নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

ঢাবিয়ান

ঢাবিয়ান › বিস্তারিত পোস্টঃ

পানিবন্দী সিলেটের অসহায় মানুষ

২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:০৫



বাবা দিবসে হাজারো রংচঙ্গা ছবির ভীরে ভাইরাল হয়েছে সিলেটের বন্যা কবলিত এলাকায় এক চরম নিরুপায় ও অসহায় বাবার ছবি। প্রলয়ঙ্করী এই বন্যা থেকে বাচাঁতে পারবে কি এই বাবা তার প্রিয় সন্তানদের? উত্তরটা কারোরই জানা নেই। পত্রিকা মারফত আমরা সবাই জানি যে সিলেট বিভাগের বন্যা দেশের আগের সব রেকর্ড ভেঙেছে। উজান থেকে আসা ঢলে এই বিভাগের ৮০ শতাংশ এলাকা এখন পানির নিচে। কিন্ত দুঃখজনক যে এই বন্যা মিডিয়া কভারেজ তেমন পাচ্ছে না। সোস্যাল মিডিয়া না থাকলে হয়ত আমরা জানতেও পেতাম না যে কি অমানবিক পরিস্থিতি তৈরী হয়েছে সিলেটে। ফেসবুকে শেয়ার করা কিছু হ্রদয় বিদারক ছবি ব্লগে শেয়ার করছি যে সব ছবি সংগ্রহ করার দ্বায়িত্ব ছিল পত্রিকার রিপোর্টারদের কিন্ত সেই দ্বায়িত্ব থেকে তারা মনে হয় অব্যহতি নিয়েছে!!



বন্যার পানি কবে নেমে যাবে কারো জানা নেই। এই মানুষগুলো এভাবে পানির মাঝে কতদিন বেচেঁ থাকতে পারবে? সিলেটের এক ব্লগার এর পোস্টে আমরা ২৫ জনের মৃত্যূর খবর জেনেছি।এই সংখ্যা আরো কত বাড়বে কে জানে! পানিবন্দী এই মানুষগুলোকে উদ্ধার করে অন্য কোন জেলায় সাময়িক রাখার ব্যবস্থা করা কি অসম্ভব কোন ব্যপার?

মন্তব্য ৪৮ টি রেটিং +৮/-০

মন্তব্য (৪৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:১৯

সোনাগাজী বলেছেন:



মিলিটারী নামানো হয়েছে, মিলিটারী নিশ্চয় ব্যবস্হা নিচ্ছে। মিলিটারী কিভাবে কি করছে, সেটার কোন ছবি পাওয়া যায়নি?

২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:২৫

ঢাবিয়ান বলেছেন: গনমাধ্যমে মিলিটারী নামানোর কোন খবরতো দেখলাম না ।আপনি খবর পেয়ে থাকলে শেয়ার করুন ।

২| ২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:৩১

শেরজা তপন বলেছেন: আহারে- ৮৮ এর বন্যায় এর খানিকটা টের পেয়েছিলাম।
প্রথম ছবিটার দিকে চেয়ে রইলাম অনেক্ষন!

২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:৩৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: ভাষাহীন হয়ে গিয়েছিলাম ছবিটা দেখে। কেমন আছে এই বাবা ও তার সন্তানেরা কে জানে!

৩| ২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৬:৪৪

ভুয়া মফিজ বলেছেন: এটা পুরানো প্র্যাকটিস। একই ঘটনা ঘটেছিল যখন করোনা ভাইরাসের প্রাদুর্ভাব হয়। তখন একটা অনুষ্ঠানকে হাইলাইট করার জন্য সেটাকে লো-লাইট করা হয়েছিল, এবারও তাই হচ্ছে।

আপনি আশ্চর্য হচ্ছেন কেন? আপনার আশ্চর্য হওয়া দেখে আমি নিজেই আশ্চর্য হচ্ছি!! B:-)

২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৩৪

ঢাবিয়ান বলেছেন: সেটাই যে কোন মূল্যে কোটি কোটি টাকা খরচ করে পদ্মা সেতু উদ্বোধন কোন অবস্থাতেই বন্ধ করা যাবে না। সুতরাং করোনার মত বন্যার কোন খবরও গনমাধ্যম আপাতত ছাপাবে না। বন্যার খবর আমাদের জানতে হয় বিদেশি পত্রিকা ও ফেসবুক থেকে !!

৪| ২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:১৪

অর্ক বলেছেন: ওহ্, এই ছবিগুলো মর্মভেদী! খুবই নিরাশাজনক। বিপদগ্রস্ত মানুষদের এয়ার লিফটের ব্যাবস্থা করা বড়ো প্রয়োজন ছিলো। এখন তো ক্রিটিকাল রোগীদের এয়ার এ্যাম্বুলেন্সের সুবিধা আছে দেশে। এখানে এই অসহায় দরিদ্র মানুষগুলোর জন্য এ সুবিধা আশা করা কি আজকের দিনে খুব বাড়াবাড়ি হচ্ছে! একা সরকারকে সব দোষ দেয়াও সমীচীন হবে না। বিভিন্ন বেসরকারি প্রতিষ্ঠানেরও এগিয়ে আসার সুযোগ ছিলো। সবক্ষেত্রেই ঔদাসিন্যে দেখলাম।

সেনাবাহিনী শুরুতেই নামানো উচিত ছিলো। সেনাবাহিনীর তরফ থেকেও সরকারকে বলা যেতো যে, আমরা পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে কাজ করতে চাই। এখন তো পরিস্থিতি ভালোর দিকে। বিদেশি প্রচারমাধ্যমে আরও মৃত্যুর আশঙ্কা করা হচ্ছে দেখলাম। দেশের বিশেষ দুয়েক জায়গায় বন্যা হয়েছে। সেটা সামলাতে রাষ্ট্রের এই ব্যর্থতা সত্যিই নিরাশাজনক, দুর্ভাগ্যজনক। কি বলবো ঠিক বুঝতে পারছি না! সরকারের ব্যর্থতা অবশ্যই। কর্পোরেট সেক্টর, ব্যবসায়ী মহল, বিভিন্ন দানব প্রতিষ্ঠানগুলো কেউই সেভাবে এগিয়ে আসেনি।

আপানাকে অনেক ধন্যবাদ ছবিগুলো শেয়ার করার জন্য। শুভেচ্ছা থাকলো। ভালো থাকবেন।

২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪১

ঢাবিয়ান বলেছেন: এয়ার এম্বুলেন্সের কোন প্রয়োজন নাই। বড় বড় ফেরী বা লঞ্চে করেই পানিবন্দী মানুষদের উদ্ধার করে সাময়িক কোন আশ্রয় শিবিরে রাখা যায়।

সিলেটি ব্লগার তাজুল ইসলাম জানিয়েছেন '' সেনাবাহিনী তাদের কাজ আলহামদুলিল্লাহ যথেষ্ট ভালো করছে। তাদের দিক থেকে সমস্যা একটাই তাদের প্রতি যথেষ্ট বরাদ্দ দেয়া হয়নি। সে কারণে মাঝেমধ্যে দেখা যায় ছোট ছোট দুই একটা নৌকো নিয়ে ওদেরকে আসতে। কিন্তু ওরা এই মুহূর্তে এই ব্যাপক বিপর্যস্ততার জন্য তা মোটেও যথেষ্ট নয়। সরকারের উচিত ছিল সেনাবাহিনী ও নৌবাহিনীর প্রতি বিশেষভাবে অবস্থা বিবেচনায় বরাদ্দ দেওয়া। কিন্তু দুর্ভাগ্য যে তারা সেটা পাচ্ছে না।''





৫| ২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:২৬

মোহাম্মদ গোফরান বলেছেন: চট্টগ্রাম শহর গত পরশু দিন এক কোমর পানির নীচে ছিল। ১৮-১৯ ঘণ্টা বিদ্যুৎ ছিলোনা।আমার এলাকায় মুবাইল নেট ও ওয়াইফাই ডিসকানেকটেড ছিল। দম বন্ধ অবস্থা মাত্র ১৮-১৯ ঘণ্টায়!! আমি বুঝেছি কি যন্ত্রনাদায়ক কষ্ট উনারা দিনের পর দিন ভোগ করছেন। পোস্টটি শেয়ারের জন্য আপনাকে ধন্যবাদ।

২১ শে জুন, ২০২২ সন্ধ্যা ৭:৪৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: ধন্যবাদ আপনার অভিজ্ঞতা শেয়ার করার জন্য্। এ ধরনের অভিজ্ঞতা আরো বেশি করে শেয়ার হওয়া প্র্রয়োজন । পানিবন্দী মানুষগুলোর এই মুহুর্তে প্রয়োজন এক টুকরো শুকনো মাটিতে আশ্রয়। কোমর পানিতে দাঁড়িয়ে চিড়া গুড় খেয়ে কতদিন বাচঁতে পারে মানুষ?

৬| ২১ শে জুন, ২০২২ রাত ৮:০২

সাড়ে চুয়াত্তর বলেছেন: ছবিগুলি সত্যিই বেদনাদায়ক। প্রথম ছবিটা, হাড়ির মধ্যে বাচ্চা দুটির ছবি আর চতুর্থ ছবিটা আরও বেশী।

২১ শে জুন, ২০২২ রাত ৮:২৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম না থাকলে আমাদের জানাই হত না কি ভয়ানক অমানবিক পরিস্থিতির মধ্যে আছে সিলেটের পানিবন্দী মানুষেরা। মিডিয়া কভারেজ পেলে সরকার বাধ্য হত এই মানুষগুলোকে উদ্ধার করতে।

৭| ২১ শে জুন, ২০২২ রাত ৮:৩৭

নতুন বলেছেন: ২৫ তারিখ পাল্টানো যাবেনা এমন ভাবনা কিভাবে মাথায় রাখে মানুষ?

আমাদের সেনাবাহিনি/নৌবাহিনির এই রকমের বন্যার মানুষকে উদ্ধার করে তাদের দেখাশুনার ক্ষমতা আছে।

আছে সুধুই সদ উদ্দেশ্য :(

২১ শে জুন, ২০২২ রাত ৯:১৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: আমাদের সেনাবাহিনি/নৌবাহিনির এই রকমের বন্যার মানুষকে উদ্ধার করে তাদের দেখাশুনার ক্ষমতা আছে।

দরকার শুধু সরকারের সদিচ্ছা।

৮| ২১ শে জুন, ২০২২ রাত ৮:৪০

অর্ক বলেছেন: এয়ার এ্যাম্বুলেন্সের কথা বলিনি। বলেছি এয়ার লিফটের কথা। এয়ার এ্যাম্বুলেন্সের সুবিধার ব্যাপারটা কথা প্রসঙ্গে এসেছে। বোঝাতে যে, দেশ এর মাঝে এগিয়েছে অনেক। ভারতের কাশ্মিরে একবার বন্যার সময় দেখেছিলাম, বন্যার্তদের হেলিকপ্টারে তোলা হচ্ছে। ভারতীয় সেনাবাহিনীর দুজন সদস্য দড়ির মই বেয়ে নেমে অল্প উচ্চতা থেকে লোকজনদের হেলিকপ্টারে নিতে সহযোগিতা করছে। বন্যার সময় আক্রান্ত মানুষদের উদ্ধারে খুবই কার্যকর ব্যবস্থা এটা। ফেরি লঞ্চের থেকে ঢের নিরাপদ, ঝামেলামুক্ত, দ্রুতগতির সুবিধা এই হেলিকপ্টারের মাধ্যমে লোকজনদের নিরাপদ স্থানে নিয়ে যাওয়া। আপনি এক বাক্যে তাচ্ছিল্যের সাথে উড়িয়ে দিলেন দেখে বিস্মিত হলাম। এটা এমারজেন্সি অবস্থা! এরকম বন্যা পরিস্থিতিতে এয়ার লিফটের সাথে ফেরি লঞ্চের তুলনা করা আসলে হাস্যকর। ছবিগুলো দেখলেই বোঝা যায়। ফেরি লঞ্চ এক জয়াগায় পড়ে থাকবে। সবখানে পৌছুতে পারবে না। আরও সীমাবদ্ধতা আছে। পক্ষান্তরে হেলিকপ্টার জায়গায় জায়গায় যেয়ে লোকজনকে নিতে পারবে।

ধন্যবাদ।

২১ শে জুন, ২০২২ রাত ৯:২২

ঢাবিয়ান বলেছেন: ধন্যবাদ আপনার সুন্দর মন্তব্যের জন্য। আসলেই ইমার্জেন্সী অবস্থায় যেটা প্রয়োজন সেটাই করা উচিত। মানুষের জীবন রক্ষা হওয়াটাই মূখ্য ব্যপার।

৯| ২১ শে জুন, ২০২২ রাত ১০:২৭

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
মানুষের নেই মানবতা
বুঝে না কেউ কারো ব্যাথা
আধারে ঢেকে আছে শুধু।

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:২৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: ধন্যবাদ

১০| ২১ শে জুন, ২০২২ রাত ১১:২৪

সোনাগাজী বলেছেন:



দেশ কিন্তু চালায় 'ঢাবিয়ান'রা: ব্যুরোক্রসী, বড় বড় আমলা, মধুর ক্যান্টিনের রাজনীতিবিদরা, এরা সবাই ঢাবি'র প্রোডাক্ট।

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:২৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: প্রসাশনে থাকা ঢাবিয়ানদের কিছু জিজ্ঞাসা করলে বলে তাদের হাত পা বাধা। নিজে থেকে কোন উদ্যোগ নিতে গেলে নাকি বিপদে পড়ার সমুহ সম্ভাবনা।

১১| ২২ শে জুন, ২০২২ রাত ১২:১২

রাজীব নুর বলেছেন: মানুষ গুলো খাবার পাচ্ছে?
থাকার জায়গা পেয়েছে?

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৩০

ঢাবিয়ান বলেছেন: এই মানুষগুলোর দরকার শুকনো মাটিতে আশ্রয়। পানি নেমে গেলে তখন আবার ফিরে যেতে পারবে তাদের নিজের ঠিকানায়।

১২| ২২ শে জুন, ২০২২ রাত ১২:২২

ঢুকিচেপা বলেছেন: খুব কষ্টের ছবি।
এমন পরিস্থিতি যেন কারো জীবনে না আসে।

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৩১

ঢাবিয়ান বলেছেন: বাংলাদেশে গরীব হয়ে জন্মানোটা একটা অভিশাপ

১৩| ২২ শে জুন, ২০২২ রাত ১২:৩৭

করুণাধারা বলেছেন: প্রতিটি ছবিই বেদনাদায়ক। এমন ছবি মিডিয়াতে যদি আসতো তাহলে হয়তো এই মানুষগুলোর কাছে সাহায্য পৌঁছাতে পারত... সেনাবাহিনী নামানো হয়েছে, কিন্তু ত্রাণ সামগ্রী খুবই অপ্রতুল! নৌকার অভাবে উদ্ধার কাজ ব্যহত হচ্ছে। আপনার কি মনে হয় ছবির এই মানুষগুলো সবাই সুস্থ আছেন বা বেঁচে আছেন?

সিলেটে বন্যার খবর কোন মিডিয়ায় আসেনি, বিভিন্ন সামাজিক মাধ্যমে মানুষ গত কয়েকদিন যাবত কেবল আবেদন জানাচ্ছিলেন সিলেটে বন্যার কারণে পরীক্ষার্থীরা বিপদে আছে বিধায় ১৯ জুন থেকে শুরু হতে যাওয়া এসএসসি পরীক্ষা যেন পেছানো হয়। অবশেষে ১৭ জুন জানানো হলো বন্যার কারণে এসএসসি স্থগিত। সেই প্রথম মিডিয়া জানালো যে, সিলেটে বন্যা হচ্ছে, অথচ বন্যার ভয়াবহতা প্রকাশ করলো না। এখনো খুব অল্প খবর আসছে, মনে হচ্ছে এই সময়ে বন্যার মতো লজ্জাজনক ঘটনা ঘটায় সকলে খুবই বিব্রতকর অবস্থায় পড়ে গেছে...

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৩৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: ধন্যবাদ আপা ব্লগে আবারো সক্রিয় হওয়ার জন্য। মিডিয়ার ভুমিকা অত্যন্ত লজ্জাজনক। প্রিন্ট ও টেলি মিডিয়ায় যদি বন্যার ছবি ও ভি্ডিও প্রচারিত হত, সরকার চাপে পড়ে বাধ্য হত এই মানুষগুলোড় জীবন বাচাঁতে। এরা সবাই জেনে বুঝে বন্যাকে হাইলাইট করছে না।একটা পত্রিকায় দেখলাম সিলেটে মৃতের সংখ্যা ৩৬ ছাড়িয়েছে। খবরটা এত ছোট আকারে নীচের দিকে ছাপানো হয়েছে যেন এটা কোন খবরই না।

১৪| ২২ শে জুন, ২০২২ রাত ২:১২

সোনাগাজী বলেছেন:




Bangladesh military scrambles to reach millions marooned ...https://www.reuters.com › world › asia-pacific › millions-...
1 day ago — Soldiers on small boats delivered relief material on Monday across flooded towns and villages in Bangladesh, after more than nine million।


Bangladesh floods: Six million people marooned; Army called inhttps://economictimes.indiatimes.com › ... › World News
4 days ago — Incessant rains and gushing waters have marooned at least six million people in Bangladesh, prompting authorities to call in the Army

১৫| ২২ শে জুন, ২০২২ রাত ২:২৬

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: সোনাগাজী বলেছেন:



মিলিটারী নামানো হয়েছে, মিলিটারী নিশ্চয় ব্যবস্হা নিচ্ছে। মিলিটারী কিভাবে কি করছে, সেটার কোন ছবি পাওয়া যায়নি।


হ্যা, নামানো হয়েছে ঠিকই। তবে তা মোটেও যথেষ্ট নয়। এমনকি যে স্বল্প সেনাবাহিনী রয়েছে তাদেরকেও যথেষ্ট বরাদ্দ দেওয়া হয়নি। ছোট ছোট নৌকা দিয়ে মাঝেমধ্যে দেখা যায়!

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৩৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: ছোট ছোট নৌকায় করে কিছু চিড়া গুড় সাপ্লাই দিয়ে কতদিন বাচিঁঁয়ে রাখতে পারবে পানির নীচে থাকা এই মানুষগুলোকে? পানি বাহিত রোগ সহ , শরীরে পচন ধরে মরবে মানুষগুলো।

১৬| ২২ শে জুন, ২০২২ ভোর ৪:৫৭

সোনাগাজী বলেছেন:


মিলিটারীর উচিত ছিলো, রাবারের শেলো বোট দিয়ে মানুষকে উঁচু দালানে নিয়ে যাওয়া।

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৪২

ঢাবিয়ান বলেছেন: এক সময় না এক সময় বন্যার পানি নামবেই। জীবন বাচাঁতে সাময়িক এই মানুষগুলোকে কোন শূকনো আশ্রয় শিবিরে নেয়াটা অতি জরূরী।

১৭| ২২ শে জুন, ২০২২ ভোর ৬:১৫

অগ্নিবেশ বলেছেন: সরি টু সে, নামাজ রোজা প্রার্থনা কিচ্ছু কাজে লাগে না। বন্যার পানি হিন্দু মুসলমান দেখে না। মানুষের সমস্যা মানুষরাই বুঝতে পারে, এবং মানুষরাই তার সমাধান করতে পারে। কোনো কল্পিত ঈশ্বর কখনই কিছু করে না। মানবিক মানুষরাই এগিয়ে আসছে,
তারাই বিপদ থেকে উদ্ধার করবে।

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৪৩

ঢাবিয়ান বলেছেন: এটা কি ধর্মীয় কোন পোস্ট ?

১৮| ২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৪১

শূন্য সারমর্ম বলেছেন:

সিলেটবাসী কি ভাবছে? নেক্সট বন্যা কখন?

২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৪৬

ঢাবিয়ান বলেছেন: সিলেটবাসীর ভবিষ্যত নিয়ে ভাবার মত অবস্থা নাই ।

১৯| ২২ শে জুন, ২০২২ সকাল ১০:৫৫

জুল ভার্ন বলেছেন: কষ্ট!

২২ শে জুন, ২০২২ বিকাল ৪:৫৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: আশরাফ আলী (৭০) ও সাজু মিয়া (৬৫) মারা যান গত শুক্রবার। চারদিকে তখন বন্যার থই থই পানি। সুনামগঞ্জ ভাসছে বানের জলে। দাঁড়ানোর মাটি নেই কোথাও। কবরস্থানে তখন কোমরপানি। পরিবারের লোকজন দাফনের জায়গা না পেয়ে দুটি লাশই বাক্সবন্দী করে বাঁশ পুঁতে আটকে রাখেন কবরস্থানের পানিতে। লাশ যাতে ভেসে না যায়, সে জন্য পাহারা দেন তাঁরা। সুত্রঃ প্রথম আলো

আজকের যুগে এমন কষ্টের কথা ভাবা যায়?

২০| ২২ শে জুন, ২০২২ দুপুর ১:৩৭

জুন বলেছেন: বন্যার্তদের আর্তনাদ পদ্মা সেতুর নীচে চাপা পরে গেছে। ফাকে ফোকরে যে দৃশ্য দেখা যায় তা ভয়াবহ।
@ চাদগাজী, ঢাবিয়ানদের কি ক্ষমতা আছে! কারও হাতেই কোন ক্ষমতা নেই এটা আপনি ভালো করেই জানেন। শুধু শুধু যে কতগুলো কথা বলেন।

২২ শে জুন, ২০২২ বিকাল ৫:০৫

ঢাবিয়ান বলেছেন: পত্রিকা জুড়ে শুধু পদ্মা সেতুর খবর।

প্রথম আলোর মত পত্রিকায় ''পদ্মা সেতুর উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে আমন্ত্রণ পেলেন বিএনপির ৭ নেতা ''। ''পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন বিয়ের ইচ্ছা অবশেষে পূরণ হচ্ছে'' এই ধরনের খবর কি পত্রিকার উপড়ের দিকে স্থান পাবার মত খবর?

২১| ২২ শে জুন, ২০২২ দুপুর ২:০৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: Indian army soldiers evacuate people from a flooded area in Assam’s Hojai district [Anuwar Hazarika/Reuters]

বিদেশী নিউজপেপারগুলোতে বাংলাদেশ ও ইন্ডিয়ার বন্যার খবর ছাপানো হচ্ছে। ইন্ডিয়ার সেনাবাহিনীর পানিবন্দী মানুষদের সরিয়ে নেয়ার একটা ছবি দেখলাম। আমাদের দেশেও বলা হচ্ছে সেনাবাহিনী নামানো হয়েছে। কিন্ত তাদের কার্যক্রমের কোন ছবি বা খবর কোথাও দেখা যাচ্ছে না। আমাদের পত্র পত্রিকায় ছোট আকারে বন্যা সম্পর্কিত যে সব খবর ছাপানো হচ্ছে তাতে ত্রান অপ্রতুলতা ও পানিবন্দী মানুষের সীমাহীন দুঃখ দুর্দশার খবর জানা যাচ্ছে।

২২| ২২ শে জুন, ২০২২ দুপুর ২:১৪

ভার্চুয়াল তাসনিম বলেছেন: একদম টপের ছবিখানা অশ্রুসিক্ত হয়ে যাওয়ার ছবি!
আমরা বাংগালী।
আমাদের চেয়ে ধৈর্য্য পরীক্ষা পৃথিবীর কোন জাতি দিয়েছে বলে আমার জানা নেই। (পেলেস্টাইন ছাড়া) |

২২ শে জুন, ২০২২ বিকাল ৫:০৭

ঢাবিয়ান বলেছেন: ঠিক বলেছেন। আমাদের দেশে দরিদ্র মানুষের জীবনের কোন মূল্যই নাই।

২৩| ২২ শে জুন, ২০২২ দুপুর ২:৩৬

অক্পটে বলেছেন: মিডিয়া বাধ্য হয়ে পদ্মা কভারেজ করছে। পদ্মা কভারেজের জন্য ভারতীয় নটীদের এনে নাচগান করাতে কয়েক কোটি টাকা খরচ করছে সরকার।

২২ শে জুন, ২০২২ বিকাল ৫:০৮

ঢাবিয়ান বলেছেন: মিডিয়া কি বাধ্য হয়েছে না বিক্রি হয়েছে বলা মুশকিল।

২৪| ২২ শে জুন, ২০২২ বিকাল ৩:২১

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: আল্লাহ বানভাসিদের সহায় হোন

২২ শে জুন, ২০২২ বিকাল ৫:০৯

ঢাবিয়ান বলেছেন: ধন্যবাদ আপু

২৫| ২৪ শে জুন, ২০২২ সকাল ৯:৩৩

নিমো বলেছেন: জুন বলেছেন: ঢাবিয়ানদের কি ক্ষমতা আছে! কারও হাতেই কোন ক্ষমতা নেই এটা আপনি ভালো করেই জানেন। শুধু শুধু যে কতগুলো কথা বলেন
এটা আপনি কী বললেন ? স্বয়ং শেখ হাসিনা থেকে মোজো কাকু ও পুরো লটবহর হল ঢাবিয়ান। হা হা হা!

২৬| ২৪ শে জুন, ২০২২ বিকাল ৫:১৫

মিরোরডডল বলেছেন:




ছবিগুলো এতো বেশী কষ্টদায়ক !
আর দেখা যায়না ঢাবি, ভয়াবহ মন খারাপ হয় ।



আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.