নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার নাম- রাজীব নূর খান। ভাবছি ব্যবসা করবো। ভালো লাগে পড়তে- লিখতে আর বুদ্ধিমান লোকদের সাথে আড্ডা দিতে। কোনো কুসংস্কারে আমার বিশ্বাস নেই। নিজের দেশটাকে অত্যাধিক ভালোবাসি। সৎ ও পরিশ্রমী মানুষদের শ্রদ্ধা করি।

রাজীব নুর

আমি একজন ভাল মানুষ বলেই নিজেকে দাবী করি। কারো দ্বিমত থাকলে সেটা তার সমস্যা।

রাজীব নুর › বিস্তারিত পোস্টঃ

ঈশ্বর এই চোখে এত জল থাকে কেন?

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৭



বিয়ের সময় সব ছেলেরাই সুন্দর মেয়ে খোঁজে। সুন্দর মেয়ে বিয়ে করতে চায়। শুধু ছেলে না, ছেলের মা-বাবা, আত্মীয় স্বজন সবাই সুন্দর মেয়ে খোঁজে। ব্যাপারটা আমার কাছে খুব হাস্যকর লাগে। খুব অল্প সংখ্যাক মেয়ে দেবী প্রতিমার মতো সুন্দর হয়। আমাদের দেশের সব মেয়ে সুন্দর না। কেউ কালো, কেউ মোটা, কেউ বেটে, কেউ রুক্ষ, কেউ বেশি শুকনা, কারো নাক বোচা ইত্যাদি নানান সমস্যা। শেক্সপিয়ার তার 'ম্যাকবেথ' এ বলেছেন- সুন্দরী মেয়েদের মধ্যে সততা আশা করা ভুল।

একটা গল্প বলি- মেয়েটির নাম রুপা। রুপা খ্রিস্টান। একটা নামকরা পার্লারে কাজ করে। আট ঘন্টা ডিউটি। ১৩ হাজার টাকা বেতন পায়। মেয়েটি অনার্স করেছে বাংলায়। দরিদ্র পরিবারের সন্তান। ছোটবেলায় রুপার একবার কঠিন অসুখ করে, ছয় মাস পর অসুখ ছেড়ে যায় কিন্তু তারপর থেকে রুপা মোটা হতে থাকে। এখন তার ওজন এক শ' সতের কেজি। দেখতে তথাকথিত সুন্দরী নয়। ছেলেরা দেরীতে বিয়ে করলে সমস্যা নাই কিন্তু মেয়েদের দেরীতের বিয়ে দিলে নানান সমস্যা হয়। একটা বয়সের পর মেয়েদের আর বিয়ে খুব একটা হয় না। এরকম বিয়ে না হওয়া মেয়েদের সংখ্য অনেক।

রুপা একটা ছেলের সাথে প্রেম করলো প্রায় চার বছর। ছেলেটা বেকার। নাম- রাজু। ছেলেটা মুসলিম। হাজার বার লক্ষ বার চাকরির চেষ্টা করেছে। খুব ছোট একটা পদের চাকরি জোটাতে বারবার ব্যর্থ হয়েছে। ছেলেটা দরিদ্র বাবার সন্তান। অনেক গুলো ভাই বোন, সবারই একই অবস্থা। ছোট্র একটা বাসায় সবাই গাদাগাদি করে থাকে। ছেলেটার ইচ্ছা একটা চাকরির পেলেই বিয়ে করবে রুপাকে। এদিকে রুপার বাবা মা রুপার জন্য ছেলে দেখছে। যেহেতু রুপা দেখতে সুন্দর না। তার উপর আবার খুব মোটা। গায়ের রঙ কালো। কাজেই ভালো ছেলে পাওয়া যাবে না। যা দুই চারজন আসছে সব বয়স্ক লোক, মাথা টাক। রুপা কেন সুন্দর না এই জন্য রুপার বাবা-মার এক আকাশ কষ্ট।

ঠিক এই রকম অবস্থায় রুপা বেকার ছেলেটাকে বিয়ে করে ফেলল। রুপার বাবা মা রুপাকে বাসা থেকে বের করে দিল। রাজুর বাবা মা বলল- বিয়ে করেছো, ভালো করেছো। এইবার চড়ে খাও। আমার বাসায় তোমাদের জায়গা নাই। রুপা আর রাজু পড়লো ভয়াবহ বিপদে। এই রুপা আর রাজু শীতের মধ্যে খিলগাও রেল লাইনের সামনে দাঁড়িয়ে আছে। দুইজন'ই শীতে কাঁপছে। তাদের সাথে কোনো টাকা নেই। দুপুর থেকে তারা না খাওয়া। মাসের শেষ। মেয়েটার কাছে অল্প কয়েকটা টাকা ছিল- তা দিয়েই বিয়ের কাজ শেষ করা হয়েছে। এখন দু'জন কি করবে, কোথায় যাবে কিচ্ছু জানে না।

এই রুপাকে আমি চিনি না। তবে এই রুপা যখন ছোট ছিল- তখন আমি তাকে চিনতাম। আমাদের এলাকায় একটা টিনসেড বাড়িতে ভাড়া ছিল। কি সুন্দর কাঁধে স্কুল ব্যাগ নিয়ে, মাথায় দুইটা ঝুটি করে স্কুলে যেত। এই মেয়ের আজ এই অবস্থা! রুপাকে দেখে আমার খুব খারাপ লাগলো। কি দেখেছি, আর আজ কি অবস্থা!!
আমি রুপা আর রাজুকে নিয়ে একটা রেস্টুরেন্টে বসলাম তাদেরকে ভাত খাওয়ালাম। রুপা আমাকে সব ঘটনা বলল। আর এই ফাঁকে রাজু আমার সিগারেটের পেকেট থেকে একটার পর একটা সিগারেট শেষ করতে লাগল। আমি তাদের একটা বাড়ির ছাদে থাকার ব্যবস্থা করে দিলাম। ভাড়া পাঁচ হাজার টাকা। প্রথম মাসের টাকা আমিই দিয়ে দিলাম। রুপার হাতে কিছু টাকা দিলাম।

এই ঘটনার তিন দিন পর রুপা আমার বাসায় এসে হাজির। রাজুর একটা চাকরির ব্যবস্থা করেই দিতে হবে। রাজু ছেলেটাকে আমার ভালো মনে হয়নি। মনে হচ্ছে ছেলে অতি দুষ্ট। আর আমি অবশ্যই দুষ্টলোকের জন্য কিছু করি না। এদিকে সুরভির সাথে রুপার খুব খাতির হলো। সুরভি প্রায়ই রুপার সাথে মোবাইলে কথা বলে। রুপা বাসায় এসে থালা বাটি, গ্লাস, বালিশ কম্বল ইত্যাদি অনেক কিছু নিয়ে গেছে।
আমি সুরভিকে বললাম, তুমি এত সব দিতে গেলে কেন? সুরভি বলল, যা শীত পড়েছে, নতুন সংসার- কাথা বালিশ কিছুই নাই। পানি খাওয়ার গ্লাসও নাই। এত মায়া লাগলো।

রুপা আর রাজুর বর্তমান অবস্থা হলো- রাজু সারাদিন বাসায় বসে থাকে। রুপা তার অফিস শেষ করে, বাজার নিয়ে বাসায় ফিরে- রান্না করে। তারপর দু'জন মিলে খায়। বাজার বলতে মাছ মাংস না। আলু অথবা কলমি শাক। এক কেজি চাল। সুরভি প্রায়ই রান্না করে রুপাকে ফোন দেয়- রুপা বাসায় এসে দু'জনের ভাত তরকারি নিয়ে যায়। প্রায় ছয় মাস ধরে এই রকমই চলছে।

আমি সুরভিকে বললাম- আমার ধারনা রাজু রুপার সাথে আর বেশি দিন থাকবে না। আরও কিছু দিন যৌনতা উপভোগ করে ভাগবে। রুপা কাঁদবে। সারা জীবন কাঁদবে। রুপা নির্বোধ। বাবা মার বাসা থেকে বের হয়ে এই ছেলেকে বিয়ে করাটাই রুপার মস্ত বড় ভুল হয়েছে। রুপা ভুল মানূষকে ভালোবেসেছে।

মন্তব্য ৪০ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (৪০) মন্তব্য লিখুন

১| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


আপনি বিরাট কিছু করেছেন।
রূপার জন্য খারাপ লাগছে; লাখ লাখ রূপারা কষ্ট পাচ্ছে

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩৮

রাজীব নুর বলেছেন: এই লাখ লাখ রুপার খবর কেউ রাখে না।
কিন্তু আমার তাদের জন্য অনেক কিছু করতে ইচ্ছা করে।

২| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৩৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


ছেলেটাকে শারীরিক কাজ করতে বলুন, শারীরিক কাজ পাওয়া যায় সব সময়।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪০

রাজীব নুর বলেছেন: এই ছেলে অলস। সে কিছু করবে না। বউ এর টাকায় স্টার সিগারেট খেতে খুব পছন্দ করে।

৩| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৩

মৌ ফারজানা বলেছেন: এটা কি আপনার নিজের গল্প নাকি? ;)

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৬

রাজীব নুর বলেছেন: আপনি মনে হয় নতুন ব্লগার।
পুরাতন সবাই আমাকে চিনে জানে এবং বুঝে।

৪| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৬

শায়মা বলেছেন: এত জল ও কাজল চোখে পাষানী আনলে বলো কে?

রূপার জন্য শুভকামনা....

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৪৯

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

৫| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫০

সৈয়দ ইসলাম বলেছেন: আর এভাবেই ভালবাসার পবিত্রতার উপর প্রশ্ন উঠে জনাব!

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৫

রাজীব নুর বলেছেন: এটা ভালোবাসা নয়। বোকামো।
আর এই বোকামির জন্য সারা জীবন কাঁদতে হবে।

৬| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫২

মৌ ফারজানা বলেছেন: মজা করে বললাম ভাইয়া। সুন্দর হয়েছে লেখাটা।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:৫৭

রাজীব নুর বলেছেন: লেখাটা মোটেও সুন্দর হয়নি। খুব অগোছালো হয়েছে।
আর রুপা'র প্রতি আমার কতটা মায়া মমতা আছে তাও বুঝাতে ব্যর্থ হয়েছি।

ভালো থাকুন।

৭| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:০০

আল ইফরান বলেছেন: এই ছেলের থাপড়ায়ে দাত ফেলে দেয়া দরকার, একটা অসহায় মেয়ের দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে এই ধরনের অন্যায় করার জন্য। লেখার শেষে যেই কথাগুলো বলেছেন, সেইগুলাই সত্য বলে মমে হচ্ছে। তারপরও আল্লাহ ওদের সুখে রাখুক।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:০২

রাজীব নুর বলেছেন: অই ছেলেকে আমার নিজেরই থাপ্পড় দিতে ইচ্ছা করছিল।
যা লিখেছি সব সত্য লিখেছি। বরং কম লিখেছি। দুঃখ কষ্টের কথা লিখতে ভালোলাগে না।

৮| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:০০

সৈয়দ ইসলাম বলেছেন: আমি এটাকে ভালবাসা বলি নাই! এটা ভালবাসার নামে স্পষ্ট বোকামি। কিন্তু সমাজে এইসব ভালবাসার অশুভ ফল বলেই ভাইরাল হচ্ছে।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:০৩

রাজীব নুর বলেছেন: তবু ছেলে মেয়েরা সাবধান হয় না। চারপাশে এত কিছু দেখেও শিক্ষা হয় না।

৯| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:১৯

আটলান্টিক বলেছেন: ভাইয়া পুরো লেখাটা পড়লাম।প্লাস দিসি ভাইয়া।রুপা নির্বোধটা মনে হয় শেষমেশ সুইসাইড করবে।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:২৫

রাজীব নুর বলেছেন: তা মনে হয় করবে না।
কিন্তু তার সারা জীবন কাঁদতে হবে।

১০| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৮:৫৬

তারেক_মাহমুদ বলেছেন: শেষ দুই তিনটি লেখার চাইতে এটা অনেক ভাল, ভাল লেগেছে রাজীব ভাই।

১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৯:১০

রাজীব নুর বলেছেন: তারেক ভাই, মানুষের দুঃখ কষ্ট শুধু ভালো লাগবে হবে? তাদের জন্য কিছু করতে হবে না?

১১| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৯:২১

আহমেদ জী এস বলেছেন: রাজীব নুর ,




একটি অনন্য মানবিক আচরণের কাহিনী । ধন্যবাদ আপনাকে ও শ্রীমতি সুরভিকে ।

আপনার লেখার শিরোনামটি দেখে যে গানের কলিটি প্রথমেই লিখতে চেয়েছিলুম , দেখি তা সহব্লগার শায়মা আগেই লিখে ফেলেছেন । :(

১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৯:২৪

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ।

১২| ১৩ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ৯:২৩

মনিরা সুলতানা বলেছেন: আমাদের মেয়েগুলো এমন বোকা ই হয় ;
আপনার আর সুরভী 'র জন্য অনেক অনেক শুভ কামনা ।
রুপা'র জন্য ও ।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৯:২৪

রাজীব নুর বলেছেন: ভালো থাকুন।

১৩| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ১২:৩৬

অনিকেত বৈরাগী তূর্য্য বলেছেন: এক মহিলা কমবয়সী একটা ছেলেকে বিয়ে করেছিলো। একসময় ছেলেটা মহিলার টাকা-পয়সা সব নিয়ে ভেগেছে। অথচ ঐ মহিলা ছেলেটার জন্য কী না করেছে। মেয়েদের বুদ্ধি-সুদ্ধি কম থাকে। এই ছেলেটাও মনে হয় একদিন ভাগবে। তখন রুপাকে কাঁদতে হবে এ রকম আমড়া কাঠের ঢেঁকি বিয়ে করার কারণে।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৯:২৫

রাজীব নুর বলেছেন: যুগ যুগ ধরে এমনটাই চলছে।

১৪| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৯:২২

নতুন নকিব বলেছেন:



অনন্য মানবিকতা প্রদর্শন করলেন। মানবতাকে উর্ধ্বে তুলে ধরলেন। এরচে' মহান কাজ আর কী হতে পারে? এক আকাশ শুভকামনা।

রূপাদের ভাগ্য সুপ্রসন্ন হোক।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ৯:২৭

রাজীব নুর বলেছেন: নকিব ভাই, ধন্যবাদ।

১৫| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১০:৪০

মোস্তফা সোহেল বলেছেন: রুপার জন্য শুভ কামনা রইল।

১৬| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৩:১৫

মিথী_মারজান বলেছেন: রাজু ছেলেটা কি বোকা! এত ভালবাসা পেয়েও তার উপযুক্ত সম্মান দিতে পারছেনা।
এভাবে চলতে থাকলে তো সংসারে অশান্তি বাড়তেই থাকবে।
আল্লাহ্ রাজুকে হেদায়েত করুক।

রুপার জন্য ভালবাসা।
কিছুটা মন খারাপও হচ্ছে অবশ্য।
খুব করে প্রার্থনা করছি রুপার জন্য সুন্দর, ভালবাসাময় একটা জীবন।


আপনাকে আর সুরভী ভাবীর প্রতি শ্রদ্ধা রইল দুঃসময়ে মেয়েটির পাশে থাকার জন্য।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৩:৩৪

রাজীব নুর বলেছেন: ধন্যবাদ মারজান সাহেব।

ভালো থাকুন।

১৭| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৩:১৫

জাহিদ অনিক বলেছেন:

শিরোনাম দেখে যে গানটার কথা আমার মাথায় আসছিল সেটার কথাই শায়মা আপু এবং আহমেদ জী এস সাহেব বলে দিয়েছে।

আপনি হুমায়ুন আহমেদের অনেক বড় পাঠক। তাই গল্পে রূপা এবং রূপাদের গল্প বারবার ফিরে আসে।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৩:৩৬

রাজীব নুর বলেছেন: হুমায়ূন আহমেদ আমার বস। আমার গুরু। হুমায়ূন আহমেদের এমন কোনো বই নেই যা একশ' বার করে আমি পড়ি নাই। এমন কোনো নাটক নেই যা আমি ১০০ বার করে দেখি নাই।

মুহূর্তের মধ্যে সব বইয়ের নাম, প্রচ্ছদ বা চরিত্র গুলোর নাম, ঘটনা আমি সব বলে দিতে পারি।

১৮| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ বিকাল ৫:১১

কামরুননাহার কলি বলেছেন: পরে পড়বো এখন ।

১৯| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৬:৫৩

মঈনউদ্দিন বলেছেন: ভালো লাগলো, অনেক দিন পরে ব্লগে আসলাম

১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ১০:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: ব্লগে নিয়মিত চাই আপনাকে।

২০| ১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সন্ধ্যা ৭:২৯

তারেক ফাহিম বলেছেন: রাজুর জন্য চাকুরী কামনা।

১৪ ই জানুয়ারি, ২০১৮ রাত ১০:০৮

রাজীব নুর বলেছেন: আমি চাই না রাজুর চাকরি হোক।
আমার ধারনা রাজুর চাকরি হলেই সে ভাগবে।

২১| ১৫ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১০:২১

কামরুননাহার কলি বলেছেন: ভাইয়া আপনি আগে বাগেই রাজুর সাথে কথা বলে দেখেন তার মতামত কি । কথা বললেই বুজতে পারবেন সে কোন ধারায় চলতে চায়। রুপা এবং রাজুর সাথে একটি আপনারা দু’জন বসে মিটমাট করে দেন। তা না একসময় হিতে বিপরিত হয়ে যাবে। বুঝেনই তো রাজু যদি কখনো কোন দুর্ঘটনা ঘটায় তাহলে সবার আগে আপনাকে এসে দোষ দিবে সবাই।
আমরা চাই ওদের জীবন সুন্দর হোক তবুও আপনার উচিত ওদের সাথে কথা বলা তারা ভবিৎসাতে কি করবে না করবে। কত দিন আর এই ভাবে চলবে তারা।

১৫ ই জানুয়ারি, ২০১৮ সকাল ১০:২৫

রাজীব নুর বলেছেন: জ্বী ঠিক বলেছেন।
আমি আগামী সপ্তাহে তাদের আমার বাসায় আসতে বলব। তারপর খোলাখুলি আলোচনা।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.