নির্বাচিত পোস্ট | লগইন | রেজিস্ট্রেশন করুন | রিফ্রেস

আপাতত নিজের চরকায় তেল দেওয়ার কাজে ব্যস্ত আছি।

ইসিয়াক

মন মোর মেঘের ও সঙ্গী , উড়ে চলে দিগ দিগন্তের ও পানে....

ইসিয়াক › বিস্তারিত পোস্টঃ

রম্য অনু গল্পঃ লুঙ্গি সমাচার (২)

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ সকাল ১১:৫৮

রম্য অনু গল্পঃ লুঙ্গী সমাচার


আজ দিনটা শুক্রবার। সুলেখা শুক্রবারের দিন দুপুরের একটু আগে নিয়ম করে নিয়াজকে নিয়ে বাবা মায়ের সাথে দেখা করতে যায় এবং দুপুরের খাওয়াটা সেখানেই সারে সেজন্য গুছিয়ে নিতে হয় বলে সকাল সকাল কাজের তাড়া থাকে। সে কিচেনে ময়দা মাখছে লুচি করবে বলে। এমন সময় নিয়াজ ডাকাডাকি শুরু করলো....
-সুলেখা ও সু.... লেখা..
সুলেখা ইষৎ বিরক্ত হয়। লোকটি দিন যত যাচ্ছে তত যেন তাকে চোখে হারাচ্ছে। স্বামীর এমন প্রেম সে উপভোগই করে তবে কাজের সময় যখন তখন প্রেম পেলে কার না বিরক্ত লাগে?
সুলেখা হাতের ময়দাগুলো ছাড়িয়ে হাতটা ভালো করে ধুয়ে আঁচলে মুছতে মুছতে একটু বিরক্ত হয়েই বলল
-আচ্ছা! সকাল সকাল কি হলো কি? কি শুরু করলে।গাই গরুর মত হাম্বা, হাম্বা হাম্বা করেই যাচ্ছো। ডাক এলো না-কি তোমার ?
-কি হচ্ছে কি! এসব কি ভাষা? কি আবোল তাবোল বল তুমি?
-যা বলি ব্যকরণ মেনেই বলি এড়ে গরু তোমাকে বলি কিভাবে?এড়ে গরু তো আর হাম্বা, হাম্বা করে না, করে তো ফোঁস ফোঁস । তাই ডাক এসেছে কি না জানতে চাইলাম।
- তোমার কিন্তু আজকাল কথাবার্তা খুব খারাপ হয়ে যাচ্ছে ।
- হলে হচ্ছে, সত্যি কথা সবার সহ্য হয় না সেটা আমি জানি।
- দেখ ভালো হবে না বলছি। আমি কিন্তু আমি কিন্তু.....
- কিছু কি খারাপ বলেছি?মিথ্যে কিছু বলেছি? নিজেকে প্রশ্ন করে দেখো।
- সকাল সকাল ঝগড়া করার মুডে আছো মনে হচ্ছে।
- আমি কি তোমার কাছে এসেছি? না তুমি আমায় ভ্যা ভ্যা করে ডেকেছো?
- তোমাকে ডেকেছি বলে কি লাগাতে হবে?
- লাগাতে হবে! হাউ ফানি!এখন দেখি তোমার ভাষার অবস্থা খারাপ একটু ভদ্র ভাষায় কথা বলো। ছি! নাকি তোমার কাছ থেকে এটুকু এখন আর আসা করা যায় না।
- আমাকে কেন জানি তুমি আর সহ্য করতে পারো না। সামনে ঘোরো কিন্তু কাছে আসো না।সব সময় কথা বলো চ্যাটাঙ চ্যাটাঙ করে। আমার প্রতি কথায় তোমার কাছে তেতো লাগে।
- অনেক অভিযোগ দেখছি ।
- সত্যি বললে অভিযোগ হয়ে যায়।আমার ধারণা...
-বলো চুপ করলে কেন? কি বলবে বলে ফেলো। যা বলার স্পষ্ট করে বলা ই ভালো।
- তুমি ঠিক অন্য ডালে বাসা বাঁধছো
-তুমি নিশ্চিত?
-হ্যাঁ
-তুমি নিশ্চিত?
-হ্যাঁ
-ঠাঠা পড়ুক সেই ডালে। যাগ গে যাগ গে ওসব বাদ দাও।আমার রাজ্যের কাজ পড়ে আছে।তোমার সাথে বক বক করার টাইম নাই। তুমি সন্দেহের আগুনে পুড়ে নিজেই জ্বলবা আমার কি। ডেকেছো কেন?
- আমার প্যান্টটা খুঁজে পাচ্ছি না।
- প্যান্ট খুঁজে পাচ্ছি না মানে কি? ঘুমানোর সময় তো দেখলাম ঠিক ঠাক পরে আছো। কেউ খুলে নিযে গেল নাকি? এমন আশ্চর‌্য কথা তো জীবনেও শুনিনি।
- আরে ঠিক ঠাক পরে তো ঘুমিয়ে ছিলাম।কিন্তু......
- কিন্তু কি?
- ওই যে ভোর রাতে গরমটা বেশি লাগছিল তাই খুলে টুলে চাদর গায়ে দিয়ে শুয়ে ছিলাম।
- আ মলো যা! গরম তোমার ই লাগে।
- আস্তে পাশের ফ্ল্যাটের ওই ভাবি কিচেনের জানলায়, শুনছে মনে হয় আমাদের কথা।
- শোনে শুনুক তোমার কীর্তি, কত দিন বলেছি ওসব হাফ ফ্যান্ট পরে শুয়ো না তো ।কে শোনে কার কথা!কত দিন কত সমস্যা হয়েছে তুমিই বলো। ঠিক সময় খোলাখুলি ঝামেলা।যাও বা খোলে অন্ধকারে ঠিক মত খুঁজে পাওয়া যায় না। সেদিন রাতে চোর ধরা পড়লো আর তুমি হিতাহিত জ্ঞান শূন্য হয়ে দিগম্বর অবস্থায় চলে গেলে লোকের মধ্যে।নিশ্চয় প্যান্ট খুঁজে পাওনি ঠিক সময়ে। তুমি চোর চোর বলে দৌড়াচ্ছো আর আমি তোমার পিছন পিছন প্যান্ট পরো প্যান্ট পরো বলে দৌড়াচ্ছি। আচ্ছা আমার সাহায্য ছাড়া কোন কাজটা ঠিক মত পারো বল তো! কত বার বলেছি লুঙ্গি পরো লুঙ্গি পরো। লুঙ্গি পরা প্রাকটিস করো।যদি আমার কথা শুনতে তাহলে অনন্ত এই লজ্জায় পড়তে হতো না।
- লুঙ্গি পরে শুলে তো আমার লুঙ্গি উপরে উঠে যায়।তখন আরেক ঝামেলা।
- আসলে তোমার হুশ বোধ সব সময় কম। কম কথা শুনতে হয় না এজন্য আমার!ঘুমালে সাহেব একেবারে ঘাটের মড়া! না হলে বিয়ের সাত দিনের মাথায় শ্বশুর বাড়িতে কেউ অমন মশারি উদোম করে হেড লাইট জ্বালিয়ে ঘুমিয়ে থাকে।
- আরে সেজন্য তো! ওই ঘটনার পর থেকে লুঙ্গি আমার দুচোখের বিষ।
- রুমকির সাথে সেই থেকে আর আমি মুখ উঁচু করে কথা বলতে পারি না। আগে কত সমীহ করতো আমাকে কোন কিছু বলার আগে দুবার ভাবতো আর এখন আমায় দেখলে শুধু মুখ টিপে হাসে । সব তোমার জন্য। আমার মান সম্মান আর রইলো না কোথাও।
বলেই অকষ্মাৎ সুলেখা কাঁদতে লাগলো।
- আরে আরে কাঁদবার কি হলো। অন্য কেউ তো দেখেনি । শালিকা বলে কথা, না হয় একটু....
সুলেখা চোখ মুখ পাকিয়ে দাঁত মুখ খিচিয়ে বলল
-চুপ একদম চুপ! তোমার বনের রাজার টারজান ইমেজ আজ আমি ভাঙছি। বেহায়া পুরুষমানুষ কোথাকার... বলেই চাদর ধরে দিলো এক টান।....।
© রফিকুল ইসলাম ইসিয়াক


মন্তব্য ১৮ টি রেটিং +৩/-০

মন্তব্য (১৮) মন্তব্য লিখুন

১| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ দুপুর ১২:০৯

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: পড়বাম ইনশাআল্লাহ।

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ রাত ৮:৩০

ইসিয়াক বলেছেন: অনেক ধন্যবাদ আপু। লাইক কমেন্ট আর মন্তব্যে কৃতজ্ঞতা জানবেন। এই রম্য গল্পটা কয়েকদিন আগে লেখা। পোস্ট দেবো কি দেবো না এই নিয়ে দ্বিধায় ছিলাম। আরও অনেক গল্প লেখা আছে। দুয়েকদিনের মধ্যে আরেকটা সামাজিক গল্প পোস্ট দেবো। আশা করি পড়বেন।
শুভকামনা রইল।

২| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ দুপুর ১২:১৪

আহমেদ জী এস বলেছেন: ইসিয়াক,





হা.... হা....হা.... =p~

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ রাত ৮:৩৩

ইসিয়াক বলেছেন: শ্রদ্ধেয় ব্লগার

গল্পটি পড়ে আপনার হা হা হা রিয়্যাক্ট আমার জন্য পরম পাওয়া। আপনাদের ভালো লাগা আমার লেখা অনুপ্রেরণা।

কৃতজ্ঞতা জানবেন।
শুভকামনা রইল।

৩| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ দুপুর ১:১৫

মনিরা সুলতানা বলেছেন: ভাষা তো কলকাতা ঘেঁষা !
যাইহোক কার যে কার চোখে কখন পতন হয় বোঝা যায় না ।

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ রাত ৮:৩৬

ইসিয়াক বলেছেন: হা হা হা আমি তো কলকাতার কাছাকাছি ই থাকি তাই হয়তো ভাষাও ওদের মত। আর কলকাতার লেখকের প্রতি আমার কেন জানি পক্ষপাতিত্ত্ব বেশি।সেটাও একটা কারণ হতে পারে।

শুভকামনা রইল আপু।

৪| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ দুপুর ১:৩৫

মোহামমদ কামরুজজামান বলেছেন: আহা !!!! B-)) " বনের রাজা টারজান হেডলাইট জালিয়ে পাহাড়ের পাদদেশে ঘুমিয়ে আছে " আর সেই পথে যাওয়ার সময় শালিকার দর্শন - আহা -বেশ বেশ বেশ।

এ বড়ই মজাদার দৃশ্য । সবার ইরকম দৃশ্য দেখার সৌভাগ্য হয়না । জয়তু ;) শালিকা,জয়তু টারজান ।

০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ রাত ৯:০৭

ইসিয়াক বলেছেন: সরস মন্তব্যে দারুণ ভালো লাগা জানবেন প্রিয় ব্লগার।
শুভকামনা রইল। ভালো থাকুন সবসময়।

৫| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ দুপুর ২:২৬

কাজী ফাতেমা ছবি বলেছেন: ইয়া মাবুদ ইসিয়াক ভাই আপনি মিয়া ইতা কিতা লিখছেন

ভুয়া ভাই দেখলে দৌড় মারবো হাহাহাহাহাহাহ

হাহাহাহাহা

০৫ ই অক্টোবর, ২০২১ সকাল ১০:০৫

ইসিয়াক বলেছেন:



হা হা হা ভুয়া ভাই ডরাইছে ...।

৬| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ বিকাল ৪:৩৫

জুল ভার্ন বলেছেন: হাসতে হাসতে শেষ!

০৫ ই অক্টোবর, ২০২১ সকাল ১০:০৫

ইসিয়াক বলেছেন:



সাথে থাকার জন্য অশেষ কৃতজ্ঞতা রইলো প্রিয় ব্লগার।

শুভকামনা জানবেন।

৭| ০৪ ঠা অক্টোবর, ২০২১ সন্ধ্যা ৬:৩৪

শাহ আজিজ বলেছেন: --------- হেডলাইট ----লাগাবো :P

০৫ ই অক্টোবর, ২০২১ সকাল ১০:০৬

ইসিয়াক বলেছেন:




হা হা হা ...।
ভালো থাকুন সবসময়।

৮| ০৫ ই অক্টোবর, ২০২১ রাত ১১:২০

রাজীব নুর বলেছেন: আজকাল আমার কোন কিছুতেই হাসি পায় না।

০৬ ই অক্টোবর, ২০২১ রাত ৯:৩২

ইসিয়াক বলেছেন: জোর করে হলেও হাসবার চেষ্টা করুন। এই বয়সে গোমড়ামুখো হলে তো মানসিক সমস্যা দেখা দেবে। পাগলও হয়ে যেতে পারেন। দেখা গেল এলিফ্যান্ট রোডের মোড়ে দাড়িয়ে নিরন্তর বলে চলেছেন তুই কে? তুই কে? তুই কে? হা হা হা
মজা করলাম।

৯| ১৯ শে অক্টোবর, ২০২১ রাত ১১:২৭

খায়রুল আহসান বলেছেন: মশারি উদোম করে 'হেডলাইট' জ্বালিয়ে ঘুমিয়ে থাকার ব্যাপারটা পড়ে বেশ হাসলাম।

২০ শে অক্টোবর, ২০২১ সকাল ১১:৫২

ইসিয়াক বলেছেন:




হা হা হা ..... প্রিয় ব্লগার।

ভালো থাকুন সবসময়। শুভকামনা রইলো।

আপনার মন্তব্য লিখুনঃ

মন্তব্য করতে লগ ইন করুন

আলোচিত ব্লগ


full version

©somewhere in net ltd.