নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif অথবা Abdur Rob Sharif

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

রম্য, প্রেমানাম

১৬ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ৯:২৪

কোন ভাবে প্রমাণ করা যাচ্ছিলো না বাংলাদেশী মশাই এভারেস্ট জয় করেছে ৷ নিজ দেশে ই চলছিলো নানা রকম তর্ক বিতর্ক ৷
.
এক পর্যায়ে কর্তৃপক্ষ টিম পাঠালো ৷ তিন সদস্য বিশিষ্ট তদন্ত টিম ৷ তারা একে একে পতাকা চেক্ করে দেখলো চূড়ায় পৃথিবীর প্রায় দেশের পতাকা উড়ছে কেবল মাত্র বাংলাদেশ ছাড়া ৷
.
ভদ্রলোকের জোর দাবী তিনি এভারেস্ট জয় করেছেন করেছেন এবং করেছেন ৷ কিন্তু পতাকা চিহ্ন রাখতে ভুলে গেছেন ৷ এবার তদন্ত দল তাকে জেরা শুরু করলো ৷ সে কোন নির্ভরযোগ্য প্রমাণ দিতে পারছিলেন না ৷
.
ক্রমান্বয়ে তাকে প্রশ্ন করা হলো, আপনি সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ জয় করেছেন ভালো কথা সেখানে কোন স্মৃতিচিহ্ন রেখে আসলেন না কেনো?
.
ভদ্রলোক উত্তর দিলো, 'রেখে আসিনি মানে! ভালবাসা রেখে এসেছি ৷' তা শুনে তদন্ত দল থ্ ৷ তবুও আরেকবার শেষ চেষ্টা করা যাক্ ৷ যথারীতি তারা এভারেস্টে চূড়ায় দক্ষ একদল কর্মীবাহিনী পাঠালো ৷ সেখানে আরো সূক্ষভাবে সবকিছু পর্যবেক্ষণপূর্বক এক কোণে লাল পাথর দিয়ে খোদাই করে লাভ চিহ্নের ভিতর লেখা এস+এম দেখে আনন্দে লাফিয়ে উঠলো ৷
.
প্রমাণ হলো এটা বাঙ্গালী ছাড়া কোন জাতি করবে না ৷ সাংবাদিকরা তাকে ঘিরে ধরলো, নানা রকম প্রশ্ন শুরু করলো ৷ এ যেনো ভালোবাসার নতুন এক বিরল দৃষ্টান্ত ৷
.
একযুগ ধরে সে লাভ চিহ্নের ভিতর S+M লিখে আসছে ৷ কচকচে নতুন টাকা থেকে শুরু করে প্রতিবেশীর সাদা দেয়াল এমন কোন জায়গা নেই যে সেখানে সংকেতটি লিখতো না ৷
.
শেষ যখন ব্রেকাপের পর কক্সবাজার গিয়েছে নেমেই বালির মধ্যে পান পাতা এঁকে সেখানে তীর চিহ্ন দিয়ে সমুদ্রে তীরে বসে আল্পনা করেছিলো, এস মাইনাস এম ৷
.
সেদিন মেয়েটির সাথে আবার দেখা ৷ ছেলেটিকে দেখে মেয়েটি বললো 'লোকে বলে তুমি নাকি এভারেস্টের চূড়ায় উঠে এস+এম লিখেছো? নিজ চোখে না দেখে বিশ্বাস করি কেমনে! যে যুগ আসছে ৷ কোন ছেলেকে বিশ্বাস নাই ৷'
.
আরেকবার ছেলেটি ভালবাসার তাজমহল দেখতে ভারত গিয়েছিলো ৷ ফিরে এসে বললো, ওখানে ভালবাসা নেই ৷ কোনকালে ছিলো না ৷ তা শুনে পাশের লোক বললো, কেনো! দীর্ঘশ্বাস ছেড়ে সে বলতে লাগলো, 'সেখানে ভালবাসার আরেক নিদর্শন ইটার টুকরো দিয়ে সাদা মার্বেলের দেয়ালে যেই না S+M লিখতে যাবো এমন সময় পুলিশের প্যাঁদানি খেয়ে পরের দিন সোজা দেশে চলে আসছি ৷'
.
একদিন নাকি দেয়ালে লেখার কারণে হবু শ্বশুর বাবাও মজনুকে গরু খোঁজ করতেছিলো ৷

মন্তব্য ১ টি রেটিং +২/-০

মন্তব্য (১) মন্তব্য লিখুন

১| ১৭ ই সেপ্টেম্বর, ২০২০ রাত ১২:০৭

রাজীব নুর বলেছেন: বেশ মজা করে লিখেন আপনি।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.