নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সাহিত্য, সংস্কৃতি, কবিতা এবং সমসাময়িক সামাজিক বিষয়াদি নিয়ে গঠনমুলক লিখা লিখি ও মুক্ত আলোচনা

ডঃ এম এ আলী

মুক্তমনা

ডঃ এম এ আলী › বিস্তারিত পোস্টঃ

বিশ্ব কাপ ক্রিকেট ২০১৯ এ দক্ষিন আফ্রিকার বিপক্ষে বাংলাদেশের জয়, টাইগার বাহিনীর প্রতি অভিনন্দন

০২ রা জুন, ২০১৯ রাত ১১:৪৬


বিশ্ব কাপ ক্রিকেট ২০১৯ এ বাংলাদেশের প্রথম ম্যচে ৬ইকেট হারিয়ে টাইগারদের দেয়া ৩৩১ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দক্ষিন আফ্রিকার রানের গতি ৮ উইকেটের বিনিময়ে শেষ ওভারে এসে ৩০৯ এ থেমে যায় । বাংলাদেশ ২১ রানের জয় তুলে নেয় ।

টস হেরে ব্যাটিং শুরু করেছিল বাংলাদেশ ।

এশিয়া দেশগুলো যেখানে হিমসিম খাচ্ছিল, সেখানে দারুণ জয়ে বিশ্বকাপ শুরু করেছে বাংলাদেশ।
ব্যাট বলে দুই বিভাগেই দারুণ খেলে দলীয় জয়ের দৃষ্টান্ত রেখে বিশ্বকে জানিয়ে দিল এবারের বিশ্বকাপে ভিন্ন কিছুর প্রত্যাশায় এসেছে টাইগার বাহিনী।

খেলার কিছু উল্লেখযোগ্য দিক তুলে ধরা হল ।

বিপজ্জনক ডুমিনিকে বোল্ড করেছেন মোস্তাফিজ । এক প্রান্তে উইকেট নিলেও অপর প্রান্তে টাইগারদের বাধা হয়ে ছিলেন জেপি ডুমিনি। তবে বড় ক্ষতি করার আগে তাকে বিদায় করেছেন মোস্তাফিজুর রহমান। বোল্ড করে দিয়েছেন তাকে। ইংল্যান্ডের উইকেটে মোস্তাফিজের পুনর্জন্ম হলো বিশ্বকাপের অভিষেক ম্যাচেই।

বিপদজনক দু প্লেসিকে ফেরান মিরাজ ,হাত খুলে ব্যাট করে রানের গতি বাড়ানোর চেষ্টা করছিলেন। মেহেদী হাসান মিরাজের বলে এগিয়ে হিয়ে ছক্কা হাঁকানো উদ্দেশ্য ছিল তার। তবে টার্ন নেওয়ায় মিস করেন বল। আর তাতে স্টাম্প ভাঙলে উল্লাসে মাতেন মিরাজ। তবে আউট হওয়ার আগে ৫৩ বলে খেলেছেন ৬২ রানের ইনিংস।

মার্করামকে ফিরিয়ে সাকিবের বিশ্বরেকর্ড, শুরু থেকেই দেখে শুনে বেশ সাবধানে ব্যাট করছিলেন আইডেন মার্করাম। ধীরে ধীরে বিপদজনক হয়ে উঠছিলেন। তবে বড় বিপদ ডাকার আগে তাকে ফিরিয়েছেন সাকিব আল হাসান। বোল্ড করে দিয়েছেন মার্করামকে। তাতে ওয়ানডেতে ২৫০ উইকেট পেলেন তিনি। একই সঙ্গে পাকিস্তানি অলরাউন্ডার আব্দুল রাজ্জাকের রেকর্ডও ভাঙলেন তিনি। দ্রুততম পাঁচ হাজার রান ও আড়াইশ উইকেটের কীর্তি এখন সাকিবের। রাজ্জাক করেছিলেন ২৩৪ ম্যাচে। ১৯৯ ম্যাচ খেলেই নতুন রেকর্ড গড়লেন সাকিব। বিশ্ব সেরা অলরাউন্ডার সাকিবও দেখালেন তাঁর সেরাটা।
ম্যান অব দ্য ম্যাচ ও হয়েছেন সাকিব আল হাসান

৩৩০ রান নিয়েও ম্যাচে অবশ্য টাইগার বাহিনী অনায়াস জয় পায়নি। ৪৮তম ওভারের প্রথম বলে গিয়ে টের পাওয়া গেল, বাংলাদেশ ম্যাচটা জিততে যাচ্ছে! মনে সস্তি এসেছিল । তবে পুরো ইনিংস জুড়েই কিছু শব্দ কানের কাছে ‘আহা, উঁহ অনুরণিত হয়েছে, । রান আউটের সুযোগ এসেছে বারবার। উৎকন্ঠা কাটিয়ে অবশেষে জয় এসেছে ।

বিজয়ী টাইগার বাহিনীর প্রতি রইল প্রানডালা অভিনন্দন

মন্তব্য ৬৭ টি রেটিং +১২/-০

মন্তব্য (৬৭) মন্তব্য লিখুন

১| ০২ রা জুন, ২০১৯ রাত ১১:৫১

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: অসংখ্য ধন্যবাদ পোস্টটা দেওয়ার জন্য :)

বাংলাদেশের বিশ্বকাপ অভিযানে জয়ের ধারা বজায় থাকুক.......


সাবাশ বাংলাদেশ ! সাবাশ টাইগার্স !

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:০৯

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: বাংলাদেশের বিশ্বকাপ অভিযানে জয়ের ধারা বজায় থাকুক.......
কামনা করি এ বাসনা পুর্ণ হোক
ধন্যবাদ উত্তম কামনার জন্য

২| ০২ রা জুন, ২০১৯ রাত ১১:৫৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


ভালো খবর।

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:১০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: অন্তরে সুখ পাওয়ার মত ভাল খবর ।
খবরটি ভাল অনুভুত হওয়ার জন্য ধন্যবাদ ।

৩| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:০৩

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: এক সময় খেলাটা প্রতদ্বন্দীতা পূর্ণ হয়ে উঠল, তখনই
মুরতজা এসে গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নিয়ে,
জয়ে র স্বাদ এনে দিল ।
.....................................................................
টাইগার্স টিম কে অভিনন্দন

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:১৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: আপনার এই অপরূপ সুন্দর অভিনন্দন বার্তা টাইগার বাহিনীর প্রতি নিবেদন করা হলো

৪| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:১৩

ভুয়া মফিজ বলেছেন: পুরো খেলা একবসাতে আমি সাধারনতঃ দেখি না। আজ দেখলাম এবং সীমাহীন আনন্দ পেলাম।
ব্যাটিং-বোলিং ঠিক থাকলেও ফিল্ডিং এ আরও উন্নতি করতে হবে। নয়তো ওয়ার্ল্ড কাপের মতো ইভেন্টে ভালো করা কঠিন। ব্যাটসম্যানরা আজ দারুন খেলাতে রক্ষা!

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: এক সময় খেলাটা প্রতদ্বন্দীতা পূর্ণ হয়ে উঠল, তখনই মুরতজা এসে গুরুত্বপূর্ণ উইকেট নিয়ে, জয়ে র স্বাদ এনে দিল । মুর্তাজা কার উইকেট নিলো? :(

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:৩৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: আপনি ঠিকই বলেছেন
ব্যাটিং-বোলিং ঠিক থাকলেও ফিল্ডিং এ আরও উন্নতি করতে হবে
জয়ের উত্তেজেনায় উড়ছেন স্বপ্নের শঙ্খচিল , এত দুর হতে দেখায় একটু ভুল হতেই পারে ।

শুভেচ্ছা রইল

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:৪১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: নীচের ৬ নং মন্তব্যের ঘরে থাকা স্বপ্নের শঙ্খচিল এর কথামালার প্রতি আপনার সদয় দৃষ্টি আকর্ষন করছি ।

৫| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:১৯

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: অভিনন্দন টাইগার বাহিনীকে | সামনে পাড়ি দিতে হবে অনেক পথ | বাংলাদেশকে ফিল্ডিংএ অনেক উন্নতি করতে হবে, নাহলে এই রকম পাহাড়সম রান করেও ম্যাচ হাতছাড়া হয়ে যেতে পারে |

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:৩৬

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: একেবারে সত্য কথা বলেছেন
বাংলাদেশকে ফিল্ডিংএ অনেক উন্নতি করতে হবে, নাহলে এই রকম পাহাড়সম রান করেও ম্যাচ হাতছাড়া হয়ে যেতে পারে |

৬| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:২৬

স্বপ্নের শঙ্খচিল বলেছেন: সংশোধনী : মুস্তাফিজুর রহমান
............................................................
ভুয়া মফিজ বলেছেন: মুর্তাজা কার উইকেট নিলো?
টাইপিং ভুলের জন্য সংশোধনী : আপনাকে ধন্যবাদ

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:৩৮

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: আপনার এই মন্তব্যটির প্রতি ভুয়া মফিজের দৃস্টি আকর্ষন করছি ।

৭| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১২:৫৮

মাহমুদুল হাসান (সুমন)। বলেছেন: অভিনন্দন টাইগার.. :)

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১:০৬

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: আপনার অভিনন্দন বার্তা টাইগার বাহিনীর প্রতি নিবেদন করা হল ।

৮| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১:০০

মনিরা সুলতানা বলেছেন: মন ভালো করা খবর !
ধন্যবাদ পোস্টের জন্য।

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১:১০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: এই মন ভাল করা খবর সকল বাংগালীর কাছেই আনন্দ বার্তা হয়ে পৌঁছে যাক এ কামনাই রইল ।
ধন্যবাদ আনন্দ লাগাটুকু জানানোর জন্য ।

৯| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১:০৬

বলেছেন: Excellent news

০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ১:১২

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ঠিকই বলেছেন এটা আমাদের সকলের জন্যই একটি Excellent news
শুভেচ্ছা রইল

১০| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ২:৫৩

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
কালাম সাহেবের (ম্যাককালাম) বেকুবি মন্তব্য,
মামুলি একটা মন্তব্য। কিন্তু প্রথম আলো সেটাকে ভবিষ্যৎবাণী হিসেবে দিনের পর দিন প্রচার করে যাচ্ছিল।
বাংলাদেশ নাকি শৃলংকার বাদে আর কারো সাথে জিতবে না। প্রথম আলোর কমেন্ট বক্সে বাংপাকিরাও যাচ্ছেতাই মন্তব্য করে যাচ্ছিল।

আজকের গৌরময় জয়ে প্র আলো ও বাংপাকিদের উষ্ঠা।

০৩ রা জুন, ২০১৯ ভোর ৪:৩৭

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: চমৎকার মুল্যবান পর‌্যবেক্ষন আপনার । প্রথম আলোর সংবাদ শিরোনামগুলিও দেখার যোগ্য, মনে হয় কোথায় যেন একটু কেমন কেমন আছে ।

১১| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ৩:২২

জাহিদ অনিক বলেছেন:
খেলার প্রথম ইনিংসের শেষ দশ ওভার থেকে দেখার সুযোগ পেয়েছি, পরের সবটাই দেখেছি।
বাংলাদেশ দল খুব ভালো ব্যাটিং করেছে। ফিল্ডিং ও বোলিং আরও ভালো করা যায়।
মুশফিক কিপিং কেন যেন ভালো করছে না। রুবেল হোসেন অজ্ঞাত কারনে দলে নেই। তার থাকা দরকার। কেন নেই জানি না।
মাশরাফি ভালো অধিনায়ক, কিন্তু বোলিং হিসেবে বড্ড খরুচে।

তবুও আশার ভরসার দল ক্রিকেট দল। শুভ কামনা ও ভালোবাসা সব সময়েই থাকে।

০৩ রা জুন, ২০১৯ ভোর ৪:৪৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: খুবই মুল্যবান পর‌্যবেক্ষন আপনার । ভাল গঠনমুলক মন্তব্য রেখেছেন ।
বাংলাদেশ টাইগার বাহিনীর সাফল্যেরে লক্ষ্যে সব সময়েই তাদের
জন্য শুভ কামনা ও ভালোবাসা একান্ত প্রয়োজন । এটা দলকে
উজ্জিবিত করে ।

শুভেচ্ছা রইল

১২| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ৩:৪৯

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন:

সবাশ বাংলাদেশ। জয়ের ধারা অব্যাহত থাকুক।

আলী ভাই, পোস্টটা সাময়িক না করে একটু এডিট করে পার্মানেন্ট করে নেন। ভালই হবে। সময়ে সময়ে সংযোজন করবেন।

ভালবাসা ♥

০৩ রা জুন, ২০১৯ ভোর ৫:০০

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ক্রিকেটে টাইগার বাহিনীর জয়ে আমি ভিষনভাবে আন্দোলিত হই ।
আমি ক্রিকেট প্রেমী হলেও একটি ম্যচের বিবরণী সঠিক মন্তব্যসহ
তুলে ধরতে পারিনা । তাছাড়া আমার বিজয় কিবোর্ডে বড় সমস্যা
করতেছে লিখতে । লেখায় প্রচুর সময় লেগে যায় । এই বিশ্ব কাপ
চলাকালীন সময়ে কেও যদি প্রতিটা ম্যাচের হাল নাগাদ নিয়েে
আপডেট দিতেন ও পাঠকের বিজ্ঞ মন্তব্যের উপরে গঠনমুলক মতামত
রাখতেন তালে খুব ভাল হত । আশা করি কে ও না কেও দয়া করে
এগিয়ে আসবেন । সামুর ক্রিকেট পেইজ হয়ে উঠবে প্রাণবন্ত ।

শুভেচ্ছা রইল

১৩| ০৩ রা জুন, ২০১৯ ভোর ৫:৪৫

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: অভিনন্দন টাইগার বাহিনীকে। নিঃসন্দেহে উভয় দলই একটি দৃষ্টিনন্দন খেলা উপহার দিয়েছেন।তবে দিনটি বাংলাদেশেরই ছিল। ওই উইকেটে টসে হেরেও আগে ব্যাট করতে পারাটা ভাগ্যের। জয় বাংলাদেশ ওই জায়গাটাই পেয়ে যায়। খেলা যতই এগিয়ে ততই তো ইতিহাস। একইসঙ্গে ফিল্ডিংয়ে টাইগার বাহিনীকে প্রভূত উন্নতি করতেই হবে। আমরা আগামীতেও এমন দৃষ্টিনন্দন ক্রিকেটের অপেক্ষায় থাকবো।

শুভেচ্ছা নিয়েন।

০৩ রা জুন, ২০১৯ সকাল ৮:০৯

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ মুল্যবান মতামতের জন্য ।
ঠিকই বলেছেন , উভয় দলই ভাল খেলেছে ।
তবে ফিল্ডিংয়ে টাইগার বাহিনীকে প্রভূত উন্নতি করতেই হবে
এ কথার সাথে সহমত পোষন করি ।

শুভেচ্ছা রইল

১৪| ০৩ রা জুন, ২০১৯ সকাল ৯:১১

বৃষ্টি বিন্দু বলেছেন:
অত্যন্ত সুন্দর পর্যালোচনা।

বাংলাদেশকে অভিনন্দন। এবিজয়ের ভেতরে ফুটে উঠা ভুলগুলো যেন বোর্ড শুধরে নিতে পারে।



ধন্যবাদ

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ১২:০৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ মুল্যবান মতামত রাখার জন্য । ঠিকই বলেছেন
আত্মতুষ্টিতে না ভোগে বিজয়ের ভেতরে ফুটে উঠা ভুলগুলো যেন বোর্ড শুধরে নিতে পারে ।
শুভেচ্ছা রইল

১৫| ০৩ রা জুন, ২০১৯ সকাল ১০:০৪

আবুহেনা মোঃ আশরাফুল ইসলাম বলেছেন: বাংলাদেশ ভালো খেলে জিতেছে।

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ১২:২২

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: বাংলাদেশ ভালো খেলে জিতেছে। এ অসাধারন কথামালাগুলি অনেকেরই মানতে বেশ কষ্ট হচ্ছে । বিদেশী কতেক সংবাদ মাধ্যমে বলা হচ্ছে দক্ষিন আফ্রিকার কিছু ভুলের কারনে বাংলাদেশ জয় পেয়েছে । বুঝুন এখন বাংলাদেশ জিতলেও মুসিবত হারলেতে আর কথাই নেই যাব কোন দিকে এখন । তবে যে করেই হোক বাংলাদেশ নিয়ে সারা ক্রিকেট বিশ্বে যে সমীহভাব জেগে উঠেছে তা রোখা কারো পক্ষে রোখা এত সহজ হবে বলে মনে হয়না ।
ধন্যবাদ অসাধারণ মুল্যবান একটি মন্তব্য রেখে যাওয়ার জন্য ।

ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা রইল

১৬| ০৩ রা জুন, ২০১৯ দুপুর ১:০৪

খায়রুল আহসান বলেছেন: ক্রিকেটপ্রেমী আলী ভাই এর এ পোস্টটা পড়ে মনটা ভাল হয়ে গেল। সাকিব ম্যান অভ দ্য ম্যাচ হয়েছেন, যোগ্যতার বলেই। কিন্তু আরো কিছু দৃঢ়তার কথা না বললেই নয়।

প্রথমেই, তামিম ইকবাল এর দোদুল্যমানতার বিপরীতে সৌম্য সরকারের ৩০ বলে ৪২ রানের, যার মধ্যে ৩৬ এসেছিল বাউন্ডারীর মাধ্যমে, ঝড়ো গতির লড়াকু ইনিংসটি বিজয়ের ভিত গড়ে দিয়েছিল। পাওয়ার প্লে তে ফাস্ট বোলারদের বলকে ভয় না পেয়ে পিটিয়ে নয় নয়বার সীমানা পার করার তার এই দৃষ্টিনন্দন ইনিংসটি ক্রিকেট বোদ্ধারা দীর্ঘদিন আনন্দের সাথে স্মরণ করবে। মুশফিক এবং মাহমুদুল্লাহ'র ত্রুটিহীন ইনিংস দুটোর কথাও দর্শকরা অনেকদিন মনে রাখবে।

মার্করাম যখন ক্রমে ক্রমে বিধ্বংসী হয়ে ওঠার আভাস দিচ্ছিলেন, তখন কুড়িতম ওভারে সাকিব এসে তাকে বোল্ড আউট করে দিয়ে খেলার মোমেন্টাম নিজেদের দিকে ঘুরিয়ে দিয়েছিলেন। ঠিক একই কাজটি করেছিলেন মুস্তাফিজ, ৪৮তম ওভারের প্রথম বলেই ডুমিনিকে বোল্ড করে। আর বোধকরি সেটাই ছিল দঃ আফ্রিকার কফিনে ঠোকানো শেষ পেরেকটি। ওভারের প্রথম বলেই মুস্তাফিজ আরেকজন দুর্ধর্ষ ব্যাটসম্যান মিলারকে আউট করেছিলেন ৩৬ তম ওভারে। আর পরে সেই মিছিলে এসে যোগ দেন সাইফুদ্দিন, ৪০তম ওভারের প্রথম বলেই আরেক দুর্ধর্ষ ব্যাটসম্যান ভ্যান ডার ডুসেন কে বোল্ড আউট করে। বিশ্বকাপের প্রথম উইকেটটি এমন একজন তারকা ব্যাটসম্যান কে (যিনি ৩ ডাউন এ নেমেছিলেন) বোল্ড করে অর্জনের পরেও তাকে তেমন উচ্ছ্বাস উল্লাস প্রকাশ করতে দেখিনি, শুধু দুই হাতের তালু একসাথে করে চুম্বন দেয়া ছাড়া। প্রথম স্পেলে অনেক বেশী রান দিয়ে ফেলার কারণেই হয়তো বা তিনি উল্লাস একটু কম করেছেন। ছেলেটাকে আমার বেশ ভাল লেগেছে। অভিব্যক্তিহীন, কিন্তু কাজের কাজটি নিরুদ্বিগ্নভাবে করে গেছেন।

ক্রিকেট জুটির খেলা। আমাদের তিন তিনটে ভাল জুটি গড়ে উঠেছিল। তাই কেউ আশি'র ঘরে রান তুলতে না করতে পারলেও, ওটুকুতেই কাফি!
তবে চার চারটে ক্যাচ মাটিতে পড়েছে। এদিকে খেয়াল না দিলে ভবিষ্যতে "জয়" ও হাত ফসকে মাটিতে পড়ে যাবে।

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ১:৪৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ইংল্যান্ডের মাটিতে বাংলাদেশ গৌরবের একটি নতুন ইতিহাস রচনা করেছে তাতে কারো কোন সন্দেহ নেই । চলতি বিশ্বকাপে যেখানে নিজেদের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কা ১৫০ রানের গণ্ডি অতিক্রম করতে পারেনি, সেখানে নিজেদেরই রেকর্ড ভেঙে ৩৩১ রানের লক্ষ্যমাত্রা রেখে ২১ রানে দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে দিল বাংলাদেশ। এই অসাধারণ জয়ের কারণ উদঘাটনে ক্রিকেট বিশ্বে চলছে এখন নানামুখী বিশ্লেষন । এই সময়ে এই সামু ব্লগে আপনার মত এমন অসাধারণ ক্রিকেট খেলা বিশ্লেষক এর পরিচয় পেয়ে নীজেদেরকে গৌরবান্বিত বোধ করছি । বাংলাদেশের জয়ের মুল দিকগুলি তুলে ধরার পাশাপাশি দুর্বলদিকগুলির প্রতি অঙ্গুলী নির্দেশ করে টিম ম্যানেজমন্টেকে সচেতন করে তোলারর্ প্রয়াস দেখা গেল মন্তব্যের কথামালায় ।
সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিম -এ দুজনের নৈপুণ্য ম্যাচ জয়ে ভূমিকা রাখার কথা তুলে ধরার পাশাপাশি অন্যদের পারফরমেন্সও সুন্দর করে তুলে ধরেছেন ।

সাকিব - মুসফিক দুজন ১৪২ রানের বড় জুটি গড়ে তুলতে না পারলে কি হত বলা মুশকিল ছিল । সাকিব মুসফিক দুজন আউটের পর খানিকটা চাপে পড়লে বাংলাদেশের লোয়ার অর্ডারের দৃঢ়তাও ছিল চোখে পড়ার মত । সে চাপ সামাল দেন আরেক অভিজ্ঞ ব্যাটসম্যান মাহমুদুল্লাহ রিয়াদ। মিঠুন এবং মোসাদ্দেক সৈকত - দুজনেই যথাক্রমে ২১ ও ২৬ রান করে মাহমুদুল্লাহকে সমর্থন করেন।সে কারণেই শেষ ১০ ওভারে ৮৬ রান তুলতে সমর্থ হয় বাংলাদেশ।

গুরুত্বপূর্ণ সময়ে বাংলাদেশ বোলারদের উইকেট নেয়াটাও ছিল সফলতার অন্যতম কারণ । মার্করামের সাথে ডু প্লেসির জুটিটা যখন জমে উঠেছিল মার্করাম যখন পঞ্চাশ এর পথে, সে সময় ৫ রান দূরে থাকতে তাকে বোল্ড করেন সাকিব। ডু প্লেসিকেও যখন ভয়ংকর মনে হচ্ছিল, সেসময় ৬২ রানে তাকে ফেরত পাঠান মিরাজ। এরপর নিয়মিত বিরতিতেই উইকেট তুলে নেন বাংলাদেশের বোলাররা। বোলিংয়ে উইকেট ভাগাভাগি করেছেন ৪ জন মিলে। এ দিকটাতেই পিছিয়ে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকা।

তবে সবচেয়ে ভাল লাগছিল যে বাংলাদেশ এ ম্যাচে পুরো দল হিসেবে খেলেছে। কারো একক পারফরম্যান্সের উপর তারা নির্ভর করেনি। এ দিকগুলিও উঠে এসেছে সুন্দরভাবে আপনার মন্তব্যের কথামালায় ।

কামনা করি দেশে শুধু ক্রিকেটিই নয় খেলার অন্যান্য শাখাতেও আপনার মত আরো অনেক ক্রিড়ামোদি ও ক্রিড়া বিশ্লেষক গড় উঠুক আর তার বিকাশ ঘটুক সর্বত্র ।

ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা রইল


১৭| ০৩ রা জুন, ২০১৯ দুপুর ১:৪১

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: বাংলাদেশের উড়ন্ত সূচনা, সাকিব-মুশফিকের জুটি, লোয়ার অর্ডারের দৃঢ়তা, গুরুত্বপূর্ণ সময়ে উইকেট নেয়া ও দলীয় পারফরমেন্সে পার্থক্য। বাংলাদেশের ম্যাচ জয়ের জন্য গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখেছে সাকিব আল হাসান ও মুশফিকুর রহিমের নৈপুণ্য।
এভাবেই ম্যাচ কে বিশ্লেষন করলো বিবিসি!

ভালই লাগে। বুকটা গর্বে ফুলে ওঠে। ভরে যায় মন।

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ২১ রানে জয়ের পর সংবাদ সম্মেলনে আসেন মাশরাফি। এ সময় এক বিদেশি সাংবাদিকের প্রশ্নে ‘আপসেট’ শব্দটি শুনে ভ্রু কুঁচকে গেল বাংলাদেশ অধিনায়কের। ছুঁড়ে দিলেন পাল্টা প্রশ্ন, ‘আপনি বোঝাতে চাইছেন, এটা আপসেট ছিল?’
তখন ওই সাংবাদিক নিজের প্রশ্ন আরও খোলাসা করে বললেন, ‘না, না, না, সেটা বোঝাতে চাইছি না। বলতে চাইছি, অতীতে আপনাদের এসব জয়কে আপসেট বলতো অনেকে, এখন ধারণা বদলাবে?

এবার দৃঢ়কণ্ঠেই নিজেদের এগিয়ে চলার বার্তা শোনালেন টাইগার অধিনায়ক। তিনি জানালেন, চারপাশে না তাকিয়ে কেবল নিজেদের উন্নতির পথ ধরেই এগিয়ে যেতে চান তারা।
মাশরাফি বলেন, ‘অবশ্যই, শতভাগ উচিত (ধারণা বদলানো)।

জবাবের দারুন দৃঢ়তায় ধন্যবাদ ম্যাশকে :)

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ২:১৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ অতি মুল্যবান কিছু কথা তুলে ধরেছেন মন্তব্যের ঘরে ।
সাংবাদিক তার ত্যারা কথামালায় আর কি চোট দিবোসরাফিকে ।এই মানুষটাতো চোটের সঙ্গেই লড়েই যাচ্ছেন নিরন্তর। চোট উপেক্ষা করে তিনি সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়ে চলেছেন। দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে লড়াকু মাশরাফিকে আরও একবার দেখা গেল। তিনি লড়াইয়ের মানসিকতা ছড়িয়ে দিয়েছেন দলের মধ্যে। চার বছর আগের বিশ্বকাপে মাশরাফির নেতৃত্বে আফগানিস্তান, ইংল্যান্ড ও স্কটল্যান্ডকে হারিয়েছিল বাংলাদেশ। এ বারের শুরুটাই যেন হল দামামা বাজিয়ে। মাশরাফির নতুন রেকর্ড গড়ার দিনে ইতিহাসেরও পুনরাবৃত্তি হল ইংল্যান্ডের মাটিতে। ২০০৭ বিশ্বকাপে প্রোটিয়াদের হারিয়েছিল বাংলাদেশ। ১২ বছর বাদে বিশ্বকাপে ফের দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারাল ‘বাংলার বাঘ’রা। প্রোটিয়াদের হারানোর পর থেকেই আইসিসি বাংলাদেশ ক্রিকেটের বন্দনায় মেতে উঠেছে। আইসিসি তাদের ফেসবুক পেজে মাশরাফি, মুশফিকুর রহিম, তামিম ইকবাল ও শাকিব আল হাসানের ছবি দিয়ে তাঁদের কিংবদন্তি বলে উল্লেখ করে। ম্যাচ জেতার পরে সাংবাদিক বৈঠকে মাশরাফি বলেন, ‘‘বাংলাদেশ শ্রদ্ধা আদায় করে নিয়েছে বলেই মনে করি।’’ চলতি বিশ্বকাপে ব্যাঘ্র গর্জন চলবে বলেই মনে করছেন ক্রিকেট বিশেষজ্ঞরা। তবে অতি মাত্রায় আপ্লুত না হয়ে দেখা যাক সামনে তারা কিরকম পারফরমেন্স করেন । শুরুটা যখন ভাল হয়েছে তখন সামনের দিন গুলিও ভাল যাবে বলে আশা রাখি ।

ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা রইল

১৮| ০৩ রা জুন, ২০১৯ বিকাল ৩:২৫

রিফাত হোসেন বলেছেন: ভাল লাগল।

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ২:১৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
ভাল লেগেছে জেনে খুশী হলাম ।

ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা রইল

১৯| ০৩ রা জুন, ২০১৯ বিকাল ৩:৩২

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: জয়ের এ ধারা অব্যাহত থাকুক।

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ২:১৮

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
জয়ের এ ধারা অব্যাহত থাকুক
কামনা করি আপনার মুখে ফুল চন্দন পরুক ।

ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা রইল

২০| ০৩ রা জুন, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৬

নীলপরি বলেছেন: অনেকদিন বাদে আপনার পোষ্ট পড়ে ভালো লাগলো । ভালো লিখেছেন খেলার রিভিউ ।

শুভকামনা

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ২:২৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: শুভ কামনা নিলাম হৃদয়ে পুরে ।
বিজয় নিয়ে হয়ে যাকনা একটি কাব্য কথন
নীল পরির হাত ধরে সামুর পাতা জুরে ।
শুভেচ্ছা রইল

২১| ০৩ রা জুন, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: বাংলাদেশের বিশ্বকাপ অভিযানে জয়ের ধারা বজায় থাকুক।
সামনে পাড়ি দিতে হবে অনেক পথ। তাই বাংলাদেশকে ফিল্ডিংএ অনেক উন্নতি করতে হবে, নাহলে এই রকম পাহাড়সম রান করেও ম্যাচ হাতছাড়া হয়ে যেতে পারে। অতীতের ভুল গুলো থেকে শিক্ষা না নিলে তো মহা বিপদ।
এই বিজয়ের ভেতরে ফুটে উঠা ভুলগুলো যেন বোর্ড শুধরে নিতে পারে। চার চারটে ক্যাচ মাটিতে পড়েছে। এদিকে খেয়াল না দিলে ভবিষ্যতে "জয়"ও হাত ফসকে মাটিতে পড়ে যাবে।

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ ভোর ৪:৫১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: খুবই মুল্যবান গঠনমুলক কথা বলেছেন ।
বাংলাদেশকে অবশ্যই ফিল্ডিং আরো অনেক উন্নতি করতে হবে ।
তবে এটা উভয়ের জন্যেই প্রযুয্য , কারণ এখাতে সকলেরই বেশ
দুর্বলতা দেখা গিয়েছে ।

২০১৯ বিশ্ব কাপের প্রথম ম্যাচে জয়ের আত্মতুস্টিতে ভুগলে চলবেনা ।
সর্বা্ত্তক প্রচেষ্টা গ্রহন করে সকলের সেরাটা প্রয়োগ করত না পারলে
জয় হাত ছাড়া হয়ে যেতে পারে, তাতে অবাক হওয়ার কিছু নেই ।
তবে খেলায় জয় পরাজয় থাকবেই , জয় পরাজয় কারো কাছে
বলে কয়ে আসেনা। খেলার জয় পরাজয় সঠিকভাবে পুর্বেই
অনেক সময় বলে দেয়া যায় না ।

ঈদের অগ্রিম শুভেচ্ছা রইল

২২| ০৩ রা জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১০

নাসির ইয়ামান বলেছেন: এতোদিন ভাবতাম ব্লগাররা একটু বেশীই কেয়ারিং,আত্মসচেতন,যাবতীয় ইস্যূ নিয়ে উচ্চকণ্ঠ!!এখন দেখছি বেশিরভাগই "হাসিনামার্কা"পাগলাটাইপের!
দেশটা যখন আমলাতন্ত্রের দুর্নীতির কারণে,ঘনঘন অগ্নিকাণ্ডের কারণে,শিক্ষাব্যবস্থার ভঙ্গুরতার জন্যে ব্যর্থতার চূড়ান্ত পর্যায়ে,এঁরা তখন খেলাধুলার মতো তুচ্ছ বিষয় নিয়ে মাতামাতি করে!

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ ভোর ৫:১৩

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: আমলাতন্ত্রের দুর্নীতি, ঘনঘন অগ্নিকাণ্ড ,শিক্ষাব্যবস্থার ভঙ্গুরতার জন্যে
ব্যর্থতার চূড়ান্ত পর‌্যায় এর মাঝে দ ‘একটা সফলতা যদি এসেই যায় তাহলে
সেটাকে তুচ্ছ ভাবার কারণ হয়ত অনেকের কাছে থাকতেই পারে , এতে খুব
বেশী অবাক হওয়ার কিছু নেই । সমাজে বিভিন্ন মতাদর্শের মানুষের সমাগম
থাকবেই । তবে দেশে আমলাতন্ত্রে দুর্ণীতি, শিক্ষাাব্যবস্থায় ভঙ্গুরতা ও
বিবিধ খাতে যে ব্যর্থতা রয়েছে তা অস্বিকার করার উপায় নাই ।
এর হাত হতে মুক্তির জন্য কান্ডারীতো একজন লাগবেই ।
"হাসিনামার্কা"পাগলাটাইপের! যুগে কে হতে পারে সে
কান্ডারী সেটাই এখন দেখার পালা । আপনার
মন্ত্ব্যেবের রেশ ধরে কবি বিদ্রোহী ভৃগুর
কথামালাও বেশ প্রনিধান যোগ্য ।

ঈদের শুভেচ্ছা রইল

২৩| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ৯:৩৮

নজসু বলেছেন:



এ বিজয় আমাদের গর্বের।
আমাদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা।
অব্যহত থাক এই পথচলা।
বাংলাদেশ এগিয়ে যাক সকল ক্ষেত্রে, সকল পদক্ষেপে।

শ্রদ্ধেয় এবং প্রিয়, আপনার মাধ্যমে আমিও টাইগারদের জানাই প্রাণঢালা অভিনন্দন।

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ ভোর ৫:১৭

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: যতার্থ বলেছেন
এ বিজয় আমাদের গর্বের।
আমাদের সামনে এগিয়ে যাওয়ার প্রেরণা।
অব্যহত থাক এই পথচলা।
বাংলাদেশ এগিয়ে যাক সকল ক্ষেত্রে, সকল পদক্ষেপে।


আপনার প্রাণঢালা অভিনন্দন টাইগার বাহিনীর প্রতি নিবেদন করা হল ।

ঈদের শুভেচ্ছ্ রইল

২৪| ০৩ রা জুন, ২০১৯ রাত ৯:৪১

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: নাসির ইয়ামান বলেছেন: এতোদিন ভাবতাম ব্লগাররা একটু বেশীই কেয়ারিং,আত্মসচেতন,যাবতীয় ইস্যূ নিয়ে উচ্চকণ্ঠ!!এখন দেখছি বেশিরভাগই "হাসিনামার্কা"পাগলাটাইপের!

হা হাহা
ভায়া সামুর গলা টিপা ছিল সর্বশেষ অসহিষ্ণুতার চরম রুপ!
এক্ষনে দেশ যেখানে আছে তা নো োয়ে অব রিটার্নে দাড়িয়ে! এখানে পরিবর্তন মূখের কথায়, ব্লগিংয়ে বা সুশীলপনায় সম্ভব নয়।
প্রয়োজন পূর্ন বিপ্লব! আর বিপ্লব করতে হলে আপনাকে যেতে হবে ডার্ক ওয়েবে।
যাবেন নাকি? ;)

এখন যা চলছে- আইসিইউতে বেঁচে থাকার বাঁচিয়ে রাখার অভিনয়!

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ ভোর ৫:৩৭

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: জাতির একটি সাফল্য যা সারা বিশ্ব জুরে প্রসংসিত হচ্ছে সেটাকে প্রকাশ্যে
সামাজিক একটি যোগাযোগ মাধ্যমে তুচ্ছ বলার বিষয়ে আর কি বলা যায় ,
তবে বলা যায় এমনতর কিছু অর্বাচীন কথামালাই হয়তবা সামুর গলাটিপে
ধরাকে প্ররোচনা দিয়েছে যার ভুক্তভোগী হচ্ছে সামুর অগনিত ব্লগার ও
পাঠকবৃন্দ । এমনতর কথায় কতৃপক্ষতো বরং আরো মওকা পেয়ে যায় ।
ধন্যবাদ উনাকে সুন্দর একটি প্রশ্ন করার জন্য । যাহোক ,গঠনমলক
সমালোচনা সকল সময়েই কাম্য । ি

ঈদের অগ্রীম শুভেচ্ছা রইল

২৫| ০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ২:২১

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন:

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ ভোর ৫:৫১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
ধন্যবাদ
আপনার জন্যও রইল

২৬| ০৪ ঠা জুন, ২০১৯ সকাল ১১:৩০

খায়রুল আহসান বলেছেন: ক্রিকেট বিশ্বকাপ-২০১৯ এর প্রথম খেলাটিতেই শক্তিশালী দক্ষিণ আফ্রিকা দলটির কাছ থেকে বাংলাদেশ দলগত নৈপুণ্য দেখিয়ে যে বিজয় ছিনিয়ে নিল, অপনার লেখা সেই গৌরবগাঁথায় আরো কিছু প্রশংসাবাণী এখানে আমি যোগ করতে চাই, রেকর্ড থাকুক।

খেলা শেষে বিশ্বসেরা সাবেক ক্রিকেট খেলোয়াড় এবং বর্তমানে ক্রিকেট ভাষ্যকার আয়ান বিশপ টুইট করেছেনঃ "Bangladesh are re-confirming what we've known for a few years now. They are a team showing that they are a genuine force in the World game."

সৌম্য সরকার
এর ৩০ বলে ৪২ রানের ঝড়ো গতির লড়াকু ইনিংসটি সম্পর্কে ESPNcricinfo এর Sri Lanka correspondent Andrew Fidel Fernando লিখেছেন, "The first broadening of horizons came in Bangladesh's opening partnership. Soumya Sarkar, whipping Lungi Ngidi off the hip, crashing Kagiso Rabada through cover, taking apart arguably the best new-ball attack around, while Tamim Iqbal, the usual devastator, practically limped to 16 off 29."

ESPNcricinfo এর সেদিনের ভারতীয় ধারাভাষ্যকার (অনলাইন, লাইভ) Shashank Kishore তার সমাপনী মন্তব্যে বলেছিলেন, "The tigers roar. All of Bangladesh will surely celebrate long and hard into the night. This is a famous win, even bigger than their victory over South Africa at the 2007 World Cup. This is a different side to the one that 'upset' South Africa there. This one is an emphatic win by a much-confident side led by a tactically astute and inspirational captain in Mashrafe Mortaza.

They've shown the value of preparation going into a big tournament. Arrived a month early, played a tri-series which they approached with much seriousness. Planned meticulously, won four games. Shunned experimentation and focused on results. Beat West Indies twice, including in the final to clinch their first-ever multi-nation tournament, and here they are now. On the grandest stage of them all, against a good South African side. Upsetting their apple cart with a much-superior display. Make no mistake, this is a thumping for South Africa.

Soumya Sarkar set the tone with some breath-taking off-side strokeplay. The momentum was sustained by Shakib and Mushfiqur before Mahmudullah gave them the final kick. All said and done, their highest ODI total may have yet not been enough had even one bowler lost his plot. The game was very much alive while Faf and Miller were around, threatening a late heist, only to be flattened by Mustafizur and Shaifuddin. Momentous occasion for Bangladesh. They arrived at the World Cup 20 years ago to England as absolute newbies just happy to play. That isn't the case anymore. This side is ready to conquer the world."

মাহনীল নামে একজন দর্শক মাহমুদুল্লাহ সম্পর্কে মন্তব্য করেছেন, "Mahmudullah's role down the order is frequently overlooked but he plays a powerful anchor. Rarely does he hit those flashy drives but he allows the batter on the other end to go big while he holds one end. Terrific player for Bangladesh".

Muhammad Ameen আরেকজন দর্শক তথাকথিত "আপসেট" সম্পর্কে মন্তব্য করেছেন, "This is not an upset, certainly not, but it surely is a wake up call for the rest of the teams to not take Bangladesh as a simple opponent. Don't make unsure experiments against them, come up with strong planning and don't blink your eye even for a second."

ভাল থাকুন, ক্রিকেট নিয়ে আরও লিখুন। ঈদের শুভেচ্ছা.....

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ, আপনার দেয়া তথ্য সম্ভার পোষ্টের আলোচনাকে নিয়ে গেছে অনেক উচ্চতায় ।
অনেক হা হা কার আর না পাওয়ার দেশে আন্তর্জাতিক পরিমন্ডলে বাংলাদেশের কোন বিজয়ে
সারা দেশবাসির মত আমাদের অনেক প্রবাসিদের মনে কত যে আনন্দ ও গর্ব এনে দেয়
তা ভুক্তভোগী ছাড়া অন্য কেহ সহজে অনুভব করতে পারবেনা ।

বাংলাদেশের বিজয়ে দক্ষিন আফ্রিকা জুরেও চলছে তাদের ক্রিকেট ভক্তদের অনেকতর কথামালা । ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে প্রথম ম্যাচেই হেরেছে প্রোটিয়ারা। রবিবার বাংলাদেশের কাছেও ২১ রানে হার মেনেছেন ফ্যাফ দু’ প্লেসিরা। দক্ষিণ আফ্রিকার এই বিপর্যয় দেখার পরে এবিডি-কে দলে ফেরানোর কথা বলেছেন রবিন রমেশন নামের এক দক্ষিন আফ্রিকান ভক্ত। ডিভিলিয়ার্স ফিরলেই দক্ষিণ আফ্রিকা বাঁচবে, এমনটাই মনে করছেন তিনি। রবিনের মতোই চিন্তাভাবনা অন্য প্রোটিয় ক্রিকেটভক্তদেরও। ‘মিস্টার ৩৬০ ডিগ্রি’ ফিরলেই বদলে যাবে দক্ষিণ আফ্রিকা। এক ভক্ত লিখেছেন, ‘‘দক্ষিণ আফ্রিকা ডিভিলিয়ার্সের অভাব বোধ করছে। ওকে দলে ফেরানো উচিত।’’ আর এক ভক্ত লিখেছেন, ‘‘অবসর ভেঙে ফিরে আসা উচিত ডিভিলিয়ার্সের।’’ বুঝেন এখন বাংলাদেশের এ বিজয় তাদেরকে কতটুকু আলোড়িত করেছে ।

যাহোক, চলমান বিশ্ব ক্রিকেট নিয়ে আপনার মত এমন বিচক্ষন ও ক্রিকেট বিশ্লেষনী ক্ষমতাবান গুনী মানুষ যদি আমাদেরকে আলোকিত করেন তাহলে আমাদের জন্য কতই না ভাল হয় । এই খরার যুগে ভাল একটি সমসাময়িক বিষয় নিয়ে আমরা যদি গঠনমুলক আলোনা সমালোচনার মাধ্যমে পরশ্পর মিথক্রিয়ায় ব্লগ পাড়াকে সরগরম করে রাখতে পারি তাহলে আখেরে আমাদের জন্যই ভাল হবে ।

ভাল থাকু্ন
আপনার জন্য রইল


২৭| ০৪ ঠা জুন, ২০১৯ দুপুর ১২:৩৪

সুমন কর বলেছেন: অভিনন্দন টাইগার দলকে.....

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৪৫

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ ,
আপনার অভিনন্দন বার্তা টাইগার বাহিনীর প্রতি নিবেদন করা হল ।
ভাল থাকার শুভকামনা রইল

২৮| ০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ৯:১২

সত্যপথিক শাইয়্যান বলেছেন: টাইগারদের জন্যে অনেক অনেক শুভকামনা। তাঁরা এগিয়ে যাক, এই-ই কামনা।

ভালো থাকুন নিরন্তর।

০৪ ঠা জুন, ২০১৯ রাত ৯:১৯

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
ধন্যবাদ ,
আপনার অভিনন্দন বার্তা টাইগার বাহিনীর প্রতি নিবেদন করা হল ।
দোয়া করি আপনার এ সুন্দর কামনা বাস্তাবয়ন হোক প্রতিটি ম্যচে ।
আপনার জন্য রইল

২৯| ০৫ ই জুন, ২০১৯ সকাল ৯:০৭

নজসু বলেছেন:

০৫ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৪:১১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:

৩০| ১১ ই জুন, ২০১৯ রাত ১০:০৯

জুন বলেছেন: চলে যাওয়া ঈদের শুভেচ্ছা জানবেন ডঃ এম এ আলী :)
আপনার লেখাটি পড়ে আনন্দিত হবার ক্ষনটি চলে গেছে আমার ব্যস্ততার কারনে ।
এখন আমাদের আছে ইংল্যান্ডের কাছে পরাজয়ের গ্লানি ।
ব্যাটিং বোলিং ফিলডিং প্রতিটি বিভাগেই এত বাজে খেল্লো বাংলাদেশ ভাবতেই পারি না ।
তারাতো এমন দল না । যাই হোক আশা করি টাইগার বাহিনী তাদের হৃত গৌরব পুনরুদ্ধারে সক্ষম হবে ।
কেমন ঈদ কাটালেন ? পরিবারের সবাইকে নিয়ে সব কিছু ভালো থাকুক সেই দোয়া রইলো ।
শুভকামনা সবসময়ের জন্য ।

আগামীকাল নতুন পোষ্ট দিচ্ছি । আশাকরি আপনার একটি সুচিন্তিত মন্তব্য পাবো :)

১১ ই জুন, ২০১৯ রাত ১১:২৭

ডঃ এম এ আলী বলেছেন:
যে করেই হোক বাংলাদেশকে
বিশ্ব জয় করতেই হবে , আর
মনে বলিয়ান হলেই তা পারবে।

কয়েকটা ভেনুতে বাংলাদেশের
খেলা দেখার জন্য টিকেট কাটা
ছিল কিন্তু ভাব গতিক যা দেখছি
তাতে মাঠে যাওয়ার ইচ্ছা একটু
দমিত হয়ে যাচ্ছে।

আপনার নতুন পোষ্ট দেখার জন্য
উন্মোখ হয়ে আছি । সেখানে করা
মন্তব্য সুচিন্তিত হবে কিনা জানিনা
তবে তা দেখার জন্য অবশ্যই যাব।

ঈদ শুভেচ্ছা রইল

৩১| ১৬ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৪:১৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: কেমন আছেন ? টেকনিক্যালী আটকে ছিলাম। দেশের বাইরে ব্লগ মুক্তি আছে জানা ছিলো না।

১৬ ই জুন, ২০১৯ বিকাল ৫:৫১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ভাল আছি । কিছুক্ষন আগে বাজেটের উপর আপনার বক্তৃতা পাঠ করে আসলাম ।
ঠিকই বলেছেন দেশের বাইরে ব্লগ একেবারেই মুক্ত ।
শুভেচ্ছা রইল

৩২| ১৬ ই জুন, ২০১৯ রাত ৯:৪০

পাঠকের প্রতিক্রিয়া ! বলেছেন: ড. আলী,
টাইগাররা তো আর জয়ের মুখ দেখছে না। ওদের আরো কিছু ম্যাচ জেতা দরকার। আশাকরি গ্যালারিতে বসে সেসব লেখা দেখে এমন রিভিউ আবারও লিখবেন।



যা হোক, যে কারণে কমেন্ট করলাম:
আপনার মন্তব্যগুলো বরাবরই সুন্দর, তথ্যপূর্ণ। কিছু কিছু মন্তব্য তো পোস্টের গভীরতাকেও ছাপিয়ে যায়। বাজেট সম্পর্কিত মন্তব্যগুলোর কথাই ধরি, এমন বিচক্ষণ মন্তব্য খুব কম পড়েছি। আমার মনে হয় মন্তব্যের পাশাপাশি এসব চিন্তাধারা পোস্ট আকারেও দেয়া দরকার। মন্তব্য খুঁজে পেতে অনেক সময় লাগে, কিন্তু পোস্ট সহজেই পাওয়া যাবে। এতে তথ্যগুলোও সংরক্ষিত থাকবে। বিষয়টা ভেবে দেখতে পারেন।
...পাঠক

১৭ ই জুন, ২০১৯ রাত ৯:৩৬

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ, আশা করি আজকের খেলাটি দেখছেন। খুবই টেনসনে আছি কি হয় ভেবে ।
বৃস্টি হানা না দিলে হয় । ক্ষনে রোদ ক্ষনে মেঘের আনাগোনা চলছে ।

বাজেট নিয়ে চাঁঁদ গাজী ও ঠাকুর মাহমুদ ও আরো অনেক বড় বড় বিশেষজ্ঞগন পোষ্ট দিচ্ছেন । সাধারন একজন পাঠক হিসাবে সে গুলি পাঠ করে বিক্ষিপ্ত কথামালায় কিছু মন্তব্য করি । সেগুলি সুন্দর হয় শুনে ভাল লাগল । তবে একটি দেশের জাতীয় বাজেট নিয়ে কোন ভাল মতামত রাখতে হলে দেশের হাল নাগাদ সমস্টিক অর্থনৈতিক উপাত্ত প্রয়োজন , তা হাতের কাছে সহজ লভ্য না হওয়ায় এটা নিয়ে একটি পৃথক পোষ্ট দেয়া এই মহুর্তে আমার পক্ষে বেশ কঠিন কর্ম । তাই এ বিষয়ে আমাদের বিশেষজ্ঞ ব্লগারদের পোষ্ট পাঠেই বেশী আগ্রহী । তাদের শ্রমসাধ্য প্রচেষ্টার প্রতি শ্রদ্ধা রইল ।

আপনার প্রতি রইল শুভেচ্ছা

৩৩| ২৬ শে জুন, ২০১৯ রাত ৩:৩৮

নাঈম জাহাঙ্গীর নয়ন বলেছেন: ওয়ানডেতে টাইগার'রা সেদিন সর্বোচ্চ রান করার রেকর্ডের মালিক বনে যায়, দারুণ আনন্দ উপহার দিয়েছিল সেদিন টাইগারদের জয় ও চেষ্টাশীল মনোযোগ মনোবল।

সর্বোচ্চ রানের সেই রেকর্ড বেশিদিন লাগেনি ভাঙতে, এ বিশ্বকাপেই বিশ্বসেরা অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে নিজেদের রেকর্ড ভেঙেছে টাইগাররা, যদিও ম্যাচটি ঠকতে হয়েছে সেদিন। সবমিলিয়ে এবারের বিশ্বকাপে টাইগারদের পারফরম্যান্স মুগ্ধ ও গর্বিত করেছে আমাকে।


সুন্দর বর্ণনা করেছেন শ্রদ্ধেয় প্রিয়

শুভকামনা বাংলাদেশ ক্রিকেট টিমের জন্য সবসময়, আপনার জন্য শ্রদ্ধা আর ভালোবাসা

২৬ শে জুন, ২০১৯ রাত ৩:৫৪

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: ধন্যবাদ টাইগারদের সাথে
আমাকেও শ্রদ্বা ও ভালবাসা জানানোর জন্য ।
আপনার প্রতিও তাই রইল ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.