নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সর্বদায় জীবনের অর্থ খুঁজে বেড়াই

তারেক ফাহিম

অজানাকে জানতে গিয়ে অস্থিরতার বোঝা নিয়ে স্পষ্টতাকে পুড়ে দিয়ে অন্ধকারে বুক পুলাই

তারেক ফাহিম › বিস্তারিত পোস্টঃ

এটাই আধুনিকতা, যার ভিতর নেই তাকেই সমাজ ক্ষেত বলে বিবেচিত করে।

২৮ শে ডিসেম্বর, ২০১৬ রাত ৮:৪৮

আজকে একটা, ,,,,,,
মেয়েকে দেখলাম
রিকশা থেকে নেমে জিন্স
প্যান্টের
পেছনের পকেট থেকে মানিব্যাগ
বের
করে রিক্সার ভাড়া দিচ্ছে।
ব্যাপারটা
দেখে কিছুক্ষন ভ্রু
কুচকে তাকিয়ে ছিলাম।
পরে আবার
স্বাভাবিক করে নিলাম।
পৃথিবীতে সবচেয়ে মারাত্মক
অনুকরনশীল প্রাণী হল মেয়েরা।
তারা ছেলেদেরকে অনুকরন
করতে পছন্দ
করে।
ছেলেরা প্যান্ট পরল
ছেলেদের
দেখে তারাও প্যান্ট পরা শুরু
করে দিল।
ছেলেরা টি-শার্ট পরল ছেলেদের
দেখে তারাও টি-শার্ট পরা শুরু
করে দিল।শার্ট, পাঞ্জাবী কিছুই
তারা বাদ রাখল না।ছেলেরা
বন্ধুদের
দোস্ত বলে ডাকে তা দেখে
তারাও
বান্ধুবীদের দোস্ত বলে ডাকা
শুরু
করে দিল যা আগে করত না।
ছেলেদের
থেকে মামা ডাকটাও শিখে নিল
কিন্তু প্রবলেম হল সবজায়গায়
প্রয়োগ
করতে পারছে না।এরকম
তারা প্রতিটি ক্ষেত্রে
ছেলেদের
ফলো করে থাকে। তারা যদি পারত
ছেলেদের মত রাস্তার
পাশে দাড়িয়ে প্রশ্রাবও করত।
কিন্তু
এটা করতে গেলে ব্যাপারটা
ছেলেদের
সাথে নয় বরং এক বিশেষ প্রাণীর
সাথে সাদৃশ্যপূর্ন হয়ে যায়
তাই
করছে না।
ছেলেরা আবার তাদের
আত্মসম্মানের
ব্যাপারে অনেক সচেতন।
তা না হলে তারাও পরত থ্রি পিস,
পাখি ড্রেস, শাড়ি।কিন্তু
তাদের
আত্মসম্মান রয়েছে তাই আমরা
কাউকে ফলো করতে যাইনা...
Post টা আধুনিকা দের জন্য...
But সবাই পড়বেন...
৩৫+ মহিলারা যখন আটা-ময়দা
আর ফরমালিন মিশানো বডিস্প্রে
মেরে
রাস্তায় বের হয় তখন ১৫+ কোন
ছেলের
কুদৃষ্টিতে তাকানো মনে হয়
তারা
বেশ উপভোগ করে।
হয়তো আপনাদের স্বামী
আপানাদের চাহিদা
পূরণ করতে পারে না
তাই রাস্তায় এভাবে চলাফেরা
করেন।
আপনারা কি জানেন আপনাদের
দিকে
একটা ছেলে কুদৃষ্টিতে তাকানো
মানে
সে আপনাকে একবার
ধর্ষিত করছে।
এত গুলো মানুষের চোখে ধর্ষিত
হতে
লজ্বা করেনা...??
হুম আমি জানি আপনাদের লজ্বা
করে না।
কারন আপনারা সমাজের রাস্তায়
দাড়িয়ে
থাকা
“রাতের পরী” দের চাইতেও নিকৃষ্ট।
তারা তো টাকার জন্য এই সব কাজ
করে
থাকে আর আপনারা কিসের জন্য
এভাবে চলেন??
নিজেকে মডার্ন হিসাবে
উপস্থাপন করতে??
বাহঃ বাহঃ বাহঃ
আপনাদের বোরকা থাকতে হবে
একবারে
পিটিং (খাটি বাংলা ভাষা)
যাতে করে
আপনার
শরীরের পাহাড় পর্বত সবকিছু
স্পস্ট বুঝা যায়।
আচ্ছা আপনারা বোরকা পরেন
নাকি
বোরকা নামক পবিত্র পোষাকটির
আপমান
করেন তাহলে তা একবার
ভেবে দেখেছেন??
আর ছোট বোন দেরকে কি বলবো
বুকের ওরনা কোথায় থাকে তা
তারা
নিজেরাও জানেনা।
আর জানার প্রয়োজন বোধ ও করে
না।
কারন তাদের মা গুলো যে রকম
সন্তান
গুলোও ঠিক ঐরকম।
তা না হলে সন্তানের নোংরা
চলা
ফেরা
মায়েরা কোনদিনও মেনে নিতে
পারতেন
না।
তাই আজ নেপোলিয়নের উক্তিটা
একটু
চেন্জ করে বলতে চাই,
"তুমি আমাকে একটা চরিত্রবান মা
দাও,
আমি তোমাকে একটা চরিত্রবান
জাতি
দেব।"
ভাল লাগলে আপনার সুন্দর
মতামত জানাবেন...
পোষ্টটা কারো মনে কষ্টের কারন হলে
আমি খুবই দুঃখিত.

মন্তব্য ৮ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০১ লা আগস্ট, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪১

সনেট কবি বলেছেন: পড়ে ভাল লাগল।

০১ লা আগস্ট, ২০১৭ সন্ধ্যা ৬:৪৩

তারেক ফাহিম বলেছেন: ধন্যবাদ আপনার ভালো লাগাটাই আমার ভালো লাগলো।

২| ০৬ ই আগস্ট, ২০১৭ দুপুর ২:৫৭

এই মেঘ এই রোদ্দুর বলেছেন: সুন্দর হইছে

০৬ ই আগস্ট, ২০১৭ বিকাল ৩:১৫

তারেক ফাহিম বলেছেন: ধন্যবাদ মন্তব্য দিয়ে উৎসাহ দেওয়ার জন্য

৩| ২৩ শে নভেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৩:৪৯

খায়রুল আহসান বলেছেন: নাহ, আপনার এ লেখাটাকে ভাল হয়েছে বলতে পারলাম না বলে দুঃখিত।

২৩ শে নভেম্বর, ২০১৭ সন্ধ্যা ৭:০৩

তারেক ফাহিম বলেছেন: তাতেও ধন্যবাদ, মন্তব্যের জন্য।

৪| ১৬ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:০০

নজসু বলেছেন:




মায়ের পায়ের নিচে সন্তানের বেহশত।
মেয়েদেরকে কত উঁচু স্থানে আসন দেয়া হয়েছে তা এই একটা বাক্য দ্বারা বোধা যায়।
কিন্তু আজকালকার মেয়েরা (সবাই না; কেউ কেউ) অনেকটা বেপরোয়া জীবন যাপন করে।
পোশাক-আশাক, শালীনতা কোনটারই ঠিক নেই।
এর ফলে অনাকাঙ্খিত গর্ভপাতের সংখ্যাও বাড়ছে।
ছেলেদের উসকে দেয়ার জন্য মেয়েরাও কিয়দংশ দায়ী।
আপনার এই পোষ্টটা সুন্দর হয়েছিলো।

ভালো থাকবেন প্রিয় ফাহিম ভাই।

১৬ ই জানুয়ারি, ২০১৯ রাত ৯:০৪

তারেক ফাহিম বলেছেন: প্রিয় সুজন ভাই,

আদি পোষ্ট B-) মন্তব্যে ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.