নি। এ নিয়ে তথ্য গোপন করেছে কমিউনিস্ট পার্টির নেতৃত্বাধীন সরকার।

মামলায় করোনাভাইরাসের কারণে লকডাউন থাকায় মিসৌরি অঙ্গরাজ্যের মানুষের অর্থনৈতিক ক্ষতির বিষয়টি সামনে আনা হয়েছে। বলা হয়েছে, কোটি কোটি মার্কিন ডলারের ক্ষতি হয়েছে চীনের অবহেলার কারণে।মামলায় ক্ষতিপূরণও দাবি করা হয়েছে।

মিসৌরির অ্যাটর্নি জেনারেল এরিক স্মিথ মামলা দায়েরের পর বলেন, চীন সরকার কোভিড -১৯ এর বিপদ ও এর অতি-সংক্রামক প্রকৃতির বিষয়ে বিশ্বকে মিথ্যা বলেছিল। এছাড়া প্রথম যে চিকিৎসক এই ভাইরাস সম্পর্কে সচেতন করে তাকেও এ নিয়ে কথা বলতে দেয়া হয়নি।

তিনি আরও বলেন, সব দিক দিয়েই চীন মহামারি এই রোগের বিস্তার থামাতে খুব কম চেষ্টাই করেছে। আর এ কারণে তাদের বিচার হতে হবে।মিসৌরিসহ বিশ্বের ওপর করোনার প্রাণহানি, যন্ত্রণা ও অর্থনৈতিক ক্ষতি সাধিত হচ্ছে তার জন্য চীনই দায়ী।

তবে মিসৌরি ডেমোক্র্যাটিক পার্টির নির্বাহী পরিচালক লরেন জিপফোর্ড এই মামলাটিকে ‘চাল’ হিসেবে অভিহিত করেছেন।

তবে এই মামলা খুব বেশি প্রভাব ফেলবে কিনা তা স্পষ্ট নয়। কারণ মার্কিন আইনে কিছু ব্যতিক্রম ছাড়া সাধারণত অন্য দেশের বিরুদ্ধে মামলার বিষয়টি নিষিদ্ধ করে। এমনটাই জানিয়েছেন ক্যালিফোর্নিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের হ্যাস্টিংস কলেজ অফ ল এর আন্তর্জাতিক আইন বিভাগের অধ্যাপক চিমেন কেটনার।

যুক্তরাষ্ট্রের জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের সেন্টার ফর সিস্টেমস সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের দেয়া হিসাব অনুযায়ী, করোনায় ক্ষতিগ্রস্ত যুক্তরাষ্ট্রের অঙ্গরাজ্যগুলোর মধ্যে মিসৌরি অন্যতম। মঙ্গলবার পর্যন্ত মিসৌরি অঙ্গরাজ্যে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ২১৫ জন। গত একদিনে নতুন শনাক্ত ১৫৬ নিয়ে সেখানে আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা এখন ৫ হাজার ৯৬৩।

জন হপকিন্স বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গোটা যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৮ লাখ ২৪ হাজার ৪৩৮। অপরদিকে দেশটিতে প্রাণঘাতী এই ভাইরাসে মৃত্যু হয়েছে ৪৫ হাজার ৩৯ জনের। মঙ্গলবার দেশটিতে নতুন করে আক্রান্তের সংখ্যা ৩৭ হাজার ১৭৯। গত ২৪ ঘণ্টায় মারা গেছে ২ হাজার ৮০৩ জন।

****** চীনের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে,খুব ভালো কথা।

একই যুক্তিতে দেশে দেশে গণহত্যা,লুটপাট,সন্ত্রাসী সৃষ্টি আর দেশ দখল করে কোটি কোটি মানুষ হত্যা আর অগণিত মানুষকে উদ্বাস্ত করার জন্য সন্ত্রাসী এ্যামেরিকা এবং বৃটেন,ফ্রান্সসহ অন্য দেশ এবং ভূখন্ড আক্রমণকারী সব দেশের বিরুদ্ধেও আন্তর্জাতিক আদালতে মামলা করা উচিত।

বিশেষ করে বুশ এবং ব্লেয়ার-দুইজনই স্বীকার করেছে যে ভূল তথ্যের উপর ভিত্তি করে ইরাক যুদ্ধ শুরু করা হয়েছিলো।
কফি আনান বলেছিলেন,ইরাক যুদ্ধ অবৈধ,জাতিসংঘ সনদের পরিপন্থী।

তাহলে এভাবে এই দুই দেশ সহ বিশ্বের দেশে দেশে অভ্যুত্থানের মদদ দান,লুমুম্বা-হ্যামারেশাল্ড-সুকর্ণ-নগো দিয়েম-আলেন্দে হত্যা,ভিয়েতনাম-কম্বোডিয়া,লাওস,ইরাক,আফগানিস্তনে,সিরিয়া,লিবিয়ায় হামলা,কোটি কোটি মানুষ হত্যা,ঘরবাড়ি থেকে বিতাড়ন,সম্পদ লুট-এসব অভিযোগেও সন্ত্রাসী এ্যামেরিকার বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক অপরাধ আদালতে মামলা করা হোক।

সুকিকে যদি রোহিঙ্গা হত্যা-নির্যাতনের দায়ে আদালতে যেতে হয়ে ,তাহলে বুশ-ব্লেয়ার-ওবামা-হিলারি চক্র যাবে না কেনো?
এরা সবাই জীবিত আর আইনের চোখে সবাই সমান।

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২৩ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ২:১৪

নেওয়াজ আলি বলেছেন: সুচী গরীব দেশের লোক আর বাকিরা টাকা ওয়ালা ।

২৩ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ৩:২৩

অনল চৌধুরী বলেছেন: ওরা বড় বড় মারনাস্ত্রধারী সন্ত্রাসী।

২| ২৩ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ২:২৪

ব্লগার_প্রান্ত বলেছেন: আইনের চোখ বেশ অনেকদিন থেকেই অন্ধ

২৩ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ৩:২৪

অনল চৌধুরী বলেছেন: দেশ-বিদেশ সব জায়গাতেই তাই দেখা যাচ্ছে।

৩| ২৩ শে এপ্রিল, ২০২০ ভোর ৬:২৪

রাফা বলেছেন: নির্বাচন যত কাছাকাছি আসবে আরো অনেক উদ্ভট ক্রিয়া কলাপ দেখতে পাবেন।ঐ মামলার দুই পঁয়সা ভ্যালু খোদ আমেরিকাতেই নেই।

২৩ শে এপ্রিল, ২০২০ দুপুর ২:০০

অনল চৌধুরী বলেছেন: এরকম পাল্টা ১০০০ মামলা চীন নিজেদের আদালতে করতে পারে এ্যামেরিকার বিরুদ্ধে ।

৪| ২৩ শে এপ্রিল, ২০২০ বিকাল ৪:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: মামলা হামলা পরে। আগে করোনা থেকে বেচে নিই।

২৪ শে এপ্রিল, ২০২০ রাত ২:১২

অনল চৌধুরী বলেছেন: সন্ত্রাসী এ্যামেরিকাই মামলা করেছে।
চীনের উপর তো আর ইরাক-লিবিয়ার মতো হামলা করার সাহস নাই।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.