নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি বিশুদ্ধ কোন মানব নই, তুমি তোমার মত করে শুদ্ধ করে নিও আমায়

ডার্ক ম্যান

...

ডার্ক ম্যান › বিস্তারিত পোস্টঃ

আজ বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান এর শাহাদাত বার্ষিকী

২০ শে আগস্ট, ২০১৭ সকাল ১১:৫১


আজ ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান এর শাহাদাৎ বার্ষিকী । ১৯৭১ সালের আজকের এই দিনে তিনি শহীদ হন।

মতিউর রহমান ১৯৪১ সালের ২৯ অক্টোবর পুরান ঢাকার ১০৯ আগা সাদেক রোডের পৈত্রিক বাড়ি " মোবারক লজ" এ জন্মগ্রহণ করেন। ৯ ভাই ও দুই বোনের মধ্যে মতিউর ষষ্ঠ । তাঁর বাবা মৌলভী আবদুস সামাদ এবং মা সৈয়দা মোবারেকু্ন্নেসা খাতুন। ঢাকা কলেজিয়েট স্কুল থেকে ষষ্ঠ শ্রেণী পাশ করার পর সারগোদায় পাকিস্তান বিমান বাহিনী পাবলিক স্কুলে ভর্তি হন। ডিস্টিংকশনসহ মেট্রিক পরীক্ষায় সাফল্যের সাথে প্রথম বিভাগে উত্তীর্ণ হন। ১৯৬১ সালে বিমান বাহিনীতে যোগ দেন। ১৯৬৩ সালের জুন মাসে রিসালপুর পিএফ কলেজ থেকে কমিশন লাভ করেন এবং জেনারেল ডিউটি পাইলট হিসেবে যোগদান করেন। এরপর করাচির মৌরীপুর জেট কনভার্সন কোর্স সমাপ্ত করে পেশোয়ারে গিয়ে জেট পাইলট হন। ১৯৬৫ সালে ভারত-পাকিস্থান যুদ্ধের সময় ফ্লায়িং অফিসার অবস্থায় কর্মরত ছিলেন। এরপর মিগ কনভার্সন কোর্সের জন্য পুনরায় সারগোদায় যান। সেখানে ১৯৬৭ সালের ২১ জুলাই তারিখে একটি মিগ-১৯ বিমান চালানোর সময় আকাশে সেটা হটাৎ বিকল হয়ে গেলে দক্ষতার সাথে প্যারাসুট যোগে মাটিতে অবতরণ করেন। ১৯৬৭ সালে তিনি ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট পদে পদোন্নতি লাভ করেন। ইরানের রাণী ফারাহ দিবার সম্মানে পেশোয়ারে অনুষ্ঠিত বিমান মহড়ায় তিনি ছিলেন একমাত্র পাইলট। রিসালপুরে দুবছর ফ্লায়িং ইন্সট্রাক্টর হিসেবে কাজ করার পর ১৯৭০ এ বদলি হয়ে আসেন জেট ফ্লায়িং ইন্সট্রাক্টর হয়ে।
তাঁর স্ত্রীর নাম মিলি রহমান।
১৯৭১ সালের জানুয়ারি মাসের শেষ সপ্তাহে মতিউর সপরিবারে দুই মাসের ছুটিতে ঢাকায় আসেন। ২৫ মার্চের কালরাতে মতিউর ছিলেন রায়পুরের রামনগর গ্রামে। পাকিস্থান বিমান বাহিনীর একজন ফ্লাইট লেফটেন্যান্ট হয়েও অসীম ঝুঁকি ও সাহসিকতার সাথে ভৈরবে একটি ট্রেনিং ক্যাম্প খুলেন। যুদ্ধ করতে আসা বাঙালি যুবকদের প্রশিক্ষণ দিতে থাক্লেন। মুক্তিযো্দ্ধাদের বিভিন্ন স্থান থেকে সংগ্রহ করা অস্ত্র দিয়ে গড়ে তুললেন একটি প্রতিরোধ বাহিনী। ১৯৭১ সালের ১৪ এপ্রিল পাকিস্থানি বিমান বাহিনী সেভর জেড বিমান থেকে তাদের ঘাঁটির উপর বোমাবর্ষণ করে। মতিউর রহমান পূর্বেই এটি আশঙ্কা করেছিলেন। তাই ঘাঁটি পরিবর্তন করার কারণে ক্ষয়ক্ষতির হাত থেকে রক্ষ পান। এরপর ১৯৭১ সালের ২৩ এপ্রিল ঢাকা আসেন ও ৯মে সপরিবারে করাচি ফিরে যান ।

১৯৭১সালের ২০ আগস্ট শুক্রবার ফ্লাইট শিডিউল অনুযায়ী তার ছাত্র রশিদ মিনহাজের উড্ডয়নের দিন ছিল। পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী মতিউর জঙ্গি বিমানটি ছিনতাই করেন। কিন্তু রশিদ এ ঘটনা কন্ট্রোল টাওয়ারে জানিয়ে দেন। ফলশ্রুতিতে অপর চারটি জঙ্গি বিমান তাঁকে ধাওয়া করে। এ সমর রশিদের সাথে ধ্বস্তাধস্তি চলতে থাকে এবং রশিদ একপর্যায়ে ইজেকট সুইচ চাপলে মতিউর বিমান থেকে ছিটকে পড়েন এবং বিমান উড্ডয়নের উচ্চতা কম থাকায় রশিদসহ বিমানটি ভারতীয় সীমান্ত থেকে ৩৫মাইল দূরে থাট্টা এলাকায় বিমানটি বিধবস্ত হয়। তিনি নিহত হন। তাঁর মৃতদেহ ঘটনাস্থল থেকে প্রায় আধ্মাইল দূরে পাওয়া যায় । রশিদকে পাকিস্থান সরকার সম্মানসূচক খেতাব প্রদান করে। প্রসঙ্গত একই ঘটনায় দুই বিপরীত ভুমিকার জন্য দুইজনকে তাদের দেশের সর্বোচ্চ সম্মানসূচক খেতাব প্রদানের ঘটনা বিরল। মতিউরকে করাচির মাসরুর বেসের চতুর্থ শ্রেণীর কবরস্থানে সমাহিত করা হয়েছিল।
২০০৬সালের ২৩শে জুন বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান এর দেহাবশেষ পাকিস্থান থেকে বাংলাদেশে ফিরিয়ে আনা হয়। তাঁকে পূর্ণ মর্যাদায় ২৫শে জুন শহীদ বুদ্ধিজীবী গোরস্থানে পুনরায় দাফন করা হয়।


তথ্যসূত্র ঃ উইকিপিডি ও গুগুল

মন্তব্য ২৪ টি রেটিং +৬/-০

মন্তব্য (২৪) মন্তব্য লিখুন

১| ২০ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ১২:৪১

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: সালাম সালাম হাজার সালাম
হে বীরশ্রেস্ঠ তব চরণে...

যাদের স্মরণ করা উচিত জাথীয় মর্যাদায় সবচে গুরুত্ব দিয়ে তারাই অবহেলিত!!!!!!!!!!!!

অথচ র তাদের আত্মদানেই আজ আমরা- আমরা!

ক্ষমা করো হে বীরেশ্রস্ঠ গণ!

অনেক ধন্যবাদ পোষ্টের জন্য। কৃতজ্ঞতা। +++++++++++

২০ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ১:১৯

ডার্ক ম্যান বলেছেন: মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ ।

২| ২০ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ২:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: সাহসী সন্তান।

২০ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ২:৪৩

ডার্ক ম্যান বলেছেন: এমন সাহসী সন্তান অনেকে ছিলেন ।

৩| ২০ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৩:৪৭

রানা সাহেব বলেছেন: জানা গেল অনেক কিছু

২০ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৫:২৬

ডার্ক ম্যান বলেছেন: কিছু তথ্য জানাতে পারলাম

৪| ২০ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৪:২১

কানিজ ফাতেমা বলেছেন: এমন রাজকীয় বীরদের জানাই বিনম্র শ্রদ্ধা ।

২০ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৫:২৭

ডার্ক ম্যান বলেছেন: আর কয়েক বছর পর হয়ত ভুলে যাব

৫| ২০ শে আগস্ট, ২০১৭ রাত ১০:৩৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: ধন্যবাদ, একজন বীরশ্রেস্ঠ এর প্রতি এ শ্রদ্ধাঞ্জলির জন্য।
পোস্টে ভাল লাগা + +

২১ শে আগস্ট, ২০১৭ সকাল ৮:১৫

ডার্ক ম্যান বলেছেন: মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ । বেশ কিছু সামরিক সদস্যদের নিয়ে একটা সিরিজ লেখার ইচ্ছে আছে। তাদের মধ্যে আপনার পরিচিত কেউ থাকতে পারেন । ভাল থাকবেন

৬| ২১ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৩:৫৪

মাঈনউদ্দিন মইনুল বলেছেন:

পরিণতিই সবকিছুর নির্ধারক।

মতিউর রহমান এবং মিনহাজ রশিদের মৃত্যুর জন্য দু'টি পক্ষ যেভাবে তাদেরকে স্বীকৃতি দিয়েছে, সেটি একটি গুরুত্বপূর্ণ ঐতিহাসিক শিক্ষা।

২১ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৫:৪৫

ডার্ক ম্যান বলেছেন: দুইজনই তাদের মাতৃভুমির পক্ষে লড়েছেন

৭| ২১ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৪:০৭

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: বীরশ্রেষ্ঠ মতিউর রহমান এর শাহাদাত বার্ষিকীতে তাকে গভীর শ্রদ্ধাঞ্জলী । তাকে নিয়ে তথ্যসমৃদ্ধ পোস্ট নির্বাচিততে দেয়ায় মডারেশন প্যানেলকে ধন্যবাদ।

২১ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৫:৪১

ডার্ক ম্যান বলেছেন: আসলে এটা কোন মৌলিক লিখা নয়। বিভিন্ন জায়গা থেকে ধার করা। অনেকটা কপি পেস্ট
মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ

৮| ২১ শে আগস্ট, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৫

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: তাতে কি বীরশ্রেষ্ঠ তো আর কপি না । #:-S

২১ শে আগস্ট, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:০৮

ডার্ক ম্যান বলেছেন: ভাল বলেছেন প্রেমিক কবি

৯| ২২ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৪:০৫

এম আর তালুকদার বলেছেন: হে বীর আমাদের ক্ষমা করবেন, দেশের জন্য জীবন দিয়েছেন কিন্তু আমরা ভুলে যাই আপনাদের. ..

২৬ শে আগস্ট, ২০১৭ রাত ১২:১২

ডার্ক ম্যান বলেছেন: সবাই ভুলে গেলেও ইতিহাস কখনো ভুলবে না।
মন্তব্য করার জন্য ধন্যবাদ ।

১০| ২৫ শে আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ২:৩৮

প্রামানিক বলেছেন: বীরের অজানা কথা জানা হলো। পোষ্টের জন্য ধন্যবাদ।

২৬ শে আগস্ট, ২০১৭ রাত ১২:১৩

ডার্ক ম্যান বলেছেন: ভবিষ্যতে আরো অনেক অজানা যোদ্ধার কথা জানানোর পরিকল্পনা আছে।

১১| ২৬ শে আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৫:১২

বিজন রয় বলেছেন: +++++++

২৬ শে আগস্ট, ২০১৭ রাত ৮:৩৭

ডার্ক ম্যান বলেছেন: B-) B:-/

১২| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


ভুলেই যাই, কখন এসব বীরদের দিন এসে চলে যায়।

০৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৭ সকাল ৯:২৬

ডার্ক ম্যান বলেছেন: আমরা আত্মভোলা জাতি।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.