নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

নারী ও শাড়ি

২২ শে মে, ২০১৯ দুপুর ১:৫৬



শাড়ীর ভাজে বাঙালী নারীর লুকিয়ে থাকে দুঃখ কথা,
ষড়ঝতুর শাড়ীর আঁচলে স্বপ্ন সুখের ছবি আকা।


শাড়ি বাঙালি নারীর ঐতিহ্যবাহী পোষাক।
এই পোষাকের রয়েছে খুবই সৌন্দর্য। যেসব মেয়েরা সব সময় সেলোয়ার কামিজ পড়ে, হঠাত তারা শাড়ি পড়লে তাদের অনেক সুন্দর লাগে। বাঙালি নারীর শাড়ি পরার ইতিহাস হাজার বছরের পুরোনো। পৃথিবীর যে ক’টি জাতিগোষ্ঠী তাদের হাজার বছরের যেসব প্রাচীন পোশাকের ঐতিহ্য আজও ধরে রেখেছে, বাঙালি এবং তার শাড়ি সেগুলোর মধ্যে সম্ভবত সবচেয়ে বেশি উল্লেখযোগ্য। দক্ষিণ ও পশ্চিম ভারতে সেলাই করা কাপড় পরার রেওয়াজ আদিম কালে ছিল না। এই সেলাইবিহিন অখন্ড বস্ত্র পুরুষের ক্ষেত্রে ‘ধুতি’ এবং মেয়েদের বেলায় ‘শাড়ি’ নামে অভিহিত হয়।

কুচি পদ্ধতিকে প্রায় আজকের রূপে প্রথম চালু করেন জোড়াসাঁকোর ঠাকুর পরিবারের মেয়েরা। বাংলাদেশের তৈরি শাড়ি জামদানি, কাতান, রাজশাহী সিল্ক, মণিপুরী শাড়ি, টাঙ্গাইলের তাঁতের শাড়ি, বালুচরি শাড়ি, পাবনার শাড়ি, ঢাকাই শাড়ি ইত্যাদি শুধু দেশে নয়, বিদেশেও মানুষের দৃষ্টি আকর্ষণ করেছে। বিয়ে, বৌভাত, মেহেদি অনুষ্ঠান, গায়ে হলুদসহ বিশেষ বিশেষ দিনের অনুষ্ঠানে শাড়িই অন্যতম পোশাক। কী এক রহস্যে পুরো শরীরে শাড়ি জড়িয়ে থাকে! তবে বাঙ্গালী মেয়েরা শাড়ি পড়লে অস্বস্তিতে থাকে, এই বুঝি তার পেট দেখা যাচ্ছে। শাড়ির ফাঁক-ফোকর দিয়ে ব্লাউজ দেখা যাচ্ছে। পেট আর ব্লাউজ ডাকতে গিয়ে তারা শাড়ি পড়ার সৌন্দর্য নষ্ট করে ফেলে। এত বেশি সেপটিপিন ব্যবহার করে যে, শাড়ির সৌন্দর্য নষ্ট হয়ে যায়।



১৮৪০ সালে বস্ত্রশিল্প যখন ধ্বংসের মুখে তখনও ঢাকায় ৩৬ রকমের কাপড় বোনা হতো। উনিশ শতকের চল্লিশ দশক থেকে বিংশ শতাব্দী পর্যন্ত সময়কে বলা হয়ে থাকে ‘ভিক্টোরিয়ান যুগ’। এ যুগে ফ্যাশনের মূল কথাই ছিল কাপড়ে সারা শরীর ঢাকা থাকতে হবে। আমাদের দেশে উচ্চবিত্ত, মধ্যবিত্ত এবং নিম্নবিত্ত সব পরিবারের মহিলারা শাড়ি পরেন। ভারতবর্ষীয় উপমহাদেশের পশ্চিমাঞ্চলের সিন্ধু সভ্যতার ধ্বংসাবশেষের মাঝে সেইসময়ে শাড়ীর প্রচলন খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। সিন্ধু সভ্যতার ভাস্কর্যে পুরোহিতদের শাড়ীকেই ধুতির মতো পরিহিত অবস্থায় পাওয়া যায় এবং মনে করা হয় ধুতিই শাড়ী প্রচলনের ভিত্তি।

মানুষের সহজাত প্রবৃত্তির মধ্যে নতুনকে ধারণ করার অদ্ভুত একটা ইচ্ছাশক্তি কাজ করে। বাঙালি নারীদের শাড়ি পড়ার চল কমে যাচ্ছে এই ভাবনায়। শাড়ী হচ্ছে একমাত্র নারী পোশাক যেটাকে অগণিত বিচিত্র উপায়ে পরিধান করা হয়। ভারতীয় চলচ্চিত্রে আমরা শিল্পীদের নানা কৌশল অবলম্বন করে শাড়ী পরিধান করতে দেখি। আধুনিক কালে শাড়ী পরিধানের ক্ষেত্রে একটু খোলা মেলা পন্থা অবলম্বন করা হয়। বিশেষ করে পেট এবং নাভি একটু দৃশ্যমান করে রাখা, পিঠের অংশ খোলা রাখা, খাটো হাতা এবং পেছনে ফিতাযুক্ত ব্লাউস পরিধান করা ইত্যাদি। শাড়ীকে বিভিন্ন পরিবেশ এবং অনুষ্ঠানের জন্য ভিন্ন ভিন্ন উপায়ে খাপ খাইয়ে নেয়া যায়। তাছাড়া আমার নিজের দৃষ্টিতে বাঙালি এবং ভারতীয় নারীদের শাড়ীতেই বেশ অসাধারণ লাগে!



ধর্ম গ্রন্থে শাড়ি বলে কোন শব্দ নেই।
বাংলাভাষার প্রাচীন গ্রন্হ চর্যাপদেও শাড়ি শব্দটি নেই। ১৯ শতকের মাঝামাঝি সময়ে ব্লাউজের ব্যবহার শুরু হয় এবং আধুনিক জ্ঞানদানন্দিনী দেবী ভারতে ব্লাউজের প্রথা চালু করেন। সেই সাথে শাড়ি পরার আরেকটি অনুষঙ্গ পেটিকোটের প্রচলন শুরু হয় মুসলমানদের আগমনের সাথে।
আমাদের দেশে কিশোরী মেয়েদের শাড়ি পড়া অনেক বড় ব্যাপার। আজও একজন বাঙ্গালী নারী নতুন শাড়ি পড়লে স্বামীকে কদমবুসি করে। বিশেষ বিশেষ দিন গুলোতে বাঙ্গালী মেয়েরা শাড়ি খুব আগ্রহ নিয়ে পড়ে। তবে অনেক মেয়ে শাড়ি পড়ে হাঁটতে পারে না। একসময় গ্রামের মা-খালা, চাচীরা নতুন শাড়ি পড়ার আগে শাড়ির চারমাথা একসাথে করে আগুনে একটু পুড়ে নিতেন। আজও যাকাত হিসেবে শাড়ি দেওয়া হয়।

মন্তব্য ৪০ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (৪০) মন্তব্য লিখুন

১| ২২ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:০২

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধুরু যা রোজার দিন এসব কিতা ছবি দেন :(

২২ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: ঈমান মজবুত থাকলে এই ছবিতে কিছুই যাবে আসবে না।

২| ২২ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:১১

গড়ল বলেছেন: বাঙ্গালীরা সেলাই এর প্রযুক্তি আবিষ্কার করতে পারেনি বিধায় ১৮শতক অব্দি শাড়ি আর ধুতি প্যাচ দিয়ে পরত কারণ জামা বানাতে সেলাই এর প্রয়োজন হয়। যেখানে গ্রিকরা খ্রীষ্টের জন্মের আগে থেকেই সেলাই করা জামা পড়ত সেটা আমরা ১৮ শতক পর্যন্ত করতে পারি নাই।

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:১০

রাজীব নুর বলেছেন: সব প্রযুক্তি আমাদের দেশে দেরীতে আসে।

৩| ২২ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:২৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ভাইরে বর্তমান ডিজিটাল যুগে ঈমানের নাজেহাল অবস্থা তো আপনি নিজের চউক্ষেই দেখতে পাচ্ছেন.....

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:১৫

রাজীব নুর বলেছেন: তার মানে কি এযুগে ধর্ম অচল?

৪| ২২ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:৫৪

আপেক্ষিক মানুষ বলেছেন: রাজিব ভাই আপনার ছবির কালেকশন অনেক ভাল :P :P

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:১৬

রাজীব নুর বলেছেন: ছবি ইন্সটাগ্রাম থেকে নিয়েছি।

৫| ২২ শে মে, ২০১৯ বিকাল ৩:০০

আর্কিওপটেরিক্স বলেছেন: শাড়ি পরলে মেয়েদেরকে পরী পরী লাগে :`>

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: হুম।

৬| ২২ শে মে, ২০১৯ বিকাল ৪:৩০

নীল আকাশ বলেছেন: আপনার এই পোস্ট পড়তে এসে তো রোজা রেখে বেশ অস্বস্তিতে পড়ে গেলাম। যেই সব ছবি দিয়েছেন আপনি? রমজানের সময় ভাই ছবি দেয়ার সময় একটু সাবধান হওয়া যায় না? প্রায় সবাই তো রোজা রাখে!

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:২০

রাজীব নুর বলেছেন: স্যরি।
ঠিক আছে। এরপর ছবি দেওয়াতে সাবধান থাকবো।

৭| ২২ শে মে, ২০১৯ বিকাল ৪:৫৫

সৈয়দ তাজুল ইসলাম বলেছেন: রাজীব ভাই,

আপনি চটি লেখে গুগলে সার্চ দিন, দেখুন অধিকাংশ ছবিই কিন্তু আপনার এই পোস্টের ছবিগুলোর ভাবভঙ্গির সাথে মিলে যায়! এমনিতেই কিছু খারাপ মানুষ আমাদের এই পবিত্রাঙ্গনকে খারাপ ট্যাগ দিয়ে বন্ধ করে দিয়েছে। যদিও কাগুর দল এখন উল্টো প্রাপ্তি পেয়েছে।



কর্তৃপক্ষ কিন্তু এখন আমাদের ব্লগের ব্লক নিয়ে নাড়াচাড়া করবে। তাই এখন এমন বিভ্রমে ফেলার মত ছবি না পোস্টানোই উচিত।
আমি ধর্মের কথা বললাম না৷

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:২১

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।
এরপর থেকে সাবধান থাকবো।

৮| ২২ শে মে, ২০১৯ বিকাল ৫:১৭

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন: ছবি গুলো বড়ই সৌন্দর্য।

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:২৫

রাজীব নুর বলেছেন: তা ঠিক।

৯| ২২ শে মে, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০৫

নীলপরি বলেছেন: ভালো লাগলো ।

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:২৯

রাজীব নুর বলেছেন: হুম।

১০| ২২ শে মে, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪২

চাঁদগাজী বলেছেন:


যেসব মেয়ে ও মহিলা শাড়ী পরেন না, তাদেরকে কেমন বিহারী বিহারী মনে হয়।

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: রাইট।
একদম আমার মনের কথাটা বলেছেন।

১১| ২২ শে মে, ২০১৯ রাত ৮:২১

অনুভব সাহা বলেছেন:

২য় ছবিটার মডেল কে?

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:৪২

রাজীব নুর বলেছেন: জানি না। চিনি না।

১২| ২২ শে মে, ২০১৯ রাত ৯:০৪

বলেছেন:

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:৪৩

রাজীব নুর বলেছেন: হুম।

১৩| ২২ শে মে, ২০১৯ রাত ৯:০৪

বলেছেন:

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:৫০

রাজীব নুর বলেছেন: হুম হুম।

১৪| ২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:৩১

পথিক প্রত্যয় বলেছেন: পাঁচ ফুট শরীরে বারো হাত শাড়ি । হায়দার হোসেন এর একটি গান আছে

২২ শে মে, ২০১৯ রাত ১০:৫২

রাজীব নুর বলেছেন: গানটা শুনেছি।

১৫| ২৩ শে মে, ২০১৯ রাত ১২:৩১

মাহমুদুর রহমান বলেছেন: হে হে হে।
ভারতীয় উপমহাদেশে মুসলিম বিজয় শুরু হয় ১২শ থেকে।তাহলে আগমন অনেক আগে থেকেই রয়েছে।সহজ হিসেবে।

লেখক বলেছেন: ঈমান মজবুত থাকলে এই ছবিতে কিছুই যাবে আসবে না।
আপনি কি মনে করেন আপনার মত একই মানসিকতার সবাই? নিজেকে আপনি একজন মুসলমান বলে দাবী করেন অথচ যেকাজ নিষিদ্ধ সে কাজে করে বেড়াচ্ছে এতে নিশ্চয়ই বিশ্বাসের ঘাটতি রয়েছে।যাই হোক আল্লাহ্‌ আপনাকে হেদায়েত দান করুক।

২৩ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: আমি হেদায়ের চেয়ে বেশি চাই- টাকা, সম্মান, বুদ্ধি।

১৬| ২৩ শে মে, ২০১৯ সকাল ৯:৫২

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ধুরু যা রোজার দিন এসব কিতা ছবি দেন

রোজা তো হালকা হবার কথা পুরুষদের।
মহিলারা তো নিরাপদ।
মহিলারা মহিলার ছবি দেখলে তো সমস্যা হবার কথা নয়।

২৩ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:১০

রাজীব নুর বলেছেন: ঠিক কথা বলেছেন।
তবে উনি মনে হয়, পুরুষদের কথা চিন্তা করেই বলেছেন।

১৭| ২৩ শে মে, ২০১৯ সকাল ১০:৩৯

মনিরা সুলতানা বলেছেন: তথ্য বহুল লেখা।

২৩ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:১১

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

১৮| ২৩ শে মে, ২০১৯ দুপুর ১:৩৩

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: বিয়ের পর শাড়ী এক সময় প্রায় সব মেয়ের বাধ্যতামূলক পোশাক ছিল। তবে ইদানিং কালে শাড়ি শুধু কোন প্রোগ্রামে পরা হয়। ঘরে আর তেমন কেউ পরে না। এমন কি গ্রামের মেয়েরাও বিয়ের পর এখন সেলোয়ার কামিজ বেশী পরে। এর একটা কারণ হল - শাড়ী সামলানো কঠিন, আরেকটা কারণ হল গৃহস্থালী কাজ করতে সমস্যার সৃষ্টি হয়, আর অনিচ্ছাকৃত পেট, পিঠ প্রদর্শনও অন্যতম একটা কারণ...

২৩ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:১২

রাজীব নুর বলেছেন: সহমত।

১৯| ২৩ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:০৩

পদাতিক চৌধুরি বলেছেন: ভাইয়ের পোস্ট থেকে অনেক কিছু জানলাম। ++
ছবিতে প্রমীলাদেরকে ভারী অপূর্ব লাগছে।

শুভকামনা রইল।

২৩ শে মে, ২০১৯ দুপুর ২:১২

রাজীব নুর বলেছেন: এরাই জান্নতের হুর, রম্ভা।

২০| ২৪ শে মে, ২০১৯ ভোর ৬:১০

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:

শাড়ী নিয়ে লেখার পর এবার লুঙি নিয়ে লিখুন।
পড়ে ধন্য হই।

২৪ শে মে, ২০১৯ সকাল ৮:৩৯

রাজীব নুর বলেছেন: ইনশাল্লাহ লিখব।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.