নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমি জাহিদ হাসান শিশির। আপনাদেরকে আমার ব্লগে স্বাগতম। ফেসবুকে:facebook/zahidkapasia তাছাড়া আমার ব্যক্তিগত ব্লগ:zahidpersonal.blogspot.com

জাহিদ হাসান

বড় বড় স্বপ্ন দেখায় অভ্যস্ত এক ছেলে

জাহিদ হাসান › বিস্তারিত পোস্টঃ

বার্নি স্যান্ডার্স: শুধু আমেরিকা নয় পৃথিবীর যাকে প্রয়োজন !

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ সন্ধ্যা ৭:৩৪

সহায়-সম্বলহীন পিতার ছেলে বার্নি। বাবা পোল্যান্ড থেকে আমেরিকা এসেছিলেন খালি হাতে। তার পরিবার হিটলারের বর্ববতার শিকার হয়ে খালি হাতে আমেরিকায় অভিবাসী হয়েছিল। আমেরিকার প্রয়োজন তিনি বুঝেন, অভিবাসীদের প্রয়োজন তিনি বুঝেন। ধর্ম,বর্ণ,লিঙ্গ ও ভাষা নির্বিশেষে সবাইকে তিনি এক নজরে দেখেন,এক বাধঁনে বাধেঁন। তিনি বার্নি স্যান্ডার্স। ভারমন্ট এর সিনেটর।এবং আমেরিকার সম্ভাব্য পরবর্তী প্রেসিডেন্ট। এর আগে ২০১৬ সালেও তিনি ডেমো্ক্রেটিক পার্টি থেকে মনোনয়ন চেয়েছিলেন।একটুর জন্য হিলারীর পিছনে পড়ে যান তিনি। এইবারও তিনি নির্বাচনে দাড়াচ্ছেন এবং এই মুহূর্তে তার দলে তার মত জনপ্রিয় আর কেউ নেই। তার পরে জনপ্রিয়তার দৌড়ে এগিয়ে আছেন জো বাইডেন।তাই এবার তার মনোনয়ন অনেকটাই নিশ্চিত।বার্নিকে সমর্থন দিয়েছেন রিপেজেন্টিভ ইলহান ওমর ও রশিদা তালিব। তাছাড়াও মধ্যবিত্ত,অভিবাসী,উদারমনা ও সুশিক্ষিত মানুষরা ব্যাপক সমর্থন দিচ্ছেন বার্নিকে। বার্নিও নানান প্রতিশ্রুতি দিয়ে তাক লাগিয়ে দিচ্ছেন-যা আমেরিকা তো বটেই এমনকি পৃথিবীর জন্যও অত্যন্ত প্রয়োজন।



*জলবায়ু পরিবর্তন নিয়ে বহু আগে থেকেই সোচ্চার বার্নি স্যান্ডার্স। তিনি বলেছেন- জলবায়ু পরিবর্তন সত্য ঘটনা। কোন সাজানো নাটক নয়। তাই তিনি এই নিয়ে কাজ করে যাচ্ছেন। নির্বাচিত হলে এই গ্রহকে রক্ষার জন্য আরও বেশি কাজ করবেন বলে তিনি প্রতিশ্রুতি দেন। অপরদিকে এই ব্যাপারে ট্রাম্প তার উল্টো। সে মনে করে জলবায়ু পরিবর্তন একটি সাজানো নাটক এবং ষড়যন্ত্র! সে জলবায়ু চুক্তির ঘোর বিরোধী।যার ফলে আমেরিকা জলবায়ু পরিবর্তনের ক্ষেত্রে কোন কার্যকর ভূমিকা রাখতে পারছে না।
*বর্ণবাদের বিরুদ্ধে সোচ্চার বার্নি।কোন বিশেষ ধর্মকে ও বর্ণকে ঘৃণা করার তিনি বিরোধী।তিনি বর্ণবাদমুক্ত আমেরিকা গড়তে চান।
*বার্নি বলেন- ইসরাইলীদের যেমন শান্তিতে ও নিরাপত্তার সাথে বসবাসের অধিকার আছে,প্যালেস্টাইনীদেরও তেমন শান্তিতে ও নিরাপত্তার সাথে বসবাসের অধিকার রয়েছে।
*আমেরিকায় শ্রমিকের নূন্যতম মজুরী ঘন্টায় ১৫ ডলার হওয়া দরকার।
*নির্বাচিত হলে তিনি জনগনের ক্রয়ক্ষমতার মধ্যে থাকবে এমন বাড়ি নির্মাণ করবেন।
*সৌদির সাথে ইয়েমেনের চলা অসম যুদ্ধ বন্ধ করে শান্তি ফিরিয়ে আনবেন।
* আমেরিকায় বন্দুক হামলা বন্ধ করতে ব্যবস্থা নিবেন।
*বার্নি তার ক্যাম্পেইনে বারবার এই কথা বলেন- ধর্ম,বর্ণ,জাতি ও ভাষা নির্বিশেষে আমরা সবাই এক।
আমি নির্বাচিত হলে, অসাম্প্রদায়িক ও উদার আমেরিকা গঠন করবো।
আর এমন একটা শান্তির পৃথিবী গঠনেও কাজ করে যাবো।

বার্নির জীবনী,তাঁর পরিবারে ইতিহাস এবং তাঁর রাজনৈতিক লক্ষ্য ও উদ্দেশ্য সম্পর্কে আমি ভালোভাবে জানার পরে এই কথা বলতে বাধ্য হচ্ছি যে- বার্নিকে শুধু আমেরিকা নয়,পৃথিবীর জন্যও অনেক বড় প্রয়োজন।

জাহিদ হাসান শিশির

মন্তব্য ২২ টি রেটিং +৫/-০

মন্তব্য (২২) মন্তব্য লিখুন

১| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:১৩

নতুন বলেছেন: উনার এজেন্ডায় ধনী কপো`রেসনের জন্য কিছু না থাকলে উনি ক্ষমতায় আসতে পারবেনা। :)

অনেক কিছুর কলকাঠি বড় বড় কপোরেসনরা নাড়ে...

আর উনি যদি বাইরের দেশ দখল না করে তবে আমেরিকার আয় কমে যাবে।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৫৪

জাহিদ হাসান বলেছেন: ধনী লোকেরাও উনাকে সমর্থন করছে। কারণ তিনি মানুষের মধ্যে দেয়াল তুলে দেন না ট্রাম্প সাহেবের মত।

২| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: একজন গ্রেট লোক সম্পর্কে জানলাম।
ধন্যবাদ আপনাকে।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৫৬

জাহিদ হাসান বলেছেন: আমিও উনার পারিবারিক ইতিহাস এবং তার রাজনৈতিক উদ্দেশ্য সম্পর্কে জানতাম না। ইদানীং জেনেছি। জেনে আমি সিদ্ধান্ত নিয়েছি আমি তার জন্য প্রচারের কাজ করবো।

৩| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ৮:৩১

ইসিয়াক বলেছেন: জানা হলো । ভালো লাগলো।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৫৭

জাহিদ হাসান বলেছেন: ধন্যবাদ ।

৪| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৫১

বলেছেন: Make america great again

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১০:৫৮

জাহিদ হাসান বলেছেন: বার্নি স্যান্ডার্স প্রেসিডেন্ট হলে আমেরিকা আবারও গ্রেট হবে ।

৫| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:২৩

রাফা বলেছেন: যা পৃথিবির প্রয়োজন ,তা ইউরোপ ,আমেরিকার প্রয়োজন হয়না।এর ঠিক উল্টোটাই বেছে নেয় তারা।বার্নি স্যান্ডার্স কিছুতেই পেরে উঠবেনা ।ঠিক যেমন পারেনি আলগোর।তখন যদি আলগোর নির্বাচিত হতো পৃথিবি বেচে যেতো অনেকগুলো যুদ্ধ থেকে।কাজেই ভুলে যান বার্নি স্যান্ডার্সের কথা। নির্মম সত্য হলো ট্রাম্প আবার নির্বাচিত হবেন।

ধন্যবাদ।

০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩৭

জাহিদ হাসান বলেছেন: আপনার উচিত জ্যেতিষি হওয়া। নয়তো এইভাবে নিশ্চয়তা দিয়ে কাউকে এক বছর আগেই নির্বাচিত করে ফেলা ,ভাবা যায়? ট্রাম্প সাহেব শুনলে নিজেই অক্কা পাবেন। শুনে নেন,সবখানে সবগুলা জরিপে এখন ট্রাম্পের চাইতে অনেক এগিয়ে বার্নি স্যান্ডার্স।

৬| ০৫ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১১:৩৯

এস সুলতানা বলেছেন: ভালো লাগলো।

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:২২

জাহিদ হাসান বলেছেন: ধন্যবাদ।

৭| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ রাত ১:৩৮

রাফা বলেছেন: জরিপে হিলারি ক্লিন্টনও এগিয়েছিলো।এমনকি পপুলার ভোটও বেশি পেয়েছিলো- আলগোর‘ও তাই।তারা কিন্তু নির্বাচিত হয় নাই।এখানেই হলো আমেরিকার নির্বাচনের শুভংকরের ফাঁকি।
জোতিষি হোতে হয়না ,আপনি যেমন সোর্স থেকে বিশ্লেষন করে বলে দিলেন আমিও ঠিক তাই।

ধন্যবাদ।

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:২৩

জাহিদ হাসান বলেছেন: এবার আর কোন ভুল আমেরিকানরা করবে না।

৮| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১০:৪২

এলিয়ানা সিম্পসন বলেছেন: নির্বাচনে জিতবে ট্রাম্প।

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:০৭

জাহিদ হাসান বলেছেন: ট্রাম্প জিতলে শুধু আমেরিকা না সারা পৃথিবীতে আরও শত-শত কোটি মানুষ দেশহারা ও বাস্তহারা হবে। এবং তৃতীয় বিশ্বযুদ্ধ লাগতে দেরি হবে না। তবে আশার কথা হল ট্রাম্প এবার আর জিতবে না। তার দলই তার উপরে ক্ষেপে আছে।

৯| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:০৫

মা.হাসান বলেছেন: হিলারি জিতিলে তাহা হইবে ঐতিহাসিক।
বার্নি জিতিলে তাহা প্রাগৈতিহাসিক।

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ সকাল ১১:১০

জাহিদ হাসান বলেছেন: ট্রাম্প জিতলে মুসলিমরা যাবে জাদুঘরে। আর পৃথিবী যাবে আইসিউতে।
কিন্তু আশার কথা হল ট্রাম্প এবার আর জিতবে না। আরও আছে একবছর। এখনই ধীরে-ধীরে সবকিছু পাল্টে যাচ্ছে।
২০১৬ সালে ট্রাম্পের প্রেসিডেন্ট হওয়া দরকার ছিল। এবার আর তার দরকার নেই। এবার বার্নির দরকার।

১০| ০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ২:২৭

মোঃ মাইদুল সরকার বলেছেন:
যে যায় লংকা সে হয় রাবন।

০৬ ই নভেম্বর, ২০১৯ বিকাল ৩:৩৬

জাহিদ হাসান বলেছেন: :| :|

১১| ০৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ ভোর ৬:০৮

এম এ কাশেম বলেছেন: নমিনেশন পেলে ভোট দেবো ইনশা-আল্লাহ।

০৭ ই নভেম্বর, ২০১৯ দুপুর ১২:৩১

জাহিদ হাসান বলেছেন: ধন্যবাদ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.