নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

ইমাম মাহদী আসবেন?

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:৪৯


যুগে যুগে নবী-রাসূলগণ অত্যাচারী শাসকদের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়িয়েছিলেন। ফেরাউন ও নমরুদের মতো অত্যাচারী এবং খোদাদ্রোহী শাসকদের হাত থেকে নিপীড়িত জনগোষ্ঠীকে উদ্ধার করতে আল্লাহপাক দুইজন বিশিষ্ট নবীকে এই দুনিয়াতে পাঠিয়েছেন। যদিও মহান প্রভু অলৌকিক ভাবে সব সমস্যার সমাধান করে দিতে পারেন। পবিত্র কোরআনে যা লেখা আছে তাই ঘটছে। অবিশ্বাসীদের মুখে তালা লেগে গেছে। আজ এ পোষ্টে ইমাম মাহদীকে নিয়ে আলোচনা করবো। ভুল ত্রুটি থাকলে ধরিয়ে দিবেন।

ইমাম মাহদী কে?
ইমাম মাহদী হচ্ছেন কেয়ামতের পুর্বে আগমনকারী মুসলমানদেরকে নেতৃত্ব দানকরী শাসক। যিনি পৃথিবীতে সাত, নয় অথবা উনিশ বছর শাসন করবেন। তার কথা হাদিসের বহু জায়গায় বেশ কয়েকবার বলা হয়েছে। তিনি মদিনায় জন্মগ্রহণ করবেন এবং তাকে দেখতে ইসলামের শেষ নবী মুহাম্মদ -এর মত লাগবে। তার আগমন কিয়ামতের অন্যতম বড় আলামত। নবিজী (সঃ) বলেছেন, আখেরী যামানায় আমার উম্মাতের ভিতরে মাহদীর আগমণ ঘটবে। তাঁর শাসনকালে আকাশ থেকে প্রচুর বৃষ্টিপাত হবে, যমিন প্রচুর ফসল উৎপন্ন করবে, তিনি মানুষের মাঝে সমানভাবে প্রচুর সম্পদ বিতরণ করবেন এবং গৃহপালিত পশুর সংখ্যা বৃদ্ধি পাবে।

বর্তমান পৃথিবী যুদ্ধ-বিগ্রহ, দূর্নীতি, হিংসা আর হানাহানিতে ভরে গেছে।
হাদিস অনুযায়ী একমাত্র হজরত ইমাম মাহদী (আঃ)-ই পৃথিবীতে মহাশান্তি ফিরিয়ে আনতে পারবেন। তাই ইমাম মাহদী আগমনের ঘটনাটি বর্তমান পৃথিবীর মানুষের জন্য একটি বিরাট ঘটনা। বহু মানুষ সেই ঘটনা প্রত্যক্ষ করতে আগ্রহী। মহান প্রভুই ভালো জানেন সে ঘটনার সময় কে থাকবেন, কে থাকবেন না। যাই হোক, যে বছর রমজানে সূর্যগ্রহণ এবং চন্দ্রগ্রহণ হবে, সেই বছরই ইমাম মাহ্দীর আর্বিভাব হবে। হাদিস ও নাসার তথ্য অনুযায়ী মানুষ ধারনা করছে ২০২৬ সালে ইমাম মাহ্দী (আঃ)-এর আবির্ভাবের সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। কিন্তু ইমাম মাহ্দী সঠিকভাবে কবে আসবেন-এটা আল্লাহ্পাক ছাড়া কেউ বলতে পারবে না।

বড় বড় আলেমরা মনে করেন-
ইমাম মেহেদি কিংবা ঈসা (আ.) কে চিনতে হলে অন্তরের সমস্ত অন্ধকার দূর করতে হবে। হ্যারিকেন কিংবা ইলেকট্রিসিটির আলো দিয়ে সেই আঁধার দূর করা যাবে না। পবিত্র কোরআনের আলোয় আলোকিত হওয়ার জন্য সচেষ্ট হতে হবে। সকল জ্ঞানের উপরে এই ঐশী জ্ঞানকে স্থান না দেয়া পর্যন্ত কখনই অন্ধকার দূর হতে পারে না। ইমাম মাহদী আসবেন। আমি অপেক্ষায় আছি। অপেক্ষা করতে আমার ভালোই লাগে।

ইমাম মেহেদীর ইস্যু চিরতরে বন্ধ হওয়া উচিত মুসলমানদের স্বার্থে।
পবিত্র কোরআনে ইমাম মাহদী আসবেন এই ব্যপারে কিছু বলা নেই। তবে হাদীসে আছে। সমস্যা হলো জাল হাদীসের অভাব নেই। এই দুনিয়ার সর্বশ্রেষ্ঠ কুলাঙ্গার পরিবার সৌদি রাজপরিবার। এরা বড় নির্বোধ। আর বাংলাদেশের আলেম সমাজের বেশির ভাগ গোবর মাথা। এই নির্বোধ আলেম সমাজের অধিপতিরা সমস্যা এক জায়গায়, ঢোল বাজায় অন্য জায়গায়। তাই এর ওর কাছ থেকে এটা ওটা শুনে বা জেনে আর সময় নষ্ট করা উচিত নয়।
আসুন, পবিত্র কোরআনের সঠিক জ্ঞান আহরণে সময় ব্যায় করি। কারণ এই জ্ঞানের আলো ব্যতীত মহান আল্লাহতায়ালার অনুগ্রহপ্রাপ্ত ও তাঁর বিধানের অনুসারী সেই যোগ্য নেতাকে (ইমাম মাহদী) চেনা সম্ভব হবে না।

মন্তব্য ৬২ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (৬২) মন্তব্য লিখুন

১| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:০২

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: ছবি দেখে অনেকে ভাববে উনি এসে গেছেন। যারা হজের ছাওয়াব কামাবার জন্য ইজতেমায় যায় ওরা কী না ভাবতে পারে তা আমি জানি না।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:০৬

রাজীব নুর বলেছেন: উনি আসবেন। অবশ্যই আসবেন।

২| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:০৪

এম ডি মুসা বলেছেন: ইসলামের ইতিহাস আগামী ঘটনাটি সুন্দর উপস্থাপনা

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:০৬

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

৩| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:১৫

মোহাম্মাদ আব্দুলহাক বলেছেন: রাজীবভাই, পৃথিবী এত জলদি ধ্বংস হবে না। ইমাম মাহদী এবং ইসা (আঃ) আসার পর পৃথিবী বেশি দিন থাকবে না।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:৫৬

রাজীব নুর বলেছেন: ওকে। আশ্বস্ত হলাম।

৪| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:৫০

কামরুননাহার কলি বলেছেন: ইমাম মাহাদী এর কথা আমি বেশ কিছু দিন ধরে শুনছি। এর আগে শুনিনি। তবে ইমাম মাহাদী এর কথা কোরআনে কোথাওয় নেই এটা আমি শিয়র। কারণ কোরআনে শুধু হযরত ঈশা (আঃ) এবং ইয়াজুজ আর মাজুজ নামের দাজ্জালরা আসবে। এটাতে আমি বিশ্বাসী। কিন্তু ইমাম মাহাদীর কথায় আমি বিশ্বাসী না। যদি হাদিস অনুযায়ী আসেন তবে ভালো আর যদি না আসেন তবে তার জন্যই খারাপ যে বা যারা এই সব মিথ্যা রচনা করে জাল হাদিস লিখেছেন।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:৫৭

রাজীব নুর বলেছেন: উনি আসলেও কিছু হবে না। না আসলেও কিছু হবে না।

৫| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:০৩

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:
পৃথিবী আরো বিলিয়ন বছর বাচবে।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:২৮

রাজীব নুর বলেছেন: মাশাল্লাহ।
আচ্ছা, তাহলে মানুষও কি বিলিয়ন বছর টিকে থাকবে।

৬| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:৩৪

খোলা মনের কথা বলেছেন: ইমাম মাহদী আসবেন এটি সহী হাদিস দ্বারা প্রামানিত। কেয়ামতের বড় বড় আলামতের প্রথম আলামত ইমাম মাহদী প্রকাশ পাওয়া তারপর দাজ্জালের আত্নপ্রকাশ, ঈসা আ:, ইয়াজুজ মাজুজ, দাব্বাতুল আরদ প্রকাশ।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৪:৪৩

রাজীব নুর বলেছেন: আসুক। আমার জীবদ্দশায় এলে ভালো হবে। তার সাথে দেখা করার ইচ্ছা আছে।

৭| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:৩৭

প্রকৌশলী মোঃ সাদ্দাম হোসেন বলেছেন: সমস্যা এক জায়গায়, ঢোল বাজায় অন্য জায়গায়। এই কথাটা বেশ লাগছে!

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৪:৪৪

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

৮| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:৫২

নূর মোহাম্মদ নূরু বলেছেন:
শিরোনামে প্রশ্নবোধক চিহ্ন ? কেন ?
আপনি কি সন্ধিহান ?
নীচের ৫টি হাদীসে উল্লেখ আছে যে, যে বছর রমজানে সূর্যগ্রহণ এবং চন্দ্রগ্রহণ হবে, সেই বছরই ইমাম মাহ্দীর আর্বিভাব হবে। হাদীসে এটাও উল্লেখ আছে যে, মহাবিশ্বের শুরু হতে শেষ পর্যন্ত এরকম চন্দ্র ও সূর্য গ্রহণের ঘটনা মাত্র একটি বছরেই ঘটবে। হাদীসগুলো এইঃ
(১) ‘আল বুরহান ফি আলামাতিল মাহদি’ গ্রন্থের ৩৮ পৃষ্ঠায় আল্লামা মুত্তাকি (রঃ) একটি হাদিস উদ্ধৃত করেছেন, রাসূলুল্লাহ্ (সাঃ) বলেছেন, “যে বছর রমজান মাসের প্রথম দিকে সূর্যগ্রহণএবং রমজান মাসের শেষের দিকে চন্দ্রগ্রহণের ঘটনা ঘটবে, সেই বছরই ইমাম মাহদীর আবির্ভাব হবে।”
(২) ‘আল কাওলুল মুখতাছার’ গ্রন্থের ৫৩ পৃষ্ঠায় একটি হাদীস উল্লেখ রয়েছে, রাসূলুল্লাহ্ (সাঃ) বলেছেন, “যে বছর রমজান মাসে দুটি গ্রহণের ঘটনা অনুষ্ঠিত হবে, সেইবছরইইমাম মাহদীর আবির্ভাব হবে।”
(৩) ইমামুল আকবারআলী বিন ওমর আল দারাকুতনির ‘সুনানে দারাকুতনি’ গ্রন্থে একটি হাদিস সঙ্কলিত হয়েছে, মোহাম্মদ ইবনে আলী ইবনে আল হানাফিয়্যাহ (রঃ) বলেছেন, সাইয়্যেদেনা ইমাম মাহদি (আঃ)-এর আবির্ভাবের দুটি নিদর্শন রয়েছে, যা আকাশমন্ডল ও ভ‚মন্ডলসৃষ্টির পর থেকে কখনো দৃষ্টিগোচর হয়নি, নিদর্শন দুটি হলোঃ যে বছর চন্দ্রগ্রহণ ও সূর্যগ্রহণ রমজান মাসেই ঘটবে, সেই বছরই ইমাম মাহ্দীর আবির্ভাব হবে।”
(৪) ইমাম রব্বানি মুজাদ্দেদী আলফেসানী (রহঃ)-এর ‘মাকতুবাতে রাব্বানী’ (রাব্বানির প্রত্রাবলী)-র ৩৮০ নম্বর পত্রে উল্লেখ করা হয়েছে, “যে বছর রমজান মাসের প্রথমদিকে সূর্যগ্রহণ ঘটবেএবং রমজান মাসের ১৪ তারিখে চন্দ্রগ্রহণ ঘটবে, সেই বছরই ইমাম মাহদীর আবির্ভাব হবে।”
(৫) ইমাম কুরতুবী (রঃ) রচিত কিতাব ‘মুখতাছার তাজকিয়াহ্’ গ্রন্থের ৪৪০ পৃষ্ঠায় উল্লেখ করা হয়েছে যে, সাইয়্যেদেনা ইমাম মাহদী (আঃ)-এর আগমনের পূর্বে দুটি গ্রহণ রমজান মাসেই ঘটবে।
(৬) নুয়ায়েম ইবনে হাম্মাদ (রঃ) রচিত ‘কিতাবুল ফিতান’ গ্রন্থে সতর্কতামূলক বাণী উল্লেখ করা হয়েছে, রাসূলুল্লাহ্ (সাঃ) বলেছেন, “তোমরা যখন রমজান মাসে সূর্যগ্রহণ ও চন্দ্রগ্রহণের ঘটনা প্রত্যক্ষ করবে, তখন এক বছরের খাদ্য সামগ্রী সংগ্রহ করে রাখবে।”

ইমাম মাহ্দী সঠিকভাবে কবে আসবেন-এটা আল্লাহ্পাক ছাড়া কেউ বলতে পারবে না। তবে হাদিস ও নাসার তথ্য অনুযায়ী ২০২৬ সালে ইমাম মাহ্দী (আঃ)-এর আবির্ভাবের সম্ভাবনা সবচেয়ে বেশি। সমস্ত জ্ঞানের অধিকারী একমাত্র আল্লাহ্ তায়ালা।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৪:৪৪

রাজীব নুর বলেছেন: না, আমি সন্দিহান না।

৯| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৪:২৩

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: আপনার ইসলামিক পোস্ট দেখলেও ভয় লাগে। আর আপনি যেহেতু এখন অবিশ্বাসী/সংশয়বাদীদের দলে আছেন, তাহলে এ ধরনের পোস্ট দেয়ার মূল্য রইল কই?

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৪:৪৫

রাজীব নুর বলেছেন: মূল্য কিছুটা আছে রে ভাই।

১০| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৪:৫৩

শের শায়রী বলেছেন: পবিত্র কোরান আমার জন্য যথেষ্ট, অবশ্যই হাদীস অপরিহার্য কিন্তু যেভাবে জাল হাদীসে ভরে যাচ্ছে এবং গজিয়ে উঠছে কোন টা ঠিক কোন টা বেঠিক সে আমার মত স্বল্প জ্ঞানের অধিকারীর পক্ষে বোজা মুশকিল। ওদিকে নূর ভাই লিখছেন ২০২৬ সালে ইমাম মেহেদী পৃথিবীতে আশার সম্ভাবনা!!!!!!!!!!

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৩০

রাজীব নুর বলেছেন: বাংলায় কথা বলি, বাংলায় লিখি, বাংলায় চিন্তা করি, বাংলায় স্বপ্ন দেখি। আমার অস্তিত্ব জুড়ে বাংলা ভাষা, বাংলাদেশ।

১১| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:২৮

নূর আলম হিরণ বলেছেন: ফেরাউন নামে কেউ ছিলো না, ফেরাউন একটি রাজবংশের উপাধি। আহম্মদীদের মতে ইমাম মাহাদীর আগমন হয়ে গেছে এবং উনি মৃত্যুবরণও করে ফেলেছেন।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: তাহলেই ভালো।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৩১

রাজীব নুর বলেছেন: তাহলেই ভালো।

১২| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৩৫

খাঁজা বাবা বলেছেন: ইদানিং কাদিয়ানী সম্প্রদায়ের লোকজন ইমাম মাহদী এসে গেছেন বলে খুব হই চই করছে।
আমার মনে হয় না তিনি আসার সময় হয়েছে।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৫৬

রাজীব নুর বলেছেন: ৫/৬ বছরের মধ্যে এসে যাবেন।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৫৭

রাজীব নুর বলেছেন: ৫/৬ বছরের মধ্যে এসে যাবেন।

১৩| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৩৫

নিভৃতা বলেছেন: আলোকিত হোক অন্তর। দূর হয়ে যাক সব অন্ধকার। আল্লাহ আমাদের সবাইকে সঠিক পথ চিনে এগিয়ে যাওয়ার তৌফিক দান করুন।

২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৫:৫৭

রাজীব নুর বলেছেন: আমিন।

১৪| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৯

জাহিদ হাসান বলেছেন: ইমাম মাহদী আসবেন কিনা এই নিয়ে আমার কোন আগ্রহ নেই।

আমার আগ্রহ ঈসা মসীহ বা যিশু খ্রিষ্ট ফিরে আসবেন কিনা এই নিয়ে।
কারণ উনি ফিরলে খ্রিষ্টান-মুসলিম-ইহুদি এই তিন ধর্মীয় সম্প্রদায়ের মধ্যে সব সংঘাত দূর করে ভালোবাসার একটা পৃথিবী তৈরি করা সম্ভব।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: আসুক। তারা আসুক।

১৫| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৯

চাঁদগাজী বলেছেন:



কোন নিদ্দিষ্ট "অনেক বৈশিষ্ট্য" নিয়ে কোন মানুষের জন্ম নেয়ার কথা কোনভাবে ভবিষ্যত বাণী করা বেকুবী কা হবে; আগে থাকতে নাম বা পদবী পাওয়া কোন মানুষ এই সময়ে আর জন্ম নিটে পারবে না; কারণ, সভ্যতার এই যুগে, মানুষ এই ধরণের ভুল করার মতো লেভেলে নেই।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:০৯

রাজীব নুর বলেছেন: আপনার মন্তব্য আধুনিক চিন্তার ফসল।

১৬| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৪৭

চাঁদগাজী বলেছেন:


২০/২৫ দিনের ব্যবধানে ( একই লুনার মাসের ভেতরে) চন্দ্র ও সুর্য গ্রহনের ঘটনা ঘটেছে ২০০২, ২০০৯, ২০১৩ সালে ঘটেছে, এবং ২০২০ সালেও ঘটবে। আগামী ১ মিলিয়ন বছরে কতবার একই লুনার মাসের ভেতরে চন্দ্র ও সুর্য গ্রহনের ঘটনা ঘটবে সেটা "নাসা" বের করতে পারবে কেয়ে মিনিটের ভেতর।

কিন্তু নাসা বিশ্বাস করবে না যে, আগামীতে "বিশেষ নামে ও বিশেষ বৈশিষ্ঠ্য নিয়ে কোন মানুস জন্ম নেবে"।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১০

রাজীব নুর বলেছেন: আমারও তাই ধারনা।
ধর্ম বিশ্বাসীরা নানান রকম কুসংস্কারে বিশ্বাসী।

১৭| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫০

চাঁদগাজী বলেছেন:



ব্লগারদের জ্ঞান-পরিমাপক ধরণের পোষ্ট, ভালো

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১১

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।
শুকরিয়া।

১৮| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৪৭

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
আল্লাহ সুবহানাতায়ালা আপনাকে হেদায়েত দান করুন।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১১

রাজীব নুর বলেছেন: আমিন।

১৯| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ৮:৫৪

মোহাম্মদ সাজ্জাদ হোসেন বলেছেন:
ইমাম মেহেদী সাহেবের খুব দ্রুতই আসা দরকার।
তবে তিনি কোন দেশে আসবেন সেটাও একটা ব্যাপার । বাংলাদেশে আসলে সব চেয়ে ভালো হতো । যদিও তিনি বাংলাদেশে আসবেন না বলে শুনেছি।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১২

রাজীব নুর বলেছেন: না। উনি মধ্যপ্রাচ্যের কোনো দেশে আসবেন।

২০| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:০১

নজসু বলেছেন:


তবে কি তোমরা কুর্‌আনের কিছু অংশ মানবে, আর কিছু অংশ মানবে না? যদি এমনটি কর, তাহলে দুনিয়াতেই তোমাদের উপর নেমে আসবে লাঞ্চনা ও আখিরাতে রয়েছে কঠোর আযাব। (সুরা বাকারা, আয়াত :৮৫)

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১২

রাজীব নুর বলেছেন: সূরা বাকারা বড় অদ্ভুত সূরা।
আমার ভীষন প্রিয় সূরা।

২১| ২৭ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ১০:৩৫

একজন অশিক্ষিত মানুষ বলেছেন: আমাদের সময় এলেই ভালো হবে,কতযে পাপ করতেছি আল্লাহু এক মাত্র জানেন ! যদি তার উছিলায় নষ্টের দিকে এগিয়ে যাওয়া
পৃথিবীর মানুষগুলো কিছুটা সবল হয় ।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: তারা এসেও কিছু করতে পারবে না।

২২| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ রাত ২:০৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


বিশ্বের উন্নত জাতিগুলোর সাথে সৌদীর তুলনা করেন, আপনার মনে হচ্ছেকি আগামী ১০০ বছরে মদীনা থেকে কেহ কোন বিষয়ে নেতৃত্ব দিতে পারবে?

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: না পারবে না।

২৩| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৭:৪৭

স্বামী বিশুদ্ধানন্দ বলেছেন: আব্রাহামিক ধর্মগুলোর মতে মানুষের মুক্তিদাতা হিসাবে একজন মেসায়া ভবিষ্যতে অবিভূত হবেন | যদিও ইহুদি ধর্ম জেসাসকে (ঈশা আ: ) সেই মেসায়া হিসাবে মানেন না, কিন্তু তাদের ধর্মেও একজন মেসায়া ভবিষ্যতে আসবেন | খ্রিস্ট ধর্মমতে জেসাস আরো একবার আসবেন মেসায়া হিসাবে (সেকেন্ড এডভেন্ট ভবিষ্যৎবাণী ) | আর ইসলাম ধর্মমতে তিনি যে আসবেন তা পোস্টে আপনি ইতোমধ্যে উল্লেখ করেছেন |

মানুষের নৈতিক স্খলন এবং পাপাচার চরম বৃদ্ধি পেলে অবশ্যই একজন ত্রাণকর্তা বা মুক্তিদাতার নেতৃত্বের প্রয়োজন রয়েছে | ইতিহাস তাই বলে |

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১৫

রাজীব নুর বলেছেন: আসুক। আসা দরকার।
পৃথিবীটাকে তো বাঁচাতে হবে।

২৪| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৭:৪৯

ইসিয়াক বলেছেন: পড়লাম।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ৯:১৫

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

২৫| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ সকাল ১০:৩২

অক্পটে বলেছেন: কুসংস্কারই ধর্মের প্রধান উপজিব্য। কুসংস্কার ছাড়া কোন ধর্ম নেই। এই পৃথিবীতে অতি সাধারণ মানুষের সংখ্যাই বেশি। এই জন্যই ধর্ম প্রতিষ্ঠা করা সম্ভব হয়েছে। সাধরণ মানুষ কুসংস্কার পছন্দ করে। নিউটন ডারউইন ও সেনেকার সংখ্যা খুবই কম এরা হাজার বছরে একজন জন্মায় এরা জ্ঞানী ধর্মের ছলনা এরা বুঝেন।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ১:৫৫

রাজীব নুর বলেছেন: চমতকার বলেছেন।

২৬| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:০৪

এভো বলেছেন: ভাই যদি দয়া করে নীচের লিংকটা যদি পড়ে আসেন, তাহোলে অনেক কিছু পরিষ্কার হয়ে যাবে , ধন্যবাদ

ইমাম মেহেদী- একটি ষড়যন্ত্র এবং পৌরাণিক কাহিনী

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:৪৭

রাজীব নুর বলেছেন: ইয়েস। রাইট।

২৭| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:০৭

এভো বলেছেন: ২৬ নং কমেন্টের আগে এই লিংকটা পড়ুন, ধন্যবাদ

দাজ্জাল ঈমাম মেহিদী এবং হযরত ঈসা (আঃ)- প্রচলিত বিশ্বাস VS কোরআন কি বলে?

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:৪৯

রাজীব নুর বলেছেন: অবশ্যই।

২৮| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ দুপুর ২:৫৯

নীল আকাশ বলেছেন: ইমাম মাহাদীর ব্যাপার কিন্তু পবিত্র বুখারী শরীফ এবং পবিত্র মুসলিম শরীফের কোথায় উল্লেখ নেই।
মাহাদী নাম শিয়ারা ব্যবহার করে। এরা বিশ্বাস করে এদের ১২ নাম্বার ইমাম মাহাদী হবেন এবং সাত আসমান থেকে নীচে মাটিতে নেমে আসবেন।
এর বেশি আমি কিছুই বলবো না।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:১৬

রাজীব নুর বলেছেন: এগুলো সব বানোয়াট।

২৯| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:০০

নীল আকাশ বলেছেন: উপরে ভুল লিখেছি। সাত আসমান না, হবে মেঘের আড়াল থেকে।

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:১৭

রাজীব নুর বলেছেন: এগুলো রুপকথা। বোকা মানুষেরা বিশ্বাস করে এসব কুসংস্কার।

৩০| ২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:১৬

অতি চালাক বলেছেন: ভাই যার কোন ধর্ম বিশ্বাস নেই সে খামাখা অন্যের ধর্ম নিয়ে কথা বলার কি আছে। ধর্মীয় বক্তব্যগুলো ধর্ম বিশ্বাসীদের জন্যে । যারা অবিশ্বাসী তারা তাদের অবিশ্বাস নিয়ে ভাল থাক। চুলকানীর তো দরকার নেই। বিশ্বাস না হলে বিশ্বাস করার দরকার নেই। কাউকে তো আর জোর করা হচ্ছে না। নাস্তিকদের তো একটাই চুলকানী তারা অন্যান্য ধর্মের চাইতে ইসলাম ধর্ম নিয়ে বেশী মাতা মাতি করবে। আজব!!

২৮ শে জানুয়ারি, ২০২০ বিকাল ৩:১৮

রাজীব নুর বলেছেন: লোকজ ভুলের মধ্যে থাকবে কেন? তাদের চোখ কান খুলে দিতে সহযোগিতা করতে চাই।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.