নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

And miles to go before I sleep...।

আমি সাজিদ

প্রিয় মানুষদের সাথে চা ছাড়া ঘন্টার পর ঘন্টা কাটিয়ে দিতে পারি।

আমি সাজিদ › বিস্তারিত পোস্টঃ

সিনেমার গল্প - প্রিয় সিনেমার প্রিয় দৃশ্য

৩১ শে আগস্ট, ২০২০ বিকাল ৩:১০


প্রিয় কিছু সিনেমার বিশেষ কিছু অংশ মাঝে মাঝে দেখা হয়। এইসব দৃশ্য অনেকসময় ফুয়েল বা টনিক হিসেবেও কাজ করে। আজ এমন কিছু দৃশ্যাবলী ইউটিউবের সৌজন্যে ব্লগে শেয়ার করতে চাই। বলে রাখা উচিত, সামহোয়্যারের অনেক ব্লগারের পোস্ট আমাকে সিনেমা সম্পর্কে শিখিয়েছে, এই মুহূর্তে মনে পড়ছে - দারাশিকো ভাই, নাফিজ ইফতেখার ভাই, কবি ও কাব্য ( বাংলা মিউজিক ইন্ডাস্ট্রি সম্পর্কে উনার প্রতিটা পোস্ট মাস্টারপিস) সহ অনেককে।


দীপু নম্বর টু , তারিক-দীপু ও বন্ধুদের রাতের আঁধারের সেই আইকনিক অভিযান। এই সিনেমার আরও অনেক দৃশ্য প্রিয়।


জয় বাবা ফেলুনাথ সিনেমায় মছলীবাবার আসল কীর্তি যখন ফেলুদা দেখে ফেলে !


সোনার কেল্লায় জটায়ুর ইন্ট্রো, সন্তোষ দত্ত ছাড়া আর কাউকে জটায়ু হিসেবে ভালো লাগে না, সৌমিত্র ছাড়া ফেলুদা কল্পনাই করা যায় না। আমার পারসোনালি সব্যসাচীকে ভালো লাগে নাই, কিন্তু ছোটবেলায় ফেলুদাকে চেনা শুরুই টিভিতে সব্যসাচীকে দেখে, গল্পগুলো তখনও পড়ি নি।


এম্পায়ার অব দ্যা সানের এই দৃশ্যটি, ক্রিশ্চিয়ান বেলের ছেলেবেলা! চমৎকার। এই সিনেমার অনেকগুলো দৃশ্য প্রিয়। বিশেষ করে ইন্ট্রো তো অসাধারণ !


গডফাদার ২ সিনেমায় মাইকেল কর্লিওনির বিখ্যাত সিসিলির দৃশ্য। রাস্তায় হাঁটার সময় এপোল্লনিকে প্রথম দেখা এবং মাইকেলের প্রেমে পড়ার দৃশ্য। ব্যাকগ্র্যাউন্ডে নিনো রোটার বিখ্যাত থিম মিউজিক!


রেইন ম্যান সিনেমায় টম ক্রুজ আর ডাস্টিন হফম্যানের এই যুগলবন্দি। পুরো সিনেমাটাই প্রিয়।


ক্যাচ মি ইফ ইউ ক্যানের এই দৃশ্যটি। এই সিনেমার টম হ্যাংকস আর ক্যাপ্রিও এর এই মুহূর্তগুলোও প্রিয় সিনেমাটি আপনাদের কেমন লেগেছে?


ব্লাড ডায়মন্ড সিনেমার এই দৃশ্যটি। আহ ক্যাপ্রিও !


ব্যাক টু দ্যা ফিউচার ট্রিলোজির সিনেমার এই দৃশ্যটি আইকনিক।


বিফোর সানসেট সিনেমার এই দৃশ্য। বিফোর ট্রিলোজি দেখেছেন ?


দ্যা পিয়ানিস্ট সিনেমার এই দৃশ্যটি আমার বেশ প্রিয়।

এই পছন্দের দৃশ্যগুলো সেসব পছন্দের সিনেমার যেগুলোর যুতসই ক্লিপ ইউটিউবে পাওয়া গেছে। এর বাইরেও অনেক সিনেমার পছন্দের দৃশ্য আছে। যেমন আপনাদের কাছে অজ্ঞাতনামা সিনেমায় ফজলুর রহমান বাবুকে কেমন লেগেছে ? বিশেষ করে নদী পারাপারের দৃশ্যটি ?
শেষ করবো আরও দুটি দৃশ্য জুড়ে দিয়ে। সহব্লগারদের পছন্দের সিনেমার দৃশ্য নিয়েও জানতে চাই।


ওয়ান্স আপন আ টাইম ইন আমেরিকার এই দৃশ্যটি যতবার দেখি মন ভরে না !


দেয়ার উইল বি ব্লাড আর ড্যানিয়েল ডে লুইস !

জানতে চাওয়া- আপনার পছন্দের বাংলা সিনেমা কোনটি ?

হ্যাপি ব্লগিং !

মন্তব্য ৫৩ টি রেটিং +১০/-০

মন্তব্য (৫৩) মন্তব্য লিখুন

১| ৩১ শে আগস্ট, ২০২০ বিকাল ৪:৩৫

মিরোরডডল বলেছেন:



‘The Notebook’ মুভির প্রিয় মোমেন্ট ।







৩১ শে আগস্ট, ২০২০ বিকাল ৪:৫৩

আমি সাজিদ বলেছেন: দ্যা নোটবুক। সিনেমাটা বেশ। এই সিনটা অসাধারণ। আরেকবার দেখতে মন চাচ্ছে। আপনার প্রিয় সিন শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ ব্লগার।

২| ৩১ শে আগস্ট, ২০২০ বিকাল ৪:৪০

সোনাবীজ; অথবা ধুলোবালিছাই বলেছেন: ভালো একটা বিষয় নিয়ে পোস্ট দিয়েছেন। প্রিয় ক্লিপ তো আছেই প্রচুর, কিন্তু আমার প্রিয় বিষয় হলো ফিল্ম মেকিং, সিজিআই, স্পেশিয়াল ইফেক্সটস, ইত্যাদি। আরেকটা প্রিয় বিষয় হলো মিসটেক্স ইন দ্য ফিল্মস। এগুলোতে আনন্দ ও মজা পাই।


অনেক ছবির দৃশ্যগুলো চোখে ভাসছে, কিন্তু ছবির নাম ভুলে গেছি। এগুলো বিশেষত সিজিআই ক্রিয়েটেড মুভি, যেগুলোর ভিজুয়ালস আমাকে অনেক আকৃষ্ট করেছে। ২০১২ তার মধ্যে একটা, যার সিজিআই করেছেন একজন বাংলাদেশী। ম্যান ইন ব্ল্যাক, আভেঞ্জারস, থর, এবং আরেকটা খুব জনপ্রিয় মুভি এবং ফার্স্ট ফেমাস ভিজুয়াল ইফেক্টের মুভি - এগুলোর অনেক সিকোয়েল, এবং জেমস বন্ড ও ইন্ডিয়ানা জোনসের অনেক দৃশ্য আমার প্রিয়।

৩১ শে আগস্ট, ২০২০ বিকাল ৫:৪৯

আমি সাজিদ বলেছেন: মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ ব্লগার।

কিছু সিনেমা গল্পের জন্য ভালো লেগে যায়, কিছু সিনেমা মেকিং এর কল্যানে আর কিছু সিনেমায় চরিত্রের অভিনয় দেখে। যদিও আমার মেকিং এর উপরে টেকনিক্যাল বিদ্যা কম। তবে সামান্য কিছুটা পার্থক্য বুঝতে পারি। যেমন কিছুদিন আগে দুইটা হিন্দী সিনেমা দেখলাম। একটা ঋতুপর্ণ ঘোষের দ্যা রেইনকোট আরেকটা মনোজ বাজপেয়ীর কন?। শুধুমাত্র অভিনয়ের জন্যই বেশ লেগেছে।

নোলান যেভাবে গল্প বলেন সিনেমায় আমি তার ভক্ত৷ কুবরিকের কিছু সিনেমা দেখতে ভালো লাগে। স্পিলবার্গ দেখে দেখেই তো বড় হয়েছে আমাদের জেনারেশন। স্করসেসের বিরাট ভক্ত আমি, দ্যা এভিয়েটর এখনও চোখে ভাসে, স্করসেসে আর ক্যাপ্রিও এর আরেকটা মাস্টারক্লাস। আরেকজনের কথা বলতে চাই - আকিরা কুরোসাওয়া। এই ব্লগ থেকেই তার সিনেমা সমন্ধে জানা। এরপর রাশোমন, সেভেন সামুরাই, রান দেখে মুগ্ধতা বাড়ে। রান মুভিটা আমাকে অন্য জগতে নিয়ে গেছিলো।

আমাদের দেশের চাষী নজরুল ইসলাম, খান আতাউর রহমান, এই সময়ের তৌকীর আহমেদ এনাদের সিনেমা বেশ লাগে। সাউথ ইন্ডিয়ান মালায়ালাম কিছু সিনেমা বেশ লেগেছে ওদের গল্প বলার ভঙ্গীর কারনে।

২০১২ দেখেছি। চমৎকার। ২০১২ এর সিজিআই যে একজন বাংলাদেশী করেছেন জানতাম না। হিমালয়ের সমান উচ্চতায় পানি উঠে গেছে আর একজন মংক বিরাট ঘন্টা বাজিয়ে চোখ বন্ধ করে ফেললেন এই দৃশ্যটা চোখে ভাসছে এখন। জেমস বন্ড সিরিজের কিছু কিছু সিনেমা বেশ লেগেছে। তবে জেসন বর্ন ট্রিলোজি বেশী ভালো লেগেছে। ইন্ডিয়ানা জোনস বেশ। আমার কেন যেন সিজিআই বা স্পেশাল ইফেক্টে খুব একটা মন টানে না।


আপনার প্রিয় বাংলা সিনেমা নিয়ে জানতে চাই ব্লগার।

৩| ৩১ শে আগস্ট, ২০২০ বিকাল ৫:০৭

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
বাংলা, ইংরেজী ও হিন্দি হলে আরও জমত। বাংলা সিনেমার অংশ আর কই ??

৩১ শে আগস্ট, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০০

আমি সাজিদ বলেছেন: বাংলা পছন্দের হচ্ছে - দীপু নম্বর টু, ওরে এগারো জন, মেঘের অনেক রঙ, ফেলুদা সিরিজের সব সিনেমা, হীরক রাজার দেশে, হারানো সুর, নায়ক সহ আরও কিছু এখন নাম মনে পড়ছে না।

হিন্দী প্রিয় সিনেমা বেশ কম। ম্যাক্সিমাম হিন্দী সিনেমা ওয়ানটাইম ওয়াচেবল মনে হয়। কোন কোন হিন্দী সিনেমা আপনি আবারও দেখতে চান? অমিতাভ আর টাবুর চিনি কম সিনেমাটা দেখেছিলেন? বাংলা সিনেমা নিয়েও পোস্ট দিতে হলে আরও বড় করে পোস্ট দিতে হয়। যদিও পছন্দের বাংলা সিনেমার সংখ্যাও অতোটা বেশী নয়।

৪| ৩১ শে আগস্ট, ২০২০ বিকাল ৫:১১

ইসিয়াক বলেছেন:


পোস্টে ভালো লাগা।
বাংলাদেশে আমার পছন্দের বাংলা ছবিঃ
১।জীবন থেকে নেওয়া।
২। গোলাপী এখন ট্রেনে।
৩।মেঘের অনেক রঙ।
ভারতের সবচেয়ে পছন্দের বাংলা ছবিঃ
১।দীপ জ্বেলে যাই।
২।মেঘে ঢাকা তারা।

৩১ শে আগস্ট, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৪

আমি সাজিদ বলেছেন: ধন্যবাদ ব্লগার।
মেঘের অনেক রঙ সিনেমাটা বেশ পছন্দের। মেঘে ঢাকা তারা দেখা হয় নি তো। দেখা দরকার।

৫| ৩১ শে আগস্ট, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২১

মোঃমোস্তাফিজুর রহমান তমাল বলেছেন: intersteller এর এই দৃশ্যটা খুবই প্রিয় আমার।বিশেষ করে আবহ সঙ্গীত (এটাই বেশি প্রিয় আসলে)

view this link

৩১ শে আগস্ট, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৫০

আমি সাজিদ বলেছেন: এই সিনেমা প্রথম বার দেখে বুঝতে পারি নাই৷ দুইবার দেখতে হইসে। আজ আপনার কল্যানে আবার দেখলাম সিনটা। ব্যাকগ্রাউন্ড বেশ। ধন্যবাদ ব্লগার প্রিয় সিন শেয়ার করার জন্য।

৬| ৩১ শে আগস্ট, ২০২০ রাত ৮:১৮

দারাশিকো বলেছেন: কি যন্ত্রণা বলুন তো! জয় বাবা ফেলুনাথের ক্লিপটা দেখতে শুরু করেছিলাম। এখন পুরো সিনেমাটাই দেখতে হবে বলে মনে হচ্ছে!

কালেকশনটা খুবই চমৎকার হয়েছে।

৩১ শে আগস্ট, ২০২০ রাত ৯:১১

আমি সাজিদ বলেছেন: আমার ব্লগে বোধহয় এটাই আপনার প্রথম কমেন্ট। কালেকশন আপনার পছন্দ হয়েছে জেনে ভালো লাগছে। ক্যাপ্টেন স্পার্কের সাথে গঙ্গার ধারে ঘুরে মগনলাল মেঘরাজের চাকু খেলা দেখে আসতে পারেন। যাত্রা শুভ হোক।

৭| ৩১ শে আগস্ট, ২০২০ রাত ৯:০৫

নেওয়াজ আলি বলেছেন: চমৎকার সব ক্লিপ । বাংলা দেওয়ার ছিল কারণ বাংলায়ও ভালো ছবি হয়ছে এবং হবে

৩১ শে আগস্ট, ২০২০ রাত ৯:১৮

আমি সাজিদ বলেছেন: নেওয়াজ ভাই মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ। বাংলা ভাষা তো মায়ের ভাষা, আমার কাছে বাংলা ভাষার সিনেমাই সর্বশ্রেষ্ঠ। বাংলা নিয়ে একদিন এমন পোস্ট দেওয়ার চেষ্টা করবো।সমস্যা হচ্ছে আমি তো ইউটিউবের ভিডিও লিংক দিয়েছি, সেখানে আমার পছন্দের বাংলা সিনেমাগুলোর ক্লিপস খুব কম, আর থাকলেও রেজুলেশন খারাপ। আপনার প্রিয় একটা সিনেমার পছন্দের দৃশ্য শেয়ার করলে ভাল লাগবে।

৮| ৩১ শে আগস্ট, ২০২০ রাত ১১:৫২

কলাবাগান১ বলেছেন: The Last of the Mohicans মুভির থিম সং যতবার শুনি ততবার ই 'শিহরিত' হই
আর ঐ ছবির লোকেশন, সুইসাইড দৃশ্য অনেকের মতে বেস্ট ইন মুভি হিস্টোরী...। লোকেশন টার পাহাড়ে তে অনেক বার ভিজিট করেছি
Theme song

Best scene in the movie

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৪৬

আমি সাজিদ বলেছেন: ধন্যবাদ কলাবাগান১ ভাই, বেশ আগে সিনেমাটা দেখেছিলাম, থিম সং টা শুনে আরেকবার দেখার ইচ্ছে হচ্ছে। লোকেশনটাও চমৎকার।

আপনার জন্য আমার সবসময়ের প্রিয় থিম

৯| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১:২৬

ওমেরা বলেছেন: মুভি দেখি না এমন না তবে খুবই কম , তবে বাংলা কোন মুভি পুরোটা মনে হয় না দেখেছি ।
আপনার কথা শুনে একটা বাংলা মুভি দেখার ইচ্ছা হচ্ছে।

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১২:৫৫

আমি সাজিদ বলেছেন: আমি করি কি বন্ধু বান্ধব বা বিভিন্ন ব্লগ থেকে রিভিউ নিয়ে নেই আগে, এরপর রিভিউ ভালো হলে মুভিটা দেখি। সময় বড়ই দামী। এভাবে দেখলে সময়ও নষ্ট হয় না।

কোন বাংলা সিনেমা দেখলেন এরপর ?

১০| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ২:০৫

কল্পদ্রুম বলেছেন: আপনি মুভি দেখতে ভালোবাসেন।আপনার সাথে আমার মিল আছে এই দিক থেকে।উপরের মুভিগুলো আমারও পছন্দের।শুধু এম্পায়ার অব দা সান বাদে।ওটা দেখিনি।কিছু মুভির পছন্দের দৃশ্য আমার ক্ষেত্রে ভিন্ন হতে পারে।বাংলা চলচ্চিত্রের মেইনস্ট্রিম বাণিজ্যিক ধারায় "জ্বীনের বাদশাহ", "ভন্ড","পালাবি কোথায়" এবং অবশ্যই "নাম্বার ওয়ান শাকিব খান" দেখে নির্মল আনন্দ পেয়েছিলাম। :)

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:৫৮

আমি সাজিদ বলেছেন: মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ কল্পদ্রুম ভাই। আপনিও ভালো সিনেমার ফ্যান জেনে ভালো লাগলো। সময় পেলে আমি অনুরোধ করবো এম্পায়ার অব দ্যা সান দেখে ফেলতে পারেন। বেশ চমৎকার সিনেমা।

পালাবি কোথায় দেখেছি, জ্বিনের বাদশাহ দেখা হয়নি।

১১| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৩:৪৯

অনল চৌধুরী বলেছেন: আমার সবচেয়ে প্রিয় ছবি ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে স্কটল্যান্ডের স্বাধীনতা সংগ্রামের কাহিনী নিয়ে বানানো ব্রেভহার্ট।
প্রিয় দৃশ্য অনেক, তার মধ্যে প্রধান ২ টা হচ্ছে- অস্ত্রসজ্জিত বিশাল ইংরেজ সৈন্যদলকে দেখে যুদ্ধক্ষেত্র থেকে পালাতে চাওয়া স্কটদের লড়াইয়ে উজ্জীবিত করার জন্য উইলিয়াম ওয়ালাসের ভাষণ- যেগুলি নেয়া হয়েছে পানিপথের প্রথম যুদ্ধে ইব্রাহিম লোদীর বিশাল আফগান সৈন্যবাহিনী দেখে ভীত মোগল সৈন্যদের অনুপ্রাণিত করার জন্য বাবরের দেয়া ভাষণ থেকে- যা বাবর তার নিজের লেখাা বাবরনামায় উল্লেখ করেছেন।Braveheart: Freedom Speech
দ্বিতীয় প্রিয় দৃশ্য একই ছবিতে উইলিয়াম ওয়ালাসকে বিশ্বfসঘাতকতার মাধ্যমে বন্দী ও হত্যা করতে সাহায্য করার পর ( যদিও ঘটনাগুলি ঐতিহাসিকভাবে প্রমাণিত না) ইংল্যান্ডের অধীনতা স্বীকারের পরিবর্তে স্কটল্যান্ডকে স্বাধীন করার জন্য ইংরেজদের বিরুদ্ধে লড়াই করার জন্য স্কটদের প্রতি রবার্ট ব্রুসের আহবান ......... You Have Bled With Wallace, now bled with me ..............

এর সাথে আমি মুক্তিযুদ্ধে নিহত লাখ লাখ প্রাণদানকারীদের বাণীর সাদৃশ্য পাই, যারা আমাদের বলছেন, আমার তোমাদের জন্য নিজের প্রাণের বিনিময়ে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছি। তোমরা দেশটাকে উন্নত করো, সভ্য করো....

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:০০

আমি সাজিদ বলেছেন: ধন্যবাদ মন্তব্যের জন্য। ব্রেভহার্ট দেখেছি। ওয়ালাসের ভাষণ যে প্রথম পানিপথের যুদ্ধে বাবরের ভাষণ থেকে নেওয়া তা জানতাম না। আপনার প্রিয় দৃশ্যগুলো দেখলাম। বেশ লাগলো।

মুক্তিযুদ্ধে শহীদ হওয়া লাখ লাখ মানুষের প্রাণের বিনিময়ে পাওয়া এ দেশ ব্যর্থ হবে না, সব প্রতিবন্ধকতা পেরিয়ে উন্নত ও সফল হবে।

১২| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১০

হাসান রাজু বলেছেন: এমন বেশ কিছু ২-৫ সেকেন্ডের সিন আছে যা মনে দাগ কেটেছে। ইউটিউবে সেই অংশটুকু পাওয়া কঠিন (পাওয়া যাচ্ছে সেটাই বিশাল ব্যাপার)
যেমন Cast Away সিনেমায় এই ডায়লগটুকু খুবই স্বাভাবিক কিন্তু আমার মনটা খারাপ হয়ে গিয়েছিল।

-You look like lost.
-I do



মুভি Cast Away


মুভি Forrest gump " Is he smart or like me?" ২/৪ সেকেন্ডের সেই অংশটুকু।

মুভি Spring Summer Fall Winter And Spring

মুভি, Sholay

https://www.youtube.com/watch?v=Euy3OHQd-P4' target='_blank' >মুভি "Pather Panchali" সবার ভাল লাগে অপু-দুর্গার প্রথম রেল গাড়ি দর্শন। আমার ভাল লেগেছে এটা -
আর এটা আমার পছন্দের(!) শীর্ষে মুভি Life is Beautiful । ফুটো দিয়ে দেখতে পাওয়া অংশ টা। এই সিনেমা শেষটা ও মন খারাপ করা মুভি Life is Beautiful । শেষ কিছু মুহূর্ত যেখানে জসওয়া তার মাকে ট্যাঙ্ক জিতার গল্প শোনায়।

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:২৯

আমি সাজিদ বলেছেন: ধন্যবাদ হাসান রাজু ভাই। প্রতিটা দৃশ্যই আবার দেখলাম। প্রতিটা দৃশ্যই চমৎকার। Spring Summer Fall Winter And Spring সিনেমাটা দেখা হয়নি যদিও। টম হ্যাংকসকে আমার বেশ ভালো লাগে৷ Cast Away আর forrest gump এই দুইটা সিনেমা অবসরে আবার দেখার ইচ্ছে আছে। Life is Beautiful সিনেমার আবেদন কখনও শেষ হবে না।

আপনার জন্য আমার খুব পছন্দের একটা সাউন্ড The Lonely Shepherd

১৩| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:১৬

হাসান রাজু বলেছেন: মুভি "Pather Panchali" সবার ভাল লাগে অপু-দুর্গার প্রথম রেল গাড়ি দর্শন। আমার ভাল লেগেছে এটা -

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:৩৩

আমি সাজিদ বলেছেন: দৃশ্যটার মধ্যে কি যেন একটা আছে, সাথে ব্যাকগ্রাউন্ড মিউজিকের খেলা বেশ আবেদন সৃষ্টি করেছে।

১৪| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:৩৭

শায়মা বলেছেন: টপিক দেখে মুগ্ধ হলাম!! আসলেই তো প্রিয় সিনেমার প্রিয় প্রিয় দৃশ্য মনে গেঁথে থাকে। :)

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:০৪

আমি সাজিদ বলেছেন: থ্যাংকস আপি। প্রিয় সিনেমার প্রিয় দৃশ্য মনে গেঁথে থাকে৷ আপনার পছন্দের সিনেমা নিয়ে জানতে চাই।

১৫| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:১১

রাজীব নুর বলেছেন: পোষ্ট এবং মন্তব্য পড়ে ভালো লাগলো।

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:০৩

আমি সাজিদ বলেছেন: রাজিব ভাই আমার মনে হয় আপনি আমার চেয়েও বেশী মুভি দেখেছেন, আপনার পছন্দের মুভি নিয়ে বলেন।

১৬| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:২২

ঢুকিচেপা বলেছেন: এখানে খুব অল্প কিছু দেখেছি।
দিপু নম্বর টু ছোটদের জন্য চমৎকার একটা ছবি।
“ জানতে চাওয়া- আপনার পছন্দের বাংলা সিনেমা কোনটি ?”
মুভি দেখি কিন্তু নাম মনে থাকে না।

নতুন একটা কাজ দিয়ে যাই
ম্যাকগাইভারের পিছনে ছুটতে পারেন কিনা একটু চেষ্টা করবেন।

০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:০১

আমি সাজিদ বলেছেন: হ্যা, বাচ্চাকালের প্রিয় সিনেমা দিপু নম্বর টু৷ এখনও পছন্দের লিস্টে আছে

ম্যাকগাইভারের বিষয়টা বুঝলাম না।

১৭| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:০৭

শায়মা বলেছেন: ওকে ওকে জানাবো !:)

০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:০৩

আমি সাজিদ বলেছেন: আচ্ছা

১৮| ০১ লা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১০:২০

আখেনাটেন বলেছেন: অফলাইনের আপনার এই ছবির দৃশ্যগুলো দেখেছিলাম। যদিও অনেকগুলো আগেও দেখা। বেশ।

আমারা schindler's list এর লাইন করে দাড়ানো দৃশ্য.....ও The Shawshank Redemption এর বৃদ্ধের আত্মহত্যার দৃশ্যটা দারুন দাগ কেটে গিয়েছিল। আর বাংলা ছবি 'ভাত দে' ছবির একটি দৃশ্য।

প্রিয় বাংলা ছবি....উত্তম কুমারের নায়ক।

০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ১:০৭

আমি সাজিদ বলেছেন: ধন্যবাদ আখেনাটেন। দুটো সিনেমাই মনে দাগ কেটে যাওয়ার মতো। আপাতত কয়েকদিন কাজ নেই। এই সুযোগে গতকাল দেখে ফেললাম ক্র্যামার ভার্সেস ক্র্যামার, অবশ্য আগেও দেখেছি৷

নায়ক আমারও প্রিয় সিনেমা।

২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:৫২

আমি সাজিদ বলেছেন:

আহা! মহানায়ক!

১৯| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১২:৩৫

অনল চৌধুরী বলেছেন: বাবরের যুদ্ধ ১২৯৭ সালে এই যুদ্ধেরও ১২৯ বছর পরে হয়েছিলো। চিত্রনাট্যের প্রয়োজনে সেখান থেকে নেয়া হয়েছে, কারণ বাবর যেমন সাহসী, তেমনই সাংঘাতিক ধূর্ত লোক ছিলেন ।
সেটা না হলে মাত্র ১২ হাজার সৈন্য নিয়ে ১ লাখের বেশী আফগানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করে মোগল সাম্রাজ্য স্হাপন করতে পারতেন না।
মদখোর হলেও সেই যুদ্ধে মদের পাত্র ভেঙ্গে সৈন্যদের কাছে জীবনে আর কোনোদিন মদ না খাওয়ার প্রতিজ্ঞা করেছিলেন।

০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:১৬

আমি সাজিদ বলেছেন: বেশ নতুন কিছু জানলাম। ধন্যবাদ। সেবা প্রকাশনী আর কাজীদা নিয়ে আপনার আগের রাগ কি এখনও আছে?

২০| ০২ রা সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৫:৪৮

অনল চৌধুরী বলেছেন: একজন মেধাবী এবং বিচক্ষণ ব্যাক্তি হিসেবে আপনি জানেন, পৃথিবীর কোনো ব্যাক্তি, দল, বা মতবাদের প্রতি আমি ক্ষুদ্ধ না যদি না কেউ আইন বা মানবতাবিরোধী কোনো অপরাধ করে।
অপরাধীকে শাস্তি না দিলে দেশ এবং পৃথিবী মানুষের বসবাসের অযোগ্য হয়ে উঠবে।সেজন্য সবসময় অপরাধীদের বিরুদ্ধে লড়াই করি ।
সেবা প্রকাশনীর প্রতি আমার অকারণ কোনো ক্রোধ নাই।
কিন্ত তারা যেসব প্রমাণিত অন্যায় করেছে, সেগুলির বিরুদ্ধে সবারই প্রতিবাদী হওয়া উচিত।
সেটা না করলে সবাই এসব করতে উৎসাহী হবে।

০৩ রা সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৮:০৪

আমি সাজিদ বলেছেন: আচ্ছা। আপনার অবস্থান আরেকবার জানানোর জন্য ধন্যবাদ।

২১| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ বিকাল ৩:০৩

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: সুন্দর পোস্ট। এক এক করে দেখতে হবে

২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:৪৫

আমি সাজিদ বলেছেন: আচ্ছা আপি

২২| ১৫ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:০৩

মিরোরডডল বলেছেন:



ভুতের পোষ্টে কমেন্ট করেছিলাম বেশ কদিন আগে ।
ওটা দেখতে এসে দেখলাম সাজিদ তার লাস্ট তিন/চারটা পোষ্ট ড্রাফ্‌ট করে ফেলেছে ।
কি হয়েছে সাজিদ , আর ইউ ওকে ?
এতোগুলো পোষ্ট ড্রাফ্‌ট হয়ে গেলো :(



২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:৪৬

আমি সাজিদ বলেছেন: আমি ঠিক আছি। এমনেই ড্রাফটে নিয়েছি।

২৩| ২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:১২

রাজীব নুর বলেছেন: এই যে বইয়ের তালিকা

২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:৪৭

আমি সাজিদ বলেছেন: ধন্যবাদ।

২৪| ২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:১৪

রাজীব নুর বলেছেন: মুভি নিয়েও আমি একটা তালিকা করেছি।

২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:৪৭

আমি সাজিদ বলেছেন: ধন্যবাদ।

২৫| ২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:১৫

রাজীব নুর বলেছেন: এই এ সেরা মুভির নাম

২১ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১১:৪৮

আমি সাজিদ বলেছেন: মুভির পোস্টগুলো দেখে আসছি

২৬| ২৭ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ সকাল ১১:৪৪

জাহিদ হাসান বলেছেন: সত্যজিৎ রায়ের ‘ আগন্তুক’ ও ‘সোনার কেল্লা’ আমার দেখা শ্রেষ্ঠ বাংলা সিনেমা।

এছাড়া জহির রায়হানের উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত ‘ হাজার বছর ধরে’ সিনেমাও সেরাদের তালিকায় ফেলবো।

২৯ শে সেপ্টেম্বর, ২০২০ দুপুর ২:১০

আমি সাজিদ বলেছেন: আগন্তুক দেখেই বুঝি বিশ্বভ্রমনের নেশা চাপলো? আরিব্বাস!

দুটোই আমার প্রিয় সিনেমা। মন্তব্যের জন্য ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.