নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

সম্পাদক, শিল্প ও সাহিত্য বিষয়ক ত্রৈমাসিক \'মেঘফুল\'। প্রতিষ্ঠাতা স্বেচ্ছাসেবী মানবিক সংগঠন \'এক রঙ্গা এক ঘুড়ি\'।

নীলসাধু

আমি খুব সহজ এবং তার চেয়েও বেশী সাধারন একজন মানুষ । আইটি প্রফেশনাল হিসেবে কাজ করছি। টুকটাক ছাইপাশ কিছু লেখালেখির অভ্যাস আছে। মানুষকে ভালবাসি। বই সঙ্গে থাকলে আমার আর কিছু না হলেও হয়। ভালো লাগে ঘুরে বেড়াতে। ভালবাসি প্রকৃতি; অবারিত সবুজ প্রান্তর। বর্ষায় থৈ থৈ পানিতে দুকুল উপচেপরা নদী আমাকে টানে খুব। ব্যাক্তিগতভাবে বাউল, সাধক, সাধুদের প্রতি আমার দুর্বলতা আছে। তাই নামের শেষে সাধু। এই নামেই আমি লেখালেখি করি। আমার ব্লগে আসার জন্য আপনাকে ধন্যবাদ। শুভকামনা রইলো। ভালো থাকুন সবসময়। শুভ ব্লগিং। ই-মেইলঃ neeluttara@gmail.com

নীলসাধু › বিস্তারিত পোস্টঃ

হালদা :: \'আহা জীবন, কত ভালোবাসাবাসি, নোনা জলে নোনা জলে কত হাসাহাসি\'

০৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৩:১১



'এশিয়ার একমাত্র প্রাকৃতিক মৎস্য প্রজনন কেন্দ্র হালদা নদী ও এর দুই পাড়ের জেলেদের জীবন নিয়ে চলচ্চিত্রের গল্প আবর্তিত হয়েছে'
এই ছিল হালদা সিনেমার শ্লোগান।
যদিও খুব বিস্তৃতভাবে হালদা নদী ও এর দুই পাড়ের জেলেদের জীবনকে আমি সিনেমায় খুঁজে পাইনি।
মনে হয়েছে পরিচালক যে কোন একদিকে দৃষ্টি দিলেই ভালো করতেন। হালদা নদী বা জেলেদের জীবন যে কোন একটিকে উপজীব্য করে ছবিটি নির্মাণ করলেই হয়তো আরও কিছুটা ভালো কাজ হতে পারতো।
১৩০ মিনিট সময়ে তিনি দুটি বিষয়কে ফুটিয়ে তুলতে গিয়ে নিজের নামের প্রতি সুবিচার করতে পারেননি।

হাসু এবং বদির প্রেম কেন যেন ঠিক জমেনি। প্রেমের রসায়ন ছিল আরোপিত। এমন স্মার্ট ক্লিন শেভ জেলে (বদি) আমি বাস্তবে দেখিনি।
সিনেমায় দেখার সৌভাগ্য হল।
টিভি কলাকুশলী নিয়ে মাত্র ২২ দিনে শ্যুটিং শেষ করলে এর চেয়ে ভালো কিছু হবার কথা নয়।
হয়ওনি!
তিশাকে জেলের কন্যা মনে হয়নি।
স্মার্ট গেটাপ, সফট মেকআপে তাকে বেশ রূপসী আবেদনময়ী নায়িকা মনে হয়েছে।
তুলনামুলকভাবে জাহিদ হাসান, ফজলুর রহমান বাবু, রুনা খান এবং দিলারা জামানের অভিনয় ছিল পরিপক্ব, পরিণত।

ছবিটির কিছু প্রি-ওয়ার্ক শুরু হয় ২০১৬ সালের এপ্রিল মাস থেকে হাটহাজারীর উত্তর মাদার্শা রামদা মুন্সির হাট এলাকায়। হালদা নদীতে একটা নির্দিষ্ট সময়ে মাছ ডিম পাড়ে। সেই ডিম পাড়ার দৃশ্যগুলোর চিত্র ধারণ করা হয় সে সময়ে। হালদা'র প্রধান চিত্রগ্রহণ চট্টগ্রামের হাটহাজারীর হালদা নদীর পারে করা হয়েছে। শুরু হয়েছিল ২৬ সেপ্টেম্বর, ২০১৬ থেকে। উল্লেখ্য, ‘হালদা’ পরিচালক হিসেবে তৌকীর আহমেদের পঞ্চম চলচ্চিত্র। এর আগে ‘জয়যাত্রা’, ‘রূপকথার গল্প’, ‘দারুচিনি দ্বীপ’ ও ‘অজ্ঞাতনামা’ নামে চারটি ছবি পরিচালনা করেন তিনি।

'আহা জীবন, কত ভালোবাসাবাসি, নোনা জলে নোনা জলে কত হাসাহাসি'
পুরো সিনেমায় 'নোনা জল' গানটি ভালো লেগেছে। ৩ মিনিট ১৬ সেকেণ্ডের গানে দারুণ কিছু লোকেশন ব্যবহার করা হয়েছে।
গানটিতে কণ্ঠ দিয়েছেন পিন্টু ঘোষ ও সানজিদা মাহমুদ নন্দিতা। কথা লিখেছেন পিন্টু ঘোষ এবং নির্মাতা তৌকির।

পরিচালক: তৌকির আহমেদ
প্রযোজক: তৌকীর আহমেদ
চিত্রনাট্যকার: তৌকীর আহমেদ
গল্পকার: আজাদ বুলবুল
সুরকার: পিন্টু ঘোষ
চিত্রগ্রাহক: এনামুল হক সোহেল
সম্পাদক: অমিত দেবনাথ
স্টুডিও: নক্ষত্র চলচ্চিত্র
পরিবেশক: দ্য অভি কথাচিত্র
মুক্তি: ১ ডিসেম্বর ২০১৭
দৈর্ঘ্য: ১৩০ মিনিট

কুশীলব:
জাহিদ হাসান - নাদের চৌধুরী, সম্ভ্রান্ত বংশের ছেলে, বিদেশ ফেরত ও ইটের ভাটার মালিক।
নুসরাত ইমরোজ তিশা - হাসু, জেলের কন্যা।
মোশাররফ করিম - বদিউজ্জামাল, জেলে।
ফজলুর রহমান বাবু - মনু মিয়া, হাসুর বাবা।
রুনা খান - জুঁই, নাদেরের প্রথম স্ত্রী।
শাহেদ আলী - নিবারণ, জেলে।
দিলারা জামান - সুরৎ বানু, নাদেরের মা।
মোমেনা চৌধুরী - হাসুর মা।
কাজী উজ্জ্বল - সরকারি কর্মকর্তা
.
.
.
আমি হালদা সিনেমাকে ১০ এ ৪ দিতে পারি।
ইউটিউবে রিলিজ হওয়া 'নোনা জল' গানটির ট্রেলার দেখে ছবিটি দেখার জন্য প্রবল আগ্রহ জন্মেছিল। অনেকদিন পর হলে গিয়ে সিনেমা দেখে তৃপ্তি পাইনি। এই ছবিটি দেখার সময় বার বার মনে হচ্ছিল 'পদ্মা নদীর মাঝি'র কথা। চাইলে তেমন একটি মাস্টার পিস ছবি হতে পারতো এটি।
অথচ হয়নি তেমন কিছুই!

মন্তব্য ১০ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (১০) মন্তব্য লিখুন

১| ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ বিকাল ৫:৫১

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: ১০ এ ৪!!!!!

রিভিউ পড়েইতো আগ্রহ ঝুমিয়ে গেল ;)

মানহীন অনেল প্রযোজনার চেয়ে মান সম্পন্ন ১টফ মুভিও অমর করতে পারে!
কে বোঝাবে কারে!

+++

০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:২৭

নীলসাধু বলেছেন: ফিক ফিক

১০ এ ৪ কম হয়ে গেছে বুঝলাম। বেশী দেয়া গেলো না।

২| ০৮ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ৮:২০

মাহমুদুর রহমান সুজন বলেছেন: রিভিও পড়েতো মনে হলো দেখতে গেলে অযথায় সময় নষ্ট করা ছাড়া কিছুই হবে না।

০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:২৬

নীলসাধু বলেছেন: ইশ আমিতো তবে একজন দর্শককে হতাশ করে দিলাম।

৩| ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ রাত ২:৩০

পাজী-পোলা বলেছেন: ডুব আপনার কেমন লেগেছে?

০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ১১:২৫

নীলসাধু বলেছেন: ডূব দেখিনি ভাই। ইচ্ছে থাকা সত্ত্বেও সময় করা যায়নি।

৪| ০৯ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ দুপুর ২:৩৯

আনু মোল্লাহ বলেছেন: হালদা দেখিনি। চারিদিকে আলোচনা শুনি। আপনার লেখাই হালদা প্রথম রিভিউ পড়া।

১১ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ দুপুর ১:৫৩

নীলসাধু বলেছেন: ধন্যবাদ।

৫| ১০ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ সকাল ৮:০৭

বোকা মানুষ বলতে চায় বলেছেন: রিভিউ ভাল হয়েছে, রিভিউ পড়ে ছবিটা দেখার আগ্রহ পেলাম। কারন, ডুবের ভরাডুবির পর হালদা নিয়ে চারিদিকে পজেটিভ আলোচনার মাঝে আপনার এই রিভিউ এর সমালোচনা ছবিটি দেখতে আগ্রহী করে তুলেছে। +++

১১ ই ডিসেম্বর, ২০১৭ দুপুর ১:৫৪

নীলসাধু বলেছেন: শুভেচ্ছা রইলো।
দেখে আ। আমার কাছে ভালো না লাগলেও আপনার কাছে ভালোও লাগতে পারে। শুভকামনা।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.