নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif

আবদুর রব শরীফ

আমার লেখা কারো ভালো লাগলে ০১৮১৫৩৩৮৩৭৫ নাম্বারে বিকাশ কিংবা লোড নতুবা ডাক বিভাগের সেবা নগদে মজুরি পাঠালে আমি গর্ববোধ করবো ৷ আমার জীবনের বেশীরভাগ সময় আমি লিখে কাটাতে চাই, আমার ফেসবুকের ঠিকানা, www.facebook.com/abdur.sharif অথবা Abdur Rob Sharif

আবদুর রব শরীফ › বিস্তারিত পোস্টঃ

যে পৃথিবী এক ঝাঁক পাগলের ৷

২৩ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:২০

জীবনের কোন লক্ষ্য নেই ভেবে ওরাকলের প্রতিষ্ঠাতা ল্যারি এলিসনের প্রিয়তমা তাকে ডিভোর্স দিয়েছিলেন ৷
.
তার পরিবার এবং প্রিয়তমা চাইতেন সে ডাক্তার হবে অথবা ভালো ডিগ্রী নিবে ৷
.
কিন্তু ল্যারি তার জীবনের জন্য প্রিয়জনদের ঠিক করে দেওয়া লক্ষ্য নিয়ে কখনো সন্তুষ্ট হতে পারেননি,
.
সে সব সময় তার ভালো লাগার কাজের মধ্যে সবটুকু সুখ কিংবা স্পৃহার খোঁজ পেতো ৷
.
তথ্য প্রবাহ অবাধ এবং দ্রুত গতির করার জন্য সে যখন সাম্পর্কিক ডাটা বেজ নিয়ে কাজ করার জন্য সবচেয়ে সম্যক ক্ষেত্রে মেধাবী বিজ্ঞানীদের তার প্রতিষ্ঠানে নিয়োগ দিয়েছিলো তখন অনেকে বলেছিলো রিলেশনাল ডাটাবেজ করলে ডাটা প্রাপ্তি সময় সাপেক্ষ এবং মন্থর গতির হয়ে যাবে ৷
.
সে সব সাইন্টিস্টদের চ্যালেঞ্জ করে বলেছিলো তারা ভুল, এমন একটি টেবিল নিয়ে কাজ করে সফল হলে ডাটা প্রাপ্তি বরং আরো সহজ থেকে সহজতর হবে ৷
.
ল্যারি যখন তার সিন্ধান্তে অটল অবিচল ছিলো তখন তার সমসাময়িকরা তাকে বলছিলো পাগল এবং উদ্মাদ ৷
.
তারপর সে তাদের উদ্দেশ্য করে একটি কথা বলেছিলো ৷
.
শুরু থেকে এতো কিচ্ছা কাহিনী বলার উদ্দেশ্য এই কথাটি আমাদের সবার জীবনের জন্য অমূল্য পাথেয় হবে ৷
.
তিনি বলেছিলেন এমন, 'যেদিন থেকে লোকে আপনার সৃষ্টিশীল কাজের জন্য উন্মাদ পাগল বলা শুরু করবে মনে করবেন সেদিন থেকে আপনি আপনার জীবনের সফলতার রাস্তা পেয়ে গেছেন ৷'
.
আর যদি লক্ষ্য অটুট থাকে কেউ উন্মাদ বলার পর আমাদের কাজ হলো ইউরেকা ইউরেকা বলে চিৎকার করে আরো সামনে এগিয়ে যাওয়া ৷
.
একদিন ইতিহাস ই বলবে, পাগল ছাড়া দুনিয়া চলেনা ৷
.
বিজ্ঞানের জগতে নিউটন, আইনস্টাইনের চেয়ে বেশী পাগলামি কেউ করেনি, মারা যাওয়ার পর নিউটনের শরীরে সবচেয়ে বেশী উপস্থিতি ছিলো পারদের ৷
.
কৃত্রিম সোনা কিংবা পরশ পাথর তৈরীর ফর্মুলা তাকে পারদের পাগলা গারদে আষ্টেপৃষ্ঠে রেখেছিলো ৷
.
এই পৃথিবীতে এমন এক ঝাঁক পাগল আছে, ছিলো, থাকবে ৷ আমি আপনি না বরং তারা পৃথিবী পাল্টে দিয়েছে, দিবে,দিতে থাকবে ৷

মন্তব্য ৩ টি রেটিং +০/-০

মন্তব্য (৩) মন্তব্য লিখুন

১| ২৩ শে অক্টোবর, ২০২০ সন্ধ্যা ৬:৩৯

রাজীব নুর বলেছেন: এরকম পাগলই তো বেশি দরকার বিশ্বসংসারে।

২| ২৩ শে অক্টোবর, ২০২০ রাত ৮:৫২

মুজিব রহমান বলেছেন: আল কেমি বিজ্ঞানীদের মতো কাজ করতে গিয়ে নাকি মস্তিষ্কবিকৃতির পরেই নিউটন আলকেমি হতে গিয়েছিলেন?

৩| ২৪ শে অক্টোবর, ২০২০ বিকাল ৪:২২

একাল-সেকাল বলেছেন:
পাগলদের আশীর্বাদে পৃথিবী হয়েছে গতিশীল ও আয়েসি, আবার তাদের অভিশাপেই হবে ধ্বংস।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.