নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

টারজান০০০০৭

টারজান০০০০৭ › বিস্তারিত পোস্টঃ

বাক স্বাধীনতা শুধু ধর্মের ক্ষেত্রেই চাওয়া হয় কেন ?

২৯ শে ডিসেম্বর, ২০১৬ সকাল ১১:২১

বাংলা একাডেমি পাঁচটি প্রকাশনী নিষিদ্ধ করেছে। যতদূর জানি এরা ধর্ম বিরোধী নোংরা বই প্রকাশ করার দায়ে অভিযুক্ত। আমাদের ছাপোষা বামাতী বুদ্ধুজীবীদের ফাইট্টা যাইতাছে ! আহা ! কিন্তু একটা মুসলিম দেশে তাহারা এই অপকর্ম কেন বারবার করতাছে ? তাদের স্ট্রাটেজি বুঝতে হবে। সেলিব্রেটি পতিতাদের কাপড় খোলাটাও একসময় খুব আলোড়ন তৈরী করে , ভালো মার্কেট পায় , ছবি হিট হয়। তারপর কাপড় খোলার প্রতিযোগিতা শুরু হয়। কিন্তু আগের মতো আর মার্কেট পায় না। ডালভাত হয়ে যায়। তখন শুরু হয় নতুন কোনো নোংরামি। ধর্মের বিরুদ্ধে কথা বললে খুব দ্রুতই সেলিব্রেটি হওয়া যায়, স্বপ্নের দেশের ভিসা পাওয়া যায় , সুতরাং ধর্মের বিরুদ্ধে নোংরামি এখন ট্রেন্ডস।ধর্মীয় অনুভূতি যেহেতু পুরাতন হবে না , সুতরাং ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত হানলে প্রতিবাদ হতেই থাকবে। এইটা কখনো ডালভাত হবে না।তাই বামাতী বুদ্ধুজীবীদের এই ধরণের অপকর্ম চলতেই থাকবে যতক্ষণ না কঠিনভাবে ডিম্ব থেরাপি দেওয়া হয় । সরকার বাধা দিলেই আব্বুদের কাছে ধর্ণা দেবে দেশে বাক স্বাধীনতা নাই। এই ধরণের নোংরা প্রকাশনা যদি ক্ষমতাবানদের কারো নাম প্রকাশ করা হতো , তাহলে আমি নিশ্চিত বাজারে ডিমের আকাল পইড়া যাইতো। সেক্ষেত্রে বাক স্বাধীনতাও লঙ্ঘন হইতো না। সরকার সঠিক কাজটাই করেছে। ডিম্ব থেরাপি যে দেয় নাই এইটাই ওদের ভাগ্য ! সরকারকে ধন্যবাদ।

মন্তব্য ০ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (০) মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.