নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

কিচ্ছুটি বলার নাই.......

জটিল ভাই

ঝটট্রিল সব জটিলতা

জটিল ভাই › বিস্তারিত পোস্টঃ

একখানা বেকুবীয় পত্র

২২ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৩:৪৫


(ছবি নেট হতে)

বিসমিল্লাহিররাহ্'মানিররাহিম।
আসসালামুআলাইকুম।

প্রিয়তমা সামু,
১০ বছরের অধিক তোমাতে বিচরণ করেও কখনও তোমায় লিখিনি বলে জানিনা মন খারাপ করে আছো কিনা। এটাও জানিনা তুমি ভালো কিবা মন্দ আছো। তবে তোমার মনন যদি আমার মতো হয়, তবে তোমার ভাল থাকার কথা নয়। মনে করি তোমার জন্ম খিস্তিবাজির খোড়খাতা হিসেবে হয়নি। জন্মে ছিলে নিশ্চই মানুষের আবেগ-অনুভূতির সংগ্রহশালা হতে। জন্মে ছিলে সমাজ বদলে দিতে। কিন্তু কখনও কি ভেবেছিলে এমন করে খিস্তিবাজি আর খিস্তিবাজদের জন্যে উন্মুক্ত মাঠ হয়ে যাবে? সমাজের বদল আনতে গিয়ে নিজেই বদলে যাবে?

এজন্যে আমি অবশ্য তোমাকে দোষ দেবো না। এজন্যে আমার কাঠগড়ায় থাকবেন শিক্ষক সমাজের সেসকল গুণী শিক্ষকগণ যাঁরা সমাজের উঁচু-নিচু ভেদাভেদ ভেঙ্গে দিতে শিক্ষার আলোকবর্তিকা হাতে তৃণমূল পর্যন্ত ঘুরেঘুরে শিক্ষিত সমাজ গড়তে গিয়ে শিক্ষাকে এতোটা সস্তা করে ফেলেছেন। সমাজ পরিবর্তনে নিজের জীবন-সংসারের মায়া না করে শিক্ষার উন্নয়নে বাড়ি-বাড়ি ঘুরে ছাত্র আনতে গিয়ে ছত্র দিয়ে ভরিয়ে ফেলেছেন শিক্ষাঙ্গন। ফলে শিক্ষালয়গুলো আজ পরিণত হয়েছে ছত্রালয়ে। আর ছত্রবর্গ হতে উঠে আসা এইসব ছত্ররা শিক্ষা গ্রহণের নামে জেনে গিয়েছে শিক্ষারসব নিগুঢ় তত্ব যা দিয়ে রাতদিন তৈরী করে চলেছে নানান খিস্তি। আর সমাজের রন্ধে-রন্ধে ঢুকিয়ে দিয়েছে খিস্তিবাজি। এক্ষেত্রে প্রিয় শিক্ষকগণকে বলি, আপনার আজ ব্যর্থ। আপনারা আদর্শ মূল্যায়নের সঠিক পাত্র বাছতে পারেননি। আর তাই আজ আপনার শিক্ষাঙ্গনেই আপনার তুলে আনা ছত্রদের হাতে আপনি লাঞ্ছিত। কারণ, যে দেশে অধিকাংশই অভাব আর স্বভাবে মানসিক দৈন্যতায় ভুগে, তারা সমাজ আর পরিবারে খিস্তিবাজি করবে এটাই স্বাভাবিক। আর সেই খিস্তিবাজ শ্রেণী হতে যাকে তুলে আনবেন সে সহজে খিস্তিবাজি ছেড়ে দেবে এমনটা ভাবা বোকামি নয় কি? সরি স্যার এভাবে বলার জন্য।

তো সামু, তুমিও সমাজের বাহিরে নও তাই এই আগ্রাসন হতে মুক্ত থাকতে পারলে না। তাই আজ তোমাতে বিচরণকারী অধিকাংশই তোমার বুকে খুব নিপূনহাতে খিস্তি খোঁদাই করে চলেছে কখনো কবিতা, কখনো গল্প, কখনো প্রবন্ধ, কখনো সম্পাদনা আর কখনওবা মতামত প্রদানের নাম করে। এক্ষেত্রে আমি নিজেও যে সেই দোষমুক্ত নই তা জানি। তবে কেউ না জানলেও তুমি জানো যে আমি কখনও খিস্তিবাজি করিনা। বরং খিস্তিবাজির উত্তরে রঙ্গরসে বা অসাবধানতাবশে শক্ত কথা বলে থাকি খিস্তিবাজরা ভালো হবে সেই আশা নিয়ে। যদিও আমার সেসব শক্ত কথা তাদের কাছে আনন্দের খোড়াক কারণ তারা যে খিস্তিবাজ সমাজ ব্যবস্থা হতেই উঠে এসেছে!

প্রিয় সামু, ভেবেছিলাম খিস্তিবাজদের এড়িয়ে তোমার ভালবাসায় পরে থাকবো। কিন্তু নিশ্চই দেখছো কতোটা নির্লজ্জভাবে তারপরও সেসব খিস্তিবাজ পরিবারের মানুষেরা খিস্তিবাজি করে চলেছে? আবার খিস্তিবাজদের চেয়েও ভয়ানক পরিবার থেকে উঠে আসারা কিভাবে উস্কানি দিয়ে চলেছে? যখন এই চিঠি লিখছি তখনও এমন এক উস্কানিদাতার পোস্ট তোমার বুকের প্রথমপাতায় শোভা পাচ্ছে। আরো অনেকে বিচরণ করছে মন্তব্যের ঘরে। অবশ্য তাদেরইবা কি দোষ? যে জন্ম হতে খিস্তিকে আনন্দের উৎস হিসেবে জেনে এসেছে সেতো খিস্তি ছাড়া মরে যাবে। এতো সহজে কে মরতে চায় বলো?

তবে সামু, তোমার দায়ভার যারা কাঁধে তুলে নিয়েছে তারা এখনো ঘুমিয়েও পরেনি আবার এতো-এতো খিস্তিবাজের সঙ্গে পেরেও উঠছে না। বারবার খিস্তিবাজদের বেহায়াপনার কাছে পরাজয় বরণ করে চলেছে। তোমার কর্তৃপক্ষের জন্যেও বড্ড মায়া হয় এমনভাবে হিমশিম খাচ্ছে দেখে। তবে এতো কিছুর পরও অনেকেই তোমাকে ভুলতে গিয়েও ভুলতে পারছে না। কারণটা অনেক মজার। তারা না চেনে জানা আপাকে, না বুঝে কাল্পনিক_ভালবাসাকে। তারা শুধু একটা শব্দই জানে। আর তা হচ্ছে "সামু"। শুধু এই নামের মোহেই অনেকে দূরে গিয়েও বারবার ফিরে আসে। অন্যকোনো উদ্দেশ্য তাদের নেই। তবে যেভাবে খিস্তিবাজরা সফলতা বয়ে আনছে তাতে অনেকের মনেই হয়তো তোমার নামটি নিষিদ্ধভাবে ঠাঁই পেয়ে গেছে। তারা হয়তো ভুলেও চাইবেনা উত্তরপ্রজন্মে তোমার পরশ লাগুক। যদিও এমন চাওয়াতে তাদের হৃদয় বিদীর্ণ হয়ে যাবে।

সামু, অনেক আবোল-তাবোল বলে তোমার সময় নষ্ট করার জন্যে ক্ষমা চাই। তবে তোমায় বিশেষভাবে এইজন্যে ধন্যবাদ জানাই যে, তুমি না থাকলে জানতে পারতাম না শিক্ষার নামে কুশিক্ষায় যে সমাজটা এতো পচে গেছে। সেও জানতে পারতাম না যে, টাইপ করা শিক্ষিতদের অনেকেই খিস্তিবাজ সমাজ হতে উঠে এসেছে। খিস্তিবাজ মরলেও খিস্তিবাজ। তোমার এই অবদান অনস্বীকার্য। এই ঋণ অপরিশোধ্য।

পরিশেষে তবুও চাইবো, আল্লাহ্ সবাইকে সঠিক বুঝার সক্ষমতা দান করুন। ভুল-ত্রুটির জন্যে ক্ষমাপ্রার্থী।

আল্লাহ্ হাফিজ।

মন্তব্য ২০ টি রেটিং +৭/-০

মন্তব্য (২০) মন্তব্য লিখুন

১| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৩:৫৫

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: জটিল চিঠি!

২২ শে এপ্রিল, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:২৭

জটিল ভাই বলেছেন:
জাজাকাল্লাহ্ প্রিয় ভাই।

২| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৩:৫৫

জুল ভার্ন বলেছেন: "হে প্রভূ, আমাদের জ্ঞান দান করো"।

২২ শে এপ্রিল, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:২৮

জটিল ভাই বলেছেন:
আমিন।

৩| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৩:৫৫

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: ‌একখানি কবিতা মনে পরিয়া গেলো -

আমি মূলতানী গাই
শ্রোতারা বাছুর সম মুখপানে চেয়ে মম
ঘন ঘন তোলে হাই।।
জাপটে সুরের দাড়ি
শ্বশুরের দাড়ি, ভাসুরের দাড়ি
সাপটে তান মারি-আ-আ-আ
জাপটে সুরের দাড়ি
পমকে ধমক দেই, মীরে মাড় চটকাই।।
হায় হায় রে হায়-
বোলতানে আবোল-তাবোল তানে খেলি হা-ডু-ডু
কিত-কিত - হা-ডু-ডু- হা-ডু-ডু-কিত-কিত-কিত-কিত-কিত
মোড়-মোড়-মোড়
আমি বাটের চাট মেরে সুরে করি চিত
আমি তালের সিঙ দিয়ে বেদম গুতাই।।
মোর মুখের হা দেখে হিপোপটেমাস
আফ্রিকার জঙ্গলে ভয়ে করে বাস
আমি যত নাহি গাই তার অধিক রাগাই।।

-কা.ন.ই.

২২ শে এপ্রিল, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৩৪

জটিল ভাই বলেছেন:
বাণিজ্যধর্মী আদ্যাত্মিক কথা-বার্তা কম বুঝি।

৪| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৫:১১

ইসিয়াক বলেছেন: আহা এতো মধুময় জটিল চিঠি

২২ শে এপ্রিল, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪০

জটিল ভাই বলেছেন:
হাহাহাহাহাহা........ জটিলবাদ প্রিয় ভাই।

৫| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৫:২৭

আরইউ বলেছেন:



জটিল,
কতৃপক্ষ ব্যস্ত আছেন, পরে আসেন।
বিগত কিছুদিনে যা হলো তাতে আমি গালি কোন মাত্রায় দেয়া যাবে, কোন মাত্রায় ব্যক্তি আক্রমন করা যাবে তা শিখেছি। আশাকরি আমি ঐ মাত্রায় ব্যক্তি আক্রমন করলে কাল্পনিক_ভালোবাসা বা কতৃপক্ষের কেউ গোস্বা করবেন না; আমি বহাল তবিয়তে গলাবাজী এবনহ গালিবাজী চালিয়ে যেতে পারবো। ধরে নিচ্ছি প্রমান ছাড়া কাউকে "ছাগু" বা "রাজাকার" এর মত ঘৃণ্য গালি দেয়াও এখন ক্ষমা সুন্দর দৃষ্টিতে দেখা হয়।
কেউ বলতে পারেন আমিও তো অন্যদের "চোর" বলে গালি দিয়েছে/দেই! হ্যা, প্রমান সাপেক্ষে। কেউ দাবী করতে পারবে আমি প্রমান ছাড়া কাউকে "চোর" বলেছি? অবশ্যই না!
যাহোক, কাল্পনিক_ভালোবাসা সহ কতৃপক্ষকে অসংখ্য ধন্যবাদ মাত্রাহীন গালাগালি ব্লগে উন্মুক্ত করে দেয়ার জন্য। এটা একটা যুগান্তকারী কাজ হয়েছে।
ভালো থাকুন!

২২ শে এপ্রিল, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪২

জটিল ভাই বলেছেন:
আরইউ,
ব্লগে কি যে উন্মুক্ত আর কি যে আবদ্ধ হচ্ছে তা বুঝতে মনে করি আরেকটু সময় নেওয়া সমীচীন।
আপনিও ভালো থাকুন।

৬| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:১৮

আশিকি ৪ বলেছেন: জুল ভার্ন বলেছেন: "হে প্রভূ, আমাদের জ্ঞান দান করো"।

মগজহীন ব্লগারে ব্লগ ভরে গেসে। জ্ঞানের বড্ড অভাব।

২২ শে এপ্রিল, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪৩

জটিল ভাই বলেছেন:
হুম্। তোমায় দেখলেই বুঝা যায়।

৭| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ রাত ৮:২০

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: বুঝতে পারছি না এই চিঠির মধ্যে আমাদের প্রবেশ উচিত হবে কিনা। তবে যাই ঘটুক এমন ইন্টেলেকচুয়াল বিনোদন সুপার্ব।

২২ শে এপ্রিল, ২০২২ রাত ৮:২৯

জটিল ভাই বলেছেন:
খোলা চিঠি। প্রবেশাধীকার সংরক্ষিত নয়। জটিলবাদ প্রিয় ভাই।

৮| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ রাত ১১:৪৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: এ'ব্যপারে ব্লগ টিমের একটা পরিস্কার বক্তব্য আশা করছি।

২৩ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৩:১০

জটিল ভাই বলেছেন:
জাজাকাল্লাহ্। টিমের অবস্থান পরিষ্কার প্রিয় ভাই।

৯| ২২ শে এপ্রিল, ২০২২ রাত ১১:৪৬

সাগর কলা বলেছেন: - সরি। ভুলে + দিয়ে দিলাম। কিন্তু এসব কি ভাইয়া! ব্লগ সম্পর্কেতো ভয় পাইয়ে দিলেন।

২৩ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৩:১১

জটিল ভাই বলেছেন:
তবে এবার - দিয়ে দিন =p~
ভয়কে জয় করে এগিয়ে চলুন প্রিয় ভাই। জটিলবাদ।

১০| ২৩ শে এপ্রিল, ২০২২ সকাল ৯:৫১

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন: প্রিয় ভাই, সামুকে এমন চিঠি লিখতে হবে হয়তো কখনো আপনিও ভাবেননি, আমিও না, সামুও না কিন্তু সময়ের প্রয়োজনে লিখতে হলো , পড়তে হলো।

ভাল থাকুক সামু। ভাল থাকি সকলে।++++

২৩ শে এপ্রিল, ২০২২ বিকাল ৩:১৪

জটিল ভাই বলেছেন:
জাজাকাল্লাহ্। যথার্থই বলেছেন প্রিয় ভাই। তবুও চাই সামু রাহুরদশা হতে মুক্তি পাক।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.