নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

টারজান০০০০৭

টারজান০০০০৭ › বিস্তারিত পোস্টঃ

পান্তা রেসিপি , ২২ চৈত্র ১৪২৫ !!!

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১১:২৮

উপকরণ :

১. আমন চাউল ১ কেজি(৬ জনের জন্য )।
২. পানি (পরিমাণমত)।
৩. রান্না ডাউল ( হলের ডাইল হইলে চলিবে না। )।
৪.বিন্দু কাঁচামরিচ।
৫. দেশি ছোট পিয়াজ (আস্তা)
৬. লবন।

প্রস্তুত প্রণালী :

১. প্রথমে পরিমানমত পানি দিয়া আমন চালের বসা ভাত রান্না করুন। দাড়ানো ভাত , চাইয়া থাকুনী ভাত চলিবে না অর্থাৎ মাড় গালিলে চলিবে না।
২. ভালো করে সিদ্ধ করে অল্প পানি থাকিতেই নামাইয়া ফেলুন।
৩. এরপর বড় ডেকচিতে ১: ২ কেজি অর্থাৎ ১ কেজি চালে
২ কেজি পানি দিয়া ভালো করিয়া রাত্তিরবেলায় ঢাকিয়া রাখুন।

খাওয়ার নিয়ম :

আপনারা অনেকেই জানেন না , পান্তা খাওয়ার জব্বর নিয়ম আছে। নিয়ম জানিয়া খাইলে পান্তার স্বাদ পান্তুয়ার চাইতেও উপাদেয়। নিয়ম মানিলে তালগাছ , না মানিলে কি গাছ উহা আর কহিলাম না ! জানিতে চাহিলে আমার তুরাগ চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন , লাইক দিয়া আমার ইয়েতে লাগিয়া থাকুন !

এখন আমি নিয়ম বলিতেছি। কান লাগাইয়া , মনযোগ দিয়া শুনুন।

১. প্রথমে আপনার গোডাউনের সাইজ অনুযায়ী বাটি নির্বাচন করুন।
২. বাটিতে অর্ধেক ভাত আর অর্ধেক পানি লইয়া ভালো কইরা কচলাইয়া, চটকাইয়া পানি আর ভাতকে স্বামী-স্ত্রীর মতন এমনভাবে জোড়া লাগাইয়া ফেলুন যেন ডিভোর্স হওনের সুযোগ না থাকে , অর্থাৎ ভাত আর পানি যেন আলাদা করা না যায়।
৩. ইহার পর পরিমানমতোন লবন আর বিন্দু মরিচ লইয়া আবার লদকালদকি করুন। একগাল খাইয়া দেখুন লবন আর ঝাল ঠিক হইয়াছে কিনা। ঝাল বেশি না হইলে খাইতে মজা হইবে না। মরিচের পরিমান ১:৫ হইলে ভালো হয়। (অবশ্য বাতাস বা বরফ দেওয়ার দায়িত্ব কোনভাবেই পোস্টদাতার উফরে দেওয়া চলিবে না। )
৪. ইহার পর ডাউল আস্তে আস্তে ঢালিতে থাকুন আর নারিতে থাকুন। যখন পান্তার চেহারা হিমুর পাঞ্জাবির হলুদের রঙের হইয়া যাইবে অথবা উদরাময় রোগীর ইয়ের মতন হইয়া যাইবে তখন ঢালা বন্ধ করুন।
৫. বিচ্ছেদের আগের শেষবারের মতন আবার লদকালদকি করিয়া নিন।
৬. এবার কমপক্ষে ১০ টি দেশি কচি পেঁয়াজের বস্ত্র উন্মোচন করিয়া পান্তার বাটিতে রাখুন।
৭. অবশেষে ঘরওয়ালীর সাথে বসিয়া ইটিস-পিটিশ করিতে করিতে কচি পিঁয়াজে কামড় দিন আর পান্তা খান।

বন্ধুরা , আজকের মতন এখানেই। আমাদের পরের পর্বে থাকিবে চুকা ভাত কেমনে বানাইতে ও খাইতে হয় , সাথে থাকুন। তবে যাওয়ার আগে আপনাদের জন্য একখানা বস্তুনিষ্ঠ পুরনো কৌতুক :

এক বাউল দোকানে গিয়াছে চাল আর ডাল কিনিতে।
বাউল দোকানিকে গিয়া বলিল , ভাই ১ কেজি চাউল আর ১ কেজি ডাউল দেন।
দোকানি বলিল দিতাছি। কিন্তু আপনি চালকে চাউল আর ডালকে ডাউল বলিতেছেন কেন দাদা ?
বাউল কহিল , দাদা, আমি যদি চালকে চাউল আর ডালকে ডাউল না বলি তাহলে আপনারা আমার মতো বাউলকে কি বলিবেন?

সতর্কতা : পান্তা খাওয়ার পরে আলমের ১ নম্বর পচা সাবান দিয়া হাত ভালমতন না ধুইয়া ইয়ে করিতে গেলে পোস্টদাতা কোনভাবেই দায়ী হইবে না !


মন্তব্য ৪২ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (৪২) মন্তব্য লিখুন

১| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:০২

বিষন্ন পথিক বলেছেন: মাইনাচ, রেসিপি কলেন ক্যা? বাংলার এমন ঐতিহ্যবাহী খাবারে 'অংরেজি' নাম দিলেন? প্রস্তুতপ্রনালী বলতে পারতেন। ছ্যা ছ্যা ...বাংলার জাত গেলো

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১৬

টারজান০০০০৭ বলেছেন: ছ্যা ছ্যা !!! ঠিকোই ! বাংলার জাত যাওয়ায় হাম দুখতিহ হ্যায় !

'প্রস্তুত প্রণালী' না কইয়া 'রান্ধন তরিকা' কইলে হইতো না ?

২| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১২

হাবিব স্যার বলেছেন: এবার পান্তা হবেই হবেই.......
কেউ বাদ যাবেনা। B-) B-) B-) B-)

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:১৯

টারজান০০০০৭ বলেছেন: আফনেরেই উৎসর্গ করিতে চাহিয়াছি। পান্তা আমার সকালের নাস্তা। ইহাতেই আস্থা পাই। অবশ্য শীতকালে সাহস পাই না ! খাইলে সকলই বরফ হইয়া যায়।

৩| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৩০

হাবিব স্যার বলেছেন: আমারে উৎসর্গ করন লাগবো না, দোয়া কইরেন সর্গে যাইয়া যাতে পান্তা ভাতের সাথে হুকনা মরিচ না দেয়, কাঁচা মরিচ আমি বড় ভালা পাই। তবে আফনের রেসিপির সাথে আমার দ্বিমত আছে....... এহন কমু না

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৩

টারজান০০০০৭ বলেছেন: আমারে উৎসর্গ করন লাগবো না, দোয়া কইরেন সর্গে যাইয়া যাতে পান্তা ভাতের সাথে হুকনা মরিচ না দেয়, কাঁচা মরিচ আমি বড় ভালা পাই।

উৎ সর্গ না করিলে সর্গে যাইয়াও পান্তা পাইবেন না ! তাই আফনেরেই উট সর্গ করিলাম !
পান্তার লগে হুকনা মরিচ আমিও খাইতেরিনা। হের্ লাইগাই বিন্দু মরিচ দিছি ! ঝাল লাগে তো ভাল্লাগে !

তবে আফনের রেসিপির সাথে আমার দ্বিমত আছে....... এহন কমু না।

বিষন্ন পথিকের মতে 'রেসিপি' কওন যাইত ন, প্রস্তুত প্রণালী বা রান্ধন প্রণালী বলিতে হইবেক ! ইলিশের ওল্ড প্রণালী আবার দিয়েন না। উহা বুড়িগঙ্গার পানির মতন পুরাতন হইয়া গিয়াছে। একখান চান্দিগ্রম রেসিপি দেনতো দেহি , যেমন 'হট পান্তা-নুডুলস !!'

৪| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৪

চাঁদগাজী বলেছেন:


ইহাতে ঘি দেয়া যায়?

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৯

টারজান০০০০৭ বলেছেন: ওরেক্কাহু ! ওস্তাদের মাইর শ্যাষ রাইতে ! দেওয়া যায় মানে ! ঘি মাখাইলে সেইরাম হইবেক। তয় খাঁটি ঘি দিলে আবার ভেজাল খাওয়া পেটে নাও সইতে পারে। তাই ভেজাল ঘি দেওয়াটাই বাঞ্চনীয় !

৫| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৪৮

হাবিব স্যার বলেছেন: আপনার রেসেপিতে একটু ঘি যোগ করা যায় নাকি কোথাও ভেবে দেখবেন।

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১২:৫০

টারজান০০০০৭ বলেছেন: কাহু আগেই দান মাইরা দিছে স্যার ! ঘিয়ের সাথে আর কি দেওন যায় ?

৬| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:০১

হাবিব স্যার বলেছেন: ভেদা মাছের শুঁটকি দিতে পারেন। যারা আমিষ ভোজী তাদের জন্য আর কি

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:৫৪

টারজান০০০০৭ বলেছেন: আইডিয়া ! চ্যাপা শুঁটকিও চলিতে পারে , বিশেষ করিয়া নিউক্যালির লোকেরা দারুন পছন্দ করিবে ! ডাল না থাকিলে পাকা কাঁঠাল সরেস হইবে ! তবে বিচিছাড়া !

৭| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:০২

হাবিব স্যার বলেছেন: চ্যাপা শুঁটকির নাম শুনতেই আমার মুখ জলে ভরে উঠছে কেন জানি, ঠিক তেঁতুল দেখলে যেমন হয়! কি যে ঘ্রান........ আহ........

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:১৬

টারজান০০০০৭ বলেছেন: খাইছে ! আমি নিউক্যালির না হইয়াও চ্যাপা শুটকির দারুন ভক্ত। আপনার-আমার মন্তব্য-প্রতিমন্তব্যেই পান্তার নতুন রেসিপি বাহির হইবে মনে হইতাছে !!

৮| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:২৭

জুন বলেছেন: বনের রাজা টারজান দেখি পল প্রুটস রাখিয়েরে ফোন্তাভাত খায় :-*:|

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:৪১

টারজান০০০০৭ বলেছেন: কি করিব ভইন , বিয়ার আগে টারজান পল প্রুটস খাইতো ! বিয়ার পরে জেন্ পান্তা খাওয়ায় ! ছ্যা ছ্যা ! টারজানের এই দুর্গতি ! দুনিয়ার টারজান এক হও ! :(

তয় পান্তা কিন্তুক এখন জাতে উঠিয়া গিয়াছে। আর কিছুদিন পরেই জাতীয় খাদ্য হিসেবে ঘোষিত হইবে। গোপন সংবাদের ভিত্তিতে জানিয়া পল প্রুটস বাদ দিয়া জেন্ পান্তা চালু করিয়াছে। ইস্মার্ট গার্ল ! আপনিও ঘরের টারজানের জইন্য পান্তা চালু করিতে পারেন। সুপার বাঙালিয়ানা হইবে ! :D

৯| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:৩১

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: পান্তা ঠিকঠাক না হলে পোস্টে মাইনাস। কর্তৃপক্ষকে দায়ী নিতেই হবে। তাহলে অবশ্য প্লাস হবে।
এই রেসিপি অনুযায়ী পান্তা খাইলে আগামী এক মাসেও জ্ঞান আসবেক বলে মনে হইবেক নয়।

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:৫১

টারজান০০০০৭ বলেছেন:

পান্তা ঠিকঠাক না হলে পোস্টে মাইনাস। কর্তৃপক্ষকে দায়ী নিতেই হবে। তাহলে অবশ্য প্লাস হবে।

খাওয়ার পরে টেকা দিবেন ভাইসাব ! যেটুকু বেঠিক আছিলো গাজী কাহু আর হাবিব স্যার মিল্যা ঠিক কইরা দিছে ! আপনার কি চ্যাপা শুঁটকি চলিবে ? :D

পান্তার স্বাদের দায় লইতে পারি , তয় সাবান দিয়া ভালমতন না ধুইয়া ইয়ে করিলে দায় লইব না ! :D

এই রেসিপি অনুযায়ী পান্তা খাইলে আগামী এক মাসেও জ্ঞান আসবেক বলে মনে হইবেক নয়।

কি যে কন ! ১:৫ রেশিওতে বিন্দু কাঁচামরিচ খাইলে অজ্ঞান হওয়ার সুযোগই নাই ! আর অসতর্ক হইয়া কোন অঙ্গে হাত দিয়া ফেলিলে বরং অজ্ঞান করিতেই ডাক্তার ডাকিতে হইবে ! :P

১০| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৪২

অনুভব সাহা বলেছেন:

আপনার ইয়েতে ইয়ে দেয়া দরকার

১কেজি চালের পান্তা ৮-১০জন খেতে পারবে। আপনার ইয়েটা কি অনেক বড়?

বিন্দু কাঁচামরিচ নামের ইয়েটা কী?


০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৫৪

টারজান০০০০৭ বলেছেন: ইয়েতে ইয়ে পাইলাম না ভাইডি। আমার ইয়েটা বড়ই। :D

আপনার ইয়ে সঠিক। :D ১ কেজি চাইলে দুপুরে পূর্ণবয়স্ক ৬ জন , রাইতে ৭ জন , সকালে ৮ জন খাইতে পারিবে। পান্তা হইলে ২ জন যোগ হইতে পারে !

বিন্দু একধরণের ছোট কালো কাঁচামরিচ , মারাত্মক ঝাল ! বিড়ালের ইয়েতে মাখিয়া দিলে দুইদিন বিরক্ত করিতে পারিবে না ! :P

১১| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৩:৪৯

হাবিব স্যার বলেছেন: আগে জানতাম ইয়ে করে বিয়ে করে, এখন দেখি বিয়ে না করেও অনেক কিছুতেই ইয়ে লাগাচ্ছেন দেদারসে........ ঘটনা কি? ইয়ে তে কি আগুণ লাগছে নাকি?

০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৪:০১

টারজান০০০০৭ বলেছেন: না , ইয়ে ! মানে আগুন নেভানোর জন্যইতো ইয়ে করে ইয়ে আগেই হইয়াছে ! তয় এখনো ধোঁয়া উঠিতেছে ! তাই ইয়ে যাইতেছে না ! :P

১২| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৯

নতুন নকিব বলেছেন:



আসসালামু আলাইকুম ওয়ারহমাতুল্লাহ।

সঠিক সময়ে উপযুক্ত পোস্ট! উত্তম রেসিপি! কাহারও কাহারও বিশেষ দিনে কাজে লাগিতেই পারে! তবে আমরা যারা জীবনভর পান্তায় অভ্যস্ত, আমাদের জন্য ইহার প্রয়োজন একদিনের নয়।

এই মওসুমে ইলিশেও তো আগুন থাকে। এবার দরদাম কেমন? আপনার দিনগুলো ভালো যাচ্ছে তো? অনেক সুন্দর আমলী সময় কাটানোর সুযোগলাভে ধন্য হোন- শুভকামনাসহ প্রত্যাশা সবসময়।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৩৭

টারজান০০০০৭ বলেছেন: আসসালামু আলাইকুম ওয়ারহমাতুল্লাহ।

ওয়ালাইকুমুস্সালাম ওয়ারহমতুল্লাহি ওয়াবারাকাতুহু !

সঠিক সময়ে উপযুক্ত পোস্ট! উত্তম রেসিপি! কাহারও কাহারও বিশেষ দিনে কাজে লাগিতেই পারে! তবে আমরা যারা জীবনভর পান্তায় অভ্যস্ত, আমাদের জন্য ইহার প্রয়োজন একদিনের নয়।

ধন্যবাদ। আমার পান্তাও বিশেষ দিনের নহে। গরমের দিনে সকালের নাস্তায় পান্তা আমার পিতাজির বিশেষ মেনু ছিল। এখন আমি স্মৃতি জাগরুক রাখিতেছি। বিশেষ দিনের হইলে পান্তা ইলিশের রেসিপি দিতাম। ইলিশ মাছের মতন রাজকীয় খানা পান্তা দিয়া খাইতে একদমই ভালো লাগে না। কে যে এই মেনু বানাইছে , পাইলে..........

এই মওসুমে ইলিশেও তো আগুন থাকে। এবার দরদাম কেমন? আপনার দিনগুলো ভালো যাচ্ছে তো? অনেক সুন্দর আমলী সময় কাটানোর সুযোগলাভে ধন্য হোন- শুভকামনাসহ প্রত্যাশা সবসময়।

অনেক আগেই ইলিশ কেনা শেষ। তবে বৈশাখের কারণে নহে। দাম এমনিতেই বেশি , তার উফরে হুজুগে বাঙালি বৈশাখের কারণে উহার দাম পিকাসোর পেইন্টিংয়ের সমান বানাইয়াছে। তাই ক্ষ্যান্ত দিয়েছি। বৈশাখে ইলিশ কিনি না !
আপনার মন্তব্য পড়িয়া এমনিতেই দোআ আসে। আপনি এতো ভালো কেন বলেন তো ?

১৩| ০৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: পান্তা খাওয়ার নিয়ম জেনে আমি অভিভূত।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৩৯

টারজান০০০০৭ বলেছেন: নিয়ম জাইন্যাই ভুতো :D , খাইলে না জানি কি কইবেন !! পহেলা বৈশাখের আগেই খাইয়া দেখেন !

১৪| ০৬ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১২:২৭

বলেছেন: ঘি মাখাইলে সেইরাম হইবে---হা হা হা

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৪৩

টারজান০০০০৭ বলেছেন: ইহা গাজী কাহু আর হাবিব স্যারের মতন বুদ্ধিজীবীদের সংযোগ।প্রাক্টিক্যালি খাইয়া দেখি নাই। খাইয়া ছোট ঘরে যাইয়া জানাইয়েনতো খাইতে কেমুন ! (কেমিক্যাল ডায়াগনোসিস অহনো হয় নাই বিধায় আফনেরেই সাবজেক্ট নির্বাচন করিলাম !) :D

১৫| ০৬ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৫৭

বাংলার মেলা বলেছেন: ইলিশ মাছ কাহা? কূছ গালতি রাহা। ফির ভি ইলিশ মাছ কা রেসিপি মাংতি থি। কিউকি ইলিশ বিনা পানতা - পানসা লাগতা হ্যায়।

০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৪৮

টারজান০০০০৭ বলেছেন: ছ্যা ছ্যা ! পান্তার সাথে ইলিশ উহা সেই ১৯৫৩ সালের রেসিপি ! এই ডিজি-টাল যুগে উহা আঙ্গুর ফলের মতন টক (সামর্থ্য নাই কিনা )! তাই তো ডিজি-টাল রেসিপি দিলাম। ওই খাইতে জানলে গোস্তের মতন , সরি ইলিশের মতন ! :D

১৬| ০৬ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:৩৮

অন্তরা রহমান বলেছেন: পান্তা -
এমনও কইরাও রান্ধন যায়,
কেউ কখনও জানতা?
টারজান ভাইয়া কইসে, আর
বেবাক মানুষ পান্তা লইয়া
কুস্তি করতে বইসে।

ইয়ে, লেখাটি অতি মনোহর হইয়াছে।

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:১৮

টারজান০০০০৭ বলেছেন: মন্তব্যের অন্তরাগুলানতো সেইরাম !

পান্তা -
এমনও কইরাও রান্ধন যায়,
কেউ কখনও জানতা?


কেউ জানিতোনা !!! বলেন কি ? তাইলে আমি কি আমেরিকা আবিষ্কারের মতন পান্তা রান্ধন প্রক্রিয়া আবিষ্কার করিলাম। খাইছে ! জলদি কইরা প্যাটেন্ট করিতে হইবে। নাইলে লাভের গুড় পিপড়ায় খাইয়া লইবে। ভইন , দোহাই লাগে , প্যাটেন্ট করার আগে কাউরে রেসিপি কইয়েন না !

টারজান ভাইয়া কইসে, আর
বেবাক মানুষ পান্তা লইয়া
কুস্তি করতে বইসে।


পান্তা শীঘ্রই জাতীয় খাদ্য হিসাবে আইতাছে ! তাই পান্তা লইয়া টারজানের ম্যারাথন বলি আয়োজন করা হইবেক ! প্রথম পুরস্কার ইলিশ মাছের ন্যাজা !

ইয়ে, লেখাটি অতি মনোহর হইয়াছে।

যাক ! আমি না পারি , আমার লেখাতো কাহারও মন হরণ করে ! এমন কমপ্লিমেন্ট কোথায় রাখি !

১৭| ০৬ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৯:৪৩

জগতারন বলেছেন:
এই টারজান০০০০৭ 'র *লার পোষ্টতো এর আগে কন দিন পড়ি নাই =p~ =p~ হাসতে হাসতে আমার অবস্থা কাহিল।

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:২৪

টারজান০০০০৭ বলেছেন: কন কি ভাইসাব ! জঙ্গল ছাইড়া সেই কবেতে ব্লগে আটকা পড়ছি , আর আফনে অহনো আমার ব্লগে আহেন নাই ! আফনেরে জরিমানা স্বরূপ পান্তায় ৩ খানা কাঁচামরিচ বাড়াইয়া দেওয়া হইবে ! সাবান দেওয়া হইবে না !

তা ভাইজান , '*লার' ইহা কি জিনিস ? ক্রিপ্টোলজি নাকি জাভার বাঙালি কোড ?

১৮| ০৭ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ৩:০৭

মা.হাসান বলেছেন: টারজান যদি লতা পাতা না দিয়া পিয়াজ মরিচ দিয়া পান্তা খায় তবে যে জঙ্গলের মান যায়।

আমিও একসময় পিয়াজ মরিচ দিয়া পান্তা খাইতাম। সে সময় শালির বিবাহের আলাপ চলিতেছিল। আমি ভাবিলাম জগতের ভালো মন্দের বিষয়ে বিবাহের পূর্বে তাহাকে কিঞ্চিত জ্ঞান দান আমার কর্তব্য। কর্তব্য শুরুর প্রাক্কালে শালি বলিলো দুলাভাই - আপনার মুখে পিয়াজের গন্ধ, দাঁত মাজেন না?
ঐ দিন হইতে পিয়াজের বদলে নারিকেল দিয়া পান্তা খাই । নিজের আর শালি নাই , তবে জ্ঞান বিতরনের লিপ্সা আমার এখনো যায় নাই ।

নারিকেল-পান্তা অত্যন্ত সুস্বাদু, উপরন্তু পচা সাবানের প্রয়োজনও নাই। :P

০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:৪২

টারজান০০০০৭ বলেছেন: টারজান যদি লতা পাতা না দিয়া পিয়াজ মরিচ দিয়া পান্তা খায় তবে যে জঙ্গলের মান যায়।

মরিচ , পিঁয়াজতো লতা পাতাই ভাইজান ! শুধুই কাম ভিন্ন। জঙ্গলের মানতো বহু আগেই পাংচার ! সেই যেদিন জেনরে দেখিয়া টারজান কাইত হইয়া পড়িয়া গেল , অতঃপর জেন্ তাহারে লেজে খেলাইয়া শহরে ভাগাইয়া লইয়া গেল , সেদিন হইতেই জঙ্গলের হাওয়া নাই। ভাবছি এইখানেই জঙ্গল বানামু !

আমিও একসময় পিয়াজ মরিচ দিয়া পান্তা খাইতাম। সে সময় শালির বিবাহের আলাপ চলিতেছিল। আমি ভাবিলাম জগতের ভালো মন্দের বিষয়ে বিবাহের পূর্বে তাহাকে কিঞ্চিত জ্ঞান দান আমার কর্তব্য। কর্তব্য শুরুর প্রাক্কালে শালি বলিলো দুলাভাই - আপনার মুখে পিয়াজের গন্ধ, দাঁত মাজেন না?

সর্বনাশ ! আপনার মুখের গন্ধ শ্যালিকার জানার সুযোগ কেমতে হইলো। কেস জানি কেমুন কেমুন লাগে !!! ;)

ঐ দিন হইতে পিয়াজের বদলে নারিকেল দিয়া পান্তা খাই ।

তা নারিকেল দিয়া খাওনের পরে শ্যালিকার ফিডব্যাক কেমন ছিল ? ( ইহা অতি অবশ্যই কাস্টমার ফিডব্যাকের চাইতেও ব্যাফক গুরুত্বপূর্ণ ! ) :D

নারিকেল-পান্তা অত্যন্ত সুস্বাদু, উপরন্তু পচা সাবানের প্রয়োজনও নাই। :P

তাহা ঠিক। কিন্তুক "ঝাঁললাগেতো ভাল্লাগে" র কি হইবে ?
এক কাজ করা যাইতে পারে ! পান্তা নুডুলসের মতন পান্তা নারিকেলের আলাদা রেসিপি বানানো যাইতে পারে। তয় প্যাটেন্ট আমার। আফনেরেও কিছু দিমুনে ! বেশি শোরগোল কইরেন না ! :D


১৯| ০৮ ই এপ্রিল, ২০১৯ বিকাল ৫:১৯

আঁধার রাত বলেছেন: নিয়মিত অভ্যাস ছাড়া ছয়জন মানুষের জন্য এক কেজি আমন ধানের চালের পান্তা বেশী হয়ে যাবে। শেষ করতে পারবেন না। তার চেয়ে ভাই বেরাদারদের একটু ডাক দিয়েন হাঁক দিয়া চলিয়া আসিব। তবে পান্তাটা দুই দিন পূর্বের হইতে হইবে।

১১ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ১০:৫৪

টারজান০০০০৭ বলেছেন: নিয়মিত অভ্যাস ছাড়া ছয়জন মানুষের জন্য এক কেজি আমন ধানের চালের পান্তা বেশী হয়ে যাবে।

ঠিকই বলিয়াছেন। মানুষের গোডাউন এখন ফাস্টফুড খাইতে খাইতে ছোট হইয়া গিয়াছে।

শেষ করতে পারবেন না। তার চেয়ে ভাই বেরাদারদের একটু ডাক দিয়েন হাঁক দিয়া চলিয়া আসিব।

রাঁধিলে অবশ্যই আসিবেন !! তবে কেকা আপা কিন্তু খালি বানানো শিখাইয়া দেয় , দাওয়াত দেয় না ! তাহারেও কেহ তাহার রেসিপি রাঁধিয়া দাওয়াত দিয়াছে বলিয়া শোনা যায় নাই। তবে আমারে দিলে না করিব না। :D

তবে পান্তাটা দুই দিন পূর্বের হইতে হইবে।

দুইদিন পূর্বের হইলেও খাওয়া যাইবে, তাহার পূর্বে হইলে---পান্তার নৌকা পাহাড় ডিঙাইয়া মিরা বাইরে ডাকিতে পারে ! :D

২০| ১৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ১:১৯

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
উত্তম পোস্ট হইয়াছে।
পড়িয়অ বিমোহিত হইলাম।

১৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ দুপুর ২:২০

টারজান০০০০৭ বলেছেন: খাইয়া কন ! আরও রেসিপি পাইতে হইলে আমার ইয়েতে লাগিয়া থাকুন ! :D

২১| ১৫ ই এপ্রিল, ২০১৯ রাত ১০:৩০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
সেই কালো রং এর পরাঙ্গী ধানও নেই।
সেই পান্তার স্বাধও নেই।
তবে সাধ আছে।

১৬ ই এপ্রিল, ২০১৯ সকাল ৯:৫৬

টারজান০০০০৭ বলেছেন: সেই কালো রং এর পরাঙ্গী ধানও নেই।

বলেন কি ? এই ধানের নাম আমি প্রথম শুনিলাম ! ইহা কি আমনের আরেকটি নাম ?

সেই পান্তার স্বাধও নেই।
তবে সাধ আছে।


কি জানি , মন-মেজাজ ভালো থাকিলে সকালে পান্তা ভালোই লাগে ! দেশ , আর দেশাল বিষয়গুলো খুব উপভোগ করি , আলহামদুলিল্লাহ !

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.