নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif অথবা Abdur Rob Sharif

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

সিগারেট থেকে শুরু, শেষ কালে হিরোইন...!

২০ শে মে, ২০২০ সকাল ৭:১৬



নিউজটা দেখে ভ্যাবাচ্যাকা হয়ে গেলাম, চোখের সামনে ভেসে আসলো পকেটে সিগারেট ঢুকিয়ে টাকা দাবী করে না পেয়ে ধরে নিয়ে যাচ্ছে পুলিশ টাইপ এমন কিছু ৷
.
আবারো বলছি, সকল ধরণের বিড়ি সিগারেট উৎপাদন, সরবরাহ, বিপণন সাময়িকভাবে নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে সরকার ৷
.
এখন এমন সংবাদের অপেক্ষায় আছি, তল্লাশী করে পাওয়া গেলো দুইটি রাম দা সাথে কয়েকটি সিগারেটের খালি প্যাকেট ৷
.
নতুন করে আরেকটি যুদ্ধ শুরু হলো যা এতোদিন বৈধ ছিলো তা হলো সিগারেটের চোরা কারবারি সিন্ডিকেটের সাথে সভ্য সমাজের মানুষদের টানাপোড়েন,
.
সিগারেট খাওয়া ভদ্রলোক বিষয়টি এখন সিগারেট খাওয়া গুন্ডা মর্মে সমাজে প্রতিষ্ঠিত হওয়া দরকার ৷
.
করোনার আবাদ ভূমি আগেই উর্বর করে রাখে কিন্তু এই ধূমপান ই, যদিও আগেও বলেছি এখন আবারও বলছি,
.
পৃথিবীতে প্রতি দশ জন মানুষের মৃত্যুর কারণের মধ্যে একজনের কারণ ধূমপান ৷
.
বিশ্বে ধূমপানের কারণে প্রায় ৬০ লক্ষ মানুষ মারা যায় ৷
.
ইয়ে মানে প্রতি ৬ সেকেন্ডে ১ জন মানুষের ধূমপানজনিত কারণে মৃত্যু হয়,
.
বাংলাদেশে প্রতি বছর ১ লক্ষ ৬২ হাজার মানুষ ধূমপানের কারণে মারা যায়!
.
ফুসফুসের ক্যান্সার এবং ক্রনিক অবস্ট্রাকটিভ পালমোনারি আক্রান্ত প্রতি ১০ জন রোগীদের মধ্যে ৮ জনের কারণ ধূমপান,
.
পৃথিবীতে এখন সবচেয়ে বেশী মানুষ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে মারা যায় তাদের প্রতি ৬ জনের মধ্যে ১ জনের মৃত্যুর কারণ ধূমপান,
.
প্রতি তিন জন ধূমপায়ী মানুষদের মধ্যে দুইজন ধূমপান জনিত কারণে মারা যায় ৷
.
বেপারগুলো এতোটা ভয়ঙ্কর যে ফ্রান্সে এক বছরে দশ লাখ মানুষ ধূমপান ছেড়েছে/
.
অস্ট্রেলিয়ায় পুরুষ ধূমপায়ীর হার ২৫ শতাংশ থেকে কমে ১৪ শতাংশ এবং নারী ধূমপায়ীর হার ২৩ শতাংশ থেকে কমে ১০ শতাংশে নেমে এসেছে,
.
ব্রাজিলে পুরুষ ধূমপায়ীর হার ২৯ শতাংশ থেকে কমে ১২ শতাংশ এবং নারী ধূমপায়ীর হার ১৯ শতাংশ থেকে কমে ৮ শতাংশে নেমে এসেছে ৷
.
যুক্তরাষ্ট্রে পূর্বের তুলনায় প্রায় ৩০ লাখ মানুষ ধূমপান ছেড়েছে আর একটি সিন্ধান্তের কারণে আমেরিকায় ক্যান্সারে মৃত্যুর হার কমেছে ২৬ শতাংশ!
.
প্রতিবেশী দেশ ভারতে তামাক সেবনকারী কমেছে প্রায় ৮০ লক্ষ তবে মহিলাদের মধ্যে ধূমপান বৃদ্ধি পাচ্ছে,
.
ইউরোপেও ধূমপান কমলেও নতুন করে গাঁজায় টান দেওয়ার নেশা বেড়েছে,
.
ব্রিটিশরা বাঙ্গালীদের সিগারেট শিখায়ে নিজেদের ধূমপায়ীদের সংখ্যা কমে অর্ধেকে নেমে এসেছে,
.
অথচ বাংলাদেশে সম্প্রতি ধূমপায়ী কমা তো দূরে কথা তা ৩৮ শতাংশ থেকে বাড়ছে ৷
.
কিন্তু ২০০০ সালে বাংলাদেশে ধূমপায়ীর হার ছিলো ৬৪ শতাংশ তা কমে ২০১৫ সালে প্রায় ৩৮ শতাংশে নেমে এসেছিলো
.
প্রতিটি দেশে বড়লোকদের মধ্যে গরীবদের ধূমপানের প্রবণতা বেশী,
.
বাংলাদেশে গরীবদের মধ্যে প্রায় ৭১ শতাংশ মানুষ ধূমপান আসক্ত হলেও তা বড়লোকদের মধ্যে সেই তুলনায় ৩৬ শতাংশ!
.
ওরা এতো হতদরিদ্র যে ছোট খাট কোন অসুখ হলেও চিকিৎসা করানোর ক্ষমতা পর্যন্ত নেই কিন্তু ক্যান্সারের মতো অসুখ হলে বিনা চিকিৎসায় ধুকে ধুকে মরা ছাড়াও তাদের গতি নেই ৷
.
উন্নত দেশগুলোতে বর্তমানে ধূমপানের হার কমলেও বাংলাদেশের মতো দেশগুলোতে ধূমপানের হার কমছে না
.
শুধু তা না আপনি যদি ধূমপান না ও করে থাকেন তবুও ধূমপায়ীর পাশে থাকলে আপনার হৃদরোগ এবং ফুসফুসের ক্যান্সার হওয়ার সম্ভবনা যারা ধূমপায়ীদের এড়িয়ে চলে তাদের থেকে ত্রিশগুণ বেশী,
.
গত বছরে সবচেয়ে বেশী ধূমপায়ী দেশের মধ্যে আমাদের নামও ছিলো ৷
.
এবার আপনি ই বলেন, উচিত হয়েছে কি না?

মন্তব্য ২১ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (২১) মন্তব্য লিখুন

১| ২০ শে মে, ২০২০ সকাল ৭:৩৯

বিষন্ন পথিক বলেছেন: উচিত হয়নাই, করোনায় মরার চেয়ে সিগারেট খেয়ে মরা ভালো
তিব্র প্রতিবাদ আর ধিক্কার

২০ শে মে, ২০২০ সকাল ৭:৪৪

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: তাতে তো আরো করোনার ঝুঁকি বাড়বে বৈকি কমবে না ৷

২| ২০ শে মে, ২০২০ সকাল ১০:৩৯

কল্পদ্রুম বলেছেন: বিটিভির পরিচিত সুর।এই গানটার কথা সুর ও প্রধান পুরুষ কন্ঠ যে কবির সুমনের এটা জেনেছি অনেক পরে।

২০ শে মে, ২০২০ সকাল ১০:৫৫

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: আর আমি জানলাম এখন ৷

৩| ২০ শে মে, ২০২০ সকাল ১১:৩২

বিদ্রোহী ভৃগু বলেছেন: আত্মঘাতি সিদ্ধান্ত।

৩০ হাজার কোটি টাকা নূন্যতম রাজস্ব দেয়ার খাত এভাবে হুট করে বন্ধ করে বাজেট সামলাতে পারবে তো?
সিগরাটে পান না করা সকল মানুষইকি অনন্ত কাল বেঁচে আছে?
মৃত্যু একটা স্বাভাবিক প্রক্রিয়া যা কেউ ঠেকাতে পারেনি, পারবে না।

এখন অবৈধ ব্যবসায় আরেকটা খাত বাড়লো!
মানুষকে সত্যিকারে ধূমপান মুক্ত করতে চাইলে ধীরে ধীরে তার পথ পদ্ধি যথাযথ অনুসরন করতে হবে।
হুট করে ধূমপান বন্ধ করলে তার বিরুপ প্রতিক্রিয়াও যথেষ্ট ক্ষতিকর।

আবার যেসব দেশে ধূমপান নিষিদ্ধ সেখানে এলকোহল বৈধ! উন্নত দেশ কানাডায় গাজা সেবন বৈধ!
আর আমাদের দেশে তো বিয়ারও নিষিদ্ধের তালিকায়! কেম্নে কি
তারচে সব মানুষের গলা টিইপ‌্যা মাইরা ফেইলা বলেন - দেশ এখন সবকিছূ থেকে মুক্ত!!!!

ডিসক্লেইমার: আমি একজন ধূমপায়ী।

২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১:০৯

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: সীমিত পরিসরে ই তো বন্ধ করেছে, লাভ চেয়ে ক্ষতি যদি হাজারগুণ বেশী হয় তাহলে কি চলবে? বিলিওন ডলার যে বক্ষব্যাধি হাসপাতালের পিছনে যাচ্ছে সেটা নিয়ে কিছু বলবেন?

৪| ২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১২:১৭

অজ্ঞতা বিরোধী এসিড বলেছেন: সিগারেট বন্ধকরার আইনগত ব্যবস্থাটা একেবারেই উচিত হয়নাই। কারণ
১. একটি বিশাল প্ররিমান রাজস্বের উৎস হচ্ছে এই সিগারেট ও তামজাত পন্য।
২. স্বাস্থ্যঝুকি সবসময় ছিলো কিন্তু নেশা নামক ব্যাপারটি সিগারেটের সাথে যুক্তকরণ সম্ভব নয়। অন্যান্য নিষিদ্ধ মাদকের অভাবে মানুষ উগ্রতা ধারণ করলেও সিগারেটের অভাবে উগ্রতা ধারণের নজির নেই বললেই চলে। রাষ্ট্রে নেশাদ্রব্য নিষিদ্ধকরণ ঠিক আছে কিন্তু সিগারেট নিষদ্ধকরণটা মেলাতে পারলুম না।
৩. এখন সিগারেটকে মাদক হিসেবে গন্য করা হলে তরুন সমাজ সিগারেট কিনবে চোরাই উপায়ে৷ সিগারেট মানুষ ঠিকই খাবে কিন্তু তার রাজস্ব সরকার পাবেনা।
৪. সিগারেট বন্ধ আছে এমন রাষ্ট্রের কথা আনলে উত্তর কোরিয়াকে নিয়ে আসলে বলবো সেখানে গাজা সেবন বৈধ৷

২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১:১০

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: সিগারেট কোম্পানীগুলো মোবাইল কোম্পানীর মতো, ভালো দিক খুঁজে বের করে ৷ এক লোক বলে খুব টেনশন হচ্ছে তা শুনে আরেক লোক বলে ভাই সমাধান আছে, মরে যান ৷

৫| ২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১২:৩৪

রাজীব নুর বলেছেন: তামাক ব্যবসার সাথে যারা জড়িত ছিলো তারা এখন কি করবে?

২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১:১১

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: বিবর্তন পৃথিবীর ইতিহাসের স্বাক্ষী, প্রায় সব চালক এখন সিএনজি আর রিক্সা চালাচ্ছে করোনায় ৷

৬| ২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১২:৫২

নেওয়াজ আলি বলেছেন: একজন ফেসবুকে লিখেছে এবার সে পাতা দিয়ে বিড়ি বানিয়ে টানবে

২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১:১২

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: বিষেরও সহনশীল মাত্রা থাকে, সীমিত পরিসরে অনেক কিছু চালিয়ে যাওয়াও তত মন্দ না, গাঁজাও নাকি হালকা ভালো ৷ :P

৭| ২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১:৪১

সাইন বোর্ড বলেছেন: ধুমপান ক্রমান্বয়ে একটা পর্যায়ে গিয়ে পুরোপুরি নিষিদ্ধ করে দিতে পারলে মন্দ হয় না, এতে অর্থের অপচয় বন্ধ হবে ।

২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ২:৪৪

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: অর্থনৈতিক সামাজিক পারিপার্শ্বিক সব ধরণের অপচয় এতো রোধ হবে ৷

৮| ২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ১:৫৩

আমি সাজিদ বলেছেন: সিগারেট থেকে শুরু এবং শেষেও সিগারেট ছিলো এমন অনেক সাকসেসফুল মানুষকে আমি নিজ চোখে দেখেছি। কপি করা ক্যাপশনটা দৃষ্টিকটু।

২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ২:৪৪

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: ওটা একটা গানের লাইন, এখন কবির বকুলকে প্রশ্নটি করা সময়ের দাবী ৷

৯| ২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ২:০৬

মুজিব রহমান বলেছেন: করোনাভাইরাসে আক্রান্তদের মধ্যে সিগারেটখেকোদের মৃত্যুহার ১৪গুণ। সিগারেট টানার কারণে বহুবিধ সমস্যা তৈরি হয়। এটা নিষিদ্ধ হওয়া উচিৎ। আমি সারাজীবনে সিগারেট টানিনি তাতে কোন অসুবিধাতো হয়নি। অন্যদেরও হবে না।

২০ শে মে, ২০২০ দুপুর ২:৪৬

আবদুর রব শরীফ বলেছেন: আমার গাজরের ন্যায় লাল রংয়ের ঠোঁট ছিলো, সিগার তাকে মেরে ফেলেছিলো ৷ :P

১০| ২০ শে মে, ২০২০ বিকাল ৪:১৪

আলোকরশ্মি22 বলেছেন: সরকারকে ধন্যবাদ জানাই , খুব ভালো একটা উদ্বেগ, আর আমাদের ইসলাম ও বলে ধূমপান হারাম ।
আল্লাহ কুরআনে বলেছেন,(সূরা-আরাফ,অধ্যায়-৭,আয়াত-১৫৭) যাহারা অনুসরণ করে বার্তাবাহক উম্মী নবীর, যাহার উল্লেখ তাওরাত ও ইন্জীল, যাহা তাহাদের নিকট আছে তাহাতে লিপিবদ্ধ পায়, যে তাহাদেরকে সৎকাজের নির্দেশ দেয় ও অসৎকাজে বাধা দেয়, যে তাহাদের জন্য পবিত্র বস্তু হালাল করে ও অপবিত্র বস্তু হারাম করে এবং যে মুক্ত করে তাহাদেরকে তাহাদের গুরুভার হইতে এবং শৃংখল হইতে- যাহা তাহাদের উপর ছিল। সুতরাং যাহারা তাহার প্রতি ঈমান আনে তাহাকে সম্মান করে, তাহাকে সাহায্য করে এবং যে নূর তাহার সঙ্গে অবতীর্ণ হইয়াছে উহার অনুসরণ করে তাহারাই সফলকাম।

তাহলে নবীজী (ﷺ) যা দিয়েছেন তিনি যেগুলোকে ভালো বলেছেন সেগুলোকে আমরা গ্রহণ করবো,আর যেগুলো খারাপ সেগুলো থেকে বিরত থাকবো। এটাই হচ্ছে আইন। আর আল্লাহ পবিত্র কুরআনে বলেছেন,(সূরা-বাকারা,অধ্যায়-২,আয়াত-১৯৫)“তোমরা নিজের হাতে নিজেকে ধ্বংসে নিক্ষেপ করো না।”

তার মানে নিজেকে মেরে ফেলো না। যেহেতু ধূমপান এক ধরনের ধীর গতি সম্পন্ন বিষক্রিয়া,তাই এটা আত্মহত্যা করার মত। বিষক্রিয়া,প্রত্যেক দিন আপনার ক্ষতি হবেই। এর উপর ভিত্তি করে চারশো’র ও বেশি ফতোয়া দেওয়া হয়েছে যে ধূমপান করা হারাম। আর এছাড়াও আল্লাহ পবিত্র কুরআনে বলেছেন- (সূরা-আরাফ,অধ্যায়-৭,আয়াত-৩১) “পানাহার করো কিন্তু অপচয় করবে না”

পবিত্র কুরআনে (সূরা-আল ইসরা,অধ্যায়-১৭,আয়াত- ২৬ ও ২৭) “যে তোমরা অপচয় করো না,বাজে খরচ করো না,যারা অপচয় করে তারা তো শয়তানের ভাই”

আমরা সবাই জানি ধূমপান করা আসলে অপচয় ছাড়া কিছুই নয়। ব্যাপারটা অনেকটা এরকম যে টাকার একটা নোট নিয়ে অথবা সবুজ রং এর ডলার বা পাউন্ড নিয়ে তারপর সেটাতে আগুন ধরিয়ে দিলেন। যখন ধূমপান করেন তখন সিগারেটে আগুন ধরান এটা আসলে টাকা পুড়িয়ে ফেলা,হোক সেটা রুপি বা টাকা বা ডলার বা পাউন্ড অথবা রিয়াল;এটা অপচয় ছাড়া কিছুই না,আর ইসলামে হারাম। আর আমি কারণও দেখাতে পারি কেন এটা হারাম। যখন ধূমপান করেন তখন তাতে পাশের লোকের আরো বেশি ক্ষতিও হয়,অন্যের ক্ষতি তো হতে পারে। আর ধূমপান করলে যখন ধোঁয়াটা বাইরে ছাড়েন তাতে পাশের লোকের বেশি ক্ষতি হয়। যে ধূমপান করে তার চেয়ে যে করে না তার বেশি ক্ষতি হয়। যদি কেউ সিগারেট খেয়ে ধোঁয়া ছাড়ে তার পাশে যে থাকে তার শরীরেও ধোঁয়া চলে যায় এতে করে ধূমপায়ীর চেয়ে পাশের লোকের বেশি ক্ষতি হয়। সেজন্য সিঙ্গাপুরে বাইরে ধূমপান করা নিষিদ্ধ,নিজে একাকী খেতে পারে কিন্তু বাইরে জনসাধারনের সামনে খাওয়া নিষিদ্ধ। তাহলে ধূমপান করা ক্ষতি কর সেজন্য এটা হারাম।

১১| ২০ শে মে, ২০২০ বিকাল ৪:৫৭

শুভ্রনীল শুভ্রা বলেছেন: ধূমপান স্বাস্থ্যের জন্য ক্ষতিকর তা বলার অপেক্ষা রাখেনা। নিজের জীবনকে ভালোবেসে ধূমপায়ীদের উচিত ধীরে ধীরে তা বর্জন করা।
বিড়ি -সিগারেট বিক্রি বন্ধ হচ্ছেনা। নিচের লিঙ্কে দেখতে পারেন -

শিল্প মন্ত্রনালয়ে নাকচ হয়ে গেলো বাংলাদেশে বিড়ি-সিগারেট বিক্রি বন্ধের প্রস্তাব

১২| ২০ শে মে, ২০২০ রাত ১০:১৩

রাজীব নুর বলেছেন: আমার বিলাসিতা বলতে শুধু সিগারেট।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.