নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ঢাবিয়ান

ঢাবিয়ান › বিস্তারিত পোস্টঃ

চায়নার সিনোফার্মের ভ্যাকসিন ডেল্টা ভ্যরিয়েন্ট করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে তেমন কার্যকরী নয় - গবেষনায় প্রমানিত

২৩ শে জুলাই, ২০২১ বিকাল ৫:২৭

চায়নার সিনোফার্মের ভ্যাকসিন ডেল্টা ভ্যরিয়েন্ট করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে তেমন কার্যকরী নয় বলে গত ১৯ শে জুন জুন বিভিন্ন আন্তর্জাতিক মিডিয়ায় খবর এসেছে।Sinopharm's Covid-19 shot induces weaker antibody responses to Delta variant: Study শিরোনামে একটি প্রতিবেদনে পড়লাম যে, গবেষনায় দেখা গেছে সিনোফার্মার ভ্যক্সিনেটেড একজন ব্যক্তির এন্টিবডি লেভেল এবং করোনাক্রান্ত একজন ব্যক্তির এন্টিবডি লেভেল এর মাঝে তেমন কোন পার্থক্য নাই। সিনোফার্মার ভ্যাকসিন ব্যপকহারে ব্যবহ্রত হয়েছে ব্রাজিল ও ইন্দোনেশিয়ায়। এই দুটি দেশেই করোনা সংক্রমন এবং মৃত্যূর হার অত্যন্ত বেশি। ইন্দোনেশিয়ায় জুলাই মাসে করোনা সংক্রমন মারাত্মক হারে বেড়ে গেছে। এক জুলাই মাসেই রেকর্ড সংখ্যক ডাক্তার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মৃত্যূবরন করেছে যারা সবাই সিনোফার্মার ভ্যক্সিনেটেড ছিল।

সিনোফার্মার বিষয়ে চায়নার বক্তব্য কোন অবস্থাতেই গ্রহনযোগ্য নয়। করোনা সংক্রমনের শুরু থেকে আজতক তারা বিশ্বকে সঠিক কোন তথ্য পরিবেশন করে নাই। করোনা মোকাবেলায় এখন পর্যন্ত ফাইজার, মডের্না ও অক্সফোর্ডের এস্ট্রজেনকাই সবচেয়ে কার্যকরী হিসেবে প্রমানিত হয়েছে।আমরা সবাই জেনেছি যে যুক্তরাষ্ট্রের দেয়া অনুদানের টিকা কোভ্যাক্সের মাধ্যমে বাংলাদেশে এসেছে যার পেছনে রয়েছে চারজন বাংলাদেশি আমেরিকানের অসামান্য অবদান। করোনা সংক্রমনের উর্ধগতির মধ্যে এই টিকা দেশে আসাটা একটা বিশাল আশীর্বাদ।

এই অনুদান এর টিকার বিরুদ্ধে সক্রিয় দেশেরই কিছু মানুষ। নিজস্ব কোন নোংরা স্বার্থের কারনে এরা ফাইজার/মডের্নার টিকার বিরুদ্ধে প্রচারনা চালাচ্ছে।যাই হোক বেক্সিমকোকে টিকা নিয়ে মনোপলি বিজনেস করার সুযোগ দিয়ে তার পরিনতি কি হয়েছে তা আশাকরি বোধগম্য হয়েছে সরকারের। তবে ফ্রি টিকা যুক্তরাস্ট্র নিশ্চই দীর্ঘদিন ধরে সরবরাহ করবে না। তাই যেটা এখন প্রয়োজন সেটা হচ্ছে আমাদের মাল্টি ন্যশনাল ফার্মাসিউটিকাল কোম্পানিগুলোর ফাইজার ও মডের্নার সাথে দেন দরবার করা যাতে এদেশে এই টিকা উৎপাদনের অনুমতি লাভ করা যায় যেমনটা অক্সফোর্ড অনুমতি দিয়েছে ইন্ডিয়ার সেরাম ইন্সটিউটকে।

আমাদের দেশে ফার্মাসিউটিকাল ম্যানু্ফ্যকচারিং কস্ট (manufacturing costs) অনেক কম অন্যান্য অনেক দেশের তুলনায়। তাই ফাইজার/ মডের্নার ব্যপকভাবে লাভবান হবার সম্ভাবনা রয়েছে এই প্রজেক্টে। আমেরিকায় অবস্থানরত বাংলাদেশী বিজ্ঞানী, ডাক্তার ও দেশীয় মাল্টি ন্যাশনাল ফার্মাসিউটিকাল কোম্পানিগুলোর যৌথ প্রচেষ্টায় যদি সঠিক পন্থায় প্রস্তাবনা করা যায় তাহলে সে ক্ষেত্রে সফলতা লাভ করার সম্ভাবনা রয়েছে। কোভিড একটি বৈশ্বিক মহামারী। স্বল্পোন্নত দেশগুলোতে কার্যকরী টিকা না পৌছুতে পারলে এই মহামারী দুনিয়া থেকে সহসা বিদায় নেবে না। এই বিষয়টা নিয়ে অনেক বেশি প্রচারনার প্রয়োজন বিশ্বব্যপী।

মন্তব্য ১৫ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১৫) মন্তব্য লিখুন

১| ২৩ শে জুলাই, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩৫

মরুভূমির জলদস্যু বলেছেন: চমৎকার লিখেছেন।
নিজেরা টিকা উৎপাদনের অনুমতি পেলে সেটাই হবে আমাদের জন্য সব দিক থেকে ভালো ব্যবস্থা।

২৩ শে জুলাই, ২০২১ সন্ধ্যা ৭:৩২

ঢাবিয়ান বলেছেন: ধন্যবাদ । ইন্ডিয়ার সেরাম যদি অনুমতি পেতে পারে তবে আমরা কেন নই ? দরকার এখন কার্যকরী ভ্যক্সিন বিশ্বব্যপী ছড়িয়ে দেয়ার জোড়ালো প্রচারনা ।

২| ২৩ শে জুলাই, ২০২১ রাত ৯:১৫

শাহ আজিজ বলেছেন: ইন্দোনেশিয়ার আলেম সমাজ চীনে টিকা উৎপাদনের ল্যাবে পর্যন্ত চেক করেছে এটা হালাল কিনা । চীন যে টিকা রফতানি করেছে তার সঙ্গে চীনে লোকাল টিকা ক্রস চেক করা উচিত । এদের উপর বিশ্বাস নেই ।

২৪ শে জুলাই, ২০২১ বিকাল ৩:২৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: চীনের টিকা আসলে উন্নত কোন দেশ নেয়নি কারন তারা ভ্যাকসিন ট্রায়ালের প্রপার স্টেপগুলো অনুসরন করেনি এবং পর্যাপ্ত ক্লিনিকাল ডাটাও প্রকাশ করেনি। চায়না নিজ দেশে সিনেফার্মার টিকা নিয়েছে কিনা যথেষ্ঠ সন্দেহ আছে। তারা করোনা কন্ট্রোল করেছে মুলত কঠোর স্বাস্থবিধি ও স্ট্রিক্ট কোয়ারেন্টাইন রুল ফলো করে। সিনোফার্মা ব্যপকহারে ব্য্যবহ্রত হয়েছে ইন্দোনেশিয়া ও ব্রাজিলে। কিন্ত দুইটি দেশেই করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ। এর পরিপ্রেক্ষিতে সিনোফার্মার উপড়ে গবেষনা করে University of Sri Jayewardenepura as well as Colombo Municipal Council in Sri Lanka, and University of Oxford in the United Kingdom.

নীচের খনরের লিঙ্কটা পড়ে দেখতে পারেন।

https://www.channelnewsasia.com/news/asia/sinopharm-covid-19-shot-delta-variant-weaker-antibody-response-15261742

৩| ২৩ শে জুলাই, ২০২১ রাত ৯:৪৫

নতুন বলেছেন: Me and my wife had taken synopham vaccine 6 months ago. We got infected and still in quarantine.

Good thing is my wife just had fever and cough. I had some fever and dry cough.

If people take vaccine covid virus might not become very dangerous for them. It gives some help and people dose not getting admitted to hospital for lung damage or any other complications.

২৪ শে জুলাই, ২০২১ বিকাল ৩:৩৫

ঢাবিয়ান বলেছেন: টিকা নিয়েছেন তাতে অবস্য ক্ষতি নাই। কারন কোণ ক্ষতিকর প্রভাবের কথা শোনা যায়নি। প্রশ্ন উঠেছে সিনোফার্মার কার্যকারিতা নিয়ে। আপনি এটা ঠিক বলেছেন যে , টিকা নিলেও যে করোনা হবে না তা নয় তবে শারিরীক কন্ডিশন খুব খারাপের দিকে গড়ানোর সম্ভাবনা কম। তবে সেটা ফাইজার, মডের্না ও এস্ট্রজেনকার ব্যপারে প্রমানিত হয়েছে, সিনোফার্মার ব্যপারে নয়। ইন্ডোনেশিয়ায় সিনোফার্মার ভ্যক্সিনেটেড প্রচুর মানুষের মৃত্যূ হচ্ছে করোনায়।

৪| ২৩ শে জুলাই, ২০২১ রাত ৯:৪৬

নতুন বলেছেন: Sorry for English, typing from phone.

৫| ২৪ শে জুলাই, ২০২১ রাত ১২:৩৮

ইফতেখার ভূইয়া বলেছেন: ব্যাপারটা আমি অবগত হয়েছে কিছু দিন আগেই। টিকা নেয়ার ব্যাপারে আমি বেশ দেরী করে সিদ্ধান্ত নেয়ার পেছনেও একটি কারণ হলো কোনটা বেশী কার্যকর সেটা বোঝার চেষ্টা করা। মূলত ডেলটা ভ্যারিয়েন্ট বের হওয়ার পরেই আমি ফাইজারের টিকা নিয়েছি। তার আগে অবশ্য আমি আমার ব্যক্তিগত ডক্টরের পরমার্শ নিয়েছি। তিনিও ফাইজার বা মডার্নার টিকা নেয়ার কথা বলেছিলেন। অবশ্য মডার্নাতে আমার বিশ্বাস খুবই কম। কোম্পানীটির ইতিহাস এবং এর সিইও-র কিছু কাজ আমার কাছে সন্দেহজন মনে হয়েছে। লিখার জন্য ধন্যবাদ।

২৪ শে জুলাই, ২০২১ রাত ৮:০৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: ফাইজার, মডের্না এবং এস্ট্রজেনকা এই তিনটাই এখন কার্যকরী ভ্যাকসিন হিসেবে প্রমানিত। বিশ্বব্যপী এই তিন টিকা ছড়িয়ে পরা প্রয়োজন এই মহামারী থেকে মুক্তি পেতে হলে। তবে বৈশ্বিক ভ্যাকসিন পলিটিক্স একটা বিড়াট সমস্যা।

৬| ২৪ শে জুলাই, ২০২১ ভোর ৬:৩৫

সোহানী বলেছেন: এটা কি শুনাইলা!!!!!!!!!!

২৪ শে জুলাই, ২০২১ রাত ৮:০৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: জ্বি আপু , এমন খবরই বেড়িয়েছে সম্প্রতি। সিনোফার্মার ভ্যাকসিন নেয়া বা না নেয়া একই কথা।

৭| ২৪ শে জুলাই, ২০২১ দুপুর ১২:২৩

জাহিদ হাসান বলেছেন: তাহলে আমরা চীন থেকে টিকা কিনছি কেন?

২৪ শে জুলাই, ২০২১ রাত ৮:১১

ঢাবিয়ান বলেছেন: সিনোফার্মার ভ্যাকসিন এর উপড় অক্সফোর্ড ইউনিভার্সিটির গবেষনার রিপোর্ট বেড়িয়েছে ১৯ শে জুলাই। সুতরাং এখন হয়ত বেশিরভাগ দেশই আর কিনবে না।

৮| ২৪ শে জুলাই, ২০২১ বিকাল ৪:১৬

নতুন বলেছেন: তবে সেটা ফাইজার, মডের্না ও এস্ট্রজেনকার ব্যপারে প্রমানিত হয়েছে, সিনোফার্মার ব্যপারে নয়। ইন্ডোনেশিয়ায় সিনোফার্মার ভ্যক্সিনেটেড প্রচুর মানুষের মৃত্যূ হচ্ছে করোনায়।

আরব আমিরাতে সিনোফার্মার ভ্যাকসিন বেশি দেওয়া হয়েছে এবং বর্তমানে দেশে হাসপাতালে iCU তে যাওয়া রোগীর সংখ্যা আগের থেকে কম।

এটা কোভিড হাসপাতালে কর্মরত বাংলাদেশী ডাক্তার বন্ধুর কাছে শোনা। আমাদের কম্পানীর সবাই ১০০% ভ্যাকসিন নেওয়া এবং বর্তমানে ৯০+ পজিটিভ আছে সবাই ভালো আছে। কেউই হাসপাতালে নাই এখন পযন্ত।

আমি আজ ১০ দিন পরে জেল মুক্তি পেয়ে আমার রুমে এসেছি। :D

আমাদের দেশে সবাইকে যততাড়াতাড়ী সম্ভব ভ্যাকসিন দিতে হবে।

২৪ শে জুলাই, ২০২১ রাত ৮:১৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: আরব আমিরাতে ফাইজার, মডের্না, এস্ট্রজেনকা , সিনোফার্মার সবগুলোই ব্যবহ্রত হয়েছে। এছাড়া এইসব দেশগুলোতে স্বাস্থ্যবিধিও মেনে চলা হচ্ছে কঠোরভাবে। তবে অক্সফোর্ডের এই গবেষনার রিপোর্টের পর মনে হয় না আর সিনোফার্মা তারা নেবে।

আমাদের মত ঘন বসতির দেশগুলোতে দরকার কার্যকরী টিকা।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.