নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ঢাবিয়ান

ঢাবিয়ান › বিস্তারিত পোস্টঃ

নুরুলের ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক এবং তার গ্রাম্য স্কুল শিক্ষক

১৪ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ৯:২৬

২৮ বছর আগে ডাকসু নির্বাচন হয়েছিলো সামরিক স্বৈরাচার এরশাদের আমলে। সেই নির্বাচন শিক্ষকরা দায়িত্বশীলতার সঙ্গে পরিচালনা করেছিলেন, শিক্ষার্থীরা কোনো বাধা ছাড়া ভোট দিয়েছিলেন। তখনও দেশে নির্বাচন বলতে কিছু ছিলো না। কিন্তু, ডাকসু নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছিলো। এবারো শিক্ষার্থীরা আশা করেছিল যে শিক্ষকরা নিশ্চয়ই এমন কিছু করবেন না, যা শিক্ষার্থীদের কাছে তাদের সম্মানহানি ঘটায়। শিক্ষকরা সেই আশ্বাস দিয়েছিলেনও। শিক্ষকরা যতই দলবাজি করুক এরকম নিল্লজ্জভাবে নিজেদের সম্মান-শ্রদ্ধা-মর্যাদার জলাঞ্জলি দিয়ে রাতের বেলা ব্যলট বাক্স ভরার সুযোগ করে দেবে, এটা শিক্ষার্থীরা সন্দেহ করলেও মনেপ্রানে বিশ্বাস করতে চায়নি।কুয়েতমৈত্রী হলে হাতেনাতে প্রভোস্ট ধরা পড়ার পর কিছু শিক্ষার্থী তাই কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছিল। কোনভাবেই সহ্য করতে পারছিল না শিক্ষকদের এই কদর্জ রুপ। কিন্ত দুঃখজনক হলেও দেশের সর্বোচ্চ বিদ্যাপীঠের বিদেশি পিএইচডিধারী শিক্ষকদের এটাই আসল চেহারা! এদের কারনেই একদা নামকরা এই বিশ্ববিদ্যালয়ের অবস্থান আজ এশিয়ার ৩০০টি বিশ্ববিদ্যালয়ের মাঝেও নেই।

এক টিভি চ্যনেলের নিউজ ক্লীপে দেখলাম যে নুরুলের ভিপি হবার সংবাদ পেয়ে সেই সুদুর গ্রাম থেকে তার স্কুল টিচার চলে এসেছেন তার সাথে দেখা করতে। টিভি চ্যানেলে্র সাক্ষাৎকারে দেখলাম আবেগে কান্নায় ভেঙ্গে পড়েছেন তিনি। বলেছেন '' আমার মত সামান্য এক শিক্ষকের এর চেয়ে বড় পাওয়া আর কি হতে পারে যে, আমার ছাত্র আজ এত মানুষের ভালবাসা পাচ্ছে, ডাকসুর ভিপি হয়েছে''। নুরুল কতটা কঠিন সংগ্রামের পথ পারি দিয়ে আজ এই অবস্থায় পৌছেছে , তার বয়ান দিলেন। তন্ময় হয়ে তার কথাগুলো শুনছিলাম।এরাইতো প্রকৃত শিক্ষক , মানুষ গড়ার কারিগর। এক অজ পাড়া গায়ের দরিদ্র কৃষকের মেধাবী সন্তান নুরুল আজ যে অবস্থানে পৌছেছে, যে মূল্যবোধ ধারন করেছে সেই কৃতি্ত্ব অনেকখানি এই দরিদ্র স্কুল মাস্টারের।

অনেক অনেক শ্রদ্ধা নুরুলের স্কুল শিক্ষকের জন্য।

মন্তব্য ২৪ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (২৪) মন্তব্য লিখুন

১| ১৪ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ১০:০৯

জুনায়েদ বি রাহমান বলেছেন: নুরুর ঐ শিক্ষকের মতো শিক্ষক এখন নেই বললেই চলে। চুরি করে, ঘুষ, দুর্নীতির সুযোগ নিয়ে যারা পয়সাওয়ালা হওয়ার স্বপ্ন দেখে চাকরির অভাবে এখন তারাই বাধ্য হয়ে শিক্ষক হয়।
দুর্নীতি করে।

নুরু রিয়েল হিরো। ভবিষ্যতে তাঁকে নিয়ে মুভি টুবিও হবে।

১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:৩৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: গ্রামের দরিদ্র প্রাইমারী স্কুলের মাস্টারদের ভাগ্যের তেমন কোন পরিবর্তন হয়নি। তারা যেমন দরিদ্র ছিল আজো তেমনই আছে। হয়ত সে কারনেই এখনও কিছু মূল্যবোধ বেঁচে আছে তাদের ভেতরে।

২| ১৪ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ১০:২৯

আকতার আর হোসাইন বলেছেন: নুরু ভাইয়ের শিক্ষককে অনেক অনেক সম্মান জানাই...

শিক্ষকতা পৃথিবীর সর্বশ্রেষ্ঠ পেশা.. নিঃসন্দেহে এই পেশায় থেকে যখন কেউ জঘন্য কাজগুলো করে তাঁদের থাকবে ভয়াবহ শাস্তি..

১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:৩৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: ভয়াবহ সেই শাস্তি দেখে যাবার সৌভাগ্য যেন আমাদের হয়।

৩| ১৪ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ১১:৩৬

আখেনাটেন বলেছেন:




মহারাণী কি হেলমেটবাহিনীর উপর ঝাঁড়ফুক দিয়েছে নাকি। তা নাহলে এখনও নুরুর উপর ঝড়-তুফান শুরু হল না যে বড়!


তবে নুরু মিঞার নার্ভ আছে বলতেই হয়। দানবের সাথে লড়াইয়ে টিকে থাকা মানবের পক্ষেও সম্ভব সেটা করে দেখালেন।


আচ্ছা, গোলাপী বেগমের চ্যালারা নুরু সাহেবকে সমর্থন দিলো না ক্যান।

১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:৫৪

ঢাবিয়ান বলেছেন: কি কন আপনি? মহারানীর কৃপায়ইতো নুরুল আজ ভিপি। যেইভাবে ভোট ডাকাতি করতে গিয়ে শিক্ষকেরা হাতেনাতে ধরা পড়েছে শিক্ষার্থিদের হাতে , তাতেতো আগুন ধরে যাবার কথা ছিল ক্যম্পাসে। সেই আগুনে পানি ঢেলে দেবার কাজ করেছেন মহারানী।

গোলাপি বেগমের ছাত্রদলতো এখন বিড়ল প্রজাতির প্রানী। ডাইনসরের মত বিলুপ্ত হবার পথে।

৪| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ১২:৪৪

শাহিন বিন রফিক বলেছেন:



ভাই মিশরপতি, সবার ভোটের হিসাব দ্যাখেন তাহলে গোলাপী ম্যাডামের হিসাব পাবেন, সবকিছু ঢোল পিটিয়ে জানালে "রাজনীতি" শব্দটির মান ইজ্জত থাকবো।

১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:৪৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: হা হা হা । ভাল বলেছেন।

৫| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ৩:২৯

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: দেশটা দুষ্ট লোকে ভরে গেছে।

১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:৪৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: দুষ্টু লোকের হাতে কয়েদ হয়ে আছে সকল ক্ষমতা।

৬| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৪:১৬

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
মহারাণী কি হেলমেটবাহিনীর উপর ঝাঁড়ফুক দিয়েছে নাকি।
হেলমেটবাহিনীর ঝাঁড়ফুক লাগে না। তাবিজ প্রাপ্ত।

কঠিন ঝাঁড়ফুক দেয়া হবে নবনির্বাচিতদের।
শনিবার বিকেলে ভোজ! .. গণভবনে!

১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:৫৩

ঢাবিয়ান বলেছেন: এই একখান দারুন মন্তব্য করলেন এতদিনে। নুরুলকে তাবিজ করার জন্যইতো ডাকা হয়েছে গনভবনে।নুরুল সেখানে যাবার সিদ্ধান্ত নিয়ে বড় ভুল করল। দেখা যাক, সন্ধ্যা হতে এখনও অনেক দেরী। অন্যান্য ছাত্রজোট বিরোধিতা করলে নুরুল মনে হয় না যাবে সেখানে।

৭| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৪:৫২

চাঁদগাজী বলেছেন:


নুরুলের শিক্ষকও হয়তো মুক্তিযোদ্ধা বিরোধী; এরা কোন এলাকার লোকজন?

১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:৫৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: মাঝে মাঝে আপনার কথাবার্তা আর হাতুড়িলীগের কথাবার্তার মাঝে কোন ফারাক থাকে না কেন, একটু বলেন দেখি?

৮| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:২৮

বলেছেন: নুরুলের শিক্ষক একজন আদর্শ মানুষ যিনি তথাকথিত সাদা ও নীল দলের মতো রাজনৈতিক ফায়দা চান না!
যিনি আজন্ম মানুষ গড়ার লক্ষ্যে কাজ করে যান।

সেলুট জানাই।।।

১৫ ই মার্চ, ২০১৯ ভোর ৬:৫৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ এত সুন্দর একটা কমেন্টের জন্য ।

৯| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ সকাল ১০:১৯

নীলপরি বলেছেন: ৮নং মন্তব্য ভালো লাগলো ।

১৬ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ৯:০৫

ঢাবিয়ান বলেছেন: ধন্যবাদ

১০| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ দুপুর ১:১২

ইনাম আহমদ বলেছেন: ছা-ছফ-সিঙ্গারা খাইতে যাইতে চাই

১৬ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ৯:০৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: :) । যেই দিন সামনে আসছে তাতে আর দশ টাকাও খরচ করতে হবে না, হাতুড়িলীগের সদস্যদের সাথে গেলে বিনা পয়সাতেই মিলবে।

১১| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ দুপুর ১:৪৪

অক্পটে বলেছেন: এত্ব এত্ব হায়েনার মাঝে নূরুল হলো এ রিয়েল হিরো।
বিশ্ব বিদ্যালয় চরিত্রহীন শিক্ষকে ভরে গেছে। ওরা ওখানে বসে ডাকাতের পৃষ্ঠপোষকতা করে।

১৬ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ৯:১০

ঢাবিয়ান বলেছেন: রিয়েল হিরোকে এখন রিয়েল ভিলেন বানানোর পায়তারা চলছে।

১২| ১৫ ই মার্চ, ২০১৯ দুপুর ২:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: পবিত্র কোরআনে আছে, একটি ভালো কথা এমন একটি ভালো গাছের মতো, যার শেকড় রয়েছে মাটির গভীরে আর শাখা-প্রশাখার বিস্তার দিগন্তব্যাপী, যা সারা বছর ফল দিয়ে যায়।

১৬ ই মার্চ, ২০১৯ রাত ৯:১৪

ঢাবিয়ান বলেছেন: সবাই নষ্ট হয়ে যায়নি। ভাল শিক্ষকেরা এখনও আছে। প্রচারের আলোয় হয়ত তারা নেই কিন্ত ভাল গাছের মত সারা বছর ভাল ফল দেয়ার মাঝেই তাদের জীবন পারি দিচ্ছেন।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.