নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

তুমি কেমন করে গান করো হে গুনী, আমি অবাক হয়ে শুনি, কেবল শুনি ।।

ঠাকুরমাহমুদ

sometimes blue sometimes white sometimes black even red, even golden ! yes dear - its me - i am sky ! color your life, than your life will be colorful

ঠাকুরমাহমুদ › বিস্তারিত পোস্টঃ

জেমস বন্ড বাংলাদেশেও জন্মেছিলেন

১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৪৬



জিয়াউর রহমান ও হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদের মতো লোৗহমানব প্রেসিডেন্টের পার্সোনালিটি যারা দেখেছেন তারা বলতে পারেন একজন প্রেসিডেন্ট আসলে কেমন হওয়া উচিত, প্রেসিডেন্টের চলাফেরা, কথা বলা, উঠা বসা, এমন কি তাদের হাসি কান্না, বা শুধু তাকিয়ে থাকা! তারা কি করেছেন না করেছেন তা বিশালাকার ইতিহাস - ইতিহাস বিকৃত হয়। তবে তাদের পার্সোনালিটির সাথে হলিউডের মুভির বিখ্যাত তারকা জেমস বন্ডের মিল খোঁজে পাই। সিনেমায় জেমস বন্ডকে দেখে আমরা মুগ্ধ হই, সবার সাথে গল্প করি বারংবার, ছড়িয়ে দেই সেই মুগ্ধতা সকলের মাঝে। বাস্তবে বাংলাদেশে দুজন জেমস বন্ড শাসন করে গেছেন তারা হচ্ছেন: -

১। লে. জেনারেল জিয়াউর রহমান
২। লে. জেনারেল হুসেইন মোহাম্মাদ এরশাদ

প্রশ্ন: - বাংলাদেশের ইতিহাসের দুই দুই জন উজ্জল নক্ষত্র নিয়ে কিছু লিখবো কি? যা লিখবো তাতে অনেকে লেখার আঘাতে আহত হতে পারেন, বলা যায় না নিহতও হতে পারেন - লেখার আঘাত কামানের গোলার আঘাতের চেয়ে কোনো অংশে কম নয় !!!


আজ আমার পক্ষ থেকে দুই বীর সেনা নায়কের সম্মানে,
দুই উজ্জল নক্ষত্রের সম্মানে এক লক্ষ সশস্ত্র পদাতিক সৈনিকের স্যালুট -

প্যারেড সা-ব-ধা-ন
প্যারেড স্যালুট







মন্তব্য ৭৩ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (৭৩) মন্তব্য লিখুন

১| ১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:২৬

চাঁদগাজী বলেছেন:


জেইমস বন্ড সিনেমার কাহিনী; জে: জিয়া ই জে: এরশাদ সিনেমার কাহিনী নয়, ইহা বাংলাদেশের ইতিহাস; এরা ৩০ লাখ মানুষের প্রাণের বিনিময়ে অর্জিত বাংলাদেশকে জে: ইয়াহিয়া খান ও ফিল্দ মার্শাল আইয়ুব খানের পাকিস্তানী সিষ্টেমে ফেরত নিয়ে গেছে; মাঝখানে, ৯ মাসের যুদ্ধ, বিজয়, ৩০ লাখ মানুষের অবদান শুন্যে পরিণত হলো; আইয়ুবের সন্তানেরা আইয়ুবের সিষ্টেম চালিয়ে গেলো, বাংগালীর স্বপ্নের স্হানে রাজাকার, জামাত ও দেশবিরোধীদের স্বপ্নের বাস্তবায়ন হলো।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:১২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আমরা মানুষকে গাছের সাথেও উদাহরণ দেই, অমুক জন একটা বটবৃক্ষ। তাদের উদাহরণ দিতে হলে জেমস বন্ড চলে আসে তাদের ইউনিফর্মড পার্সোনালিটির ধারে কাছে দাড়ানোর মতো পার্সোনালিটি বাংলাদেশে আজো দেখি না।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১:৫১

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: জেনারেল জিয়া পাকিস্তানের বিরুদ্ধে যুদ্ধ করেও ইয়াহিয়া আইয়ুব খানের অনুসারী হতে হবে কারণ কি? তিনি মিলিটারি পার্সন ছিলেন এই কারণ? এই দেশে ক্ষমতায় যেতে হলে গন্ডমুর্খ্য রাজনীতিবিদ প্রয়োজন, ইউনিফর্মড মানুষ এই দেশের মানুষের শত্রু?

২| ১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩৮

জগতারন বলেছেন:
মোনাফেকরা আজ হোক কাল বিলীন হবেই।
মোস্তাক হয়েছে, সাহা আজিজ হয়েছে, জিয়া হয়েছে।
এ হোল প্রকৃতির অভিশাব ও ইতিহাসের নিরব বিধান।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:২২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: এই দেশে যাদের অপঘাতে মৃত্যু হয়েছে আপনার চিন্তায় তারা সবাই মোনাফেক?

৩| ১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩৮

জগতারন বলেছেন:
মোনাফেকরা আজ হোক কাল বিলীন হবেই।
মোস্তাক হয়েছে, সাহা আজিজ হয়েছে, জিয়া হয়েছে।
এ হোল প্রকৃতির অভিশাব ও ইতিহাসের নিরব বিধান।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:২৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: এই দেশে যাদের অপঘাতে মৃত্যু হয়েছে আপনার চিন্তায় তারা সবাই মোনাফেক?

৪| ১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৪৩

আহমেদ জী এস বলেছেন: ঠাকুরমাহমুদ,




ব্যঙ্গ করে লিখলেও ( সম্ভবত ) লেখায় তা পরিষ্কার হয়নি। বরং উল্টোটাই মনে হবে অনেকের কাছে। আমরা তাদের দেখে জেমস বন্ডকে দেখার মতো "মুগ্ধ" হইনে, বিরক্ত হই। তারা লৌহমানবও নন, সুযোগ সুবিধা বুঝে রবারের মতো বেঁকেও গেছেন।

১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৫৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: এই দেশের মানুষ শেখ সাহেব, জিয়া, এরশাদ বিরোধী কথা বলেন - সত্যি বলেছি? এই তিন জনকে দোষ দিয়ে বাজে কথা বলেন না এমন মানুষ বিরল। - সত্যি না মিথ্যা।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ২:১৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:






আপনি এরশাদকে দেখেছেন ৯০ উত্তর খাঁচায় বন্দি এরশাদ, ৯০ এর গণঅভ্যুত্থান এরশাদের পতনের পর জেল খাটা বন্দি আর দিনের পর দিনের রাজনৈতিক রাবারের মতো টানাটানির পর এরশাদকে দেখেছেন। ইউনিফর্মড এরশাদকে দেখেন নি। রাষ্ট্রপতি এরশাদকে দেখেন নি।

৫| ১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৫০

বলেছেন: আহমেদ জী এস বলেছেন: ঠাকুরমাহমুদ,


ব্যঙ্গ করে লিখলেও ( সম্ভবত ) লেখায় তা পরিষ্কার হয়নি। বরং উল্টোটাই মনে হবে অনেকের কাছে। আমরা তাদের দেখে জেমস বন্ডকে দেখার মতো "মুগ্ধ" হইনে, বিরক্ত হই। তারা লৌহমানবও নন, সুযোগ সুবিধা বুঝে রবারের মতো বেঁকেও গেছেন।

১১ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৫৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: এই দেশের মানুষ শেখ সাহেব, জিয়া, এরশাদ বিরোধী কথা বলেন - সত্যি বলেছি? এই তিন জনকে দোষ দিয়ে বাজে কথা বলেন না এমন মানুষ বিরল। - সত্যি না মিথ্যা।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ২:১৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





আপনি এরশাদকে দেখেছেন ৯০ উত্তর খাঁচায় বন্দি এরশাদ, ৯০ এর গণঅভ্যুত্থান এরশাদের পতনের পর জেল খাটা বন্দি আর দিনের পর দিনের রাজনৈতিক রাবারের মতো টানাটানির পর এরশাদকে দেখেছেন। ইউনিফর্মড এরশাদকে দেখেন নি। রাষ্ট্রপতি এরশাদকে দেখেন নি।

৬| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:০৪

ইসিয়াক বলেছেন: হা হা হা ----অনেক দিন পর আপনাকে পেলাম ।
পোষ্ট পড়ে ধন্য হলাম ।
শুভকামনা ।
শুভরাত্রি।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:১৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: ধন্যবাদ জাতীয় কমেন্ট ছাড়া নতুন ব্লগার বা যারা জানেন না তারা পোষ্ট পড়ুন অনুগ্রহ করে নেগেটিভ পজেটিভ মন্তব্য করা থেকে বিরত থাকুন এটা একটি দ্বন্দ্ব মূলক পোষ্ট।

৭| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:০৯

আহমেদ জী এস বলেছেন: ঠাকুরমাহমুদ,



আমাকে দেয়া আপনার প্রতিমন্তব্য এই পোস্টের বিষয়বস্তুর সাথে সম্পর্কহীন, ঠিক কিনা ? :|

তবুও ধন্যবাদ প্রতিমন্তব্যের জন্যে।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:১৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আহমেদ জী এস ভাই, আমি কার্টুন ছবি গুলো ব্লগে মন্তব্য ব্যাবহার করি না। আপনি আমার মন্তব্য আরেকবার পড়ুন, বিষয়বস্তুর বাইরে আমি কথা বলি না।

৮| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:২২

গ্রিনভার্ভ বলেছেন: যাই লিখবেন কোন পক্ষ নিয়ে লিখবেন না । তাহলেই হবে

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১২:৩০

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আমি আমার ছাত্র জীবনে-কর্ম জীবনে-ব্যাবসা জীবনে মনে হয়না কারো পক্ষ নিয়ে চলেছি, আমি পক্ষ নিয়ে লিখিনা, শুধু অনুরোধ ব্লগে থাকুন দেখুন।

৯| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ২:০১

নূর আলম হিরণ বলেছেন: জেনারেল এরশাদের জন্য সংসদে নাকি শোক প্রস্তাব আনবে, সেখানে তাকে মহামান্য রাষ্ট্রপতি উল্লেখ করা আছে নাকি!

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ২:২৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: জেনারেল এরশাদ বাংলাদেশের শ্রেষ্ট প্রেসিডেন্ট তাঁকে নিয়ে সংসদে শুধু নয় সমগ্র বাংলাদেশে শোক দিবস করা উচিত। ১৯৮৮ বন্যা সম্পর্কে আপনার জানা নেই বন্যায় তিনি দুঃখি মানুষের পাশে কিভাবে দাড়িয়েছিলেন।

১০| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ২:৪১

ডঃ এম এ আলী বলেছেন: দেশের সত্যিকার ইতিহাস লিখুন ও প্রকাশ করুন । কে আহত হল আর কে নিহত হল সেটা বড় বিষয় নয় ।
দেশের মানুষ সত্যিকারের ইতিহাস জানুক সেটাই বড় কথা ।
সেই মুক্তিযুদ্ধ পুর্ব হতে শরু করে মুক্তি যুদ্ধ ও তার পরবর্তীকালে নীজের চোখে দেখা প্রত্যক্ষ অভিজ্ঞতার বিষয়াবলিসহ বিভিন্ন
বস্তুনিষ্ঠ প্রাইমারী ও সেকেনডারী তথ্য সন্নিবেশ করে কিছু ইতিহাস লেখার কাজ আমিও চালিয়ে যাচ্ছি । শুধু তথ্য ও তার ভিত্তিতে প্রাসঙ্গিক বিষয়ে বিশ্লেষন লেখাটিতে তুলে ধরব । পাঠক কোন পক্ষে যাবেন তা নীজেই বের নিতে পারবেন ।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ২:৫০

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





আমার পোষ্ট স্বার্থক কারণ একজন আমার পোষ্টের অর্থ ধরেছেন তিনি আর কেউ নন তিনি আমাদের মাঝে সবচেয়ে যোগ্যতম ব্যাক্তি ডঃ এম এ আলী ভাই। আজ আপনার সম্মানেও এক লক্ষ সশস্ত্র পদাতিক সৈনিকের স্যালুট -

প্যারেড সা-ব-ধা-ন
প্যারেড স্যালুট

১১| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৫:২১

ডার্ক ম্যান বলেছেন: জেমস বন্ডের কথা বাদ দিন। দেশে আসার প্ল্যান আছে। চাকরির ব্যবস্থা করুন

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৫:৩৬

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আপনার যোগ্যতা আপনার চাকুরীর ব্যাবস্থা করে দিবে। দেশে আসার সময় যেই দেশে আছেন সেই দেশের স্থানীয় বেষ্ট খাবার টি নিয়ে আসুন। খেতে খেতে কথা বলি।

১২| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৫:৪১

ডার্ক ম্যান বলেছেন: শেখদের এলাহী কারবার । এগুলো আমার পোষাবে না। তবে আমার বিয়ের দাওয়াত রইল

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৫:৪৭

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: শেখদের এলাহী কারবার - আপনি চারটা খবুজ আর ২ পট ফুল নিয়ে আসুন। অত্যন্ত সম্মানের সাথে বিয়ের দাওয়াত গ্রহণ করলাম।

১৩| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৫:৫৭

বলেছেন: এই দেশের মানুষ শেখ সাহেব, জিয়া, এরশাদ, বি চৌধুরী, অলি, সাইদি, হাসিনা, খালেদা,তারেক, জয়, পুতুল সহ নতুন পুরাতন সব রাজনীতিবিদদের বিরোধী কথা বলে সত্যি বলেছি? এই দোষা- দোষি ও রাজনীতিবিদের নিয়ে বাজে কথা বলেন না এমন মানুষ বিরল। - সত্যি না মিথ্যা???

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:০৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




কারণ - এই দেশের মানুষ এই দেশের না। তাই এই দেশের কাউকে তাদের মনে ধরেনা। সিজনে একটু গরমে পাগল হয়ে যান, সিজনে একটু শীতে উম্মাদ হয়ে যান, সিজনে সামান্য বৃষ্টিপাতে ছাগল হয়ে যান। এরা কোন দেশের মানুষ - এরা তো এই দেশের না। এই দেশের মানুষ হলে এই দেশের পরিস্থিতির সাথে খাপ খাইয়ে নিতেন।

১৪| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৫:৫৮

ডার্ক ম্যান বলেছেন: খবুজ তো দুই দিনের বেশি ভাল থাকে না। দেখি গাওয়া (কফির মত) আনতে পারি কিনা।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:১২

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: সংসদ ভবনের ডাইনিং টেবিল বুকিং দিতে হবে দুই চারখানা সেলফি কুলফি আলফি তুলে ব্লগে দিবো - ক্যাপশানে লিখে দিবো “এটা আমার বাসার ডাইনিং টেবিল” !!! দেশের ছেলে দেশে আসেনতো আগে।।

১৫| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:০১

বলেছেন: ইউনিফর্মড ও রাষ্ট্রপতি এরশাদকে দেখেন নি - তারচেয়ে ভালো কোন রাজনীতিক ও অর্থনৈতিক ইয়ারের কথা বলুন-- তুলনামূলক আলোচনা করুন, আমরা জনি।
কে সে দেশদরদী রাজনীতিক জানতে চাই।।।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:০৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





দেশ দরদী এরশাদ - দেশ ছেড়ে আম্বিয়ার দেশে পাড়ি দেননি। তার পরিবারের কোনো সদস্যকে তিনি মাইগ্রেশন করে আম্বিয়ার দেশে রেখে গুপ্ত ব্যাংক এ্যাকাউন্ট করেন নি। এটি থাকলে বাংলাদেশের তথাকিথিত নায়ক সাংঘাতিক সামবাদিক (সাংবাদিক) পত্রিকা অনলাইন পাইপলাইন নর্দমা করে দিতো।

১৬| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:২১

ডার্ক ম্যান বলেছেন: দেশে আসব। রাষ্ট্র ক্ষমতার অংশীদার হবারও স্বপ্ন দেখছি। আমি ভাল বক্তা নই তাই সাহস পাচ্ছি না। এমন কাউকে খুঁজে বের করতে যিনি মানুষকে নতুন কিছুর জন্য আহ্বান জানাবেন । এইভাবে চলতে থাকলে দেশের সুশাসন বলতে আর কিছু থাকবে না।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:২৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: ১৯৪৭ থেকে দেশ এভাবে চলছে-চলুক। নিজে ভালো থাকলে পরিবার ভালো থাকবে, পরিবার ভালো থাকলে গ্রাম ভালো থাকবে, ৬৬ হাজার গ্রাম ভালো থাকলে বাংলাদেশ ভালো থাকবে।

১৭| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ৭:৪২

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন:


বঙ্গবন্ধু হত্যার মাস্টারমাইন্ড ছিলো জিয়া।

কর্নেল ফারুক টেলিভিশন সাক্ষাৎকারে বলতে শোনা যায় যে তিনি তদানীন্তন সেনা উপপ্রধান জেনারেল জিয়াকে বঙ্গবন্ধু হত্যার পরিকল্পনার কথা জানালে জিয়া বলেছিলেন, গো এহেড। “ উই Senior officials must not take part , if you are confident go ahead”

হত্যা মিশনের রাতেই জিয়া অঘোষিত চিফ অব স্টাফ।
শফিউল্লাকে নিষ্কৃয় করে ফেলা
শফিউল্লার ফোন কেউ ধরেনি, ড্রাইভারকেও সরিয়ে ফেলেছিল। বাধ্যহয়ে বঙ্গবন্ধুকে বলেছিল "স্যার আমার করার কিছুই নেই আপনি পারলে পালিয়ে যান"

তাই হত্যাকান্ডের পর সকালে বাকি সিনিয়র অফিসার রা শফিউল্লার কাছে না যেয়ে জিয়ার বাসায়।
সবাই আগেই জানে ক্ষমতা এখন কার কাছে।

স্যার .. বঙ্গবন্ধু ..প্রেসিডেন্ট ইজ ডেড!

জিয়া নির্বিকার ভাবে ফুল ইউনিফর্ম পরে রেজর হাতে দাড়ী কামাচ্ছেন একদিক কামানো আরেক দিক বাকি ..
একজন রাষ্ট্রপ্রধান যে দেশেরই হোক তাকে হত্যা করা হয়েছে শুনলে যেকোনো সুস্থ স্বাভাবিক ব্যক্তির প্রতিক্রিয়া কী হতে পারে?
বঙ্গবন্ধু হত্যার খবর শুনে জিয়ার প্রতিক্রিয়া ছিলো কেমন?

"স্যার ..প্রেসিডেন্ট ইজ ডেড"!

জিয়া নির্বিকার ভাবে -

সো হোয়াট!
ভাইস প্রেসিডেন্ট ইজ দেয়ার,
লেট হিম টেক ওভার।”


এই উক্তি সাক্ষ্য দেয়, নিশ্চিত হয় জিয়া মূল ক্রীড়ানক, হত্যা মিশন চিফ। এবং চিফ অব স্টাফ।
মোশতাক বা সায়েম ছিলো কাঠ-পুতুল। ফারুক রসিদরা স্রেফ জল্লাদ।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:২০

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





হাসান কালবৈশাখী ভাই জিয়া সম্পর্কে আমি জানি আমার প্রেসিডেন্ট জিয়া সম্পর্কে পোষ্ট দেওয়া আছে। আপনি যতুটুকু প্লট বলেছেন তার অভিনয় করতে হলে নিশ্চয় মিশা সউদাগর দিয়ে হবে না, তাহলে কাকে প্রয়োজন কাষ্টিংয়ে? আমি একটি নাম বলবো তা হচ্ছে ড্যানিয়েল ক্র্যাগ !!!

নর্দমার ফারুক রশিদ ডালিম এই আলোচনায় আমার কাছে কোনো গুরুত্ব রাখে না। তারপরও সময়ে তাদের নাম আসবে। প্রাণ বাঁচানোর জন্য তাঁরা জিয়ার নাম নিয়েছে নাকি জিয়ার সাথে সাপ লুডু খেলতে চেয়েছিলো?


১৮| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৩৮

রাকিব আর পি এম সি বলেছেন: হাহাহা,,, একজন হলেন রহমান.. জিয়াউর রহমান, আরেকজন এরশাদ.. মোহাম্মাদ এরশাদ!!! :)

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:২৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: এই দুজনের একজনেরও শাসনামল দেখেছেন? তাদের ইউনিফর্মড অবস্থায় দেখেছেন? নাকি বাংলাদেশের পঁচা বাসী ইতিহাস পড়ে যা মনে হয়েছে তা? এরশাদ মারা গেছে ১৯৯০ সনে। এরশাদকে দেখে থাকলে তার মৃতদেহ নিয়ে রাজনীতি দেখেছেন।

১৯| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ৯:৩৯

রাজীব নুর বলেছেন: জিয়াউর রহমান এর দুইটা অপরাদজ আমার চোখে ভাসে-
১। উনি রাজাকারদের দেশে ফিরিয়ে এনে ক্ষমতায় বসিয়েছেন।
২। বঙ্গবন্ধুর খুনির ব্যাপারে চুপ ছিলেন।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:২৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আপনি হলে কি করতেন? গৃহযুদ্ধ বাধিয়ে দিতেন?

২০| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:২১

বিচার মানি তালগাছ আমার বলেছেন: আমার কাছে সবচেয়ে ড্যাশিং এবং এ যাবৎ কালের সবচেয়ে সেরা প্রেসিডেন্ট হলেন জিয়াউর রহমান। এরশাদ তো জাস্ট কপিক্যাট...

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:৪৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: সময় ০৭:৩০ একজন কর্ণেল বসে আছেন প্রেসিডেন্ট সাহেবের সামনে কর্নেল ক্নিন শেভড ফুল ইউনিফর্মড চকচকে পলিশ করা বুটে প্রেসিডেন্টের সামনে মলিন হয়ে আছেন, তিনি কিছু বিচার নিয়ে এসেছেন, তিনি বলে যাচ্ছেন - সৈনিক ক্যান্টিন থেকে শুরু করে অফিসার্স ক্যান্টিনে প্রেসিডেন্টের সমালোচনা হয় এটি সামরিক আইন পরিপন্থি” প্রেসিডেন্ট সাহেবের কোনো প্রতিক্রিয়া বোঝা যাচ্ছেনা এটি কর্ণেল সাহেবের জন্য একটি টেনশানের কারণ - প্রেসিডেন্ট সাহেবের চোখে কালো সানগ্লাস! প্রেসিডেন্ট সাহেব ফাইভ ষ্টার হোটেলে বসে নাস্তা করার নিয়মে নাস্তা সারছেন নাস্তার মেন্যু: - তিনটা লাল আটার রুটি, আলু ভাজি, বেগুন ভাজি, আর ডাল। প্রেসিডেন্ট দীর্ঘসময় কর্ণেল সাহেবের দিকে তাকিয়ে থেকে বললেন “বাংলাদেশে এর চেয়ে ভালো খাবার হতে পারেনা”।

কারা সমালোচনা করছে, কি নিয়ে সমালোচনা করছে তার ধারে কাছেও গেলেন না। একবার জানতেও চাইলেন না কে কে আলোচনা করছে - কি নিয়ে আলোচনা করছে!!! প্রেসিডেন্ট সাহেব আর কেউ নন তিনি প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান তার ব্যক্তিত্বের সামনে আমেরিকান প্রেসিডেন্টকেও মলিন মনে হতো।


২১| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:০১

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
জেমস বন্ড থেকে নয়ন বন্ড অতঃপর............।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:২৬

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: জেমস বন্ড মুভি দেখেছেন জীবনে? আপনি নয়ন বন্ডের প্রতিবেশী তাকে দেখে আপনার দিন শুরু হয়, জেমস বন্ড সম্পর্কে ধারণা কিভাবে পাবেন?

২২| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১:৩২

নীল আকাশ বলেছেন: আপনার লেখার প্রথম শব্দ নিয়ে আমার তীব্র আপত্তি আছে। উনি যদি হন তাহলে ১৯৭২ থেকে ১৯৭৫ পর্যন্ত যত খুন হয়েছে তার দায় কার? লাল বাহিনী, রক্ষী বাহিনীর মাধ্যমে যত খুন হয়েছে তার দায়ভার কার?
প্রকৌশলী সিরাজ সিকদারকে গুম করে হত্যা করে দম্ভ করে কথা বলেছে?
আরও অনেক কিছুই বলতে পারতাম কিন্তু এই ব্লগকে আমি বিপদে ফেলতে চাই না দেখে চুপ থাকলাম।
চালুনী সুইকে ডেকে বলে তোর পশ্চাদেশে একটা ছিদ্র দেখা যায়!

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: এই দেশের আম জাম জনতার ভাষ্যমতে খুনি জিয়াউর রহমান ও স্বৈরাচার এরশাদ আমার ভাষ্যমতে তারা লৌহ মানব।

২৩| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:০৮

সেলিম আনোয়ার বলেছেন: সত্য প্রকাশ করা উচিৎ। সেটা যত নির্মম হোক না কেন ? সত্য হলো আলোকবর্তিকা। সততা সর্বোৎকৃষ্ট পন্থা ।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: এটি ছিলো একটি আবেদন মাত্র - লিখবো কি না? লেখা এখোনো শুরু করিনি তাতেই - - - দেখি একটি একটি লেখা দিয়ে কি হয়, সাথে থাকুন প্লিজ।

২৪| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:০২

রাজীব নুর বলেছেন: লেখক বলেছেন: আপনি হলে কি করতেন? গৃহযুদ্ধ বাধিয়ে দিতেন?


আমি রাজাকাএদের দেশে ফিরিয়ে আনতাম না। যদিও আনতাম শাস্তির জন্য আনতাম।
বঙ্গবন্ধুর খুনিদের কানটা ধরে দেশে ফিরিয়ে এনে শাস্তি দিলাম।

অথবা এরকম যদি সম্ভব না হতো তাহলে এই দেশ ছেড়ে চলে যেতাম।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৬:১৭

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:





জিয়া হত্যার পেছনে গো আজমের হাত ছিলো, এটি বলেদা জিয়ার মাথায় ঢুকেনাই তাই সে জামাতের সাথে আঁতাত করেছে, জিয়া গো আজমকে কেনো দেশে এনেছিলেন তাঁর নিশ্চয় কোনো পরিকল্পনা ছিলো তা আগামীতে লিখবো।

১৯৭২ সনের সাধারণ ক্ষমা সম্পর্কে কিছু জানেন।


২৫| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:০৮

সোহানী বলেছেন: আলী ভাইয়ের মন্তব্য এ উল্লেখিত লেখার জন্য উদগ্রীব হয়ে আছি।

এরশাদ এর সাথে জিয়ার নাম বা অন্য কারো নাম দুঃখজনক।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:২৬

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: বোন সোহানী, হুসেইন মোহাম্মদ এরশাদকে যারা দেখেছেনে তারা ৯০ উত্তর জেলে থাকা বন্দি পরে রাজনৈতিক শিকারে আহত নিহত এরশাদকে দেখেছেন। রাষ্ট্রপতি এরশাদকে দেখেন নি, ইউনিফর্মড এরশাদকেও দেখেন নি। জঙ্গলের বাঘ কে চিরিয়াখানায় দেখে বাঘ সম্পর্কে যারা ধারণা করে তারা অবুঝ শিশু আর অবুঝ শিশুদের হাতে দুইটি বিস্কুট চকোলেট দেওয়া ছাড়া আর কিছু করার নেই, অবুঝ শিশুদের সাথে থ্রিলার গল্প করতে নেই তাদের জন্য গল্প ঠাকুরমার ঝুলি। এরশাদ মূলত মারা গেছেন ১৯৯০ সনে।

১। লে. জেনারেল জিয়াউর রহমান
২। লে. জেনারেল হুসেইন মোহাম্মাদ এরশাদ

দুজন দুই উপন্যাসের বাস্তব চরিত্র, একজন আরেকজনের পরিপূরক নন, সম্পূরকও নন। আগামীতে গল্পে সেসব ঘটনা আসবে। আশা করবো সেই থ্রিলার গল্পে পাঠক ও ব্লগার হিসেবে আপনাকে পাবো।

২৬| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:১৭

নীল আকাশ বলেছেন: আপনার মন্তব্য আমার ক্ষোভকে প্রশমিত করেছে। ফিরে এসেছি তাই ধন্যবাদ দিতে।
একটা চরম বির্তকিত বিষয় নিয়ে নিয়ে লিখছি। হাতে সময় থাকলে পড়ার অনুরোধ রেখে গেলাম।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:২৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:



নীল আকাশ ভাই, আপনি জানেন কিনা জানিনা আমি কারো পক্ষ নিয়ে কথা বলিনা। তারপরও আপনার মন্তব্যতে আম ছালা জনতা কাকে কি নামে ডাকেন তা আমি সংশোধন করে দিয়েছি, আমি কি দেখি তাই পোষ্টে উল্লেখ্য করে প্রথম অংশ কারেকশান করে দিয়েছি। বিচার মানি তাল গাছ আমার ব্লগারের মন্তব্যে প্রতিউত্তর যা দিয়েছি তা আপনার মন্তব্য আবার দিচ্ছি।

সময় ০৭:৩০ একজন কর্ণেল বসে আছেন প্রেসিডেন্ট সাহেবের সামনে কর্নেল ক্নিন শেভড ফুল ইউনিফর্মড চকচকে পলিশ করা বুটে প্রেসিডেন্টের সামনে মলিন হয়ে আছেন, তিনি কিছু বিচার নিয়ে এসেছেন, তিনি বলে যাচ্ছেন - সৈনিক ক্যান্টিন থেকে শুরু করে অফিসার্স ক্যান্টিনে প্রেসিডেন্টের সমালোচনা হয় এটি সামরিক আইন পরিপন্থি” প্রেসিডেন্ট সাহেবের কোনো প্রতিক্রিয়া বোঝা যাচ্ছেনা এটি কর্ণেল সাহেবের জন্য একটি টেনশানের কারণ - প্রেসিডেন্ট সাহেবের চোখে কালো সানগ্লাস! প্রেসিডেন্ট সাহেব ফাইভ ষ্টার হোটেলে বসে নাস্তা করার নিয়মে নাস্তা সারছেন নাস্তার মেন্যু: - তিনটা লাল আটার রুটি, আলু ভাজি, বেগুন ভাজি, আর ডাল। প্রেসিডেন্ট দীর্ঘসময় কর্ণেল সাহেবের দিকে তাকিয়ে থেকে বললেন “বাংলাদেশে এর চেয়ে ভালো খাবার হতে পারেনা”।

কারা সমালোচনা করছে, কি নিয়ে সমালোচনা করছে তার ধারে কাছেও গেলেন না। একবার জানতেও চাইলেন না কে কে আলোচনা করছে - কি নিয়ে আলোচনা করছে!!! প্রেসিডেন্ট সাহেব আর কেউ নন তিনি প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান তার ব্যক্তিত্বের সামনে আমেরিকান প্রেসিডেন্টকেও মলিন মনে হতো।


২৭| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৩৫

নীল আকাশ বলেছেন: যারা তার সর্ম্পকে বাজে কথা বলে তারা আসলে তাকে হিংসা করে দেখেই বলে। আফসোস এই দেশে আর হয়ত কোন দিন উনার মতো লিডার আসবে না। এটা আমাদের পোড়া কপাল।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৪০

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: জিয়াউর রহমানের মতো লৌহমানব বাংলাদেশে আর জন্মাবে না। আপনার আমার জীবনকালে দেখে যেতে পারবোনা এটি নিশ্চিত থাকুন। এই ধরনের মানুষ ৫০০-১০০০ বছরে একবার জন্মে।

২৮| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৪৫

আনমোনা বলেছেন: যা সত্য জানেন তাই লিখে যান। আহত নিহত নিয়ে মাথা ঘামাবেননা।

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৫০

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: দুই চার জনকে আহত নিহত করেই ছাড়বো। ব্লগ ব্যাটল ফিল্ড বলে কথা। অনুরোধ পাশে থাকবেন।

২৯| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:১৩

মা.হাসান বলেছেন: আপনি ইউনিফর্ম পরা জিয়া কে দেখেছিলেন? প্রেসিডেন্ট জিয়া কে দেখেছিলেন?

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:১৯

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




আপনি কি এখনো চিয়াং রাই শহরে আছেন? চিয়াং রাই শহর থেকে বেড়িয়ে গেলে আবার চিয়াং রাই শহরে চলে যান বার্মিজ আচার আর লুঙ্গি কিনে বাংলাদেশে নিয়ে আসুন নিজে নিজে প্রমাণ করে ব্লগে পোষ্ট দিন বাংলাদেশের বার্মিজ আচার আর লুঙ্গি আর থাইল্যান্ডে প্রাপ্ত আচার লুঙ্গি এক নাকি ভিন্ন !!!

ভুলেও এ কথা বলবেন না বার্মা থাইল্যান্ডের জন্য আলাদা আচার লুঙ্গি তৈরি করে আর বাংলাদেশের জন্য আলাদা আচার লুঙ্গি তৈরি করে। ভুলেও না।

৩০| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:২৯

মা.হাসান বলেছেন: আপনি কি এখনো চিয়াং রাই শহরে আছেন? চিয়াং রাই শহর থেকে বেড়িয়ে গেলে আবার চিয়াং রাই শহরে চলে যান বার্মিজ আচার আর লুঙ্গি কিনে বাংলাদেশে নিয়ে আসুন নিজে নিজে প্রমাণ করে ব্লগে পোষ্ট দিন বাংলাদেশের বার্মিজ আচার আর লুঙ্গি আর থাইল্যান্ডে প্রাপ্ত আচার লুঙ্গি এক নাকি ভিন্ন !!!


যখন বার্মার বর্ডারের কাছে ছিলাম তখন আপনার বালছাল পোস্ট টি পড়া হয় নি। যখন চোখে পড়েছে তখন আর ছবি তোলার সুযোগ ছিল না। তবে সমস্যার কিছু নাই। ভবিষ্যতে আপনি যখন ঐ রকমের বালছাল পোস্ট প্রসব করবেন তখন বাংলাদেশের ঐ সব লুঙ্গি-আচার কারখানার ছবি দিয়ে দিলে আমার মতো পিগমিদের মুখ বন্ধ হয়ে যাবে।

আপনার সুবিধার জন্য আবার প্রশ্ন করছি- আপনি ইউনিফর্ম পরা জিয়া কে দেখেছিলেন? প্রেসিডেন্ট জিয়া কে দেখেছিলেন?

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৪৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আপনি যেই বাজে শব্দ ব্যাবহার করেছেন তা আপনার পারিবারিক শিক্ষা এখানে কোনো সন্দেহ নেই। পরিবারে যা শুনেছেন তা শিখেছেন। বাল্যশিক্ষা পড়ে আবার আমার ব্লগে আসুন তবে আপনাকে আমি আমার ব্লগে আশা করছি না। আপনার ব্যাবহার আপনার পরিচয় বহন করছে।

৩১| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৫৪

মা.হাসান বলেছেন: আপনি বড় বেশি অভিযোগ করেন। ডেটল খেয়ে আত্মহত্যা করার চেষ্টা করে দেখতে পারেন।
যাই হোক পরিবার তোলায় আপনার গুরুজী কি মন্তব্য করেছিলেন দেখে নিন:
পোস্টের লিংক

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:০৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:






আপনি কি ব্লগার ল, আপনি কি মুক্তানীল, তাদের হয়ে আপনি বলার কে? আপনার সাথে আমার কোনো বিতর্ক হয়েছে আমার মনে পড়ছেনা আপনি কেনো এতো উতলা হয়ে গেলেন? আমার লেখা পছন্দ না ইগনোর করুন, আমার পোস্টে ব্লগের সবাই কমেন্ট করেন না, সবাইকে দাওয়াত দিয়েও আনিনা। আপনার ব্যাক্তি আক্রমণেরে জন্য আমাকে বেছে নিয়েছেন এতো আক্রোশের কারণ কি?

চাঁদগাজীর বিষয় চাঁদগাজীকে ধরুন, আমার কাছে কি ?



৩২| ১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:২৪

মা.হাসান বলেছেন:

কেহ কেহ জানাইয়াছেন ডেটলের বিকল্প হিসাবে হারপিকও ব্যবহার করা যায়।

ব্লগ একটি ওপেন প্লাটফর্ম । মন্তব্য সহ্ করার শক্তি না থাকলে ইমেইলের মাধ্যমে ঘনিষ্ট লোকদের কাছে লেখা পাঠিয়ে মতামত নিতে পারেন, ব্লগে লেখা পোস্ট না করাই ভালো। কারো মন্তব্য ব্লগের নীতি বহির্ভুত মনে হলে মডারেটরকে জানানোর সুযোগ আছে। এছাড়া যে কারো মন্তব্য ডিলিট করার বা ব্লক করার অপশন আছে। ব্লগে লেখা পোস্ট করলে কাউকে দাওয়াত দেবার দরকার নেই, লোকে এমনিই আসবে।
৩য় বার জিজ্ঞাসা করছি: আপনি ইউনিফর্ম পরা জিয়া কে দেখেছিলেন? প্রেসিডেন্ট জিয়া কে দেখেছিলেন?

১২ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৫৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: এটি আমার কমেন্ট ব্লগার ভূয়া মফিজের পোষ্টে। ভূয়া মফিজের শব্দ ব্যাবহারে - আমি ভুয়া মফিজ আমাদের দুজনের লেখা নিয়ে তার পোষ্টে মন্তব্য করেছি। আপনি ব্লগার ভূয়া মফিজ? ভূয়া মফিজের সাথে আমার কি কথা হয়েছে এটি সেই পোষ্টে আছে। ব্যাক্তি আক্রমণ করে আপনি নিজের পরিচয় দিচ্ছেন। ব্লগে সবাই দেখছে। নিজেকে নিজে আর কতো ছোট করবেন?

৩৩| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৫৪

টারজান০০০০৭ বলেছেন: আপনার লেখায় আগ্রহ পাচ্ছি। এই দুইজনের মধ্যে আমি এরশাদকেই এগিয়ে রাখব।সবচেয়ে কম রক্তপাতে মিশন সাকসেসফুল করা, ঘুষ-পদ দিয়ে বিরোধী চাঁইদের নিজের দলে ভেড়ানো, ব্যালান্সড গেম খেলার জন্য এরশাদ অনন্য ! তবে একশনে জিয়া এগিয়ে !

৯০ এর পরেও প্রেসিডেনশিয়াল ভোট হইলে এরশাদই জিততো বলিয়া আমার বিশ্বাস ! তাহার জিং জিং খেলাই তাহারে ডুবাইয়াছে ! তা এখনকার কোন রাজনীতিবিদ জিং জিং খেলে না তাহা নির্ণয় করা দুরহ ! এরশাদ বলিয়াই হাইলাইট হইয়াছে ! ইহাও বুঝি জেমস বন্ডের ভূমিকা ! জিয়া সম্পর্কে ইহা শোনা যায় না !

১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ৯:৩৪

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: টারজান০০০০৭ ভাই, আপনার আমার প্রিয় এরশাদ নিয়েই আগামীতে প্রথম পোষ্ট টি দিবো, সিনেমার পর্দায় ডলবি ডিজিটাল সাউন্ডে কেইনওড সাউন্ড সিস্টেমে চালু হবে মুভি, সাথে থাকবেন।

৩৪| ১৩ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:০৪

টারজান০০০০৭ বলেছেন: আমি রাজনীতি বিমুখ ! বাংলাদেশের কোন শাসক বা দলের প্রতি আমি কানা নই ! সুশাসনের স্কেলে মাপিতে গেলে শাসকদের মধ্যে এরশাদই বেশি স্কোর পায় বলিয়া আমার বিশ্বাস।

আপনি কি লিখিবেন তাহা জানি না। তবে যাহা লিখিবেন তাহা সম্ভবত ব্লগারদের হজম হইবে না। কারণ জাতিগতভাবে আমরা আমাদের শাসক বা নেতানেত্রীদের দোষেগুণে মানুষ বলিয়া মনে করিনা। আমাদের কাছে তাহারা হয় দেবতা , নাহয় অসুর। মানুষ নহে !

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ রাত ১:১৮

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: আমাদের কাছে তাহারা দেবতা হোন যখন স্বার্থ থাকে, স্বার্থ শেষ হলে অসুরে পরিনত হোন। ধনবাদ।

৩৫| ১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:১২

হাসান কালবৈশাখী বলেছেন: বস ও সব প্রধান সহকর্মি যোদ্ধাদের খতম করে, সাম্ভাব্য বিরোধিতাকারিদের ফাসি দিয়ে প্রধান জল্লাদদের দেশের বাইরে পাঠিয়ে দিয়ে নিরাপদ অবস্থানে থেকে সানগ্লাস লাগিয়ে বহু ক্যারিষ্মা দেখানো যায়।
কিন্তু নরমাল টাইমে প্রকৃত স্মার্ট কে? ছবি কথা বলে।

মা.হাসান বলেছেন: আপনি ইউনিফর্ম পরা জিয়া কে দেখেছিলেন?

১৪ ই সেপ্টেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৫:৪৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন: লে. জেনারেল জিয়াউর রহমানকে নিয়ে ব্লগে লিখবো, লেখা শুরু করার এটি একটি সূচনা পোষ্ট ছিলো। আপনার কি নিজের বলার কিছুই নেই - পাছে লোকে কিছু বলে আমি শুনতে পাইনা।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.