নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পাদক, শিল্প ও সাহিত্য বিষয়ক ত্রৈমাসিক \'মেঘফুল\'। প্রতিষ্ঠাতা স্বেচ্ছাসেবী মানবিক সংগঠন \'এক রঙ্গা এক ঘুড়ি\'।

নীলসাধু

আমি খুব সহজ এবং তার চেয়েও বেশী সাধারন একজন মানুষ । আইটি প্রফেশনাল হিসেবে কাজ করছি। টুকটাক ছাইপাশ কিছু লেখালেখির অভ্যাস আছে। মানুষকে ভালবাসি। বই সঙ্গে থাকলে আমার আর কিছু না হলেও হয়। ভালো লাগে ঘুরে বেড়াতে। ভালবাসি প্রকৃতি; অবারিত সবুজ প্রান্তর। বর্ষায় থৈ থৈ পানিতে দুকুল উপচেপরা নদী আমাকে টানে খুব। ব্যাক্তিগতভাবে বাউল, সাধক, সাধুদের প্রতি আমার দুর্বলতা আছে। তাই নামের শেষে সাধু। এই নামেই আমি লেখালেখি করি। আমার ব্লগে আসার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। শুভকামনা রইলো। ভালো থাকুন সবসময়। শুভ ব্লগিং। ই-মেইলঃ [email protected]

নীলসাধু › বিস্তারিত পোস্টঃ

নেপাল জুড়ে এখন চলছে কান্না, হাহাকার আর আহাজারি!

২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১২:৩৮


ভুটান, নেপাল, মালদ্বীপের মানুষদের প্রতি বাংলাদেশের মানুষের আলাদা একটা ভালোবাসা রয়েছে। এই দেশগুলো একেবারেই আমাদের খুব কাছাকাছি অবস্থানে! সেখানকার মানুষগুলো যেন আমাদের খুব পরিচিত, আপন এবং কাছের! সেখানকার মানুষের এই ভয়ংকর দুর্যোগে মন বিষণ্ণ! নেপালে আজ শনিবার দুপুরে শক্তিশালী ভূমিকম্প আঘাত হেনেছে তাতে এখন পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৮৭৬ জন; তাঁদের মধ্যে ৫২৪ জন মারা গেছে রাজধানী কাঠমান্ডুতে। [আপডেট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে প্রায় ১৫০০] অনেক ঐতিহাসিক ভবন ধসে গেছে। ভারতে ২০ জন এবং বাংলাদেশে ৩ জন নিহত হবার সংবাদ পাওয়া গেছে! মৃত্যুর সংখ্যা আরও বাড়তে পারে সেখানে। নেপাল জুড়ে এখন চলছে কান্না, হাহাকার আর আহাজারি। নেপালিরা বলছেন, এমন ভয়াবহ প্রাকৃতিক দুর্যোগ তাঁরা কখনো দেখেননি।

প্রার্থনা করি তারা এই বিপদ কাটিয়ে উঠুক! এর মাঝেই ভারতের একটি বিষয় ভালো লাগলো, প্রতিবেশীর এই বিপদে তার খুব দ্রুত নেপালে সাহায্য/সহায়তা/ত্রাণ পাঠিয়েছে। আমি মনে করি বাংলাদেশেরও উচিত দ্রুত নেপালের মানুষের পাশে দাঁড়ানোর।

আজ শনিবার দুপুরে ভূমিকম্পে যখন পুরো দেশ কেঁপে ওঠে আমি তখন অফিসে কাজ করছিলাম; রুমে একা! কাজের মধ্যেই কেমন জানি একটা অস্বস্তি লাগা শুরু হল। চেয়ার নাড়িয়ে দেখলাম। তারপরও অস্বস্তিটা কাটছে না দেখে দাঁড়িয়ে ভাবলাম বাসায় যাই, ঘুরে আসি!! ঠিক তখনই আমার মেয়ের ফোন, বাবা বাসায় আসো! মা’র শরীর খারাপ! দ্রুত অফিসের দরজায় তালা দিয়ে উপরে গেলাম। যাওয়ার সময় পাশের বাসার অনেককেই ত্রস্ত পায়ে বাইরে আসতে দেখলাম! আমি তখনো বুঝিনি ভূমিকম্প হয়েছে!
শিমুলের কথা ভেবে দ্রুত উপরে উঠলাম।

ইতিমধ্যে বাইরে কিছুটা শোরগোল শোনা গেলো! তারপর বোঝা গেলো কয়েক সেকেন্ড স্থায়ী ভূমিকম্পের বিষয়টি। টিভিতে দেখলাম দেশের বিভিন্ন এলাকায় ভবন হেলে পড়ার ও ফাটল ধরার খবর! আমি ঢাকা শহরের কথা চিন্তা করে খুব ভয় পেলাম। কি হবে যদি এমন একটি ভূমিকম্প আমাদের ঢাকায় হয়??!!
নিশ্চিত শত/হাজার/লক্ষ মৃত্যু অপেক্ষা করছে!
অথচ আমাদের সে সব মোকাবেলায় তেমন কোণ প্রস্তুতিই নেই।
আমরা কেমন নির্বিকার!!!
আল্লাহ সহায় হোক!

পুরো দেশের মানুষ আজ আতংকিত সময় পার করেছে।
পলকা হাওয়ার মতই এক নিমিষেই যে আমরা পরপারে চলে যেতে পারি সেটাই যেন একবার নতুন করে মনে হল সবার! অবশ্য কি বলব!! এর মাঝেই দেখলাম কারা জানি দলবেঁধে সেলফি তুলে ফেসবুকে আপলোড করেছে - Celebrating earthquake LIVE! লিখে!

এই মুহূর্তে নেপালের কী অবস্থা তা জানতে চাইলে একজন নেপালী বলেন, ‘ঘটনার পরপরই আমরা বাসা থেকে বের হয়ে এসেছি। এখনো বাসার বাইরে আছি। সরকারের পক্ষ থেকে বলা হচ্ছে আমরা যেন এখনো বাসায় না ফিরি। আমাদের মতোই হাজার হাজার মানুষ এখন রাস্তায়, খোলা প্রান্তরে। নিরাপত্তা বাহিনী ও উদ্ধারের গাড়িগুলোর সাইরেন বাজছে, উদ্ধার কাজ চলছে। এখানে সেখানে ধসে পড়া ভবন। প্রত্যেকেই নানাভাবে স্বজনদের খোঁজ নেওয়ার চেষ্টা করছে। কিন্তু টেলিফোনগুলো কাজ করছে না। তবে সব জায়গা থেকেই খারাপ খবর আসছে।’

আল্লাহ সহায় হোক!

‪#‎সংবাদ_সূত্র_প্রথম_আলো_অনলাইন‬
‪#‎NepalEarthquake‬

মন্তব্য ১৮ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (১৮) মন্তব্য লিখুন

১| ২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ ভোর ৪:৩১

চাঁদগাজী বলেছেন:


নেপালে তো অনেক বেড়ায়েছেন, এখন সাহায্য করার চেস্টা করেন।

২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ বিকাল ৪:৩৮

নীলসাধু বলেছেন: মানবিকতা সবার আগে।

২| ২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ সকাল ১১:২৫

লাইলী আরজুমান খানম লায়লা বলেছেন: এখন শুনলাম ১৫০০ এর বেশি হবে মৃতের সংখ্যা, আহত আরো বেশি ---

২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ বিকাল ৪:৩৮

নীলসাধু বলেছেন: মৃতের সংখ্যা ২ হাজার ছাড়িয়েছে :(

৩| ২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ দুপুর ১:৫৮

সুমন কর বলেছেন: ঈশ্বর আমাদের মঙ্গল করুন।

২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ বিকাল ৪:৩৭

নীলসাধু বলেছেন: ঈশ্বর আমাদের সকলের মঙ্গল করুন।

৪| ২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ বিকাল ৫:৪৪

কাবিল বলেছেন: আল্লাহ সহায় হোক

২৮ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১:০১

নীলসাধু বলেছেন: আল্লাহ সহায় হোক

৫| ২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ৯:০৪

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: আল্লাহ তাদের সহায় হোক ।

২৮ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১:০১

নীলসাধু বলেছেন: আল্লাহ তাদের সহায় হোক ।

৬| ২৬ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১১:৫৯

কামরুন নাহার বীথি বলেছেন: আজ মৃতের সংখ্যা ১৯০০।
জানি না এই সংখ্যা কোথায় গিয়ে থামবে !!!
আল্লাহ্‌ সহায় হোন !!!

২৮ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১:০২

নীলসাধু বলেছেন: আল্লাহ্‌ সহায় হোন !!!

৭| ২৭ শে এপ্রিল, ২০১৫ দুপুর ১:৪৪

ডি মুন বলেছেন:
প্রাকৃতিক দুর্যোগের কাছে আমরা এখনও কতো অসহায়।

নেপালের মানুষের জন্যে সৃষ্টিকর্তার কাছে প্রার্থনা করি যেন অতিদ্রুত তারা এ দুর্যোগ কাটিয়ে উঠতে পারেন। প্রতিবেশি দেশ হিসেবে আমাদের সরকারেরও উচিত যথাসম্ভব সাহায্য-সহযোগিতা করা।

আর সেই সাথে আমাদের দেশের জনগণকে ভূমিকম্পের সময় বা পরবর্তীতে কী কী করণীয় সে ব্যাপারে গাইড করা। ঢাকার কথা ভাবলেই আঁতকে উঠতে হয়। একটা শক্তিশালী ভূমিকম্প হলে ঢাকা একেবারে মৃত্যুপুরীতে পরিণত হবে।


ভালো থাকুন নীলসাধু ভাই
নিরাপদ হোক বেঁচে থাকা।




২৮ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১:০২

নীলসাধু বলেছেন: ধন্যবাদ ডি মুন। নিরাপদ হোক বেঁচে থাকা।

৮| ২৭ শে এপ্রিল, ২০১৫ বিকাল ৪:৫৮

অর্বাচীন পথিক বলেছেন: আজ পর্যন্ত মৃতের সংখ্যা ৩২০০-৩৪০০

আমি ভাবতেই পারছি না

আল্লাহ্‌ রক্ষা করবেন সবাই কে

২৮ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১:০৩

নীলসাধু বলেছেন: শেষ পর্যন্ত মৃত্যুর মিছিল কোথায় গিয়ে দাঁড়াবে ভাবতে পারছি না।

৯| ২৭ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ৮:৩০

পরিবেশ বন্ধু বলেছেন: আসলে ভুমিকম্প সম্পূর্ণ প্রাকৃতিক একটি দুর্যোগ । নেপালের ভয়াবহতা এবং মানুষের জানমালের যে ক্ষতিসাধন সেটা অতিব দুঃখের । আল্লাহ তাদের ধরয ধারন করার ক্ষমতা দিন ।

২৮ শে এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১:০৩

নীলসাধু বলেছেন: হুম। মৃত্যুর মিছিল শুধুই দীর্ঘ ই হচ্ছে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.