নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

মানুষের চেয়ে বড় কিছু নেই।

মুজিব রহমান

মুক্তচিন্তা ও বিজ্ঞানমনষ্ক মানুষ

মুজিব রহমান › বিস্তারিত পোস্টঃ

আন্তঃধর্মে বিবাহঃ মানবিক সমাজের সম্ভাবনা!

০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:২৪


বিক্রমপুরের একটি উচ্চ শিক্ষিত মুসলিম পরিবারের পরিচিতি পুস্তিকা দেখে মুগ্ধ হলাম। তাদের তিন ভাই বিয়ে করেছে ভিন্নভিন্ন তিন ধর্মের নারীকে। জাপান প্রবাসী বিয়ে করেছেন জাপানিজ বৌদ্ধ, রাশিয়ায় ডাক্তারি পড়তে গিয়ে আরেকজন বিয়ে করেছেন রাশান খৃস্টান এবং আরেক ভাই আমেরিকায় বিয়ে করেছেন মার্কিন ইহুদি। তাঁর ভাইদের মধ্যে একজন মাত্র ধর্মবিশ্বাসী। তারই মেয়ে বিয়ে করেছেন দক্ষিণ ভারতের ব্রাহ্মণ ছেলেকে। এই পরিবারের কয়েকজনের সাথেই আমার ঘণিষ্ঠতা রয়েছে। তারা সকলেই সুখে আছে। তাদের সন্তানরাও একেকজন ‍উচ্চ মাত্রার মেধাবী হিসেবে নিজেদের প্রতিষ্ঠা করছে। আমার যে হিন্দু বন্ধু অসীম কুমার হোসনে আরাকে বিয়ে করে অষ্ট্রেলিয়াতে বসবাস করছে তাদেরও রয়েছে এক সন্তান। সেও খুবই মেধাবী ও অষ্ট্রেলিয়ার একটি বিখ্যাত বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়ন করছে। ওরা একটি সুখি পরিবার।

বারাক ওবামা ও স্টীভ জবস পৃথিবীর সবচেয়ে মেধাবী মানুষদের দুজন। বারাক ওবামা নিগ্রোয়েড মুসলিম পিতার সন্তান হয়েও মেধার জোরেই আমেরিকার দুই টার্মের প্রেসিডেন্ট হিসেবে প্রশংসিত হয়েছেন। বলা হয়, নির্বাচন করার সুযোগ থাকলে তিনি তৃতীয় টার্মেও প্রেসিডেন্ট হতেন। তাঁর মা ছিলেন ককেশীয় (সাদা ইউরোপীয় অর্থে) খৃস্টান। সংসারও বেশিদিন টিকেনি। ওবামার মেধার বিকাশে তা প্রতিবন্ধকতা তৈরি করতে পারেনি। আরো কঠিন জীবন ছিল স্টীভ জবসের। তাঁরও বাবা ছিলেন সিমেটিক মুসলিম আর মা ককেশীয় খৃস্টান। ছাত্র-জীবনে ভালবাসাবাসি করতে গিয়ে সন্তানের জন্ম হলে তাকে ত্যাগই করতে হয়। মা-বাবাও বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়েন। পালক পিতার আয় বেশি ছিল না। স্টীভ জবসের পড়াশোনাও সম্পন্ন করতে পারেনি। কিন্তু তাঁর মেধাকে আটকেও রাখা যায়নি। তিনি এ্যাপল প্রতিষ্ঠা করে পৃথিবীর তাবত মানুষের জীবন যাপনই পাল্টে দেন। সহজ করে দেন জীবন, বেঁচে যায় কোটি কোটি কর্মঘণ্টা। এমন অনেক উদাহরণই দিতে পারি। এখনো বিশ্বের অন্যতম সেরা ধনী এবং ফেসবুকের প্রতিষ্ঠাতা মার্ক জুকারবার্গ নিজে ককেশীয় ইহুদী হয়ে সংসার করছেন মঙ্গোলিয়াড বৌদ্ধ প্রিসিলা চ্যানের সাথে। জুকারবার্গ ইহুদি ও বৌদ্ধ দুই ধর্মের প্রতিই আগ্রহ দেখিয়েছেন। যদিও বাস্তবিক তাঁরা ধর্মবিশ্বাসী নন।

বাঙালি বিখ্যাত ব্যক্তিদের মধ্যেও আমরা এমনটা দেখি। এদের মধ্যে একমাত্র বাংলাদেশি নোবেল বিজয়ী ডক্টর ইউনুছ বিয়ে করেছিলেন রাশিয়ান খৃস্টান ভেরা ফরোস্টেনকোকে। তাদের ৯ বছরের দাম্পত্য জীবনের সন্তান মনিকা ইউনুস একজন সঙ্গীত শিল্পী। ইসলাম ত্যাগকারী প্রখ্যাত লেখক স্যার সালমান রুশদী ৫টি বিয়ে করেন। এরমধ্যে একজনও মুসলিম নেই। একজন ভারতীয় পদ্ম লক্ষ্মী- যার সাথে তিন বছরের দাম্পত্যজীবন ছিল। ভারতীয়দের মধ্যে দুজন অর্থনীতিতে নোবেল পান, দুজনই বাঙালি। দুজনকেই বিপেজি খুবই অপছন্দ করেন। সুযোগ পেলেই তাদের বিয়ে নিয়ে প্রশ্ন তুলেন গোচনাপায়ী বিজেপির বর্বর নেতারা। অমর্ত্য সেনের প্রথম স্ত্রী ছিলেন হিন্দু সাহিত্যিক নবনীতা দেবসেন। পরে তিনি খৃস্টান ও ইহুদী নারীকে বিয়ে করেন। বর্তমান স্ত্রী অধ্যাপক এমা জর্জিনা রথচাইল্ড লন্ডনের বিখ্যাত ইহুদী রথচাইল্ড পরিবারের মেয়ে। তাঁর দ্বিতীয় স্ত্রী খৃস্টান অর্থনীতিবিদ ইভা কলোনির ১৯৮৫ সালে মৃত্যুর ৬ বছর পরে ১৯৯১ সালে তৃতীয় বিয়ে করেন। প্রথম স্ত্রী ও সন্তানদের সাথেও তাঁর নিয়মিত যোগাযোগ ছিল। নবনীতা দেবসেনও গত বছর মৃত্যুবরণ করেছেন। অভিজিৎ বিনায়ক বন্দ্যোপাধ্যায়কেও বিজেপি আক্রমণ করে এ কারণে। তাঁরও প্রথম স্ত্রী ছিলেন ভারতীয় হিন্দু ডা. অরুন্ধতী তুলি ব্যানার্জি। তাদের বিবাহ বিচ্ছেদ হলে তিনি ২০১৫ সালে বিয়ে করেন অধ্যাপক এস্তের দুফ্লোকে। এস্তের একজন ফরাসী অর্থনীতিবিদ। তারা যৌথভাবেই নোবেল পান। প্রখ্যাত ফরাসী গণিতবিদ মাইকেল দুফ্লোর কন্যা এস্তের দুফ্লোকে বর্তমান বিশ্বের সেরা ১০০ বুদ্ধিজীবীর একজন হিসেবে গণ্য করা হয়। অমর্ত্য ও অভিজিৎকে বিজেপি ঘৃণা করার কারণ হল- তারা দুজনেই বিজেপির ভ্রান্ত অর্থনীতির বিরুদ্ধে কথা বলেন।

ভারতের বহু নায়ক নায়িকাও আন্তঃধর্মে বিয়ে করেছেন। ভারতের ক্রিকেট দলের অধিনায়ক মনসুর আলি খান পতৌদি বিয়ে করেন প্রখ্যাত অভিনেত্রী রবীন্দ্রনাথের পরিবারের মেয়ে শর্মিলা ঠাকুরকে। তাদের মধ্যে ধর্মীয় বিষয় নিয়ে সমস্যা হয়নি। তাদের সন্তান সাইফ আলি খান ও সোহা আলি খান হিন্দি সিনেমায় অভিনয় করেন। সাইফের প্রথম স্ত্রী প্রখ্যাত অভিনেত্রী অমৃতা সিং ছিলেন হিন্দু। ১৩ বছরের দাম্পত্য জীবন ২০০৪ সালে বিচ্ছেদ হলে এর ৮ বছর পরে বিয়ে করেন প্রখ্যাত অভিনেত্রী হিন্দু কারিনা কাপুরকে। সোহা আলি খান বিয়ে করেন অভিনেতা হিন্দু পণ্ডিত পরিবারের কুণাল খেমুকে। শাহরুখ খান ও আমির খানের স্ত্রীও হিন্দু। শাহরুখ খান স্ত্রী গৌরীকে নিয়ে সুদীর্ঘকাল ধরেই সুখে শান্তিতে বসবাস করছেন। আমির খান রিনা দত্তের সাথে ডিভোর্সের পরেই বিয়ে করেন পরিচালক কিরণ রাওকে। দুজনেই হিন্দু। বাংলাদেশে মুনির চৌধুরী ও কবীর চৌধুরীর বোন অভিনেত্রী ফেরদৌসী চৌধুরী রামেন্দু মজুমদারকে বিয়ে করে ফেরদৌসী মজুমদার হন। তাদের সন্তান ত্রপা মজুমদার ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যাপনা করতেন। অভিনয়ও করতেন। বর্তমানে ব্যবসার সাথে সম্পৃক্ত ও নির্মাতা। তাদের ধর্ম কি? তাদের যেমন কোন ধর্মও নাই, কোন সমস্যাও নাই। শাকিব খান ও অপু বিশ্বাস বিয়ে করেছিরেন। বাংলাদেশের চিত্রজগতে বিয়ে ও যৌনতা নিয়ে ঢাকঢাকগুড়গুড় আচরণ রয়েছে। অপু বিশ্বাস মা হলেও তা বাংলাদেশের মানুষ জানতে পারেনি। তাদের মধ্যে সম্পর্ক নষ্ট হলেই মানুষ জানতে পারে। শাকিব খান এ বিষয়ে সর্বশেষ বলেছেন, ‘ষড়যন্ত্রকারীরা তাঁর সংসার ভেঙ্গেছেন। দুজনের প্রেম-ভালবাসা থাকলে যেমন বিয়ে করার অধিকার তৈরি হয় আবার বনিবনা না হলে ডিভোর্সেরও অধিকার তৈরি হয়। একই ধর্মে বিয়ে করার পরওতো আলমগীর ও তাহসানসহ অনেকে সংসার টিকেনি। তাহসানের সাথে ডিভোর্সের পরে মিথিলা বেছে নিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের হিন্দু নির্মাতা সৃজিতকে। সমী কায়সার হিন্দু রিঙ্গোকে মুসলিম বানিয়ে বিয়ে করার পরেও সংসার টিকেনি। সংসার করার সময় যদি না-মিলে তবে তা না টেকানোইতো উচিত। সহ্য না হলে সে কষ্টকর জীবন যাপন করাইবা কেন? ভালবেসে আন্তঃধর্মে বিয়ে না-করার জন্য এগুলো অজুহাত হতে পারে না।

মন্তব্য ২৯ টি রেটিং +১/-০

মন্তব্য (২৯) মন্তব্য লিখুন

১| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:২৯

চাঁদগাজী বলেছেন:


নববর্ষের শুভেচ্ছা।

বেশীরভাগ ক্ষেত্রে, পাকভারতে ভিন্ন ধর্মের লোকদের মাঝে বিয়ে অশান্তি আনে; সম্ভব মতো ইহা থেকে দুরে থাকা দরকার।

০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:০২

মুজিব রহমান বলেছেন: সমাজ এগিয়ে নিতে এবং ভিন্ন ধর্মের প্রতি সহনশীলতা বাড়াতে খুবিই দরকার। শুভ নববর্ষ।

২| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৯:৫৮

কালো যাদুকর বলেছেন: হ্যাপী নিউ ইয়ার।

আমার মতে "মিয়া বিবি রাজী, কেয়া করেগা কাজী"। তবে যারা এরকম করেন, তাদের একটু সামাজিক অবস্থাটাও ভেবে এরকম বিবাহ করা দরকার।

অফ টপিক.... আপনি লিখেছেন ..."বারাক ওবামার ***** মুসলিম পিতার সন্তান..."। আমি এটা লিখলে এভাবে লিখতাম "বারাক ওবামার কালো মুসলিম পিতার সন্তান..."।

ভাল থাকবেন।

০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:০৩

মুজিব রহমান বলেছেন: ধন্যবাদ। নিগ্রোয়েড কথাটি লেখা আছে।

৩| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:০৫

চাঁদগাজী বলেছেন:


বারাক ওবামার বাবার বিয়ে টিকেনি; পাকভারতের বিয়ে টিকলেও শান্তি থাকের না।

০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:০৩

মুজিব রহমান বলেছেন: বহু সুখের সংসারের উদাহরণ রয়েছে।

৪| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:১০

নুরুলইসলা০৬০৪ বলেছেন: বিয়ে সারাজীবন জোর করে টিকে থাকতে হবে এই ধারনা ঠিক না। যতদিন একে অন্যকে ভাল লাগবে ততদিন একসাথে থাকবে।বিবাহ এবং বিবাহ বিচ্ছদ আইনকে আধুনিক করতে হবে।ভালবেসে যাকে খুশি তাকেই বিয়ে করা যায়।ধর্মীয় বিধি নিষেধকে মানলে সমাজ যেখানে আছে সেখানেই থেমে থাকবে।

০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:০৪

মুজিব রহমান বলেছেন: ধন্যবাদ।
আপনার দৃষ্টি দিয়েই দেখতে চাই। ভাল বলেছেন।

৫| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:২২

শাহ আজিজ বলেছেন: আমি দেখেছি ককেশিয়ান রেস খুবই অগ্রগামী এবং মেধাবী হয় ।

০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:০৫

মুজিব রহমান বলেছেন: হয়তো।

৬| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৫৫

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




বিষয়: স্কিন এবং ভিসা

প্রবাসে বাংলাদেশী সহ ভারতীয়রা বিদেশীনি বিয়ে করেন ডকুমেন্টস/ভিসা সমস্যা নিরসনের জন্য। প্রবাসে নিগ্রো বিয়ে করেছেন কজন বাংলাদেশী আছেন? নাকি নিগ্রোতে উচ্চশিক্ষিত নেই?


০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:০৬

মুজিব রহমান বলেছেন: একজন বৃটিশ বাংলাদেশি আমাজনের জংলিও বিয়ে করেছেন।

৭| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:২০

এম ডি মুসা বলেছেন: হ্যাপি নিউ ইয়ার

৮| ০১ লা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১১:২৩

ঠাকুরমাহমুদ বলেছেন:




একজন বৃটিশ বাংলাদেশী মাত্র? সাউথ আফ্রিকা সহ আফ্রিকার দেশগুলোতে বাংলাদেশী প্রচুর আাছেন, সাউথ আফ্রিকাতে বাংলাদেশী প্রবাসী বিয়ে করার ধান্ধা যারা করেন তারা হয় ভারতীয়র পেছনে দৌড়ান নয়তো হোয়াইট স্কিনের পেছনে। হোয়াইট স্কিন আর ডকুমেন্টস এর জন্য বিয়ে। এখানে ধর্ম বিষয় না। বাংলাদেশী লোকজন প্রবাসে ডকুমেন্টসের জন্য মেথর/সুইপার বিয়ে করতে দেখেছি। বাংলাদেশী ধনকুবেরের মেয়েরও বিদেশীনি মেথরের মতো হোয়াইট স্কিন হয় না। - কি বুঝলেন? এখানে ধর্ম দুর দুর পর্যন্ত সম্পর্ক নেই।

০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৩৩

মুজিব রহমান বলেছেন: বিপদে বিয়ে করে কজন।
আমরা ভালবাসার বিয়ের কথাই বলতে চাই।

৯| ০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১:০০

রাজীব নুর বলেছেন: বারাক ওবামা আর স্টীভ জবস পৃথিবীর সবচেয়ে মেধাবী মানুষ এটা মানতে পারলাম না।

০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৩৬

মুজিব রহমান বলেছেন: েমেধাবীদের দুজন বলেছি। সবচেয়ে মেধাবী দুজন বলিনি।

১০| ০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ ভোর ৬:১৩

কালো যাদুকর বলেছেন: লেখক সাহেব, ঐ শব্দটিতেই আমার আপত্তি। এখানে আরো দু বার ঐ শব্দটি ব্যবহার হতে দেখলাম। শব্দটি না ইউস করেও আমরা আলোচনা চালাতে পারি।

খুব সম্ভবত না জেনেই (পশ্চিমে এই শব্দটির ইমপেক্ট হয়ত জানা নেই) শব্দটি ব্যবহার হচ্ছে।

দুঃখিত, আমি মুল আলোচনা থেকে দুরে যেতে চাচ্ছি না।

ধন্যবাদ।

১১| ০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ৮:৫২

এমেরিকা বলেছেন: আন্তধর্ম বিয়ে নিয়ে অন্য কোন ধর্মে সমস্যা না থাকলেও ইসলাম ধর্মে আছে। সূরা বাকারার ২২১ নং, সূরা মুমতাহিনার ১০ নং আয়াতে এ বিষয়ে স্পষ্ট নির্দেশনা আছে। কেউ কুরআনের আয়াত অস্বীকার করলে সে নিঃসন্দেহে কাফের। কাজেই মুসলিম হয়ে কেউ হিন্দু বা মুশরিক কাউকে বিয়ে করলে সে নিজেই তাদের একজন হয়ে যাবে অটোমেটিক্যালি। ব্যক্তিগত জীবনে সে লোক দেখানো ধর্ম পালন করলেও তার মুসলিম পরিচয় আর থাকবেনা।

অবশ্য মিথিলা, শমী কায়সার বা ফেরদৌসী মজুমদারদের কোন ধর্ম আছে বলে আমার মনে হয়না। জাভেদ আখতার বা শাবানা আজমী, ফারহান আখতার নামগুলো মুসলিম নাম - কিন্তু এদের কারো কোন ধর্ম নেই।

০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৪০

মুজিব রহমান বলেছেন: সুরা বাকারার ১৭৪ আয়াতে স্পষ্ট বলা আছে আল্লাহর বাণি প্রচারের বিনিময়ে মূল্য গ্রহণের বিরুদ্ধে।
মানে হল-
ওয়াজে কথা বলে টাকা নেয়া হারাম
নামাজ পড়িয়ে টাকা নেয়া হারাম

মুসলিম হিসেবে সুরা আল বাকারা কি মানছেন? গাভী কি পরিত্র থাকছে?

১২| ০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ সকাল ১০:৪৬

নীল আকাশ বলেছেন: আপনার লেখা সরাসরিভাবে ইসলামের মূল নীতির সাথে সাংঘর্ষিক।
পবিত্র কুরআন শরীফে দেয়া আছেঃ
‘... মুমিন সতীসাধ্বী নারী ও আহলে কিতাবের সতীসাধ্বী নারী তোমাদের জন্য বৈধ করা হলো...।’ (সূরা : মায়েদা, আয়াত : ৫)।
‘হে মুমিনরা! যখন তোমাদের কাছে মুমিন নারীরা হিজরত করে আসে, তখন তোমরা তাদের পরীক্ষা করে নাও, তাদের ঈমান সম্পর্কে আল্লাহই ভালো জানেন। অত:পর যদি তাদের মুমিন বলে জানতে পারো, তাহলে তাদের কাফিরদের কাছে ফিরিয়ে দিয়ো না। মুমিন নারীরা কাফিরদের জন্য হালাল নয়। আর কাফিররাও তাদের জন্য হালাল নয়...।’ (সূরা : মুমতাহিনা, আয়াত : ১০)।
‘...তোমরা কাফির নারীদের সঙ্গে দাম্পত্য সম্পর্ক বজায় রেখো না...।’ (সূরা : মুমতাহিনা, আয়াত : ১০)

আপনি কি কুরআন শরীফের এই আয়াতগুলির কথা জানেন?

০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৪২

মুজিব রহমান বলেছেন: পৃথিবীর কোন দেশই কোরআনের আইনে চলে না, চলছে না, চলবেও না।

১৩| ০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ বিকাল ৫:৪২

রাজীব নুর বলেছেন: আপনার পোষ্ট আমার ভালো লাগে। আপনার চিন্তা ভাবনা আধুনিক।

০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৪৩

মুজিব রহমান বলেছেন: বাকস্বাধীনতা নেই বলে যা ভাবি তা প্রকাশ করতে পারি না। আংশিক বলা যায় বোরকা পরিয়ে।

১৪| ০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৩৫

সোহানী বলেছেন: বিয়ে সম্পূর্ণ দু'জন ব্যাক্তির উপর নির্ভর করে। সেখানে কোন কিছু বাধাঁ হতে পারে না। না ধর্ম, না সমাজ, না পরিবার....। আমার বন্ধু-বান্ধব আত্বীয়ের মাঝেও ভিন্নধর্ম বা ভিন্ন কালচারের আছে এবং তারা খুবই ভালো আছে।

১৫| ০২ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ১০:৩৭

রানার ব্লগ বলেছেন: লাভ জিহাদ মিহাদ এই গুলা মোদির রাজনৈতিক প্রপাগন্ডা। এই গুলা করে সে তার দলের কিছু উন্মাদকে শান্ত রাখে। পৃথিবীতে যতগুলা ধর্ম ভিত্তিক দল আছে সবগুলার নেতা থেকে শুরু করে নিম্নস্তরের কর্মি পর্যন্ত নব্বই শতাংশ উন্মাদ।

০৩ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:০৯

মুজিব রহমান বলেছেন: ধর্মান্ধতা ও মৌলবাদ এমনই। তারা মিথ্যা বলেই মানুষকে বিভ্রান্ত করে।

১৬| ০৩ রা জানুয়ারি, ২০২১ দুপুর ১২:২৮

এমেরিকা বলেছেন: যারা ওয়াজ করছে, তারা আল্লাহ্‌র বাণী প্রচার করছেনা - তারা মানুষকে এক ধরণের বিনোদন দিচ্ছে। আর যদি মনে করেন প্রচারই করছে, তাহলে অসুবিধা কি? যাদের কাছে প্রচার করছে, তাদের কাছ থেকে তো বিনিময় মূল্য নিচ্ছেনা। নিচ্ছে ওয়াজ কমিটির কাছ থেকে। ওয়াজ কমিটি তার মূল্যবান সময়ের দাম দিচ্ছে।

অন্যভাবে বলতে গেলে ওয়াজের নামে ফান্ড কালেকশন করে একটা কমিশন নেয়। সূরা বাকারার ১৭৪ নং আয়াত কোনভাবেই এখানে কার্যকর না।

০৩ রা জানুয়ারি, ২০২১ রাত ৮:১০

মুজিব রহমান বলেছেন: এটা আপনার মতামত। আপনারা সুবিধার জন্য আল্লাহর সাথে নিয়মিতই মশকরা করে আসছেন। মনে করেন আল্লাহতো কিছুই বুঝে না, আমরা যা বুঝ দিবো। কোরানে স্পষ্ট বলা আছে।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.