নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

বাধা বিঘ্ন না পেরিয়ে বড় হয়েছে কে কবে?

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

নীলা'দের 'অবৈধ' পথে যাওয়ার গল্প , সৌজন্যেঃ ফেয়ার এন্ড লাভলী ৷ :( :(

০৯ ই এপ্রিল, ২০১৫ রাত ১০:১৩

নীলাঞ্জনার জন্য পরিবেশ দূষণ, জ্যাম, গ্লোভাল ওয়ার্মিং, বাবা-মা, পরীক্ষায় আন্ডা পাওয়া, ভদ্রতা কোন কিছুই বড় সমস্যা না, সমস্যা একটা তা হলো কানের লতির নিকট একটা পিম্পল, ;)



গায়ের কালো ত্বক, কোমল ত্বক হীনতা, ফেয়ার এন্ড লাভলীর বিঞ্চাপন দেখতে দেখতে সে বুজতে শিখেছে, কানের লতির নিচে ব্রণ থাকলে বীরঙ্গনা হওয়া যাবে না, সরাদিন রোদে খেটে যে মেয়েটা দেশ মাথায় তুলছে সবি পন্ডুশ্রম, তার উচিত ছিল আয়নার সামনে বসে, খুজে বের করা, কোথাও পিম্পল আছে কি না, থাকলে পরীক্ষায় ফেইল, মুখের কালো দাগ থাকাটা অন্যায়, ওই কালো দাগ জীবন যুদ্ধে জয়ী হওয়ার জন্য অশনী সংকেত, তার চেয়ে ভালো পুতুল হয়ে জীবন যাপন করা, এটাই সফলতা, সান্সক্রিম দিয়ে আসেনি বলে, সে আজ ছক্কা মারতে পারবে না, প্লেন চালাতে গেলে হ্যান্ডেল খুলে যাবে, বাহ! সবি ক্রিমের যাদু, ম্যাজিক ক্রিম না মাখলে হয়তো, ফুল ফ্রি স্টুডেন্টশিপ বাতিল হয়ে যাবে, :(



ইদানিং সে লুকিয়ে লুকিয়ে ক্রিম খাওয়া শুরু করছে, যদি সফলতার আরেক দাপ এগিয়ে যাওয়া যায়, সেদিন সে তাবিজ আকারে ফেয়ার এন্ড লাভলী ঝুলিয়ে রেখেছিল পরে অবশ্যই লোক লজ্জার ভয়ে খুলে রেখেছিল, :P





ইদানিং কালো বান্ধবী ভীতি জমেছে নীলার, গোল্ডেন টাচের মত যদি কালোর টাচ তাকে কালো করে তুলে তাহলে কি হবে! কতটুকু সাদা হলে সে জেনারেল থেকে সেইফ হবে, সে চিন্তা ও রাতের ঘুম হারাম হয়ে যায় নীলার, মাঝ রাতে চিৎকার দিয়ে উঠে, অদ্ভুত এক স্বপ্ন দেখে, ফেয়ার এন্ড লাভলী মাখতে মাখতে সে ক্রমান্বয়ে লাল হয়ে যাচ্ছে, রক্তের বর্ণ, কোরবানীর সময় সে দেখেছে, লাল রক্ত সময় পেরুলে কালো হওয়ার দৃশ্য, তাহলে কি সে সাদা থেকে লাল অতপর সময় গড়িয়ে কালো হয়ে যাবে!? :((





সেই ভাবনা এক সময় তার মানসিক সমস্যা হয়ে দেখা দিল, কালো মেয়ে ছেলে এমন কি বাবাকে ও সে সহ্য করতে পারে না, কালো মানেই অভিশাপ, অশরীর আত্না, তার মাথায় কেবল একটি শব্দ সাদা-কালো, :(





এভাবে একদিন শুরু হয়ে গেল সাদা কালো দন্ধ, লক্ষ নীলা এক হয়ে তৈরী হলো শ্বেতাঙ্গ শ্রেণি,তাতে পুরুষরাও কম যায় নি! তিনশ বিয়াল্লিশ বছর চলে সেই যুদ্ধ, অল আর মোটিবেটেড, অল আর সাইকো, ধামা চাপা পরে যায় কারা কোমলমতী হৃদয়ে এই বিদ্বেষ ছড়িয়ে দিয়েছিল, আড়াল হয়ে যায় বহুজাতিক নষ্ট কোম্পানিগুলোর মুনাফা লোভী ইতিহাস, :((



এমন এক ক্রান্তিকালে নীলাদের তোপের মুখে জন্ম হয় মাহাত্না নেলসন ম্যান্ডেলার, অন্ধ কালো এক কারাগারে জীবন কাটিয়ে সে ফিরে আসে আলোতে, বিলুপ্ত হয় একটি বর্ণ প্রথার ৷ কিন্তু রয়ে যায় বহুজাতিক কোম্পানি গুলো, তারা এখন আমাদের গার্মেন্টস শিল্পের নারী শ্রমিকদের টার্গেট করে এগুচ্ছে, এদের কষ্টার্জিত টাকায় ভাগ বসাতে হবে, শুরু হয়ে যায় মোটিবেশন, ফেয়ার এন্ড লাভলী না মাখলে যেন হাত থেকে সুই পিছলে যাবে বারবার!! :(





যে গার্মেন্টস কর্মীরা সকালের টিফিন দুপুরের ভাত হিসেবে খেত তাদের অনেকে দৈনিক তিনবার ফেয়ার এন্ড লাভলী মাখা শুরু করলো, কষ্টের জীবন আরো কষ্টের হতে লাগলো, কেউ কেউ বেচে নিতে লাগলো অবৈধ পেশা, খায় না খায় দিনে তিন বেলা ক্রিম মাখতেই হবে, না হলে জীবন খসে যাবে, অন্যদিকে তার মানবতা কখন যে খসে গেছে সে টের ও পায়নি, জন্ম নিলো আরেক নীলা শ্রেণি ৷ :( :(

মন্তব্য ০ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (০) মন্তব্য লিখুন

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.