নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পাদক, শিল্প ও সাহিত্য বিষয়ক ত্রৈমাসিক \'মেঘফুল\'। প্রতিষ্ঠাতা স্বেচ্ছাসেবী মানবিক সংগঠন \'এক রঙ্গা এক ঘুড়ি\'।

নীলসাধু

আমি খুব সহজ এবং তার চেয়েও বেশী সাধারন একজন মানুষ । আইটি প্রফেশনাল হিসেবে কাজ করছি। টুকটাক ছাইপাশ কিছু লেখালেখির অভ্যাস আছে। মানুষকে ভালবাসি। বই সঙ্গে থাকলে আমার আর কিছু না হলেও হয়। ভালো লাগে ঘুরে বেড়াতে। ভালবাসি প্রকৃতি; অবারিত সবুজ প্রান্তর। বর্ষায় থৈ থৈ পানিতে দুকুল উপচেপরা নদী আমাকে টানে খুব। ব্যাক্তিগতভাবে বাউল, সাধক, সাধুদের প্রতি আমার দুর্বলতা আছে। তাই নামের শেষে সাধু। এই নামেই আমি লেখালেখি করি। আমার ব্লগে আসার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। শুভকামনা রইলো। ভালো থাকুন সবসময়। শুভ ব্লগিং। ই-মেইলঃ [email protected]

নীলসাধু › বিস্তারিত পোস্টঃ

... নাগরিক গণিকার গল্প!

১৩ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৫:৩৩



যাপিত জীবনের সকল ক্লেদ গণিকার অলংকার! মুখে মেকআপ

তীক্ষ্ণ লাইনার মাশকারায় চোখ ঢেকে

স্মিত হাসিমুখে উচ্ছলতায় উড়িয়ে দেয় শরীরের জমে থাকা যৌন ঘামগুলোকে।

হিসেব মেলানোর বে-হিসেবী জীবনের পরতে পরতে জমে থাকা কষ্টের ঘুণপোকারা

অনাদায়ী দেনা হয়ে জড়িয়ে রাখে গণিকার মন মনন।



শহরের যুবক - বয়সী পুরুষের কোলে ঢলে পড়া স্তনের স্পর্শে পৌরষত্বের জাহির, চাহিদা মেটাতে যোগ হয় লেবুর গন্ধ মেশানো রাশিয়ান ভদকা;

বার্মিজ ইয়াবায় ফুর্তির রাজা উজির ঘুরে ধানমন্ডি বনানী গুলশানের ফ্লাটে!



গ্রামীণ বাংলা লিংকে গণিকা কাছে আসে দূরে যায়

নগরের পরিচিত মুখ সুশীলেরা মুঠোফোনে ভালবাসার জাবর কাটে অহর্নিশি।

রাত শেষে অন্ধকারের পাখি

প্রতিবেশী গণিকা মাথা উঁচু করে হাটে রোদের সাথে। বোশেখে রোদের তেজ বাড়লে কক্সবাজার কুয়াকাটা ঘুরে আসে;

মদ মাস্তি ফিঙ্গের নাচন সকল শান্ত হয় ব্লু লেগুণের চাদরে!

শীৎকারে রাত ফুরায়!



মসজিদ থেকে ভেসে আসে মুয়াজ্জিনের কণ্ঠ, আসসালাতু খাইরুন মিনান-নাউম...





ছবি: Sex Life, Vladimir Kozma

মন্তব্য ২১ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (২১) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৫:৪৯

স্বপ্নবাজ অভি বলেছেন: অন্ধ বিবেক সব !

১৩ ই মার্চ, ২০১৪ সন্ধ্যা ৬:০৪

নীলসাধু বলেছেন: হুম - অন্ধ বিবেক।


শুভকামনা সুপ্রিয় স্বপ্নবাজ অভি।

শুভকামনা নিরন্তর জানবেন।

২| ১৩ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৫:৫৮

মামুন রশিদ বলেছেন: দুর্দান্ত! ভালোলাগা রইলো নীল সাধু ভাই ।

১৩ ই মার্চ, ২০১৪ সন্ধ্যা ৬:০৩

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছ মামুন রশীদ ভাই।
আশা করি ভাল আছেন।

শুভেচ্ছা নেবেন ভাল থাকবেন।

৩| ১৩ ই মার্চ, ২০১৪ সন্ধ্যা ৬:০৭

শাহ আজিজ বলেছেন: গনিকাবিহীন সমাজ দুঃস্বপ্ন মাত্র । সবচে প্রাচীন এই পর্বটি এখন স্বীকৃত একটি পেশা । আমি গনিকাদের ঘৃণা করিনা কারন ওর একার কামাইয়ে দশজন খায় , সবচে প্রথম পুলিশ , সবচে শেষে ওর শিশুটি ।

১৩ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১১:৪৮

নীলসাধু বলেছেন: মানবিক মনব্যে ভালো লাগা রইলো।
আশা করছি সুন্দর আছেন।


শুভেচ্ছা রইল।

ভাল থাকবেন শাহ আজিজ ভাই।

৪| ১৩ ই মার্চ, ২০১৪ সন্ধ্যা ৬:২২

এম মশিউর বলেছেন: নাগরিক গণিকা!

ভালো লাগলো।

১৩ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ৮:১৭

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছা এম মশিউর


ভালো থাকুন। ধন্যবাদ জানবেন।

৫| ১৩ ই মার্চ, ২০১৪ সন্ধ্যা ৬:৩৮

সুমন কর বলেছেন: ভাল লাগল।

১৩ ই মার্চ, ২০১৪ সন্ধ্যা ৭:৪৮

নীলসাধু বলেছেন: ধন্যবাদ ভ্রাতা।

শুভেচ্ছা নিরন্তর

৬| ১৩ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ৯:০৮

বিদ্রোহী বাঙালি বলেছেন: কিছু ভাগ্যাহত নারী অচল সংসারকে সচল করার জন্য গণিকা হয় আবার কিছু কিছু নারী সচল সংসারে জৌলুস আনার জন্য গণিকা হয়। তাই আজ গণিকাদের মধ্যেও দেখা দিয়েছে বৈষম্য। এখানেও আছে ধনী গরীবের মতো শ্রেণী। তাই হয়তো আপনি বলেছেন,
প্রতিবেশী গণিকা মাথা উঁচু করে হাটে রোদের সাথে। বোশেখে রোদের তেজ বাড়লে কক্সবাজার কুয়াকাটা ঘুরে আসে;
মদ মাস্তি ফিঙ্গের নাচন সকল শান্ত হয় ব্লু লেগুণের চাদরে!
শীৎকারে রাত ফুরায়!


তারপরও রাতফুরালে সব গণিকাদের বাসি ফুলের মতো ফুলদানী থেকে ছুঁড়ে ফেলা দেয়া হয়। যেমন ভাবে তাদের ভাগ্য তাদের জীবনের সুন্দর কক্ষপথ থেকে ছুঁড়ে ফেলে দিয়েছে। শীৎকারে ডাকা পড়ে যায় তাদের নষ্ট জীবনের কষ্টের কথা, তাদের জীবনের দুঃখগাঁথা কামনার লালায় ভেসে যায়।

শেষের লাইনটাকে অনেক ভাবেই ভাবা যায়।
মসজিদ থেকে ভেসে আসে মুয়াজ্জিনের কণ্ঠ, আসসালাতু খাইরুন মিনান-নাউম...
পশুদের জন্য এটা যেন বিপদ সংকেত বা সতর্ক সংকেত, তাদের মনে করিয়ে দেয়া যে, সৃষ্টিকর্তা জেগে জেগেই দেখছে তোদের পাপের লীলাখেলা।

ভালো লাগলো কবিতাটি। খুব সুন্দর লিখেছেন নীলদা।

১৩ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১১:৪৭

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছা সুপ্রিয়।
এবার চেনা গেছে ঘাস ফুলকে। ফিক ফিক।
আছেন কিরাম?

আপনার মন্তব্যে এই প্রসঙ্গে কবিতায় না বলা কথাগুলো উঠে এসেছে। ভালো লাগা রইল। সত্য তাদের কষ্ট আমরা অনুধাবন করিনা বা করেও কন অপ্যা বের করতে পারিনি।

সব শেষের লাইনে পুরো নেগেটিভ কবিতাকে পজেটিভ করার চেষ্টা। পাশাপাশি আমাদের নিজেদের স্মরন করিয়ে দেয়া আমারা কে কোথায় আমাদের গন্তব্য।


সুন্দর থাকুন।
নিরন্তর শুভকামনা।

৭| ১৩ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১১:৩৯

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সুন্দর।

১৩ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১১:৪৪

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছা সেলিম আনোয়ার ভাই।
সুন্দর থাকুন।

৮| ১৪ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১২:৩৮

কান্ডারি অথর্ব বলেছেন:


ভাল লাগা রইল।

১৪ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৪:৩৩

নীলসাধু বলেছেন: ধন্যবাদ ভ্রাতা।
আশা করছি ভাল আছেন। শুভেচ্ছা নিরন্তর

৯| ১৪ ই মার্চ, ২০১৪ ভোর ৫:৩৯

বিদ্রোহী বাঙালি বলেছেন: চেনার জন্যই প্রো-পিকটা একই রেখেছি। কিন্তু আওয়াজ দেই নাই। আপনার আরও একটা লেখায় মন্তব্য করেছিলাম কিন্তু চিনতে পারেন নাই তখন। এবার পুরাই ধরা খাইয়া গেলাম। অবশ্য আমি নিজেও চাচ্ছিলাম চিনে ফেলুন। 'ঘাস ফুল' নিকটা নেয়ার চেষ্টা করেছিলাম কিন্তু পাই নাই। তাই হুট করে এটা মাথায় চলে আসলো আর নিয়ে নিলাম। মাঝে মাঝে একটু বিদ্রোহী হতে ইচ্ছে করে। বাস্তবে হতে পারছি না বলেই নামেই বিদ্রোহী হয়ে গেলাম। :P
আপনি কেমন আছেন নীলদা? কোথায় ব্লগিং করে শান্তি পাচ্ছি না। কেমন যেন ম্যাড়ম্যাড়া হয়ে গেছে। তাই এখানে এলাম দেখি কেমন লাগে। পরিচিত অনেকেই আছেন এখানে। বিশেষ করে আপনি আছেন, মইনুল ভাই আছে, নুরু ভাই আছে। কিন্তু নুরু ভাইয়ের সাথে ওভাবে ব্লগিং করা হয় না যদিও ওনার পোষ্টগুলোতে চেষ্টা করি সব সময় ঢুঁ মারতে। নুরু চাকুরী করে মনে হয় কুলায়ে উঠতে পারেন না।
আশা করছি মাঝে মাঝে এখানে দেখা হবে আপনার সাথে। আলো ব্লগও ঝিমিয়ে আছে। তাই যাওয়া হয় না। আমি যে কীভাবে ব্লগিং করি সেটা তো এতো দিনে আপনার জানা হয়ে গেছে। তাই ঝিমানো আমার ভালো লাগে না। আমি সব সময় প্রাণবন্ত ব্লগিং পছন্দ করি আর সেটার খুঁজেই ইদানীং এখানে সেখানে নিক খুলে ঘুরে ঘুরে স্বাদ নিচ্ছি। এক জায়গায় আমাকে নিয়ে গিয়ে একা ফেলে চলে এলেন। ওখানের অবস্থাও ইদানীং ভালো যাচ্ছে না মনে হয়। তাই কিছুটা দূরে দূরে আছি। :(

১৪ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৪:৪৫

নীলসাধু বলেছেন: আমার মতে এই নিক ঠিক আছে। আপনি প্রথাগত অনেক কথার বাইরেও জোরালোভাবেই নিজের মত প্রকাশ করেন।
তবে আমরা ঘাস ফুলের চেনা বলে আমাদের কিছুটা অভ্যস্ত হতে সময় লাগলেও আইকন পুরণোই আছে।


এখানে আমি এবং মাঈনউদ্দিন ভাই ছাড়াও আছে আরো অনেক ব্লগার যাদ্র আপনি চেনে। আশা করি ধীরে ধীরে সবাইকে পাশে পেয়ে যাবেন। এ ছাড়া আমাদের সঙ্গে ঘনিষ্ঠভাবে ব্লগিং এবং সামাজিক কাজে জড়িতে আছেন এমন অনেক প্রিয় মুখ ব্লগিং করেন এখানে।

আপনার শেষ প্যারার উত্তরে বলতে হয়
আমি নিজেও সেখানে নেই। গিয়েছিলাম অনেক পরিকল্পনা নিয়ে। মাত্র ৩ মাসে অখ্যাত এক ব্লগকে র‍্যাংকিং এ তুলে এনেছিলাম। আমি ছেড়ে আসার সময় সেই ব্লগটি বাংলা ব্লগের মাঝে ৫ এ অবস্থান করছিল। যাইহোক তারা চেষ্টা করুক। ব্লগার প্সহা আছেন সব দায়ীত্বে। যদিও ভাসুর এর মতন একবার সে ব্বলে আবার না করে। এই হল অবস্থা।

আমি জানি আপনার ব্লগিং এর ধরণ। আশা করি এই প্লাটফর্মে আপনি আরাম পাবেন

সুন্দর হোক আগামী।
শুভেচ্ছা নিরন্তর।

১০| ১৪ ই মার্চ, ২০১৪ সকাল ১০:১৪

মাঈনউদ্দিন মইনুল বলেছেন: "হিসেব মেলানোর বে-হিসেবী জীবনের পরতে পরতে জমে থাকা কষ্টের ঘুণপোকারা
অনাদায়ী দেনা হয়ে জড়িয়ে রাখে গণিকার মন মনন।"


-আপনি জানেন, আপনার কথার ঢঙ দেখে আমি কত মুগ্ধ হই!
-আপনার কবিতায় একটি কমন জিনিস পাওয়া যায়: একদিন ‌'বলিব' ;)

১৪ ই মার্চ, ২০১৪ বিকাল ৪:৪৭

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছা সালাম ভাইজান।

আমার কবিতার একজন নিয়মিত পাঠক বন্ধু শুভাকাংখী হিসেবে আপনি অনেক বিষয়ে ওয়াকিবহাল :P আমি জানি তা
কয়েন একদিন
শুনুম

ভাল থাকিয়েন :)

১১| ১৫ ই মার্চ, ২০১৪ রাত ১২:৩২

আশরাফুল ইসলাম দূর্জয় বলেছেন:
অদ্ভূত সুন্দর।
শেষ টা একটা ছাপ রেখে গেল...

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.