নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif অথবা Abdur Rob Sharif

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

রম্য, যে শহরে করোনারা হারায়

০৬ ই জুলাই, ২০২০ সন্ধ্যা ৭:০৫

ভদ্রলোকের পিপিই পরার খুব শখ ছিলো, তা না পেয়ে রেইনকোট পরে বের হয়ছে ৷ গরমে ঘামছে খুব ৷ সে এসেছে অক্সিজেন মোড়ে একটা বিড়ি টানবে বলে,
.
তারচেয়ে কিউট ভদ্রলোক একটু আগে চোখের সামনে দিয়ে গেলো ৷ সে পুরোদস্তুর গ্রীষ্মের তাপদাহে শীতের জ্যাকেট গায়ে দিয়ে হুন্ডা চালাচ্ছে ৷ করোনা যাবি কই?
.
আমার স্যার আরো অদ্ভুত ৷ তিনটা এন-৯৫ মাস্ক সে একাই পড়েছে ৷ আরেক কলিগ সে একটা সার্জারিক্যাল মাস্কে অফিসের মার্কার দিয়ে ডেইট লিখে রেখেছে ৷ তা ও আবার এক্সপায়ার ডেইট ৷ নতুনটা ভিতরে ৷ সপ্তাহব্যাপী মেয়াদ উত্তীর্ণ হলে তার উপরে ৷ করোনা ভাইরাস তোর যেনো রক্ষা নাই ৷
.
একজনকে দেখলাম সে রুমালের উপর টিস্যু তার উপর সার্জারিক্যালের উপ্রে ত্যানার মাস্ক সর্বোপরি এম হান্ড্রেড ৷ সেদিন বলছে তার নিঃশ্বাস নিতে কষ্ট হচ্ছে ৷ ডাক্তার দেখে বললো, মাস্ক খোলেন সব ৷ অতপর সে নাকি আমাজান জঙ্গলের গভীরের অক্সিজেন পাচ্ছে ৷
.
এক মেয়ে চুল উড়ছে সে মাস্ক পিছনে থেকে কান টেনে বেঁধে রাখছে ৷ হয়তো কেউ শিশুর ডায়পার শেষ হয়ে গেলে মাস্কও পরিয়ে দিতে পারে ৷ অবাস্তব কিছু না ৷
.
প্রতিবেশীর সুন্দরী মেয়ে এতো শুকনা যে ওকে দেখলে আমার মাস্কের কথা মনে হলে হাসি আসে ৷ আমার দাদীকে দেখলাম দুটো কাপড়ের মাস্ক দিয়ে গরম পাতিল চুলা থেকে নামাচ্ছে ৷ আমার চোখে এসব পড়ে ক্যান ৷ হাসবো না কাঁদবো ৷
.
মানবতার দেয়ালে কে যেনো তার পুরনো মাস্কটি ঝুলিয়ে রেখে গেছে ৷ রম্যের দেশ বাংলাদেশ ৷ সেদিন দেখলাম, বাইচ্চা কিন্না লন্ এক দাম বারো টাকা ৷ তা ও আবার সার্জারিক্যাল মাস্ক ৷ বস্তা ভরে বিক্রী করতে আনছে ৷
.
আরো দেখলাম এলাকায় টোকাই আসছে মাস্কের খোঁজ করতে ৷ ভাইরে ভাই ৷ চিপসের প্যাকেট পরে আছে মাগার মাস্ক নাই হয়ে গেছে ৷
.
এখনো বুঝলাম না বাসের চালক কেনো মাস্ক দিয়ে লুকিয়ে গ্লাস ঢেকে রেখেছিলো ৷ গ্লাসেরও কি সুরক্ষার খুব দরকার ৷ আর কারো এমন এমন অবস্থা নিতম্বে খোঁজ করলেও মাস্কে ঢাকা দেখা যাবে ৷
.
সফট্ মাস্ক খুলে নাকের ভিতরে চালান করে তা দিয়ে আবার ঠোঁটের দুই পাশের লালা সাথে ঘাম মোচা হলে সেটা দিয়েছে নাকে ৷ মুখ খোলা ৷
.
আরো মজার বেপার হলো মাস্ক মুখের ভিতর পুরে রেখে নিঃশ্বাস নিচ্ছে, আহারে শান্তি ৷ নাক মুখ খালি রেখে চিবুকে মাস্ক পরে থাকলে মনে হয় করোনা হয় না ৷
.
মাস্ক নামিয়ে রেখে হাঁচি কাশি সব দেওয়া শেষ হলে আবার তা নাকে মুখে টেনে না দিলে কি করোনা ভাইরাস ভয় পাবে ৷ এসব দেখি মাস্ক নিয়ে কঠিন এক আজব কাজ কারবার ৷
.
একমাত্র বাংলাদেশে মাস্ক থ্রি ইন ওয়ান ৷ একের ভিতরে সব ৷ ফুল প্যাকেজ ৷ আরো বহুবিধ ব্যবহার আছে ৷ বললে রম্য আর রম্য থাকবে না ৷

মন্তব্য ২ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (২) মন্তব্য লিখুন

১| ০৬ ই জুলাই, ২০২০ রাত ৮:৪৪

রাজীব নুর বলেছেন: আমি প্রতিদিন এখন বাইরে যাচ্ছি। আড্ডা দিচ্ছি। যা আছে কপালে।

২| ০৬ ই জুলাই, ২০২০ রাত ১০:২৪

নেওয়াজ আলি বলেছেন: মজা পেলাম পড়ে ।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.