নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পাদক, শিল্প ও সাহিত্য বিষয়ক ত্রৈমাসিক \'মেঘফুল\'। প্রতিষ্ঠাতা স্বেচ্ছাসেবী মানবিক সংগঠন \'এক রঙ্গা এক ঘুড়ি\'।

নীলসাধু

আমি খুব সহজ এবং তার চেয়েও বেশী সাধারন একজন মানুষ । আইটি প্রফেশনাল হিসেবে কাজ করছি। টুকটাক ছাইপাশ কিছু লেখালেখির অভ্যাস আছে। মানুষকে ভালবাসি। বই সঙ্গে থাকলে আমার আর কিছু না হলেও হয়। ভালো লাগে ঘুরে বেড়াতে। ভালবাসি প্রকৃতি; অবারিত সবুজ প্রান্তর। বর্ষায় থৈ থৈ পানিতে দুকুল উপচেপরা নদী আমাকে টানে খুব। ব্যাক্তিগতভাবে বাউল, সাধক, সাধুদের প্রতি আমার দুর্বলতা আছে। তাই নামের শেষে সাধু। এই নামেই আমি লেখালেখি করি। আমার ব্লগে আসার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। শুভকামনা রইলো। ভালো থাকুন সবসময়। শুভ ব্লগিং। ই-মেইলঃ [email protected]

নীলসাধু › বিস্তারিত পোস্টঃ

বাংলাদেশ পাকিস্তান ম্যাচ :: এশিয়া কাপ ২০১৪

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১২:০৬





বেশ কদিন পর বাংলাদেশের টপ অর্ডার ব্যাটসম্যানেরা সবাই রান পেলো। ফলশ্রুতিতে বাংলাদেশ করলো তাদের সর্বোচ্চ দলীয় ইনিংস। ৩২৬/৩! বাংলাদেশের ওপেনিং ভালো হলে সাধারণত সেই ম্যাচ বাংলাদেশ জেতে। এবার তা হয়নি, ৩২৬ করেও আমরা হেরে গেছি। সর্বোচ্চ ইনিংসের জন্য বাংলাদেশ দলকে অভিনন্দন।



একটা ব্যাপারে খটকা আছে। এনামুল ৯০ থেকে ১০০ করতে ১৯ বল খেললেন; তারপর কি এমন হল সে ১০০ রান পূর্ণ করেই এমন একটি শট খেলে আউট হতে হল- এটা সেই ভালো বুঝবে আমি না। তবে এটা দৃষ্টিকটু লেগেছে। দলের চেয়ে নিজের ১০০ বেশী গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে। সে সময় একজন সেট ব্যাটসম্যানের ক্রিজে থাকা জরুরী ছিল। যাইহোক আজ অবশ্য এসব মাফ দেয়া যায়!



মজার বিষয় হল আবদুর রেহমানের বোলিং ফিগার। ০-০-৮-০! স্কোর-বোর্ড বলছে কোন বল না করেই সে ৮ রান দিয়েছে আজকের ম্যাচে!! ক্রিকেটের সবগুলো সংস্করণ মিলিয়ে কোনও বল না করে রান দেওয়ার ঘটনা এর আগে ঘটেছে আরও ৬ বার। আব্দুর রেহমানের আগে কোনও বল না করে সর্বোচ্চ ৫ রান দিয়েছিলেন কেনিয়ার কলিন্স ওবুইয়া। পাকিস্তানের মনসুর আখতার ও ওয়েস্ট ইন্ডিজের জিমি অ্যাডামস এই দুজন দিয়েছিলেন ১ রান করে। টেস্টে কোনও বল না করেই ৪ রান দিয়েছেন ইংল্যান্ডের ডেভিড গাওয়ার। শ্রীলঙ্কার ধাম্মিকা প্রসাদ দিয়েছেন ২ রান এবং ইংল্যান্ডের অ্যালান ল্যাম্ব দিয়েছেন ১ রান। সর্বোচ্চ ৮ রান দিয়ে আজ এদের সবাইকেই ছাড়িয়ে গেলেন আব্দুর রেহমান!



আজকের ম্যাচে জিয়াউর রহমান কেন বল করেননি এটা আমি বুঝি নাই। সে কি বল করতে ভুলে গেছে নাকি মুশফিকই ভুলে গেছেন জিয়াউর বোলিং করে- এই ব্যাপারটা বুঝতাসি না সে দু এক ওভার বল করতে পারতো। সে সুযোগ সম্ভাবনা ছিল।



ডেথ ওভারে আমাদের পেসাররা বোলিং এ দুর্বল। এটা আজ না বেশ দীর্ঘ সময় ধরেই। এই বিষয়ে বোলিং কোচ কি কিছু করেন? ভাব সাব দেখে মনে হয়না। আমাদের পেসাররা কি জানে ইয়র্কর বলে কিছু একটা আছে। সেই চেষ্টা নিতে দেখলাম না কোন পেসারকে, আফসোস।



বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং এর বিপরীতে পাকিস্তান দলও ভালো ব্যাটিং করেছে। তাদের দলের আহমেদ শেহজাদ, ফাহাদ আলম, এবং সর্বনাশের চূড়ান্ত যে করেছে সে আফ্রিদি অতি মানবীয় ব্যাটিং করেছে আজকে। নাহলে এই ম্যাচ বাংলাদেশের হাত থেকে ফসকে যাবার কথা ছিলনা। ১৮ বলে পঞ্চাশ! উফ!



৪১.২ থেকে ৪৬.৫ পর্যন্ত বাংলাদেশ দলের বোলারদের রান দেয়ার পরিমাণ। মাহমুদউল্লাহ ১৬, সাকিব ২০, শফিউল ১৬ এবং রাজ্জাক ১৮। এতে করেই আস্কিং রান রেট সহ সকল হিসাব এলোমেলো হয়ে যায় বাংলাদেশের।



২১, ২২ এবং ২৩ তম ওভারে পর পর ৩ উইকেট পাবার পরেও বাংলাদেশ দল পাকিস্তানের উপর মুখ্যত কোন চাপ সৃষ্টি করতে ব্যার্থ হয়। আমাদের বোলিং ডিপার্টম্যান্ট এখানে কিছুটা হলেও ব্যার্থ।



উপভোগ্য ছিল আজকের ম্যাচটি। অভিন্দন বাংলাদেশ দলকে। ম্যাচে জয় পরাজয় এবং টাই থাকেই হেরে গেলেও আজ তারা সত্যিকার বাঘের মতন খেলেছে।



মন্তব্য ২১ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (২১) মন্তব্য লিখুন

১| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১২:২৮

ক্লান্ত তীর্থ বলেছেন: গালাগালির মাঝে অনেক গঠনমূলক একটা লেখা পেলাম!

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:১৫

নীলসাধু বলেছেন: ধন্যবাদ ক্লান্ত তীর্থ।
সুন্দর থাকুন।

২| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১২:৪৪

বেকার সব ০০৭ বলেছেন: সামনে T20 বিশ্বকাপ। বাংলাদেশ দলের সাথে আছি এবং সাথে থাকবো

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:১৬

নীলসাধু বলেছেন: ইনশাল্লাহ!
আমি আশাবাদী বাংলাদেশ সেই টুর্নামেন্ট ভালো খেলবে।


ধন্যবাদ।

৩| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১২:৪৪

আশরাফুল ইসলাম দূর্জয় বলেছেন:
একদিন এমন সব ম্যাচে আমরাই জিতবো, ইনশাল্লাহ।
আজকের ব্যাটিং তে মুগ্ধ।

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:১৮

নীলসাধু বলেছেন: ইনশাল্লাহ।

শুভকামনা কবি।

৪| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১২:৪৯

ভ্রমন কারী বলেছেন: উপভোগ্য ছিল আজকের ম্যাচটি। অভিন্দন বাংলাদেশ দলকে। ম্যাচে জয় পরাজয় এবং টাই থাকেই হেরে গেলেও আজ তারা সত্যিকার বাঘের মতন খেলেছে।

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:২২

নীলসাধু বলেছেন: ধন্যবাদ ভাই। সুন্দর থাকুন।

৫| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১:২১

বিদ্রোহী বাঙালি বলেছেন: এই পরাজয়ের জন্য কাকে দোষবো ভাবছি। বাংলাদেশের খারাপ বোলিংকে না আফ্রিদির দানবীয় ইনিংসটাকে? বাংলাদেশের ব্যাটিংয়ে আজ কোন খুঁত ছিল না। কিন্তু বোলিংয়ে পেসাররা শুরু থেকেই খারাপ করেছে। স্পিনাররা শুরুতে ভালো করেও শেষের দিকে এসে তাল হারিয়ে ফেলেছে। বিশেষ করে আফ্রিদির হাতে ধোলাই খেয়ে। সাকিবের একটা ওভার ম্যাচটাকে পুরোপুরি আমাদের হাতে থেকে বের করে নিয়ে গেছে। তারপরও বলবো অভিনন্দন বাংলাদেশ। ক্রিকেট খেলায় এটা হতেই পারে। এখানেই যে ক্রিকেট খেলার আসল মজা। তাইতো এই খেলাকে গৌরবময় অনিশ্চয়তার খেলা বলা হয়।

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:৩১

নীলসাধু বলেছেন: ধন্যবাদ বিস্তারিত মন্তব্যের জন্য। সুন্দর বলেছেন। আমি সহমত জানাই।


শুভকামনা রইল।
সুন্দর থাকুন।

৬| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ সকাল ৯:১৬

সাইবার অভিযত্রী বলেছেন: এনামুল ৯০ থেকে ১০০ করতে ১৯ বল খেললেন; তারপর কি এমন হল সে ১০০ রান পূর্ণ করেই এমন একটি শট খেলে আউট হতে হল- এটা সেই ভালো বুঝবে আমি না। তবে এটা দৃষ্টিকটু লেগেছে। দলের চেয়ে নিজের ১০০ বেশী গুরুত্বপূর্ণ মনে হয়েছে।

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:২৯

নীলসাধু বলেছেন: ধন্যবাদ ভ্রাতা। শুভেচ্ছা নিন।

৭| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:২৬

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: বাংলাদেশ টিম ভাল ব্যাটিং করেছে। বলাররা কার্যকর ভূমিকা রাখতে ব্যর্থ হয়েছে। আফ্রিদী ঝড় জয়পরাজয় নির্ধারণ করে দিয়েছে।ভাগ্য নামের পরশ পাথর ছুঁয়া পায়নি আমাদের দল। তারপর ও বলবো ভাল খেলেছে বাংলাদেশের খেলোয়াড়রা।

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:৩০

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছা আনোয়ার ভাই।
আপনি সব বলে দিলেন এক ঝটকায়

ভালো থাকবেন সতত শুভকামনা।

৮| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ দুপুর ২:৫৪

নীলজোঁনাক বলেছেন: আমার মতে আব্দুর রহমানকে আউট করা ঠিক হয় নাই =p~ =p~
বাংলাদেশের ফিল্ডিং এবং বোলিং এ অনেক ঘাটতি রয়ে গেছে।
টি২০ তে আশা করি নিরাশ করবে না। শুভকামনা থাকলো।

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ৯:৩০

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছা
এক্কেবারে সঠিক বলেছেন। আফ্রিদি, আকমলের চেয়ে বেটার ছিল আব্দুর রেহমান। এই কথা শুধু অস্ট্রেলিয়া বা ইংল্যান্ড এর অধিনায়কের মাথায় আসতো। আমরা বাঙ্গালী - তাই দেরী হয়েছে - যাইহোক খেলা খেলাই। ভুল ভ্রান্তি জয় পরাজয় সকল কিছু এর অংগ।

ভালো থাকবেন।

৯| ০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১০:০৬

স্বপ্নবাজ অভি বলেছেন: এই ম্যাচ গুলো আমাদের ক্রিকেট ইতিহাসে লরাকু মনোভাবের ভাস্বর হয়ে থাকবে !
অনেক বছর পর মুশফিকরা যখন কোচ হবে , ধারাভাষ্য দিবে এই ম্যাচগুলোর গল্প বলবে !
গ্যালারী ভর্তি দর্শক আর ষোল কোটি মানুষের আবেগ আর ভালোবাসার গল্প বলবে !
ক্রিকেট টা শুধু ১১ জন খেলেনা , ওদের সাথে ১৬ কোটি বাংলাদেশী খেলে !

০৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১০:২৭

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছা স্বপ্নবাজ অভি।
ক্রিকেট টা শুধু ১১ জন খেলেনা , ওদের সাথে ১৬ কোটি বাংলাদেশী খেলে ! আমাদের জন্য শতভাগ সত্য।

আমরা এমন আবেগপ্রবন জাতি আমাদের নাড়ির সঙ্গে মিশে গেছে খেলাটি।

ধন্যবাদ আন্তরিক মন্তব্যর জন্য!

১০| ০৬ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১:৩৭

তৌফিক মাসুদ বলেছেন: আমার কেন যেন মনে হচ্ছে দলে কিছু বিভ্রাট আছে। মুশফিক নিজের মত দল চাইছিলেন। জিয়া তাঁর পছন্দের নয়। তাঁকে দিয়ে একটি ওভার করানো যেতে পারত। সে নিজেকে প্রমাণের চেষ্টাই করছিল।

ধন্যবাদ নীলদা।

১১| ০৬ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ২:০৬

নিশাত তাসনিম বলেছেন: অস্ট্রেলিয়া সাউথ আফ্রিকাকে ৪৩৪ রানের টার্গেট দিয়েছিলো মনে কি পড়ে? আর সাউথ আফ্রিকা ৪৯.৫ ওভারে ৪৩৮ নিয়ে ম্যাচটা জিতেছিলো।
অস্ট্রেলিয়ার মতো একটা দলের ৪৩৪ রানের টার্গেট সাউথ আফ্রিকার পরিবর্তন করা যদি স্বাভাবিক হতে পারে তাহলে পাকিস্তান বাংলাদেশের ৩২৬ চ্যাঞ্জ করা কি ক্রিকেটে অস্বাভাবিক কিছু? ক্রিকেটে জয় পরাজয় থাকবেই।

টাইগাররা দুর্দান্ত খেলে আপ্রাণ চেষ্টা করেছে। ম্যাচটা বাংলাদেশের ভাগ্যে ছিলোনা এটাই বড় কথা।

১২| ০৬ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১০:৫৩

রাসেলহাসান বলেছেন: এবার "টি ২০" বিশ্বকাপ "ইনশাআল্লাহ" আমরাই নেবো।। :)

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.