নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ঢাবিয়ান

ঢাবিয়ান › বিস্তারিত পোস্টঃ

রোজিনা ইসলাম- এক অকুতোভয় সাংবাদিক

১৯ শে মে, ২০২১ বিকাল ৪:৪৮



গত সোমবার পেশাগত দায়িত্ব পালন করতে গিয়ে সচিবালয়ে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের কর্মকর্তাদের হেনস্তার শিকার হন সাংবাদিক রোজিনা ইসলাম। তাঁকে পাঁচ ঘণ্টা আটকে রাখার পর শাহবাগ থানার পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয় এবং মামলা করা হয়। পরদিন গতকাল মঙ্গলবার আদালতে হাজির করার পর তাঁর রিমান্ড নামঞ্জুর করে কাশিমপুর মহিলা কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেওয়া হয়।

রোজিনা ইসলাম আটকের পর প্রথম আলোয় লেখা তার প্রতিবেদনগুলো ভাইরাল হয় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। রোজিনা ইসলামের বোন জানিয়েছে যে, , একটি কক্ষে বসে আপা পত্রিকা পড়ছিলেন। ওই সময় কনস্টেবল মিজানসহ আরও কয়েকজন আপার ব্যাগ কেড়ে নেয়। তারা আমার বোনকে হুমকি দিয়ে বলেন, এতদিন অনেক নিউজ ও লেখালেখি করেছেন, আপনাকে মাটির মধ্যে পুঁতে ফেলব। পরে বোনকে ছয়-সাত ঘণ্টা সচিবালয়ে আটকে রাখা হয়।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভ্যন্তরে রোজিনার গলা চেপে ধরা একটি ছবি ভাইরাল হয় সম্প্রতি। গলা চেপে ধরা সেই মহিলার পরিচয় বেড়িয়েছে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে। কাজী জেবুন্নেছা স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব।কাজী জেবুন্নেছার কানাডায় ৩টি বাড়ি, পূর্ব লন্ডনে ১টি এবং ঢাকায় ৪টি বাড়ি, গাজীপুরে ২১ বিঘা জমি আছে। এছাড়া নামে-বেনামে রয়েছে ৮০ কোটি টাকার এফডিআর। এই দেশে উঁচু পদে যারাই থাকে তাদের বেশীরভাগেরই স্থাবর অস্থাবর সম্পত্তির খোজ নিলে দেখা যাবে বিশ্বে শীর্ষ ধনীদের যে তালিকা নানান সময়ে বের হয় তা আসলে সঠিক নয়। আমাদের দেশের অনেকেরই সেই তালিকার উপড়ের দিকে স্থান পাবার কথা!

এবার দেখা যাক সাংবাদিকরা এই ইস্যূতে কতটা ঐক্যবদ্ধ থাকে!! এই দেশে সবচেয়ে সহজে বিক্রি হয় সাংবাদিকরা। সাগর রুনি বিচার আন্দোলন যেভাবে বিক্রি করেছে, রোজিনাকে মুক্ত করার আন্দোলন এখন কত টাকায় বিক্রি হয় সেটাই দেখার বিষয়!!

মন্তব্য ৩২ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৩২) মন্তব্য লিখুন

১| ১৯ শে মে, ২০২১ বিকাল ৫:০০

চাঁদগাজী বলেছেন:



সাংবাদিকরা বসুন্ধরা, যমুনা গ্রুপ, বেক্সিমকো, আলম ব্রাদারদের চাকুরী করে; ফলে,উহাদের লেখা থেকে জাতি বিভ্রান্ত হয় শুধু।

১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৩

ঢাবিয়ান বলেছেন: সেটা ঠিক। নীতিহীন, বিবেকহীন বহু সাংবাদিকদের কারনেই দেশের আজ এই অবস্থা। কলম যদি বিক্রি না হত তাহলে এই রাস্ট্র থেকে অনিয়ম অনেক আগেই বিদায় হত।

২| ১৯ শে মে, ২০২১ বিকাল ৫:০৬

ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনের কোন কথা বিশ্বাস করি না। আপনে দেশ-বিরোধী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত একজনের পক্ষে সাফাই গাইতাছেন। এই বিষয়ে ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণের জন্য ব্লগার কলাবাগান আর ব্লগার কালবৈশাখীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতাছি। =p~

১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: তাগোতো ব্লগে বহুকাল দেখি না। আমিও দৃষ্টি আকর্ষণ করতাছি । :)

৩| ১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:১৮

নেওয়াজ আলি বলেছেন: মন্ত্রী বলে রোজিনা ফাইল চোর

১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:২৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: আমরা আমজনতা বেশি কিছু কইতে চাই না। দেখি এবার গনমাধ্যমের সাংবাদিকরা কি করে?

৪| ১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৪১

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:

ইন্টারনেট আর অবাধ তথ্য প্রবাহের যুগে এখন দরকার নাগরিক সাংবাদিকতা।

এই ক্ষেত্রে ব্লগ, ফেসবুক, ইউটিউব ইত্যাদি হতে পারে শক্তিশালী গণমাধ্যম।

যেকোনো ব্যক্তি হতে পারেন বিকল্প সাংবাদিক।

১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৫২

ঢাবিয়ান বলেছেন: ব্লগ, ফেসবুক, ইউটিউব এখন বিকল্প সংবাদ মাধ্যম। কিন্ত গনমাধ্যম হচ্ছে একটি দেশের মুল সংবাদ মাধ্যম। সামাজিক যোগাযোগের প্ল্যটফর্ম শক্তিশালী হলেও এর গ্রহনযোগ্যতা কম।

৫| ১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৪৯

নজসু বলেছেন:



অকুতোভয়কে এখন ভয় দেখিয়ে কোণঠাসা করার পাঁয়তারা চলছে।

১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৫৪

ঢাবিয়ান বলেছেন: গনমাধ্যমের টুটি চেপে ধরতে যা করা দরকার তাই করা হচ্ছে। দেখার বিষয় যে আনিসুল হকের দল শুধু দুই ফোটা চোখের জল ফেলেই দায়িত্ব শেষ করে কিনা!!

৬| ১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:০৪

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: সাংবাদিক দমনের নতুন ফরমুলা পাওয়া গেল। এইবার সফল হলে ভবিষ্যতেও এই পদ্ধতি সফলভাবে প্রয়োগ করা হবে। তবে রোজিনা অবশ্যই সাহসী।

১৯ শে মে, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:২৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: দমন নীপিড়নে সফলতা ১০০% হলেও কলমের লেখা আসলে এভাবে থামিয়ে দেয়া যায় না। যুগে যুগে সাগর, রুনী, রোজিনারা জন্ম নেবেই।

৭| ১৯ শে মে, ২০২১ রাত ৮:০৩

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: এটা হচ্ছে সাংবাদিকদের জন্য একটা শিক্ষা ব্যবস্থা।
আগামীতে তাদের জন্য কি অপেক্ষা করে আছে তার একটা নমুনা মাত্র।

২০ শে মে, ২০২১ সকাল ৮:১৫

ঢাবিয়ান বলেছেন: রোজিনাকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভ্যন্তরে হেনস্তার ভিডিও এখন ভাইরাল হয়েছে। কিন্ত তারপরেও রোজিনা কারাগারে আর সেই সচিবরা বহাল তবিয়তে। যাই হোক এইসব শিক্ষা ব্যবস্থায় সাগর, রুনী, রোজিনাদের মত মানুষদের থামানো আসলে যায় না। অন্যায়ের বিরুদ্ধে মাথা নত না করার এই ধারা অব্যহত থাকবেই---

৮| ১৯ শে মে, ২০২১ রাত ১১:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: আমাদের দেশটা ছোট। ছোট এই দেশে আমরা মিলেমিশে থাকতে পারছি না কেন?

২০ শে মে, ২০২১ সকাল ৮:১৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: আপনাকে অনুরোধ করছি যে , অবান্তর, অর্থহীন মন্তব্য করার জন্য আমার পোস্টে আপনার আসার দরকার নাই।

৯| ২০ শে মে, ২০২১ রাত ১২:৩০

নতুন বলেছেন: উনার রিপোট বলে যে উনি অনেক মানুষের পেইন ইন দ্যা এসস ছিলেন তাই তাকে ফাসানো হয়েছে। X((

এখন সাংবাদিকদের উচিত এই আমলাদের আরো এক্সপোজ করা কোন ছাড় না দেওয়া।

২০ শে মে, ২০২১ সকাল ৮:২২

ঢাবিয়ান বলেছেন: প্রথম আলোয় লেখা প্রতিবেদনগুলোই বলে দেয় মহিলা কাদের গায়ে আগুন ধড়িয়েছে। সাংবাদিকরা হয়ত এখন বিক্রি হবার আশায় বসে আছে! কিংবা হয়ত ইতিমোধ্যেই বিক্রি হয়ে গেছে। তা নাহলে রোজিনা এখনও কেন কারাগারে?

১০| ২০ শে মে, ২০২১ সকাল ৯:২৭

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: সাংবাদিকদের মধ্যেও অসাধু বা দুর্নীতিবাজদের সংখ্যা কম নয় - তাই অনেক তাদের সাংঘাতিক বলেও থাকেন ! কিন্তু তারপরও একটি দেশকে স্খলনের তলিয়ে যাওয়া থেকে যারা রক্ষা করতে পারেন, তাদের মধ্যে সাংবাদিকরা অন্যতম। রোজিনার রিপোর্টের অনেকগুলো দুর্নীতির উপর যা বাংলাদেশিদের জন্য খুব গুরুত্বপূর্ণ। ব্যক্তিগতভাবে আমি মনে করি বাংলাদেশের প্রধান সমস্যা হচ্ছে এর এক বিশাল অংশের মধ্যে নৈতিকতার চরম অভাব। এদের মধ্যে অর্থ ও ক্ষমতার প্রতি লোভ-লালসা এটি বেশি যে, এর জন্য তারা যে কোনো পন্থা গ্রহণে পিছপা হয় না - সেটা যতই অনৈতিক, নিষ্ঠুর বা অমানবিকই হোক না কেন।

রাজনৈতিক নেতা ও আমলাচক্র মিলে দেশের সম্পদ হরিলুটে যেভাবে লিপ্ত হয়েছে তাদের এই অব্যাহত ক্ষুধা রোধে এক রোজিনার রিপোর্টে হয়তো কোন আসবে যাবে না। তারপরও এই ধরণের রিপোর্টগুলো কখনো কখনো ভিমরুলের চাকে ঢিল ছোড়ার মতোই কাজে দিচ্ছে এবং দিবে। এটাই আমাদের মতো সাইডলাইনে বসে থাকা পাবলিকের কিছুটা পাওয়া।

২১ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৪

ঢাবিয়ান বলেছেন: খুব ভাল বলেছেন। বহু বছর ধরে বিদেশে বাস করছি। কিন্ত এত লোভী, এত নীতিহীন, এত বিবেকবর্জিত মানুষ আর কোন জাতির মানুষের মধ্যে দেখি নাই। সাংবাদিকদের মধ্যে যদি সততা থাকতো, নীতি থাকত সর্বপরি একতা থাকত তাহলে এভাবে নষ্টদের হাতে চলে যেতে পারতো না দেশ। কিন্ত টাকা ছড়িয়ে সেই ক্ষেত্রটাও নষ্ট করে ফেলা হয়েছে। সাহসি সাংবাদিকতা করতে গিয়ে রোজিনা আটক হয়েছে । কিন্ত বিনা দোষে কেন সে কারাগারে, কেন এখনো তার জামিন হয়নি ? সাংবাদিকদের তরফ থেকে জোরালো কোন পদক্ষেপই চোখে পড়ছে না।

১১| ২০ শে মে, ২০২১ সকাল ৯:৩৩

দেশ প্রেমিক বাঙালী বলেছেন: সাংবাদিকরা আওয়ামীলীগের কাছে তাদের বিবেক বিক্রি করেছেন তাই তাদের এমনই হবার কথা।

২১ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:১০

ঢাবিয়ান বলেছেন: আগে শুধু বলা হত রাজনিতিবিদ, পুলিশ আর আমলারা খারাপ। আসলে সাংবাদিকরা হচ্ছে সবচেয়ে খারাপ। টাকার বিনিময়ে যারা কলম বিক্রি করে, তাদের চেয়ে নিকৃষ্ট প্রানী আর দ্বীতিয়টা নাই।এই বিক্রি হওয়া কীটদের কারনে সাগর রুনীরা প্রান দেন কিন্ত বিচার পায় না, রোজিনারা অন্যায়ের বিরুদ্ধে এককভাবে লড়াই করতে গিয়ে মাফিয়াদের হাতে আটক হয় কিন্ত বিনা বিচারে কারাগারে থাকে।

১২| ২০ শে মে, ২০২১ সকাল ১১:৪৬

নীল আকাশ বলেছেন: ভুয়া মফিজ বলেছেন: আপনের কোন কথা বিশ্বাস করি না। আপনে দেশ-বিরোধী কর্মকান্ডের সাথে জড়িত একজনের পক্ষে সাফাই গাইতাছেন। এই বিষয়ে ব্যাখ্যা-বিশ্লেষণের জন্য ব্লগার কলাবাগান আর ব্লগার কালবৈশাখীর দৃষ্টি আকর্ষণ করতাছি। আমিও সেটা ভাবছিলাম।

গতকালকে আমি একজনকে এটা ব লেছিলাম। এখানেও এটা প্রযোজ্য
its a warning. Warning to all journalists. They have forgot the sagor runey case. So this is a little reminder to not to cross the limit.

২১ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:২৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: ইংরেজিতে যেটা বললেন সেটা সরকারী ভাষা। কিন্ত সাংবাদিকগোষ্ঠী এটাতেই ভয় পেয়ে একেবারে বাচ্চা শিশুর মত চুপ হয়ে গেল? সব কয়টা গনমাধ্যম যদি একত্রে গর্জে উঠে রোজিনার পক্ষে , কয়জনকে শিক্ষা দেবে সরকার? প্রচুর আইনবিদ বলেছেন রোজিনার গ্রেফতার আইন সম্মত নয় আর জামিন না দিয়ে আটকে রাখাতো পুরাই বেআইনি। অথচ গনমাধ্যমগুলো নিশ্চুপ। প্রথম আলোর আনিসুল হক দুই ফোটা চোখের জল ফেলে দ্বায়িত্ব শেষ করেছে। এরা আসলে ভয় নয়, টাকার কারনে নিশ্চুপ। কি দরকার কোন এক রোজিনার পক্ষে কলম ধরার। এর বিনিময়ে যদি টাকা কামিয়ে নেয়া যায় তবে মন্দ কি!

১৩| ২০ শে মে, ২০২১ দুপুর ১:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: আপনাকে অনুরোধ করছি যে , অবান্তর, অর্থহীন মন্তব্য করার জন্য আমার পোস্টে আপনার আসার দরকার নাই।

আপনি আমার মন্তব্যটা বুঝতে পারেন নি। আমি দেশের সমস্যা গুলোর আসল জায়গায় হাত দিয়েছি।

ভদ্রমহিলার মতোন অনুসন্ধানী সাংবাদিক এখন পরিস্থিতির কারনে কমে গেছে, এরপরে যে দুই একজন আছেন তাদের যদি সরকারী অফিসে আটকে রেখে নাজেহাল করা হয় তাহলে তা পরবর্তীতে দেশের জন্য বিপদ হবে।

২১ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:৩১

ঢাবিয়ান বলেছেন: ভদ্রমহিলার মতোন অনুসন্ধানী সাংবাদিক এখন পরিস্থিতির কারনে কমে গেছে, এরপরে যে দুই একজন আছেন তাদের যদি সরকারী অফিসে আটকে রেখে নাজেহাল করা হয় তাহলে তা পরবর্তীতে দেশের জন্য বিপদ হবে।

এই মন্তবটা যথার্থ হয়েছে।

১৪| ২০ শে মে, ২০২১ দুপুর ২:১৪

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: লেখক বলেছেন: রোজিনাকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অভ্যন্তরে হেনস্তার ভিডিও এখন ভাইরাল হয়েছে। কিন্ত তারপরেও রোজিনা কারাগারে আর সেই সচিবরা বহাল তবিয়তে। যাই হোক এইসব শিক্ষা ব্যবস্থায় সাগর, রুনী, রোজিনাদের মত মানুষদের থামানো আসলে যায় না। অন্যায়ের বিরুদ্ধে মাথা নত না করার এই ধারা অব্যহত থাকবেই---

সাগর-রুনী হত্যাকান্ডে কারা-কারা জড়িত তা আমি বা আমার মতো অতিসাধারণ লোকজন জানেনা সত্যি, কিন্তু তারচেয়ে বড় সত্যি সাংবাদিকরা সকলেই মূল হোতাদের খবর বের করতে পেরেছে। আর মহা সত্যি হচ্ছে সেই খবর জানার পরেই তার কোনো উচ্চবাচ্য করে নাই। এইসবের পিছনের কারণ হচ্ছে সাংবাদিকরা রাজনৈতিক দলগুলির সাথে নিজেদের জড়িয়ে দুই মেরুতে চলে গেছে। সাংবাদিকরা যদি রাজনীতির সাথে না জড়াতো তাহলে সত্য সব সময়ই প্রকাশ পেতো। তারা তাদের পেশাগত সাহস হারাতো না
এটা আমার একান্ত নিজস্ব মতামত।

২১ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:৩৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: পুরোপুরি একমত আপনার সাথে। পেশাগত সাহস সাংবাদিকরা টাকার কাছে বিক্রি করেছে। তাদের সহায় সম্পত্তির খোজ নিলে আলী বাবা চল্লিশ চোরের গুপ্তধনের সন্ধান পাওয়া যাবে।

১৫| ২০ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৯

রানার ব্লগ বলেছেন: সাংবাদিক রোজিনার নিশর্তে মুক্তি কামনা করছি।

২১ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:৩৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: আমাদের মত আমজনতার চাওয়ায় আর কি যায় আসে !

১৬| ২১ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:০৯

বিজন রয় বলেছেন: চারিদিকে অন্ধকার দেখি।

২১ শে মে, ২০২১ বিকাল ৩:৩৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: সাধারন মানুষের চারিদিক শুধু অন্ধকার কিন্ত নীতিহীন, বিবেকহীন মানুষের চারপাশ টাকার ঝলকানিতে বড় বেশি উজ্জ্বল।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.