নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ভুয়া মফিজ

ভুয়া মফিজের সাথে ভুয়ামি না করাই ভালো...

ভুয়া মফিজ › বিস্তারিত পোস্টঃ

ওয়েলস রাজ্যে গমন, ভ্রমন এবং একটা ভয়ঙ্কর অভিজ্ঞতা

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:০৩



গত ১৭ তারিখ শুক্রবার সকালে অফিসে গিয়েই একাধারে দুঃসংবাদ এবং সুসংবাদ শুনলাম। আগে সুসংবাদটা বলি। সেটা হলো, সোমবার সকালে তিনদিনের জন্য আমাকে ওয়েলস যেতে হবে। আর দুঃসংবাদটা এক কথায় বলা যাবে না। বিস্তারিত বলছি, আপনারা নিজ নিজ গুণে বুঝে নিবেন।

ওয়েলসে আমাদের আরেকটা নতুন অফিস চালু হয়েছে, সেজন্যে সেখানকার নতুন আর পুরাতন স্টাফদের জন্য একটা কম্বাইন্ড ওয়ার্কশপের আয়োজন করা হয়েছে। এইচআরডি থেকে সারাহ, আইসিটি থেকে হ্যারি আর এফএন্ডপি থেকে ভুয়া মফিজকে সেখানে রিসোর্স পারসন হিসাবে হাজির থাকতে হবে। বসের কাছে গিয়ে তেব্র পরতিবাদ জানিয়েও পাত্তা পেলাম না। প্রতিবাদের কারন প্রথমতঃ, এমনি যেতে আমার কোন আপত্তি নাই, কিন্তু রিসোর্স পারসন হিসাবে যেতে আমার তুমুল আপত্তি…...আপত্তির কারনটা হাটু-কাপা সংক্রান্ত! দ্বিতীয়তঃ আমার সফরসঙ্গীরা; দুইটার একটাও সুবিধার না। কারন বর্ণনা করি।

প্রথমেই হ্যারি। এই হ্যারি কিন্তু প্রিন্স হ্যারি না। বৃটিশ রাজ পরিবারের সাথে এর দূরতম সম্পর্কও নাই। কিন্তু ভাবসাবে ষোল আনার উপর আঠারো আনা। ওর ভাবভঙ্গি দেখলে যে কারো মনে হবে, আইসিটি ডিপার্টমেন্টটা সামলানো, এক সময়ের বৃটিশ সাম্রাজ্য সামলানোর চাইতেও কঠিনতর একটা কাজ! কথা বলে খুবই কম। যাও বা বলে, মনে হয় কোন রোবট কথা বলছে!!

আর সারাহ! আহা!! চল্লিশোর্ধ জিনজার হেয়ারের (লাল চুল) এই মহিলাকে দেখলে মনে হয় ত্রিশও পার হয় নাই। একে আমি ঘাস-লতা-পাতা ছাড়া কিছুই খেতে দেখি নাই কখনও। তার ফিগার ঠিক রাখা আর বয়স লুকানোর এটাই সম্ভবতঃ গোপণ মন্ত্র! তবে, সে তার হাইহীলের খট খট শব্দ তুলে যখন হাটা-চলা করে, তখন আমাদের মতো বুড়ারা তো বটেই, তরুণ স্টাফরাও ঘাড় সোজা রাখতে পারে না; স্বয়ংক্রিয়ভাবে ওর দিকে বেকে যায়…...আগুন-রঙ ঝাকড়া চুলের সাথে সাথে এমনই তার আগুনে সৌন্দর্য!! ইংলিশ উচ্চারণে সারাহ অনেকটা আমাদের চলতি বাংলায় ছ্যাড়া'র মতো শোনায়। তো, ওকে একবার আমি বুঝিয়ে বলেছিলাম, তোমার এই নামটা আমাদের বাংলায় হলো ছ্যাড়া, যেটা বলতে সাধারনভাবে ''কামের ছ্যাড়া'' বোঝায়! সেদিনই ওর চাহনী দেখে বুঝে গিয়েছিলাম, আর একটু আগে বাড়লে আমার খবর আছে; এমনই তার সেন্স অফ হিউমার!!!

যাই হোক, যা বলছিলাম! এমন দুইজন সফরসঙ্গীর সাথে কে-ই বা খুশীমনে সফর করবে? বসের হাল্কা প্যাদানী খেয়ে আমি যখন মুখ লম্বা করে বসে আছি, দেখি ক্রিসও মুখ লম্বা করে ঘুরে বেড়াচ্ছে। ওর বিষয়টা হলো, আমাদের এই মিশনের কথা শোনামাত্রই সেও বসের কাছে আব্দার করেছিল যাওয়ার জন্য। ফলাফল…..….কঠিন প্যাদানী!!

যাত্রার দিন সকালবেলা দেখি, বাকী দুজনের সাথে ভুতুড়ে মুখোশ পড়া আরও একজন গাড়ীতে বসা। বান্দা আর কেউ না, নাছোড়বান্দা ক্রিস!! ক্রিসের ইমিডিয়েট বস হলো হ্যারি। ও হ্যারিকে ওর কাজের লোড কমানোর কিসব সুবিধা-টুবিধার লোভ দেখিয়ে ম্যানেজ করেছে। তবে আমার অতো কথায় কাম কি? সাথে ক্রিস থাকলে আর কি চাই!! আমাকে ভড়কে দেয়ার জন্য সে এই মুখোশ কিনেছে…….আর আমার জন্যও একটা নিয়ে এসেছে। এই হলো ওর কাজ-কারবার!! পুরাই পাগল একটা!!!

আমাদের গন্তব্যস্থল সপ্তম শতাব্দীতে গোড়াপত্তন হওয়া প্রাচীণ কিন্তু ছোট্ট ওয়েলশ শহর খ্লানগথলেন (Llangollen)। উচ্চারণ যেটা লিখেছি এটা ইংলিশ না, ওয়েলশ ভাষায়। যাই হোক, জায়গামতো পৌছে হোটেল দেখে দারুন পছন্দ হলো। তিনশত বছরের প্রাচীণ একটা বাড়ী। স্বামী-স্ত্রী মিলে হোটেল বানিয়েছে। নীচে একটা বেডরুম ওদের দখলে, আর উপরে চারটা রুম…...যেগুলো ওরা ভাড়া দেয়। সিটিং রুম, কিচেন আর ডাইনিং রুম নীচে। একেবারেই পারিবারিক পরিবেশ। স্থানীয় কালচার আর খাবার-দাবারের সাথে পরিচিত হতে চাইলে এ'ধরনের বেড এন্ড ব্রেকফাস্ট হোটেলের তুলনা নাই।

আমরা চারজনই বিড়িখোর। কাজেই চেক-ইন করে মালিককে আমাদের প্রথম জিজ্ঞাসা……..বিড়ি কোথায় খাবো? সে ব্যাক-ইয়ার্ড দেখিয়ে দিল, আর সেই সাথে সাবধান করে দিল, দরজা যেন না লাগাই। কারন, ওই দরজার লকটা ভেতর থেকে খোলে; বাইরে থেকে খুলতে চাবি লাগে! আর বেশী রাতে একা যেন ব্যাক-ইয়ার্ডে না যাই। কারন জিজ্ঞেস করাতে কাধ ঝাকিয়েই কাজ সারলো। বুঝলাম, এই ব্যাপারে সে কথা বলতে উৎসাহী না। উপদেশ শুনে আমরা সবাই যার যার রুমে চলে গেলাম। ফ্রেশ হয়ে আমি আর ক্রিস বের হলাম। উদ্দেশ্য শহরটাতে একটা চক্কর দেয়া আর সন্ধ্যায় একেবারে ডিনার করে হোটেলে ফেরা।

রুমে এসে আসল কাজে হাত দিলাম। আগামীকাল যেই প্রেজেন্টেশান নিয়ে কাজ করবো, তা তৈরী করেই নিয়ে এসেছিলাম, কিন্তু যতোই চোখ বুলাই, ততোই বিভিন্ন রকমের ছিদ্র বের হয়! সেসব ছিদ্র বন্ধ করতে করতে একসময়ে ঘড়ি দেখে চমকে উঠলাম। কাজে ডুবে গিয়ে সময়ের দিকে খেয়ালই করি নাই। রাত একটা বেজে গিয়েছে! শুয়ে পড়া দরকার!! কিন্তু ঘুমানোর আগে একটা বিড়ি না খেলে চলবে কি করে? সঙ্গীর আশায় রুম থেকে বের হয়ে দেখি, শুধুমাত্র সারাহ'র রুমে আলো জ্বলছে। সম্ভবতঃ সে তার প্রেজেন্টেশানের ছিদ্র বন্ধ করা নিয়ে পেরেশান এখনও। এতো রাতে ওর রুমে নক করলে কেলেংকারীর আর বাকী থাকবে না কিছু। এদিকে হোটেল মালিকের কথাও মনে পড়লো। তবে নেশার টান হলো সবচেয়ে বড় টান! সেই টান টানতে টানতে আমাকে সিড়ির গোড়ায় দাড় করিয়ে দিল।

গুল্লি মার মালিকের কথার! কি আর হবে? পা টিপে টিপে কাঠের সিড়ি বেয়ে নেমে এলাম নীচে। নীচের তলা পুরাই অন্ধকার…….শুধু একটা সবুজ রংয়ের স্পটলাইট জ্বলছে, যেটা অন্ধকার আরো বাড়িয়ে দিয়েছে। দরজা খুলে বাইরে না গিয়ে চৌকাঠে দাড়িয়েই বিড়ি ধরালাম, পাছে দরজা না আবার বন্ধ হয়ে যায়, সেই ভয়ে। ব্যাক গার্ডেনটা চৌ-কোনাকৃতির। আমার সামনে দুই দিকে দুই কোনা, এদিকটাতে এক কোনায় দরজা…...যেটাতে আমি দাড়িয়েছি। বিল্ডিং খানিকটা এক্সটেনশান করায় বাকী কোনাটা সরাসরি দেখা যায় না, দেখতে হলে গলাটাতে হাসের মতো একটা টানা দিতে হয়।

বাইরের পরিবেশটা বেশ গা ছমছমে। হাল্কা কুয়াশার কারনে কেমন একটা ধোয়াটে ভাব। আশেপাশের কোন বাড়িতেই আলো জ্বলছে না। দুরের এক স্ট্রীটলাইটের কিছুটা আলো আসছে ঠিকই, তবে সেটা পরিবেশের উন্নয়নে কোন ভূমিকা রাখছে না। একেবারেই বাতাস-বিহীন একটা নিথর, থম ধরা অবস্থা। আসলে কিছু কিছু পরিবেশ আছে না..…….মানুষ পাশে নিজের বউকে দেখলেও চমকে উঠে, বউটা আসল নাকি পেত্নীজাতীয় কিছু!! ঠিক সেরকমই একটা পরিবেশ।

বিড়ি টানতে টানতে মনে কেমন জানি একটা কু-ডাক দিল। না-দেখা কোনাটাতে আবার কেউ দাড়িয়ে নাই তো! কথাটা মনে হতেই গলা লম্বা করলাম, তখনই দেখলাম জিনিসটাকে। ঢাকায় রিক্সাওয়ালারা যেভাবে দেয়ালের সামনে বসে মুত্র বিসর্জন করে, ঠিক সেই ভঙ্গিতে কিছু একটা পেছন ফিরে বসে আছে। সাদা কাপড় পড়া ছিল মনে হয়, কারন অন্ধকারে জিনিসটা সাদাই দেখেছি। ভয় তাড়ানোর জন্য বিড়িতে একটা কষে টান দিয়ে কাপা কাপা গলায় অনুচ্চ স্বরে হাক দিলাম, হু'জ দেয়ার?? কোন হেলদোল নাই। আবার কিছু একটা বলতে যাবো, জিনিসটা উঠে দাড়ালো। ঠিক মানুষের মতো উঠে দাড়ানো না। কেমন যেন….বসা অবস্থাতেই খাড়া উপরের দিকে লম্বা হয়ে গেল। ঘটনা দেখে মাথার চুলসহ শরীরের সবগুলো পশম একলাফে দাড়িয়ে গেল। আর দেরী করা সমীচীন মনে করলাম না। কিসের বিড়ি, আর কিসের নেশা! তৎক্ষনাৎ ওয়েলশ ভুতকে পশ্চাদ্দেশ প্রদর্শন-পূর্বক উসাইন বোল্টীয় ক্ষীপ্রতায় কয়েক লাফে রুমে এসে দরজা লাগিয়ে দিলাম। ‍রুমের লাইট অন রেখেই সোজা বিছানায়। পায়ের উপর ভারী কম্বলটা দিয়ে দিলাম; বলা তো যায় না…...আবার আমার রুমে এসে শীতল হাত দিয়ে পা স্পর্শ করে কিনা!!!

ভয়ের চোটেই কিনা জানিনা, রাতের ঘুমটা নির্বিঘ্ন হলো। সকালে উঠে বিছানায় শুয়ে শুয়েই ভাবছিলাম, জিনিসটা আসলে কি ছিল? চোখের ভুল হতেই পারে না, কিছু একটা ছিল নিশ্চিত!!

ঘটনার আদ্যোপান্ত ক্রিসকে বললাম। ঘটনা শুনে সে তো পুরাই বাকরুদ্ধ! তোতলাতে তোতলাতে খৃষ্টীয় দোয়া-দরুদ জাতীয় কিছু একটা বললো, যার মাথামুন্ডু কিছুই বুঝতে পারলাম না। নাস্তা করতে বসে ক্রিস বিষয়টা সবিস্তারে মালিককে জানালো। মালিক পাথর-মুখ করে পুরোটা শুনে শ্রাগ করে কিচেনের দিকে হাটা দিল। ক্রিস উত্তেজিত হয়ে আমাকে বললো, হারামজাদার কারবারটা দেখলা? ওর বাড়িতে ভুত আছে, এইটা আগে কইবো না? কাইল তোমারে যদি ওয়েলশ ভুতে ধরতো, তাইলে ফিরা গিয়া আমি ভাবীরে কি জবাব দিতাম?

আমি বললাম, তুই তো ব্যাটা মহা ধুরন্ধর! আমার চিন্তা বাদ দিয়া ভাবীরে কি কইবি, সেইটা নিয়া টেনশান করস? যাউকগা, বাদ দে। ভুতের কাহিনী চাউর হইলে ওর ব্যবসা লাটে উঠবো; সেই জন্যই পাত্তা দেয় নাই।

পুনশ্চঃ কাজে গিয়েছিলাম, তাই বেশী ঘুরতে পারি নাই। অল্প কিছু ছবি তুলেছি। আপনারা চাইলে এই পোষ্টের এক্সটেনশান হিসাবে একটা ছবি ব্লগ দিতে পারি। তবে ওয়েলসের সৌন্দর্যের তুলনায় সেসব ছবি কিছুই না। ওয়েলস আসলেই সুন্দর…….খুবই সুন্দর!!!:)


শিরোনামে দেয়া ওয়েলসের ছবিটা আমি তুলি নাই। এখান থেকে নেয়া।

মন্তব্য ৬০ টি রেটিং +২০/-০

মন্তব্য (৬০) মন্তব্য লিখুন

১| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:২৮

মহাজাগতিক চিন্তা বলেছেন: পড়ে ভাল লাগল।

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৩২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ধন্যবাদ সনেট কবিভাই! আপনি পুরানো বোতলে ফিরে যান না কেন? নতুন বোতলে কি সুখ? :)

২| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:৩১

রানার ব্লগ বলেছেন: একজন সুন্দুরী কে আপনি ছ্যাড়া বলবেন আর তিনি আপনাকে কিছু বলবে না এটা ভাবেন কি করে, আপনার সৌভাগ্য যে সে আপনাকে চুইংগামের চিবিয়ে ফেলে নাই। দুই রাকাত সোকরানা নামাজ পড়েন।

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৩৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ছ্যাড়াই না বললাম, ছেড়ি তো আর বলি নাই। চেইতা যাওয়ার কি হইলো? এইটুকু মজা নিতে না পারলে কেমনে কি?

আপনার সৌভাগ্য যে সে আপনাকে চুইংগামের চিবিয়ে ফেলে নাই। চিবিয়ে গিলে ফেললে তো ধন্যই হতাম! :P

৩| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১২:৩৪

রাফখাতা- অপু তানভীর বলেছেন: দেরি না করিয়া ফটু আপলোড দিয়া দেন । হোক সেটা কাজের কারণে গমন, ভ্রমন তো ! আর ভ্রমনের গল্পে ছবি থাকবে না তা কেমন করিয়া হয় !

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৩৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: উক্কে.......ছুডবাই! দিয়া দিমুনে যতো তাড়াতাড়ি পারি! এইটাতেই দিব ভাবছিলাম, কিন্তু পুস্ট অনেক বড় হয়া যায় দেইখা...........!!! B-)

৪| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:২০

মিরোরডডল বলেছেন:




বসের কাছে গিয়ে তেব্র পরতিবাদ জানিয়েও পাত্তা পেলাম না ।

প্রতিবাদ মুখে মুখেই । বউকে দেখানো যে যেতে চাইনা ।
আসলে যে মনে মনে কি খুশী সারাহ সাথে যাচ্ছে সে আমরা বুঝি ভুম :)

একে আমি ঘাস-লতা-পাতা ছাড়া কিছুই খেতে দেখি নাই কখনও। তার ফিগার ঠিক রাখা আর বয়স লুকানোর এটাই সম্ভবতঃ গোপণ মন্ত্র!

আরও যে কতো কিছু গোপন আছে । আমরা জানি ভুম মিট খায়না , আজ বুঝলাম ওটা সারাহ ইনফ্লুয়েন্স ।

সাথে ক্রিস থাকলে আর কি চাই!!

ক্রিসের উপস্থিতি খুবই মজার ।
কিন্তু ভুম আর ক্রিসের সখ্যতাটা যেনো একটু ইয়ে মানে ……… :P

ঠিক মানুষের মতো উঠে দাড়ানো না। কেমন যেন….বসা অবস্থাতেই খাড়া উপরের দিকে লম্বা হয়ে গেল।

ওটা মনে হয় শেয়াল ছিলো । আমিও একবার কান্ট্রিসাইডে গিয়ে এরকম ভয় পেয়েছি ।
পরে শুনেছি ওটা শেয়াল ছিলো । এরকম সাদা হয় কিন্তু । লুক……




আপনারা চাইলে এই পোষ্টের এক্সটেনশান হিসাবে একটা ছবি ব্লগ দিতে পারি ।


এই পোস্টেই ছবি দেয়া মাস্ট ছিলো ।
এখনও কিছু ছবি দিতে পারে ভুম । হোক অফিসের কাজে কিন্তু ভ্রমণ বলে কথা ।



২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৪৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: প্রতিবাদ মুখে মুখেই । বউকে দেখানো যে যেতে চাইনা ।
আসলে যে মনে মনে কি খুশী সারাহ সাথে যাচ্ছে সে আমরা বুঝি ভুম :)

আমি কি আমার বউকে ডরাই? কাভি নেহি। সারাহর সাথে ফষ্টিনষ্টি করা মেরে লিয়ে বাও হাত কা খেল হ্যায়!!! :P

আরও যে কতো কিছু গোপন আছে । আমরা জানি ভুম মিট খায়না , আজ বুঝলাম ওটা সারাহ ইনফ্লুয়েন্স ।
গলদ ভাবনা। আমি শুধু রেডমিট খাই না। মাছ খাই, সাথে দু'পায়ের সব খাই। =p~

ক্রিসের উপস্থিতি খুবই মজার ।
কিন্তু ভুম আর ক্রিসের সখ্যতাটা যেনো একটু ইয়ে মানে ……… :P

একটা কথা আছে.......যার মনে যা, ফাল দিয়া ওঠে তা!!! :-B

ওটা মনে হয় শেয়াল ছিলো । না, এই ব্যাপারে আমি নিশ্চিত। কেন'র ব্যাখ্যা দিতে গেলে প্রতি-মন্তব্য অনেক বড় হয়ে যাবে। তাছাড়া আমাদের এখানে সাদা শেয়াল দেখি নাই। আছে কিনা তাও জানিনা।

এই পোস্টেই ছবি দেয়া মাস্ট ছিলো । প্রথমে তাই ভেবেছিলাম। কিন্তু পোষ্ট বড় হয়ে গেল এমনিতেই। আরো বড় করতে চাই নাই। আলাদা করেই দিব।

৫| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ২:২৩

মোহামমদ কামরুজজামান বলেছেন: ভাই কি কুম, সারা দুনিয়াটাই এমন ।আপনি ,মরবেন মরেন- আপত্তি নাই তবে ভাবীর কি হবে পরে কই যাবে এই চিন্তায়ই হিতাকাংখীরা :(( অস্থির থাকে । এর পিছনে কারনটা কি ভাইজান - জানবার :P মুনচায়।

আর সারার যেই বর্ণনা দিলেন তাতে আমারই আর আরেকটু হলে সারা ;) (শেষ) হয়ে যেত। এই বয়সে কি হৃদয় বেটার এইসব সয় বলেন ? আবার এটাও ঠিক, হৃদয়ে সয়না (গড়বড় হয়ে যায়) তবে এই মন B-)) চায় যে মোর"

আর ওয়েলস আসলেই সুন্দর - খুবই সুন্দর তবে সারা ;) থেকে কম সুন্দর।

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ২:৪১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: সবকিছুর কারন জানতে নাই। কিছু কিছু নিজের অভিজ্ঞতা দিয়া বুইঝা নিতে হয়। আর সারারে না দেইখাই আপনের যেই অবস্থা, দেখলে না জানি কি হইতো!! ;)

আর ওয়েলস আসলেই সুন্দর - খুবই সুন্দর তবে সারা ;) থেকে কম সুন্দর। কেডায় কইলো? :(

৬| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ২:৩৬

যাযাবর চখা বলেছেন: ভয়ংকর অভিজ্ঞতা। আমি হলে রাত্রে ঘুমই আসতো না।

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ২:৪২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: হ্যা......তা ঠিক। তবে আমার আমার সাহস খুব বেশী!!! :P

৭| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ২:৪৯

*আলবার্ট আইনস্টাইন* বলেছেন: পোস্ট পড়ে মনে হইতেছে ক্রেজ আর হিউমার ঝারতেছেন। ভ্রমনের গল্প এইরকম হওয়ার কথা না। ওয়েলসে কোন ভুয়া বাঘ চোখে পড়ে নাই??

পৃথিবীটা আসলেই সুন্দর।

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ২:৫৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনের কি মনে হইতেছে, এইটা খুবই গুরুত্বপূর্ণ, স্যার!!! B-)

এইটা পুরা ভ্রমনের গল্প না........সেইটার ধারনা তো শিরোনামেই আছে। ওয়েলসে ভুয়া কিংবা জেনুইন, কোন পদের বাঘই নাই বলিয়া প্রতীয়মান হয়। আমিই কয়টা দিন ছিলাম; সেইটা যদি ধরেন.............!!! :D

পৃথিবীটা আসলেই সুন্দর। অতি জ্ঞানের কথা।

৮| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:১৫

জুল ভার্ন বলেছেন: চমৎকার লিখেছেন!!!

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৫:৫২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ ভাইজান। :)

৯| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:০০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: প্রথমত পুরুষের পর্দা, দৃষ্টি সংযত করতে হবে। সারাহর দিকে প্রথম তাকিয়ে দ্বিতীয়বার যেন আর চোখ না যায়। ভাবীকে বলে দেবো।

আর পুরুষ মানুষ ভুত ডরায় ইয়া মাবুদ।

আমিও ডরাই আমি জীবনেও ঘরভর্তি মানুষ থাকলেও এক রুমে একলা থাকতে পারি না।

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৫:৫৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: একজন চোখের সামনে সারাদিন ঘুর ঘুর করতে থাকলে চোখ নামামু কেমনে? কামের কারনে তো কথাও কওন লাগে, নীচের দিকে তাকায়া কথা কমু? কি কন না কন!! আমার দৃষ্টি অসংযত, এই তথ্য আপনেরে দিল ক্যাডায়? খালি নামটা কন, বাকী কাম আমার!!! X(

আর শোনেন, আপনেগো ভাবীরে আমি ডরাই না। তয়, কায়দামতোন পড়লে ভুতরে ডরান লাগে…...সে পুরুষই হোক, আর মহিলা। দিনের বেলা সবাই রাজা-উজীর মারতে পারে। রাইতে না বুঝন যায়, আসল কাহিনী। :P

আমি আপনের মতোন ডরপুক না। আপনে তো রাইত একটায় নীচে যাওনের আগেই চিত্তারায় যাইতেন। কথা কি মিছা কইলাম? B-)

১০| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:০৬

স্প্যানকড বলেছেন: ভালো লাগলো। আপনে কোন দোয়া পড়েন নাই ? ভুতেরা কি সাদা রঙ ছাড়া আর কোন কালার পছন্দ করে না? আলাপ করলে কিন্তু মেলা কিছু জানতে পারতেন। আপনার ব্লগ এর কথা কইতেন আগ্রহ নিয়া যদি সামুতে লিখতে শুরু করত ভুত তবে মন্দ কি! একজন ভুতের লিখা একমাত্র সামুতে পাওয়া যাইত ! সে যাই হোক ঠিকঠাক আছেন তো ? রাইতে একলা কম থাইকেন। ভালো থাকবেন এবং সুস্থ ও নিরাপদ থাকুন।

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৫:৫৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: অন স্পট দোয়া পড়নের টাইম পাই নাই। ঘরে আয়া পড়ছি। :P
ভুতেরা মনে হয় সাদাই পছন্দ করে। অবশ্য অনেক ভুত কালোও পছন্দ করে। তবে, অন্য কালারে তাদের এলার্জী আছে…..এইটা নির্ভরযোগ্য তথ্য। ;)

নেক্সটবার কোন ভুত সামনে পড়লে জিগামু নে, ব্লগিং করার ব্যাপারে কি মতামত। আপনে বেশী টেনশান কইরেন না। :)

১১| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:৫৬

শেরজা তপন বলেছেন: ভয়াবহ অবস্থা -এর মধ্যে আপনি ঘুমাইলেন কেমনে????
নাকি সারাহ বেগমের সাথে একটু গপ সপ কইরা মনটা চাঙ্গাস করে নিছেন :) কাহিনী খোলসা করেন?
আপনার ভাবগতিক ভাল ঠেকতেছে না- রমণীড় আগুনঝরা রুপের যা গল্প করলেন :P

২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৫:৫৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ভয়ের চোটে ঘুমায় গেছিলাম মনে হয়!! =p~

আমি চরিত্রবান মানুষ। রাইত বিরাইতে সুন্দরী রমণীদের ধারে কাছে যাওয়ার কথা বইলা আমার চরিত্রে দাগ লাগানোর আপনের এই অপচেষ্টা সফল হওয়ার কোন সুযোগ নাই। B:-/

১২| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৮:৩৯

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: আমি এই প্রথম শুনলাম ভুতের নাকি ধুমপানের নেশা লাগে আর আপনি তখন হিস করছিলেন। ব্যাটা ভুতকে হিসি না থামিয়ে বরং
দ্বিতীয়ত- আপনাকে দেখে ওয়েলসের ভুত হাতের বিড়ি ফেলে পালিয়ে যাচ্ছে আর আপনি হিসি ফেলে তাকে ধাওয়া করেছেন বিষয়টা মন্দ লাগেনি। তাহলেও আমাদের মানতেই হবে যে আপনি সত্যিই ভুতে খেদানো বা ভুতে প্যাদানো ব্লগার।
তৃতীয়ত- সারাকে এতোটা লুকানোর দরকার ছিল না। পুরুষ সিংহের ন্যায়। আর সবকিছুর মধ্যে ভাবীকে টানার দরকার কি?
যাক মোটের উপর মিশন সাকসেসফুল। রিসোর্স পারসন হিসেবে ক্রিস গেইল, রাজকুমার হ্যারী,বা প্রিন্সেস সারাকে কিভাবে সামলালেন সে গলপো না হয় আরেক দিন হবে। কোনো অবস্থাতেই ভাববেন না গভীর রাতে সারার রুমের সামনে মাওয়া বা লাইট আছে কিনা উঁকি দেওয়াতে আপনার চরিত্রের দিকে তাকিয়েছি। তওবা তওবা কু কথা কখ্খনো না।

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৫৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনে ব্লগে ছবি উল্টা দেন, এতোদিন খালি এইটাই জানতাম। এখন দেখি, একটা লেখা পড়ার পরে উল্টাও বোঝেন। আপনের এই দুরবস্থা দেইখা দুঃখ লাগে। চোখের সামনে একজন মানুষের দিনকে দিন এই রকমের অবনতি! চোখে দেখা যায় না!!! আপনে এক কাজ করেন বরং……..কয়েকদিন ব্লগিং বন্ধ রাইখা বিষয়টার দিকে নজর দেন, নয়তো সামনে আরো খারাপ দিন আসতে পারে। মনে করেন, এই ধরনের ঘটনা যদি নিজের বউ আর প্রতিবেশীর বউয়ে আউলায়া যায়…….....অবস্থাটা ভাবতে পারেন? আপনারে আমরা এতো তাড়াতাড়ি হারাইতে চাই না। B-)

সবকিছুর মধ্যে আমি ভাবীরে টানছি, নাকি আপনেরা টানছেন? আর আপনের তৃতীয়তঃ বিষয়টার বাকী অংশ নিয়া বলার কিছুই নাই। আপনেরে এক কথায় বলি…..ভুয়া মফিজের চরিত্র, ফুলের মতোন পবিত্র!!! :P

১৩| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১০:২৮

জাদিদ বলেছেন: লন্ডনে ভুতের গল্প অনেক শুনেছি। আমার এক আত্মীয়, বন্ধু অনেকেই এই বিষয়ে গালগপ্প করেছে। সত্যি কি এই দিকে এমন কিছু দেখা যায় কি না?

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৫৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: অপার্থিব জগৎটা সম্পর্কে আমরা সত্যিকারভাবে আর কতোটাই বা জানি! তবে, ভুতরা যদি বহু প্রাচীণ শহর-গ্রাম, পাহাড়-জঙ্গল, পরিত্যক্ত বা শতাধিক বছরের পুরানো ঘর-বাড়ি আর ভুতুড়ে, আনপ্রেডিক্টেবল আবহাওয়া পছন্দ করে, তাহলে এই বৃটিশ দ্বীপপুন্জ তাদের জন্য আদর্শ স্থান। সেই কারনেই হয়তো বা এখানে এ'ধরনের ঘটনা বেশী শোনা যায়।

আমি নিজেকে প্রচন্ড সাহসী বলবো না, তবে গড়পরতার চেয়ে বেশী অবশ্যই। গভীর রাতে একা একা বাসার বাইরে আমি প্রায়ই যাই। ভয়ের ঘটনা আমার জীবনে ঘটেছেও প্রচুর। তবে আমার একটা অভ্যাস আছে। অস্বাভাবিক কিছু ঘটতে দেখলে আমি সেটা খতিয়ে দেখি। একটা উদাহরন দিলে বিষয়টা পরিস্কার হবে।

দেশে একবার এক শীতের রাতে পুরো বাসায় আমি একা ছিলাম। শীতের সময় এমনিতেই যে কোনও শব্দ অনেক পরিস্কার শোনা যায়, অন্যান্য নয়েজ কম বা না থাকার কারনে। রাতে শুয়ে পড়েছি; এমন সময় শুনি, রান্নাঘরে বাসন-কোসন নাড়ার শব্দ। বাসায় কেউ নাই, আবার বাইরে কোন জোর বাতাসও বইছিল না। উঠে গিয়ে আলো জ্বালালাম, শব্দ থেমে গেল। এসে শুয়েছি, আবার শব্দ। এবার উঠে আলো জ্বালিয়ে চুপচাপ একটু অপেক্ষা করলাম, দেখলাম, একটা গম্বুজাকৃতির ঢাকনা মেঝের এক মাথা থেকে আরেক মাথায় চলে গেল। এই পরযায়ে যে কেউ ভয় পেতে বাধ্য, আমিও প্রাথমিকভাবে পেয়েছিলাম। কিন্তু আসল ঘটনা ছিল, একটা নেংটি ইদুর কিভাবে যেন ওই ঢাকনার নীচে চলে যায়। ওটার নীচ থেকে বের হওয়ার চেষ্টার কারনে, আর ছোটাছুটির জন্যই সে বিভিন্ন শব্দ করছিল।

এধরনের বহু ঘটনায় আমার ভিতর থেকে কোন সাবধানবাণী আমি পাই নাই। আর সেগুলো পরিবেশ-পরিস্থিতির কারনে ভয় জাগানিয়া হলেও আদপে কোন ভৌতিক ঘটনা ছিল না। তবে, এই পোষ্টের ঘটনাটাসহ আমার জীবনে আরো দু'টা ঘটনা এই বিলাতেই ঘটেছে, যেখানে একটা পর‌যায়ে আমার ষষ্ঠ-ইন্দ্রিয় আমাকে পরিস্কার বলেছে…...ভাগ!! আমি আর অগ্র-পশ্চাৎ বিবেচনা না করে ভেগেছি। এটাকে আমি কিভাবে ব্যাখ্যা করবো, জানি না। তবে, ওয়েলসের এই ঘটনাটায় ষষ্ঠ-ইন্দ্রিয় হস্তক্ষেপ না করলে আমি জিনিসটা দাড়ানোর পরে কি করে, সেটা অন্ততঃ দেখার জন্য নিশ্চিতভাবেই অপেক্ষা করতাম।

ধর্মীয় কারনে আমি জ্বীন বিশ্বাস করি। কাজেই আমার ধারনা, ভুতের কাজ-কারবার হিসাবে যেসব ঘটনাকে আমরা ডিনোট করি, সেগুলো আসলে জ্বীনের কাজ-কারবার। এই পৃথিবীতে কোটি কোটি মানুষের সাথে বিভিন্ন সময়ে অনেক ঘটনা ঘটেছে, যার সবগুলোকেই ব্যাখ্যা করা যায়? আমার মনে হয় না। ব্যাখ্যাতীত অনেক ঘটনা আছে। একজন অশিক্ষিত গ্রাম্য মানুষ কোন ঘটনার কথা বললে আমাদের শিক্ষিত মন অনেক সময়েই একটা ব্যাখ্যা দাড় করায়, অশিক্ষিতের ভাবনা বলে উড়িয়ে দেয়। সবই কি আসলে গালগল্প বলে উড়িয়ে দেয়া যায়? কি জানি??

আপনার কি মনে হয়?

১৪| ২৬ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১০:৪৪

এস এম মামুন অর রশীদ বলেছেন: আপনার উপর মনে হয় Ladies of Llangollen-এর আছর হয়েছে, যারা শুধুমাত্র পুরুষদের দেখা দেয়। সাবধান থাকবেন আগামী কিছুদিন, ফাঁড়া কাটেনি এখনও!

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:০৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: Ladies??? একটা লেডি নিয়েই হিমশিম খাই! লেডিজ হলে তো আর কথাই নাই। আছর এবং ফাড়া, দু'টাই কাটানোর কোন দাওয়াই জানা থাকলে জানাবেন, প্লিইজ!!! :-B

১৫| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ ভোর ৪:৪৮

সোহানী বলেছেন: ঘটনা যে কোনদিক দিয়া কতটুকু কইসেন এই নিয়া আমার ব্যাপক সন্দেহ!!

একেতো সুন্দরীরে নিয়া ট্যুর, সাথে ভাবী নাই, রাত দুপুরে ঘরের বাইরে বিড়ি টানা নাম কইরা বাইরে, সাথে ক্রিস পাগলা..............!!! শার্লক হোমস দরকার :P

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:২৭

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনে হুদাই আমারে সন্দেহ করেন। যেমনে কইতাছেন, ট্যুরে খালি সুন্দরী আর আমিই ছিলাম!!! আরো দুইজন তো ছিল, নাকি!! ;)

সবাই দেখি ভুতের বিষয়টা বাদ দিয়া খালি সুন্দরী নিয়া পড়লো! বিষয়টা বুঝলাম না। :( সব কিছুই ফকফকা…...শার্লক হোমসরে ডাকলেও হ্যায় এই কেস লইতে আইবো না।

১৬| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ৯:২১

ইসিয়াক বলেছেন: এইটা কি স্টার জলসার সিরিজ !!!!!!??????
পোস্টে ছবি দিলেই তো হয়ে যেতো। এক টিকেটে দুই ছবির মত (আবার অন্য কিছু ভাইবেন না :-B ) গরম গরম পরের পর্বের জন্য অপেক্ষা।। তাড়াতাড়ি ছবি ব্লগ দেন দেখে নয়ন সার্থক করি :P


# আমার কয়েকটা গল্পে কিন্তু মন্তব্য পাই নাই। X(( X( X((

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ৯:৩০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: স্টার জলসার সিরিজ বিষয়টা কি? একটু ব্যাখ্যা করেন দেখি!! মনে হয়, ছোটবেলায় এক টিকেটে দুই ছবি বেশী দেখছেন। প্রভাব কাটে নাই এখনও। :P
এই পোষ্টে ২০/২৫টা ছবি যোগ করলে পোষ্টের আকার কি দাড়াইবো, আন্দাজ আছে কোন? B-)

# আমার কয়েকটা গল্পে কিন্তু মন্তব্য পাই নাই। কন কি? কতোগুলা গল্প? ব্লগে নিয়মিত আসার সময় পাই না, বিশেষ কইরা ওয়ার্কশপের ঝামেলায় বেশ কয়েকটা দিন তো আসিই নাই বলতে গেলে। কতোকিছুই মিস হয়। যাক, কয়া ভালো করছেন। চেক করুম নে। সব সময় এরাম রিমাইন্ডার দিবেন, কারন আমার পরিস্থিতির উন্নতি হওনের কোন সম্ভাবনা নাই। :(

১৭| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ৯:৪২

জুন বলেছেন: পুরনো ইউনাইটেড কিংডম এর রাজ্যগুলোর দুর্গ আর পুরনো বাসা বাড়িগুলো যেন এক একটা ভুতের আড্ডা। ওয়েস্ট মিনিস্টার এবেতে এখনো নাকি রানী এনে বলিনের মুন্ডহীন ধর ঘুরে বেড়ায় যার মুন্ডুচ্ছেদ করেছিল তার স্বামী রাজা অস্টম হেনরী আরেকটি বিয়ে করার জন্য।লেখাটি ভালো লাগলো ভুয়া।
+

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১১:২৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ঠিকই কইছেন আপা, তবে পুরনো ইউনাইটেড কিংডম এর বিষয়টা বুঝি নাই। আসলে পুরা বৃটেনেই সুপ্রাচীন দূর্গ, হন্টেড প্রাচীন বাড়িঘর আর জায়গার অভাব নাই। সেইজন্যই ভুতদের খুব প্রিয় জায়গা এইটা। ওয়েস্ট মিনিস্টার এবে ছাড়াও বৃটিশ পার্লামেন্ট আর টাওয়ার অফ লন্ডনও ভুতের হামলা থিকা রেহাই পায় নাই।

বৃটেনে সবচেয়ে বেশী দূর্গ আছে যতোদূর জানি ওয়েলসে। মাত্র একটাতে খানিকটা সময় ঘোরার সুযোগ পাইছি। তবে ইচ্ছা আছে, আরেকবার খালি ঘোরার জন্য যাওয়ার। লেখাটা আপনের ভালো লাগায় শান্তি পাইলাম। :)

১৮| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:১১

অপু তানভীর বলেছেন: ভুতের গল্পে আরেকটা লাইক দিলাম । এইটা নিয়ে একটা গল্প লেখা যায় কিনা দেখি !

২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১১:২৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ভুতের গল্পে আরেকটা লাইক দিলাম আপনেরে আল্লাহ আরো লাইক দেওয়ার তৌফিক দান করুন। একটা লাইকে যেই উৎসাহ পাওয়া যায়, দুইটা লাইকে তার তিনগুন বেশী উৎসাহ পাওয়া যায়। কাজেই ভবিষ্যতে এই অভ্যাসটা জারী রাইখেন। :P

এইটা নিয়া আপনে গল্প লিখলে তো দারুন হয়। লেইখা ফালান…...বেশী দেরী করার দরকার নাই।

১৯| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৫০

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আমার হার্ট বেশী দুর্বল । রাইতে বাইরে যাওয়েনের কথা মনেও করতে চাই না। ছেলের জ্বর হইলো, সেন্সলেন্স হওয়া দেখে আমিও নাই.... সে ভালো হয়ে ডাকে মা আমার কিছু হয় নাই। বুঝেন হার্টের অবস্থা ।

২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৩৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: বাদাম, হোলগ্রেইন শস্য, সামুদ্রিক মাছ, ডার্ক চকলেট, সবুজ শাক এইসব বেশী কইরা খাইবেন। হার্ট দেখবেন কতো মজবুত হয়! তখন অমাবশ্যার রাইতে কবরস্থানে গেলেও ডর লাগবো না। আর তাতেও কিছু না হইলে নিয়মিত হরলিক্স খাইবেন; এইটা অবশ্য আমার না, আপনের প্রিয় ব্লগার মা. হাসানের প্রেসক্রিপশান!!! =p~

২০| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১০:৫৩

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
পড়লাম। ভালো লাগলো। কিন্তু জিনিসটা কি ছিল, দূর থেকে আরেকটু নিরীক্ষণ করতেন। যাক কোন অঘটন ঘটে নাই এটাই আশার কথা। ++++

২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৩৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: হোটেলের বাউন্ডারী চারিদিকে। দুর থেকে নিরীক্ষণ করার কোন উপায় ছিল না। :)

২১| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:০৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: @হাবিবঃ আপনার মন্তব্যটা পড়েছি। মজার ছিল। উত্তর দেয়ার আগেই দেখি, নাই। দু'টা শব্দ সম্ভবতঃ ব্লগীয় নীতিমালার বিরুদ্ধে গিয়েছে। তবে আমি জানি, আপনি মজা করেই বলেছিলেন। ভুতটা নিয়ে যদি দু'চার কথা বলেন, তাহলে ভালো লাগবে। আপনার রসালো মন্তব্যের অপেক্ষায় থাকলাম। :)

২২| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:৩৬

মনিরা সুলতানা বলেছেন: এমন একটা দুইটা ভুত পালতে পারেন না ? তাইলে বস কে ভয় দেখাইতে পারতেন।
যাইহোক ছবি দিয়েন , আমি পুরানা বিল্ডিং ভালা পাই ।

২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:৪১

ভুয়া মফিজ বলেছেন: এমন একটা দুইটা পোষা ভুত থাকলে বসকে ভয় দেখানোর কাজে কি সময় নষ্ট করতাম?

দেশে আইসা প্রধানমন্ত্রী হইতাম আগে। তারপরে ব্লগারদেরকে নিয়া একটা মন্ত্রীপরিষদের ঘোষণা দিতাম, আর আপনেরে বানাইতাম সংস্কৃতি মন্ত্রী। তখন দেখতেন, আপনের লেখা পইড়া কেউই বলতো না যে, বুঝি নাই। বলতো, এতো সহজ-সরল ভাষায় লেখেন, কয়েক লাইন পড়লেই বুঝতে পারি, কি কইতে চাইছেন। একেবারে হৃদয়ের কাছাকাছি লেখা!!! ;)

ছবি দিমু, যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব।

২৩| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ রাত ১০:৫০

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: সব দেশেই ভুত আছে তাহলে। ওটা আসলে জীন ছিল। ভুত বলে কিছু নাই।

২৮ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:৪২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: ওটা আসলে জীন ছিল। ভুত বলে কিছু নাই। হ……...ঠিকই কইছেন। ১২ নং মন্তব্যে আমার প্রতি-মন্তব্য দেখেন। B-)

২৪| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সকাল ১১:৩৫

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: ছবি ব্লগটা কিন্তু সময় করে দিয়েন ।আমার পাহাড় খুব প্রিয় ।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ১:৩৮

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আহা.........পাহাড় আমারও প্রিয়। ওয়েলসের মূল পার্বত্য এলাকায় যাই নাই। তবে পুরা রাজ্যটাই ছোট-বড় পাহাড় দিয়ে ঘেরা। ছবি দিব, যতো তাড়াতাড়ি সম্ভব। :)

২৫| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ দুপুর ২:০২

ওমেরা বলেছেন: আপনি এত ভীতু!! এই আপনাদের বীরত্ব ! আমি হলে তে একটুও ভয় পেতাম না ওটা বাঘ নাকি বিড়াল বা অন্য কিছু আমি দেখেই ছারতাম।

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৫:৫৫

ভুয়া মফিজ বলেছেন: দেখেন, আপনাকে একটা গেয়ানের কথা বলি। ব্লগ নিজেকে জানার একটা গুরুত্বপূর্ণ মাধ্যম। আমরা নিজের সম্পর্কে অনেক ভুল ধারনা পোষণ করি, যেটা ব্লগারদের সাথে মিথস্ক্রিয়া না করলে জানা যায় না। আবার নিজের অনেক বিষয় আছে, যেটা আপনি কস্মিনকালেও ভাবেন নাই, সেটাও জানা যায়। :-B

এবার আপনার মন্তব্যে আসি।

নিজের সম্পর্কে আমার ধারনা ছিল, আমি ঠিক বীরপুরুষ না, তবে গড়পরতা মানুষের চাইতে বেশী সাহসী। এখন জানলাম, আমি আসলে ভীতু। আমার ভুল ধারনা ঠিক করে দেয়ার জন্য আপনি ধন্যবাদ পেতেই পারেন। :P

তবে, একটা ব্যাপার বুঝলাম না। আপনি বলেছেন, এই আপনাদের বীরত্ব ! ওখানে তো আমি একলা ছিলাম, যেটা পোষ্টেই বলেছি, তাহলে বহুবচন আসলো কোত্থেকে? তবে কি..........? আর আপনি যেহেতু সাহসী নারী, এই ভীতু মানুষটাকে কিছু সাহস ধার দেয়ার আবেদন থাকলো। ;)

২৬| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৩:২২

নীল-দর্পণ বলেছেন: ভুতের আগমন শুনে ভরদুপুরেই একটুখানি ভয় পেলাম!

ছবি ব্লগ অবশ্যই দেবেন।
পোস্টে ভালো লাগা।

৩০ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২২

ভুয়া মফিজ বলেছেন: যতোদূর মনে করতে পারি, আমার কোন পোষ্টে এটাই আপনার প্রথম মন্তব্য। তাই........আহলান ওয়া সাহলান!! :)

ভর দুপুরেই যদি ভয় পান, তাহলে রাতে কি করবেন? ব্লগার ওমেরার কাছ থেকে কিছু সাহস নিয়ে জমা করে রাখতে পারেন। রাতে কাজে আসবে। :-B

ছবি ব্লগ অবশ্যই দেবেন। সময় আমার জন্য আসলেই একটা বিশাল ফ্যাক্টর। তবে অবশ্যই দিবো। ASAP!

অসংখ্য ধন্যবাদ। ভালো থাকবেন।

২৭| ২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২১ বিকাল ৪:৫৯

জুন বলেছেন: পুরনো ইউনাইটেড কিংডম মানে যখন আয়ারল্যান্ড সহ ছিল। আপনার মত এত গিয়ানি মানুষকেও এত খোলাসা করে যদি বলতে হয় তবে আমার বেলায় কি হবে /:)
মনেপ্রাণে মাহার অভাব অনুভব করছি, নিজের দাওয়াত নিজে দিতে কেমন জানি লাগে :``>>

০৩ রা অক্টোবর, ২০২১ বিকাল ৫:১০

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আয়ারল্যান্ড তো এখনও আছে, পুরাটা না থাকলেও। :P

আর আপনে দঃ আয়ারল্যান্ড আলাদা হওনের কথা যদি কন, ওগো ভুত নিয়া ততটা সমস্যা নাই। সমস্যাটা মূল ভু-খন্ড, মাইনে ইংল্যান্ড, স্কটল্যান্ড আর ওয়েলস এ। আপনে রিপোর্টেড হন্টেড লোকেশানস দিয়া আলাদা আলাদা রাজ্যের সার্চ দেন গুগলে, তাইলেই বিষয়টা ধরতে পারবেন।

আপনের কেমন জানি লাগা, দাওয়াত আর মাহা'র অভাব ফিল করা দেইখা মনে হইতাছে, নতুন পোস্টাইছেন। ভদ্রলোক যে কই লুকাইলো!! আমিও মিস করি। যাইহোক, হ্যায় না থাকলেও আমাগো কাম চালাইতে হইবো। কয়া ভালো করছেন। আমার অহন আর নিয়মিত ব্লগিং করা সম্ভব হইতাছে না। অনেক পোষ্টই এইদিক-ওইদিক দিয়া মিসিং হইতাছে। কিছুই করনের নাইক্কা। রুটি-রুজির ধান্ধা আগে.......কি কন!!!

যাউগ্গা, প্যাচাল না পাইড়া দেহি আগে........কি পুস্টাইলেন!!! :)

০৩ রা অক্টোবর, ২০২১ বিকাল ৫:৫৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনের পুষ্টে কাম সাইরা আইলাম!! B-)

২৮| ০১ লা অক্টোবর, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৪৭

নীল-দর্পণ বলেছেন: রাতের বেলা ভয়-টয় এখন করবে না তেমন কারন আমার কন্যাদ্বয় একটু পর পর উঠে আমাকে সংগ দেয়। দুপুরে তারা ঘুমায় , নিরিবিলি থাকে তো তাই ভয় তখনি :|

০৩ রা অক্টোবর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: যাক, আপনার কন্যারা এখন থেকেই মায়ের দেখাশোনা করছে। মর্ণিং শো'জ দ্য ডে....কথাটাকে যদি গুরুত্ব দেই, তাহলে আপনার ভবিষ্যৎ খুবই ভালো। যে কোনও বিপদে-আপদে আপনার কন্যারা ঢাল হিসাবে থাকবে।

তবে দুপুরের জন্য কিছু সাহসের প্রয়োজন হলে আমাদের সবার প্রিয় অকুতোভয় ব্লগার ওমেরার শরণাপন্ন হতে পারেন। :)

২৯| ০২ রা অক্টোবর, ২০২১ রাত ১:৫৬

ওমেরা বলেছেন: হি হি হি —-এটা বুঝলেন না । আপনি এত বোকা ! এই আপনাদের বীরত্ব বলতে কি বুঝিয়েছি সেটা বুঝলেন না :(

০৩ রা অক্টোবর, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২৯

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আমি বোকা না; সহজ, সরল আর নিরীহ কিসিমের একজন আলাভোলা মানষ। অবশ্য এটাকে অনেকে বোকা ভেবে থাকে......অনেকটা দড়িকে সাপ ভাবার মতো। আসলে প্যাচ-ঘোচ আমার মাথায় কম ঢোকে। আপনাদের বীরত্ব কথাটাতে আমি দুই বা ততোধিক মানুষের বীরত্বই তো বুঝলাম, এখন এর ভিতরের মানে আপনি ব্যাখ্যা না করলে বোঝা আমার সাধ্যের বাইরে!! ;)

তবে আপনার হি হি হি সুবিধার মনে হলো না। অনুমান করতে পারি, বিষয়টা বোধহয় খুব একটা জটিল না।:P

৩০| ১৩ ই অক্টোবর, ২০২১ রাত ১১:২১

জাদিদ বলেছেন: ব্যক্তিগতভাবে আমার এখনও এই ধরনের কোন কিছু দেখার সুযোগ হয় নি। তবে দুই একবার কিছু অস্বাভাবিক অভিজ্ঞতা হয়েছিলো। ভুত দেখেছেন কি না তা কেউ আগ্রহ নিয়ে জানতে চাইলে ঐ সব অভিজ্ঞতার আলোকে কিছু একটা বলি আর কি।

জ্বীন আল্লাহর সৃষ্টি। এটা যেহেতু কোরানে বলা আছে, সেহেতু এই বিষয়ে অবিশ্বাসের কিছু নাই। তবে আমার বিশ্বাস, বাংলাদেশে ৯৯% জ্বীন নিয়ে মিথ্যাচার করে।

৩১| ১৯ শে অক্টোবর, ২০২১ রাত ৮:১৪

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: মজাদার বৃটিশ ভূত দর্শন কিসসা B-)

যদিও সব্বাই খালি অন্যদিকে মোড়ামুড়ি করতেছে, আমি কিন্তু ভায়া করি নাইক্যা!
তবে ইরাম ক্ষেত্রের সিরাম কাহিনী বহুত জানি!

মন্তব্য প্রতিমন্তব্যেও দারুন ভাল লাগা।
অনেক দিনের বিরহ কাটাতে ব্যাক গিয়ারে খুঁজে খুঁজে পড়ছি ভায়া :)




আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.